খালি পেটে কোন খাবার খেলে পুষ্টি মিলবে?

5
Spread the love


মিলি রহমান।।
সকালের নাশতা শরীরের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ন। সারাদিনের শক্তির জন্য সকালের নাশতায় কার্বোহাইড্রেট, প্রোটিন, ফ্যাটের সঠিক সামঞ্জস্য থাকা দরকার। এর পাশপাশি পর্যাপ্ত পানি পানও বাধ্যতামূলক। ভরপুর নাশতার আগে খালি পেটে এমন কিছু খাবার খাদ্যতালিকায় রাখতে পারেন যা আপনাকে সুস্থ থাকতে সাহায্য করবে। যেমন-

মধু ও লেবুর পানি : দিনের শুরুটা যদি হালকা গরম পানি দিয়ে করেন তাহলে শরীর ভালো থাকে। হালকা গরম পানিতে ১ চামচ মধু ও অর্ধেক পাতিলেবুর রস মিশিয়ে নিন। এই পানীয় শরীর থেকে টক্সিন বের করতে সাহায্য করে। এর পাশপাশি মেদও ঝরায়।

ভেজানো কাঠবাদাম : কাঠবাদামে ভিটামিন ই, ওমেগা থ্রি ফ্যাটি অ্যাসিড, ফাইবার ও নানা পুষ্টিগুণ রয়েছে। এসব উপাদান শরীরের জন্য খুবই উপকারী। সকালে উঠেই যদি খালি পেটে আগের রাতে ভিজিয়ে রাখা ৩-৪ টা কাঠবাদাম খোসা ছাড়িয়ে খেয়ে নেওয়া যায়, তাহলে শরীর তার প্রয়োজনীয় পুষ্টির বেশ কিছুটা পাবে।

ওট্‌স : ওটস ফাইবার ও অন্যান্য পুষ্টিগুণে সম্পন্ন একটি খাবার। সকালে ওটস খেলে দিনভর যেমন পেট ভরা থাকে, তেমন শরীরের উপকার হয়। ওট্‌সের গ্লাইসেমিক ইনডেক্স ও ক্যালোরির পরিমাণ কম হওয়ায় ডায়াবেটিস রোগীরা এই খাবারটি খাদ্যতালিকায় রাখতে পারেন। খালি পেটে ওটস খেলে এটি পাকস্থলীর উপর একটি আস্তরণ তৈরি করে. যা শরীরে অ্যাসিডের জন্য হওয়া জ্বালাভাব থেকে সুরক্ষা দিতে পারে।

ফল : প্রায় সব ফলই ভিটামিন, ফাইবার, ফাইটোকেমিক্যালে পরিপূর্ণ। খালি পেটে ফল খেলে শক্তি যেমন পাওয়া যায়, তেমন ফল পরিপাক তন্ত্রকে ‘ডিটক্সিফাই’ করতে সাহায্য করে।

চিয়া বীজ : চিয়া বীজ ওমেগা থ্রি, ফ্যাটি অ্যাসিডে পরিপূর্ণ। সকালে খালি পেটে চিয়া বীজ ভেজানো পানি বা খাবারের সঙ্গে মিশিয়ে চিয়া বীজ খেলে শরীর তার প্রয়োজনীয় পুষ্টি পাবে।

খেজুর : মিষ্টি স্বাদের এই ফলটিতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন, ম্যাগেশিয়াম, ফাইবার, আয়রন রয়েছে। দিনের শুরুতে খেজুর খেলে শরীরে দ্রুত শক্তি জোগায়। এতে থাকা ফাইবার কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা কমায়।

আমলকির রস : আমলকির রসে পর্যাপ্ত পরিমাণে ভিটামিন ই ও অন্যান্য খনিজ রয়েছে। দিনের শুরুতেই যদি আমলকির রস খাওয়া যায় তা হলে শরীর রোগমুক্ত থাকবে। এতে থাকা নানা উপাদান রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। আয়ুর্বেদে দিনের শুরুতে আমলকির রস খাওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়। আমলকির রস হজম ক্ষমতা বাড়ায়। সেই সঙ্গে ত্বক ও চুলের উজ্জ্বলতা বাড়ায়।