সারা খুলনা অঞ্চল ও আশপাশের সব খবরা খবর

13
ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা মাদ্রাসাছাত্রীর (১৪) গর্ভপাতের ঘটনায় মিজানুর রহমান (৩৩) নামে এক ব্যক্তিকে আটক করে পুলিশে দিয়েছেন এলাকাবাসী
Spread the love

রূপসায় নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার প্রতিবাদে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান এস এম হাবিবের পাল্টা সংবাদ সম্মেলন
স্টাফ রিপোর্টার
রূপসায় গত ৫ জুন অনুষ্ঠিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচন পরবর্তী পরাজিত প্রার্থীর মিথ্যা তথ্য দেওয়ার প্রতিবাদে নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান এস এম হাবিবের পক্ষে সংবাদ সম্মেলন গত ১০ জুন বেলা ১১ টায় খুলনা প্রেসক্লাবে অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতা ও পরাজিত প্রার্থীর সংবাদ সম্মেলনের মাধ্যমে মিথ্যা তথ্য প্রদান করার প্রতিবাদে পাল্টা এ সংবাদ সম্মেলন করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন রূপসা উপজেলা পরিষদের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান এস এম হাবিব। উক্ত সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন খুলনা জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোঃ কামরুজ্জামান জামাল, সদস্য ফ.ম আব্দুস সালাম, শিউলি সারওয়ার, রূপসা উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মোঃ আরিফুর রহমান মোল্লা, মোরশেদুল আলম বাবু, যুগ্ম- সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক শ্যামল দাস, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সরদার আবুল কাশেম ডাবলু ,খুলনা জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক যুগ্ন- আহবায়ক মোঃ মোতালেব হোসেন, নৈহাটি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ মোস্তাফিজুর রহমান মোস্তাক, সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ কামাল হোসেন বুলবুল, ইউপি চেয়ারম্যান সরদার ওয়াহিদুজ্জামান মিজান, শ্রীফলতলা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সরদার মিজানুর রহমান, রূপসা উপজেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আক্তার ফারুক, টিএসবি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বিনয় কৃষ্ণ হালদার, আইচগাতি ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্য আরিফুজ্জামান মিঠু, আনিসুজ্জামান মিঠু, ইউপি সদস্য মাহফুজুর রহমান মাহফুজ, আলমগীর হোসেন শ্রাবণ, রেবেকা বেগম, আওয়ামী লীগ নেতা মোঃ ফরিদ শেখ, মোঃ বেনজীর হোসেন, মোল্লা মনিরুল ইসলাম, মামুন সেখ, যুবলীগ নেতা শামসুল আলম বাবু, সর্দার জসিম উদ্দিন, মোঃ রবিউল ইসলাম, খাইরুজ্জামান সজল প্রমুখ।

ডুমুরিয়ায় গলায় রশি দিয়ে বৃদ্ধার আত্মহত্যা
ডুমুরিয়া প্রতিনিধি
ডুমুরিয়ায় ছেলের উপর অভিমান করে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে শান্তি মন্ডল নামে ষাটোর্ধ্ব এক বৃদ্ধা। রবিবার দিবাগত রাতে উপজেলার বসুন্দিয়া ডাঙ্গা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও ¯’ানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার সাহস ইউনিয়নের বসুন্দিয়া ডাঙ্গা এলাকার দুলাল চন্দ্র মন্ডলের স্ত্রী শান্তি মন্ডল (৬৪) দীর্ঘদিন নানা অসুখে আক্রান্ত ছিলেন। ঘটনার দিন তার ছেলে ওষুধ কিনে না দেয়ায় ওই রাতেই বাড়ির পাশে একটা সাড়া গাছে গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করে। পরিবারের সদস্যরা খোঁজাখুঁজির পর গাছে ঝুলতে দেখে পুলিশে খবর দেয়। ঘটনা প্রসঙ্গে ওসি সুকান্ত সাহা জানান, খবর পেয়ে ঘটনা¯’লে গিয়ে মৃতদেহ উদ্ধার করে লাশ মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে এবং থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।

খর্ণিয়া ইউনিয়ন বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক দল থেকে স্বে”ছায় পদত্যাগের আবেদন
ডুমুরিয়া প্রতিনিধি
ডুমুরিয়ায় খর্ণিয়া ইউনিয়ন বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক দল থেকে স্বে”ছায় পদত্যাগ পত্র জমা দিয়েছেন। গতকাল ১০ জুন তারিখে উপজেলা বিএনপির ৪৩নং সদস্য ও খর্ণিয়া ইউনিয়ন বিএনপির ১ম যুগ্ম আহ্বায়ক আবুল হোসেন সরদার স্বাক্ষরিত এক আবেদন পত্রে উল্লেখ করা হয়েছে দীর্ঘদিন তিনি বিএনপির রাজনীতির সাথে যুক্ত ছিলেন। কিš‘ ব্যক্তিগত সমস্যা ও কিছু মানুষের আদর্শগত কারণে ওই পদ থেকে অব্যাহতি চেয়ে উপজেলা বিএনপির সভাপতি/আহ্বায়ক নিকট এ আবেদন পত্র জমা দিয়েছেন।

শ্যামনগরে ক্ষুদ্র ব্যবসায়িদের দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ ও উপকরন সহায়তা বিষয়ক প্রশিক্ষণ
শ্যামনগর (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি
শ্যামনগরের মুন্সীগঞ্জে বে-সরকারি উন্নয়ন সংস্থা সিসিডিবি এর কার্যালয়ে গাবুরা এবং বুড়িগোয়ালিনী ইউনিয়নের বিশ জন সুবিধাভোগীদের (নারী-৫ ও পুরুষ-১৫) মধ্যে ক্ষৃদ্র ব্যবসা পরিচালনায় দক্ষতা উন্নয়ন প্রশিক্ষণ এবং উপকরণ সহায়তা বিষয়ক প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয় এবং পরবর্তিতে তাদের উপকরণ সহায়তা প্রদান করা হবে বলে নিশ্চয়তা প্রদান করা হয়।

১০ জুন সোমবার সকাল ১০:০০ টায় খ্রীষ্টিয়ান কমিশন ফর ডেভেলপমেন্ট ইন বাংলাদেশ (সিসিডিবি), বাংলাদেশের দুর্যোগ ঝুঁকিপূর্ণ জনগোষ্ঠীর জন্য প্রস্তুতি শক্তিশালীকরণ এবং অবকাঠামো নির্মান প্রকল্প (স্টেপ এন্ড বিল্ড-ইন প্রকল্প) এর সহযোগিতায় এ প্রশিক্ষণের শুভ উদ্বোধন করেন উপ-সহকারী যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা আহসান হাবিব এবং তিনি উক্ত প্রশিক্ষণটি সহায়ক হিসেবে পরিচালনা করেন । আরও উপস্থিত ছিলেন উক্ত প্রকল্পের প্রকল্প ব্যাবস্থাপক এস এম মনোয়ার হোসেন, মনিটরিং এন্ড ইভালুয়াশন ম্যানেজার মোঃ রোবায়েদ করিম, এবং সহযোগিতা প্রদান করেন ফিল্ড সুপারভাইজার এবং ক্যাপাসিটি বিল্ডিং অফিসার আবুল হাশেম মিয়া, ও অন্যান্য মাঠ সংগঠক প্রমুখ।

প্রধান অতিথি বলেন, “প্রান্তিক ক্ষুদ্র ব্যাবসায়িদের দক্ষতা উন্নয়নে সিসিডিবি প্রশিক্ষণ দিয়েছে । প্রশিক্ষণ পরবর্তিতে তাদের উপকরণ সহায়তা প্রদান করা হবে । আমি আসা করি এই সাপোর্টের মাধ্যমে তাদের জীবন মান উন্নয়ন হবে। এজন্য সিসিডিবিকে ধন্যবাদ”

প্রশিক্ষাণার্থীরা এই প্রশিক্ষণের মাধ্যমে নিজ নিজ পরিসরে ক্ষুদ্র ব্যবসায় উন্নয়নের মাধ্যমে তাদের জীবন মানের পরিবর্তন করতে পারবে বলে তাদের অভিব্যক্তি প্রকাশ করেন।

কালিগঞ্জে দুর্নীতি বিরোধী র্যালি ও বিতর্ক প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করা হয়েছে
কালিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
গণসচেতনতা সৃষ্টি ও সততা চর্চায় শিক্ষার্থীদের উদ্বুদ্ধ করার লক্ষ্যে দুর্নীতি দমন কমিশন সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে খুলনা’র উদ্যোগে এবং কালিগঞ্জ উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি’র আয়োজনে মাধ্যমিক বিদ্যালয় পর্যায়ে বিতর্ক প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করা হয়েছে। সোমবার (১০ জুন) সকাল সাড়ে ৯টায় উপজেলা পরিষদের অডিটোরিয়ামে ও উপজেলা অফিসার্স কল্যাণ ক্লাবে পৃথকভাবে বিতর্ক প্রতিযোগিতার উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হয়। প্রথম পর্বে বিতর্কের বিষয়ে ছিল “সামাজিক আন্দোলনে দুর্নীতিমুক্ত সমাজ গঠনের একমাত্র উপায়” বিতর্ক প্রতিযোগিতার ফলাফল ঘোষণায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা দীপঙ্কর দাস দীপু। উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি ও উন্নয়ন সংস্থা সুশীলনের পরিচালক মোস্তফা আখতারুজ্জামান পল্টু’র সভাপতিত্বে প্রতিযোগিতায় বিচারক ছিলেন কালিগঞ্জ সরকারি কলেজের অধ্যাপক, (অবঃ) বিশিষ্ট সাহিত্যিক গাজী আজিজুর রহমান ও একই কলেজের অধ্যাপক (অবঃ) শ্যামাপদ দাশ, সখিপুর খান বাহাদুর আহসানউল্লাহ সরকারি কলেজের অধ্যাপক (অবঃ) হারুন উর রশিদ, উপজেলা লেডিস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদিকা ইলাদেবী মল্লিক, রোকেয়া মুনসুর মহিলা কলেজের সহকারী অধ্যাপক দেবব্রত মিস্ত্রি ও শিক্ষিকা সোমা বিশ্বাস। মডারেটর হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন এ্যাডঃ জাফরুল্লাহ ইব্রাহিম ও কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সুকুমার দাশ বাচ্চু। অনুষ্ঠানে সহযোগী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সৈয়দ মাহমুদুর রহমান, কণিকা সরকার, মাওঃ আশরাফুল ইসলাম, কৃষ্ণা কর্মকার প্রমুখ। অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করেণ কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি শেখ সাইফুল বারী সফু, যুগ্ম সম্পাদক এম হাফিজুর রহমান শিমুল, তথ্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক এস এম আহম্মদ উল্লাহ বাচ্ছু, মিলনী হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক সুব্রত কুমার বৈদ, কারবালা হাইস্কুলের প্রধান শিক্ষক গাজী মিজানুর রহমান, সরকারী কালিগঞ্জ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সিনিঃ শিক্ষক জিএম আবু হাসান আব্দুল্লাহ প্রমুখ। ১২ জুন বুধবার সকাল ৯টায উপজেলায় বিতর্ক প্রতিযোগিতার কোয়ার্টার ফাইনাল, সেমিফাইনাল ও চূড়ান্ত পর্বের বিতর্ক প্রতিযোগিতা শেষে মতবিনিময় সভা, রচনা ও বিতর্ক প্রতিযোগিতার সমাপনী পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হবে। এ বিতর্কে কালিগঞ্জ উপজেলার ১৬টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের চৌকস শিক্ষার্থীরা বিতর্কে অংশ গ্রহন করে।

কালিগঞ্জ পাইলট বালিকা বিদ্যালয়ে বিদ্যুৎসাহী সদস্য নির্বাচিত হলেন সাইফুল বারী সফু
কালিগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
সাতক্ষীরার কালিগঞ্জ পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের বিদ্যুৎসাহী সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন কালিগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি প্রথিতযশা সাংবাদিক শেখ সাইফুল বারী সফু। সোমবার(১০ জুন) বেলা ১১ টায় পাইলট বালিকা বিদ্যালয়ের হলরুমে ম্যানেজিং কমিটির সভা উপজেলা পরিষদের সাবেক ভাইচ চেয়ারম্যান, উপজেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি শেখ নাজিমুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব ও প্রধান শিক্ষক রবিন্দ্রনাথ বাছাড় এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত হয়েছে। এসভায় উপস্থিত সকলের সম্মতিক্রমে বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় শেখ সাইফুল বারী সফু বিদ্যুৎসাহী সদস্য নির্বাচিত হন। এসময়ে সভায় উপস্থিত ছিলেন দাতা সদস্য শাকির আহমেদ, অভিভাবক সদস্য বিশ্বজিৎ দাশ, অভিভাবক সদস্য সিদ্দিকুল ইসলাম, অভিভাবক সদস্য শেখ নাজিম উদ্দীন, অভিভাবক সদস্য সুকুমার ঘোষ, সাধারণ শিক্ষক সদস্য নিত্যনন্দ সরকার ও তপন কুমার ঘোষ,সংরক্ষিত মহিলা সদস্য সাবিনা পারভীন ও সংরক্ষিত মহিলা শিক্ষক সদস্য রওশানারা খাতুন। সভাশেষে নব নির্বাচিত বিদ্যুৎসাহী সদস্য শেখ সাইফুল বারী সফু’র উপস্থিতিতে ফুলেল শুভেচছা বিনিময় ও মিষ্টি বিতরণ করা হয়। উল্লেখ্য যে, শেখ সাইফুল বারী সফু উপজেলার রোকেয়া মনসুর মহিলা কলেজ, হাজী তফিল উদ্দীন মহিলা দাখিল মাদ্রাসা ও উপজেলা ল্যারেটরী স্কুলে দীর্ঘদিন যাবত বিদ্যুৎসাহী পদে থেকে শিক্ষা ক্ষেত্রে বিশেষ অবদান রেখে আসছেন।

উজ্জ্বল শেখের মুক্তির দাবিতে শত শত নারী-পুরুষের অংশগ্রহণে মানববন্ধন
মোঃ তাহের, নড়াইল প্রতিনিধিঃ
নড়াইলে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান উজ্জ্বল শেখের মুক্তির দাবিতে শত শত নারী-পুরুষের অংশগ্রহণে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার বেলা ১১টার দিকে নড়াইল আদালত সড়কে সদর উপজেলার সিংগাশোলপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান, গোবরা বাজার কমিটির সভাপতি উজ্জ্বল শেখের মুক্তির দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। ‘মুক্তি চাই, মুক্তি চাই উজ্জ্বল চেয়ারম্যানের মুক্তি চাই’ এ শ্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠে আদালত সড়কসহ আশপাশের এলাকা। মানববন্ধন চলাকালে বক্তব্য দেন হাফেজ মাওলানা আরেফ বিল্লাহ, রকিবুল ইসলাম, সুচিত্রা বিশ্বাস, মনিরুল ইসলাম প্রমূখ। বক্তারা ও মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারী নারী-পুরুষ সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান উজ্জ্বল শেখের মুক্তি দাবির পাশাপাশি খুনি সন্ত্রাসী নিউটন গাজীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। বক্তরা বলেন, মাদক ব্যবসার সঙ্গে জড়িত খুনি ও চিহ্নিত সন্ত্রাসী নিউটনের দায়ের করা ষড়যন্ত্রমূলক মামলায় উজ্জ্বল চেয়ারম্যানকে গ্রেফতার করে হয়রানি করা হচ্ছে। এছাড়া উজ্জল চেয়ারম্যানের অনুসারীদের নানা ভাবে ভয়ভীতি প্রদর্শন হচ্ছে। চেয়ারম্যান উজ্জ্বল এলাকার অসহায়, গরীব-দুখী মানুষের বিপদে-আপদে পাশে থাকেন বলে তারা দাবি করেন। এদিকে সাবেক চেয়ারম্যান উজ্জ্বল শেখের স্ত্রী মিসেস সোনিয়া সোমবার জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের কাছে লিখিত পত্রে উল্লেখ করেছেন, গোবরা গ্রামের আবুল হোসেন গাজীর ছেলে সন্ত্রাসী নিউটন গাজী ও তার অনুসারীরা এলাকার শান্তিপ্রিয় মানুষদের খুন-জখমের ভয়ভীতি প্রদর্শন করে আইন-শৃংখলার অবনতি ঘটানোর চেষ্টা চালাচ্ছে। নিউটন ও তার অনুসারীদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ ও এলাকার শান্তির দূত ও জনদরদী উজ্জ্বল শেখের দ্রুত মুক্তির দাবি জানাচ্ছি। পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গত রোববার (২ জুন) রাত সাড়ে ১২টার দিকে নড়াইল সদর উপজেলার গোবরা গ্রামে নিউটন গাজীর বাড়িতে হামলা হয়। এ সময় আগুনে নিউটন গাজীর বাড়িতে থাকা তাঁর প্রাইভেট কার পুড়ে যায়। পাশাপাশি আরও একটি বাড়িতে ভাংচুর চালানো হয়। নিউটন গাজী বাদি হয়ে গোবরা গ্রামের আব্দুস সাত্তার শেখের ছেলে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান উজ্জ্বল শেখসহ ১৫ জনের নাম উল্লেখ করে সদর থানায় মামলা দায়ের করেন। গত ৪ জুন সাবেক চেয়ারম্যান উজ্জ্বল ও আব্দুর রাজ্জাককে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে তাদেরকে কারাগারে পাঠানো হয়।

শত শত পরিবারকে ভূমিহীন রেখেই
রামপাল উপজেলাকে ভূমিহীন মুক্ত ঘোষনা উপলক্ষে নির্বাহী কার্মকর্তার প্রেস ব্রিফিং

মেহেদী হাসান,রামপাল (বাগেরহাট)।।
রামপালে শতশত পরিবারকে ভূমিহীন রেখেই রামপাল উপজেলাকে ভূমিহীন ও গৃহহীন মুক্ত ঘোষনা উপলক্ষে এক প্রেস ব্রিফিং করলেন রামপাল উপজেলা নির্বাহী কার্মকর্তা। মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষে ৫ম পর্যায়ে ভূমিহীন ও গৃহহীনদের মাঝে ২ শতাংশ খাস জমি বন্দোবস্ত প্রদানপূর্বক একক গৃহ নির্মাণের মাধ্যমে পুনর্বাসন এবং ভূমিহীন ও গৃহহীন মুক্ত ঘোষনা উপলক্ষে এ প্রেস ব্রিফিং করা হয়।
সোমবার (১০ জুন) বেলা সাড়ে ১১ টায় উপজেলা নির্বাহী কার্মকর্তা রহিমা সুলতানা বুশরা এর সভাপতিত্বে সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে লিখিত ব্রিফিং এ তিনি জানান, সারা বাংলাদেশে ১৮৮ টি উপজেলার মধ্যে রামপাল উপজেলায় ৫ম পর্যায়ে সর্বমোট ১৫০ টি গৃহ নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হওয়ায় উদ্বোধনের জন্য অপেক্ষমান। উপজেলা টাস্কফোর্স কমিটির একাধিক সভার মাধ্যমে ‘ক’ তালিকার পরিবার সমূহককে সরকারি কার্মকর্তা ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের মাধ্যমে যাচাই বাছাই অন্তে ৫১৬ টি ভূমিহীন ও গৃহহীন পরিবার পাওয়া গেছে। তাদের পর্যয়ক্রমে পুনর্বাসন করা হয়েছে। ঘরের গুণগত মান নিশ্চিত করতে স্থানীয় এমপি, জেলা প্রশাসক, উপজেলা চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী কার্মকর্তা, এসিল্যান্ড, পিআইও, এলজিইডি কার্মকর্তা সার্বক্ষণিক তদারকি করেছেন। উপকারভোগীদের ঘর, জমি, কবুলিয়ত দলিলসহ সবকিছু বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার (১১ জুন) প্রধানমন্ত্রী একযোগে ভার্চুয়ালি যুক্ত থেকে উপকারভোগীদেরকে তাদের দলিলাদি সম্বলিত ফোল্ডার হস্তান্তর করবেন।
এ সময় সাংবাদিকরা জানান, এ উপজেলায় শতশত ভূমিহীনদের বাইরে রেখে ভূমিহীন ও গৃহহীন মুক্ত ঘোষনা কত টুকু যুক্তি যুক্ত ? এ সময় নির্বাহী কার্মকর্তা বলেন, বিভিন্ন কারণে মানুষ ভূমিহীন হয়ে থাকেন। কেউ বাদ পড়লে সরকার পর্যায়ক্রমে তাদের পুনর্বাসন করবে। এ প্রকল্পের আওতায় আরো গৃহ নির্মাণ করা হবে। এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান সেখ মোয়াজ্জেম হোসেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান হোসনেয়ারা মিলি, পিআইও মো. মতিউর রহমান, প্রেসক্লাব রামপালের সভাপতি এম, এ সবুর রানা, সিনিয়র সহসভাপতি মোতাহার মল্লিক, সাধারণ সম্পাদক সুজন মজুমদার প্রমুখ।#

কুয়েটে ‘প্রিপারেশন অফ এপিএ ডকুমেন্টস ফর বিল্ডিং এ স্মার্ট ইউনিভার্সিটি’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত
খবর বিজ্ঞপ্তি
খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয় (কুয়েট) এর ইনস্টিটিউশনাল কোয়ালিটি এ্যাসুরেন্স সেল (আইকিউএসি) এর আয়োজনে দিনব্যাপী ‘প্রিপারেশন অফ এপিএ ডকুমেন্টস ফর বিল্ডিং এ স্মার্ট ইউনিভার্সিটি’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ১০ জুন সোমবার সকাল সাড়ে ৯টায় বিশ^বিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সভাকক্ষে প্রশিক্ষণের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. সোবহান মিয়া। প্রশিক্ষণে রিসোর্স পার্সন হিসেবে এপিএ বিষয়ক আলোচনা করেন ঢাকা বিশ^বিদ্যালয়ের উপ-রেজিস্ট্রার (শিক্ষা-৩) রাজীব মাহমুদ শামীম পারভেজ এবং তথ্য অধিকার বিষয়ে আলোচনা করেন কুয়েটের জনসংযোগ ও তথ্য শাখার সহকারী পরিচালক মনোজ কুমার মজুমদার।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আইকিউএসি’র পরিচালক প্রফেসর ড. নরোত্তম কুমার রায় এবং স্বাগত বক্তৃতা করেন আইকিউএসি’র অতিরিক্ত পরিচালক প্রফেসর ড. মোঃ আরিফুজ্জামান। প্রশিক্ষণে বিশ^বিদ্যালয়ের বিভিন্ন দপ্তরে কর্মরত কর্মকর্তাবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

উপজেলা নির্বাচন : সরেজমিন
ডুমুরিয়ায়ও ভোটার ‘ডুমুরের ফুল’

স্টাফ রিপোর্টার
প্রার্থী, কেন্দ্র, ব্যালেট পেপার, এজেন্ট, ভোটকর্তা, কর্মী-সমর্থক, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী– সবই আছে, শুধু নেই যাদের জন্য এত আয়োজন সেই ভোটার। খুলনার ডুমুরিয়ার উপজেলা নির্বাচনে গতকাল রোববার ১০ থেকে ১২ কেন্দ্র ঘুরে দু-একটি ছাড়া কোথাও ভোটারের সারি দেখা যায়নি। অন্য উপজেলার মতো ডুমুরিয়ায়ও ভোটার ছিল ‘ডুমুরের ফুল’। কেন্দ্রের বাইরে ছিল বিভিন্ন প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকের জটলা। তবে ভেতরে ছিল সুশৃঙ্খল পরিবেশ।

ডুমুরিয়ার গুটুদিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয় মহিলা ভোটকেন্দ্রে সকাল সাড়ে ১০টায় গিয়ে দেখা যায়, ৫ থেকে ৬ জন ভোটার অপেক্ষা করছেন। প্রিসাইডিং কর্মকর্তা প্রশান্ত কুমার জানান, আটটি বুথে প্রথম ২ ঘণ্টায় ২ হাজার ৮৮০ ভোটারের মধ্যে ভোট দিয়েছেন ৭৩ জন। ভোটের হার মাত্র ৩ শতাংশ।
দুপুর আড়াইটায় ডুমুরিয়া কলেজ কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, দুই থেকে তিনজন ভোট দেওয়ার জন্য অপেক্ষা করছেন। প্রিসাইডিং কর্মকর্তা মো. হাবিবুর রহমান জানান, ছয়টি বুথে ২ হাজার ১০১ ভোটারের মধ্যে ৬৯৪ জন ভোট দিয়েছেন।
এর পর একই বিদ্যালয়ের আরেক ভবনে পুরুষ কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, আটটি বুথের কোনোটিতেই ভিড় নেই। এক-দু’জন করে ভোটার আসছেন এবং তারা নির্বিঘ্নে ভোট দিয়ে ফিরে যাচ্ছেন। প্রিসাইডিং কর্মকর্তা জি এম আসাদুর রহমান জানান, ২ ঘণ্টায় ২ হাজার ৯১১ জন ভোটারের মধ্যে ১৭২ ভোট পড়েছে। ভোটের হার প্রায় ৬ শতাংশ।

দুপুর ১২টায় রুদাঘরা ইউনিয়নের মধুগ্রাম ইসলামিয়া আলিয়া মাদ্রাসা কেন্দ্রে গিয়ে দেখা যায়, কেন্দ্রের বাইরে লোকজন থাকলেও ভেতরে তেমন ভোটার নেই। ২ হাজার ২৯৩ ভোটারের মধ্যে ৩৫০ জন ভোট দিয়েছেন।
ডুমুরিয়া সদর মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কমলপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে গিয়ে ভোট গ্রহণ কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ চলাকালে কখনও ভোটারদের লাইনে দাঁড়াতে হয়নি।

ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা কিশোরী, জোর করে গর্ভপাত
কুমারখালী (কুষ্টিয়া) প্রতিনিধি
ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা মাদ্রাসাছাত্রীর (১৪) গর্ভপাতের ঘটনায় মিজানুর রহমান (৩৩) নামে এক ব্যক্তিকে আটক করে পুলিশে দিয়েছেন এলাকাবাসী। রোববার রাতে ওই ব্যক্তিকে পুলিশে দেন কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার সদকী ইউনিয়নের একটি গ্রামের বাসিন্দারা। ভুক্তভোগীর মায়ের মামলায় মিজানুরকে সোমবার আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয়দের বরাতে পুলিশ জানায়, ২০১৭ সালে মিজানুরের সঙ্গে দ্বিতীয় বিয়ে হয় ভুক্তভোগীর মায়ের। শ্বশুরবাড়িতেই থাকত সে। পাঁচ মাস আগে ফাঁকা বাড়িতে স্ত্রীর প্রথম পক্ষের কিশোরী মেয়েকে ভয় দেখিয়ে ধর্ষণ করে মিজানুর। কাউকে জানালে হত্যারও হুমকি দেয়।

পরের মাসে মেয়েটির পেটে ব্যথা শুরু হয়। রোববার সকালে তাকে নিয়ে স্থানীয় একটি ডায়াগনস্টিক সেন্টারে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করান মা ও সৎ বাবা। এতে জানা যায়, মেয়েটি পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা। তখন তাকে ওষুধ সেবন করিয়ে গর্ভপাত করানো হয়। রাতেই বিষয়টি জানাজানি হলে এলাকাবাসী মিজানুরকে একটি কক্ষে আটকে রাখেন। পরে পুলিশ এলে তাকে সোপর্দ করা হয়।

এ ঘটনায় মেয়েটির মা বাদী হয়ে সোমবার সকালে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। এতে গ্রেপ্তার দেখিয়ে মিজানুরকে দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয় বলে জানান কুমারখালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আকিবুল ইসলাম। তিনি আরও বলেন, ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য মেয়েটিকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে

সুন্দরবনে পর্যটন শিল্প সচল রাখতে মত বিনিময় সভা
স্টাফ রিপোর্টার
বানিশান্তা পর্যটন শিল্প সমবায় সমিতি লিমিটেডের উদ্যোগে সুন্দরবনের বিশেষ প্রভাব অঞ্চলে পর্যটন শিল্প সচল রাখতে এবং পর্যটন শিল্পের উন্নয়ন বিষয়ক মতবিনিময় সভা আয়োজন করা হয়েছে।
শনিবার (৮ জুন) বিকেল ৫টায় দাকোপ উপজেলার বানিশান্তা ইউনিয়নের পশ্চিম ঢাংমারী এলাকায় অবস্থিত পিয়ালী ইকো রিসোর্ট অ্যান্ড কালচারাল সেন্টারে এ সভার আয়োজন করা হয়।

গত ১ জুন থেকে আগামী ৩ মাসের জন্য সুন্দরবনে প্রবেশ বন্ধ করে বনবিভাগ। এ সময় সুন্দরবনে পর্যটক প্রবেশ, সাধারণ মানুষের চলাচলসহ নদী ও খালে মাছ ধরাও নিষিদ্ধ করা হয়।

সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মো. আসাদুজ্জামান, পুলিশ সুপার, ট্যুরিস্ট পুলিশ, খুলনা রিজিয়ন। বিশেষ অতিথি ছিলেন প্রাণিসম্পদ বিভাগের প্রাক্তন পরিচালক ডা. সুখেন্দু শেখর গায়েন।

সভায় মুখ্য আলোচক ছিলেন বাংলাদেশ ট্যুরিজম ফাউন্ডেশনের সভাপতি মো. মোখলেছুর রহমান। সভায় সভাপতিত্ব করেন বানিশান্তা পর্যটন শিল্প সমবায় সমিতি লিমিটেডের কামাল খান। এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন রিসোর্ট মালিক অ্যাসোসিয়েশন অব সুন্দরবনের (রোয়াস) সাধারণ সম্পাদক ইমোনুল ইসলাম ইমন, বানিশান্তা ইউনিয়নের স্থানীয় বাসিন্দাগণ, বানিশান্তা ইউনিয়নে অবস্থিত রিসোর্টের মালিকগণ।

প্রস্তাবিত বানিশান্তা পর্যটন শিল্প সমবায় সমিতির সদস্য হিমাংশু বাছাড় বলেন, সুন্দরবন সংলগ্ন এই গ্রাম আপনাদের মতে বিশেষ প্রভাব অঞ্চল, অর্থাৎ সুন্দরবনের ভেতর নয়। সুন্দরবনের ভেতরটাকে বলা হয় মূল অঞ্চল। আমরা জীবিকার প্রয়োজনে বনের ভেতরে ঢুকতাম, এই ঢাংমারী খালের এপার থেকে ওপারে গিয়ে চুরি করে কাঠ কাটতাম। কিন্তু গত কয়েক বছর যাবৎ কেউ বনে ঢুকে এই কাজ করে না। রিসোর্ট হবার পরে গ্রামের অধিকাংশ বনজীবী এই সকল রির্সোটগুলোতে নির্মাণের কাজ করছে, ট্রলার চালাচ্ছে, হাতে বাওয়া নৌকা চালাচ্ছে। রিসোর্টগুলো বন্ধ হয়ে গেলে আমাদের মধ্যে অনেকে ভাতে মারা পড়বে।

তিনি আরও বলেন, বাইরের লোক আমাদের গ্রাম দেখতে আসে এজন্য আমরা খুশি। আমরা গ্রামে যারা এই পর্যটনের সাথে যুক্ত আছি, তারা সবাই মিলে এই সমিতিটা দাঁড় করাচ্ছি। আশা করি আপনারা আমাদের সঙ্গে থাকবেন।

বানিশান্তা পর্যটন শিল্প সমবায় সমিতি লিমিটেডের প্রস্তাবিত সভাপতি দীনবন্ধু মিস্ত্রি বলেন, অনেক পর্যটক এসে আমাদের বাড়ির পালা হাঁস-মুরগি কিনে নেয়। এছাড়া রিসোর্ট মালিকগণও আমাদের হাঁস, মুরগি, শাকসবজি কেনেন। জেলেরা মাছ বিক্রি করে রিসোর্টগুলোতে। দাদনদারের কাছ থেকে টাকা ধার করে আগের মতো আমাদের চলতে হয় না। এই রিসোর্টগুলোতে প্রায় ২০০ লোক আমরা কাজ করি। রিসোর্ট বেশি হলে পরিবেশের ক্ষতি হবে বুঝতে পারছি। এ বিষয়ে সরকারের নীতিমালা প্রণয়ন করা দরকার। কিন্তু এই এলাকার পর্যটন বন্ধ করে আমাদের কর্মসংস্থান নষ্ট করা যাবে না।

পশ্চিম ঢাংমারি গ্রামের অধিবাসী মহিতোষ বীর বলেন, ওই যে খালডা দেখতেছেন তার পাশ দিয়ে যে বন, ওইখানে আমরা ৫০০ ফিট কম হলেও রোজ কাঠ কাটতাম, এখন ৫ ফিটও কাটা পড়ে না। একসময় আমরা অনেকে মিলে নদীতে বিষ মিশিয়ে মাছ মেরেছি। গত তিন বছরের মধ্যে আমি বনে ঢুকিনি, নদীতে বিষ দেইনি, এমনকি কেউ দিলেও তা বন বিভাগের কাছে বলে দিয়েছি। গত এক বছর ধরে এই পিয়ালী রিসোর্টে কমপক্ষে ৩০ জন আমরা কাজ করেছি। প্রতিদিন ৬০০ থেকে ৮০০ টাকা রোজ। টাকা জমিয়ে আমরা কেউ ঘর বানিয়েছি, গরু কিনেছি, ছাগল কিনেছি। প্রতিবছর প্রাকৃতিক দুর্যোগ তো আমাদের মারেই। সরকার তিন মাস সুন্দরবন বন্ধ রাখে। এমন সময় বন্ধ রাখে যে সময় বন্ধ রাখা উচিত না। এই এলাকায় লোকজন আসলে, পর্যটন হলে আমাদের জীবিকা ঠিকঠাক মতো হয়; ছেলেমেয়ে নিয়ে আমরা ভালো থাকতে পারি।

মুখ্য আলোচক মোখলেছুর রহমান তার আলোচনায় মূল অঞ্চলে পর্যটক প্রবেশের ক্ষতিকর দিকসহ সুন্দরবনের বিশেষ প্রভাব অঞ্চলে পর্যটনের গুরুত্ব তুলে ধরেন। পর্যটন একটি শিল্প, সেই শিল্পের উন্নয়নের লক্ষ্যে বানিশান্তা পর্যটন শিল্প সমবায় সমিতি লিমিটেডের গুরুত্ব তুলে ধরে এই বিষয়ে উদ্যোগ নেওয়ার জন্য ইউনিয়নের অগ্রগণ্য অধিবাসীকে অভিনন্দন জানান এবং সকলের উদ্দেশে এই জোনে পর্যটন পরিচালনার জন্য একটি কর্মপরিকল্পনা তৈরি করার পরামর্শ দেন।

প্রধান অতিথি পুলিশ সুপার মো. আসাদুজ্জামান বলেন, এই প্রত্যন্ত সুন্দরবন সংলগ্ন স্থানীয় গ্রামবাসী পর্যটনে এতোটা অগ্রণী ভূমিকা রেখেছে জেনে আমি অভিভূত।

সুন্দরবনে বিশেষ প্রভাব অঞ্চলে পর্যটনের সম্ভাবনা ও উন্নয়নের জন্য কমিউনিটি বেইজড ট্যুরিজমের ওপর জোর দিয়ে বলেন, স্থানীয় বাসিন্দারাই মূলত এই ট্যুরিজমকে টিকিয়ে রাখতে পারেন।

তিনি গ্রামবাসীকে আশ্বস্ত করে আরও বলেন, আমি পরিবেশ অধিদপ্তর, বনবিভাগ ও স্থানীয় প্রশাসনের সঙ্গে কথা বলে সুন্দরবনের বিশেষ প্রভাব অঞ্চলে পর্যটনের সার্বিক উন্নয়নে আরও ভূমিকা কিভাবে রাখা যায় সে বিষয়ে আলোকপাত করবো।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ ট্যুরিস্ট পুলিশ সবসময় স্থানীয় বাসিন্দা, পর্যটক ও পর্যটনের সাথে জড়িত সকলের সঙ্গে থাকবেন। সুন্দরবন ভ্রমণ নীতিমালা-২০১৪ কে সামনে রেখে সুন্দরবনের বিশেষ প্রভাব অঞ্চলে পর্যটন রোডম্যাপসহ সুন্দরবন পর্যটন গাইড প্রকাশের বিষয়ে কথা বলবো।

এসময় তিনি পরিবেশ, বন, নদী সব বাঁচিয়ে সফল এক পর্যটনের বিষয়ে দিক নিদের্শনা দেন রিসোর্ট মালিক ও স্থানীয় বাসিন্দাদের। সবশেষে পিয়ালী ইকো রিসোর্টে গ্রামীণ পর্যটন উন্নয়নের লক্ষ্যে একটি ‘পর্যটন সম্প্রসারণ স্কুল’ উদ্বোধন করেন।

বাংলাদেশ ফাউন্ডেশনের সভাপতি মোহাম্মদ মোখলেছুর রহমান বলেন, এই ধরনের স্কুল কেবল বাংলাদেশে নয় পৃথিবীতেই প্রথম।
সুন্দরবনের বিশেষ প্রভাব অঞ্চলে পর্যটনের উন্নয়ন বিষয়ক মত বিনিময় সভাটি সঞ্চালনা করেন পিয়ালী ইকো রিসোর্ট অ্যান্ড কালচারাল সেন্টারের চেয়ারম্যান কবি আঁখি সিদ্দিকা।

নড়াইলে সাবেক ইউপি চেয়ারম্যানসহ ২ জন রিমান্ডে
নড়াইল প্রতিনিধি
নড়াইল সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় প্রতিপক্ষের প্রাইভেটকার পোড়ানো ও চাঁদাবাজি মামলায় সিঙ্গাশোলপুর ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান উজ্জ্বল শেখ এবং তার সহযোগী আব্দুর রাজ্জাকের দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। সোমবার (১০ জুন) দুপুরে জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট হেলাল উদ্দিনের আদালত তাদের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা নড়াইল সদর থানার এসআই মেহেদী হাসান এতথ্য জানান।
গত ৪ জুন বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে নড়াইল সদরের কাড়ারবিল এলাকা থেকে চেয়ারম্যান উজ্জ্বল শেখকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। উজ্জ্বল শেখ গোবরা গ্রামের আব্দুস সাত্তারের ছেলে। পরে তার সহযোগী একই গ্রামের গোলাম রসুল মোল্যার ছেলে আব্দুর রাজ্জাককে (৩৪) নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

প্রসঙ্গত, নড়াইল সদর উপজেলা নির্বাচনে গত ২১ মে ভোট গ্রহণ হয়। নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতার জের ধরে গোবরা গ্রামে নিউটন গাজীর বাড়িতে হামলা ও একটি প্রাইভেট কারে আগুন দেওয়া হয়। এ ঘটনায় গত সোমবার নড়াইল সদর থানায় মামলা করেন নিউটন গাজী। মামলায় উজ্জ্বল শেখসহ ১৫ জনকে আসামি করা হয়।

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে দোকানে ঢুকে পড়লো ট্রাক, নিহত ২
যশোর অফিস
যশোরের মণিরামপুরে ট্রাক চাপায় ২ জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও একজন। সোমবার (১০ জুন) সকালে রাজারহাট-চুকনগর আঞ্চলিক সড়কের মণিরামপুর বাধাঘাট এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।
নিহতরা হলেন- মণিরামপুর পৌর এলাকার বিজয়রামপুর গ্রামের মৃত আনার আলীর ছেলে আব্দুর রহমান (৮৫) ও টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার দেওভাটা গ্রামের ঝান্টু মিয়া (৪৮)।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রোববার রাতে একটি ট্রাক গাজীপুর থেকে শ্যামনগরের উদ্দেশ্যে রওনা হয়। সকাল ৭টার দিকে ট্রাকটি মণিরামপুর বাধাঘাট এলাকায় পৌঁছালে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে একটি দোকানে ঢুকে পড়ে। এ সময় দোকানের সামনে বসে থাকা আব্দুর রহমান ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে ও গাড়িতে থাকা ট্রাক মালিক ঝান্টু মিয়া মারা যান।
মণিরামপুর থানার উপ-পরির্দশক (এসআই) লিটন বিশ্বাস বলেন, চালকের ঘুম ভাব থাকার কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। মরদেহ উদ্ধার করে হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় পরবর্তী আইনি কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

কামড়ে স্বামীর জিব ছিঁড়ে ফেললেন স্ত্রী
যশোর অফিস
যশোরে সোহাগ হোসেন (২৪) নামে এক যুবকের জিব কামড়ে ছিঁড়ে ফেলেছেন তার স্ত্রী। সোমবার (১০ জুন) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে চৌগাছা উপজেলার পাতিবিলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
পরিবারের সদস্যদের দাবি, সাংসারিক কলহের জেরে এ ঘটনা ঘটেছে। গুরুতর আহতাবস্থায় সোহাগ হোসেনকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত সোহাগ চৌগাছা উপজেলার পাতিবিলা এলাকার মোজাম্মেল হকের ছেলে।

সোহাগের চাচি রাবেয়া বেগম হাসপাতালে সাংবাদিকদের জানান, দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সোহাগের সঙ্গে তার স্ত্রী সীমা খাতুনের সাংসারিক বিষয়ে ঝগড়া হয়। একপর্যায়ে সীমা খাতুন কামড় দিয়ে তার স্বামীর জিব কেটে আলাদা করে ফেলে।

তিনি আরো জানান, পরে বাড়ির লোকজন সোহাগকে উদ্ধার করে চৌগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স নিয়ে যান। এ সময় দায়িত্বরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করেন।

জরুরি বিভাগের চিকিৎসক হাসিব মোহাম্মদ আল হাসান বলেন, সোহাগ আর কখনোই জিব ফিরে পাবে না। তবে তিনি আশঙ্কামুক্ত।

সাতক্ষীরায় বাবা হত্যায় ছেলের যাবজ্জীবন
নিজস্ব প্রতিনিধি
সাতক্ষীরায় বাবাকে হত্যার দায়ে ছেলের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। পাশাপাশি তাকে ১০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরো এক বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়।
রোববার সাতক্ষীরার অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ ৩য় আদালতের বিচারক রাকিবুল ইসলাম এ রায় দেন। সাজাপ্রাপ্ত আবু হানিফ সাতক্ষীরা সদর উপজেলার রেউই গ্রামের মুনসুর সরদারের ছেলে।

মামলার বিবরণে জানা যায়, মুনসুর সরদার কাজ করতেন না। এ নিয়ে পরিবারে অশান্তি লেগে ছিল। ২০০৫ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর দুপুরে আবু হানিফ কাজ থেকে বাড়িতে ফিরে এসে দেখেন তার বাবা মুনসুর সরদার বারান্দায় বসে আছেন। মুনসুর সরদার কাজে না যাওয়ায় ছেলে আবু হানিফ ক্ষিপ্ত হয়ে রান্না ঘর থেকে বটি নিয়ে এসে তার বাবার বুকে কোপ দেন। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়।

মামলাটি বিচারের জন্য উক্ত আদালতে প্রেরিত হলে ১১ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে নথি পর্যালোচনা করে বিচারক এ রায় দেন। রায়ের সময় আসামি আবু হানিফ আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

সাতক্ষীরার আদালতের অতিরিক পিপি অ্যাডভোকেট সৈয়দ জিয়াউর রহমান বাচ্চু সত্যতা নিশ্চিত করেন।

খুলনা ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন
খবর বিজ্ঞপ্তি
খুলনা ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন (কেসিআরএ) এর পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করা হয়েছে। গত শনিবার (৮ জুন) অনুষ্ঠিত সংগঠনের দ্বি-বার্ষিক সাধারণ সভার দ্বিতীয় পর্বে সর্বসম্মতিক্রমে সিদ্ধান্ত মোতাবেক সুমন আহমেদকে সভাপতি ও আহমদ মুসা রঞ্জুকে সাধারণ সম্পাদক পুননির্বাচিত করা হয়।
সোমবার (১০ জুন) সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক আলোচনার ভিত্তিতে ১১ সদস্য বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন করেন।

কমিটির অন্যান্য নেতৃবৃন্দ হলেন, সহ-সভাপতি নূর হাসান জনি ও শিশির রঞ্জন মল্লিক, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম নূর ও আনিছুর রহমান কবির, কোষাধ্যক্ষ কামরুল হোসেন মনি, দপ্তর সম্পাদক জয়নাল ফরাজী, কার্যনির্বাহী সদস্য বিমল সাহা, ইয়াছিন আরাফাত রুমি ও রকিবুল ইসলাম মতি প্রমুখ।

উল্লেখ্য, শনিবার (৮জুন’২০২৪) খুলনা ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের দ্বি-বার্ষিক সাধারণ সভায় উপস্থিত সকল সদস্য’র সম্মতিক্রমে আগামী দুই বছরের জন্য সুমন আহমেদকে সভাপতি ও আহমদ মুসা রঞ্জুকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হয়। তখন পরবর্তী ৭ দিনের মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের দায়িত্ব পুন:নির্বাচিত সভাপতি ও সম্পাদকের উপর অর্পণ করা হয়।

ইম্মানূয়েল কয়ার টিমের ২ বছর পূর্তি উদযাপন
খবর বিজ্ঞপ্তি

খুলনায় ইম্মানূয়েল কয়ার টিমের দুই বছর পূর্তি সোমবার উদযাপন করা হয়েছে। এ উপলক্ষ্যে বিকাল ৫টায় নগরীর ছোট বয়রাস্থ ব্যাপ্টিস্ট চার্চ প্রাঙ্গণে কেক কাটা, প্রশংসা ও আরাধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। টিমের সভাপতি রেভাঃ জোকোস মন্ডলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সম্পাদক মি. পলাশ রায়।
এ সময় টিমের সদস্য রেখা অধিকারী, রিনা বিশ্বাস, মেরী মালাকার, খুশি হালদার, ঝর্ণা বিশ্বাস, এলিজাবেথ বাড়ৈ, প্রভা বারিকদার, যুথিকা বারিকদার ও নিপা ঢালীসহ টিমের বিভিন্ন পর্যায়ের সমর্থক ও এলাকাবাসী উপস্থিত ছিলেন।

শেখ হেলাল উদ্দীন কলেজে ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস পালন
ফকিরহাট প্রতিনিধি।
বাগেরহাটের ফকিরহাটের শেখ হেলাল উদ্দীন সরকারি কলেজে ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস-২০২৪ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও ভিডিও প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়। দিবসটি উপলক্ষে সোমবার (১০জুন) সকালে কলেজে নির্মিত শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্যে পুষ্পস্থাবক অর্পণের মধ্যদিয়ে শ্রদ্ধা জানিয়েছেন কলেজের অধ্যক্ষ বটু গোপাল দাস। এরপর কলেজ অধ্যক্ষ কলেজের শেখ রাসেল দেয়ালিকায় ৬ দফা দিবস সংখ্যার উদ্বোধন করেন। প্রভাষক তপতী রানী ধরের সঞ্চালনায় কলেজের স্বপন দাশ অডিটোরিয়াম ভবনমিলনায়তনে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। এতে আরো বক্তৃতা করেন সহকারী অধ্যাপক মোঃ হোসাইন ছায়েদীন, মোঃ সিরাজুল ইসলাম মল্লিক, মোসা: আতাউন্নেছা, সালমা খাতুন, মোঃ শেখ শামীম ইসলামসহ প্রমুখ।
অধ্যক্ষ তার বক্তব্যে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে বিনম্র শ্রদ্ধা জানিয়ে বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ঘোষিত ছয় দফা আন্দোলন ১৯৬৬ সালের ৭ জুন এক নতুন মাত্রা পায়। তিনি আরও বলেন, ঐতিহাসিক ৬ দফা থেকে শিক্ষা নিয়ে দেশপ্রেমে উদ্বুদ্ধ হয়ে জাতির পিতার আজীবন স্বপ্নের উন্নত সুখী-সমৃদ্ধ স্মার্ট সোনার বাংলাদেশ গড়ে তোলার আন্দোলনে নতুন প্রজন্মকে ঝাপিয়ে পড়তে হবে। ৬ দফা শুধু বাঙালি জাতির মুক্তি সনদ নয়, সারা বিশ্বের নির্যাতিত নিপীড়িত নিস্পেষিত মানুষের মুক্তি আন্দোলনের অনুপ্রেরণার উৎস। সভা শেষে ঐতিহাসিক ৬ দফা দিবস উপলক্ষে এক ভিডিও প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়।

ফকিরহাটে ভূমিসেবা সপ্তাহ উপলক্ষে র্যালি আলোচনা
ফকিরহাট প্রতিনিধি :
“স্মার্ট ভূমিসেবা, স্মার্ট নাগরিক” এই প্রতিপাদ্যকে সামনে তুলে ধরে বাগেরহাটের ফকিরহাটে ভূমিসেবা সপ্তাহ-২০২৪ উদযাপন উপলক্ষে র্যালি ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা ভূমি অফিসের আয়োজনে সোমবার (১০ জুন) সকাল ১০টায় র্যালি বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে ভূমি অফিস মিলনায়তনে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাজিয়া সিদ্দিকা সেতু। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা সুবীর কুমার মিত্র, ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা আনিচুর রহমান, উপসহকারী ভূমি কর্মকর্তা মো. জাকির হোসেন, মেহেদী হাসান, আ. জব্বার, ফাতেমা তুজ জোহরা মিলি, এসিল্যান্ড অফিসের প্রধান সহকারী শরীফ নাজমুল হুদা,নাজির রুবিয়া আক্তার সহ অন্যান্যরা।

রাফিউল হত্যা প্রচেষ্টার আসামীরা আটক না হওয়ায় বেনাপোলে কাস্টমস অফিসারদের মানব বন্ধন
বেনাপোল প্রতিনিধি
গত তিন দিনেও আটক হয়নি কাস্টমস কর্মকর্তা রাফিউল হত্যা প্রচেষ্টার আসামীরা। এঘটনায় ক্ষোভে ফুঁসে উঠেছেন রাফিউলের সহকর্মীরা। গত ৮ জুন
বেনাপোল পোর্ট থানায় কাস্টমসের পক্ষ থেকে অজ্ঞাত পরিচয় ২ জনকে আসামি করে বেনাপোল পোর্ট থানায় মামলা করা হলেও কোন আসামীকে আটক করতে পারেনি পোর্ট থানা পুলিশ। এ ঘটনায় তীব্র ক্ষোভ এবং নিন্দা জানিয়েছে বাকাএভ এর কেন্দ্রীয় মহসচিব মুজিবুর রহমান বলেন, পুলিশের নির্লিপ্ততা আমাদের কে হতাশ করেছে। আমরা অবিলম্বে হত্যা প্রচেষ্টার সাথে জড়িতদের আটক করে যথাযথ শাস্তির দাবী জানাচ্ছি। তিনি গতকাল সকালে বেনাপোল পৌঁছে মারাত্মক জখম সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা রাফিউলের বাসায় যান এবং শারিরীক অবস্থার খোঁজ খবর নেন।

কাস্টমস কর্মকর্তাদের একাত্ম পোষন করে মানব বন্ধন কর্মসুচীতে অংশ নেন বেনাপোল সিএন্ডএফ এজেন্ট মালিক কর্মচারী। সোমবার বেলা ৩ টায় কাস্টমস হাউজের গেইটে যৌথ মানব বন্ধন কর্মসুচি পালিত হয়।
মানব বন্ধন শেষে এক সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন বাকাএভ এর কার্যকরী সভাপতি রাজস্ব কর্মকর্তা মিজানুর রহমান, বেনাপোল ইউনিটের সভাপতি রাজস্ব কর্মকর্তা হেলিম ভুঁইয়া,, সাধারন সম্পাদক হৃদয় সাহা । সমাবেশে বক্তারা হুশিয়ারী উচ্চারণ করে বলেন ৪৮ ঘন্টার মধ্যে আসামীদের আটক করা না হলে বৃহত্তর কর্মসুচি দেয়া হবে। সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখেন রাজস্ব কর্মকর্তা রেজাউল করিম, জাহিদুর রহমান, আব্দুস সামাদ, প্রমুখ।

অটিজমরা এখন আর সমাজের বোঝা নয় : মেয়র
খবর বিজ্ঞপ্তি
খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, অটিজমরা এখন আর সমাজের বোঝা নয়। শিক্ষা লাভের মাধ্যমে তারা তাদের ভাগ্যের পরিবর্তন ঘটাচ্ছে। তিনি শিক্ষকদের মানুষ গড়ার কারিগর হিসেবে উল্লেখ করে বলেন, প্রতিবন্ধীদের সমাজের মূল স্্েরাতধারায় আনতে হবে। নিজের সন্তান মনে করে তাদেরকে সুশিক্ষায় শিক্ষিত করতে হবে।

সিটি মেয়র সোমবার সকাল সাড়ে ৯টায় নগরীর সিএসএস আভা সেন্টারে ‘স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে এবং অটিজম ও এনডিডি শিক্ষার্থীদের শিক্ষার মূলধারায় একীভূতকরণে এনএএএনভি’র ভূমিকা’ শীর্ষক বিভাগীয় সেমিনারের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের ‘‘ন্যাশনাল একাডেমি ফর অটিজম এন্ড নিউরো ডেভেলপমেন্টাল ডিজএ্যাবিলিটিজ (এনএএএনডি)’’ প্রকল্পের আওতায় মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর-খুলনা এ সেমিনারের আয়োজন করে।

প্রকল্পের পরিচালক প্রফেসর ড. সুধাংশু রঞ্জন রায়-এর সভাপতিত্বে সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা খুলনা অঞ্চলের পরিচালক প্রফেসর শেখ হারুনর রশীদ।

সিটি মেয়র আরো বলেন, অটিজমরা সমাজে অত্যন্ত অসহায় অবস্থায় জীবন যাপন করে বিধায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা তাদের প্রতি অত্যন্ত সহানুভূতিশীল। অটিজমদের ভাতা প্রদানের পাশাপাশি তিনি সরকারি চাকুরীর ক্ষেত্রে অটিজম কোটা সুবিধা প্রদান করেছেন। প্রধানমন্ত্রীর কন্যা সায়মা ওয়াজেদও অটিজমদের কল্যাণে কাজ করে বিশ্বব্যাপী প্রশংসিত হয়েছেন।

সেমিনারে মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন প্রফেসর সুকুমার স্যানাল, প্রবন্ধের উপর আলোচনা করেন উপ-প্রকল্প পরিচালক ড. মোঃ নুরুল আলম। জেলা শিক্ষা অফিসার, উপজেলা ও থানা শিক্ষা অফিসার, সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকগণ সেমিনারে অংশগ্রহণ করেন।

পরে সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক নগরভবনের শহীদ আলতাফ মিলনায়তনে প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় প্রকল্প সমাপ্তি পরবর্তী কার্যক্রম চলমান রাখার লক্ষ্যে পরিকল্পনা প্রণয়ন বিষয়ক কর্মশালায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন। প্রকল্পের ফোকাল পারসন ও কেসিসির চীফ প্লানিং অফিসার আবির উল জব্বার কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন। কর্মশালায় বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন মেয়র প্যানেলের সদস্য এস এম রফিউদ্দিন আহম্মেদ, এস এম খুরশিদ আহম্মেদ, মেমরী সুফিয়া রহমান শুনু, কাউন্সিলর মো: শাহাদাত মিনা ও সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর রাফিজা। সঞ্চালনা করেন প্রকল্পের টাউন ম্যানেজার মোহাম্মদ মোস্তফা। প্রকল্পের কর্মকর্তা, কর্মচারী ও প্রকল্পের সুবিধাভোগী সদস্যবৃন্দ কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন।