বাগেরহাট-৪ সহ তিন সংসদীয় আসনের উপনির্বাচনের প্রচারণা শুরু রবিবার থেকে

8
Spread the love

খুলনাঞ্চল রিপোর্ট

সংসদ সদস্যদের পদত্যাগসহ মৃত্যুজনিত কারণে শূন্য হয়েছে পাঁচটি সংসদীয় আসন। ওই পাঁচটির মধ্যে তিনটি আসনের উপনির্বাচনের প্রচারণা শুরু হচ্ছে আজ রোববার। এদিন প্রতীক বরাদ্দ পাওয়ার পর নির্বাচনী কাজ শুরু করবেন প্রার্থীরা। ঢাকা-১০, গাইবান্ধা-৩ ও বাগেরহাট-৪ আসনে আগামী ২১ মার্চ উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। ঢাকা-১০ আসনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করলেও অন্য দুই সংসদীয় আসনে পুরনো পদ্ধতি ব্যালটে ভোটগ্রহণ হবে।

পাঁচটি শূন্য আসনের মধ্যে ঢাকা-১০ থেকে ব্যারিস্টার শেখ ফজলে নূর তাপস মেয়র পদে নির্বাচন করতে গত ২৯ ডিসেম্বর সংসদ সদস্য পদ থেকে পদত্যাগ করেন। গত ২৭ ডিসেম্বর গাইবান্ধা-৩ আসনের সংসদ সদস্য মো. ইউনূস আলী, ১০ জানুয়ারি বাগেরহাট-৪ আসনের সংসদ সদস্য ডা. মোজাম্মেল হোসেন মারা গেলে তাদের মূত্যুতে আসনগুলো শূন্য ঘোষণা করা হয়। এ তিনটি আসনের উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করা হয়েছে।

এছাড়া গত ১৮ জানুয়ারি বগুড়া-১ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল মান্নান এবং গত ২১ জানুয়ারি যশোর-৬ অসনের সংসদ সদস্য ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী ইসমাত আরা সাদেক মারা যান। তাদের মূত্যুতে আসনগুলো শূন্য হয়। এ দুটি আসনে পরে তফসিল ঘোষণা করা হবে।

ঢাকা-১০ আসনের উপনির্বাচনে যেখানে–সেখানে পোস্টার ঝুলাতে পারবেন না প্রার্থীরা। নির্বাচন কমিশনের (ইসি) নির্ধারণ করে দেয়া ২১টি জায়গায় পোস্টার ঝোলানো যাবে। পলিথিনে মোড়ানো (লেমিনেটেড) পোস্টার টানানো যাবে না। মাইকিং করা যাবে নির্বাচনী ক্যাম্প ও নির্দিষ্ট জায়গায়। নির্বাচনী প্রচারকেন্দ্রিক দুর্ভোগ ও দূষণ কমাতে এ আসনের প্রার্থীদের সঙ্গে এসব বিষয়ে ইসির সমঝোতা হয়েছে। মতবিনিময় শেষে ঢাকা-১০ আসনের প্রার্থীদের সঙ্গে ইসির সমঝোতা স্মারক সই হয়।