সারা খুলনা অঞ্চলের খবরা খবর

52
Spread the love

ছাত্রদল নেতা মনিরের ওপর হামলার নিন্দা

খবর বিজ্ঞপ্তি

জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল দিঘলিয়া উপজেলা শাখার আহবায়ক গাজী মনিরুল ইসলামের ওপর হামলা চালিয়েছে সন্ত্রাসীরা। রবিবার দুপুরে শাসক দলীয় সন্ত্রাসীরা তার ওপর বর্রোচিত হামলা চালালে তিনি গুরুতর আহত হন। আশংকাজনক অবস্থায় তাকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি  করা হয়েছে। ঘটনার তিব্র নিন্দা জানিয়ে এবং অবিলম্বে সন্ত্রাসীদের গ্রেফতারপূর্বক দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন বিবৃতি দিয়েছেন খুলনা জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আব্দুল মান্নান  মিস্ত্রি সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা তুহিন।

দিঘলিয়ার সেনহাটীতে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত কমপক্ষে

আসাদ, দিঘলিয়া

পুলিশ এলাকাবাসীর কাছ থেকে জানা যায়, রবিবার দুপুর সাড়ে ১২ টায়  সেনহাটী পুলিশ ক্যাম্পের সামনে সেনহাটী ইউপি নির্বাচনে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী ফারহানা হালিম আঃলীগের বিদ্রোহী বহিস্কৃত প্রার্থী গাজী জিয়াউর রহমান ওরফে জিয়া গাজী পাশাপাশি নির্বাচনী জনসংযোগ করছিল।এ সময়ে ফারাহনা হালিমের কর্মীদের সাথে জিয়া গাজীর কর্মীদের বাকবিতন্ড থেকে হাতাহাতি হলে জিয়া গাজীর কর্মী হিটলার (৩২) গুরুতর আহত হয়।এ ঘটনার কিছুক্ষণ পর জিয়া গাজী তার কর্মী সমর্থক নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণার জন্য পুলিশ ফাঁড়ির কাছে অবস্হান করছিল। এসময় চন্দনীমহল স্টার নং গেট থেকে সেনহাটীর উদ্দেশ্যে মোটরসাইকেল যোগে ফারহানা হালিম এর সমর্থক প্রাক্তন দিঘলিয়া উপজেলা চেয়ারম্যান মল্লিক মহিউদ্দিন এর পুত্র মল্লিক মিজানুর রহমান ওরফে মিজান মল্লিক (৪৫), বাবু গাজী (৩০) মনিরুল গাজী (৩৫) যাওয়ার সময় সেনহাটী পুলিশ ফাঁড়ির সামনে জিয়া গাজীর সমর্থকরা তাঁদের উপর হামলা চালিয়ে মারাত্মক জখম করে।

সময় ফারহানা হালিমের আরো একজন সমর্থক তাসের গোলদার (৫৫) আক্রমণের শিকার হন।পরে ফারহানা হালিমের সমার্থকরা জিয়া গাজীর আর এক সমার্থক ষ্টার নং গেট বাজারের দোকানদার মুনসুর (৫০) এর উপর হামলা চালিয়ে তাকে আহত করে। আহতদের প্রথমে দিঘলিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যাওয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাঁদেরকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। খবর পেয়ে ফরহানা হালিম আহতদের দেখতে উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রে ছুঁটে যান।

ঘটনা নিয়ে এলাকায় দুই পক্ষের সমর্থকদের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি মোকাবেলায় এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে পুলিশি টহল জোরদার করা হয়েছে। দিঘলিয়া থানা অফিসার ইনচার্জ মোঃ আহসানউল্লাহ চৌধূরী ওসি তদন্ত রিপন কুমার সরকার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় কোন মামলা হয়নি।তবে এলাকায় চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

কেশবপুরে করোনা ঝুঁকি কমাতে কৌশল নির্ধারণী কর্মশালা অনুষ্ঠিত

কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি:

কেশবপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের হলরুমে করোনা ঝুঁকি কমাতে কৌশল নির্ধারণী কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। রবিবার দুপুরে জাইকার অর্থায়নে এবং এশিয়া আর্সেনিক নেটওয়ার্ক বাংলাদেশের বাস্তবায়নে ওই কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়।

উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আলমগীর হোসেনের সভাপতিত্বে কর্মশালায় বক্তৃতা করেন, যশোরের সরকারি হাসপাতালগুলোতে পানি সরবরাহ উন্নয়ন এবং স্বাস্থ্যবিধি চর্চার মাধ্যমে করোনা ঝুঁকি হ্রাসকরণ প্রকল্পের প্রকল্প ব্যবস্থাপক তরুণ কান্তী হোর। সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার আহসানুল মিজান রুমী, মেডিকেল অফিসার ডা. প্রদীপ্ত চৌধুরী, সহকারী প্রকল্প ব্যবস্থাপক জয়নুল আবেদীন, প্রকল্প সমন্বয়কারী রেজাউল করিম প্রমুখ।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হেলথ প্রমোটরের দায়িত্বে থাকা প্রকল্পের আসাদুজ্জামান মিন্টু মরিয়ম খাতুন প্রতিনিয়ত হাসপাতালে আসা রোগীদের স্বাস্থ্য সচেতন করে করোনা ঝুঁকি কমাতে কাজ করে চলেছেন বলে জানা গেছে।

আরো ৪টি বগি ২টি ইঞ্জিন নিয়ে চতুর্থ দফায় মোংলা বন্দরে ভিড়েছে এম,ভি প্রেসার্স কোরাল

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি

জাপানের কোবে বন্দর থেকে আরো ৪টি বগি ২টি ইঞ্জিন নিয়ে চতুর্থ দফায় মোংলা বন্দরে ভিড়েছে বিদেশী জাহাজ এম,ভি প্রেসার্স কোরাল। জাহাজটি রবিবার বিকেল ৫টার দিকে বন্দর জেটিতে ভিড়ে। এরপর বন্দর কাস্টমস কর্তৃপক্ষসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরের কাগজপত্রের কাজ সম্পন্ন হওয়ার পর জাহাজ থেকে বগি ইঞ্জিন নামানোর কাজ শুরু হয়। জাহাজ থেকে সরাসরি বার্জে (নৌযান) বগি ইঞ্জিন খালাস করা হচ্ছে। খালাস শেষে এগুলো নদী পথেই ঢাকার উত্তরার দিয়াবাড়ীতে ডিপোতে নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন বিদেশী জাহাজ এম,ভি প্রেসার্স কোরাল’স্থানীয় শিপিং এজেন্ট এনসিয়েন্ট স্টিম শিপ কোম্পানী লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার মোঃ ওহিদুজ্জামান। তিনি বলেন, চতুর্থ দফায় আসায় ৪টি বগি ২টি ইঞ্জিনের সাথে আনুষাঙ্গিক আরো সরঞ্জামাদিও রয়েছে।

মোংলা বন্দর কর্তৃপক্ষের হারবার মাষ্টার কমান্ডার শেখ ফখরউদ্দীন বলেন, এর আগে গত ৩১ মার্চ এম,ভি এস,পি,এন ব্যাংকক জাহাজে টি, মে এম,ভি ওশান গ্রেস জাহাজে ৬টি বগি ২০ জুলাই এম,ভি হরিজন-০৯ জাহাজে ১০টি বগি ২টি ইঞ্জিন খালাস হয়েছে বন্দর দিয়ে। আর রবিবার আরো ৪টি বগি ২টি ইঞ্জিন নিয়ে এম,ভি প্রেসার্স কোরাল মোংলা বন্দরে ভিড়েছে।

রূপসায় আনসার  ভিডিপির ভবন উদ্বোধন

রূপসা প্রতিনিধি :

রূপসা উপজেলা আনসার ভিডিপি ভবনের উদ্বোধন গত ১২ সেপ্টেম্বর বিকালে অনুষ্ঠিত হয়। নতুন ভবন উদ্বোধনে প্রধান অতিথি ফিতা কেটে নামফলক উন্মোচন ফলোজ চারা রোপণ করেন আনসার গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনী, খুলনা রেঞ্জ, পরিচালক মোল্লা আমজাদ হোসেন পিএফএমএস। 

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. কামাল উদ্দিন বাদশা, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবাইয়া তাছনিম, নির্বাচন কর্মকর্তা মোল্যা নাসির আহমেদ, ওসি তদন্ত মো. সিরাজুল ইসলাম।

জেলা কমান্ড্যান্ট হাফিজ আল মোয়াম্মার গাদ্দাফী’ব্যবস্থাপনায় সময় উপস্থিত ছিলেন আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা হালিমা খাতুন, উপজেলা আনসার প্রশিক্ষক মো. বিপুল গাজী, সহকারী আনসার কমান্ডার আ: রব, মাসুদুর রহমান, ইউনিয়ন দলপতি মো. দেলোয়ার হোসেন, আরিফুল, মাজাহারুল, সৈয়দ আজাহার আলী, বিনোদ কুমার, খাদিজা আকতার, সাফিয়া বেগম, মুক্তা মনি, শাহিনারা, শাহানাজ ইসলাম, শাহাদাত, মো. মহিবুল ইসলাম, জেসমিন আকতার, লিটন মোল্যা, শাহাদাত হাওলাদার, বাবুল, রাকিব, মুরাদ প্রমূখ।

ইসলামী আন্দোলন খুলনা ১৬ নং ওয়ার্ড কমিটির পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত

খবর বিজ্ঞপ্তি

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ খুলনা মহানগরীর সোনাডাঙ্গা আওতাধীন ১৬ নম্বর ওয়ার্ড শাখার সদস্য তারবিয়াত, পরিচিতি সভা শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠান গতকাল রোববার সন্ধ্যায় স্থানীয় আব্দুর রউফ ঢালী কমিউনিটি সেন্টারে ওয়ার্ড সভাপতি আব্দুস সোবহানের সভাপতিত্বে সেক্রেটারী হাফেজ শেখ আব্দুর রাকিব এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ খুলনা মহানগর সভাপতি মুফতি আমানুল্লাহ সাহেব। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ খুলনা মহানগরীর সহ সভাপতি মুফতী মাহবুবুর রহমান, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ খুলনা মহানগর সেক্রেটারী শেখ মোঃ নাসির উদ্দিন, জয়েন্ট সেক্রেটারী সোনাডাঙ্গা থানার সভাপতি মুফতী ইমরান হোসাইন। উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ সোনাডাঙ্গা থানার সেক্রেটারী মোল্লা রবিউল ইসলাম তুষার, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ সাইফুল ইসলাম, বয়রা বাজার জামে মসজিদের সম্মানিত ইমাম খতিব মুফতি রফিকুল ইসলাম, মাওলানা ইকবাল মাহমুদ, মোঃ আবু হানিফ, রেজাউল করিম, শেখ আলী আকবর, মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম, ইসলামী যুব আন্দোলনের সভাপতি মুন্সি বশির আহমদ, সেক্রেটারী মোঃ আল আমিন মীর, ইসলামী শাসনতন্ত্র ছাত্র আন্দোলন সভাপতি আব্দুল্লাহ মুজাহিদ, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ ফাহিম সহ ওয়ার্ড শাখার অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ খুলনা মহানগরীর সভাপতি মুফতি আমানুল্লাহ সাহেব এর দোয়ার মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘটে।

পানখালী ইউনিয়নে হাতপাখার প্রার্থীর ব্যাপক গণসংযোগ

খবর বিজ্ঞপ্তি

আগামী ২০ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে  দাকোপ উপজেলার ১নং পানখালী ইউনিয়নে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মনোনীত হাতপাখা প্রতীকের প্রার্থী

আলহাজ্ব মোঃ জাহিদুল ইসলাম গতকাল বিকাল টায় প্রার্থীর নিজ এলাকা কাটাবুনিয়া বাজার, মৌখালী ,খাটাইল খোনা গ্রামের বিভিন্ন স্থানে সাধারণ ভোটারদের অংশগ্রহণে ব্যাপক গণসংযোগ করেন। এসময় প্রার্থীর সাথে ছিলেন জেলা ইসলামী আন্দোলনের সহঃঅর্থ সম্পাদক আলহাজ্ব মাওলানা আবু সাঈদ, মাওলানা ওবায়দুল্লাহ, হাফেজ ওসমান শেখ, মৌলভী হায়দার আলী, মোঃ আব্দুল হান্নান, মোঃ জাহিদুর রহমান, মোঃ আব্দুর রউফ, মোঃ সুলতান গাজী, মোঃ আবু ইউসুফ, মোঃ আইয়ুব আলী প্রমুখ।

গণসংযোগকালে প্রার্থী বলেন এই পানখালী ইউনিয়নে মানবতার কল্যাণে ইসলামী আন্দোলনের অনেক অবদান রয়েছে এতএব আগামী ২০ সেপ্টেম্বর নির্বাচন সুষ্ঠু হলে হাতপাখা প্রতীকের বিজয় হবে ইনশাআল্লাহ।

কালীগঞ্জের সেই স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকে অবাঞ্চিত ঘোষনা: কমিটি বিলুপ্ত

সাবজাল হোসেন,বিশেষ প্রতিনিধি

ঝিনাইদহ কালীগঞ্জের আলাইপুর গ্রামের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উপর নির্ষাতন চালনাকারী সেই সেচ্ছাসেবকলীগ নেতা মিজানুর রহমানকে অবাঞ্চিত ঘোষনা করা হয়েছে। ওই গ্রামের শান্তি শৃংখলা রক্ষায় শনিবার রাতে স্থানীয় সাংসদ আনোয়ারুল আজিম আনার গ্রামবাসীদের দেয়া অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিস্তারিত যাচাই বাছাই শেষে ঘোষনা প্রদান করেন। সময় তিনি বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামীলীগসহ এর সকল অঙ্গ সহযোগী সংগঠন সব সময় অসাম্প্রদায়িক চেতনায় বিশ্বাস করে। ফলে যারা চেতনার ধার না ধেরে সংখ্যালঘুদের নির্যাতন করবে অথবা প্রভাব বিস্তার করে অশান্তি সৃষ্টিসহ ভয়ভীতি দেখাবে তাকে কোনভাবেই ছাড় দেয়া হবে না। প্রয়োজনে অপরাধীকে আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করা হবে। তিনি শালিসী সভায় দৃড়তার সাথে বলেন, আইন সকলের জন্য সমান। অপরাধ করল্ েকেউ রেহায় পাবে না। এর আগে কালীগঞ্জের সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের নির্যাতন চালানোর খবর পত্রপত্রিকায় প্রতিবেদন প্রকাশ হওয়ার পর জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি ঘটনার বিষয় তদন্তে সরাসরি ওই গ্রামে এসে কথিত মিজানের বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের সত্যতার প্রমান পান। এরপর তিনি প্রেসক্লাব বরাবর পাঠানো অপর এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে উপজেলার আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবকলীগের উপজেলা কমিটি বিলুপ্ত ঘোষনা করেন।

বিষয়ে গ্রামটির সামাজিক মাতবর বা নেতৃবৃন্দ বলেন, সমাজের বেশিরভাগ মানুষ ভালো। কিন্ত দু- একজন দুষ্টু প্রকৃতির মানুষের জন্য সমগ্র গ্রামে অশান্তি চলতে দেয়া যায়। প্রয়োজন আইনের আশ্রয়ে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। সম্প্রতি পাওয়া কালীগঞ্জের সংখ্যালঘুদের ওপর চালানো নির্যাতনের  অভিেিযাগের প্রেক্ষিতে গত শনিবার রাত টায় আলাইপুর গ্রামের দাসপাড়াতে এক সালিশী সভা গ্রামবাসীর উপস্থিতিতে অনষ্ঠিত হয়। স্থানীয় সাংসদ আনোয়ারুল আজিম আনার গ্রামটিতে বসবাসের উপযোগী করতে দোষী মিজানের বিচারের জন্য শালিসী সভায় অংশ নেন। তিনি সময় ছাড়াও বিগত কয়দিন গ্রামটির শান্তি শৃংখলা রক্ষায় গ্রামবাসী সংশ্লিষ্ঠ পরিবারের লোকজনের সাথে একাধিকবার কথা বলেছেন। গ্রামের লোকজন সকলে মিলেমিশে বসবাস করার ইচ্ছে পোষন করলে তিনি তা বাস্তবায়নে আপ্রান চেষ্টা করে সফল হয়েছেন। শনিবার রাতে অনুষ্ঠিত শালিসী সভায় গ্রামবাসী সামাজিক বিচারদের কথা সকলে মনোযোগ দিয়ে শোনেন। শুনানী শেষে অভিযুক্ত মিজানের দোষ প্রমাণিত হয়। তাছাঢ়া উপস্থিত সকলেই শান্তিপূর্ণভাবে বসবাস করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। সময় উপস্থিত সাংসদসহ সামাজিক বিচারকবৃন্দ মিজানকে অবাঞ্চিত ঘোষনা করেন। সময় কালীগঞ্জ উপজেলা পূজা উৎযাপন পরিষদ, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদ স্থানীয় আ’লীগের নেতৃবৃন্দসহ গনমাধ্যমকর্মী গ্রামটির সামাজিক মাতবরেরা উপস্থিত ছিলেন।

কালীগঞ্জের ৫’অসহায় নারী পেলেন খাদ্য সহায়তা

বিশেষ প্রতিনিধি

ভরসার নতুন জানালা এই স্লোগান নিয়ে ঝিনাইদহের কালীগঞ্জে করোনায় ক্ষতিগ্রস্থ অসহায় নারীদের জন্য খাদ্য সহায়তা প্রদান করা হয়েছে। বিকশিত বাংলাদেশ ফাউন্ডেশন জাপানভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন হাঙ্গার ফ্রি ওয়াল্ডের উদ্যোগে কালীগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের  মোট ৫’জনকে এই সহযোগিতা প্রদান করা হয়।

রোববার সকালে সুনিকেতন পাঠশালা চত্বরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাদিয়া জেরিন। সময় হাঙ্গার ফ্রি ওয়ার্ল্ডের প্রোগ্রাম অফিসার শাহজাহান আলী বিপাশের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কালীগঞ্জ উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা মোঃ কৌশিক খান, উপজেলা সমবায় অফিসার  মোঃ আসাদুজ্জামান, মিডিয়া ব্যক্তিত্ব বাংলাদেশ টেলিভিশনের মাটি মানুষের উপস্থাপক রেজাউল করিম সিদ্দিক,একটি বাড়ি একটি খামারের ম্যানেজার শাহরিয়ার আলম,কালীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি জামির হোসেন,সাধারন সম্পাদক সাবজাল হোসেন, কালীগঞ্জ থানার এস আই কাবিরুল ইসলাম, হাঙ্গার ফ্রি ওয়ার্ল্ডের প্রোগ্রাম অফিসার মিজানুর রহমান মিজান, সুফিয়া খাতুন প্রমুখ। অনুষ্ঠানের মাধ্যমে প্রায় ৫’শতাধিক অসহায় মহিলাদের হাতে চাউল এবং ডাল তুলে দেয়া হয়।

খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা মঙ্গলবার

খবর বিজ্ঞপ্তি

মঙ্গলবার বাদ মাগরিব খুলনা মহানগর  আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন খুলনা-আসনের সংসদ সদস্য জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভ্রাতুষ্পুত্র সেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল। দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত বর্ধিত সভায় মহানগর আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ, থানা, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ এবং মহানগর পর্যায়ের সকল সহযোগী সংগঠনের সভাপতি সাধারণ সম্পাদক সিটি কর্পোরেশনের নির্বাচিত সকল দলীয় কাউন্সিলরদের যথাসময়ে উপস্থিত থাকার জন্য বিশেষ আহবান জানিয়েছেন, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি সিটি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক এবং সাধারণ সম্পাদক এম ডি বাবুল রানা।

সেখ সালাহ উদ্দিন জুয়েল এমপি খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করবেন আজ

খবর বিজ্ঞপ্তি

আজ সোমবার করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করবেন খুলনা-আসনের সংসদ সদস্য জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভ্রাতুষ্পুত্র সেখ সালাহউদ্দিন জুয়েল। তিনি বেলা ১১টায় সদর থানার শহীদ হাদিস পার্কে ২১, ২৩ ২৯নং ওয়ার্ডে এবং বেলা ১২টায় সোনাডাঙ্গা থানার বায়তুন নূর জামে মসজিত প্রাঙ্গণে ১৬, ১৭ ১৮নং ওয়ার্ডে সকল খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করবেন। এই অনুষ্ঠানে যথাসময়ে উল্লেখিত ওয়ার্ডের সভাপতি সাধারণ সম্পাদককে খাদ্যসামগ্রী গ্রহিতাদের নিয়ে উপস্থিত থাকার জন্য বিশেষ আহবান জানিয়েছেন, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি সিটি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক এবং সাধারণ সম্পাদক এম ডি বাবুল রানা।

খুলনা প্রেসক্লাব আয়োজিত কেরাম (দ্বৈত) প্রতিযোগিতা-২০২১

খবর বিজ্ঞপ্তি

খুলনা প্রেসক্লাবের অভ্যন্তরীণ ক্রীড়া প্রতিযোগিতার অংশ হিসেবে ‘কেরাম (দ্বৈত) প্রতিযোগিতা-২০২১’-এর রবিবারের খেলায় মোঃ খায়রুল আলম মো. আজিজুল ইসলাম জুটি এবং হেলাল মোল্লা আরাফাত হোসেন অনিক জুটি নিজ নিজ খেলায় জয়লাভ করেছেন। দিনের প্রথম খেলায় মোঃ খায়রুল আলম মো. আজিজুল ইসলাম জুটি ২-সেটে মাকসুদুর রহমান রফিক আলী জুটিকে পরাজিত করেন। এছাড়া দিনের অপর খেলায় হেলাল মোল্লা আরাফাত হোসেন অনিক জুটি ২-সেটে হাসান আহমেদ মোল্লা ইয়াসিন আরাফাত রুমি জুটিকে পরাজিত করেন। খেলায় আম্পায়ারের দায়িত্ব পালন করেন ক্লাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শেখ দিদারুল আলম। আজ ১৩ সেপ্টেম্বর সোমবার প্রতিযোগিতার ২টি সেমিফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হবে। সকাল ১১টায় প্রথম খেলায় আহমদ মুসা রঞ্জু নূর ইসলাম রকি জুটি বনাম আলমগীর হান্নান আশরাফুল ইসলাম নূর জুটি এবং দুপুর সাড়ে ১২ টায় মোঃ খায়রুল আলম মো. আজিজুল ইসলাম জুটি বনাম হেলাল মোল্লা আরাফাত হোসেন অনিক জুটি একে অপরের প্রতিদ্বন্দ্বীতা করবেন। খেলায় আম্পায়ারের দায়িত্ব পালন করবেন ক্লাব সদস্য মোঃ আব্দুল হালিম।

স্কুলে স্কুলে শিক্ষার্থীদের উচ্ছাস, খুশি অভিভাবক-শিক্ষকরা

বাগেরহাট প্রতিনিধি

৫৪৪ দিন পরে স্কুলে এসে খুশি বাগেরহাটের শিক্ষার্থীরা। রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এসেছেন তারা।  প্রতিটি স্কুলে উচ্ছসিত ছিল শিক্ষার্থীরা। দীর্ঘদিন পরে সন্তানদের স্কুলে পাঠাতে পেরে খুশি হয়েছেন অভিভাবকরাও। শিক্ষকরাও খুশি শিক্ষার্থীদের পেয়ে। নির্ধারিত সময় শেষে বাড়ি ফিরেছেন তারা।

রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) সকালে বাগেরহাট সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান গেট দিয়ে মাস্ক পরে শিক্ষার্থীদের প্রবেশ করতে দেখা যায়। বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ শিক্ষার্থীদের শরীরের তাপমাত্রা পরিমাপ হ্যান্ড স্যানিটাইজের ব্যবস্থা করেছেন। প্রতিটি শ্রেণি কক্ষে শিক্ষকরা শিক্ষার্থীদের ফুল দিয়ে বরন করে নিয়েছেন। অন্যান্য সময়ের মত একে অপরের কাঁধে হাত অথবা কোলাকুলির দৃশ্য না থাকলেও শিক্ষার্থীদের চোখে মুখে ছিল অন্যরকম অন্যরকম এক আনন্দ অনুভূতির ছোয়া। উচ্ছসিত ছিল প্রতিটি শিক্ষার্থী।

বালিকা বিদ্যালয়ের ৪র্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী ফাতেমাতুজ্জোহরা ইমা বলেন,  খুব ভোরে স্বাভাবিকভাবে আমার ঘুম ভেঙ্গে গেছে। গতকাল রাতেই প্রস্তুত করে রাখা স্কুল ব্যাগ বই নিয়ে আম্মুর সাথে স্কুলে এসেছি। অনেকদিন পড়ে স্কুলে এসে আমার খুব ভাল লাগছে। স্যাররাও আমাদের অনেক আদর করেছেন।

দশম শ্রেণির শিক্ষার্থী অবনি বলেন, অনেকদিন পরে স্কুলে এসে পুরোনো বন্ধুদের সাথে কুশল বিনিময় করছি, এতদিনের না বলা কথা শেয়ার করছি। কিযে ভাল লাগছে তা ভাষায় প্রকাশ করা সম্ভব নয়। তবে করোনার আগে আমরা যেমন এক সাথে অনেক শিক্ষার্থী ক্লাস করতে পারছি। এখন তা পারছিনা।  অল্প সংখ্যক শিক্ষার্থী নিয়ে ক্লাস হচ্ছে। এই প্রথম মাস্ক পরিহিত অবস্থায় সবাই স্কুলে আসল। আগে কোন দিন মাস্ক পরে স্কুলে আসিনি। তারপরও যে ক্লাস হচ্ছে তাতে আমরা খুশি।

বিদ্যালয়ের গেটের সামনে সন্তানের জন্য অপেক্ষারত অভিভাবক ছবি ইসলাম বলেন, এতদিন স্কুল বন্ধ থাকায় সন্তানদের নিয়ে এক ধরণের চিন্তায় ছিলাম। সকালে মেয়েকে নিয়ে স্কুলে এসেছি, খুব ভাল লাগছে। এখন একটু চিন্তামুক্ত হলাম।

বাগেরহাট সরকারি বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক চিত্তরঞ্জন পাল বলেন, প্রথম দিনেই শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি সন্তোষজনক। শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষার জন্য আমরা স্যানিটাইজসহ নানা উদ্যোগ নিয়েছি। এক সাথে অনেক শিক্ষার্থীর পাঠদান আমরা বন্ধ রেখেছি। শিফট অনুযায়ী অল্প অল্প সংখ্যক শিক্ষার্থীদের পাঠদানের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

শুধু বাগেরহাট সরকারি বালিকা বিদ্যালয় নয়, জেলার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষার্থীদের সরব উপস্থিতি ছিল। প্রতিটি প্রতিষ্ঠানই শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতের বিষয়ে কার্যকর উদ্যোগ নিয়েছেন। এছাড়াও সরকারের উর্দ্ধোতন কর্মকর্তা জনপ্রতিনিধিগণ  বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শণ করেছেন।

বাগেরহাট জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ কামরুজ্জামান বলেন, সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান শুরু করেছি। সকাল থেকে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পরিদর্শণ করেছি। সকল প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে পাঠদান করছেন। পাঠদানের পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতের বিষয়টি সর্বোচ্চ গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

সরকারি তথ্য অনুযায়ী, বাগেরহাটে ১১৬২টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের  এক লক্ষ ৯৩ হাজার ৫০৯ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। মাধ্যমিক উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের ৩১৯টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ৮৮ হাজার শিক্ষার্থী, ১৬৪টি মাদরাসায় ৩০ হাজার ৬৪৮ শিক্ষার্থী রয়েছে। এর বাইরে ৩৪টি স্নাতক পর্যায়ের বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ এবং ১৩৪টি কিন্ডার গার্টেনে প্রায় অর্ধলক্ষাধিক শিক্ষার্থী রয়েছে।

বাগেরহাটে কেন্দ্র দখলের শঙ্কায় সাত প্রার্থীর অভিযোগ

বাগেরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলার সাউথখালী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে সদস্য পদে সুষ্ঠ নির্বাচন নিয়ে শঙ্কা দেখা দিয়েছে। ভোটের দিন কেন্দ্র দখল, ভোটারদের  ভোটকেন্দ্রে না যাওয়ার হুমকী  কর্মীদের ভয়ভীতী দেখানোর অভিযোগ উঠেছে প্রতিদ্বন্দী প্রার্থীদের বিরুদ্ধে। এসব অভিযোগের প্রতিকার সুষ্ঠ নির্বাচনের দাবিতে এই ইউনিয়নের সাতজন সদস্য প্রার্থী বাগেরহাট জেলা প্রশাসকসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত আবেদন করেছেন।

আবেদনকারীরা হলেন, সাউথখালী ইউনিয়ন পরিষদের নং ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী শফিকুল ইসলাম ডালিম, নং ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী মোঃ দোলোয়ার হোসেন খলিল মীর, নং ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী সামসুল আলম রিপন, নং ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী আল আমিন খান, নং ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী আবু হানিফ মুন্সি এবং নং ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী জামাল হোসেন জমাদ্দার, নং ওয়ার্ডের সদস্য প্রার্থী জাহাঙ্গীর খলিফা।

আবেদনকারী প্রার্থী শফিকুল ইসলাম ডালিম বলেন, আমার প্রতিদ্বন্দী প্রার্থীর বাড়ির সামনে কেন্দ্র থাকায় নির্বাচনের আগে থেকেই নানা রকম হুমকি-ধামকী দিয়ে আসছে। এমনকি আমার সমর্থকদের উপর হামলা চালায় এবং কুপিয়ে আহত করে কয়েকজন কর্মীকে। এসব কাজের নেপথ্যে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান হাসানুজ্জামান পারভেজ রয়েছে। তিনি আমার প্রতিদ্বন্দী প্রার্থী এবং অন্যান্য ওয়ার্ডে তার মনোনীত প্রার্থীদের বিজয়ী করতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন। নির্বাচনের দিন কেন্দ্র দখল করারও পরিকল্পনা রয়েছে তার।

সদস্য প্রার্থী জামাল হোসেন জমাদ্দার, মোঃ দোলোয়ার হোসেন খলিল মীর, আল আমিন খানসহ সকল প্রার্থীদের অভিযোগ আমরা আওয়ামী লীগের নিবেদিত কর্মী হওয়ার পরেও ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নানা প্রকার বাঁধার সম্মূখিন হচ্ছি। সাউথখালী ইউনিয়নের সদস্য প্রার্থীদের কর্মী সমর্থকদের নানা প্রকার ভয়ভীতি প্রদর্শণসহ বিভিন্নভাবে আমাদের হয়রানি করছেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সাউথখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জামান পারভেজ।তিনি একটি বাহিনী গঠন করে প্রতিনিয়ত কেন্দ্রে না যাওয়ার জন্য চাপ প্রয়োগ করছেন। ঝুকিপূর্ণ কেন্দ্রে প্রশাসনের কঠোর নজর দারির পাশাপাশি অবাধ সুষ্ঠ নির্বাচনের দাবি করেন এই প্রার্থীরা।

উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান সাউথখালী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাসানুজ্জামান পারভেজ বলেন, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আমি কাউকে হয়রানি করার প্রশ্নই আসে না। যারা জনশূন্য, যাদের কোন ভোট নেই তারা এসব অভিযোগ করবে। আমার বিরুদ্ধে অন্তত এক হাজার অভিযোগ রয়েছে। কোন অভিযোগ সত্য নয়।

সদস্য প্রার্থীদের অভিযোগের সত্যতা পেলে নির্বাচন বিধিমালা অনুযায়ী প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দিয়েছেন সাউথখালী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ ওয়াসিম উদ্দিন।

কলারোয়ায় গ্রীষ্মকালীন টমেটোর পরিদর্শন করেন কৃষিমন্ত্রী

সোহাগ হোসেন কলারোয়া প্রতিনিধি

রবিবার (১২ সেপ্টেম্বর) বেলা সাড়ে ৩টার দিকে সাতক্ষীরার কলারোয়া গ্রীষ্মকালীন টমেটো ক্ষেত পরিদর্শন টমেটো চাষীদের সাথে মতবিনিময়কালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিঁনি বলেন, ‘কৃষকদের সামাজিক মর্যাদা আছে। অনেক উচ্চ শিক্ষিত মানুষ এখন কৃষি কৃষিখামার করে সাবলম্বি হচ্ছেন। গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষও অনেকটা সেরকম।’ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য কৃষিমন্ত্রী ড.আব্দুর রাজ্জাক এমপি আরো বলেন, ‘কৃষি কাজ করে আয় বাড়াতে হবে। আর এই আয় বাড়াতে হলে অসময়ের ফসল চাষাবাদ করতে হবে। ফলে পোকামাকরের আক্রমণ কম হবে। উপজেলায় ৬৭ হেক্টর জমিতে গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষাবাদ হয়েছে। আমার দাবি আগামি বছর জেলায় ৭০০ হেক্টরে জমিত গ্রীষ্মকালীন টমেটো চাষবাদ করা হোক।’

উপজেলার যুগিখালী ইউনিয়নের কামারালী মাঠে গ্রীষ্মকালীন টমেটো ক্ষেত পরিদর্শন করেন কৃষি মন্ত্রী ড.মো.আব্দুর রাজ্জাক। এর আগে সেখানে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে চাষীদের সাথে মতবিনিময় সুধিসমাবেশে বক্তব্য রাখেন তিনি।

ভারতীয় টমেটো আমদানি হওয়ায় এখানকার কৃষকরা টমেটোর ভালো দাম পাচ্ছেন না’ এমন অভিমতের প্রেক্ষিতে কৃষিমন্ত্রী ড.রাজ্জাক বলেন, ‘ভারতীয় টমেটো যাতে  না আসে সেটার ব্যবস্থা করা হবে। তাহলে টমেটোর আশানুরূপ দাম পাবে কৃষকরা।’

তিনি আরো বলেন, ‘ক্ষুধামুক্ত দারিদ্রমুক্ত সোনারবাংলা গড়তে হবে। গার্মেন্টেসের মতো সব কৃষিপণ্য যাতে বেশি বেশি বিদেশে রফতানি করা যায় তার সেদিকে লক্ষ্য করা হচ্ছে। বাংলাদেশে খাদ্যের ঘাটতি নেই, কোন অভাব নেই। এখন শুধু পুষ্টি সমৃদ্ধ খাদ্য উৎপাদন করতে হবে। এতে করে কৃষকদের আয় বাড়বে। পুষ্টিসমৃদ্ধ খাবার তৈরির জন্য বেশি বেশি সবজি চাষ করতে হবে। বেশি বেশি সবজি উৎপাদন করে দেশের চাহিদা মিটিয়ে সবজি বিদেশেও রফতানি করতে হবে।’

সরকারের প্রভাবশালী এই মন্ত্রী বলেন, ‘কাঁচামাল যাতে না পঁচে যায় সেজন্য সরকার নতুন প্রযুক্তি নিয়ে আসছে। লবনাতক্ত পানিতে যাতে ফসল উৎপাদন করার যায় তারও ব্যবস্থা নিচ্ছে সরকার। পিয়াজের বীজ ইতোমধ্যে সারা দেশে বিতরণ করা হচ্ছে। চলতি বছরে পিয়াজের কোন ঘাটতি নেই। প্রধানমন্ত্রীর সামনে কৃষি বিষয়ক যে প্রকল্প ধরা হয় সেটা তিনি পাশ করে দেন। কৃষির সমস্যাগুলো অচিরেই সমাধান করছে সরকার।’

গ্রীষ্মকালীন টমেটো ক্ষেত এলাকায় অতিদ্রুত বিদ্যুত সংযোগের ব্যবস্থা করা হবে বলে জানান কৃষি মন্ত্রী। একই সাথে টমেটো ক্ষেত সংলগ্ন ওফাপুর বিলের লষ্কর খালটি আগামি অর্থবছরের মধ্যে খনন করার ঘোষনা দেন কৃষি মন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক। খালটি দখল করে ঘের তৈরি করে মাছ চাষ করায় মাঠের পানি নিষ্কাশন হয় না।

ওই এলাকার কৃষকরা যাতে তাদের উৎপাদিত টমেটো নির্বিঘ্নে বিক্রয় করতে পারেন সেজন্য সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে শেড নির্মাণের প্রতিশ্রতি দেয়া হয়।

সাতক্ষীরা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক কৃষিবিদ নুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মেজবাহুল ইসলাম, বিএডিসির চেয়ারম্যান ড.অমিতাভ সরকার, সাতক্ষীরা-আসনের সংসদ সদস্য, সাতক্ষীরা-আসনের সংসদ সদস্য এড.মুস্তফা লুৎফুল্লাহ, সাতক্ষীরা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম। কৃষকদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন আফসার সানা। যুগিখালী ইউনিয়নের ৩৬০জন মতবিনিময়ে অংশ নেন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কৃষি গবেষণা কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ড.বখতিয়ার আহম্মেদ, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. আসাদুল্লাহ, বিএডিসির পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান, সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হুমায়ুন কবীর, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি সাবেক এমপি ইঞ্জিনিয়ার শেখ মুজিবুর রহমান, জেলা আ.লীগের নেতা ফিরোজ কামাল শুভ্র, অধ্যক্ষ আবু আহম্মেদ, ফিরোজ আহম্মেদ, কলারোয়া পৌর মেয়র মনিরুজ্জামান বুলবুল, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলিমুর রহমান, কলারোয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি অধ্যাপক এমএ কালাম, যুগিখালী ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল হাসানসহ কৃষি মন্ত্রণালয় কৃষি বিভাগের খুলনা বিভাগীয় জেলা পর্যায়ের বিভিন্ন কর্মকর্তা। এছাড়াও স্থানীয় আ.লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা উপস্থিত

ছিলেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফিরোজ আহম্মেদ স্বপন এবং উপজেলা কৃষি অফিসার রফিকুল ইসলাম।

পরে কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক কলারোয়া উপজেলা পরিষদে যান। সেখানে কিছু সময় অবস্থান করে বিকেলে যশোরের উদ্দেশ্যে রওনা হন। সেখানে উপজেলা চেয়ারম্যান আমিনুল ইসলাম লাল্টু, উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুবায়ের হোসেন চৌধুরীসহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে এদিন সকালে খুলনার ডুমুরিয়ায় ঘেরের পাড়ে সবজি ক্ষেত পরিদর্শন শেষে সাতক্ষীরা বাইপাস সড়ক হয়েকলারোয়ার কামারালী মাঠের গ্রীষ্মকালীন টমেটো ক্ষেত পরিদর্শনে আসেন কৃষিমন্ত্রী ড.মো.আব্দুর রাজ্জাক তার সফরসঙ্গীরা।

শরণখোলায় পুকুরে ডুবে শিশুর মৃত্যু

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি

বাগেরহাটের শরণখোলায় আরিফা নামে ১৫ মাসের এক শিশু পুকুরে পড়ে মারা গেছে। রবিবার সকাল ৯টার দিকে পুকুর থেকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক শশিুটিকে মৃত ঘোষনা করেন। উপজেলা দক্ষিণ রাজাপুর গ্রামে এই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে। শিশুর লাশ ময়না তদন্তের জন্য বাগেরহাট মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

পরিবার সূত্রে জানা যায়, সকাল ৮টার দিকে মা বিউটি বেগম ‘স্মার্ট’ নামে একটি এনজিওর সমিতি গঠনের সভা যান। এসময় তার মেয়েটিকে রেখে যান ১০ বছরের ছেলে বিপ্লবের কাছে। বাবা আলগীর তালুকদার সকালেই চলে গেছেন কৃষি শ্রমিকের কাজে। ছেলেটি তার বোনকে ঘরে রেখে সেও আশপাশের ছেলেমেয়েদের সাথে খেলায় মগ্ন। সেই ফাঁকে ঘরের পাশের পুকুরে পড়ে যায় শিশুটি। শরণখোলা থানার ভারপ্রপ্তা কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইদুর রহমান জানান, এতো কম বয়সের একটি শিশু কিভাবে পানিতে পড়লো তা কিছুটা সন্দেহজনক। তাই বিষয়টি ক্লিয়ার হওয়ার জন্য শিশুটির লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে।

খুলনা জেলায় করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ নিয়েছেন নয় হাজার সাতশত ৯৬ জন

তথ্য বিবরণী

খুলনা জেলায় রবিবার নয় হাজার সাতশত ৯৬ জন করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন। যার মধ্যে পুরুষ পাঁচ হাজার ৮১ এবং মহিলা চার হাজার সাতশত ১৫ জন।

খুলনা সিটি কর্পোরেশন এলাকায় তিন হাজার তিনশত ৩৬ জন এবং আটটি উপজেলায় মোট ছয় হাজার চারশত ৬০ জন করোনা ভ্যাকসিনের প্রথম ডোজ গ্রহণ করেন। উপজেলাগুলোর মধ্যে দাকোপে এক হাজার একশত আট জন, বটিয়াঘাটায় চারশত ১৪ জন, দিঘলিয়ায় ছয়শত ৮০ জন, ডুমুরিয়ায় নয়শত ৭৪ জন, ফুলতলায় পাঁচশত ছয় জন, পাইকগাছায় নয়শত ৫৩ জন, রূপসায় চারশত ৫৫ জন তেরখাদায় পাঁচশত ৭০ জন টিকার প্রথম ডোজ গ্রহণ করেছেন। রবিবার নগরীর পাঁচটি হাসপাতালে দুই হাজার তিনশত ৫৯ জন খুলনা জেলার নয়টি উপজেলায় দুই হাজার নয়শত ৪৬ জন ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করেছেন।

এপর্যন্ত খুলনা জেলায় তিন লাখ ৬৬ হাজার নয়শত ৯১ জন প্রথম ডোজ এবং দুই লাখ ৩০ হাজার ছয়শত ছয় জন করোনা ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করেছেন।

খুলনা সিভিল সার্জন দপ্তরের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এসকল তথ্য জানানো হয়েছে।

নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাস খাদে, নিহত

মাগুরা প্রতিনিধি

মাগুরা-যশোর সড়কের শালিখা উপজেলার রামকান্তপুর এলাকায় যাত্রীবাহী বাস খাদে পড়ে ঘটনাস্থলেই চারজন নিহত হয়েছেন। রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) বিকেলে দুর্ঘটনা ঘটে।

মাগুরা দমকল বাহিনীর স্টেশন অফিসার মাছুদুর রহমান জানান, দুপুরে যাত্রীবাহী বাসটি যশোর থেকে মাগুরার উদ্দেশে ছেড়ে আসে। পথিমধ্যে বেলা সাড়ে তিনটার দিকে শালিখার রামকান্তপুর এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাসটি রাস্তার পাশে খাদের পানিতে পড়ে যায়। তিনি জানান, সময় খবর পেয়ে মাগুরা থেকে দমকল বাহিনীর সদস্যরা গিয়ে ক্রেন দিয়ে বাসটিকে টেনে পানি থেকে উপরে তুলে আনে। সময় বাসের ভিতর নিচে থেকে চাপা পড়া অবস্থায় জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। তাদের মধ্যে দুজন নারী দুজন পুরুষ রয়েছেন। তবে এখনও নিহতদের পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি। শালিখা থানার ওসি মাহবুবুর রহমান জানান, দমকল বাহিনী পুলিশ যৌথ অভিযান চালিয়ে হতাহতদের উদ্ধার করেছে। ঘটনায় শালিখা থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

যোগিপোল ইউপি নির্বাচন উপলক্ষে  খানজাহান আলী থানা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সভা অনুষ্ঠিত

 ফুলবাড়ীগেট (খুলনা) প্রতিনিধি

আগামি ২০ সেপ্টেম্বর যোগিপোল ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনকে সামনে রেখে খানজাহান আলী থানা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের এক জরুরী সভা শনিবার সন্ধা টায় ফুলবাড়ীগেট বি, কে সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয় খানজাহান আলী থানা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা স,রেজওয়ান আলীর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন খুলনা মহানগর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক এম,ডি বাবুল রানা , প্রধান বক্তা ছিলেন মহানগর আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার মোঃ আলমগীর কবির, বিশেষ অতিথি ছিলেন মহানগর আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি বেগ লিয়াকত আলী, নুর ইসলাম বন্দ,  মহানগর আওয়ামীলীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক মোঃ ইউনুছ আলী, দপ্তর সম্পাদক মুন্সি মাহাবুব আলম সোহাগ, খানজাহান আলী থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি শেখ আবিদ হোসেন, সাধারন সম্পাদক চেয়ারম্যান প্রার্থী শেখ আনিছুর রহমান ,কেসিসি  নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক মনিরুজ্জামান মুকুল, বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ¦  মোল্লা মুজিবর রহমানের পরিচালনায়  বক্তব্য রাখেন মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের ডেপুটি কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা  মুন্সি আইয়ুব আলী, ইজ্ঞিঃ শেখ আবদুল জব্বার, মোঃ আজাদ, ইজ্ঞিলকাজী, আলেক শেখ, , কাগজী আজগার, আবদুল মান্নান, শেখ আজগার, মিনা আলাউদ্দিন, অরুন কুমার দাস, আনোয়ার হোসেন প্রমুখ সভায় প্রধান অতিথি সহ বক্তারা আসন্ন নং যোগিপোল ইউপি নির্বাচনে আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী আনিসুর রহমানের নৌকা প্রতিকের পক্ষে আন্তরিকভাবে কাজ করার জন্য সকল মুক্তিযোদ্ধা আওয়ামীলীগের নেতাকর্মিদের প্রতি আহবান জানান এছাড়া কোন মুক্তিযোদ্ধা নৌকার বিপক্ষে কাজ করলে তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যাবস্থ্যা গ্রহন করা হবে

শিরোমনি হাফেজিয়া মাদ্রাসা মসজিদ কমিটির আহবায়ক কমিটি গঠন

  ফুলবাড়ীগেট (খুলনা) প্রতিনিধি

শিরোমনি হাফেজিয়া মাদ্রাসা মসজিদ এর কমিটি বিলুপ্ত করে নতুন আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে শুক্রবার জুম্মাবাদ শিরোমনি হাফেজিয়া মাদ্রাসা কমিটির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি  শেখ সিরাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে সভায় বক্তৃতা করেন শেখ মিজানুর রহমান প্রমুখ সভায় খানজাহান আলী থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি শেখ আবিদ হোসেনকে আহবায়ক মোঃ শহিদুল ইসলাম (রাবু) কে সদস্য সচিব করে ১১ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়

ভারত সরকারের উপহারের আরও ২৯টি লাইফ র্সাপোর্ট এ্যাম্বুলেন্স বেনাপোল স্থলবন্দরে প্রবেশ করেছে

বেনাপোল প্রতিনিধি

ভারত সরকারের উপহারের আরও ২৯টি লাইফ সাপোর্ট এ্যাম্বুলেন্স ভারতের পেট্রোপোল বন্দর দিয়ে বেনাপোল স্থলবন্দরে প্রবেশ করেছে। ৪টি চালানে ভারত থেকে এলো ৯৭ টি এ্যাম্বুলেন্স। রোববার বিকেলে ভারতের পট্রোপোল বন্দরে ছাড়পত্র পাওয়ার পর এ্যাম্বুলন্সগেুলো বেনাপোল বন্দরে প্রবেশ করেছে। কাস্টম সুত্র জানায়, ভারতের প্রধানমন্ত্রী চলতি বছরের ২৬/২৭র্ মার্চ বাংলাদেশ সফরকালে কোভিড-১৯ মোকাবিলায় যৌথ প্রচষ্টোয় লাইফ র্সাপোর্ট এ্যাম্বুলেন্স উপহার দেয়ার ঘোষণা দিয়েছিলেন। বেনাপোল বন্দরের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক মামুন তরফদার জানান,চলতি বছরের মার্চ মাসে বাংলাদেশে সফরকালে করোনা মহামারি মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকারকে ১০৯টি লাইফ র্সাপোর্ট এ্যাম্বুলেন্স উপহার দেয়ার ঘোষণা দেন নরেন্দ্র মোদি। তারই অংশ হিসেবে আজ বিকেলে ২৯টি এ্যা¤^েুলন্স পেট্রোপোল বন্দর থেকে বেনাপোল বন্দরে প্রবেশ করেছে। বাকি এ্যাম্বুেলন্সগুলো চলতি মাসের শেষের দিকে বাংলাদেশে পৌছাবে। ভারত সরকারের উপহারের প্রথম চালানের একটি এ্যাম্বুেলন্স গত ২১র্ মার্চ, আগস্ট ৩০ টি ২৬ আগস্ট ৪০ টি এ্যাম্বুলেন্স দেশে আসে উপহারের মোট ৯৭ টি এ্যা¤^েুলন্সে ভেন্টিলেশন সুবিধা রয়েছে।

বেনাপোল কাস্টম কমিশনার মো: আজিজুর রহমান জানান, ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশনারের নামে এসব এ্যাম্বুলেন্সগেুলো বাংলাদেশে এসেছে। বেনাপোল শুল্ক হাউস থেকে ছাড়পত্র পাওয়ার পর এ্যাম্বুেলন্স গুলো সোমবার ঢাকার উদ্যেশে রওয়ানা হবে। বাকি ৯টি এ্যাম্বুলেন্স সেপ্টেম্বরে শেষের দিকে  ঢাকায় পৌঁছানোর কথা রয়েছে। এ্যা¤^েুলন্সগেুলো করোনা মহামারি মোকাবিলায় বাংলাদেশ সরকারের ব্যপক প্রচেষ্টাকে র্সমর্থন করার উদ্দ্যেশে প্রদান করা  হয়েছে।

এনইউবিটি খুলনাতে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছুক সকল বিভাগের শিক্ষার্থীদের নিয়ে গুচ্ছ পদ্ধতিতে মডেল টেস্ট পরীক্ষা অনুষ্ঠিত

খবর বিজ্ঞপ্তি

নর্দান ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস এন্ড টেকনোলজী খুলনার অডিটোরিয়ামে খুলনা জেলার বিভিন্ন কলেজের সকল বিভাগের শতাধিক ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে সকাল ১০.০০ টায় মডেল টেস্ট পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত মডেল টেস্ট পরীক্ষার ১ম, ২য় ৩য় স্থান অধিকারীদের মধ্যে পুরষ্কার বিতরণী আলোচনা সভা উদ্বোধনী বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ব্যবসা প্রসাশন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান পরীক্ষা নিয়োন্ত্রক এসএম মনিরুল ইসালাম, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর, ড. আশিকউদ্দিন মোঃ মারুফ। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিজ্ঞান অনুষদের ডিন, প্রফেসর ড. আনোয়ার এইচ জোয়ারদার, প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, বর্তমানে আধুনিক বিশ্বের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় বিজ্ঞান ভিত্তিক শিক্ষায় নিজেদেরকে শিক্ষিত করে দেশের সেবায় তোমাদেরকে আতœনিয়োগ করতে হবে। উক্ত অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার, ড. মোঃ শাহ আলম। সমগ্র অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ইংরেজি বিভাগের প্রভাষক, তুসমিত মেহরুবা আঁকা। অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন সহকারি পরিচালক মো: মাহমুদ হাসান, প্রিন্সিপাল অফিসার মো: রাশেদুল ইসলাম সবুজ, সিনিয়র আইটি অফিসার সাইফুল ইসলাম, এডমিন অফিসার ইমরান জাহিদ বিভিন্ন পর্যায়ের শিক্ষক কর্মকর্তাবৃন্দ।

কয়রায় দঃ বেদকাশিতে দু’ প্রার্থীর সমার্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে আহত-

কয়রা(খুলনা)প্রতিনিধি

আগামী ২০ সেপ্টেম্বর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চেয়ারম্যান প্রার্থীর সমার্থকদের মধ্যে সংঘর্ষে উভয় পক্ষের আহত-৬, এর মধ্যে জন খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। খবর নিয়ে জানা গেছে, শনিবার সন্ধ্যায় দু’ দফায় সংঘর্ষ বাধে আওয়ামীলীওগর নৌকার প্রার্থী কবি শামসুর রহমানের সমার্থকদের সাথে আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী আছের আলীর আনারস প্রতিকের সমার্থকদের সাথে। আহতদের মধ্যে আনারস প্রার্থী আছের আলীর বড় ভাই সাবেক মেম্বর নাছের আলী(৫৫) তার পুত্র মনিরুল (৩০) মারাক্তক জখম হয়ে শনিবার রাতেই খুলনায় নেওয়া হয়েছে এবং গফুর মোড়ল (৪০) রিপন (৩০) নামে জন জায়গীরমহল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। অপর দিকে নৌকার সমার্থক আলমগীর (৩৪) জাকির (২৭) খুলনায় চিকিৎিসাধীন আছে বলে জানিয়েছেন কবি শামসুরের পুত্র মসিউর রহমান মিলন। আহতদের মধ্যে নাছের আলী তার পুত্র মনিরুলের অবস্থা আশঙ্কাজনক এবং উভয়ের মাথা সহ শরিরের বিভিন্ন স্থানে দা’ রডের আঘাতের চি‎হ্ন দেখা যাচ্ছে। বিষয় প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, শনিবার বিকেলে আংটিহারা মাওঃ মতির মোড়ে আনারস প্রতিকের এক সমার্থককে নৌকার সমার্থকরা লাঞ্চিত করলে খবর পেয়ে আনারস প্রার্থীর অর্ধশত কর্মী সমার্থক সন্ধ্যায় ঘটনাস্থলে পৌছে প্রতিবাদ সমাবেশ করে। সময় নৌকার কর্মী সমার্থকরা জড়ো হয়ে উক্ত সমাবেশে হামলা চালালে উভয় পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে। সম্পার্কে আনারসের প্রার্থী আছের আলী জানান, তিনি ঘটনার সময় খুলনায় অবস্থান করছিলেন এবং খবর পেয়ে রবিবার দুপুরে বাড়ী পৌছেন। তিনি বলেন, তার কর্মীদের ১২ টি মোটর সাইকেল ভেঙ্গে ফেলেছেন এবং টি নৌকার কর্মীরা নিয়ে গেছেন। এছাড়া তার ভাই ভাইপোর মাথায় একাধিক স্থানে দা’ কুড়ালে আঘাত করেছেন এবং আরও ৫/জনকে আহত করেছেন।অন্যদিকে নৌকার প্রার্থীর পুত্র মিলন জানান, আনারসের সমার্থকদের দা’ লাঠির আঘাতে তার কর্মীকে কুপিয়েছে। এদিকে সর্বশেষ নির্বাচনী তফসীল ঘোষনার পর দক্ষিণ বেকাশির এই ঘটনা প্রথম ঘটায় প্রশাসন তৎপর হয়েছেন বলে শোনা গেছে।

জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সভা অনুষ্ঠিত

তথ্য বিবরণী

খুলনা জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সেপ্টেম্বর মাসের সভা রবিবার দুপুরে জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদারের সভাপতিত্বে তাঁর সম্মেলনকক্ষ থেকে অনলাইনে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সিভিল সার্জন ডাঃ নিয়াজ মোহাম্মদ জানান, করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে আমাদের স্বাস্থ্যবিধি মানার কোন বিকল্প নেই, বিশেষ করে বাইরে বের হলেই মাস্ক পরতে হবে। সকলকে টিকার আওতায় আনতে হবে। উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জানান, ৫টি উপজেলার ৩০টি ইউনিয়নে আগামী ২০ সেপ্টেম্বর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। উপজেলা সমূহের জনপ্রতিনিধিবৃন্দ এসব ইউনিয়নের রাস্তাগুলো চলাচল উপযোগী রাখাসহ আন্তজেলা বাসস্ট্যান্ডসমুহে আইনশৃঙ্খলা স্বাভাবিক রাখতে জেলা প্রশাসকের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার বলেন, ইউনিয়নের সাধারণ নির্বাচন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে জেলা পুলিশ সার্বিক সহায়তা দিতে প্রস্তুত।

          জেলা শিক্ষা অফিসার রুহুল আমিন বলেন, রবিবার দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ায় শিক্ষার্থী অভিভাবকদের মধ্যে আনন্দ ফুটে উঠেছে। সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম চালু থাকবে।

সভাপতির বক্তৃতায় জেলা প্রশাসক বলেন, স্কুল কলেজ খোলার প্রেক্ষিতে করোনা সংক্রমণ রোধে সবার স্বাস্থ্যবিধি প্রতিপালন নজরদারিতে আনতে হবে। তিনি আরও বলেন, মাদকের বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন অব্যাহত রাখতে হবে।

কমিটির অন্যান্য সদস্যদের আলোচনায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণে তথ্য সরবরাহকারীকে হয়রানি না করা, রান্নার কাজে ব্যবহার হওয়া এলপিজি গ্যাসের সিলিন্ডার নির্ধারিত দামে বিক্রয় নিশ্চিতকরণের বিষয় উঠে আসে।

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট পুলক কুমার ম-সভার শুরুতে বিগত মাসে খুলনা জেলার আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি তুলে ধরেন। সভায় জানানো হয়, খুলনা জেলা অধিক্ষেত্রে বিগত আগস্ট মাসে ১৬৫ টি মামলা দায়ের করা হয়েছে যা বিগত জুলাই মাসে জেলায় দায়ের হওয়া মামলা থেকে ২১ টি কম। খুলনা মহানগীর অধিক্ষেত্রে আগস্ট মাসে একশত ৬৯টি মামলা দায়ের হয়েছে যা বিগত জুলাই মাসে দায়ের হওয়া মামলা হতে ৪৪টি কম।

সভায় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, বিভিন্ন সরকারি দপ্তরের কর্মকর্তা জেলা আইনশৃঙ্খলা কমিটির সদস্যরা অনলাইনে যুক্ত হন।

নড়াইলের প্রতিটি শিক্ষাঙ্গনে ছিল উৎসবমুখর পরিবেশ

মোঃ আবু তাহের, নড়াইল

গত বছরের মার্চ দেশে প্রথম করোনা রোগি সনাক্ত হয়। এর ১০ দিন পর ১৭ মার্চ বন্ধ করা হয় সমস্ত ধরণের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। পরে ২৩ দফায় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বাড়ানো হয়। দীর্ঘ দেড় বছর পর রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) সমস্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হয়েছে। বদ্ধ ঘরে থেকে দম বন্দ হয়ে পড়া শিক্ষার্থীরা প্রাণের

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফিরেছে। দীর্ঘপথ পাড়ি দেবার পর শিক্ষার্থীরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ফিরে এলে শিক্ষার্থীদের মধ্যে আনন্দমুখর পরিবেশের সৃষ্টি হয়। একে অপরকে জড়িয়ে ধরে কোলাকুলি করে। দীর্ঘদিনের না বলা কথাগুলো বলার চেষ্টা করে। শিক্ষকরাও তাদের সন্তান সমতুল্য

শিক্ষার্থীদের প্রতিষ্ঠানে ফিরে পাওয়ায় ফুলের শুভেচ্ছায় সিক্ত করেন। ব্যানার, ফেষ্টুনসহ নানা রঙে সাজানো হয় প্রতিষ্ঠানকে। প্রতিষ্ঠানের প্রধান ফটকে তৈরি করা হয় নানা ধরণের গেট।

নড়াইল সরকারি উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের এস এসসি পরীক্ষার্থী শ্যামা দাস বলেন, এত দিন পর বিদ্যালয়ে ফিরতে পেরে বেশ ভালো লাগছে। শিক্ষক, বান্ধবীদের সঙ্গে কথা বলতে পেরে আনন্দ লাগছে। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ জাকির হোসেন সিকদার বলেন, শিক্ষার্থীরা হলো প্রতিষ্ঠানের প্রাণ। তাদের হৈ হুল্লো, আনন্দ, চিৎকার এতদিন শুনতে পাইনি। ঘরে বসেই দিন পার করেছি। তিনি বলেন, সরকারি নির্দেশ মোতাবেক স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম শুরু হবে নড়াইল সরকারি মহিলা কলেজেও শিক্ষার্থীদের ফুলেল শুভেচ্ছায় বরণ করে নেয়

প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকসহ সামাজিক সংগঠন স্বপ্নের খোজে ফাউন্ডেশনের নারী সদস্যরা। এছাড়া সরকারি ভিক্টোরিয়া কলেজ, শিব শংকর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, গোবরা পার্ব্বতী বিদ্যাপীঠ, গুয়াখোলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়সহ সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের ফুলের শুভেচ্ছায় বরণ করে নেয়া হয়।

কুয়েট ১০ তলা স্টাফ আবাসিক ভবন এবং ৩৩/১১ কেভি নতুন সাব-স্টেশন নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন

 খবর বিজ্ঞপ্তি

খুলনা প্রকৌশল প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের অবকাঠামো একাডেমিক কার্যক্রম সম্প্রসারণ” প্রকল্পের আওতায় ১২ সেপ্টেম্বর রবিবার প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে সকাল ১১ টায় “১০ তলা স্টাফ আবাসিক ভবন” এবং সাড়ে ১১টায় “৩৩/১১ কেভি নতুন সাব-স্টেশন” নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন বিশ^বিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাজী সাজ্জাদ হোসেন। এসময় তিঁনি দ্রুততম সময়ের মধ্যে কাজগুলো সম্পন্ন করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, “১০ তলা স্টাফ আবাসিক ভবন নির্মিত হলে বিশ^বিদ্যালয়ের কর্মচারীগন আধুনিক সুযোগ সুবিধা সম্বলিত একটি সুদৃশ্য ভবনে বসবাস করার সুযোগ পাবে।” তিনি আরো বলেন, “নতুন সাব-স্টেশন নির্মানের ফলে বিশ^বিদ্যালয়ে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করা সম্ভব হবে, ফলে বিশ^বিদ্যালয়ের সকলেই উপকৃত হবে”উভয় অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন পরিচালক (পরিকল্পনা উন্নয়ন) প্রফেসর ড. কাজী বি এম মহীউদ্দিন, “খুলনা প্রকৌশল প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের অবকাঠামো একাডেমিক কার্যক্রম সম্প্রসারণ” প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক প্রকৌশলী ড. মোঃ জুলফিকার হোসেন এবং বিশ^বিদ্যালয়ের প্রধান প্রকৌশলী বি এম মামুনুর রশীদ। জনসংযোগ তথ্য শাখার সহকারী পরিচালক মনোজ কুমার মজুমদার এর সঞ্চালনায় “১০ তলা স্টাফ আবাসিক ভবন” কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অনুভূতি ব্যক্ত করে বক্তৃতা করেন কর্মচারী সমিতি (৩য় শ্রেণি) এর সভাপতি মোঃ মামুনুর রশীদ, দোয়া পরিচালনা করেন মসজিদ কমিটির সভাপতি প্রফেসর ড. মোঃ আব্দুল্লাহ ইলিয়াছ আক্তার এবং “৩৩/১১ কেভি নতুন সাব-স্টেশন” নির্মাণ কাজের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা করেন নির্বাহী প্রকৌশলী হুসাইন মুহাম্মদ এরশাদ, দোয়া পরিচালনা করেন কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের সহকারী ইমাম জুবায়ের হাসান। ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানসমূহে বিশ^বিদ্যালয়ের ডীনবৃন্দ, ইনস্টিটিউট পরিচালকগণ, রেজিস্ট্রার, বিভাগীয় প্রধানগণ, পরিচালকগণ, হল প্রভোস্টগণ, দপ্তর প্রধানগণ, শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী সুধীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

চালনা পৌরভবনে সংগঠিত হয়েছে রহস্যজনক চুরি

মোঃ শামীম  হোসেন, বাজুয়া

চালনা পৌরভবনে সংগঠিত হয়েছে রহস্যজনক চুরি। নিয়ে গেছে নগদ টাকাসহ কম্পিউটার সামগ্রী। পুলিশ ঘটনাস্থ পরিদর্শন করেছে। চালনা পৌরসভা থানা পুলিশ  সুত্রে জানা যায়, গত ১০ সেপ্টেম্বর শুক্রবার দিবাগত রাতে চালনা পৌরভবনে দুঃসাহসিক চুরি সংগঠিত হয়েছে। সিড়ি রুমের গ্রিল ভেঙে প্রথমে পৌর ভবনে প্রবেশ এবং পরে দরজার লক ভেঙে চোরেরা দোতলায় অফিস কক্ষে প্রবেশ করে। পৌরসভার লাইসেন্স ইন্সেপেক্টর মোঃ সাইফুদ্দিনের ব্যবহ্নত ষ্টীলের আলমারী ভেঙে আনুমানিক দেড় লক্ষ টাকা এবং কম্পিউটারের পিসি চুরি হয়েছে বলে জানা গেছে। অথচ একই কক্ষে আরো কয়েকটি আলমারী কম্পিউটার অক্ষত অবস্থায় ছিল ! ঘটনার রাতে দায়িত্বরত নাইট গার্ড পৌরভবনের নিরাপত্তায় দায়িত্বে ছিল বলে দাবী করা হয়েছে। প্রাথমিক তথ্যের ভিত্তিতে শনিবার সকালে দাকোপ থানার ওসি তদন্ত আশরাফুল ইসলামের নেতৃত্বে পুলিশ ঘটনা¯স্থ পরিদর্শন করেছেন। দিকে চুরির বিষয়টি জানতে পেরে ভারপ্রাপ্ত মেয়র শেখ মেহেদী হাসান বুলবুলের সভাপতিত্বে শনিবার সকালে পৌর পরিষদের এক বিশেষ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় পুলিশী তদন্তের পাশাপাশি এই চুরির রহস্য উদঘাটনে পৌরসভার অভ্যান্তরীন তদন্ত কমিটি গঠন এবং পৌরসভার পক্ষথেকে থানায় লিখিত অভিযোগ দেওয়া হয়েছে। পৌরসভার মেয়র সনত বিশ্বাস চিকিৎসার জন্য গত সেপ্টেম্বর থেকে ভারতে অবস্থান করছে। তার মাঝে সংগঠিত হল এমন রহস্যজনক চুরি।

পাইকগাছার রাড়ুলীতে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থীর প্রচারকালে পথে পথে বাঁধা : দফায় দফায় মারপিটের অভিযোগ

পাইকগাছা প্রতিনিধি

পইকগাছার রাড়ুলি ইউনিয়নে নির্বাচনী প্রচার কালে স্বতন্ত্র প্রার্থীর কর্মীদের পথে পথে বাঁধা, দফায় দফায় মারপিটের ঘটনায় থানায় অভিযোগ হয়েছে। অনুষ্ঠিত হয়েছে সাংবাদিকদের সাথে প্রেস ব্রিফিং।

অভিযোগে জানা যায়, শনিবার রাতে বিকেলে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ গোলদারের আনারস প্রতীকের প্রচারকালে তার কর্মীদের মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল কালাম আজাদের কর্মীরা ঘটনা ঘটায় বলে স্বতন্ত্র প্রার্থী আব্দুল মজিদ গোলদার রোববার সকালে তার কার্যালয়ে প্রেস ব্রিফিং কথা জানান। শনিবার রাত ১০টায়  শ্রীকন্ঠপুর খান জাহান আলীকে স্থানীয় শামীম পাড়, বিকেলে শ্রীকন্ঠপুর ঈদগাহ ময়দানের সামনে মাহবুব গোলদার, রশিদ গাজী আলম সরদারকে স্থানীয় আরশাদ বিশ্বাস, আমান সরদাস রবিউল গাজী এবং দুপুরে বাঁকা বাজারে বাচ্চুর চায়ের দোকানে জাহাঙ্গীরকে স্থানীয় রফি গাজী মারপিট করে। নৌকা প্রতীকের লোকেরা স্বতন্ত্র প্রার্থী আনারসের কর্মীদের ভোট কেন্দ্রে কোন এজেন্ট না হওয়ার জন্য হুমকি দিচ্ছে বলে চেয়ারম্যানের ছেলে সাইফুল গোলদার জানান। আব্দুল  মজিদ গোলাদর বলেন, ইউনিয়নে টি কেন্দ্র অত্যাধিক ঝ্ুুকিপুুর্ণ। তিনি অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট পুলিশ মোতায়েনের দাবী করেন। এব্যাপারে প্রতিপক্ষ প্রার্থী আবুল কালাম আজাদকে মুটোফোনে বারবার চেষ্টা করে সেটা বন্ধ থাকায় তার মতামত নেয়া যায়নি। তবে তার প্রধান সমন্বয়কারী আরশাদ আলী বিশ্বাস সব অস্বীকার করে বলেন, তারা মিথ্য তথ্য দিয়ে এলাকায় বিভ্রান্তি ছড়ানোর অপচেষ্টা করছে।

অনলাইনে প্রথম টার্মের ফাইনাল পরীক্ষায় উপস্থিতি শতভাগ

খবর বিজ্ঞপ্তি

করোনা মহামারির কারণে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ডিসিপ্লিন ইনস্টিটিউটের ¯œাতক, ¯œাতক (সম্মান) ও ¯œাতকোত্তর শ্রেণির প্রথম বর্ষের প্রথম টার্মের ফাইনাল পরীক্ষা রবিবার শুরু হয়েছে। সকাল ১০টায় উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহমুদ হোসেন বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন স্কুল ডিসিপ্লিনে যান এবং অনলাইনে পরীক্ষা গ্রহণ কার্যক্রম প্রত্যক্ষ করেন। পরিদর্শনকালে স্ব স্ব স্কুলের ডিন চিফ ইনভিজিলেটরগণ তাঁকে স্বাগত জানান। প্রথমে তিনি জীববিজ্ঞান স্কুলে যান এবং স্কুলের অধীন বিভিন্ন ডিসিপ্লিনের অনলাইন পরীক্ষা গ্রহণের কার্যক্রম দেখেন। পরে তিনি ব্যবস্থাপনা ব্যবসায় প্রশাসন স্কুল, কলা মানবিক স্কুল, সামাজিক বিজ্ঞান স্কুল, স্কুল এবং শেষে বিজ্ঞান প্রযুক্তিবিদ্যা (সাইটে) স্কুলে যান। পরিদর্শনকালে তিনি এসব স্কুলের আওতাধীন বিভিন্ন ডিসিপ্লিনের অনলাইন পরীক্ষা সম্পর্কে অবহিত হন। উপাচার্য কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ডিসিপ্লিনে অনলাইনে উত্তরপত্র আপলোড কার্যক্রমও দেখেন। পরে তিনি সাইটে স্কুলের ডিন অফিসে যান এবং আপলোডসহ পরীক্ষার অন্যান্য কার্যক্রম সম্পর্কে অবহিত হন। সকল স্কুল ডিসিপ্লিন থেকে জানানো হয় পরীক্ষার্থীরা অনলাইনে সফলভাবে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পেরেছে। উপস্থিতিও প্রায় শতভাগ।

উপাচার্য অনলাইন পরীক্ষা কার্যক্রম পরিদর্শন শেষে বলেন, এটা আমাদের নতুন অভিজ্ঞতা। আমরা নতুন অধ্যায়ে প্রবেশ করলাম। অভিজ্ঞতা ভবিষ্যতে দুর্যোগ বা মহামারির মধ্যেও শিক্ষাকার্যক্রম অব্যাহত রাখার ক্ষেত্রে সহায়ক হবে। এক্ষেত্রে আমরা যে কোনো চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় সক্ষম হবো। তিনি আরও বলেন, করোনা মহামারির কারণে একাডেমিক ক্ষেত্রে যে সময়টা পিছিয়ে আছে তার রিকভারি প্লান করতে হবে। প্রয়োজনে অনলাইন শিক্ষা কার্যক্রমের সহায়তায় তা পুষিয়ে নিতে হবে। উপাচার্য সফলভাবে অনলাইন পরীক্ষা কার্যক্রম গ্রহণে ডিন, ডিসিপ্লিন প্রধানসহ পরীক্ষার কাজে নিয়োজিত সকল শিক্ষক এবং আইসিটি সেল, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক দফতরকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

এসময় উপাচার্যের সাথে বিভিন্ন স্কুলের ডিন চিফ ইনভিজিলেটর, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত), ডিসিপ্লিন প্রধান, পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক (চলতি দায়িত্ব), জনসংযোগ প্রকাশনা বিভাগের ভারপ্রাপ্ত পরিচালক উপস্থিত ছিলেন।

দক্ষিণাঞ্চলের লবণাক্ত এলাকায় কৃষিবিপ্লব ঘটবে:কৃষিমন্ত্রী

তথ্য বিবরণী

কৃষিমন্ত্রী ড. মো: আব্দুর রাজ্জাক এমপি বলেছেন, দেশের উপকূলীয় দক্ষিণাঞ্চলের লবণাক্ত জমিতে কৃষি উৎপাদনের সম্ভাবনা অনেক। ইতোমধ্যে আমাদের কৃষি বিজ্ঞানীরা ধান, ডাল, তরমুজ, আলু, ভুট্টা, বার্লি, সূর্যমুখী, শাকসবজিসহ অনেক ফসলের লবণাক্ততাসহিষ্ণু উন্নত জাত উদ্ভাবন করতে সক্ষম হয়েছে। এসব জাত উৎপাদন প্রযুক্তি উপকূলবর্তী বিপুল এলাকার চাষীদের মধ্যে দ্রুত সম্প্রসারণের জন্য কাজ চলছে। লক্ষ্যে রোডম্যাপ প্রণয়নের কার্যক্রম চলমান আছে। চাষিরা এসব ফসলের চাষ করলে দক্ষিণাঞ্চলের লবণাক্ত এলাকায় নতুন করে কৃষি বিপ্লব ঘটবে। এলাকার মানুষের মাথাপিছু আয় বাড়বে। মানুষের জীবনযাত্রার মানের কাঙ্ক্ষিত পরিবর্তন হবে।

 রবিবার সকালে খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলায় ঘেরের আইলে আগাম সীম চাষ অফসিজন তরমুজ চাষ  সরেজমিনে পরিদর্শন শেষে আয়োজিত কৃষক সমাবেশে কৃষিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

কৃষিমন্ত্রী ড. রাজ্জাক বলেন, দেশের প্রায় ২৫% এলাকা হচ্ছে উপকূলীয় এলাকা। লবণাক্ততার কারণে এলাকায় সারা বছরে একটি ফসল হতো। আমন ধান তোলার পর বছরের বাকি সময়টা মাঠের পর মাঠ জমি অলস পড়ে থাকত। এই প্রতিকূল বিরূপ পরিবেশে বছরে কীভাবে দুইবার বা তিনবার ফসল চাষ করা যায়- সেলক্ষ্য নিয়ে আমরা কাজ করে আসছি। ইতোমধ্যে অনেক সাফল্য এসেছে। এটিকে আরো সম্প্রসারিত করা হবে, যাতে এলাকায় সারা বছর ধরে বিভিন্ন ফসল উৎপাদন করা যায়।

সেচের পানির সমস্যা দূর করতে খুলনা, বাগেরহাটে ৬০০’বেশি খাল খনন/পুন:খনন করার উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে বলে জানান মন্ত্রী।  পরিদর্শনকালে স্থানীয় সংসদ সদস্য সাবেক মন্ত্রী নায়ায়ণ চন্দ্র চন্দ, কৃষি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো: মেসবাহুল ইসলাম, অতিরিক্ত সচিব ওয়াহিদা আক্তার, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো: আসাদুল্লাহ, বিএডিসির চেয়ারম্যান ড. অমিতাভ সরকার, বিএআরসির নির্বাহী চেয়ারম্যান ড. শেখ মো: বখতিয়ার, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর খুলনার উপপরিচালক মো: হাফিজুর রহমান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের হিসেবে, উপকূলীয় এলাকায় মোট জমির পরিমাণ ২৮ লাখ ৩০ হাজার হেক্টর, এর মধ্যে চাষযোগ্য ২১ লাখ ৬২ হাজার হেক্টর। আর লবণাক্ত এলাকার পরিমাণ ১০ লাখ ৫৬ হাজার হেক্টর। এছাড়া লবণ পানির ভয়াবহতার কারণে প্রতিবছর শুষ্ক মওসুমে উপকূলীয় এলাকায় লক্ষাধিক হেক্টর জমি অনাবাদি থেকে যায়। মৃত্তিকা গবেষণা উন্নয়ন ইনস্টিটিউটের জরিপ মতে, খুলনার মোট লাখ ১৩ হাজার হেক্টর আবাদযোগ্য জমির মধ্যে লবণাক্ত জমির পরিমাণ এক লাখ নব্বই হাজার হেক্টর। যা মোট আবাদযোগ্য জমির ৮৯ শতাংশ।

৫৪৪ দিন পর বাজল স্কুলের ঘন্টা, উচ্ছ্বসিত ঝিনাইদহের শিক্ষার্থীরা

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি-

মহামারী করোনায় লকডাউনের পর দীর্ঘ প্রায় ১৮ মাস পর বাজল স্কুলের ঘন্টা। ঝিনাইদহ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়, বালিকা বিদ্যালয়, কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজ, কাঞ্চননগর মডেল স্কুল এন্ড কলেজসহ জেলার প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শুরু হয়েছে পাঠদান।

রোববার সকাল থেকেই স্কুলের প্রধান ফটকে শিক্ষার্থীদের শরীরে তাপমাত্রা নির্ণয়, হ্যান্ড স্যানিটাইজার প্রদাণ শেষে ফুল দিয়ে স্বাগত জানানো হয়।

ঝিনাইদহ সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সেখ শফিয়ার রহমান জানান, প্রথম দিনে ১০ম, এসএসসি পরীক্ষার্থী, ৫ম শ্রেণী ৪র্থ শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের পাঠদান করানো হচ্ছে। স্বাস্থবিধি মেনে একটি বেঞ্চে জন শিক্ষার্থীকে বসানো হচ্ছে। এছাড়াও স্কুলের প্রধান গেইটে তাপমাত্রা মাপা হচ্ছে। সরকারি নির্দেশনা মেনেই স্কুলের পাঠদান করানো হচ্ছে।

শহরের কালেক্টরেট স্কুল এন্ড কলেজের অধ্যক্ষ সুষেন্দু কুমার ভৌমিক বলেন, স্কুল চালু করার জন্য আমরা আগে থেকেই প্রস্তুতি নিয়েছিলাম। কয়েকদিন ধরেই পরিস্কার পরিচ্ছন্ন করা হয় ক্লাসরুমসহ বিদ্যালয়ের বিভিন্ন জায়গা। স্বাস্থ্যবিধি সামাজিক দুরত্ব মেনেই পাঠদান করানো হবে। এদিকে দীর্ঘদিন পর স্কুলে আসতে ক্লাস করতে পেরে খুশি শিক্ষার্থী অভিভাবকরা।

সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের নাঈম নামের এক শিক্ষার্থী বলেন, অনেক দিন পর আমার প্রিয় প্রতিষ্ঠানে আসতে পেরে অনেক আনন্দ লাগছে। বন্ধুদের সাথে দেখা হচ্ছে। স্যারদের সাখে দেখা হচ্ছে। খুবই ভালো লাগছে।

এদিকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাঠদান শুরুর হওয়ার পর শহরের বিভিন্ন স্কুল পরিদর্শন করেছেন জেলা প্রশাসক মজিবর রহমান। পরিদর্শন কালে তিনি বলেন, শিক্ষার্থীরা স্বাস্থ্যবিধি মেনেই ক্লাস করছে। প্রত্যেকে মাস্ক পরিধান করছে। শিক্ষক শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি মানার বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া আছে। তারা তা অনুসরণ করবে। আজকের উপস্থিতি কিছুটা কম থাকলেও আশা করছি আগামীকাল থেকে পুর্বের মত শিক্ষার্থী উপস্থিতি পাওয়া যাবে।

ঝিনাইদহে মাদক ব্যবসায় বাঁধা দেওয়ায় যুবককে কুপিয়ে জখম

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি-

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার পৈলানপুর গ্রামে মাদক ব্যবসার বিরুদ্ধে ফেসবুকে পোস্ট দেওয়ায় ফয়সাল হোসেন নামের এক যুবককে কুপিয়ে যখম করেছে মাদক ব্যবসায়ীরা। ফয়সাল হুসাইন সদর উপজেলার পাইকপাড়া গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে। ঘটনায় তার চাচাতো ভাই তানভীর এহসান পাপন বাদী হয়ে জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত ৩/জনের বিরুদ্ধে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।

পাপন জানান, দীর্ঘদিন ধরে পৈলানপুর গ্রামের এস এম শাহরিয়ার শিবলু, রিমন মন্ডল, আনিচুর শেখ আনছু, পাইকপাড়া গ্রামের শামীম হোসেন, ঝিনাইদহ শহরের কাঞ্চননগর এলাকার সোহাগ হোসেন পৈলানপুর এলাকায় ফেন্সিডিল, ইয়াবা বিক্রি করে আসছিল। গত আগস্ট ফেসবুকে মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে পোস্ট দেয় ফয়সাল হোসেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা ফয়সালকে হত্যার হুমকি দিয়ে আসছিল। পরবর্তীতে সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় পৈলানপুর গ্রামে ফয়সালকে ধারালো অস্ত্র গিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে ওই মাদক ব্যবসায়ীরা। এসময় তাকে উদ্ধার করতে গেলে রিন্টু রাকিব হোসেন নামের দুইজনকে মারধর করে পালিয়ে যায় তারা। পরে সেখান থেকে ফয়সালকে উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে শনিবার উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় রেফার্ড করা হয়।

ব্যাপারে হাটগোপালপুর পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এস পলাশুর রহমান জানান, আসামীদের মধ্যে একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকী আসামীদের গ্রেফতারে বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালানো হচ্ছে।

কোটচাঁদপুরে ট্রেনে কাটা পড়ে বৃদ্ধের মৃত্যু

কোটচাঁদপুর প্রতিনিধি-

ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুরে ট্রেনে কাটা পড়ে সিরাজুল ইসলাম (৫৫) নামের এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। শনিবার রাত ১২ টার দিকে উপজেলার বলুহর নামক স্থানে ঘটনা ঘটে। মৃত সিরাজুল ইসলাম পার্শবর্তী রাজাপুর গ্রামের মৃত নবাই মন্ডলের ছেলে।

কোটচাঁদপুর রেলস্টেশনের স্টেশন মাস্টার গোলাম মোস্তফা জানান, রাত ১২ টার দিকে খুলনা থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী সুন্দরবন এক্সপ্রেস রাজাপুর গেইট পৌঁছালে এতে কাটা পড়ে সিরাজ উদ্দিন মারা যায়। রোববার সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে খুলনা জিআরপি পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে যশোর নিয়ে গেছে। প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে সিরাজুল ইসলাম আত্মহত্যা করেছে।

ঝিনাইদহে প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় শিক্ষক  কর্মচারী ঐক্য পরিষদের মতবিনিময় সভা

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি-

প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের স্বীকৃতি এমপিও ভুক্তির দাবীতে ঝিনাইদহে মতবিনিময় সভা করেছে বাংলাদেশ প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় শিক্ষক  কর্মচারী ঐক্য পরিষদর।

রোববার সকালে ঝিনাইদহ প্রেসক্লাব মিলনায়তনে কর্মসূচীর আয়োজন করে বাংলাদেশ প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি জেলা শাখা।

পরিষদের সভাপতি আব্দুস সামাদ শফি’সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ প্রতিবন্ধী বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি আহ্বায়ক আরিফুর রহমান অপু। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা শাখার সমন্বয়ক এস এম উজ্জল, সদস্য সচিব আসাদুর রহমান। সভায় ঝিনাইদহ, যশোর নড়াইল জেলার শতাধিক শিক্ষক-কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন।

আলোচনা সভা শেষে প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর উপবৃত্তি প্রদাণ, শিক্ষা উপকরণ শতভাগ বিতরণ, শিক্ষকদের শতভাগ বেতন ভাতা সকল সুবিধা প্রদাণসহ সরকারের প্রতি ১১ দফা দাবী সম্বলিত স্বারকলিপি জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর পেশ করেন।

ফকিরহাটের টাউন নওয়াপাড়ার মেম্বর প্রার্থী মোশারেফ এর প্রচারনা চলছে জোরে-সোরে

ফকিরহাট প্রতিনিধি।

বাগেরহাটের ফকিরহাটে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে পিলজংগ ইউনিয়ন পরিষদের শিল্পনগরী টাউন নওয়াপাড়া ১নং ওর্য়াডে বর্তমান মেম্বর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এবং মেম্বর পদপ্রার্থী শেখ মোশারেফ হোসেন এর টিউবওয়েল প্রতীকের প্রচার প্রচারনা চলছে জোরে-সোরে। দিনরাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে বৃহৎ এই শিল্পনগরী টাউন নওয়াপাড়ার সকল মানুষের দ্বারে দ্বারে ছুটেই চলছেন। তিনি প্রচার প্রচারনায় আগের চেয়ে অনেক এগিয়ে রয়েছেন। রবিবার কাকাডাকা ভোর হতে তিনি দুপুর পর্যন্ত সেকেরডাঙ্গা, মল্লিকপাড়া, কর্মকারপাড়া, কলোনীপাড়া, সন্ধিপপাড়া, নিকেরীপাড়া, ঢালীপাড়া যাযাবর পল্লীসহ বিভিন্ন পাড়ায় পাড়ায় মহল্লায় তিনি গণসংযোগ করেন। এসময় তার সাথে উপস্থিত ছিলেন, ইমাম হাফেজ মোহম্মদ মোশারেফ হোসেন, আক্কাচ আলী শেখ, মকবুল হোসেন, আমজাদ হোসেন, আব্দুর রশিদ, আবুল কালাম, নুর মোহম্মদ শেখ, আব্দুর কাদের জালাল উদ্দিন শেখ সহ একাধিক ব্যাক্তিবর্গ। একান্ত সাক্ষ্যাৎকারে মোঃ মোশারেফ হোসেন বলেন,তিনি বিগত দিনে নির্বাচনে জয়লাভ করার পর এলাকার সার্বিক উন্নয়নে স্বচ্ছতা জবাবদিহিতার সাথে কাজ করেছেন। এবং আজীবন জনগনের কল্যানে কাজ করে যাবেন। তিনি বলেন, তার সময়ে এই ওর্য়াডে ৭টি ১০কিলোমিটার লম্বা বৃহৎ আকারের ইটের সলিং রাস্তা নির্মাণ, ৫টি কাচা রাস্তায় মাটি ভরাট, ৩টি মরে যাওয়া খাল পুনঃখনন, ১টি স্কুল মাঠে মাটি ভরাট, ৮টি কালভ্যাট নির্মাণ, ৪০জনকে প্রতিবন্ধি ভাতার কার্ড, ১৩৫জনকে বয়স্ক ভাতার কার্ড, ৬০জনকে বিধবা ভাতার কার্ড, ৪০জনকে মাতৃত্বকালিন ভাতার কার্ড, ৬৪জনকে ভিজিডি ভাতার কার্ড, ১৮৩জনকে ফ্রেয়ারপ্রাইজের কার্ড এবং ১০জনকে ৪০দিনের কর্মসূজন কর্মসূচিতে স্বচ্ছতা জবাবদিহিতার সাথে অন্তভুক্ত করেছি। নির্বাচনে জয়লাভ করার পর বিগত দিনে জনগনের কল্যানে যে কাজ করেছি তা জনগন মনে রাখবেন বলেও তিনি আশাবাদী। তিনি পুনঃরায় নির্বাচিত হলে বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ, মাদকমুক্ত সমাজ গঠন, যোগাযোগ ব্যাবস্থার সার্বিক উন্নয়ন সহ নারীর ক্ষমতায়নে অগ্রনী ভুমিকা পালন করবেন বলেও তিনি জানান। ##

দৃষ্টিনন্দন সাজসজ্জা পরিবেশে ফুল দিয়ে শিক্ষার্থীদের বরণ করে নিলেন মোংলার ঐতিহ্যবাহী সেন্ট পলস্ উচ্চ বিদ্যালয়

মোংলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি

সাজসজ্জা পরিবেশে ফুল দিয়ে শিক্ষার্থীদের বরণ করে নিয়েছেন মোংলার ঐতিহ্যবাহী সেন্ট পলস্ উচ্চ বিদ্যালয়। শিক্ষার্থীদের আগমনকে ঘিরে বিদ্যালয়টির প্রাচীর, গেইট ভবনগুলো ব্যানার, ফুল এবং বেলুন দিয়ে সুসজ্জিত করা হয়েছে। স্কুলের প্রবেশ পথে ‘ওয়েলকাম ব্যাক টু স্কুল’ লেখা সম্বলিত বিশাল আলপনাও করা হয়েছে। যা শিক্ষার্থী অভিভাবকদের মুগ্ধ করেছে। রবিবার সকাল সাড়ে ৮টা থেকে নিরাপদ সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে শরীরের তাপমাত্রা মেপে এবং হাত ধুইয়ে শিক্ষার্থীদের শ্রেণী কক্ষে ঢুকতে দেয়া হয়। সময় তাদেরকে ফুল দিয়ে বরণ করে নেয় স্কুল কর্তৃপক্ষ। এরপর সকাল ৯টায় শ্রেণী কক্ষে নিয়ম মেনে ক্লাস নিতে শুরু করেছেন শিক্ষক-শিক্ষিকারা। তবে সেন্ট পলস্ উচ্চ বিদ্যালয়ের এমন আয়োজন আর চোখে পড়েনি অন্য কোন বিদ্যালয়ে।

সেন্ট পলস্ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ব্রাদার জয়ন্ত এন্ড্রু কস্তা বলেন, সকল নিয়ম মেনেই আমরা শিক্ষার্থীদের গ্রহণ করছি। তাদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিয়েই শ্রেণী কক্ষে ক্লাস নেয়া হচ্ছে। অনেক দিন তাদের অনুপস্থিতি আমাদের উভয়ের মাঝে দূরত্বের সৃষ্টি হয়েছে। তাই তাদেরকে বরণ করতে নানা আয়োজন রয়েছে আমাদের। আমাদের আয়োজনে তারা ভীষণ খুশি আনন্দিত হয়েছে।

উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার এস,আনোয়ারুল কুদ্দুস বলেন, সরকারের দেয়া নির্দেশনা অনুযায়ী ১২ সেপ্টেম্বর রবিবার মোংলায় ৭৩ টি প্রাথমিক, ৪১ টি মাধ্যমিক ৪টি কলেজ খুলেছে। সকল শর্ত মেনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চালানোর জন্য সকল প্রতিষ্ঠানকে অবহিত করা হয়েছে। কেউ তা প্রতিপালনে ব্যর্থ হলে তাদের বিরুদ্ধে অবশ্যই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

মোড়েলগঞ্জে ইউপি সদস্য’উদ্যোগে ৪টি প্রতিষ্ঠানে করোনা সামগ্রী বিতরণ

 মোড়েলগঞ্জ প্রতিনিধি

প্রায় দেড় বছর পর খুলেছে স্কুল-কলেজ-মাদরাসা। স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষার্থীদের প্রতিষ্ঠানে প্রবেশ করানো হচ্ছে। আনন্দের কমতি নেই  কোমলমতি শিক্ষার্থীদের। এদিকে ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান বিপু’উদ্যোগে ৪টি প্রতিষ্ঠানের প্রধানদের হাতে তুলে দেন মাস্ক, স্যানিটাইজার সাবান।

 বোববার সকাল ১০ টায় মোড়েলগঞ্জের মানিক মিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, মানিক মিয়া বালিকা দাখিল মাদ্রাসা, শিকদার পাড়া এসপি বারইখালী প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ছাত্রছাত্রীদের মাঝে বারইখালী ইউপি সদস্য মিজানুর রহমান বিপু’উদ্যোগে এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মাস্ক, স্যানিটাইজার সাবান বিতরণ করেন।

সময় উপস্থিত ছিলেন বারইখালী মানিক মিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক শেখ মো. আকবর আলী, সভাপতি মিজানুর রহমান বিপু, শিক্ষক রোকেয়া পারভীন, নাসরিন নাহার, সফিকুল ইসলাম, মানিক মিয়া বালিকা দাখিল মাদ্রাসার সহকারি কম্পিউটার শিক্ষক খয়রুল বাশার, বদরুল ইসলাম, সহ-সুপার রনী আক্তার, আলমঙ্গীর হোসেন, ফারজানা ইয়াসমীন প্রমুখ। #

মোড়েলগঞ্জে মুক্তিযোদ্ধা বাছাই কমিটির সভাপতি হলেন লিয়াকত আলী

মোড়েলগঞ্জ প্রতিনিধি

বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ উপজেলার ‘ক’ তালিকাভূক্ত মুক্তিযোদ্ধাদের পুন: বাছাই কমিটির সভাপতি মনোনীত হলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. লিয়াকত আলী খান।

বাংলাদেশ সরকারের জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিল কর্তৃক উপ পরিচালক প্রশাসন অর্থ(উপ সচিব) মোহাম্মদ ইউসুফ স্বাক্ষরিত স্বারক নং-৪৮.০২০০০০.০০৫.০০. ১৭. ১৪(অংশ)-৭৪ প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে সেপ্টেম্বর ২০২১  বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. লিয়াকত আলী খানকে সভাপতি মনোনীত করা হয়েছে।

সভাপতি মনোনীত হওয়ায় লিয়াকত আলী খান বলেন, ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধে ৯নং সেক্টরের অধিনে সুন্দরবন সাব সেক্টরে যুদ্ধকালিন স্টুডেন্ট কমান্ডারের দায়িত্ব পালন করেছেন। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধরে রাখার জন্য গঠন করা হয়েছে মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ড। জীবনের শেষ প্রান্তে এসে সেদিনের সেই বিভীষিকাময় দিনগুলোর স্মৃতি আজও কাদিয়ে বেড়ায়।

মোড়েলগঞ্জে ৫০০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান শুরু

মোড়েলগঞ্জ প্রতিনিধি

বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে টানা দেড় বছর বন্ধ থাকার পরে আজ থেকে ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ উপজেলায় প্রায় শত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পাঠদান শুরু হয়েছে।

এরমধ্যে সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রয়েছে ৩০৯টি, মাধ্যমিক স্তরের ১২৭ উচ্চ মাধ্যমিক স্তরের ১৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। স্থানীয় সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট আমিরুল আলম মিলন, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জাহাঙ্গীর আলম পাঠদান কার্যক্রম পরিদর্শন করেন।

এছাড়াও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোজাম্মেল হক মোজাম, শিক্ষা কর্মকর্তা মো. জালাল উদ্দিন খান, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল হান্নান সুপারভাইজার মো. বাকি বিল্লাহ্ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে পাঠদানের পরিবেশ পরিদর্শন করেন।

 দৈবজ্ঞহাটী ইউনিয়নে নৌকা প্রতীক প্রার্থীর গণসংযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা, দৈবজ্ঞহাটী

বাগেরহাট জেলার মোড়েলগঞ্জ উপজেলার ০৪ নং দৈবজ্ঞহাটী ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ দলীয় নৌকা মার্কার চেয়ারম্যান প্রার্থী মোঃ সামছুর রহমান মল্লিক দলীয় নেতা-কর্মীদের নিয়ে গণসংযোগ প্রচার প্রচারণা করেছেন। গত তিন দিন যাবত দৈবজ্ঞহাটী সদর সহ ইউনিয়নের প্রতিটি ওয়ার্ডে আওয়ামী লীগ অঙ্গ সংগঠনের নেতা কর্মীদের সাথে নিয়ে প্রচারণা করেছেন। এছাড়াও প্রার্থী সামছুর রহমান মল্লিক দৈবজ্ঞহাটীতে দলীয় কার্যালয় এক কর্মীসভা করেন। ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি মোঃ কিছলুর রহমান খোকনের সভাপতিত্বে সভায় বক্তারা জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে চলমান উন্নয়নের ধারাকে অব্যহত রাখতে নৌকা প্রতীকে ভোট দেওয়ার আহবান জানান। এসময়ে উপস্থিত ছিলেন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ সোলায়মান মল্লিক, সাধারন সম্পাদক ডাঃ দেলোয়ার হোসেন মহারাজ, যুগ্ন সম্পাদক শেখ ফারুক আহমেদ, আওয়ামীলীগ নেতা মাস্টার আবুল কালাম মল্লিক, হাওলাদার মফিজুল ইসলাম, মোঃ আনিস শিকদার, সাবেক যুবলীগ নেতা আকন হাবিবুর রহমান, কৃষকলীগ নেতা মোঃ এনামুল জমিদার, মৃনাল সাহা, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতা এসএম কবির হোসেন, মোঃ ইকবাল হোসেন, তাতীলীগ নেতা মোঃ মামুন ফকির, মোঃ রিপন স্থলপ্রহরী, সাংবাদিক শেখ ওজিউর রহমান, শ্রমিকলীগ নেতা মোঃ সুজন মিনা, যুবলীগ সভাপতি মোঃ জাহাঙ্গীর মল্লিক, সাধারন সম্পাদক মোঃ আরিফ মল্লিক, ছাত্রলীগ নেতা বিপ্লব শেখ, শেখ মানিক, মোঃ সাজ্জাদ হাওলাদার সহ এলাকার গণমান্য ব্যক্তিগণ উপস্থিত ছিলেন।

দৈবজ্ঞহাটী অঞ্চলের সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে পাঠদান শুরু

নিজস্ব সংবাদদাতা, দৈবজ্ঞহাটী

শিক্ষামন্ত্রনায়ের নির্দেশনা অনুযায়ী সারা বাংলাদেশের ন্যায় বাগেরহাট জেলার দৈবজ্ঞহাটী অঞ্চলের প্রাথমিক, মাধ্যমিক উচ্চমাধ্যমিক এবং মাদ্রাসাসহ সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হয়েছে। মহামারি (কোভিড-১৯) করোনাকালীন সময় দীর্ঘদিন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় পর নির্দেশনা অনুযায়ী সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো আগে থেকেই পরিষ্কার-পরিছন্ন করে পাঠদানের পরিবেশ তৈরি করা হয়েছে। প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে আনন্দমুখর পরিবেশে ছাত্রছাত্রীরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে উপস্থিত হয়েছে। সরজমিনে ঘুড়ে এবং কয়েকজন প্রতিষ্ঠান প্রধানের সাথে কথা বলে জানা যায়, শিক্ষা মন্ত্রনালায়ের জাড়িকৃত নির্দেশনা মোতাবেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর গেটে হ্যান্ড সেনিটাইজার, পানি টিস্যুর ব্যবস্থা করা হয়েছে। এছাড়াও উপস্থিত ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে মাস্ক বিতরন করা হয়। অঞ্চলের সেলিমাবাদ ডিগ্রি কলেজ, বেগম মেহেরুন্নেছা মহিলা মহাবিদ্যালয়, দৈবজ্ঞহাটী বিএম মডেল স্কুল, দৈবজ্ঞহাটী আদর্শ বালিকা বিদ্যালয়, তেলিগাতী ঢুলিগাতী মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কে.কে. পোলেরহাট মাধ্যমিক বিদ্যালয়, কচুবুনিয়া রহমাতিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়, বি পি জি এম মাধ্যমিক বিদ্যালয়সহ এলাকার মাদ্রাসা, প্রাথমিক বিদ্যালয় এবং কিন্ডার গার্টেন সমূহে স্বাস্থ্যবিধি মেনে নির্দেশনা অনুযায়ী  পাঠদান করা হয়েছে।

নগর যুবদলের সহ-সভাপতি জাহিদুর রহমান রিপনের ভাইয়ের মৃত্যুতে শোক বিবৃতি

খবর বিজ্ঞপ্তি

জাতীয়তাবাদী যুবদলের খুলনা মহানগর শাখার সহ-সভাপতি মোঃ জাহিদুর রহমান রিপনের মেঝ ভাই হাসানুর রহমান মিরন গতকাল রবিবার ভোর রাতে ইন্তেকাল করেছেন (ইন্নালিল¬াহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)জোহরবাদ খালিশপুরের বাইতুন ফালাহ জামে মসজিদে মরহুমের নাজামে জানাজা শেষে গোয়ালখালী কবরস্থানে দাফন সম্পন্ন হয়। তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ, শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন খুলনা মহানগর যুবদলের নেতৃবৃন্দ। গতকাল রবিবার মহানগর যুবদলের সাধারণ নাজমুল হুদা চৌধুরী সাগর প্রেরিত শোক বিবৃতিতে তথ্য জানানো হয়।

বাজুয়ায় নৌকা প্রতীকের পথ সভা ও  মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

মোঃ শামীম হোসেন

দাকোপের বাজুয়ায় আগামী ২০ সেপ্টেম্বর ইউপি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার তারিখ ঘোষণা হওয়ার পর থেকে জমতে শুরু করেছে পথ সভা, মতবিনিময় সভা প্রার্থীদের গাড়ির শোডাউনের মধ্যে দিয়ে নির্বাচন।  রবিবার বিকাল টায় বাজুয়া ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী নৌকা প্রতীকের মানস কুমার রায়ের নির্বাচনী পথ সভা পোদ্দারগন্জ বাজার, চুনকুড়ি বাঁধ, পশ্চিম বাজুয়া বেড়েরখালে  অনুষ্ঠিত হয়। পথ সভায় বক্তব্য করেন দাকোপ উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব শেপ আবুল হোসেন। বক্তব্য করেন নৌকা প্রতীকের চেয়ারম্যান প্রার্থী মানস কুমার রায়, মিহির কুমার মন্ডল, বাজুয়া ইউপি আওয়ামীলীগের সভাপতি অপরাজিত মন্ডল অপু, ভার- প্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক তুষার রায়, আওয়ামীলীগ নেতা রবার্ট হালদার, প্রিন্স বিশ্বাস, বিধান বিশ্বাস প্রমুখ।  এলাকা ঘুরে দেখা যায় সকাল থেকে রাত অবধি চলছে প্রার্থীদের পথসভা গণসংযোগ। নৌকা প্রতীকের প্রার্থীদের প্রতিশ্রুতি মতে দাকোপে নির্বাচনকে কেন্দ্র করে উন্নয়নের জোয়ারে ভাসছে এবার দাকোপ। দাকোপের প্রতিটি ইউনিয়নে প্রার্থীরা বিভিন্ন সভা সমাবেশ পথসভায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থীরা বলছে আমরা নির্বাচিত হতে পারলে দাকোপ উপজেলাকে উন্নয়নের জোয়ারে ভাসিয়ে তুলবো। তারা ডিজিটাল দাকোপ গড়ার প্রত্যয় নিয়ে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ভোট চেয়ে বেড়াচ্ছে। দাকোপ উপজেলা টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত। জানা যায় এবারের  নির্বাচনে টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। বাঁকি একটি ইউনিয়ন লাউডোব যেখানে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শেখ যুবরাজ এর বিরুদ্ধে কোন প্রার্থী না থাকায় সে বিনা প্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত হয়ে বসে আছে। বাঁকি টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থীরা তাদের প্রতিশ্রুতি দিয়ে ভোটারদের মন আকৃষ্ট করার চেষ্টায় মেতে আছে। জানা যায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থীরা যেমন উন্নয়নের কথা বলে ভোট চেয়ে বেড়াচ্ছে তেমনি প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থীরাও ভোটারদের দ্বারে যেয়ে বিভিন্ন সভা, সমাবেশে বিগত দিনে নির্বাচিত নৌকা প্রতীকের প্রার্থীদের ইউনিয়নে তেমন কোন উল্লেখ যোগ্য উন্নয়ন না করায় তাদের ব্যর্থতা অযোগ্যতার কথা বলে তারাও ভোটারদের কাছে নিজেদের যোগ্যতার কথা বলে ভোট নেওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। তাই বলা যায় ইউপি নির্বাচন এবার জমে উঠেছে। সব মিলিয়ে দেখা যায় আগামী ২০ সেপ্টেম্বর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দাকোপে চলছে একটা উৎসব মুখর পরিবেশ।

ডুমুরিয়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থী আ’লীগ নেতা সাংবাদিক জাহাঙ্গীরের গনসংযোগ

ডুমুুরিয়া প্রতিনিধি 

আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে ডুমুরিয়া সদর ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের মনোনয়ণ প্রত্যাশী উপজেলা আওয়ামী লীগের উপ-প্রচার সম্পাদক প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক এস এম জাহাঙ্গীর আলম গতকাল রবিবার   দিনব্যাপী নানা কর্মসূচীতে অংশ গ্রহন করেন। সন্ধ্যায় ডুমুরিয়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মির্জাপুর গ্রামের আমান মোড়ল, খলশী গ্রামের বাসুদেবের মেয়ে সীমা, গোলনা গ্রামের দাউদ মীর, আরাজি ডুমুরিয়া গ্রামের লোকমান জোয়াদ্দারের স্ত্রী দক্ষিন ডুমুরিয়া গ্রামের ইমরান শেখের মাকে দেখতে যান। এসময় তিনি সকলের চিকিৎসার খোজঁ খবর নেন দায়িত্বরত ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করেন। এদিকে সকালে কৃষি মন্ত্রী ড. মোঃ আব্দুর রাজ্জাক এমপির খর্নিয়া বরাতিয়ার বিভিন্ন কৃষকের মাঠ পরির্দশন কৃষকদের সাথে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে অংশ নেন। বিকেলে পূর্ব ডুমুরিয়ার এবং রাতে সাজিয়াড়া গ্রামের সকল শ্রেনী পেশার মানুষের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন।  এসময়ে উপস্থিত ছিলেন ব্যাংকার রিজাউল ইসলাম, মোস্তফা শেখ,  বিল্লাল শেখ, ব্যাপারি আইয়ুব আলী, নওশের সরদার, আজমত শেখ, আব্দুল হালিম ঢালী, শওকত ঢালী, রিজাউল শেখ,  আতিয়ার শেখ,  সুমন শেখ, কবির মোড়ল, ইনামুল হালদার, পলাশ রায়, বাধঁন মন্ডল, সুব্রত বিশ্বাস, হারুনুর রশীদ বাবু, এস কে বাপ্পি, সাঈদ ফকির, জিন্নাত মোড়ল প্রমুখ।

ঈদগাহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের ফুল দিয়ে বরণ

কে এম রেজাউল করিম

দেবহাটা ঈদগাহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের ফুল দিয়ে বরণ করেন ম্যানেজিং কমিটি শিক্ষক বৃন্দ। করোনায় প্রায় দেড় বছর বন্ধ ছিল দেশের সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। রবিবার সারা দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাথে খুলে দেওয়া হয় দেবহাটার সকল শিক্ষা প্রাতিষ্ঠান। এর ধারাবাহিবতায় ঈদগাহ সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীদের সকাল টায় শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করা হয়। পরে স্বাস্থ্য বিধি মেনে তাদেরকে মাস্ক পরিধান করিয়ে  গোলাপ ফুল দিয়ে বরণ করে নেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে বিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি হারুন অর রশীদের সভাপতিত্বে ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে বক্তব্য রাখেন উপজেলা রিসোর্স সেন্টারের ইন্সট্রাক্টর কে.এম তারিকুল ইসলাম, দেবহাটা প্রেসক্লাবের সভাপতি আব্দুর রব লিটু, যুগ্ম সাধারন সম্পাদক ইউপি সদস্য নির্মল কুমার মন্ডল, কে এম রেজাউল করিম, মহিলা ইউপি সদস্য আলফাতুন্নেছা, বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিশ্বজিত মন্ডল, সহকারী শিক্ষক জেলা প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক সমিতির সাধারন সম্পাদক সাইফুল্লাহ আল তারিক। সময় বিদ্যালয়ের সকল শিক্ষক ছাত্রী উপস্থিত ছিলেন।

দেবহাটার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সরকারী নির্দেশনা মেনে ক্লাশ শুরু

দেবহাটা প্রতিনিধি

দেবহাটার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সরকারী নির্দেশনা মেনে রবিবার ১২ সেপ্টেম্বর, ২১ থেকে ক্লাশ শুরু হয়েছে। এসময় শিক্ষার্থীদের মধ্যে একটা অন্যতম অনুভূতি লক্ষ্য করা যায়। দীর্ঘ প্রায় ১৬ মাস ছুটির পর স্কুল কলেজে আসা একটা অন্যতম আনন্দঘন পরিবেশের সৃষ্টি হয়। ক্লাশ শুরুর প্রাক্কালে শিক্ষকদের মধ্যেও খুবই আনন্দ পরিলক্ষিত হয়। শিক্ষা মন্ত্রী দীপু মনি গত কয়েকদিন আগে কোভিড ১৯ মহামারী করোনা ভাইরাসের কারনে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য যে নির্দেশনা প্রদান করেন সে অনুযায়ী দেবহাটার সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিশেষ করে সরকারি কেবিএ কলেজ হাজী, কেয়ামউদিন মেমোরিয়াল মহিলা কলেজ, দেবহাটা কলেজ, দেবহাটা অষ্টম শ্রেণী উপনীত একটিমাত্র প্রতিষ্ঠান সখিপুর দিঘীরপাড় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, সখিপুর মাধ্যমিক হাইস্কুল, পারুলিয়া গার্লস স্কুল এসএস মাধ্যমিক বিদ্যালয়, টাউনশ্রীপুর শরৎচন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়সহ সকল প্রতিষ্ঠানে সরকারী বিধিমালা মেনে চালু করা হয়। সখিপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান ফারুক হোসেন রতন, প্রধান শিক্ষক তৈয়েবুর রহমান, সরকারি কেবিএ কলেজের রোভার স্কাউট টিচার আবু তালেব, অফিস সহকারী শাহাদাত হোসেন, হাজী কেয়ামউদ্দীন মেমোরিয়াল মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ আবুল কালাম, সহকারী অধ্যাপক হাফিজুল ইসলাম, দিঘীরপাড় প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি আবু আব্দুল্লাহ আল আজাদ, প্রধান শিক্ষিকা শেফালী ব্যানার্জিসহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ম্যানেজিং কমিটির নেতৃবৃন্দ শিক্ষকমন্ডলী শিক্ষার্থীদের স্কুলে প্রবেশের মুখে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে কাজ করেন।

দেবহাটায় বয়স্ক, বিধবা প্রতিবন্ধী ভাতাভোগীদের জ্ঞাতার্থে গন বিজ্ঞপ্তি জারী

দেবহাটা প্রতিনিধি

দেবহাটা উপজেলার সকল বয়স্ক, বিধবা প্রতিবন্ধী ভাতাভোগীদের জ্ঞাতার্থে গন বিজ্ঞপ্তি জারী করেছে দেবহাটা উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা অধীর কুমার গাইন। অধীর কুমার গাইনের গনবিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, সকলের জ্ঞাতার্থে জানানো যাচ্ছে যে, দেবহাটা উপজেলার সকল প্রকারের ভাতা ভোগীদের মোবাইল নম্বর সংশোধনের জন্য দেবহাটা উপজেলার ৫টি ইউনিয়নে গত ২২-০৮-২১ ইং তারিখ থেকে প্রতিটি ইউনিয়নে ৩দিন করে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদের সহায়তায় তত্ত্বাবধানে দেবহাটা উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা, সমাজকর্মী ফিল্ড সুপারভাইজারদের উপস্থিতিতে ভুল/সংশোধনের কাজ গত ০৯-০৯-২১ ইং তারিখে শেষ করা হয়েছে। এরপরেও দেবহাটা উপজেলায় বয়স্ক, বিধবা প্রতিবন্ধী ভাতা যারা পাচ্ছেন তাদের মোবাইল নম্বর যদি এখনো ভুল থাকে বা নং পরিবর্তন করতে চান তাহলে আগামী ১৫-০৯-২১ ইং তারিখের মধ্যে উপজেলা সমাজসেবা অফিসে এসে সংশোধন করে নেওয়ার জন্য সবিনয়ে অনুরোধ করা হলো। যদি কোন ভাতাভোগী মোবাইল নং পরিবর্তন করতে চান তাহলে উল্লেখিত তারিখের মধ্যে উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তার কার্য্যালয়ে আসার জন্য অধীর কুমার গাইন অনুরোধ জানিয়েছেন।

রামপালে ষড়যন্তমূলক মামলায় রেহাই পাওনা টাকা ফেরতের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন

রামপাল (বাগেরহাট) সংবাদদাতা

রামপালে ষড়যন্ত্রমূলক মামলা থেকে রেহাই পেতে পাওনা টাকা ফেরত পাওয়ার দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছেন এক ভুক্তভোগী। শনিবার বেলা ১১ টায় প্রেসক্লাব রামপাল এর অস্থায়ী কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন উপজেলার কুমলাই গ্রামের আলহাজ্ব আহম্মদ আলীর পুত্র হাওলাদার নাজির উদ্দিন। লিখিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি অভিযোগ করেন প্রায় ৭/বছর ধরে বাগেরহাট সদরের বারাকপুর মৎস্যবাজারে আল মদিনা মৎস্য আড়তে দশানী গ্রামের সৈয়দ সামছুজ্জোহার পুত্র সৈয়দ সামছুল আলম রামপালে কুমলাই গ্রামের আবু বকর সিদ্দিকের পুত্র হাওলাদার আবু সাইদের সাথে ব্যবসা করে আসছিলেন। টাকা পয়সা নিয়ে বিরোধ সৃষ্টি হওয়ায় পার্টনারদের সাথে ব্যবসায় বন্ধ করে দিয়ে পাওনাকৃত লক্ষ টাকা দাবী করায় ক্ষিপ্ত হয়ে রাবেয়া বেগম নামের জনৈক এক মহিলাকে দিয়ে একটি হয়রানীমূলক মামলা দায়ের করান। যা বিজ্ঞ আদালতে বিচারাধীন আছে। পরবর্তীতে ওই মহিলাকে ব্যবসার এক পার্টনার হাওলাদার আবু সাইদ বিয়ে করে ঘর সংসার করছে। মামলার বিষয়টি অত্যন্ত সুপরিকল্পিত সাজানো যা এই বিববাহের মাধ্যমে প্রমানিত হয়। ব্যাপারে অভিযুক্ত হাওলাদার আবু সাইদের সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি রাবেয়াকে বিবাহের কথা স্বীকার করে বলেন, নাজির কোন টাকা পয়সা পাবেন না।

শরণখোলায় করাতকল চালুর দাবীতে মানববন্ধন

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি

করাতকল আইন সংশোধন, সুন্দরবন থেকে দূরত্ব মিলোমিটার নির্ধারন এবং বন্ধ থাকা করাতকল পুণরায় চালুর দাবীতে শরণখোলায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার সকালে শরণখোলা প্রেসক্লাবের সামনের সড়কে করাতকল মালিক শ্রমিকদের ব্যানারে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে উপজেলা চেয়ারম্যান রায়হান উদ্দিন শান্ত, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান মিলন, জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য এম. সাইফুল ইসলাম খোকন, জাতীয় পার্টির সভাপতি বদরুজ্জামান আবু গাজী, যুবলীগের সাবেক সভাপতি আবুল হোসেন নান্টু উপস্থিত থেকে তাদের সাথে একাত্বতা প্রকাশ করেন।

মনববন্ধনে করাতকল মালিক শ্রমিক নের্তৃবৃন্দ বলেন, উপকূলীয় শরণখোলার মানুষের ঝড় জলোচ্ছ্ব্াস সহ নানা দুর্যোগের সময় ঘর বাড়ি মেরামত করতে দেশীয় প্রজাতির কাঠ কাটতে হয়। কিন্তু বন বিভাগের পুরাতন আইন দ্বারা করাতকল বন্ধ করার কারণে এদিকে সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ অপরদিকে শতশত শ্রমিক মিল মালিকরা দিশেহারা হয়ে পরেছে।

মহেশপুরে সিজার অপারেশনের একমাস পর করা নারীর পেট থেকে বের করা হলো ব্যান্ডেজ

মহেশপুর(ঝিনাইদহ)প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহের মহেশপুরের ভৈরবা বাজারে গড়ে উঠা সিহাব প্রাইভেট হাসপাতালে সিজার অপারেশন করা হয় ঝরনা আক্তার (২০) নামের এক নারীকে। হাতুড়ে ডাক্তারের ভূলের কারণে পেটের ভিতরে রয়ে যায় গজ ব্যান্ডেজ। পরে একমাস পর মনোয়ারা প্রাইভেট হাসপাতালে আবারও অপারেশনের মাধ্যমে বের করা হলো পেটের ভিতরে রেখে দেওয়া সেই গজ ব্যান্ডেজ গুলো।

রোগীর পরিবারের স্বজনরা জানান, গত আগস্ট সন্ধ্যায় মহেশপুরের কাজিরবেড় ইউনিয়নের পাকরাইল গ্রামের স্বপনের স্ত্রী ঝরনা আক্তারকে সিজার অপারেশনে ভর্তি করা হয় ভৈরবা বাজারের সিহাব প্রাইভেট হাসপাতালে। সেখানেই তাকে সিজার অপারেশন করা হয়। কিন্তু হাতুরে ডাক্তারের ভূলের কারণে অপারেশনের সময় পেটের ভিতরে রেখে দেওয়া হয় গজ ব্যান্ডেজ। গত সেপ্টেম্বর রাতে জীবননগর মনোয়ারা প্রাইভেট হাসপাতালে ঝরনা আক্তারকে আবারও অপারেশন করে পেটের ভিতরে রেখে দেওয়া সেই গজ ব্যান্ডেজ বেরা করা হয়।

তবে অভিযোগ রয়েছে সিহাব প্রাইভেট হাসপাতালের মালিক আব্দুস সেলিম,শাহা আলম নার্স ফতেমা আক্তার ডাক্তার না পেয়ে রাতের অন্ধ কারে নিজেরাই ডাক্তার সেজে আপারেশন করে থাকেন। ঝরনা আক্তারকে তারাই ডাক্তার সেজে সিজার অপারেশন করেন। যার কারনেই রোগীর পেটের ভিতরে রয়ে যায় গজ ব্যান্ডেস।

এব্যাপারে সিহাব প্রাইভেট হাসপাতালের মালিক আব্দুস সেলিমের মুঠো ফোনে কয়েকবার যোগাযোগের চেষ্টা করলেও তিনি ফোন রিসিভ না করে বারবার কেটে দিয়েছেন।                     

বকেয়া বিলের কারনে চালু করা সম্ভব হচ্ছে না কোটির অধিক টাকা ব্যয়ে নির্মিত ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্টটি

শামীম খান,মহেশপুর(ঝিনাইদহ)প্রতিনিধিঃ

চার কোটি টাকার অধিক ব্যায়ে নির্মান করা হয়েছে ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্ট। আশা ছিল পৌর এলাকার বাসিন্দাদের বিষুদ্ধ পানি পৌছে দেওয়ার। নির্মান কাজও শেষ হয়েছে দুই বছর, কিন্তু বিদ্যুৎ সংযোগ না পাওয়ায় আজো চালু করা সম্ভব হয়নি। এই অবস্থা ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার শতবছরের পুরাতন মহেশপুর পৌরসভার।

কর্তৃপক্ষ বলছেন, বর্তমান পৌর পরিষদের পূর্বে যারা দায়িত্ব পালন করেছেন তারা বেশ কিছু টাকা বিদ্যুৎ বিল বকেয়া করে গেছেন। বর্তমান পরিষদ চলমান বিল পরিশোধের পাশাপাশি বকেয়া বিলও দিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু কম আয়ের পৌরসভা হওয়ায় একসঙ্গে বকেয়া পরিশোধ করতে পারছেন না। আর এই অপরাধে বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ তাদের এই প্রকল্পে সংযোগ দিচ্ছেন না। ফলে নির্মান শেষ হলেও পড়ে থেকে পাল্টটি নষ্ট হতে চলেছে। অবশ্য তারা বিকল্প ব্যবস্থায় চালানো যায় কি না সেই চেষ্টা করছেন বলে জানান পৌরসভার মেয়র আব্দুর রশিদ খাঁন।

স্থানীয় জনস্বাস্থ্য বিভাগ সুত্রে জানা গেছে, মহেশপুর পৌর এলাকার ৯৬ শতাংশ টিউবওয়েলের পানিতে আর্সেনিকের মাত্রা বেশী। দীঘদিন পানি পান করলে মারাত্মক রোগ ব্যাধি দেখা দিতে পারে। তাছাড়া পৌরসভার সাপ্লাই পানিতে অতি মাত্রায় আয়রন থাকায় পানি পানের অযোগ্য হয়ে পড়েছে। ফলে পৌরসভার পাইপ লাইনের মাধ্যমে সুপেয় পানি সরবরাহের লক্ষ্যে আর্সেনিক আয়রন রিমুভাল প্লান্ট স্থাপনের জন্য একটি প্রকল্প গ্রহন করা হয়। এই প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য ৪,২৯,৬৪,৭৭৫ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়। ২০১৭ সালের জুন প্রকল্পটির কাজ বাস্তবায়নে ঠিকাদারকে কার্যাদেশ দেন কর্তৃপক্ষ। ২০২০ সালে নির্মান কাজ শেষ হয়, বাকি থাকে বিদ্যুৎ সংযোগ বিদ্যুৎ সংশ্লিষ্ট কিছু কাজ।

মহেশপুর পৌরসভার মেয়র আব্দুর রশিদ খাঁন জানান, মোঃ ইউনুছ এন্ড  ব্রাদার্স (প্রাঃ) লিঃ নামে চট্রগ্রামের এক ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কাজটি করেছেন। ঠিকাদার ইতিমধ্যে ২৫ কিলোমিটার পাইপ লাইন, তিনটি পাম্প হাউজ ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্টের কাজ শেষ করেছেন। প্রকল্পের ৯৫ শতাংশ কাজ শেষ হয়েছে, এখন বিদ্যুৎ সংযোগ পেলে বাকি কাজ শেষ হবে। নিয়ম অনুযায়ী ৯০ শতাংশ কাজ শেষ হওয়ায় ঠিকাদারকে ৮০ শতাংশ কাজের বিল উত্তোলন করেছেন। কিন্তু বিদ্যুৎ সংযোগ না পাওয়ায় তারা পাল্টটি চালু করতে পারছেন না। ফলে  সাড়ে ৩৫ হাজার পৌরবাসী আয়রন আর্সেনিক মুক্ত সুপেয় পানির অভাবে স্বাস্থ্য ঝুকিতে রয়েছেন।

মেয়র আরো জানান, বকেয়া বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ না করায় ওয়েষ্ট পাওয়ার জোন ডিস্টিবিউশন কেম্পানী মহেশপুর পৌরসভার সব ধরনের নতুন বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান বন্ধ রেখেছে। ফলে তিনটি পাম্প হাউজ ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্টে বিদ্যুৎ সংযোগ তারা দিচ্ছে না। বিদ্যুৎ সংযোগ না পাওয়ার কারনে ঠিকাদার বিদ্যুৎ সংক্রান্ত অবশিষ্ট কাজ শেষ করতে পারছেন না। ফলে প্লান্টটিও চালু করতে পারছে না।

বিষয়ে ওয়েষ্ট জোন পাওয়ার ডিস্টিবিউশন কোম্পানীর মহেশপুর অফিসের আবাসিক প্রকৌশলী সেকেন্দার হাসান জাহাঙ্গীর জানান, ওয়াটার ট্রিটমেন্টপ্লান্ট পাম্প হাউজে বিদ্যুৎ সংযোগ নেওয়ার জন্য মহেশপুর পৌরসভা থেকে আবেদন করা হয়েছে। কিন্তু পৌরসভার নিকট কোটির অধিক টাকা বকেয়া রয়েছে। এতো বিপুল অংকের টাকা বকেয়া রেখে কোন ধরনের সংযোগ না দেওয়ার জন্য তাদের উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশ রয়েছে। ফলে বিল পরিশোধ অথবা উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা ছাড়া পৌরসভায় নতুন সংযোগ প্রদান করা সম্ভব হচ্ছে না।

মহেশপুর পৌরসভার মেয়র আব্দুর রশিদ খাঁন আরো বলেন, পৌরসভার পূর্বের চেয়ারম্যান মেয়র কোটি টাকার বিদ্যুৎ বিল না দিয়ে বকেয়া রেখে গেছেন। যা সুদ বেড়ে কোটির অধিক হয়েছে। বর্তমান পরিষদ সাধ্যমত পূর্বের বকেয়া পরিশোধ চলমান বিদ্যুৎ বিল পরিশোধ করে যাচ্ছে। কিন্তু পৌরসভার তহবিলে পর্যাপ্ত অর্থ না থাকায় বকেয়া বিদ্যুৎ বিল পুরোপুরি পরিশোধ করা সম্ভব হচ্ছে না। বিদ্যুৎ বিল পরিশোধের জন্য মন্ত্রনালয়ে এককালিন অর্থ বরাদ্দের জন্য যোগাযোগ করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, বিদ্যুৎ বিল বকেয়া থাকার কারনে সোয়া কোটি টাকা ব্যয়ে বাস্তবায়িত প্রকল্প চালু না হওয়ায় তার যন্ত্রপাতি নষ্ট হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। যে কারনে তারা বিকল্প ব্যবস্তায় পরীক্ষামূলক চালুর চেষ্টা করছেন। তবে তিনি শর্ত সাপেক্ষে বিদ্যুৎ সঙযোগ দিয়ে ওয়াটার ট্রিটমেন্ট প্লান্ট চালু করার দাবি জানিয়েছেন, তাহলে পৌরসভা এলাকার সাড়ে ৩৫ হাজার মানুষ আর্সেনিক আয়রন মুক্ত পানি পাবে। তারা পানিবাহিত স্বাস্থ্য ঝুকি মুক্ত থাকবেন।