মাঠে ময়দানের খবর

1
Spread the love

ছিয়াশিতে শুরু করা বাংলাদেশ দলের ৩৪ বছর
ক্রীড়া প্রতিবেদক
সবকিছু স্বাভাবিক থাকলে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের এখন থাকার কথা ছিলো পাকিস্তানে। আজ বুধবার সফরের একমাত্র ওয়ানডে খেলার পর আগামী রবিবার থেকে শুরু হতো সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট ম্যাচ। তার আগে গতকাল মঙ্গলবার হতো পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের উদ্যোগে বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের জন্য থাকত বিশেষ কোনো আয়োজন।
কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে স্থগিত হয়ে গেছে বাংলাদেশের তৃতীয় দফার পাকিস্তান সফর। আর উদ্ভূত পরিস্থিতির কারণে পিসিবি দূরে থাক, খোদ বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডও পাচ্ছে না তেমন বিশেষ কিছু করার সুযোগ। ভাবছেন, কী এমন আছে আজকের তারিখে, যে বিশেষ কোনো আয়োজন থাকতে পারত বাংলাদেশ দলের জন্য। উত্তর খুব সহজ। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশ জাতীয় দলের ৩৪তম জন্মদিন। ১৯৮৬ সালের আজকের তারিখে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে পা রাখা বাংলাদেশ আজ পূরণ করেছে ৩৪ বছর। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির কারণে কোনো আয়োজন দূরে থাক, রীতিমতো ক্রিকেট থেকেই বিচ্ছিন্ন রয়েছে বাংলাদেশ দল। সবার অপো পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার, যাতে অন্তত মাঠের খেলাটা ফেরে মাঠে।
আজ থেকে ৩৪ বছর আগে এশিয়া কাপের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছিল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশ দলের যাত্রা। শ্রীলঙ্কার মোরাতুয়ায় গাজী আশরাফ হোসেন লিপুর নেতৃত্বাধীন দলের প্রতিপ ছিল পাকিস্তান. স্বাভাবিকভাবেই সে ম্যাচে ইমরান খান, ওয়াসিম আকরামদের পাকিস্তানের কাছে পাত্তাই পায়নি নবাগত বাংলাদেশ, হেরে যায় ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে। একপেশে লড়াইয়ে হার দিয়ে শুরু করা বাংলাদেশ, প্রথম জয়ের জন্য খেলেছে ২৩টি ম্যাচ। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখার পর ১২ বছরে খেলা প্রথম ২২ ম্যাচের সবকয়টিতে হারে বাংলাদেশ। অবশেষে ১৯৯৮ সালে ভারতের মাটিতে খেলা ত্রিদেশীয় সিরিজে কেনিয়াকে হারানোর মাধ্যমে শেষ হয় টাইগারদের জয়ের অপো, শুরু হয় আন্তর্জাতিক অঙ্গনে নতুন এক অধ্যায়।

ঐতিহাসিক লর্ডসে হবে করোনা হাসপাতাল
ক্রীড়া প্রতিবেদক
করোনাভাইরাসের কারণে উদ্ভূত সংকটময় পরিস্থিতি মোকাবিলায় এবার এগিয়ে এলো ইংল্যান্ডের ঐতিহাসিক লর্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ড। ক্রিকেটের মক্কাখ্যাত এই স্টেডিয়ামটিকে প্রয়োজনে ব্যবহার করা হবে করোনা হাসপাতাল হিসেবে।
প্রাণঘাতী করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন খোদ ইংল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। স্বাভাবিকভাবেই লকডাউনের মধ্যে রয়েছে পুরো যুক্তরাজ্য। এমতাবস্থায় করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এরই মধ্যে নিজেদের নাম লিখিয়ে ফেলেছে লর্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ড। মূলত লর্ডস ক্রিকেট গ্রাউন্ড এবং মেরিলিবোন ক্রিকেট কাব একসঙ্গে মিলে কাজ করে যাচ্ছে এ করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায়। এরই মধ্যে মেডিকেল স্টাফদের জন্য খুলে দেয়া হয়েছে লর্ডসের পার্কিং স্পেস এবং লন্ডনের অভুক্ত মানুষদের খাবার বিতরণ করা হচ্ছে এমসিসির প থেকে।
আনুষ্ঠানিক এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, প্রশাসন চাইলে যেকোনো কাজে ব্যবহার করতে পারবে ক্রিকেটের তীর্থস্থানখ্যাত এই মাঠটিকে। অতি জরুরি পরিস্থতি এলে হাসপাতাল বানিয়ে ফেলা হবে লর্ডসকে। তার আগপর্যন্ত লন্ডনের হাসপাতালে কাজ করা ডাক্তার-নার্সদের ব্যবহারের জন্য উন্মুক্ত করা দেয়া হয়েছে মাঠের সুবিশাল পার্কিং স্পেস।
বিজ্ঞপ্তিতে তারা লিখেছে, ‘ওয়েলিংটন, ইউনিভার্সিটি কলেজ, সেইন্ট জন এবং সেইন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের স্টাফদের জন্য আমরা এরই মধ্যে ৭৫টি পার্কিং স্পেস দিয়েছি। এছাড়া ওয়েলিংটন হাসপাতালের জন্য স্টোরেজ এরিয়াও দেয়া হয়েছে। সিটি হারভেস্ট লন্ডনে খাদ্য সরবরাহ করছে এমসিসি। যাতে করে ুধার্তদের মুখে খাবার দেয়া যায়।’

অনিশ্চিত বাংলাদেশ সফর অস্ট্রেলিয়ার
ক্রীড়া প্রতিবেদক
নিজেদের পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে বাংলাদেশ সফর করতে মুখিয়ে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল। কিন্তু করোনার ধাক্কায় জুনে অসিরা বাংলাদেশ সফর পারবেন কিনা তা এখনও চূড়ান্ত নয়। অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক টিম পেইন ধরেই নিয়েছেন, সিরিজটি পিছিয়ে যাচ্ছে।’ ফলে তাঁর পরিকল্পনায় এসেছে বাধা।
বাংলাদেশ সফর অস্ট্রেলিয়ার জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সাদা পোশাকের দুটি ম্যাচ টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অন্তর্ভূক্ত। পূর্ণ পয়েন্ট পেলে অস্ট্রেলিয়ার জন্য হতো দারুণ কিছু। কিন্তু করোনা পরিকল্পনায় বড় বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে। ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে অস্ট্রেলিয়া আছে দুই নম্বরে। ভারত আছে শীর্ষে। এ বছরের শেষদিকে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের লড়াইয়ে নামবে ভারত।

ফিটনেস ধরে রাখাই এখন মূল চ্যালেঞ্জ
ক্রীড়া প্রতিবেদক
কাবে যেমন অনুশীলনের সুযোগ-সুবিধা থাকে, স্বভাবতই বাড়িতে সেগুলো নেই। তাই ফিট থাকতে ব্যক্তিগত প্রচেষ্টাই ভরসা তপু-জীবনদের।
নারায়ণগঞ্জে বাড়ি বসুন্ধরা কিংসের তপু বর্মণের। বাসার মধ্যে ও আশপাশের জায়গায় অনুশীলন করে ফিটনেস ধরে রাখার অভিযানে এই ডিফেন্ডার, ‘কাবে আমরা যেভবে অনুশীলন করি, তা বাসায় সম্ভব নয়। তবে নিজেকে ফিট রাখার জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছি। ট্রেনিংয়ের মধ্যে আছি। সাইকিং, জগিং, বালির মধ্যে রানিং করে ফিটনেস ধরে রাখার চেষ্টা করছি।’
করোনার কারণে ঘরের বাইরে প্রয়োজন ছাড়া যাওয়া নিষেধ। তপুও যাচ্ছেন না, তবে কিছু সময়ের জন্য সতর্কতার সঙ্গে হাজারিবাগের বাসার পাশে দৌড়ের কাজটা সারছেন, ‘করোনার কারণে ঘরের বাইরে সেভাবে যাচ্ছি না। তবে যখন লোকজন থাকে না তখন শুধু রানিং করে আসি। মাস্ক পরা থাকে। সব রকমের সতর্কতা অবলম্বন করেই অনুশীলন করছি।’

থ্রোবলের অধিনায়ক ঝর্ণার খাবার বিতরণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক
করোনাভাইরাসের কারনে সবকিছু বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বিপাকে পড়েছেন দিনমজুর আর খেটে খাওয়া মানুষ। দিন আনে দিন খায়-এমন মানুষগুলো এখন এক বেলা খাবার সংগ্রহ করতেই হিমশিম খাচ্ছে। সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি পর্যায়েও চলছে অসহায় এই মানুষদের সাহায্য-সহযোগিতা। যে যেভাবে পারছেন দরিদ্র ও অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াচ্ছেন।
ক্রীড়াঙ্গনের অনেক মানুষও অসহায়দের সাহায্য সহযোগিতার জন্য এগিয়ে এসেছে। কেউ সংগঠনের মাধ্যমে, কেউ ব্যক্তিগতভাবে। এই যেমন বাংলাদেশ জাতীয় নারী থ্রো-বল দলের অধিনায়ক এবং ঝর্ণা আক্তার গতকাল মঙ্গলবার মিরপুরে ২০০ পরিবারের মধ্যে খাবার বিতরণ করেছেন।

রান মেশিনকে নিয়ে বাংলাদেশে আসতে পারে নিউজিল্যান্ড
ক্রীড়া প্রতিবেদক
নিউ জিল্যান্ডের হয়ে কনওয়েকে খেলার আনুষ্ঠানিক অনুমতি দিয়েছে আইসিসি। ২৮ বছর বয়সী বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান আগামী ২৮ অগাস্ট থেকে কিউইদের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করতে পারবেন।
কনওয়ের জন্য ব্যতিক্রমী ব্যবস্থা হিসেবে বিশেষ এক অনুমতিও দিয়েছে আইসিসি। নিউজিল্যান্ড চাইলে ২৮ অগাস্টের আগেই তাকে প্রস্তুতি ম্যাচগুলিতে খেলাতে পারে। ১২ অগাস্ট শুরু হওয়ার কথা নিউজিল্যান্ড দলের বাংলাদেশ সফর। কিউইদের ‘এ’ দলের ভারত সফর শুরু হওয়ার কথা ১৫ অগাস্ট। এই দুই সফরেই বিবেচনা করা যাবে তাকে।
১৯৯১ সালে জোহানেসবার্গে জন্ম কনওয়ের। দণি আফ্রিকার ঘরোয়া ক্রিকেটের দ্বিতীয় স্তরে নিয়মিত খেলেছেন তিনি। শীর্ষ স্তরে যতটুকু সুযোগ মিলেছে, খুব ভালো করতে পারেননি। ২০১৭ সালের সেপ্টেম্বরে পাড়ি জমান নিউজিল্যান্ডে। সেখানে ওয়েলিংটনের হয়ে খেলার সুযোগ পান দ্রুতই। দেশ বদলে ঘুরে যায় তার জীবনের মোড়ও।
অবসরের ঘোষণা দিলেন হাফিজ
ক্রীড়া প্রতিবেদক
আনুষ্ঠানিক ঘোষণা দেননি। তবে কখন অবসরে যাচ্ছেন, সেটার একটা ইঙ্গিত আগেভাগেই দিয়ে রাখলেন মোহাম্মদ হাফিজ। পাকিস্তানি অলরাউন্ডার জানালেন, অবসরের আগে এ বছরের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপটা খেলতে চান।
চলতি বছরের অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে হওয়ার কথা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। যদিও করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে এই বিশ্বকাপ নিয়েও সংশয় দেখা দিয়েছে। আইসিসির কর্মকর্তারা অবশ্য আশা ছাড়েননি। তারা বলছেন, সময়মতোই শুরু করা যাবে টুর্নামেন্ট। হাফিজ এই বিশ্বকাপের পরই অবসরে যেতে চান। সম্প্রতি গণমাধ্যমের সঙ্গে এক সাাতকারে তিনি বলেন, ‘টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসরের সিদ্ধান্ত নেব। এরপর শুধু টি-টোয়েন্টি লিগগুলোতে মনোযোগী হতে চাই।’

৯০ লাখ টাকা দিলেন রোহিত
ক্রীড়া প্রতিবেদক
করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়তে একজোট হয়েছে সারা ভারত। সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী গত ছয়দিন ধরে লকডাউনের মধ্যে রয়েছে সারাদেশ। যা চলবে আরও ১৫ দিন।
এ সময়ের মাঝে অসহায়-দুস্থদের যেন কোনো সমস্যা না হয়, তাই নিজ নিজ অবস্থান থেকে এগিয়ে আসছেন ভারতের ক্রিকেটাররা। গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় দলের তারকা ওপেনার রোহিত শর্মা প্রধানমন্ত্রীর ফান্ডে ৪৫ লাখ, মুখ্যমন্ত্রীর ফান্ডে ২৫ লাখ এবং ‘ফিডিং ইন্ডিয়া’ ও ‘ওয়েলফেয়ার অব স্ট্রে ডগস’র ফান্ডে ৫ লাখ করে সর্বমোট ৮০ লাখ রুপি দান করছেন ।

জুভেন্টাস আর রাখতে পারছে না রোনালদোকে
ক্রীড়া প্রতিবেদক
পরিস্থিতি কিভাবে বদলে যায়! ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর পারফরম্যান্সে এতটাই মুগ্ধ জুভেন্টাস, ‘বুড়ো’ রোনালদোর সঙ্গেই আগেভাগে বাড়তি চুক্তি করে রাখার কথা ভাবছিল ইতালিয়ান কাবটি।
জুভেন্টাসে রোনালদোর প্রায় দুই বছর হয়েছে। আরও দুই বছর অর্থাৎ ২০২২ সাল পর্যন্ত চুক্তি আছে পর্তুগিজ যুবরাজের। চুক্তি শেষ হতে হতে বয়স ৩৭ হয়ে যাবে। কিন্তু ৩৭ বছর হওয়ার পরও রোনালদোকে আরও দুই বছর অর্থাৎ ২০২৪ সাল পর্যন্ত ধরে রাখার কথা ভাবছিল জুভেন্টাস। দিন কয়েকের ব্যবধানে সেই ভাবনা একেবারে উল্টে গেল। না, রোনালদোর পারফরম্যান্স পড়ে যায়নি। বরং সাবেক রিয়াল তারকা জুভেন্টাসে যত ভালোই খেলেন না কেন, সম্ভবত তাকে ছেড়ে দিতেই হবে তুরিনের কাবটিকে। প্রিমিয়ার লিগের কোন দলের কাছে ৬০ মিলিয়ন পাউন্ড থেকে ৬৫ মিলিয়ন পাউন্ডে বিক্রি করে দিতে পারে পাঁচবারের ব্যালন ডি’অরজয়ী তারকাকে।

করোনা কেড়ে নিল পাকিস্তানি কিংবদন্তিকে
ক্রীড়া প্রতিবেদক
বিশ্বজুড়ে করোনার প্রাণঘাতী আচরণ চলছেই। ভয়ংকর এই ভাইরাস এবার প্রাণ কেড়ে নিল পাকিস্তানের কিংবদন্তি স্কোয়াশ খেলোয়াড় আজম খানের। শনিবার লন্ডনের একটি হাসপাতালে শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেছেন তিনি।
গত সপ্তাহে শ্বাসকষ্ট নিয়ে লন্ডনের ইলিং হাসপাতালে ভর্তি হন আজম খান। পরে পরীায় করোনা ধরা পড়ে। ভাইরাসের সঙ্গে যুদ্ধে আর পেরে উঠেননি পাকিস্তানি কিংবদন্তি। শনিবার তার মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেছে পরিবার। মৃত্যুকালে বয়স হয়েছিল ৯৫ বছর। স্কোয়াশের ইতিহাস লিখতে গেলে আজম খানের নামটি টানতেই হবে। বিশ্বের অন্যতম সেরা স্কোয়াশ খেলোয়াড় ছিলেন তিনি। ১৯৫৯ থেকে ১৯৬২ সাল পর্যন্ত স্কোয়াশে চারবার জেতেন ব্রিটিশ ওপেন।

করোনায় প্রাণ হারালেন ল্যাঙ্কাশায়ার চেয়ারম্যান হগকিস
ক্রীড়া প্রতিবেদক
বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণে মৃত্যুবরণ করেছেন ইংল্যান্ডের কাউন্টি দল ল্যাঙ্কাশায়ারের চেয়ারম্যান ডেভিড হগকিস। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭১ বছর।
প্রায় দুই যুগ কাবের বোর্ড সদস্য হিসেবে থাকার পর ২০১৭ সালে চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন হগকিস। এর আগে কাবের ট্রেজারার এবং ভাইস-চেয়ারম্যান হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন তিনি। বেশ কয়েক বছর আগেই থেকেই নানাবিধ শারীরিক সমস্যায় ভুগছিলেন হগকিস। কিছুদিন আগে শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় হাসপাতালে নেওয়ার পর পরীায় তার শরীরে করোনার উপস্থিতি পাওয়া যায়।

৩৭-এ পা রাখলেন ‘মাইটি হ্যাশ’
ক্রীড়া প্রতিবেদক
১২৪ টেস্ট, ১৮১ ওয়ানডে এবং ৪৪ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে মোট ১৮ হাজার ৬৭২ রান। দণি আফ্রিকার প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে টেস্টে ট্রিপল সেঞ্চুরি। সবচেয়ে দ্রুততম সময়ে ওয়ানডেতে ২ হাজার, ৩ হাজার, ৪ হাজার, ৫ হাজার, ৬ হাজার এবং ৭০০০ হাজার রানের রেকর্ড। এতসব কীর্তির মালিক দণি আফ্রিকার কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান হাশিম আমলার ৩৭তম জন্মদিন।
হাশিম আমলা একজন ধার্মিক মুসলিম একথা সবাই জানে। তার জন্ম এবং বেড়ে ওঠা ডারবানে এবং ডারবান হাই স্কুলে পড়ালেখা করেছেন। এই স্কুলের শিার্থী ছিলেন দণি আফ্রিকার অন্য দুই কিংবদন্তি ল্যান্স কুজনার এবং ব্যারি রিচার্ডস। ব্যাটসম্যান হিসেবে পরিচিত হলেও ক্যারিয়ারে অফ স্পিনার রূপেও দেখা গেছে তাকে। ফার্স্ট কাস ক্রিকেটে একটি উইকেটও আছে তার। ২০১২ সালে লন্ডনের ওভালে ইংল্যান্ডের বিপে ৩১১ রানের ইনিংস খেলেন তিনি, যা দণি আফ্রিকার হয়ে এখন পর্যন্ত প্রথম ও একমাত্র ট্রিপল সেঞ্চুরির ঘটনা।

করোনা নিয়ে বার্সেলোনাকে ধুয়ে দিলেন মেসিরা
ক্রীড়া প্রতিবেদক
করোনার কারণে ১০কোটি ইউরো তির মুখে পড়েছিল বার্সেলোনা। এ সমস্যা থেকে কাবকে বাঁচানোর জন্য ও কাবের অধীনস্থ কর্মীদের তির হাত থেকে রায় নিজেদের বেতনের ৭০ভাগ কম নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন কাবের মূল স্কোয়াডের সবাই।
এমন এক সিদ্ধান্ত জানানোর সময়ও কাবকে খোঁচা দিতে ভোলেননি মেসি। খেলোয়াড়দের নিয়ে সংবাদমাধ্যমে আজেবাজে গুজব রটানোর ব্যাপারে কাবকে আরও সতর্ক হতে বলে দিয়েছেন কাল। করোনার কারণে মাঠে খেলা নেই। এতে টিভি স্বত্ব ও অন্যান্য আয়ের পথ বন্ধ হয়ে গেছে। ফুটবল কাবগুলো তাই পড়েছে বেকায়দায়। কারণ, শুধু ২২জন ফুটবলার নিয়েই তো কাব চলে না। কোচ, একাডেমি, স্টাফ, স্টেডিয়াম, বিভিন্ন স্যুভেনির দোকান মিলিয়ে অধিকাংশ কাবের অধীনেই প্রায় হাজার মানুষের জীবিকা নির্ভর করে। এমন সময় এই কর্মীদের বেতন নিশ্চিত করার জন্য আগামী চার মাসের বেতন নেবেন না ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোসহ জুভেন্টাসের সব খেলোয়াড়। গতকাল মেসিও এক ইনস্টাগ্রামে জানালেন কম বেতন নেওয়ার কথা, ‘একটি ঘোষণা দেওয়ার সময় হয়েছে মনে হয়। সংকটকালে আমরা আমাদের বেতনের ৭০ ভাগ কেটে রাখার ব্যাপারে একমত হয়েছি। সঙ্গে আরও অর্থ যোগ করে নিশ্চিত করতে চাই, কাবের স্টাফরা যেন সংকট শেষ হওয়া পর্যন্ত পুরোপুরি বেতন পান।’