কখনও সচিব কখনও পুলিশ কর্মকর্তা, অবশেষে ধরা

1
Spread the love

যশোর অফিস

প্রতারণার অভিযোগে শেরপুর থেকে এক ভুয়া সচিব ও তার স্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে যশোরের গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। তারা হলেন শেরপুরের শ্রীবরদী উপজেলার বালিয়াচন্ডি গ্রামের লতিফ মাস্টারের ছেলে শাহাদৎ হোসেন ওরফে শাহাদত জামান ওরফে কনস্টেবল জামান ওরফে সচিব মঞ্জুরুল ইসলাম ও ওরফে সচিব গোলাম কিবরিয়া (৫২) এবং তার স্ত্রী নাজমা বেগম (৪০)।

শুক্রবার (২৪ জুলাই) তাদের শেরপুর থেকে গ্রেফতার করা হয়। শনিবার (২৫ জুলাই) দুপুরে যশোর পুলিশ সুপারের সভাকক্ষে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানানো হয়।

সচিব ও পুলিশ কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে প্রতারণা করে আসছিলেন গ্রেফতার শাহাদৎ হোসেন। গ্রেফতারের সময় তার কাছ থেকে প্রতারণার কাজে ব্যবহার করা চারটি মোবাইল ও আটটি সিমকার্ড উদ্ধার করা হয়।

প্রেস ব্রিফিংয়ে বক্তব্য দেন পুলিশ সুপার আশরাফ হোসেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সালাহউদ্দিন শিকদার ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গোলাম রব্বানি প্রমুখ।

প্রেস ব্রিফিংয়ে পুলিশ সুপার আশরাফ হোসেন বলেন, ২০১৩ সাল থেকে শাহাদৎ হোসেন বিভিন্ন জেলায় সচিব ও পুলিশ কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তার সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিলেন। এছাড়া সাধারণ মানুষকে চাকরি দেয়ার কথা বলে অর্থ হাতিয়ে আসছেন তিনি। এই তথ্য যশোর জেলা পুলিশের নজরে এলে কোতোয়ালি থানায় একটি জিডি করা হয়। এরপর ডিবির এসআই মফিজুল ইসলাম মিথ্যা পরিচয়দানকারী শাহাদৎ হোসেনকে শনাক্ত করেন এবং ডিবি পুলিশের ভারপ্রাপ্ত ওসি সোমেন দাসের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে তাদের শেরপুর থেকে গ্রেফতার করা হয়।