খুলনার ডুমুরিয়ায় পৃথক দু’সড়ক দূর্ঘটনায় নিহত ১ আহত ৮

10
Spread the love


ডুমুরিয়া প্রতিনিধি


ডুমুরিয়ায় পৃথক দু’সড়ক দূর্ঘটনায় ১জন নিহত ও ৮জন আহত হয়েছে। আহতর মধ্যে ৭জন ডুমুরিয়া ও ১জন খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। গতকাল বুধবার সকালে খুলনা সাতক্ষীরা মহাসড়কের জমার্দ্দার ফিলিং ষ্টেশন ও দুপুরে খর্ণিয়া ব্রীজের পশ্চিম পাশে পৃথক এ দূর্ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ঘটনার দিন সকাল ৭টার দিকে ডুমুরিয়া ষ্ট্যান্ড থেকে একটি মাহেন্দ্র গাড়ী ৫জন যাত্রী নিয়ে খুলনা যাওয়ার পথে ঘটনাস্থলে পৌঁছালে পিছন থেকে একটি যাত্রীবাহি বাস (ঢাকা মেট্রো-চ-৮৯৬২) সজোরে মাহেন্দ্রটিকে আঘাত করলে একাধিক পাল্টি খেয়ে দুমড়ে মুচড়ে যায়। এসময় মাহেন্দ্রে থাকা যাত্রী উপজেলার সাহস এলাকার ইসলাম শেখের ছেলে হাফেজ মাওলানা মোসলেম শেখ (৪৫) গাড়ীর নীচে চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয়দের সহায়তায় আহত মাহেন্দ্র চালক আরাজি সাজিয়াড়া এলাকার রবিউল ইসলাম (৩০),যাত্রী চিংড়া এলাকার রায়হান উদ্দিন (২৪), আরাজি ডুমুরিয়া এলাকার সেতু সরদার (২৪), মজিদ বিশ্বাস (৩৪) ও তাজিনা বেগম (৩০ কে উদ্ধার করে ডুমুরিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে তাজিনা বেগমকে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুমেক হাসপাতালে প্রেরন করা হয়। ঘটনা প্রসঙ্গে খর্ণিয়া হাইওয়ে পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ ইন্সেপেক্টর মাহমুদ আলম জানান,বাস চালক পালিয়েছে তবে ঘাতক বাসটি জব্দ করা হয়েছে।এ প্রসঙ্গে ওসি মোঃ আমিনুল ইসলাম বলেন,এ ঘটনায় কোন অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। অপরদিকে ডুমুরিয়া থেকে চুকনগর অভিমুখে বেপরোয়া গতিতে হর্ণনেট ১৬০সিসি ওয়ানটেষ্ট একটি মটর সাইকেলে আরোহী ৩ কিশোর গতকাল দুপুরে খর্ণিয়া ব্রীজের পশ্চিম পাশে পৌঁছিয়ে এক ইটভাটা শ্রমিককে সজোরে আঘাত করে। প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা যায়,ইটভাটা শ্রমিক ইউনুস আলী (২৩) রাস্তা পারাপারের সময় দ্রুতগামী ওই গাড়ীটি তাকে আঘাত করে গাড়ীটি নিয়ন্ত্রন হারিয়ে পড়ে যায়। এতে আঘাতপ্রাপ্ত হয়ে চুকনগর এলাকার মিজানুর রহমানের ছেলে এসএসসি পরীক্ষার্থী চালক সাকিব বিন মিজান (২০), আরোহী কিশোর ফয়সাল কবির (১৯) ও ভাটা শ্রমিক ইউনুস আলী গুরুতর আহত হয়। পরে ফায়ার সার্ভিস তাদেরকে উদ্ধার করে ডুমুরিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।