খুশকিমুক্ত চুল পেতে চাইলে

9
Spread the love


মিলি রহমান।।

খুশকি হলো মাথার ত্বকের মরা কোষ। মানব শরীর থেকে এমন মরা কোষ ঝরে পড়তে থাকে। তবে তা খালি চোখে দেখা যায় না। অন্যদিকে মাথার ত্বকে প্রতিনিয়তই নতুন নতুন কোষ তৈরি হয়। পুরনো কোষ ঝরে পড়ে। একে একটি প্রাকৃতিক চক্রও বলা চলে। কিন্তু সমস্যা তখনই হয়, যখন এই মরা কোষ ঝরে পড়ার পরিমাণ বেড়ে যায়। একে বলে খুশকির সমস্যা।

যাদের ত্বক শুষ্ক, তারা একটু বেশিই খুশকির সমস্যায় ভোগেন। খুশকি পুরোপুরি নির্মূল করা কঠিন। এ সময় মাথার ত্বকের স্বাস্থ্য ভালো রাখাই উপযুক্ত দাওয়াই। এতে কার্যকর ফলাফলও পাওয়া যাবে।

নিয়মিত শ্যাম্পু করা
মাথার ত্বক পরিষ্কার করতে চাই শ্যাম্পু। কিন্তু প্রাকৃতিক উপায়ে পরিষ্কার করতে পারলে ভালো ফল পাওয়া যাবে। কুসুম গরম পানিতে সারা রাত রিঠা ভিজিয়ে রেখে সকালে সেই পানি দিয়ে চুল পরিষ্কার করে নিতে পারেন।

আধা কাপ মৌরি ও ১ কাপের তিন ভাগের এক ভাগ মেথি সারা রাত পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। পরে মৌরি ও মেথির ঘন মিশ্রণ তৈরি করে নিন। এতে দিন সামান্য মেথি ও মৌরি ভেজানো পানি। মিশ্রণটি মাথার ত্বকে ব্যবহার করে ৩০ মিনিট পর শ্যাম্পু করে নিলে খুশকি অনেকটাই কমবে।

চুল আঁচড়ালে কমবে খুশকি

চুল আঁচড়ানোর সঙ্গে খুশকি কমার সম্পর্ক আছে। কিন্তু নিয়ম হতে হবে সঠিক। মাথা নিচু করে সব চুল উপুড় করে সামনে নিয়ে আসুন। এবার চিরুনি দিয়ে ঘাড়ের দিক থেকে চুল আঁচড়ে কপালের দিকে আনুন। এতে খুশকি কমে আসবে অনেকটাই।