দায়িত্বশীলরা এগিয়ে আসলে নারীর প্রতি সহিংসতা কমবে: সিটি মেয়র

3
Spread the love

তথ্য বিবরণী

খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন, সমাজের যাঁরা বিভিন্ন পদের দায়িত্বে আছেন, তাঁরা যদি তাঁদের দায়িত্বটুকু সঠিকভাবে পালন করেন তাহলে নারীর প্রতি সহিংসতাসহ অন্যান্য সামাজিক ব্যাধিগুলো কমবে। সিটি মেয়র বুধবার দুপুরে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের শহিদ আলতাফ মিলনায়তনে ‘নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে সামাজিক সংগঠনসমূহকে উদ্বুদ্ধকরণ’ প্রকল্পের অবহিতকরণ সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন। সিটি মেয়র আরও বলেন, সরকার ইমাম প্রশিক্ষণ একাডেমির মাধ্যমে ইমামদের শিশু ও নারী নির্যাতন প্রতিরোধসহ দশটি সামাজিক বিষয়ে প্রশিক্ষণ দিয়ে যাচ্ছে। ইমামতির পাশাপাশি বিভিন্ন সামাজিক ইস্যু নিয়ে সচেতনতামূলক কার্যক্রম পরিচালনার জন্য তিনি ইমামাদের প্রতি আহ্বান জানান। বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা রূপান্তর, আভাস ও রাইটস যশোর যৌথভাবে এই অবহিতকরণ সভার আয়োজন করে। সভায় জানানো হয়, এই প্রকল্প খুলনা, যশোর, পিরোজপুর ও বরিশাল জেলায় নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধে নারী ও শিশুদের শারীরিক, যৌন, মানসিক এবং অন্যান্য নির্যাতন এবং বৈষম্য থেকে রক্ষা ও বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে সামাজিক সংগঠনগুলো কার্যকর ভূমিকা রাখবে। দেশের বিদ্যমান আইন ও নীতিমালায় কোন সীমাবদ্ধতা থাকলে তা খুঁজে বের করা এবং নাগরিকদের পরামর্শ নিয়ে নীতিনির্ধারকদের সাথে জেলা পর্যায়ে অ্যাডভোকেসির আয়োজন করাও এই প্রকল্পের অন্যতম উদ্দেশ্য। দুই বছর মেয়াদী এই প্রকল্পটি টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রার পাঁচ নম্বর গোল অর্জনে ভূমিকা রাখবে বলে সভায় জানানো হয়। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে পাঁচ লাখ আট হাজার ৪৫৬ জন নারী ও শিশু উপকৃত হবেন। প্রকল্পটির ব্যয় ধরা হয়েছে এক কোটি ৬৭ লাখ ৮৭ হাজার টাকা। প্রকল্পের কর্মসূচির মধ্যে উপজেলা পর্যায়ে প্লাটফর্ম তৈরি এবং জেলা পর্যায়ে নারী ব্রিগেড গঠনসহ দক্ষতা অর্জনে প্রশিক্ষণ, অ্যাডভোকেসি সভা, পরামর্শ সভা, সিম্পোজিয়াম আয়োজনসহ বিভিন্ন প্রকার প্রচার ও প্রকাশনার উদ্যোগ নেয়া হবে।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা পলাশ কান্তি বালা,  মহিলা ও শিশু বিষয়ক অধিদপ্তরের উপপরিচালক নার্গিস ফাতেমা জামিন, ইউএসএইডের প্রতিনিধি সুমনা বিনতে মাসুদ, কাউন্টারপার্ট ইন্টারন্যাশনালের চিফ অফ পার্টি ক্যালি জে জোনস ও ইউনিসেফের খুলনার চিফ অফ ফিল্ড ডা. নাজমুল হাসান। এতে সভাপতিত্ব করেন রূপান্তরের নির্বাহী পরিচালক স্বপন কুমার গুহ। স্বাগত জানান রূপান্তরের নির্বাহী পরিচালক রফিকুল ইসলাম খোকন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন অধ্যাপক আনোয়ারুল কাদির। সভায় সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, সুশীল সমাজের প্রতিনিধি, দাতা সংস্থার প্রতিনিধিসহ গণমাধ্যমকর্মীরা অংশ নেন।