কলকাতায় বিশ্বাসযোগ্য প্রযোজক নেই

11
Spread the love

 

বিনোদন ডেস্ক।।

ভারতীয় বাংলা সিনেমা ‘বরবাদ’-এ অভিনয় করে দারুণ খ্যাতি অর্জন করেছেন অভিনেত্রী ঋত্বিকা সেন। কিন্তু পরে কমে আসে তার কাজ। বলতে গেলে কলকাতা ইন্ডাষ্ট্রিতে সুবিধে করতে পারেনি আর। এখন তাই মনোযোগ তামিল সিনেমায়। ইতোমধ্যে তামিল ছবি মুক্তিও পেয়েছে তার। এই অভিনেত্রীই এবার জানালেন টালিউড থেকে তামিলে যাওয়ার কারণ।

নায়িকা বললেন, টলিগঞ্জে এখন বিশ্বাসযোগ্য প্রযোজকের সংখ্যা কমেছে। তেমন নেই বললেও চলে। নতুন অনেক প্রযোজকের সঙ্গে কাজ করে তাদের মধ্যে চূড়ান্ত অপেশাদার মনোভাব লক্ষ করেছি। তবে দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রিতে আমি এখন পর্যন্ত সে রকম কোন অভিজ্ঞতার সম্মুখীন হইনি। তামিল ইন্ডাষ্ট্রিতে ধীরে ধীরে আসন করতে পারছেন বলেও জানান তিনি।

ঋত্বিকা বললেন, ‘দক্ষিণে আমাকে মানুষ কিন্তু ‘বেঙ্গলি গার্ল’ নামেই চেনেন। আর আমি সেখানে বাংলার প্রতিনিধিত্ব করি। এর মধ্যে তো খারাপ কিছু নেই। আমি কিন্তু ডাল-ভাত খাওয়া বাঙালি। তবে ধীরে ধীরে সেখানে পরিচিতি হয়ে উঠছি।’

বেশ ছোট বয়সেই সিনেমায় আসেন ঋত্বিকা। এখন অবশ্য পুরোদস্তুর নায়িকা। বর্তমানে তিনি বিবিএ পড়ছে। এর পর স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করার ইচ্ছে রয়েছে বলে জানান তিনি।

অভিনয় এবং পড়াশোনা দুটো এক সঙ্গে কি করে ব্যালান্স করে জানতে চাইলে তিনি জানান, অভিনয় এবং পড়াশোনা ব্যালান্স করা খুব সহজ ব্যাপর না হলেও আমাকে সব সময় সাহস জুগিয়েছেন মা। তাই দুটি কাজ একসঙ্গে করা সম্ভব হচ্ছে।

ঋত্বিকা ইতোমধ্যে কলকাতার একটি ওয়েব সিরিজেও অভিনয় করছেন। সিনেমার নায়িকা হুট করে ওয়েবে? এমন প্রশ্নের মুখে নায়িকার ভাষ্য, ওয়েব সিরিজ নিয়ে একটা দীর্ঘ সময় আমি দোটানার মধ্যে ছিলাম। লকডাউনে এমন কোনও ওয়েব সিরিজ ছিল না, যেটা আমি দেখেনি। তার পর থেকেই ইচ্ছাটা প্রবল হয়। প্রস্তাবও প্রচুর এসেছে। কিন্তু সত্যি বলতে মনের মতো চরিত্র পাচ্ছিলাম না। তাই এতটা সময় লাগল। অবশেষে পেলাম। নাম ‘অভিশপ্ত’।

সিরিজটিতে ঋত্বিকা অপর্ণা চরিত্রে অভিনয় করেছন। এতে তার স্বামীর চরিত্রে রয়েছেন গৌরবদা (চট্টোপাধ্যায়)। বিয়ের পর শ্বশুরবাড়িতে গিয়ে কিছু অদ্ভুত ঘটনার সম্মুখীন হয় সে। তার পর রহস্য আরও ঘনীভূত হয়। অভিমন্যু মুখোপাধ্যায় পরিচালনা করেছেনি ওয়েব সিরিজটি।