সারা খুলনা অঞ্চলের খবর

11
Spread the love

দৌলতপুরে দিয়াশলাই নিয়ে মারামারিতে নিহত ১

স্টাফ রিপোর্টার

নগরীর দৌলতপুরে ম্যাচ নিয়ে মাদক সেবনকারীদের মারামারিতে জামাল ওরফে টুটে জামাল (৩৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার রাত ২টার দিকে দৌলতপুরের মহেশ্বরপাশা এলাকার সেনপাড়াতে এ ঘটনা ঘটে।  নিহত জামাল ওই এলাকার শামসুর ছেলে। তিনি পেশায় ট্রাকের হেলপার ছিলেন। একইসঙ্গে গোডাউনে শ্রমিকের কাজও করতেন।

দৌলতপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মোশারফ হোসেন বলেন, বিড়ি খাওয়ার জন্য ম্যাচ নিয়ে কয়েকজন মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে মারপিঠের ঘটনা ঘটে। এতে জামাল মারা যান। পরে গতকাল বুধবার ভোর ৪টার দিকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তাকে মৃত. অবস্থায় আনা হয়। এখনও মরদেহ হাসপাতালে আছে। এ ঘটনায় কেউকে আটক করা যায়নি। ঘটনার সঙ্গে যারা জড়িত সকলেই মাদকাসক্ত।

কুষ্টিয়া থেকে খুলনার অপহৃত শিশু উদ্ধার : গ্রেফতার ২

স্টাফ রিপোর্টার

খুলনা থেকে অপহরণ হওয়া রাইছা আক্তার রোজা নামের এক শিশুকে উদ্ধার করেছে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ (কেএমপি)। নগরীর মিয়াপাড়া থেকে শিশুটি অপহৃত হয়। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত এক দম্পতিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মগতকাল বুধবার দুপুরে খুলনা থানায় কেএমপির এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

কেএমপির ডেপুটি পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) এম এম শাকিলুজ্জামান জানান, নগরীর টুটপাড়া মিয়াপাড়া থেকে ১৪ জুলাই সকাল ৯টার দিকে জনি মোল্যার চার বছরের মেয়ে রাইছা আক্তার রোজাকে চকলেট খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে তুলে নিয়ে যায় অপহরণকারীরা। পার্শ্ববর্তী এক প্রতিবেশীর মাধ্যমে জনি মোল্যার স্ত্রী নাসরিন বেগম বিষয়টি জানতে পারেন। তিনি বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেও কোনো হদিস না করতে পেরে অবশেষে পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন। এরপর নাসরিনের কাছে ২ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা। সেই মোবাইল নম্বর ট্রাকিং করে মঙ্গলবার দিনগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে কুষ্টিয়া জেলার কাঞ্চনপুর এলাকা থেকে অপহৃত শিশু রোজাকে উদ্ধার করে পুলিশ। এসময় অপহরণের সঙ্গে জড়িত রুবিনা আক্তার (৪৫) ও তার স্বামী ফারুক বিশ্বাসকে (৪৭) গ্রেফতার করা হয়। ফারুক বিশ্বাস কুষ্টিয়ার কাঞ্চনপুর এলাকার আবু তালেব বিশ্বাসের ছেলে। তিনি ও তার স্ত্রীসহ একটি সংঘবদ্ধ চক্র বিভিন্ন জেলায় শিশু অপহরণের সঙ্গে জড়িত।

তিনি আরও বলেন, দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে যে ফোন কলটি এসেছিল আমরা সেটা ট্রাকিং করে আসামিদের অবস্থান সম্পর্কে নিশ্চিত হই। পরে দ্রুত সেখানে অভিযান চালিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার ও আসামিদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হই। অপহরণকারীরা একটি সংঘবদ্ধ চক্র। এরা বিভিন্ন স্থানে ছদ্ধবেশে ঘুড়ে বেড়ায় এবং নজরদারি করে। নানা অযুহাতে তারা যেকারও বাসায় ঢুকে যেতে পারে। এরপর সুযোগ বুঝে শিশুদের প্রলোভন দেখিয়ে অপহরণ করে। পুরো চক্রটিকে ধরার জন্য আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এঘটনায় খুলনা সদর থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করা হয়েছে।

শিশু রোজাকে নিজের কাছে ফিরে পেয়ে আবেগ আপ্লুত হয়ে পুলিশকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। এসময় উদ্ধার হওয়া শিশুটিকে কেএমপির পক্ষ থেকে উপহারসামগ্রী তুলে দেওয়া হয়। সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন খুলনা  থানার সহকারী পুলিশ কমিশনার হাফিজুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আশরাফুল আলমসহ পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তারা।

নগরীতে পুলিশের অভিযানে মাদকসহ গ্রেফতার ১৫

স্টাফ রিপোর্টার

মহানগর পুলিশের মাদক বিরোধী অভিযানে ৩৪  বোতল ফেন্সিডিল, ৪৮পিস ইয়াবা ও ২০০ গ্রাম গাঁজাসহ ১৫ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতার মাদক ব্যবসায়ীরা হলেন সোনাডাঙ্গা ৩য় আ/এ, রোড নং-০৩, বাসা নং-৭৪, মাকসুদ সাহেবের বাড়ির ভাড়াটিয়া শেখ নিয়ামত আলীর ছেলে মুনিম হাসান (২৬), ১৬৮/১০৮ বানরগাতি বাজার ইসলাম কমিশনারে মোড়ের  আশরাফ উদ্দিন ওরফে বুলুর ছেলে রাব্বি চৌধুরী (২৬), ১৯, দারুল আমান মহল্লা আলীর কাবের মোড়ের মো. গাউস মোল্লার ছেলে মো. জাকির মোল্ল্যা (৩৬), কৃষ্ণনগর শিকদার পেট্রোল পাম্পে এর পূর্ব পার্শের বাসিন্দা মো. সোবহান মুন্সীর ছেলে মো. নুর ইসলাম মুন্সি (৩৫), মশিয়ালী আকুঞ্জিপাড়ার মৃত. আনসার শেখের ছেলে মো. নজরুল ইসলাম ওরফে নজু শেখ (৪৭), বাস্তুহারা কলোনী, রোড নং-০৩, বাসা নং-১৭২/১৭৩ এর বাসিন্দা নূর মোহাম্মদের ছেলে মো. বেল্লাল (৪৩),  রেলওয়ে গার্ড কলোনীর টি-১৯০/খ এর বাসিন্দা মৃত. তোফাজ্জেল হোসেনের ছেলে মো. নুরুল ইসলাম তপু (২৩),  উত্তর কাশিপুর মেঘনাঘাট এলাকার শেখ হানিফের ছেলে মো. সোহেল (২৮), ৩৬ শেরে বাংলা রোডস্থ আমতলা হিমু লেনের মো. বাবুল হোসেনের ছেলে  মো. মাসুম (৩২), বসুপাড়া মেইন রোড সালাউদ্দিনের গলির আব্দুল হাই সাহেবের বাড়ীর ভাড়াটিয়া মো. ওসমান গনির ছেলে মো. মিলন হোসেন (৩২), খালিশপুর মেঘনা রেলগেট নাসির সাহেবের বাড়ীর ভাড়াটিয়া ইলিয়াস কাজীর ছেলে লিটন কাজী (২৪), খালিশপুর এন,আই-৮২, হাউজিং নতুন কলোনীর কাওসার শিকদারের ছেলে বিপ্লব শিকদার (২৭), পাবলা তিন দোকানের মোড় ডিউক এর বাড়ীর ভাড়াটিয়া মো. রেজাউল শেখের ছেলে মো. বাবু শেখ (১৯),

পাবলা দফাদার পাড়া কামরুল সাহেবের বাড়ীর ভাড়াটিয়া মো. শফিক শেখের ছেলে মো. নয়ন শেখ (১৮) ও  সাতক্ষীরা জেলার দেবহাটা থানার উত্তর পারুলিয়া গ্রামের মো. খলিলুর গাজীর স্ত্রী রোকেয়া বেগম (৫১)। 

কেএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (সদর) কানাই লাল সরকার জানান, গত ২৪ ঘন্টায় নগরীর বিভিন্ন থানা এলাকায় মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করে মহানগর পুলিশ। ৩৪  বোতল ফেন্সিডিল, ৪৮পিস ইয়াবা ও ২০০ গ্রাম গাঁজাসহ ১৫ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়। তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় ১১টি মাদক মামলা রুজু করা হয়েছে।

অভয়নগরে র‌্যাবের অভিযানে চোলাই মদসহ গ্রেফতার ১

স্টাফ রিপোর্টার

যশোর জেলার অভয়নগর থানাধীন নওয়াপাড়া আটা বাজারে অভিযান চালিয়ে ৫৫ লিটার দেশী তৈরী চোলাই মদসহ এক মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব-৬। গতকাল বুধবার দুপুর দেড়টার দিকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার মাদক ব্যবসায়ী হলেন যশোর জেলার অভয়নগর থানার বুইকারা গ্রামের মৃত. আব্দুল বারেক হাওলাদারের ছেলে মো. আব্দুল মালেক (৬৫)। 

র‌্যাব-৬ জানায়, গতকাল বুধবার দুপুর দেড়টার দিকে যশোর জেলার অভয়নগর থানাধীন নওয়াপাড়া আটা বাজারে অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাবের একটি আভিযানিক দল। এসময় বাজারের গ্রামীন ফোন টাওয়ার এর পাশের্^ মেসার্স রাবেয়া এন্টার প্রাইজ দোকানের পিছনে জনৈক হাবিবুরের টিন সেট ঘরের মধ্যে

থেকে ৫৫ লিটার দেশী তৈরী চোলাই মদসহ আব্দুল মালেককে গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে অভয়নগর থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নগরীতে গুরু মহারাজের জ্যেষ্ঠ পুত্রের ২৯তম তিরোধন দিবস পালিত 

খবর বিজ্ঞপ্তি

নগরীর বাইতিপাড়ার জটাধারী বেদ আশ্রমের প্রধান অফিসে গুরু মহারাজ ভবতোষ দেবনাথের জ্যেষ্ঠ পুত্র শতানন্দ দেবনাথের ২৯তম তিরোধন দিবস পালিত  হয়েছে। গতকাল বুধবার রাত ৮টায় প্রতি বছরের ন্যায় এ বছরও দিনটি শৈব্য সম্প্রদায়ের ভাবগাম্ভীর্য সহকারে পালিত হয়। 

উক্ত ধর্মীয় অনুষ্ঠানে নাদ ব্রক্ষনাস ও শ্রীশ্রী তারক ব্রক্ষ মহানাস সংকীর্তণ পাঠ হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে গুরুর একনিষ্ঠা পরম ভক্ত ও আশ্রমের সাধারণ সম্পাদিকা শ্রীমতি উমা রানী দেবনাথ তার কোকিল কন্ঠ সুরে অনুষ্ঠানটি মুখরীত করে তোলেন। সাংস্কৃতি সম্পাদিকা জয়া দেবনাথ তার গানের মাধ্যমে নোভেল করোনায় আতংকিত ও ভীতি সন্ত্রাস্ত না হওয়ার জন্য সবাইকে উদ্বুদ্ধ করেন। সমাজ সংস্কার সম্পাদক সৌম্য জিৎ দেবনাথ সমাজ সংস্কারের জন্য আশ্রমের ভিতরে ও বাইরে করোনা বিস্তার রোধে প্রদক্ষেপ গ্রহণ করেন। করোনা প্রতিরোধে সচেতনতামুলক গান, কবিতা ও নাটিকা উপস্থাপন করেন আশ্রমের সাধারণ সম্পাদক সৌমিত দেবনাথ ও সাংগঠনিক সম্পাদিকা সোমা দেবনাথ।  শেষ পর্বে কোভিড-১৯ থেকে কিভাবে বাংলাদেশসহ বিশ্বকে মুক্ত করা যায় সে সম্পর্কে বিশেষ বুলেটিন ও চ-ীপাঠ, গীতা পাঠ, দেবপাঠসহ নানাবিধ টটকা প্রচার এবং স্বাস্থ্যবিধি মানতে বলুন, মৃত্যু ঝুকি এড়িয়ে চলুন, এই স্লোগানের উপর জোর দিয়ে ষোড়শোপ্রচারে গুরু পূজা করেন জটাধারী বেদ আশ্রমের সভাপতি/সেবাইত সমেন দেবনাথ। প্রভাতে মাঙ্গলিক ক্রিয়াসহ পূজান্তে পঞ্চ মিষ্টান্ন, চিড়া। মধ্যহ্নে অন্ন পরমান্ন মহাপ্রসাদ রাত্রিকালিন মধুপার্ক, ফলমুলাদি, যুগোল প্রসাদ বিতরণ করা হয়।   

অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে বিবৃতি প্রদান ও বিভিন্ন ভাবে সাহায্য করেন মনিষা, মিলন, সরজিৎ, বীনা, বিপ্লব, কাকুলী, আশুতোষ, বন্যা প্রমুখ। 

খুলনা প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের শোক

খবর বিজ্ঞপ্তি

যমুনা টেলিভিশন ও দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা, শিল্পপতি, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল ইসলামের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করে বিবৃতি দিয়েছেন খুলনা প্রেসকাবের সভাপতি এস এম নজরুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক মামুন রেজাসহ কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্যবৃন্দ। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান এবং মরহুমের আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন।

বাগেরহাটে স্বাস্থ্য বিভাগের ২৭ কর্মী করোনা আক্রান্ত

মাসুম হাওলাদার, বাগেরহাট

বৈশ্বিক মহামারি করোনার হানা বাগেরহাট স্বাস্থ্য বিভাগের উপরও পড়েছে।বুধবার (১৫ জুলাই) পর্যন্ত চিকিৎসক, নার্স, তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীসহ বাগেরহাট জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের ২৭ কর্মী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তবে আক্রন্তদের মধ্যে বেশিরভাগেরই শারীরিক অবস্থা ভাল।দু-একজন বাগেরহাট সদর হাসপাতাল সংলগ্ন কোভিড হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।এত পরিমান কর্মী আক্রন্ত হওয়ায় স্বাস্থ্য সেবা দিতে হিমশিম খাচ্ছেন স্বাস্থ্য বিভাগ।

বাগেরহাটের সিভিল সার্জণ ডা. কে এম হুমায়ুন কবির বলেন, করোনা পরিস্থিতি শুরু হওয়ার পর থেকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইড লাইন মেনে বাগেরহাট জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জনগণকে সর্বোচ্চ সেবা প্রদান করে আসছে।১৫ এপ্রিল বাগেরহাটে প্রথম করোনা শনাক্ত হওয়ার পর থেকে আমরা আরও বেশি সতর্কতা অবলম্বন করা হয়। তারপরও স্বাস্থ্য বিভাগের চিকিৎসকসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা সংক্রমনের ঝুকি নিয়েই সবসময় জনগণকে সেবা প্রদান করেছে। সেই ধারাবাহিকতায় বাগেরহাটের স্বাস্থ্য বিভাগের কিছু কর্মীও করোনা আক্রন্ত হয়েছেন। বাগেরহাট স্বাস্থ্য বিভাগের চিকিৎসক, নার্সসহ ২৭ জন কর্মকর্তা-কর্মচারী করোনা আক্রন্ত হয়েছেন। এদের বেশিরভাগেরই শারীরিক অবস্থা ভাল আছে।এত পরিমান কর্মী আক্রন্ত হওয়ায় স্বাস্থ্য সেবা দিতে কিছুটা বেগ পেতে হচ্ছে বলে উল্লেখ করেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, বুধবার পর্যন্ত বাগেরহাটে মোট ৩‘শ ৬৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে প্রায় ২‘শ জন রোগী সুস্থ্য হয়েছেন। ৬ জন রোগী মারা গেছেন।

আইম্মা পরিষদ দৌলতপুর থানা শাখার পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন

খবর বিজ্ঞপ্তি

বুধবার সকাল ৮টায় জাতীয় ওলামা মাশায়েখ আইম্মা পরিষদ দৌলতপুর থানা শাখার সভাপতি মাওলানা ইলিয়াস মাঞ্জুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারন সম্পাদক মুফতী মাহমুদুল হাসান এর পরিচালনায় দেয়ানা মাদ্রাসায় কমিটি পূর্ণাঙ্গ করা হয়। প্রধান অতিথি ছিলেন আইম্মা পরিষদ খুলনা মহানগর সভাপতি আলহাজ্ব মুফতী গোলামুর রহমান, প্রধান অতিথি বক্তব্যে বলেন হক্বের পথে ঐক্যবদ্ধ থেকে ইসলামের সঠিক দাওয়াত মুসলিম উম্মাহর কাছে পৌছে দিতে হবে।

এই কঠিন সংকটময় মূহুর্তে উম্মতের খেদমতের আরও বেশি আন্তরিক হতে হবে। বিশেষ অতিথি ছিলেন মহানগর সাংগঠনিক সম্পাদক মুফতী আলী আহমাদ, থানা জিম্মাদার মুফতী রশিদ আহমাদ, উপস্থিত ছিলেন মাওলানা রফিকুল ইসলাম, মাওলানা মুফতী আরিফ বিল্লাহ, মাওলানা আনোয়ার হোসাইন, মুফতী শেখ আমীরুল ইসলাম, মুফতী জাহিদুল ইসলাম, মুফতী ইমরান বিন হুসাইন, মুফতী আবু মুহাঃ আব্দুল মান্নান, মুফতী আল আমীন, মাওলানা বশির আহমাদ, মুফতী আমানুল্লাহ আশরাফী, মুফতী মুহিববুল্লাহ, মুফতী মুহিববুল্লাহ, মাওলানা ইয়াহইয়া, মাওলানা হাবিবুল্লাহ, মুফতী সাঈদুর রহমান, মুফতী শরীফুল ইসলাম, মুফতী আবু হুরায়রা, হাফেজ হাবিবুল্লাহ, মুফতী আবুল হাসান, মুফতী খালিদ সাইফুল্লাহ, হাফেজ আব্দুর রহমান, মুফতী আল আমীন, মুফতী আসাদুল্লাহ, মাওলানা ওয়াহিদুজ্জামান, মুফতী হুসাইন মোহাম্মাদ জুম্মান, মুফতী আব্দুল মান্নান, মাওলানা আকরাম হুসাইন প্রমূখ নেতৃবৃন্দ।

নগরীর ৩০নং ওয়ার্ডে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট পরিচালিত ‘অদম্য পাঠশালা’র কার্যক্রম শুরু

খবর বিজ্ঞপ্তি

করোনা মহামারীকালে অনলাইনে কাস করতে অসমর্থ শ্রমজীবী পরিবারের সন্তানদের জন্য সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট, খুলনা জেলা শাখার উদ্যোগে স্বাস্থ্যবিধিসম্মতভাবে বিনাবেতনের পাঠদান কার্যক্রম ‘অদম্য পাঠশালা’ বুধবার সকাল ১০টায় খুলনা নগরীর ৩০নং ওয়ার্ডের রূপসায় শুরু হয়েছে। এর পূর্বে ২৭নং ওয়ার্ডের আবুর বস্তিতেও এ কার্যক্রম শুরু হয়ে নিয়মিত চলছে। রূপসায় দিনমজুর শ্রমিকদের সন্তানদের জন্য এ পাঠদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ, খুলনা জেলা সদস্য ও সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রণ্ট, খুলনা জেলা সাধারণ সম্পাদক আব্দুল করিম। উপস্থিত ছিলেনÑবাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ, খুলনা জেলা কমিটির সমন্বয়ক কমরেড জনার্দন দত্ত নাণ্টু, সদস্য কোহিনুর আক্তার কণা, সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট-খুলনা জেলা সদস্য মেহেদী হাসান, মিষ্টি খাতুন, আশরাফুল, রাব্বি, সুরাইয়া, তুষা, সাদিয়া, রানিমা, বিথী, প্রমুখ। সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট কেন্দ্রীয় নির্দেশনা মোতাবেক সারা দেশে ‘অদম্য পাঠশালা’ নামে এ পাঠদান কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে। উদ্বোধনকালে শ্রমিক নেতা আব্দুল করিম বলেন, বাংলাদেশে শিক্ষা ব্যবস্থা বৈষম্যমূলক। এখানে ‘টাকা যার শিক্ষা তার’ এ নীতিতে শিক্ষা ব্যবস্থা পরিচালিত হয়। করোনা মহামারীকালে স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকার সময়ে অনলাইনে কাস ও পরীক্ষা নেয়া হচ্ছে। অথচ দেশের ৯০/৯৫ শতাংশ শিক্ষার্থীর এ খরচ বহণ করার সামর্থ্য নেই। ফলে শিক্ষাক্ষেত্রে বৈষম্য আরো বৃদ্ধি পাচ্ছে। তাই সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট দাবী করেছে সবার জন্য অনলাইনে কাস করার ব্যবস্থা করতে হবে। এ দাবীতে সংগঠনটি সারা দেশে কর্মসূচি পালন করছে। পাশাপাশি অনলাইনে কাস-পরীক্ষা অংশগ্রহণ করতে অসমর্থ শিক্ষার্থীদের জন্য সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্টের বিনামূল্যে পাঠদানের এ উদ্যোগকে স্বাগত জানান।

সোনাডাঙ্গা থানা আওয়ামীলীগের অভিনন্দন

খবর বিজ্ঞপ্তি

খুলনায় শেখ হাসিনা মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় এর নীতিগত অনুমোদন দেয়ায় প্রধানমন্ত্রীসহ মন্ত্রিপরিষদ,সচিব মন্ডলি এবং স্থানীয় প্রশাসনের সকল পর্যায়ের কর্মকর্তাদের শুভেচ্ছা অভিনন্দন জানিয়েছেন সোনাডাঙ্গা থানা আওয়ামীলীগ নেতৃবৃন্দ।

নেতৃবৃন্দরা হলেন সোনাডাঙ্গা থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বুলু বিশ্বাস, সাধারন সম্পাদক সাবেক ছাত্রনেতা তসলিম আহম্মেদ আশা,শাহজাহান পারভেজ, মোঃ আমির হোসেন, মোঃ মোজাফফার হোসেন, জান্নাতুল ফেরদৌস পিকুল, রফিকুল ইসলাম পিটু, জাহাঙ্গির আলী মন্টু, আঃ কাইয়ুম গোরা, এস এম রাজুল হাসান রাজু, এস এম কবির উদ্দিন বাবলু, টি এম আরিফ, কাউন্সিলর আমেনা হালিম বেবী, শরীফ এনামুল কবীর, মোক্তার হোসেন, এজাজ পারভেজ বাপ্পি, কামরুজ্জামান, এড এনামুল হক, আলী আকবর, মোঃ রুহুল আমীন খান, এড শামীম আহম্মেদ পলাশ, আইয়ুব আলী, মেহেজাবিন খান, তোতা মিয়াঁ ব্যাপারী, ইঞ্জিনিয়ার আঃ জব্বার, খাজা মঈনুদ্দিন, শিপন চৌধুরী, খান হুমায়ুন কবীর, এড সোহেল পারভেজ, তৌহিদুর রহমান দিপু, শাহাদাৎ হোসেন, মঈন খান সেলিম, কাজী রকিবুল হক পলাশ, আসাদুজ্জামান মিলটন, নাসরিন ইসলাম, হায়দার আলী খোকন, মোঃ রাজ্জাক হোসেন, আরজুল ইসলাম আরজু, মুন্সি আইয়ুব আলী, চম মুজিবুর রহমান, শেখ নুর ইসলাম, শেখ জাহিদুল হক, শেখ আবিদউলাহ, শেখ আব্দুল আজিজ,মোঃ জাহিদুল ইসলাম,সরদার আঃ হালিম,শেখ হাসান ইফতেখার চালু, ইউসুফ আলী খান, হাজি মোতালেব মিয়াঁ, শেখ রুহুল আমিন, মীর মোঃ লিটন, জাকির হোসেন হাওলাদার,রেজাউল করিম, মোঃ সবুর হোসেন,শেখ কুদ্দুস হোসেন, মহাদেব সাহা, মোস্তাক আহম্মেদ টুটুল, সোহেল চৌধুরী, আলী রেজা হায়দার রনি, আনিসুর রহমান, মীর মাসুদ আলী, রকিবুল ইসলাম রকি, এম এম সিপার হায়দার, শেখ সিদ্দিকুর হক, মোঃ মামুন উকিল, মাহবুব মম, জিয়াউর রহমান বাবু সাহেব, এড রাকিবুল ইসলাম, এ এম আল মামুন চৌধুরী, এস এম মনির হোসেন, মশিউজ্জামান খান মশি, এড জসিমউদ্দিন খান লিটন প্রমুখ।

মোংলায় নৌবাহিনীর ত্রাণ বিতরণে সহায়তা ও জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম

খবর বিজ্ঞপ্তি

বুধবার ছোঁয়াছে এবং দ্রুত ছড়িয়ে পড়া কোভিড-১৯ প্রতিরোধে মানুষ কর্মহীন হয়ে হোমকোয়ারেন্টাইনে থাকছে ফলে এর ভোগান্তি হচ্ছে সমাজের নিু আয়ের পরিবারগুলো। অসহায় এসব পরিবারের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ, দায়িত্বপূর্ণ এলাকাসমূহে নিয়মিত টহল প্রদান, জীবাণুনাশক ছিটানো, কোভিড-১৯ প্রতিরোধ সর্ম্পকিত বিভিন্ন ব্যানার স্থাপন, সাধারণ জনগণের মাঝে লিফলেট বিতরণসহ জনসচেতনতামূলক বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে বাংলাদেশ নৌবাহিনীর সদস্যরা। খুলনা নৌ অঞ্চলে কোভিড-১৯ সংক্রমণ রোধকল্পে গত মার্চ ২০২০ থেকে কমান্ডার খুলনা নেভাল এরিয়ার তত্ত্বাবধানে খুলনাসহ উপকূলীয় অঞ্চলে জনসচেতনতামূলক কার্যক্রম অব্যাহত রেখেছে বাংলাদেশ নৌবাহিনী। চলমান কার্যক্রমের অংশ হিসেবে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে ও বেসামরিক প্রশাসনকে সহায়তা প্রদানের লক্ষ্যে মোতায়েনকৃত নৌ কন্টিনজেন্ট মোংলা উপজেলার কানাইনগর, হলদিবুনিয়া দিগরাজ বাজার, বুড়িরডাঙ্গা, আপাবাড়ি, হাসপাতাল চত্ত্বর, ফেরিঘাট এলাকায় নিয়মিত সচেতনতামূলক টহল প্রদান করে। উপজেলাসমূহের বিভিন্ন স্থানে কোভিড-১৯ প্রতিরোধমূলক লিফলেট বিতরণ করে। সুন্দরবন ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকায় ৩৮৪টি দরিদ্র পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণে স্থানীয় প্রশাসনকে সহায়তা প্রদান করে। পাশাপাশি মোংলা উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনায় জেলা প্রশাসনকে সহায়তা প্রদান করে। অপরদিকে নৌ কন্টিনজেন্ট বরগুনা জেলা সদর, বামনা ও পাথরঘাটা ইউনিয়নে সচেতনতামূলক টহল পরিচালনা করে। উপজেলাসমূহের বিভিন্ন এলাকায় করোনা প্রতিরোধ সর্ম্পকিত ১৫০টি লিফলেট বিতরণ করে। সামাজিক দূরত্ব নিশ্চতকরণ, গণপরিবহন ব্যবহারের ক্ষেত্রে সরকারী নীতিমালা অনুসরণ এবং নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ক্রয়ে মাস্ক ব্যবহার করতে সাধারণ জনগণকে বলা হয়।

বাগেরহাটে পিবিআই এর নতুন পুলিশ সুপারের যোগদান

বাগেরহাট প্রতিনিধি

বাংলাদেশ পুলিশের বিশেষ সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই), বাগেরহাটের প্রধান হিসেবে যোগদান করেছেন পুলিশ সুপার মোঃ আল মামুন। মঙ্গলবার তিনি বাগেরহাট কার্যালয়ে যোগদান করেন। এই প্রথম পিবিআই বাগেরহাট কার্যালয়ে পুলিশ সুপার পদমর্যাদার কর্মকর্তার পদায়ণ করা হল।

পটুয়ায়খালী জেলার সন্তান নব নিযুক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আল মামুন এর আগে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ, র‌্যাব, এপিবিএন, সিরাজগঞ্জ, চাপাইনবাবগঞ্জ ও জয়পুরহাট পুলিশে কর্মরত ছিলেন। জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে আইভরিকোষ্ট ও মালিতে গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেছেন। বাগেরহাটে সঠিক ভাবে দায়িত্ব পালনের জন্য তিনি গণমাধ্যম ও সুশিল সমাজসহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন।

বাগেরহাটে করোনা উপসর্গে আইনজীবী টিপু’র মৃত্যু

বাগেরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটে করোনার উপসর্গ নিয়ে এ্যাডভোকেট এনামুল হক টিপু (৬০) মারা গেছেন। মঙ্গলবার রাতে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি মারা যান। শহরের কাপুড়িয়া পট্টিতে বসবাসকারী এ্যাডভোকেট টিপু বাগেরহাট সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রায়ত প্রধান শিক্ষক শেখ দবির উদ্দিনের প্রথম সন্তান। তিন দিন আগে এ্যাডভোকেট টিপুর করানা উপসর্গ দেখা দিলে তার ছোট ভাই খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের করোনা ইউনিটের চিকিৎসক ডা. জহিরুল হক তারা ভাইকে তার হাসপাতালে নিয়ে আইসিইউতে ভর্তি করেন। নমুনা সংগ্রহ করে রিপোর্ট আসার আগেই মঙ্গলবার রাতে এ্যাডভোকেট টিপু মারা গেলেন।

বাগেরহাটের সিভিল সার্জন ডা. কেএম হুমায়ুন কবির এতথ্য নিশ্চিত করে জানান, বাগেরহাট জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ২০ জনের শরীরে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। নতুন আক্রান্তের মধ্যে রয়েছেন বাগেরহাট সদর উপজেলায় ৮ জন, ফকিরহাট উপজেলায় ৮ জন, কচুয়া উপজেলায় ২ জন, চিতলমারী উপজেলায় ১ জন ও মোংলা উপজেলায় ১ জন। এই নিয়ে বাগেরহাট জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৩৪৩ জনে। এরমধ্যে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। ১৯০ জন সুস্থ্য হয়েছেন। অন্যরা চিকিৎসাধীন রয়েছেন। নতুন করোনা আক্রান্তদের বাড়ী লকডাইন করে তাদের বাড়ী ও প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। নতুন করোনা আক্রান্তদের পরিবারের সদস্য ও সংর্স্পশে আসা লোকজনকে চিহ্নিত করে তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে।

যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বাবুলের মৃত্যুতে বিএফইউজে ও এমইউজের একাংশের শোক

খবর বিজ্ঞপ্তি

যমুনা টেলিভিশন, দৈনিক যুগান্তর ও যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান বিশিষ্ট ব্যবসায়ী নুরুল ইসলাম বাবুলের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন বিএফইউজে ও মেট্রোপলিটন সাংবাদিক ইউনিয়ন (এমইউজে) খুলনার একাংশের নেতৃবৃন্দ। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বহু মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টিকারী ও প্রথম সারির দুটি গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠায় অবদান রাখা নুরুল ইসলাম বাবুলকে কৃতজ্ঞচিত্তে স্মরণ করেন । তিনি মরহুমের শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

বিবৃতিদাতারা হলেন-এমইউজে খুলনার সভাপতি মো. আনিসুজ্জামান, সহ-সভাপতি এহতেশামুল হক শাওন, সাধারণ সম্পাদক (ভারপ্রাপ্ত) আবুল হাসান হিমালয় ও কোষাধ্যক্ষ আব্দুর রাজ্জাক রানা, বিএফইউজের সাবেক সহ-সভাপতি ড. মো. জাকির হোসেন, সাবেক নির্বাহী সদস্য শেখ দিদারুল আলম ও এহতেশামুল হক শাওন। বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ বলেন, আবুল হোসেন অত্যন্ত অমায়িক এবং হাসি খুশি মানুষ ছিল। মানুষের উপকারের জন্য প্রায় সময় ব্যস্ত থাকতো। আল্লাহ তায়ালা এই ধরনের সন্দুর মনের মানুষের নেক আমলগুলো কবুল করুন এবং দুনিয়ার ভুল ত্রুটিগুলো মাফ করুন। আল্লাহ তুমি তোমার নেক বান্দার ভালো কাজগুলো কবুল করে তাকে জান্নাতুল ফেরদৌসে মেহমান বানিয়ে নিন। আমীন।

প্রসঙ্গত, করোনায় আক্রান্ত নুরুল ইসলাম বাবুল সোমবার (১৩ জুলাই) বিকেল ৪টায় মারা যান। তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর গত ১৬ দিন ধরে ভেন্টিলেশনে ছিলেন। সোমবার বিকেল ৪টার দিকে তিনি এভার কেয়ার (সাবেক এ্যাপোলো) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

খুবিতে কোভিড-১৯ প্রতিরোধে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি

তথ্য বিবরনী

খুলনায় করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণ প্রতিরোধে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরির কাজ বুধবার দুপুরে খুলনা বিশ^বিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। লোকাল গভর্ন্যান্স সাপোর্ট প্রজেক্ট (এলজিএসপি-৩) প্রকল্পের অর্থায়নে খুলনা জেলা প্রশাসনের স্থানীয় সরকার বিভাগের তত্ত্বাবধানে খুলনা বিশ^বিদ্যালয়ের পরিবেশ বিজ্ঞান ডিসিপ্লিনের সহযোগিতায় এসব হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করা হচ্ছে। স্যানিটাইজারগুলো খুলনা জেলার ৬৮ ইউনিয়ন পরিষদের প্রায় ২০ হাজার প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর মধ্যে বিতরণ করা হবে। হ্যান্ড স্যানিটাইজার ছাড়াও প্রত্যেক পরিবারের জন্য ওয়াশেবল মাস্ক, ব্লিচিং পাউডার এবং সাবান প্রদান করা হবে।

অনুষ্ঠানে খুলনার স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক মো. ইকবাল হোসেন বলেন, খুলনার প্রান্তিক পর্যায়ে বিশুদ্ধ পানির অভাব রয়েছে। অনেক ক্ষেত্রেই পানির অভাবের জন্য হাত ধোয়ার প্রবণতা অনেক কম। এই পরিস্থিতি মাথায় রেখে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরির ব্যবস্থা করা হয়েছে। স্যানিটাইজার তৈরিতে সহযোগিতার জন্য তিনি পরিবেশ বিজ্ঞান ডিসিপ্লিনের প্রধান প্রফেসর সালমা বেগমসহ তাঁর সহযোগীদের ধন্যবাদ জানান।

এসময় প্রফেসর সালমা বেগম বলেন, খুলনা বিশ^বিদ্যালয় এ অঞ্চলের মানুষের একটি প্রতিষ্ঠান। করোনার মতো মহামারিতে এ ধরণের সেবামূলক কাজে তাঁর ডিসিপ্লিনকে সম্পৃক্ত করার জন্য তিনি প্রকল্প সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানান। ভবিষ্যতেও এ ধরণের উদ্যোগে খুলনা বিশ^বিদ্যালয় পাশে থাকবে বলে তিনি প্রতিশ্রুতি দেন।

হ্যান্ড হ্যানিটাইজার তৈরি কার্যক্রমে জবাবদিহিমূলক স্থানীয় সরকার (ইএএলজি) প্রকল্প সার্বিক বিষয়ে কারিগরি সহায়তা প্রদান করছে। এসময় খুলনা জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার নূরী তাসমিন উর্মি, ইএএলজি প্রকল্পের খুলনা জেলা সমন্বয়ক মোঃ ইকবাল হাসানসহ পরিবেশ বিজ্ঞান ডিসিপ্লিনের শিক্ষার্থীরা   উপস্থিত ছিলেন।

স্বীকৃতি পায়নি ৭১’এ পাঁচ স্বজন হারানো ঝিনাইদহের মুক্তিযোদ্ধা পরিবারটি

খাইরুল ইসলাম নিরব, ঝিনাইদহ

স্বাধীনতার ৪৮ বছরেও স্বীকৃতি পায়নি একসাথে ৫ জন স্বজন হারানো ঝিনাইদহের মুক্তিযোদ্ধার পরিবারটি। স্বজন হারানো আর বোমার স্পিলিন্টারের আঘাত আজও মনে করিয়ে দেন সেদিনের সেই ভয়াবহ দিনের কথা। এত বছর পেরিয়ে গেলেও আজও স্বীকৃতি মেলেনি তাদের। ভাতা বা সুযোগ সুবিধা নয়, পরিবারটি শুধু চায় সম্মান। এভাবেই সেদিনের সেই ভয়াবহ দিনের কথার বর্ননা দিচ্ছিলেন ঝিনাইদহ সদর উপজেলার গিলাবাড়ীয়া গ্রামের চায়না খাতুন। কথা বলতে গিয়ে বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েন তিনি।

সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুল বারী বলেন, সেদিন ১৯৭১’র ডিসেম্বর মাসের ৫ তারিখ দুপুর। গিলাবাড়ীয়া গ্রামের মোকছেদুর রহমান স্ত্রী ও ৩ সন্তান নিয়ে বসে ছিলেন বাড়ীর উঠানে। পাকিস্থানি বিমান বাহিনীর একটি বিমান তাদের লক্ষ্য করে বোমা ছোড়ে। এতে ঘটনাস্থলেই ছিন্ন ভিন্ন হয়ে যায় মোকছেদুর রহমানের দেহ। আহত হয়ে কিছুক্ষন পর মারা যায় স্ত্রী ছকিনা খাতুন মেয়ে রানু খাতুন, ২ ছেলে তোতা মিয়া ও পাতা মিয়া। আহত হয় ছোট মেয়ে চায়না খাতুন। ভাগ্যক্রমে বাড়ীর বাইরে অবস্থান করায় বেঁচে যান ছেলে মিজানুর রহমান। পরিবারের ৫ সদস্যকে হারিয়ে বোন চায়না খাতুন ও মিজানুর রহমান হয়ে পড়েন অসহায়। সেসময় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তাদের জন্য ২ হাজার টাকা অনুদান দেন। গ্রামবাসীর সহযোগিতায় চলে তাদের সংসার। মুক্তিযোদ্ধাদের তথ্য দেওয়া ও নানা ভাবে সহযোগিতা করায় এ হামলা বলে জানায় প্রত্যক্ষদর্শীরা।

নিহত মোকছেদুর রহমানের নাতি ছেলে শাহিনুর রহমান বলেন, স্বাধীনতার এতগুলো বছর পার হলেও আজও স্বীকৃতি মেলেনি তাদের। ভাতা বা সুযোগ সুবিধা নয়, পরিবারটি শুধু চায় সম্মান।

ঝিনাইদহ সদর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার সিদ্দিক আহমেদ বলেন, স্বাধীনতায় ওই পরিবারের অবদান ছিল। স্বীকৃতি পাওয়ার যোগ্য তারা। রানিং মুক্তিযোদ্ধার তালিকায় এন্টি করে  তাদের সরকারের সকল প্রকার সুযোগ সুবিধা পওয়ার দাবি জানান।

ঝিনাইদহ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ বদরুদ্দোজা শুভ জানান, নতুন ভাবে তালিকাভুক্ত করার কোন চিঠিপত্র আমাদের কাছে আসেনি। এ ধরনের কিছু আসলে অবশ্যই যথাযত কর্তৃপক্ষকে অবহিত করবো এবং যাচাই বাচাই সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিব।

এ ব্যাপারে সরকারের সুদৃষ্টিতে স্বজন হারানো পরিবারটি মুক্তিযুদ্ধের স্বীকৃতি পাবে এমনটি আশা করেন এলাকাবাসী।

রাষ্ট্রায়াত্ব পাটকল বন্ধ: পথে বসেছে খুলনা জোনের প্রায় ৬ শত পাট ব্যবসায়ী,বকেয়া ১৩০ কোটি টাকা

স্টাফ রিপোর্টার 

হঠাৎ রাষ্ট্রায়াত্ব পাটকল বন্ধ ঘোষনায় খুলনা জোনের প্রায় ৬ শত পাট ব্যবসায়ী পথে বসেছে। এই ব্যবসায়ীদের ৯টি পাটকলের কাছে প্রায় ১৩০ কোটি পাওনা রয়েছে। ব্যসায়ীদের সাথে দেনা-পাওনা পরিশোধে কোন ধরণের আলোচনা ছাড়াই পাটকল বন্ধ ঘোষনায় ফুঁসে উঠছে এ জোনের প্রান্ত্রিক চাষিসহ পাট সাধারণ ব্যবসায়ীরা। বকেয়া পরিশোধের দাবিতে বাংলাদেশ পাটকল কর্পোরেশন (বিজেএমসি) ঘেরাওসহ বৃহত্তর বর্মসূচি ঘোষনা করতে যাচ্ছে পাট ব্যবসায়ী সংগঠনগুলো। গতকাল বুধবার বেলা ১২ টায় খুলনা প্রেসকাবে ব্যবসায়ী সমিতির এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে সাধারণ পাট ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দ বলেন,প্রান্ত্রিক পাটচাষিসহ সাধারণ পাট ব্যবসায়ীরা পাট সরবরাহের মাধ্যমে পাটকলের চাকা সচল রাখে। অথছ সরকার পাট ব্যবসায়ীদের সঙ্গে অমানবিক আচারন করেছে। পাটকল বন্ধ ঘোষণার পূর্বে শ্রমিকসহ সংশ্লিষ্ট সকল মহলের সঙ্গে সরকার কয়েক দফায় বৈঠক করলেও যাদের কারণে পাটকল সচল থাকে তাদের সঙ্গে কোন প্রকার আলোচনা করা হয়নি।

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়,পাট ব্যবসায়ীরা ব্যাংক থেকে লোন নিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে। পাটসরবরাহের সাথে ব্যবসায়ী, এজেন্টসহ প্রান্ত্রিক চাষিরা সরাসরি সংশ্লিষ্ট। বিগত ২০১৬-১৭ সাল হতে ২০২০ সাল পর্যন্ত রাষ্ট্রায়াত্ব ২৫টি পাটকলের কাছে ২৬৫ কোটি টাকা পাওনা রয়েছে। এর মধ্যে খুলনা জোনের ৯টি পাটকলে পাওনা ১৩০ কোটি টাকা। বকেয়া পরিশোধের কোন ধরণের প্রতিশ্রুতি না পাওয়ায় চরম হতাশায় হাবুডুবু খাচ্ছেন খুলনা জোনের প্রান্ত্রিক চাষিসহ ৫৮০ জন ব্যবসায়ী। এক দিকে ব্যাংকের চাপ অন্যদিকে পুঁজি হারানোর ভয়ে দিশেহারা পাট ব্যবসায়ীরা। সাধারণ পাট ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে তাদের বকেয়া পরিশোধের দাবিতে গত ১২ জুলাই খুলনা িিসটি মেয়র ও জেলা প্রশাসকের মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রীর বরাবর স্মারকলিপি দিয়েছে। আগামী ১৯ জুলাই কেন্দ্রীয় উদ্যোগে প্রধানমন্ত্রীর সরাসরি হস্তক্ষেপ কামনায় পাটমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্টদের স্মারকলিপি দেওয়া হবে। এছাড়া জাতীয় প্রেসকাব চত্বরে গণ অবস্থানসহ কঠোর কর্মসূচি দেওয়ার পরিকলাপনা রয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সাধারণ পাট ব্যবসায়ী সমিতির আহবায়ক শামীম আহম্মেদ মোড়ল। পরিচালনা করেন সংগঠনের সদস্য সচিব গাজী শরিফুল ইসলাম অহিদ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সিনিয়র যুগ্ম আহবায়ক মো: টিপু সুলতান,উপদেষ্টা শেখ আবু জাফর,কামরুজ্জামান মিঠু,শেখ ইমাম হোসেনসহ সমিতির নেতৃবৃন্দ।

৭ই মার্চকে জাতীয় ঐতিহাসিক দিবস ঘোষণায় খুবি উপাচার্যের অভিনন্দন

খবর বিজ্ঞপ্তি

ঐতিহাসিক ৭ই মার্চকে জাতীয় ঐতিহাসিক দিবস হিসেবে পালনের ঘোষণায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ফায়েক উজ্জামান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও অভিনন্দন জানিয়েছেন। এক বার্তায় তিনি বলেন, ৭ই মার্চের ঐতিহাসিক ভাষণ বাঙালী জাতির মুক্তির সনদ, ঐতিহাসিক দলিল। এ দিনটি জাতীয় ঐতিহাসিক দিবস হিসেবে অনুমোদন পাওয়ায় ৭ই মার্চের গুরুত্ব আরও বাড়লো এবং এ সর্ম্পকে বিশেষ করে নতুন প্রজন্ম আরও জানার সুযোগ পাবে। এ ভাষণ কাল থেকে কালান্তরে নতুন প্রজন্মের প্রেরণার উৎস হয়ে থাকবে। তিনি এ দিবস, তার প্রেক্ষাপট ও তাৎপর্যের বিষয় শিক্ষাস্তরের বিভিন্ন পর্যায়ের পাঠ্যসূচিতে অন্তর্ভুক্ত করারও দাবি জানান। তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুর ৭ই মার্চের ভাষণে মুক্তি ও স্বাধীনতা সংগ্রামের নতুন অধ্যায়ের সূচনা ঘটে। সাড়ে সাত কোটি বাঙালী ওই মুহূর্তে তাদের অন্তরে যে আবেগ ও স্বপ্ন ধারণ করছিলো, তারই প্রকাশ ঘটে বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণের শেষ বাক্যে। ৭ই মার্চ জাতীয় দিবস হিসেবে ঘোষণা করে প্রধানমন্ত্রী দেশ ও জাতির আরেকটি দীর্ঘ প্রত্যাশা ও আকাক্সক্ষা পূরণ করলেন।

প্রসঙ্গত যে,৭ই মার্চকে জাতীয় ঐতিহাসিক দিবস হিসেবে ঘোষণা করা এবং জাতীয়ভাবে তা পালনের বিষয়ে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে গত কয়েক বছর স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসে গুরুত্বের সাথে তুলে ধরে দাবি জনানো হয়।

ঝিনাইদহে নতুন করে আরও ৪৬ জন করোনায় আক্রান্ত

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

ঝিনাইদহে নতুন করে আরও ৪৬ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাড়ালো ৫৩৫ জন। সিভিল সার্জন ডাঃ সেলিনা বেগম জানান, বুধবার সকালে কুষ্টিয়া ল্যাব থেকে ঝিনাইদহে ৯২ টি রিপোর্ট এসেছে। এর মধ্যে ৩৩ টি পজেটিভ। এছাড়াও যশোর ল্যাবের ফলাফল অনুসারে কালীগঞ্জের বারবাজার পুলিশ ফাড়ির ১৩ জন। এনিয়ে জেলায় বুধবার মোট ৪৬ জন।

আক্রান্তরা হলেন, সদর উপজেলায় ১৪ জন, কালীগঞ্জ উপজেলায় ২৩ জন, শৈলকুপা উপজেলায় ২ জন, কোটচাদপুর উপজেলায় ২ জন, মহেশপুর উপজেলায় ২ জন, হরিনাকুন্ডু উপজেলায় ৩ জন। আক্রান্ত ৫৩৫ জনের মধ্যে সুস্থ্য হয়েছেন ১৭৮ জন। হাসপাতালে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ২৩ জন। জেলায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা ১০ জন।

বিএনপির কল সেন্টারে অক্সিজেন সিলিন্ডার ও অক্সিমিটার প্রদান

খবর বিজ্ঞপ্তি

করোনা আক্রান্তদের সেবায় প্রতিষ্ঠিত ‘কল সেন্টারে’ মহিলা দল নেত্রী রেহেনা ঈসার মাধ্যমে বিশিষ্ট সমাজসেবক বেগম ফেরদৌসি আলি ও বিশিষ্ট ক্রীড়া সংগঠক বেগম হোসনে আরা খান দু’টি অক্সিজেন সিলিন্ডার এবং  মহিলা দল নেত্রী কাওসারী জাহান মঞ্জু একটি অক্সিমিটার প্রদান করেছেন। গতকাল  বুধবার দুপুর সাড়ে ১২টায় নগরীর ৫৭, রূপসা স্ট্যান্ড রোডস্থ ‘কল সেন্টারের’ অস্থায়ী কার্যালয়ে নগর বিএনপির সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম মঞ্জু ও সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক মেয়র মনিরুজ্জামান মনির নিকট সামগ্রীগুলো হস্তান্তর করেন নেতৃবৃন্দ।

এ সময় নজরুল ইসলাম মঞ্জু বলেন, করোনাকালিন দুর্যোগ মুহুর্তে যারা কল সেন্টারে এসে বিভিন্ন প্রকার চিকিৎসা সামগ্রী দিয়ে সাহায্যে করছেন দলের পক্ষ থেকে তাদের ধন্যবাদ জানান। সকলকে এ কাজে সহযোগিতা করারও আহবান জানান তিনি। পাশাপাশি করোনা আক্রান্ত হয়ে এ পর্যন্ত যারা মৃত্যুবরণ করেছে তাদের আত্মার মাগফেরাত কামনা এবং অসুস্থদের দ্রুত সুস্থতা কামনা করেন। উপস্থিত ছিলেন জাফরউলাহ খান সাচ্চু, রেহেনা ঈশা, আসাদুজ্জামান মুরাদ,মেহেদী হাসান দিপু, মহিবুল্লাহ কচি, হাসানুর রশিদ মিরাজ, বদরুল আনাম খান, রবিউল ইসলাম রবি, তরিকুল ইসলাম তরু, খান শহিদুল ইসলাম,  সিরাজুল ইসলাম লিটন, কে এম মাহবুব আলম, শরিফুল ইসলাম শরীফ, আনজিরা খাতুন, কাওসারী জাহান মঞ্জু, ইসমত আরা কাকন, আলমগীর হোসেন, পারভীন আক্তার প্রমুখ।

খুলনায় অপহৃত শিশু উদ্ধার, গ্রেফতার ২

স্টাফ রিপোর্টার

খুলনায় অপহরণ হওয়া রাইছা আক্তার রোজা নামের এক শিশুকে উদ্ধার করেছে খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ (কেএমপি)। মহানগরীর মিয়াপাড়া থেকে শিশুটি অপহৃত হয়। এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত এক দম্পতিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বুধবার (১৫ জুলাই) দুপুরে খুলনা সদর থানায় কেএমপির এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

কেএমপির ডেপুটি পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) এম এম শাকিলুজ্জামান জানান, খুলনা মহানগরীর টুটপাড়া মিয়াপাড়া থেকে মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) সকাল ৯টার দিকে জনি মোল্যার চার বছরের মেয়ে রাইছা আক্তার রোজাকে চকলেট খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে তুলে নিয়ে যায় অপহরণকারীরা। পার্শ্ববর্তী এক প্রতিবেশীর মাধ্যমে জনি মোল্যার স্ত্রী নাসরিন বেগম বিষয়টি জানতে পারেন। তিনি বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুঁজি করেও কোনো হদিস না করতে পেরে অবশেষে পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন। এরপর নাসরিনের কাছে ২ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে অপহরণকারীরা।

সেই মোবাইল নম্বর ট্রাকিং করে মঙ্গলবার দিনগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে কুষ্টিয়া জেলার কাঞ্চনপুর এলাকা থেকে অপহৃত শিশু রোজাকে উদ্ধার করে পুলিশ। এসময় অপহরণের সঙ্গে জড়িত রুবিনা আক্তার (৪৫) ও তার স্বামী ফারুক বিশ্বাসকে (৪৭) গ্রেফতার করা হয়। ফারুক বিশ্বাস কুষ্টিয়ার কাঞ্চনপুর এলাকার আবু তালেব বিশ্বাসের ছেলে। তিনি ও তার স্ত্রীসহ একটি সংঘবদ্ধ চক্র বিভিন্ন জেলায় শিশু অপহরণের সঙ্গে জড়িত। তিনি আরও বলেন, দুই লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে যে ফোন কলটি এসেছিল আমরা সেটা ট্রাকিং করে আসামিদের অবস্থান সম্পর্কে নিশ্চিত হই। পরে দ্রুত সেখানে অভিযান চালিয়ে শিশুটিকে উদ্ধার ও আসামিদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হই। অপহরণকারীরা একটি সংঘবদ্ধ চক্র। এরা বিভিন্ন স্থানে ছদ্দবেশে ঘুড়ে বেড়ায় এবং নজরদারি করে। নানা অযুহাতে তারা যেকারও বাসায় ঢুকে যেতে পারে। এরপর সুযোগ বুঝে শিশুদের প্রলোভন দেখিয়ে অপহরণ করে। পুরো চক্রটিকে ধরার জন্য আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এঘটনায় খুলনা সদর থানায় একটি অপহরণ মামলা দায়ের করা হয়েছে। শিশু রোজাকে নিজের কাছে ফিরে পেয়ে আবেগ আপ্লুত হয়ে পুলিশকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। এসময় উদ্ধার হওয়া শিশুটিকে কেএমপির পক্ষ থেকে উপহারসামগ্রী তুলে দেওয়া হয়। এসময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন খুলনা সদর থানার সহকারী পুলিশ কমিশনার হাফিজুর রহমান, ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা আশরাফুল আলমসহ পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তারা।

খুলনা বিভাগে ৭ হাজার ৯৬২ জন কোভিডে আক্রান্ত

স্টাফ রিপোর্টার

খুলনা বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৩২০ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে বিভাগে কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৭ হাজার ৯৬২।

মঙ্গলবার সকাল ৮টা থেকে বুধবার সকাল ৮টা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃত্যুর সংখ্যা হলো ১৩৭। খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) মো. মনজুরুল মুরশিদ এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। অধিদপ্তরের দেওয়া তথ্যমতে, বিভাগে নতুন করে ২৯৪ জন সুস্থ হয়েছেন। এ নিয়ে মোট সুস্থ হলেন ৩ হাজার ৫৮২ জন। শনাক্ত বিবেচনায় বিভাগে সুস্থ হওয়ার হার প্রায় ৪৫ শতাংশ। খুলনা বিভাগের মধ্যে চুয়াডাঙ্গায় প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় ১৯ মার্চ। পরবর্তী ৭৩ দিনে শনাক্তের সংখ্যা ৫০০ ছাড়ায়। ১২ জুলাই ১১৬তম দিনে রোগীর সংখ্যা ৭ হাজার ছাড়ায়। ১৪ জুলাই ১১৮তম দিনে রোগীর সংখ্যা সাড়ে সাত হাজার ছাড়ায়। নতুন শনাক্ত ৩২০ জনের মধ্যে খুলনা জেলায় ১০৪ জন, বাগেরহাটে ১৫, চুয়াডাঙ্গায় ১৬, যশোরে ৬৫, ঝিনাইদহে ৪৬, কুষ্টিয়ায় ৩২, মাগুরায় ২৩, মেহেরপুর ৪, নড়াইলে ১৩ ও সাতক্ষীরায় ২ জন রয়েছেন।

সংক্রমণ ও মৃত্যুÍদুই সূচকেই বিভাগের মধ্যে খুলনা অনেক এগিয়ে। মোট সংক্রমিত ৭ হাজার ৯৬২ জনের মধ্যে ৩ হাজার ৩০০ জনই খুলনা জেলার। বিভাগের মোট রোগীর ৪২ শতাংশ খুলনার।

বিভাগে মৃতের সংখ্যা এখন ১৩৭ জন। তাঁদের মধ্যে খুলনায় সবচেয়ে বেশি ৪৮ জন মারা গেছেন। এ ছাড়া কুষ্টিয়ায় ২০, যশোরে ১৭, ঝিনাইদহ ও সাতক্ষীরায় ১০ জন করে, নড়াইল ও বাগেরহাটে ৮ জন করে, মাগুরায় ৭, মেহেরপুরে ৬ এবং চুয়াডাঙ্গায় ৩ জন মারা গেছেন।

সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের কর্মসূচী আজ

যশোর অফিস

আজ ১৬ জুলাই বৃহস্পতিবার জনকন্ঠের বিশেষ প্রতিনিধি শহীদ সাংবাদিক শামছুর রহমান কেবল এর ২০তম হত্যাবার্ষিকী। এই উপলক্ষে সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোর বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে  সকাল ১১টায় প্রেসকাবে উপস্থিতি, কালো ব্যাজ ধারণ, শহীদের কবরে শ্রদ্ধাঞ্জলি জ্ঞাপন  ও কবর জিয়ারত । শহীদ সাংবাদিক শামছুর রহমান কেবল হত্যাবার্ষিকীর কর্মসূচিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে অংশগ্রহণের জন্য সকল সদস্যের প্রতি আহবান জানিয়েছেন সংগঠনের সভাপতি শহিদ জয় ও সাধারণ সম্পাদক আকরামুজ্জামান।

শার্শায় অসহায় মানুষের পাশে বিএনপি নেতা মহসিন কবীর

যশোর অফিস

বি এন পি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান  তারেক রহমানের নির্দেশনায় ঘূর্ণিঝড় আম্ফানে ক্ষতিগ্রস্ত যশোরের শার্শা উপজেলার অসহায় পরিবারের গৃহ সংস্কারের জন্য তৃতীয় পর্বে ২৪ টি পরিবারকে নগদ অর্থ সহায়তা প্রদান করলেন জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দলের সাবেক কেন্দ্রীয় সহ-সাধারণ সম্পাদক তরুণ বি এন পি নেতা আলহাজ্ব মহসিন কবীর। মঙ্গলবার উলাশী,কায়বা এবং গোগা ইউনিয়নে ক্ষতিগ্রস্ত ২৪ টি পরিবারের বাড়িতে এই সহায়তা পৌছে দেন উলাশী ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আলহাজ্ব মিজানুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল হামিদ, সাংগঠনিক সম্পাদক কদর আলী মেম্বার,৭ নং ওয়ার্ড সভাপতি রাজ্জাক আলী। কায়বা ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মশিয়ুর রহমান, ১ নং ওয়ার্ড সভাপতি মতিয়ার রহমান, ২ নং ওয়ার্ড সভাপতি জুলফিকার আলী,৪ নং ওয়ার্ড সেক্রেটারী আলতাফ হোসেন মাষ্টার, ৬নং ওয়ার্ড সেক্রেটারী আমিরুল ইসলাম,৮নং ওয়ার্ড সেক্রেটারী মাহমুদ সরদার, গোগা ইউনিয়ন বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সরওয়ার হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল মালেক,বেনাপোল পৌর যুবদল নেতা সাবেক ছাত্রনেতা রায়হানুজ্জামান দীপু,যুবদল নেতা কামরুল ইসলাম, বেনাপোল পৌর ছাত্রদল নেতা ওমর ফারুক, উপজেলা ছাত্রদল নেতা সোহাগ আহমেদ, পৌর ছাত্রদল নেতা মাহফুজুর রহমান রবিন প্রমুখ।

যশোরে ২১৪টি নমুনা পরীক্ষা করে ৭৪টি নমুনা পজেটিভ শনাক্ত

কে এম রফিক, যশোর

যশোর বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (যবিপ্রবি) জেনোম সেন্টারে বুধবার যশোরে ২১৪টি নমুনা পরীক্ষা করে ৭৪টি নমুনা পজেটিভ শনাক্ত হয়েছে৷ এবং মাগুরার ২৩টি নমুনাকে পজেটিভ বলে শনাক্ত করা হয়েছে। আর নেগেটিভ হয়েছে ১৭৫টি।

মঙ্গলবার যশোর ও মাগুরা জেলার মোট ২৭২টি নমুনা পরীক্ষা করে বুধবার সকালে এই তথ্য প্রকাশ করা হয়। যবিপ্রবি এনএফটি বিভাগের চেয়ারম্যান ও পরীক্ষণ দলের সদস্য ড. শিরিন নিগার জানান, এদিন তাদের ল্যাবে যশোরের ২১৪টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এর মধ্যে ৭৪টি নমুনা পজেটিভ রেজাল্ট দেয়। আর মাগুরার ৫৮টি নমুনা পরীক্ষা করে পজেটিভ রেজাল্ট পাওয়া যায় ২৩টির। যবিপ্রবির পরীক্ষায় এর আগে কখনো একদিনে যশোর জেলায় এতো নমুনা পজেটিভ পাওয়া যায়নি। এর আগে একদিন যশোরে করোনা পজেটিভ শনাক্তের সংখ্যা একশ’ ছাড়িয়েছিল। সেটি ছিল যশোর ও খুলনা ল্যাবের মিলিত ফলাফল। পরীক্ষা সংক্রান্ত সব তথ্য সংশিষ্ট দ্ইু জেলার সিভিল সার্জন অফিসে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

বুধবার দুপুর পর্যন্ত স্বাস্থ্য বিভাগের হিসেব অনুযায়ী যশোর জেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বলে শনাক্ত হওয়া ব্যক্তির সংখ্যা ছিল ১১৫৯ জন। এদের মধ্যে মারা গেছেন ১৬ জন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৫৬৬ জন।

কয়রায় নবাগত ইউএনও অনিমেষ বিশ্বাসের যোগদান উপলক্ষে মত বিনিময় সভা

কয়রা প্রতিনিধি

কয়রা উপজেলায় গত ১৪ জুলাই নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসাবে যোগদান করেছেন অনিমেষ বিশ্বাস। যোগদান উপলক্ষে সোমবার (১৫ জুলাই) বিকাল ৩ টায় উপজেলা পরিষদের সম্মেলন কক্ষে উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বিভিন্ন দপ্তরের সরকারি কর্মকর্তা,বীর মুক্তিযোদ্ধা,সাংবাদিক, জনপ্রতিনিধি ও সুধীজনের সাথে পরিচিতি ও মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ নূর-ই-আলম সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে এতে সংবর্ধিত অতিথি  হিসাবে বক্তব্য রাখেন  নবাগত উপজেলা নির্বাহী অফিসার অনিমেষ বিশ্বাস। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এস এম শফিকুল ইসলাম।  উপজেলা রির্সোস সেন্টারের ইন্সট্রাক্টর নাজমুল হুদার পরিচালনায় মত বিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন কয়রা সদর ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ হুমায়ুন কবির, দক্ষিণ বেদকাশী ইউপি চেয়ারম্যান জি এম কবি শামসুর রহমান, খান সাহেব কোমর উদ্দিন ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ ডঃ চয়ন কুমার রায়, উপজেলা নির্বাচন অফিসার মোঃ হজরত আলী, যুব উন্নয়ন অফিসার আব্দুর রশিদ, সাংবাদিক মোস্তফা শফিকুল ইসলাম, মোঃ রিয়াছাদ আলী, বীর মুক্তিযোদ্ধা লুৎফর রহমান,বিশিষ্ট আইনজীবি ও সমাজ সেবক এ্যাডঃ আরাফাত হোসেন, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শরিফুল ইসলাম টিংকু প্রমুখ।

মহসেন জুট মিলের চুড়ান্ত পাওনা পরিশোধের দাবিতে মানববন্ধন

ফুলবাড়ীগেট(খুলনা)প্রতিনিধি

খুলনার শিরোমণি শিল্পাঞ্চলের ব্যক্তিমালিকানাধীন মহসেন  জুট মিলের  শ্রমিক কর্মচারীদের পিএফ, গ্রাচুইটি সহ  চুড়ান্ত পাওনা পরিশোধের দাবিতে ঘোষিত কর্মসূচীর অংশ হিসেবে ১৫ জুলাই বুধবার সকাল ১১ টা থেকে বেলা ১২ টা পর্যন্ত ১ ঘন্টা মানববন্ধন কর্মসুচি পালিত হয়। মানববন্ধন চলাকালে সভাপতিত্ব করেন মিলের প্রবিন শ্রমিক বীর মুক্তিযোদ্ধা মাহাতাব উদ্দিন। ক্ষতিগ্রস্থ শ্রমিক পরিবারের সন্তান সাইফুল্লাহ তারেকের পরিচালনায় বক্তৃতা  করেন মহসেন জুট মিল ওয়াকার্স ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক খান গোলাম রসুল , মোড়ল আব্দুর রহমান, কাগজী ইব্রাহিম, ইঞ্জিল কাজী, ডাঃ ফরিদ হোসেন, ক্বারী আছহাব উদ্দিন, আইন উদ্দিন,সাহেব আলী, মোঃ হাসেম আলী, আমির মুন্সি  প্রমুখ। সভায় নেতৃবৃন্দরা বলেন ছাটাইয়ের ৭ বছর অতিবাহিত হলেও অদ্যবধি  শ্রমিক কর্মচারীদের যাবতীয় পাওনাদি পরিশোধ করা হয়নি। আজ বৃহস্পতিবারের মধ্যে মালিকপক্ষ শ্রমিকদের পাওনার ব্যাপারে কোন পদক্ষেপ না নিলে ১৭ জুলাই শুক্রবার বিকাল ৪টায় মিলের শ্রমিক কলোনীতে শ্রমিক জনসভার মাধ্যমে আন্দোলনের কঠিন কর্মসূচী ঘোষনা করা হবে বলে নেতৃবৃন্দ জানান।

মশিয়ালী এলাকা থেকে ২৫ গ্রাম গাঁজাসহ নজু গ্রেফতার

ফুলবাড়ীগেট(খুলনা)প্রতিনিধি

খানজাহান আলী থানাধীন পুলিশের একটি টিম আটরা গিলাতলা ইউনিয়নের মশিয়ালী এলাকায় মাদকদ্রব্য উদ্ধার ও বিশেষ অভিযান চালিয়ে ১৪ জুলাই রাত সাড়ে ৯টায় মশিয়ালী আকুঞ্জী পাড়ার মৃত আনসার শেখের পুত্র মোঃ নজরুল ইসলাম নজু শেখ(৪৭)কে ২৫ গ্রাম গাঁজা সহ গ্রেফতার করেছে। এ ব্যপারে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন আইনে মামলা হয়েছে। যার নং-১০, তারিখ-১৪/০৭/২০২০।

বাগেরহাটে অনলাইনে পশু কেনা-বেচায় কোরবাণীর হাট নামে এ্যপস চালু

বাগেরহাট প্রতিনিধি

কোরবানী ঈদকে সামনে রেখে অনলাইলে পশু কেনা-বেচার জন্য বাগেরহাট জেলা প্রশাসন ‘কোরবানীর হাট’ নামে একটি এ্যপস চালু করেছে। বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক মো. মামুনুর রশীদ বুধবার এই এ্যপসের উদ্বোধন করেন। জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডা. লুৎফর রহমান, জেলা পশু খামারী সমিতির সভাপতি মো. ফিরোজুল ইসলামসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। এর আগে সামাজিক দূরত্ব মেনে দুই দফায় জেলার ৬০ জন পশু খামারীকে অনলাইনে পশু কেনা-বেচার বিষয় হাতে কলমে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। জেলা প্রাণী সম্পদ বিভাগ ও জেলা প্রশাসন যৌথভাবে এই অনলাইন এ্যাপস ও প্রশিক্ষনের আয়োজন করে।

জেলার ৯টি উপজেলা প্রশাসনের মাধ্যমে পশু খামারীদেও প্রশিক্ষণ ও প্রচারনা চালানো হচ্ছে। এ জেলায় ছোট-বড় ৭ হাজার খামার রয়েছে। এ সব খামারে ঈদকে সামনে রেখে বিক্রির জন্য ৪৪ হাজার গরু-মহিষ ও ছাগল প্রস্তুত রয়েছে।

কেশবপুর হাসপাতালের স্টাফসহ আরো  ৯ ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত

কেশবপুর প্রতিনিধি,

কেশবপুর সরকারী হাসপাতালের স্টাফসহ নতুন করে আরো ০৯ ব্যক্তি  করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। আক্রান্ত সকলের বাড়ী  লক ডাউন করা হয়েছে। কেশবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স  কর্মকর্তা ডাঃ আলমগীর হোসেন  জানান, গতকাল  বুধবার কেশবপুরে নতুন করে আরো ০৯  ব্যক্তির শরীরে করোনা শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে একই পরিবারের ৩ জন রয়েছে। আক্রান্ত ব্যক্তিরা   হলেন,  কেশবপুর পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের একই পরিবারের সামসুন্নাহার, আব্দুল মজিদ ও শেখ শহিদুল ইসলাম, কেশবপুর হাসপাতালের স্টাফ আব্দুল মান্নান,তার গ্রামের বাড়ী মনিরামপুর উপজেলায়, কেশবপুর পল্লি বিদ্যুৎ অফিসের উত্তম কুমার, মজিদপুর ইউনিয়নের জায়েদা বেগম, ভোগতি গ্রামের মেহদী  হাসান, কোমরপোল গ্রামের আসাদুজ্জামান ও ভালুকঘর গ্রামের আলমগীর হোসেন।  আক্রান্ত  ব্যক্তি  ও তার আতœীয়-স্বজনদের বাড়ীও  লক ডাউনের আওতায় আনা  হয়েছে বলেও  তিনি এই প্রতিনিধিকে জানান।

শরণখোলায় রূপান্তরের শিক্ষক ও স্কুল ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যদে দু’দিন ব্যাপী প্রশিক্ষণ শুরু

শরণখোলা (বাগেরহাট) প্রতিনিধি ঃ

বাগেরহাটের শরণখোলায় এনজিও সংস্থা রূপান্তর শিক্ষক ও স্কুল ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যদের নিরাপদ পানি, পয়:নিষ্কাশন, স্বাস্থ্যবিধি ও পুষ্টি বিষয়ে দু’দিন ব্যাপী প্রশিক্ষণ উদ্বোধন করেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা। গতকাল সকালে উপজেলার আর.কে.ডি.এস পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে দু’দিন ব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মসূচীর আয়োজন করেন এনজিও সংস্থা রূপান্তর। এসময় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরদার মোস্তফা শাহীন। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা নুরুজ্জামান খানের সভাপতিত্ব বক্তব্য রাখেন রায়েন্দা ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান মিলন, প্রধান শিক্ষক সেলিম হাওলাদার, রূপান্তরের প্রকল্প সমন্বয়কারী খালেদা হোসেন মুন, ওয়াস অফিসার প্রশান্ত চক্রবর্তী, এসবিসিসি ইলিয়াস হোসেন, উপজেলা ওয়াস এ্যান্ড সিএসও মবিলাইজার সুমাইয়া পারভীন। উপজেলার ১০টি বিদ্যালয়ের প্রতি হতে ২জন শিক্ষক ও ম্যানেজমেন্ট কমিটর ২জন সদস্য নিয়ে সর্ব মোট ৪০ জনকে নিরাপদ পানি, পয়:নিষ্কাশন, স্বাস্থ্যবিধি ও পুষ্টি বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়।

দেবহাটায় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসে ভিজিএফ কমিটির সভা

দেবহাটা প্রতিনিধি

দেবহাটায় উপজেলা ভিজিএফ কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এবারের ঈদে ২০ হাজারের অধিক অসহায় পরিবার খাদ্য সহায়তা পাবে। বুধবার সকাল ১১ টায় ভিজিএফ কমিটির সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাজিয়া আফরীনের সভাপতিত্বে এবং সদস্য সচিব ও প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা শফিউল বশারের সঞ্চালনায় জুম কাউড মিটিং’র মাধ্যমে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় যে পরিবারের মালিকানা বা  ভিটা ছাড়া জমি নাই, যে পরিবার  দিন মজুরের আয়ের উপর নির্ভরশীল, যে পরিবার মহিলা শ্রমিকের আয় বা ভিক্ষাবৃত্তির উপর নির্ভরশীল, যে পরিবারে উপার্জনকারী কোন পুরুষ সদস্য নেই, যে পরিবারে স্কুলগামী শিক্ষার্থীকে উপার্জনের জন্য কাজ করতে হয়, অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা পরিবার, যে পরিবার বছরের অধিকাংশ সময় দুই বেলা না খেয়ে থাকে এসব নীতিমালার আলোকে সুবিধাভোগী নির্বাচনের কথা বলা হয়। এছাড়া উপকারভোগী নির্বাচনের ক্ষেত্রে কমপক্ষে ৭০% মহিলা নির্বাচন করার বিষয় আলোচনা হয়। তবে আসন্ন ঈদ-উল-আযহা উপলক্ষ্যে উপজেলার ৫টি ইউনিয়নের ২০ হাজার ৬ শত ৭৮ পরিবারের মাঝে ২০৬,৭৮ মেট্রিক টন চাল ২০১৯/২০ অর্থ বছরের ভিজিএফ খাদ্য সহায়তা হিসেবে প্রদান করা হবে বলে আলোচনা করা হয়। এতে ২০১১ সালের আদম শুমারী অনুযায়ী জনসংখ্যার আনুপাতিক হারে কুলিয়া ইউনিয়নের ৪৭৫৫, পারুলিয়া ইউনিয়নের ৫২৯৫, সখিপুর ইউনিয়নের ৩৩৭০, নওয়াপাড়া ইউনিয়নের ৪৬১০ এবং দেবহাটা সদর ইউনিয়নে ২৬৪৮ পরিবার এ খাদ্য সহায়তা পাবে বলে জানা যায়। এদিকে এসব খাদ্য সহায়তা বিতরনের সময় করোনা ভাইরাসের প্রকোপ এড়াতে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখার বিষয়ে লক্ষ্য রাখার জন্য বলেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাজিয়া আফরীন। জুম কাউড মিটিং’র মাধ্যামে সংযুক্ত হয়ে সভায় বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও নওয়াপাড়া ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মুজিবর রহমান, সাধারন সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও সখিপুর ইউপি চেয়ারম্যান শেখ ফারুক হোসেন রতন, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান সবুজ, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জিএম স্পর্শ, উপজেলা কৃষি অফিসার শরীফ মোহাম্মদ তিতুমীর, দেবহাটা সদর ইউপি চেয়ারম্যান আবু বকর গাজী, কুলিয়া ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আসাাদুল ইসলাম, পারুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম, দেবহাটা প্রেসকাবের সভাপতি আব্দুর রব লিটু, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আব্দুল হাই রকেট, সহকারী শিক্ষা অফিসার মঞ্জুর হোসেন সহ কমিটির অন্যান্য সদস্যবৃন্দ।

থানায় মামলা দায়ের: মোড়েলগঞ্জে স্ত্রীকে মারপিট করে তাড়িয়ে দিলেন স্বামী নেওয়াজ আলী শরীফ!

এম.পলাশ শরীফ, মোড়েলগঞ্জ

বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জে স্ত্রীকে মারপিট করে রাস্তায় নামিয়ে দেওয়ার অভিযোগে থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। আমেরিকার নাগরিক শামীম শরীফের বিরুদ্ধে মামলাটি করেছেন তার দ্বিতীয় স্ত্রী আয়শা আক্তার মুন্নি। টানা ৫ বছর ঘর সংসার করার পরে গত ২৯ জুন মুন্নিকে মারপিট করে রাস্তায় নামিয়ে দেন শামীম। খবর পেয়ে মুন্নির পিতা মুন্নিকে উদ্ধার করে মোড়েলগঞ্জ হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে থানায় দায়ের হয়। মামলা নং-৭, তারিখ-৬.৭.২০২০।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, বড়পরী গ্রামের আঃ মান্নান মাতুব্বরের মেয়ে আয়শা আকতার মুন্নীর সাথে ২০১৬ সালে ১২ জানুয়ারী বদনীভাঙ্গা গ্রামের মৃত. শওকত আলী শরীফের পুত্র শামীম শরীফ (৫৩) পারিবারিকভাবে ৩ লাখ টাকা দেনমোহর ধার্যে কাবিননামামূলে বিবাহ হয়। ওই সময় শামীম প্রতারণার আশ্রয়ে নিজেকে অবিবাহিত বলে দাবি করেন।

 বিয়ের কিছুদিন পরে মুন্নি জানতে পারেন, শামীমের আমেরিকায় ও বাংলাদেশের বিভিন্ন এলাকায় বহু বিবাহ, স্ত্রী ও সন্তান রয়েছে। এসব নিয়ে পারিবারিক কলহ দেখা দিলে পল্লীমঙ্গল এলাকায় আলাদা আয়সহ থাকার জন্য ৫ তলা ভবন করে সেখানে থাকার ব্যবস্থা করে আমেরিকা চলে যায় সম্প্রতি দেশে ফিরে আবারো বিয়ের নেশায় মুন্নিকে মারপিট করে তাড়িয়ে দেয়। এ ব্যাপারে জানার জন্য শামীম শরীফের মোবাইল ফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তিনি ফোনটি রিসিভ করেননি।

এ বিষয়ে থানার ওসি কেএম আজিজুল ইসলাম বলেন, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের হয়েছে। বদনীভাঙ্গা গ্রামের মৃত. শওকত আলী শরীফের ছেলে নেওয়াজ আলী শামীম (৫৩) ওরফে শামীম শরীফকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। সে যাতে পালিয়ে দেশ ত্যাগ করতে না পারে সে জন্যও ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

ঝিনাইদহে সরকারী যাকাত ফান্ডের চেক বিতরণ করলো ইসলামিক ফাউন্ডেশন

 ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

ঝিনাইদহ ইসলামিক ফাউন্ডেশন এর উদ্যোগে দুস্থ ও অসহায় ব্যক্তিদের মাঝে সরকারী যাকাত ফান্ডের চেক বিতরণ করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে ইসলামিক ফাউন্ডেশন উপ-পরিচালক মো: আব্দুল হামিদ খান এর সভাপতিত্বে চেক বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভুমি) খান মো: আব্দুল্লা আল মামুন ও ভুটিয়ারগাতী আলিম মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা মো: আবুবকর ছিদ্দিক।

২০১৯-২০২০ অর্থ বছরের সরকারী যাকাত ফান্ডে আদায়কৃত ২য় কিস্তির টাকা ঝিনাইদহ জেলার ৬টি উপজেলায় ৬৭ জন দুস্থ অসহায় ব্যক্তিদের যাকাতের নির্ধারিত খাতে পুর্নবাসনের জন্য ২ লক্ষ ৬৩ হাজার টাকার  চেক দেওয়া হয়।

এসময় প্রধান অতিথি এই মহামারী করোনাকালে দুস্থ ও অসহায় মানুষের পাশে থাকার জন্য সকল বিত্তবানদের অনুরোধ করেন এবং তাদের যাকাতের একটি অংশ সরকারী যাকাত ফান্ডে প্রদানের জন্যেও উদাত্ত আহবান জানান।

মহামারী করোনায় যেসকল ব্যাক্তি ইন্তেকাল করেছেন তাঁদের রুহের মাগফেরাত কামনা এবং করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তাদের সুস্থতা ও দেশ এবং জাতির কল্যান কামনা করে বিশেষ দোয়া করেন মাষ্টার ট্রেইনার মাওলানা মো: আবদুল্লাহ আল মামুন।

ঝিনাইদহে সড়ক দুর্ঘটনায় মোটরসাইকেল ব্যবসায়ী নিহত

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

ঝিনাইদহের শৈলকূপায় সড়ক দুর্ঘটনায় এক মোটরসাইকেল ব্যবসায়ী নিহত হয়েছে। নিহত জামাল হোসেন উপজেলার কবীরপুর বাজার পাড়ার মৃত মহসিন আলীর ছেলে ও জামাল অটো শোরুমের মালিক। শৈলকূপা থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম জানান, বুধবার সকালে জামাল হোসেন মোটরসাইকেল যোগে বাকিতে বিক্রিত মোটরসাইকেলের কিস্তির টাকা আদায়ের জন্য হাটফাজিলপুর বাজারে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে বিপরীত দিক থেকে আসা মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষে ২জন গুরুতর আহত হয়। সেসময় স্থানীয়রা দুই মোটরসাইকেল আরোহীকে উদ্ধার করে প্রথমে শৈলকূপা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। পরে জামালের অবস্থার অবন্নতি হলে  তাকে ফরিদপুর মেডিকেলে রেফার্ড করে। চিকিৎিসাধীন অবস্থায় দুপুরে সে মারা যায়।

পাইকগাছায় মাদক দ্রব্য বিক্রি ও সেবনকালে আটক ৬

পাইকগাছা প্রতিনিধি

পাইকগাছায় মাদক দ্রব্য বিক্রেতা ও সেবন অবস্থায় ৬জনকে পুলিশ আটক করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠিয়েছে। পুলিশ জানায়, বুধবার রাতে ঘোষাল গ্রামের আব্দুল গফুর মোড়লের ছেলে মাদক বিক্রেতা একাধিক মাদক মামলার আসামী সেলিম রেজা মোড়ল (৩৪) কে তার নিজ বাড়ী থেকে আটক করে। একই রাতে গোপালপুর গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে হুমায়ুন কবির (২৫), মঠবাটী গ্রামের পঞ্চানন বাছাড়ের ছেলে গোষ্ঠ বাছাড় (৪০), সরল ৩নং ওয়ার্ডের মোকাম আলীর ছেলে মাজহারুল ইসলাম (৩০), সরল ৫নং ওয়ার্ডের জাকির গাইনের ছেলে জসিম গাইন (৩২), মঠবাটী গ্রামের দুলাল মল্লিকের ছেলে শিরন (৩৮) কে আটক করে। তারা পৌরসভার সরল ৩নং ওয়ার্ডে রাস্তায় মাদক সেবন করে মাতলামী করছিল। পুলিশ সংবাদ পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে ৫জনকে আটক করে। এ ঘটনায় থানায় মাদক দ্রব্য আইনে মামলা হয়েছে বলে ওসি এজাজ শফী জানান।

পাইকগাছায় নবাগত নির্বাহী অফিসারের সাথে প্রেসকাবের নেতৃবৃন্দের সৌজন্য সাক্ষাৎ

পাইকগাছা প্রতিনিধি

পাইকগাছায় নবাগত উপজেলা নির্বাহী  কর্মকর্তা এবিএম খালিদ হোসেন সিদ্দিকীর সাথে পাইকগাছা প্রেসকাবের কার্যকরি কমিটি সহ সকল সদস্যবৃন্দের সৌজন্য সাক্ষাৎ। বুধবার সকালে নিজিস্ব অফিস রুমে সাক্ষাৎ করেন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা সহকারী কমিশনার ভুমি মোহাম্মদ আরাফাতুল আলম, পাইকগাছা প্রেসকাবের সভাপতি এ্যাড. এফ এম এ রাজ্জাক, সাধারণ সম্পাদক এম মোসলেম উদ্দিন আহমেদ, সহ-সভাপতি আঃ আজিজ, তৃপ্তি রঞ্জন সেন, সহ সম্পাদক এন ইসলাম সাগর, কোষাধ্যক্ষ এস এম বাবুল আক্তার, দপ্তর সম্পাদক স্নেহেন্দু বিকাশ, সাবেক সভাপতি সাপ্তাহিক সুন্দরবন বার্তার সম্পাদক মোস্তফা কামাল জাহাঙ্গীর, জি এ গফুর, সাবেক সম্পাদক এসএম আলাউদ্দিন সোহাগ, আলাউদ্দীন রাজা, এম আর মন্টু, বি সরকার, প্রমথ রজ্ঞন সানা, নজরুল ইসলাম, অমল, পূর্ণচন্দ্র মন্ডল, ফসিয়ার রহমান, প্রমুখ।

মহেশপুরে বিতর্কিত ৩ শিক্ষকের পদত্যাগ

মহেশপুর(ঝিনাইদহ)প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহের মহেশপুরের যাদবপুর কলেজের তিন শিক্ষকের একই সাথে দুই প্রতিষ্ঠান থেকে সরকারি বেতন-ভাতা উত্তোলন। নতুন এমপিও হওয়ায় এই তিন শিক্ষকের ব্যাংক একাউন্টে জমা হয়েছে সাত লাখ ৪৮ হাজার ১০০ টাকা। বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক ঝড় উঠলে কলেজ পরিচালনা পরিষদের সভায় সিদ্ধান্ত মোতাবেক ৩ বিতর্কিত শিক্ষক পদত্যাগপত্র জমা দেয়।

কলেজের অধ্যক্ষ মঞ্জুরুল আলম জানান, গণিতের শিক্ষক শরিফুল ইসলাম, পদার্থবিজ্ঞানের শিক্ষক হাবিবুর রহমান ও ইসলাম শিক্ষার শিক্ষক মাওলানা হাফিজুর রহমান তথ্য গোপন করে চাকুরিতে ঢোকেন। কলেজটি ২০১৯ সালে এমপিওভুক্ত হলে তাদের বিলপত্র স্ব স্ব ব্যাংক একাউন্টে জমা হয়। পরবর্তীতে জানা যায় ৩জনই অন্য প্রতিষ্ঠান থেকে চাকুরির টাকা উত্তোলন করে থাকে। তিনি বলেন, তারা যেকোন এক জায়গায় চাকুরি করবে।

কলেজ পরিচালনা পরিষদের সদস্য ডাঃ সালাউদ্দিন জানায়, পরিচালনা পরিষদের সভায় ঐ ৩ শিক্ষক কে তলব করা হয় এবং ১২ই জুলাই এর মধ্যে তারা কলেজ থেকে পদত্যাগ করার অঙ্গিকার করে।

উল্লেখ্য, ২০০৪ সালে ঝিনাইদহের সীমান্তবর্তী অঞ্চল মহেশপুরের যাদবপুর কলেজটি প্রতিষ্ঠিত হয়। শুরুতেই কলেজটিতে শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন চৌগাছার মাকাপুর-বল্লভপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বিজ্ঞানবিভাগের শিক্ষক শরিফুল ইসলাম, এবিসিডি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের বিজ্ঞানবিভাগের শিক্ষক হাবিবুর রহমান এবং মহেশপুরের জলুলী দাখিল মাদ্রাসার শিক্ষক মাওলানা হাফিজুর রহমান।

এই তিন শিক্ষক কলেজে যোগাদান করলেও তাদের আগের প্রতিষ্ঠানে শিক্ষকতা অব্যাহত রাখেন এবং এমপিও অনুযায়ী নিয়মিত সরকারি বেতন-ভাতা উত্তোলন করেন। তবে ২০১৯ সালে যাদবপুর কলেজটিকে সরকার এমপিও ভুক্ত করলে তারা সেই তালিকায় ওঠেন। এজন্য সরকারি নিয়ম অনুযায়ী এরিয়া হিসেবে এক বছরের বেতন-ভাতা পান।

ইতিমধ্যে কলেজটি থেকে নিয়মিত বেতন পাওয়ার পাশাপাশি এরিয়ার টাকাও তাদের ব্যাংক হিসেবে জমা হয়ে গেছে। একই সাথে তারা এখনো স্ব স্ব স্কুলের শিক্ষক হিসেবে সরকারি বেতন-ভাতা উত্তোলন করছেন। কলেজের অধ্যক্ষ মঞ্জুরুল আলম জানিয়েছেন, তাদের একাউন্টের টাকা ট্রেজারি চালানের মাধ্যমে সরকারি খাতে ফেরত দেওয়া হবে।

মহেশপুরে ইউনিয়ন আ,লীগের সাধারণ সম্পাদকসহ ২জন করোনায় আক্রান্ত

মহেশপুর(ঝিনাইদহ)প্রতিনিধিঃ

ঝিনাইদহের মহেশপুরে ৯ নং যাদবপুর ইউনিয়ন আ,লীগের সাধারণ সম্পাদক সালাউদ্দিনসহ একই পারিবারের ২জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এনিয়ে এ উপজেলায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৭ জনে। মহেশপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আঞ্জুমানার বেগম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান তাদের শরীর থেকে নমুনা সংগ্রহ করে তা পরীক্ষার জন্য কুষ্টিয়া ল্যাবে পাঠানো হলে সেখান পরীক্ষার পর বুধবার সকালে তাদের করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসে। আক্রান্তরা নিজ বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টাইনে চিকিৎসাধীন আছেন।

উল্লেখ্য ১৫ জুলাই ঝিনাইদহ জেলায় ৩৩ জনের করোনা ভাইরাস পজেটিভ রিপোর্ট আসে। এরমধ্যে মহেশপুরে ২ জন। মহেশপুরে ২৭জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির মধ্যে ১১জন সুস্থ হয়েছেন এবং ১৬ জন চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

খুলনা চেম্বারের পরিচালক জেড এ মাহমুদ ডন এর পরিবারের সুস্থতা কামনা

খবর বিজ্ঞপ্তি

খুলনা চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির পরিচালক, ২৭ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জেড এ মাহমুদ ডন এর পরিবার সহ বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত সকলের আশু সুস্থতা কামনা করে বিবৃতিদান করেন খুলনা চেম্বারের সভাপতি কাজি আমিনুল হক, উর্দ্ধতন সহ-সভাপতি শেখ আসাদুর রহমান, সহ-সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বিশ্বাস বুলু, সহ-সভাপতি মোঃ মোস্তফা জেসান ভূট্টো, পরিচালকবৃন্দ গোপী কিষণ মুন্ধড়া, এম এ মতিন পান্না, জেড এ মাহামুদ ডন, এস এম ওবায়দুল্লাহ, আলহাজ্ব মোঃ মফিদুল ইসলাম টুটুল, ঠাকুর মোঃ শাহ্ আলম, জোবায়ের আহমেদ খান (জবা), মোঃ সিরাজুল হক, কাজী মাসুদুল ইসলাম, আলহাজ্ব মোঃ মোশাররফ হোসেন, শেখ আল্লামা ইকবাল তুহিন, মোঃ আবুল হাসান, দীপক কুমার দাস, মোঃ ইসলাম খান, উজ্জ¦ল কুমার গাঙ্গুলী, শেখ মোঃ গাউসুল আজম, খান সাইফুল ইসলাম, মোঃ মনিরুল ইসলাম মাসুম, মোঃ মাহবুব আলম ও চৌধুরী মিনহাজ উজ জামান।

মণিরামপুরে আনসার-ভিডিপি কর্মকর্তাসহ তিনজনের করোনা সনাক্ত

মণিরামপুর (যশোর) প্রতিনিধি :

যশোরে বুধবার (১৫ জুলাই) যে ৭৪ জনের করোনা সনাক্ত হয়েছে তারমধ্যে মণিরামপুরে একজন আনসার-ভিডিপি কর্মকর্তা ও দুই এনজিও কর্মী রয়েছেন। বুধবার সকালে যশোর সিভিল সার্জন অফিস থেকে তাদের করোনা পজেটিভ রিপোর্ট জানানো হয়। মণিরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও)  ডা. অনুপ কুমার বসু এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। নতুন আক্রান্ত তিনজন হলেন, উপজেলার শ্যামকুড় ইউপির ঘুঘুরাইল গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম (৩১), মুজগুন্নি গ্রামের বাবুল আক্তার (৩৪) এবং মনোহরপুর ইউপির কপালিয়া গ্রামের আলী রেজা (২৮)। আক্রান্ত জাহাঙ্গীর আলম বাগেরহাট সদর উপজেলা আনসার ভিডিপি কর্মকর্তা। আর বাবুল আক্তার ও আলী রেজা সমাধান নামে একটি এনজিও’র কর্মী।

ডা. অনুপ বসু বলেন, গত রোববার (১২ জুলাই) মণিরামপুর হাসপাতালে ১১ জন নমুনা দেন। আজ (বুধবার) তাদের মধ্যে তিনজনের করোনা পজেটিভ রিপোর্ট এসেছে। তারা বাড়িতে আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নিচ্ছেন। এই বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনকে তালিকা দেওয়া হয়েছে। মণিরামপুরে এই পর্যন্ত ৬৮ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। তারমধ্যে ৪৩ জন সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরেছেন। আজ (বুধবার) নয় জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

আওয়ামী শ্রমজীবী লীগ খুলনা জেলার সভাপতি সজল, সম্পাদক বিথিন

খবর বিজ্ঞপ্তি

মোঃ আরিফুল ইসলাম সজলকে সভাপতি ও বিথিন মন্ডলকে সাধারণ সম্পাদক করে আওয়ামী শ্রমজীবী লীগ খুলনা জেলার শাখার ৯ সদস্য বিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) আওয়ামী শ্রমজীবী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শেখ দেলোয়ার আরজুদা শরফ ও ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক অ্যাড. মহাসিন রেজা যৌথ স্বাক্ষরে এ কমিটি অনুমোদন দেন। নবগঠিত কমিটির অন্যরা হলেন সহ-সভাপতি মোঃ মমিনুর রহমান টুটুল, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আব্দুল খালেক স্বাধীন, সাংগঠনিক সম্পাদক তুর্য ঘোষ, অর্থ সম্পাদক মোঃ আল আমিন হোসেন সোহাগ, দপ্তর সম্পাদক সিফাত আহমেদ সাকিব, প্রচার সম্পাদক অজিত মন্ডল ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক দেবদাস মন্ডল। 

তেরখাদা সংবাদ

তেরখাদা প্রতিনিধি

তেরখাদায় অভিভাবক সচেতন হন মাদককে পরিহার করুন, মাদক সমাজের ক্যান্সার, মাদককে না বলুন। গতকাল বিকাল ৫টায় উপজেলা শেখপুরা বাজার প্রাঙ্গনে জনগনের সম্মুখে প্রধান অতিথির বক্তব্যে খুলনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এস, এম রাজু আহম্মেদ একথা বলেন। এসময় তিনি কোভিড-১৯, করোনা মোকাবেলায় সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখার ব্যাপারে জনগনকে সচেতন করেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন তেরখাদা থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকতা মোঃ গোলাম মোস্তফা, প্রেসকাব সভাপতি নুর মোহাম্মদ সিফাত, মানবধিকা কর্মী মোঃ আলী আকবর, আওয়ামীলীগ নেতা শারাফাত হোসেন, ইউপি সদস্য কাবিল মোল্যা, সাংবাদিক মোল্যা সেলিম আহমেদ, জেড, এম শামীম আহমেদ, মোঃ আলাউদ্দিন, ডাঃ ইনজাহের আলী সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

।। তেরখাদা উপজেলায় নির্বাহী কর্মকর্তার যোগদান।।

খুলনা জেলার তেরখাদা উপজেলায় নতুন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে শিমুল কুমার সাহা গত ১৪ জুলাই ২০২০ অপরাহ্নে যোগদান করেন। পরবর্তী দিন সকাল ১০ টায় দাপ্তরিক কার্যক্রম শুরু করেন এবং সকল দাপÍরিক কর্মকর্তাদের সাথে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। এসময় তিনি বিভিন্ন কর্মকর্তাদের সহিত কোভিড-১৯ সহ সকল বিষয় খোজ খবর নেন। তিনি তেরখাদা উপজেলা কাবকে তার পরিচয় সহ কর্মময় জীবনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন এবং পূর্ববর্তী কর্মস্থল কয়রাতে প্রায় ৩ বছর অত্যান্ত সুনামের সহি তার কর্মময় জীবন অতিবাহিত করেন।

।।পারিবারিক কৃষির আওতায় সবজি-পুষ্টি বাগান স্থাপন।।

বর্তমান সরকারের নির্দেশনায় খাদ্য ও পুষ্টি বৃদ্ধির লক্ষ্যে তেরখাদা উপজেলা কৃষি অধিদপ্তরের উদ্যেগে উপজেলার ৬ ইউনিয়নে বাছাইকৃত ১৭০টি বসত বাড়ীর আঙ্গিনায় কম খরচে বেশি লাভ সবজি চাষ পদ্ধতির আয়োজন করেন। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ শফিকুল ইসলাম জানান সরকারের মহা উদ্যেগ বাস্তবায়নের লক্ষে করোনা উপেক্ষা করে যাচাইকৃত কৃষকদের আঙ্গিনায় পারিবারিক কৃষির আওতায় সবজি-পুষ্টি বাগান স্থাপনে আমার মাঠকর্মীরা নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন এবং চাষীদের নিয়ে বেড বেড়া তৈরী করে সরকারী ভাবে লালশাক, ডাটাশাক, টমেটে, পুইশাক, গিমাকলমি, মুলা, বেগুন, কাঁচামরিচ, ধনিয়াপাতা ও পালংশাকের বীজ বিতরন করেন। তার সঠিক পরিচর্যার জন্য মাঠকর্মরা সার্বক্ষনিক খোজ খবর রাখছেন।

হরিনাকুন্ডুতে সঞ্জয় ট্রাস্টের উদ্যোগে বিনামূল্যে বৃক্ষরোপন ও চারা বিতরণ

ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

গাছ লাগান,পরিবেশ বাঁচান’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে ঝিনাইদহে হরিনাকুন্ডুতে সঞ্জয় ট্রাস্টের উদ্যোগে বিনামূল্যে বৃক্ষরোপন ও চারা বিতরণ করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে হরিণাকুন্ডু পৌর এলাকার প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়, উপজেলা পরিষদ চত্তর, শহরের বিভিন্ন রাস্তায় বৃক্ষরোপন এবং চারা বিতরণ করা হয়। এতে অংশগ্রহন করে শিশুকলি স্কুলের সহকারি প্রধান শিক্ষক মো: মানোয়ার হোসেন, প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রাশেদ, প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা আমিরুল ইসলাম সহ অনেকে। সেসময় বনজ, ফলজ ঔষধি বৃক্ষের কয়েকশত চারা রোপন এবং বিতরণ করা হয়।

রূপসায় এমপি সালাম মূর্শেদীর ব্যবস্থাপনায় যুবলীগের বৃক্ষরোপন

রূপসা প্রতিনিধি 

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে  খুলনা-৪ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুস সালাম মূর্শেদীর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ১৫ জুলাই  বেলা ১১ টায় রূপসা উপজেলা যুবলীগের আয়োজনে উপজেলা পরিষদ চত্বরে বৃক্ষ রোপন কর্মসূচির উদ্বোধন করেন-উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোঃ কামাল উদ্দীন বাদশা। উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক-এবিএম কামরুজ্জামানের সভাপতিত্বে বক্তৃতা করেন-জেলা আওয়ামীলীগ নেতা আঃ মজিদ ফকির ,উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন জাহাঙ্গীর হোসেন মুকুল, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক-এস এম হাবিব, আওয়ামীলীগ নেতা শ,ম জাহাঙ্গীর, আল মামুন সরকার, নাসির হোসেন সজল, ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ জাহাঙ্গীর শেখ, আওয়ামীলীগ নেতা মোল্লা ওহিদুজ্জামান মিজান। এসময় উপস্থিত ছিলেন যুবলীগের সরদার জসিম উদ্দিন ,আব্দুল মজিদ শেখ,  বাদশা মিয়া, শাহনেওয়াজ কবির টিংকু মেজবা উদ্দিন ,খান জাহিদ হাসান মহিউদ্দিন খান  প্রীতম,  আবুল কালাম আজাদ,রতন মন্ডল, সুমন মল্লিক রবিউল ইসলাম, মইনুল ইসলাম,  ইউনুস  শেখ,  গিয়াস উদ্দিন সহ দলীয় ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। উল্লেখ্য, বৃক্ষরোপন কর্মসূচি চলমান থাকবে।

ডুমুরিয়ায় প্রতিপক্ষের হামলায় শ্রমিকলীগ নেতা আহত

ডুমুরিয়া প্রতিনিধি

ডুমুরিয়ায় পূর্ব শত্রুতার জের ধরে প্রতিপক্ষের হামলায় শোভনা ইউনিয়ন শ্রমিকলীগের সাধারন সম্পাদক উত্তম মল্লিক (৩৮) আহত হয়েছে।গতকাল বুধবার সকালে উপজেলার শোভনা পশ্চিম পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।এ ঘটনায় ৪জনকে বিবাদী করে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,উপজেলার শোভনা পশ্চিমপাড়া এলাকার অরবিন্দু মল্লিকের ছেলে উত্তম মল্লিকের সাথে একই এলাকার সুরঞ্জিত মল্লিক,প্রসেনজিত মল্লিক,মিঠুন মল্লিক ও বিধান মল্লিকের পূর্ব শত্রুতা চলে আসছে।তারই জের ঘটনার দিন সকালে প্রতিপক্ষ ওই শ্রমিকলীগ নেতার মটর সাইকেলের গতিরোধ করে পরিকল্পিত ভাবে লোহার রড,হাতুড়ি নিয়া তার উপর হামলা চালায়।এতে সে গুরতর আহত হয়ে পড়লে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। ঘটনা প্রসঙ্গে ওসি আমিনুল ইসলাম বলেন,অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

ডুমুরিয়ায় মন্দিরের টাকা আত্মসাত’র অভিযোগ

ডুমুরিয়া প্রতিনিধি

ডুমুরিয়ায় মন্দির কমিটির সভাপতির স্বাক্ষর জাল করে মন্দিরে বরাদ্দকৃত অর্থ আত্মসাত’র অভিযোগ পাওয়া গেছে।এমন অভিযোগ এনে মন্দির কমিটির সভাপতিসহ শতাধিক এলাকাবাসি স্বাক্ষরিত একটি অভিযোগ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে দায়ের করা হয়েছে। দায়েরকৃত অভিযোগ সূত্রে জানা যায়,উপজেলার বরাতিয়া দাসপাড়া গোবিন্দ মন্দির অনুকুলে স্থানীয় সংসদ সদস্য’র তহবিল থেকে চলতি অর্থবছরে ৫০ হাজার টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়। যাহার প্রথম কিস্তি ২৫ হাজার টাকা উত্তোলন করে মন্দির উন্নয়ন কাজে ব্যবহার করা হয়। কিন্তু ২য় কিস্তিতে সভাপতি নারায়ন দাসের অজান্তে ধীরেন দাস,নিরাপদ দাস ও প্রশান্ত দাস তার স্বাক্ষর জালিয়াতি করে ২য় কিস্তির ২৫ হাজার টাকা উত্তোলন করে আত্মসাত করে। যাহার একটি টাকাও মন্দির উন্নয়ন কাজে ব্যবহার করা হয়নি বলে অভিযোগ আনা হয়েছে। ঘটনা প্রসঙ্গে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোছাঃ শাহনাজ বেগম বলেন,অভিযোগ পেয়েছি উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তাকে তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।