খুলনায় স্কুলছাত্রীর আত্মহত্যা প্ররোচনার অভিযোগে প্রেমিক রাজ বিশ্বাসের বিরুদ্ধে মামলা

134
Spread the love


স্টাফ রিপোর্টার।।
চার্চ অফ দ্য নাজারেন ইন্টারন্যাশনাল-বাংলাদেশ দক্ষিণ জেলার হিসাবরক্ষক রাজ বিশ্বাসের লালসার শিকার স্কুলছাত্রী সাথী আক্তারের আত্মহত্যা প্ররোচনার অভিযোগে ৫দিনের মাথায় মামলা হয়েছে কেএমপির হরিনটানা থানায়। স্কুলছাত্রী সাথীর বাবা ইউসুফ শেখ বাদী হয়ে বৃহস্পতিবার মামলা দায়ের করেছেন। মামলা নং ৪ । পুলিশ জানিয়েছে রাজ বিশ্বাসের সাথে স্কুল ছাত্রী সাথীর প্রেমজ সম্পর্ক ছিলো রাজ খৃষ্টান আর সাথী মুসলিম হওয়ায় সম্পর্কে প্রথমে রাজি হয়নি সাথী কিন্তু কৌশলে সাথীর সাথে সম্পর্ক গড়ে রাজ এক সময়ে তাদের সম্পর্ক ঘনিষ্ঠতায় রুপ নেয়। শারীরিক সম্পর্কে গড়ালে সাথী রাজকে বিয়ের প্রস্তাব দিলে রাজ তাকে বেধড়ক মারপিট করে।

যার বর্ননা দিয়েছে সাথী তার ফেসবুক ওয়ালে। মৃত্যুর তিনদিন আগে সাথী আক্তার তার ফেসবুক ওয়ালে লিখেছিলো “আহা শখের পুরুষ, তুমি যে পরিমাণ খেলা দেখাইলা, সে খেলায় মির্জাফরও ফেল__ ” আর ১৪ জুন লিখেছিলো “আমারে দেখিবার আইসো শেষ জানাযার আগে যেন পরকালে তোমায় দেখার একটু স্বাদ না জাগে…!” এর আগে ৩ জুন লিখেছে “আমি তোমাকে ভিষন ভালো বাসি,,,আর শুধু এই জন্ম না প্রিয় আমি যত বার জন্ম নিব ততবার তোমার প্রেমে পরতে চাই,, তুমি সেই পুরুষ যে আমাকে খুব করে আগলে রাখো,,, হয়তো মাঝে মাঝে একটু বেশিই মারো কিন্তু তার পর ও তো তুমি আমাকে ভালো বাসো R ”।


প্রেমিক রাজ বিশ্বাসের প্রতারনার শিকার স্কুলছাত্রী সাথী আক্তারের পিতা ইউসুফ শেখ বলেন, হরিনটানা থানায় তার মেয়ের আত্মহত্যার বিষয়টি নিয়ে প্রাথমিকভাবে অপমৃত্যু মামলা রেকর্ড হয়েছে। পুলিশের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে তদন্ত সাপেক্ষে মামলা দায়ের হবে। বৃহস্পতিবার হত্যা প্ররোচনার মামলা দায়ের করা হয়েছে। তিনি আরো জানান, আমরা রাজের দৃষ্টান্তমুলক বিচার দাবি করছি।


উল্লেখ্য, গত শনিবার (১৫ জুন) রাত সাড়ে ১১টা থেকে ১২টার মধ্যে যে কোন সময়ে সে প্রেমিক রাজকে ভিডিও কলে রেখে সে গলায় ফাঁস লাগিয়ে মৃত্যুবরন করে স্কুল ছাত্রী সাথী আক্তার।