মাঠে ময়দানের খবর

2
Spread the love

করোনাতেও বেশি ক্ষতি দেখছে না বিসিবি
ক্রীড়া প্রতিবেদক
করোনাভাইরাসের কারণে এই বছর যদি আইপিএল শেষ পর্যন্ত মাঠে না-ই গড়ায়, বিসিসিআইয়ের তি হতে পারে ১০ হাজার কোটি রুপি! ভয়ে আছে ইংল্যান্ডও। এবারের গ্রীষ্মে ধুমধাম করে ১০০ বলের ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ‘দ্য হানড্রেড’-এর প্রথম আসর আয়োজন করার কথা। সঙ্গে ইংল্যান্ডের দ্বিপীয় সিরিজ, টি-টোয়েন্টি ব্লাস্ট, রয়্যাল লন্ডন ওয়ানডে কাপ, কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপ তো আছেই। পুরো গ্রীষ্মের ক্রিকেট ভেস্তে গেলে ইসিবির তি হবে ৩০০ মিলিয়ন ইউরো।
এদিক দিয়ে এখন পর্যন্ত কিছুটা যেন স্বস্তিতে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। করোনাভাইরাসের প্রভাবে খেলাধুলা বন্ধ হয়ে গেলেও অত বড় তির ভয় নেই বিসিবির। বিসিবি পরিচালক ও অর্থ কমিটির প্রধান ইসমাইল হায়দারই গতকাল রবিবার বলেছেন, ‘আমাদের রাজস্ব আয়ের টুর্নামেন্টগুলোর কোনোটাই করোনার কারণে বাদ পড়েনি। পাকিস্তান, আয়ারল্যান্ড সফরের কথা ছিল। সেগুলোতে তো আরেক বোর্ডের আয় হতো। সেদিক থেকে আমরা ভালো জায়গায় আছি।’
বিসিবির স্বস্তিতে থাকা মূলত করোনাভাইরাসের আগেই ঘরোয়া ক্রিকেটের কিছু খেলা শেষ হয়ে যাওয়াতে। একই কারণে স্বস্তিতে আছে অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, দণি আফ্রিকা ও পাকিস্তানও। বিসিবির বড় অঙ্কের রাজস্ব আসে বিপিএল থেকে। সেটি এবার ভালোভাবেই শেষ হয়েছে। বাংলাদেশের ক্রিকেটে এখন পর্যন্ত করোনার বড় প্রভাব বলতে পাকিস্তান ও আয়ারল্যান্ড সফর এবং প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ স্থগিত হয়ে যাওয়া। কিন্তু এসবে বিসিবির আর্থিক তি খুব বেশি হবে না। তবে দুশ্চিন্তা যে একেবারেই নেই, তা নয়। বিসিবির রাজস্বের ৫০ভাগই আসে আইসিসির টুর্নামেন্ট থেকে। আগামী অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়ায় অনুষ্ঠেয় টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ স্থগিত হলে বাংলাদেশের ক্রিকেটের কোষাগারে বড় ধাক্কাই লাগার কথা। সেপ্টেম্বরে অনুষ্ঠেয় টি-টোয়েন্টি এশিয়া কাপও বিসিবির জন্য লাভজনক। বিসিবি এখন সেসবের দিকেই তাকিয়ে। ইসমাইল হায়দার বলছিলেন, ‘আইসিসির টুর্নামেন্ট আছে এই বছরের শেষে। এশিয়া কাপ আছে সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে। টুর্নামেন্টগুলো যদি মাঠে গড়ায়, তাহলে আমাদের খুব একটা তির সম্ভাবনা নেই।’
তি যা-ই হোক, সেটি পুষিয়ে নেওয়ারও সম্ভাবনা দেখছেন তিনি, ‘অস্ট্রেলিয়া সিরিজ থেকে খুব বেশি না হলেও কিছু রাজস্ব আসত। তারপরও যদি বিশ্বকাপ ও এশিয়া কাপ হয়, আর বছর শেষে যদি বিপিএলটা করতে পারি, তাহলে আমরা তি পুষিয়ে নিতে পারব।’

৩ আগস্টের মধ্যে শেষ করতে হবে চ্যাম্পিয়নস লিগ
ক্রীড়া প্রতিবেদক
করোনাভাইরাসের কারণে ইতিমধ্যে বাতিল হয়ে গেছে বেলজিয়ামের শীর্ষ প্রিমিয়ার লিগ। ফুটবলের অন্যান্য শীর্ষ লিগগুলোও থমকে আছে। থমকে আছে চ্যাম্পিয়নস লিগের মতো আসরও।
সময়ের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে প্রতিদিন করোনাভাইরাসের ভয়াবহতা বাড়ছে। এমন অবস্থায় চ্যাম্পিয়নস লিগের মৌসুম শেষ হওয়ার জন্য কতদিন অপো করবে উয়েফা? তার একটা সম্ভাব্য সময় জানালো উয়েফার সভাপতি আলেকসান্দার চেফেরিন। তার মতে, উয়েফার দুই কাব প্রতিযোগিতা চ্যাম্পিয়নস লিগ ও ইউরোপা লিগ শেষ করতে হবে ৩ আগস্টের মধ্যেই।
চেফেরিন চ্যাম্পিয়নস লিগ ও ইউরোপা লিগ শেষ করার আশা যেমন দিয়েছেন, জানিয়েছেন প্রয়োজনে বাতিলও হতে পারে এবারের আসর। সম্প্রতি জার্মানির এক টেলিভিশনে দেওয়া সাাৎকারে চেফেরিন বলেন, ‘চ্যাম্পিয়ন্স লিগ ও ইউরোপা লিগ আবার শুরু করার জন্য আমাদের হাতে অনেকগুলো বিকল্প আছে। এটা হতে পারে মে, জুন, জুলাইয়ে। আবার খেলা আর মাঠে নাও গড়াতে পারে। এই বিষয়ও আমাদের আলোচনায় এসেছে।’
তবে উয়েফা চাইছে নিয়মের পরিবর্তন করে হলেও আসর শেষ করতে। যদি তাই হয় তবুও আসর শেষের সর্বশেষ সময়সীমা ধরা হয়েছে ৩ আগস্টই। চেফেরিন বলেন, ‘আমাদের একটা গ্রুপ এ নিয়ে কাজ করছে। কাবগুলোও খেলোয়াড়দের খেলতে দেওয়া নিয়ে ভাবতে হচ্ছে। তবে চ্যাম্পিয়নস লিগ ও ইউরোপা লিগ, সবই আগামী ৩আগস্টের মধ্যে শেষ করতে হবে।’

সন্ধ্যার দৌড় শেষ করলেন মুশফিক
ক্রীড়া প্রতিবেদক
করোনা ভাইরাসের কারণে বাংলাদেশের সকল ধরনের ক্রিকেট অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত। তাই ক্রিকেটাররা ঘরে অলস সময় পার করছেন। তবে এই সময়ে ক্রিকেটারদের বড় চ্যালেঞ্জ হলো ফিটনেস ধরে রাখা। আর সেটা নিয়েই কাজ করছেন বাংলাদেশের অভিজ্ঞ উইকেটরক-ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিম।
গতকাল রবিবার নিজের ফেসবুক পেজে রানিং মেশিনে দৌড়ের ভিডিও পোস্ট করেছেন ৩২বছর বয়সী তারকা। আর ক্যাপশনে লিখেছেন, ‘সময় কোনো ব্যাপার নয়, সন্ধ্যার দৌড় শেষ করলাম, আলহামদুলিল্লাহ ঘরে থাকুন, নিরাপদে থাকুন।’

ঘরেই ফিটনেস নিয়ে কাজ করছেন মাহমুদুল্লাহ
ক্রীড়া প্রতিবেদক
করোনা ভাইরাসের কারণে বাংলাদেশের সকল ধরনের ক্রিকেট অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত। তাই ক্রিকেটাররা ঘরে অলস সময় পার করছেন। তবে এই সময়ে ক্রিকেটারদের বড় চ্যালেঞ্জ হলো ফিটনেস ধরে রাখা। আর সেটা নিয়েই কাজ করছেন ভারপ্রাপ্ত টি-টোয়েন্টি মাহমদুল্লাহ রিয়াদ।
গতকাল রবিবার নিজের ফেসবুক পেজে ট্রেডমিলে জগিং করার ভিডিও পোস্ট করেছেন মাহমুদুল্লাহ। করোনা ভাইরাসের কারণে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ক্রিকেটাররা যেন নিজেদের ফিটনেস ঠিক রাখে সে জন্য গত ১এপ্রিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) নির্দেশনা দিয়েছে। এই নির্দেশনা অনুসরণ করে ঘরে বসেই ক্রিকেটাররা তাদের ফিটনেস নিয়ে কাজ করতে পারবেন। যে সব ক্রিকেটারদের ঘরে ব্যায়ামের যন্ত্রাংশ নেই কিংবা যাদের পে জিমনেশিয়ামে যাওয়া সম্ভব নয়, তাদের জন্য তিনি এই নির্দেশনা তৈরি করে দিয়েছেন।

মাশরাফির উদ্যোগে ভ্রাম্যমাণ চিকিৎসা সেবা শুরু
ক্রীড়া প্রতিবেদক
বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের তারকা, নড়াইল-২ আসনের এমপি ও নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মাশরাফি-বিন-মর্তুজার উদ্যোগে নড়াইলে ভ্রাম্যমাণ চিকিৎসা সেবা শুরু হয়েছে।
গতকাল রবিবার সকাল থেকে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের আয়োজনে একটি ভ্রাম্যমাণ মেডিকেল টিম জেলার তৃণমূল মানুষকে স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দেয়ার জন্য কাজ শুরু করেছে। এর আগে ৩এপ্রিল রাতে নড়াইল এক্সপ্রেস ফাউন্ডেশনের ফেসবুক পেজে এক ভিডিও বার্তায় ক্রিকেট তারকা মাশরাফি এ স্বাস্থ্যসেবা চালুর ঘোষণা দেন। করোনা ভাইরাস থেকে রা পেতে মানুষ যখন ঘরে আবদ্ধ এবং সাধারণ চিকিৎসা সেবাও যখন বাধাগ্রস্ত হচ্ছে, ঠিক তখন এই সেবা চালু করায় নড়াইলের বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।

স্টুয়ার্ট ওয়াটকিসও এগিয়ে এলেন সাহায্য
ক্রীড়া প্রতিবেদক
করোনার দিনগুলিতে সংসার চালাতে হিমশিম খাচ্ছে খেটে খাওয়া মানুষগুলো। তাদের এই দুর্দিনে প্রতিদিন দুপুরে খাবার বিতরণ করে যাচ্ছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে)। এই মহৎ কাজে কিছুদিন আগে শামিল হয়েছিলেন জাতীয় দলের ইংলিশ কোচ জেমি ডে। এবার তাকে অনুসরণ করলেন তারই সহকারী ও বাফুফের ভারপ্রাপ্ত টেকনিক্যাল ডিরেক্টর স্টুয়ার্ট ওয়াটকিস।
গতকাল রবিবার দুপুরে বাফুফে ভবনে তার দেওয়া অর্থেই ৩০০জন অসহায় মানুষকে দুপুরের খাবার দেওয়া হয়েছে। এমন মহৎ কাজে সঙ্গী হেতে পেরে এক ধরনের তৃপ্তি কাজ করছে ওয়াটকিসের। তিনি জানালেন সেই কথা,‘আমি এই কাজটি করতে পেরে অনেক আনন্দিত। কিছুদিন আগেই জেমি ডের সঙ্গে আলোচনা করেছিলাম। কীভাবে কী করা যায়। বলতে পারেন সেই আলোচনা থেকেই এই প্রয়াস। তবে এটা বড় কিছু না।’

মিসবাহকে ধুয়ে দিলেন ইউসুফ
ক্রীড়া প্রতিবেদক
পাকিস্তান ক্রিকেটে মিসবাহ উল হকের অবদান অসামান্য। ফিক্সিং কেলেঙ্কারিতে যখন পুরো দেশের ক্রিকেটে কালিমা লেগে গিয়েছিল, মিসবাহ অধিনায়ক হয়ে আস্তে আস্তে সব সামলে নেন।
মিসবাহর নেতৃত্বে পাকিস্তান দল ওই কালো অধ্যায় কাটিয়ে ঘুরেও দাঁড়ায়। দলকে টেস্ট ফরমেটে এক নম্বরে তোলাসহ অনেক বড় বড় সাফল্য এসেছে এই মিসবাহরই হাত ধরে। এমন একজনকে দেশের ক্রিকেটে আরও বড় দায়িত্ব বুঝিয়ে দেয়াটাকেই সঠিক সিদ্ধান্ত মনে করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। ফলে মিসবাহ এখন পাকিস্তান দলের হেড কোচ, সঙ্গে আবার প্রধান নির্বাচকও। কিন্তু মিসবাহর কর্মকা- মোটেই ভালো লাগছে না পাকিস্তানের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ ইউসুফের। তিনি বলেন, ‘আমি বুঝি না, একজন মানুেষকে কেন এত এত দায়িত্ব দেয়া হলো। আর মিসবাহ এই দায়িত্ব যেভাবে পালন করছে, আমি তো কোনো পরিকল্পনাই দেখতে পাচ্ছি না।’

সম্পূর্ণ বেতন পাবে পাকিস্তানি খেলোয়াড়রা
ক্রীড়া প্রতিবেদক
চলতি মাসের শেষ সপ্তাহে শুরু হবে পবিত্র রমজান মাস। করোনাভাইরাসের কারণে থমকে যাওয়া ক্রিকেটটা শুরুর জন্য, রমজান মাসকেই বেছে নিতে চাইছে পাকিস্তানের ক্রীড়া সংগঠকরা। তবে দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের প থেকে সাফ জানিয়ে দেয়া হয়েছে, রমজান মাসে কোন ক্রিকেট হবে না।
শুধু তাই নয়, করোনার কারণে নিজেদের তি পুষিয়ে বেশিরভাগ বোর্ডই যখন খেলোয়াড়দের বেতন কাটার কথা ভাবছে, পিসিবি উজ্জ্বল ব্যতিক্রম। তারা খেলোয়াড়দের নিশ্চয়তা দিয়েছে যে, বর্তমান চুক্তিতে ২০১৯-২০ অর্থ বছরের সম্পূর্ণ বেতনই দেয়া হবে। ‘কিছু প্রতিষ্ঠান এবং সংগঠকদের কাছ থেকে আমরা রমজান মাসে ক্রিকেট খেলার অনুমতি চেয়ে অনুরোধ পেয়েছি। তবে আমরা মনে করি, এখনই উপযুক্ত সময় আমাদের পলিসি মেনে চলার। যা হচ্ছে, সমাজে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে আসার আগে কোনো ক্রিকেট হবে না। এই প্রোপটেই পিসিবি রমজান মাসে ক্রিকেট খেলার কোন অনুমতি দেবে না।’

১০টন খাদ্য দিলেন দুঙ্গা
ক্রীড়া প্রতিবেদক
করোনাভাইরাসের থাবা এশিয়া, ইউরোপ, উত্তর আমেরিকা ছাড়িয়ে পৌঁছে গেছে লাতিন আমেরিকায়ও। সেখানকার দেশগুলোতেও কাতারে কাতারে মানুষের মৃত্যু ঘটছে। লাতিনের সবচেয়ে বড় দেশ ব্রাজিলে করোনা আক্রান্ত রোগির সংখ্যা ৯ হাজারের বেশি। মৃত্যু ৩৫৯ মানুষ।
পুরো ব্রাজিলই বলতে গেলে অবরুদ্ধ। এমন পরিস্থিতিতে সবচেয়ে বেশি বিপদে পড়ে গেছে দেশটির দরিদ্র জনগোষ্ঠি। তাদের খাবার নেই, মাথার ওপর ছাদ নেই। ঔষধ-পত্রের তো খোঁজই নেই। এমন পরিস্থিতিতে ব্রাজিলের করোনা দুর্গত মানুষদের পাশে এসে দাঁড়ালেন ব্রাজিলের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক এবং সাবেক কোচ কার্লোস দুঙ্গা। ১০টন খাদ্য নিয়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ালেন তিনি। লাতিন মিডিয়ায় বলছে, করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধে নামলেন দুঙ্গা। ব্রাজিলিয়ান ফুটবল জয়ী অধিনায়ক শুধু ১০টন খাদ্যদ্রব্যই নয়, ২ হাজার ডায়াপারও দিলেন করোনা দুর্গত মানুষদের জন্য।

করোনায় আক্রান্ত দিবালার বান্ধবী
ক্রীড়া প্রতিবেদক
আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড পাওলো দিবালা আর তার বান্ধবীকে করোনা যেন পেয়ে বসেছে। প্রথমে গুজব ছড়ায়, তারা দুজন ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। পরে দিবালার কাব জুভেন্টাসের প থেকে খবরটি ‘সত্য নয়’ বলে দাবি করা হয়। কিন্তু কদিন পর শোনা যায়, দিবালা আর তার বান্ধবী ওরিয়ানা সাবাতিনি সত্যি সত্যি করোনা পজিটিভ হয়েছেন। দিবালা নিজেই খবরের সত্যটা নিশ্চিত করেন।
চিকিৎসার পর তারা দুজনই সুস্থ হয়ে উঠেন। দ্বিতীয়বার পরীায় ফল নেগেটিভ আসে। কিন্তু এবার আরেক দুঃসংবাদ। যুক্তরাজ্যের সংবাদপত্র ‘দ্য সান’-এর প্রতিবেদনে প্রকাশ, সাবাতিনির ‘নেগেটিভ’ ফলটি ভুল ছিল। দিবালার বান্ধবী এখনও করোনা শরীরে বয়ে বেড়াচ্ছেন। ২৩ বছর বয়সী ওরিয়ানা নিজেই এই ভুল ‘নেগেটিভ’ টেস্ট সম্পর্ক সতর্ক করছেন মানুষকে। তার দাবি, এই ভাইরাসের গতিপ্রকৃতি কিছুই বোঝা যায় না, এখনও ভাইরাসে আক্রান্ত আছেন তিনি।

৫০ লাখ রুপি দান করলেন যুবরাজ
ক্রীড়া প্রতিবেদক
করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের বিরুদ্ধে লড়াই করছে পুরো বিশ্ব। লড়াইয়ে নেমে এরইমধ্যে ২১দিনের জন্য লকডাউন করা হয়েছে দণি এশিয়ার দেশ ভারত। দেশের এই কঠিন সময়ে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিচ্ছেন ভারতের অনেক ক্রীড়া তারকা। এবার সেই তালিকায় যোগ হলেন সাবেক ক্রিকেটার যুবরাজ সিং। পাশাপাশি ভূমিকা রাখছেন তার সাবেক সতীর্থ হরভজন সিংও।
ভারতের প্রথম সারির ক্রীড়া তারকাদের গতকাল রবিবার দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী কর্তৃক গঠিত ফান্ডে আর্থিক অনুদান দিয়েছেন যুবরাজ। ভারতীয় মুদ্রায় এই অনুদানের পরিমাণ ৫০ লাখ রুপি। সাবেক স্পিনার হরভজন সিং ও তার স্ত্রী মিলে পাঞ্চাব রাজ্যের ৫ হাজার দুস্থ মানুষের খাবারের ব্যবস্থা করেছেন।

আইপিএল নিয়ে এখনও আশাবাদী পিটারসেন
ক্রীড়া প্রতিবেদক
করোনা ভাইরাসের ভয়াবহতার কারণে পুরো ক্রীড়াঙ্গন স্থবির। মাঠের খেলা নেই আপাতত। ক্রিকেট, ফুটবল, টেনিসসহ সবধরনের আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া টুর্নামেন্ট অনির্দিষ্টকালের জন্য স্থগিত। তারই ধারাবাহিকতায় ইন্ডিয়ান প্রিময়ার লিগ (আইপিএল) স্থগিত করা হয়। ইংল্যান্ডের সাবেক ক্রিকাটার কেভিন পিটারসেন মনে করেন ক্রিকেট মৌসুমেই আইপিএল শুরু করা উচিৎ।
গত ২৯মার্চ আইপিএল মাঠে গড়ানোর কথা ছিল। তবে করোনা ভাইরাসের কারণে সেটি ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত স্থগিত রাখা হয়। কিন্তু পরিস্থিতি আরও খারাপ হওয়ায় এখন আসরটি ১৩তম সংস্করণ নিয়ে শঙ্কা তৈরি হয়েছে। পিটারসেন বলেন, ‘জুলাই-আগস্ট মাসের দিকে আইপিএল শুরু করা যেতে পারে। ‘আমার বিশ্বাস, ক্রিকেট মৌসুম দ্রুত শুরু হবে। খেলা শুরু হওয়ার অপোয় বসে আছে প্রত্যেক ক্রিকেটার।’ তবে পিটারসেনের মতে আপাতত দর্শকশূণ্য ভাবেই আইপিএল হতে পারে। তিনি বলেন, ‘আমার কাছে মনে হয় এই মুহূর্তে দর্শকদের মাঠে এসে ঝুঁকি নিয়ে খেলা দেখাটা ঠিক হবে না। তাদের এটা বোঝা উচিৎ তারা এখন মাঠে বসে খেলা দেখতে পারবে না। কিছুদিন তাদের সরাসরি খেলা দেখা থেকে দূরে থাকাটাই ভালো।

কারফিউ ভাঙায় তিন মাস গৃহবন্দি থাকবেন সার্বিয়ান ফুটবলার
ক্রীড়া প্রতিবেদক
করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে ইউরোপের অনেক দেশের মতো সার্বিয়াতেও কারফিউ জারি করা হয়েছে। কিন্তু অনেকেই এই জরুরি অবস্থাকে পাত্তা দিচ্ছেন না। এই যেমন আলেকজান্ডার প্রিজোভিচ। তবে এজন্য শাস্তিও পাচ্ছেন সার্বিয়ান ফুটবলার। কারফিউ ভাঙার অভিযোগে তাকে তিন মাসের জন্য গৃহবন্দি অবস্থায় থাকার শাস্তি দিয়েছে দেশটির আদালত।
৪এপ্রিল সার্বিয়ার রাজধানী বেলগ্রেডে এক ভিডিও ট্রায়াল শেষে সৌদি আরবের কাব আল-ইত্তিহাদের হয়ে খেলা ২৯ বছর বয়সী স্ট্রাইকারকে এই শাস্তি দেওয়া হয়। সার্বিয়ায় বর্তমানে লকডাউন চলছে। গত শুক্রবার এই লকডাউন অমান্য করে বেলগ্রেডের একটি হোটেল লবির বারে অবস্থান করছিলেন প্রিজোভিচ। সেই বার থেকে তার সঙ্গে আরও ১৯ জনকে গ্রেফতার করে দেশটির পুলিশ। প্রিজোভিচ লকডাউন অমান্য করা দ্বিতীয় সার্বিয়ান ফুটবলার। এর আগে রিয়াল মাদ্রিদের স্ট্রাইকার লুকা জোভিচের বিরুদ্ধে একই অভিযোগ আনা হয়েছিল। গত মাসে তিনি জরুরি অবস্থা ভঙ্গ করে বেলগ্রেডের একটি ক্যাফেতে বান্ধবীর জন্মদিন উদযাপন করেছেন। তার জন্যও বড় শাস্তি অপো করছে।