খুলনা বিভাগে আরও ২১৪ জনের করোনা শনাক্ত

2
Spread the love

স্টাফ রিপোর্টার

খুলনা বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ২১৪ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে বিভাগে মোট কোভিড–১৯ রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ৬ হাজার ৮২০ জনে। বিভাগের রোগীদের ৪৩ শতাংশই খুলনা জেলার।

খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক (প্রশাসন) মো. মনজুরুল মুরশিদ আজ শনিবার এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় বিভাগে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে বিভাগে ১১৭ কোভিড–১৯ রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

অধিদপ্তরের দেওয়া তথ্য মতে, বিভাগে নতুন করে ২৫৭ জন সুস্থ হয়েছেন। এ নিয়ে সুস্থ হলেন ২ হাজার ৬৫৮ জন। শনাক্ত বিবেচনায় বিভাগে সুস্থ হওয়ার হার প্রায় ৩৯ শতাংশ।

খুলনা বিভাগের মধ্যে চুয়াডাঙ্গায় প্রথম কোভিড–১৯ রোগী শনাক্ত হয় গত ১৯ মার্চ। পরবর্তী ৭৩ দিনে শনাক্তের সংখ্যা ৫০০ ছাড়ায়। গত ৮ জুলাই ১১২তম দিনে এসে রোগীর সংখ্যা ৬ হাজার ছাড়ায়। ১০ জুলাই ১১৪তম দিনে রোগীর সংখ্যা সাড়ে ছয় হাজার ছাড়ায়।

নতুন শনাক্ত ২১৪ জনের মধ্যে খুলনা জেলায় ৭৯ জন, বাগেরহাটে ১৪ জন, চুয়াডাঙ্গায় ১৪, যশোরে ২১ জন, ঝিনাইদহে ১২ জন, কুষ্টিয়ায় ৩৮ জন, মাগুরায় ৭, মেহেরপুরে একজন, নড়াইলে ১৩ জন ও সাতক্ষীরায় ১৫ জন আছেন।

অধিদপ্তরের দেওয়া হিসেবে, সংক্রমণ ও মৃত্যু—দুই সূচকেই বিভাগের মধ্যে খুলনা অনেক এগিয়ে। মোট সংক্রমিত ৬ হাজার ৮২০ জনের মধ্যে ২ হাজার ৯৩৭ জনই খুলনা জেলার। বিভাগের মোট রোগীর ৪৩ শতাংশ খুলনার। এ ছাড়া বাগেরহাটে ২৮৮ জন, চুয়াডাঙ্গায় ২৯২ জন, যশোরে ৯৭৩ জন, ঝিনাইদহে ৩৯০ জন, কুষ্টিয়ায় ৯২৬ জন, মাগুরায় ১৯৩ জন, মেহেরপুরে ৯৮ জন, নড়াইলে ৩৭৪ জন এবং সাতক্ষীরায় ৩৪৯ জন কোভিড–১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছেন।

বিভাগে মৃতের সংখ্যা এখন ১১৭ জন। মারা যাওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে খুলনায় সবচেয়ে বেশি ৪৪ জন মারা গেছেন। এ ছাড়া কুষ্টিয়ায় ১৯ জন, যশোরে ১৪ জন, নড়াইলে ৮ জন, মাগুরা ও ঝিনাইদহে ৭ জন করে, মেহেরপুরে ৬ জন, সাতক্ষীরায় ৫ জন, বাগেরহাটে ৪ জন ও চুয়াডাঙ্গায় ৩ জন মারা গেছেন।