বাংলাদেশী রায়হান কবিরের ভিসা বাতিল করলো মালয়েশিয়া

8
Spread the love

আল জাজিরায় সাক্ষাৎকার


মালয়েশিয়া প্রতিনিধি:

ব্যাপক জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে সাক্ষাৎকার দেওয়ার ঘটনায় বাংলাদেশী নাগরিকের ভিসা বাতিল করলো মালয়েশিয়া। তবে এখনো ঐ বাংলাদেশিকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ। সেদেশের আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তাকে গ্রেপ্তার করতে অভিযান অব্যাহত রেখেছে।
সংবাদমাধ্যম কে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন দেশটির পুলিশ মহাপরিদর্শক, তান শ্রী আবদুল হামিদ বদর তিনি জানিয়েছেন, মোঃ রায়হান কবিরের ওয়ার্ক পারমিট (ভিসা) বাতিল করেছে ইমিগ্রেশন বিভাগ। সুতরাং, তাকে তার নিজ দেশে ফেরত পাঠানোর আগে আত্মসমর্পণ করতে হবে।
৩ জুলাই আল জাজিরা মালয়েশিযার লকডাউনে লকড আপ শিরোনামের একটি ডকুমেন্টারি তে দাবি করা হয়েছিল কোভিড -১৯ সংক্রমনরোধে পরিচালনার ক্ষেত্রে বিদেশীদের সাথে বৈষম্য করা হয়েছে।
এর আগে মালয়েশিয়ার ইমিগ্রেশন বিভাগ (জেআইএম) মোঃ রায়হান কবির নামে বাংলাদেশিকে খুঁজে বের করার জন্য জনসাধারণের সহায়তা চেয়ে একটি নোটিশ জারি করেছিল দেশটির অভিবাসন বিভাগ। আন্তর্জাতিক সংবাদ সংস্থা আল জাজিরা টেলিভিশন কে দেওয়া তার সাক্ষাৎকারের বিষয়ে দেশটির অভিবাসন আইন ১৯৫৯/৬৩ এর ধারায় তদন্তে সহযোগিতা করার জন্য নোটিশে উল্লেখ করা হয়। নোটিশ জারিরপর মালয়েশিয়ায় থাকা প্রবাসীদের মাঝে উদ্বেগ উৎকন্ঠা বিরাজ করে।
এ বিষয়ে দেশটিতে অবস্থান করা বাংলাদেশিদের উদ্বেগের বিষয়ে ঢাকা থেকে টেলিফোনে জানতে চাইলে মালয়েশিয়াস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনার শহীদুল ইসলাম ডয়চে ভেলেকে এক সাক্ষাতকারে বলেন, ‘‘উদ্বেগের কোন কারণ নেই। যাদের ভিসার মেয়াদ শেষ হচ্ছে, তাদের ভিসা রিনিউ করা হবে। এমনকি যারা ডিটেনশন ক্যাম্পে আছেন তাদেরও নতুন কোম্পানিতে চাকরি দেওয়া হবে। আবার যারা করোনার কারণে বাংলাদেশে আটকা পড়েছেন তারাও যেতে পারবেন। মালয়েশিয়ার সরকারের সঙ্গে আমাদের সার্বক্ষণিক যোগাযোগ আছে।’’
রায়হান কবিরের সুরক্ষার বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে ডয়চে ভেলেকে হাইকমিশনার বলেন, ‘‘কূটনৈতিক রীতি-নীতির আওতায় যা করা দরকার দূতাবাস তা করবে।’’