সংসদ বসছে বুধবার: পাস হবে ভার্চুয়াল আদালত বিল

3
Spread the love

আসাদুজ্জামান ইমন, ঢাকা

টানা এক সপ্তাহ বিরতির পর আজ বুধবার বসবে জাতীয় সংসদের মূলতবি অধিবেশন। করোনা স্বাস্থ্যবিধি মেনে বেলা ১১টায় স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে অধিবেশন শুরু হবে। আজ অধিবেশনে বহুল আলোচিত ভার্চুয়াল আদালত বিলটি (আদালত কর্তৃক তথ্য প্রযুক্তি বিল, ২০২০) পাসের কথা রয়েছে।

সংসদ সচিবালয় সূত্র জানায়, গত ২৩ জুন ভার্চুয়াল আদালত সংক্রান্ত ‘আদালত কর্তৃক তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার বিল-২০২০’ জাতীয় সংসদে উত্থাপন করা হয়। পরে বিলটি পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠানো হয়। কমিটিকে ৫ দিনের মধ্যে সংসদে রিপোর্ট প্রদানের জন্য বলা হয়। দেশের আইন বিশেষজ্ঞদের মতামতের ভিত্তিতে ২৮ জুন বিলটি চূড়ান্ত করা হয়। পরদিন ২৯ জুন সংসদে প্রতিবেদন জমা দেয়া হয়। বিলটি পাসের মাধ্যমে প্রয়োজনের তাগিদে সীমিত পরিসরে ভার্চুয়াল আদালত চালু রাখা যাবে।

সংশ্লিষ্টরা জানান, অধিবেশনে বাংলাদেশ ব্যাংকের গবর্নর পদে ৬৫ বছরের সর্বোচ্চ বয়সসীমা দুই বছর বাড়িয়ে ‘বাংলাদেশ ব্যাংক (এ্যামেন্ডমেন্ট) এ্যাক্ট-২০২০’ বিল উত্থাপিত হবে। এছাড়া ‘মৎস্য ও মৎস্যপণ্য (পরিদর্শন ও মাননিয়ন্ত্রণ) বিল-২০২০’ নামে আরও একটি বিল উত্থাপনের কর্মসূচী রয়েছে। এছাড়া প্রধানমন্ত্রী ও মন্ত্রীদের প্রশ্নোত্তর এবং জরুরী জনগুরুত্বপূর্ণ নোটিস নিয়ে আলোচনা হবে।

উল্লেখ্য, গত ১০ জুন শুরু হওয়া চলতি অধিবেশনে ৩০ জুন ২০২০-২০২১ অর্থবছরের বাজেট পাস হয়েছে। নির্দিষ্টকরণ বিল, ২০২০ পাসের মাধ্যমে নতুন অর্থবছরের জন্য ৫ লাখ ৬৮ হাজার কোটি টাকার বাজেট পাস হয়। বৈশ্বিক মহামারী করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতির কারণে অত্যন্ত সংক্ষিপ্ত পরিসরে বাজেট পেশ করা হয়। করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য ঝুঁকি বিবেচনায় সংসদ সচিবালয়ের ক্যালেন্ডার অনুযায়ী অধিবেশনের প্রতি বৈঠকে ৩৫০ জন সংসদ সদস্যদের মধ্যে ৮০ থেকে ৯০ জন সদস্য অংশগ্রহণ করেন।

এ পর্যন্ত সংসদে মাত্র ৭ কার্যদিবস অধিবেশন চলছে। কোভিড-১৯ ভয়াবহতা বেড়ে যাওয়ায় বাজেট অধিবেশন সংক্ষিপ্ত করা হয়। সংসদ অধিবেশনে যোগ দিয়ে যাতে কেউ করোনা আক্রান্ত না হন, সেজন্য বাড়তি সতর্কতা নেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে অধিবেশনে যোগ দেবেন, এমন সংসদ সদস্যদের করোনাভাইরাসের নমুনা টেস্ট করানো হয়েছে। এর আগে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নমুনা টেস্ট করানো হয়।

গণমাধ্যম কর্মীদের সংসদ বাংলাদেশ টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচার থেকে সংসদ অধিবেশন সংগ্রহ করতে হয়েছে। এছাড়া করোনা পরিস্থিতির কারণে বাজেট আলোচনায়ও দু’দিনে শেষ করে অর্থ বিল এবং বাজেট পাস করা হয়। সংসদ সচিবালয় থেকে জানা গেছে, চলতি অধিবেশন আর এক বা দুই কার্যদিবস চলতে পারে।