আর ৩২ দিন

17
Spread the love

  • স্টাফ রিপোর্টার

ক্ষণগণনা চলেছে। বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মদিনের জন্য আর মোটে ৩২ দিনের অপেক্ষা। এরই মাঝে আগামী ১৭ মার্চ থেকে পরের বছরের ১৭ মার্চ পর্যন্ত সময়কে মুজিববর্ষ হিসেবে ঘোষণা করেছে সরকার। তারও অনেক আগে থেকে আসতে শুরু করেছে আনন্দের খবর। শুধু আনন্দ নয়, রবিবার মহা আনন্দের উপলক্ষ এনে দিয়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেট। এদিন অনুর্ধ ১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালে গৌরবের জয় পেয়েছে যুব ক্রিকেট দল। ভারতকে ৩ উইকেটে হারিয়ে প্রথমবারের মতো কোন বিশ্বকাপ জয়ের স্বাদ পায় বাংলাদেশ। এত বড় অর্জনে গোটা জাতি উদ্বেলিত। এ জয়কে তারা মুজিববর্ষের উপহার হিসেবে গ্রহণ করেছে। দলটি গঠনে সবচেয়ে বড় অবদান যার সেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নিজেও একে মুজিববর্ষের শ্রেষ্ঠ উপহার হিসেবে ঘোষণা করেছেন। ক্রিকেটারদের প্রশংসা করে তাদের গণসংবর্ধনা দেয়া হবে বলেও জানিয়েছেন তিনি। পাশাপাশি বিশ্বকাপজয়ী দলের অধিনায়ক আকবর আলীর বাবা একই মন্তব্য করে বলেছেন, মুজিববর্ষে এমন জয় অনেক বড় পাওয়া। ক্রিকেটাররাও অমূল্য উপহার দিতে পেরে গৌরব বোধ করছেন। দক্ষিণ আফ্রিকায় ট্রফি জেতার পর থেকেই বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের জন্য অপেক্ষা করছিল গোটা দেশ। বুধবার প্রতিক্ষার অবসান ঘটে। এদিন বিকেল ৫টার কিছু আগে অনুর্ধ ১৯ দলের ক্রিকেটাররা ঢাকায় এসে পৌঁছেন। অতরণের সময় তাদের বহনকারী বিমানটিকে ওয়াটার স্যালুট দেয়া হয়। পরে আকবর আলী, তৌহিদ হৃদয়দের ফুলের মালা দিয়ে বরণ করে নেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল ও বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নাজমুল হাসান। এ সময় ক্রীড়া মন্ত্রণালয় ও বিসিবির উর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। বিমানবন্দরে তাদের সঙ্গে নিয়ে কেক কাটেন বিসিবি সভাপতি। সেখান থেকে ক্রিকেটারদের নিয়ে যাওয়া হয় মিরপুরের বিসিবি কার্যালয়ে। নানা আনুষ্ঠানিকতা শেষে রাতে ক্রিকেটাররা যার যার বাড়ি ফিরে যান। মুজিববর্ষে এমন আরও ইতিবাচক অর্জন আসুক। আসতে থাকুক। সবার তা-ই প্রত্যাশা।

এদিকে, বুধবার জাতীয় সংসদের শপথ কক্ষে ‘মুজিববর্ষ ২০২০-২০২১’ উদ্যাপন অনুষ্ঠানমালা অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় জাতীয় সংসদের ¯ঈকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী যথাযোগ্য মর্যাদায় উদ্যাপন করার লক্ষ্যে জাতীয় সংসদের পক্ষ থেকে বর্ষব্যাপী কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। জাতীয় সংসদ ১৯ মার্চ দক্ষিণ প্লাজায় শিশুমেলা আয়োজনের মধ্য দিয়ে মুজিববর্ষ কার্যক্রম শুরু করবে। শিশুমেলায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রধান অতিথি থেকে জাতীয় সংসদ আয়োজিত বর্ষব্যাপী মুজিববর্ষের অনুষ্ঠানমালার শুভ উদ্বোধন করবেন। এ সময় মুজিববর্ষ উপলক্ষে জাতীয় সংসদের ওয়েবসাইটও উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী। উদ্বোধন অনুষ্ঠানটি বিকেল সাড়ে ৪টায় শুরু হয়ে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা পর্যন্ত চলবে।

একই দিন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকীতে আওয়ামী লীগকে আগাছা, পরগাছা মুক্ত করা হবে। কোন হাইব্রিড, বসন্তের কোকিলরা আওয়ামী লীগের নেতা হতে পারবে না। আওয়ামী লীগের দুর্দিনের ত্যাগীরাই নেতা হবেন। বুধবার গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ায় উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ওবায়দুল কাদের এসব কথা বলেন। এভাবে নানা আয়োজনে- আলোচনায় ঘুরে-ফিরে আসছে মুজিববর্ষ।