সকল আঞ্চলিক সংবাদ

0
35

ঈদের ৫ দিন আগে চালু হবে খুলনা রুটের স্পেশাল ট্রেন
স্টাফ রিপোর্টার
আসন্ন ঈদুল ফিতর উপলক্ষে খুলনা-ঢাকা রুটে একটি স্পেশাল ট্রেন চলাচল করবে। ঈদের ৫ দিন আগে চালু হয়ে ৭ দিন পর চলাচল বন্ধ হবে এ ট্রেনের। তবে ঈদের অগ্রিম টিকিটের অর্ধেক মোবাইল অ্যাপে পাওয়া গেলেও বিশেষ ট্রেনের সকল টিকিট কাউন্টার থেকেই পাবে যাত্রীরা।
রেলপথমন্ত্রী গত বুধবার রেল ভবনে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে নূরুল ইসলাম সুজন বলেছিলেন, ঈদুল ফিতর উপলক্ষে আট জোড়া বিশেষ ট্রেন দেশের বিভিন্ন রুটে চলাচল করবে। খুলনা-ঢাকা রুটে খুলনা ঈদ স্পেশাল নামে চলাচল করবে একটি ট্রেন। ঈদের পাঁচ দিন আগে থেকে ঈদের সাত দিন পর পর্যন্ত এই ট্রেন চলবে।
ঈদুল ফিতর উপলক্ষে বাংলাদেশ রেলওয়ে ২২ মে থেকে অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু করবে এবং তা চলবে ২৬ মে পর্যন্ত। আর ফিরতি টিকিট পাওয়া যাবে ২৯ মে থেকে ২ জুন পর্যন্ত। সে হিসেবে খুলনা রেল স্টেশনের কাউন্টার থেকে ৩১ মে যাত্রার টিকিট পাওয়া যাবে ২২ মে। একই সঙ্গে ১, ২, ৩ ও ৪ জুনের টিকিট বিক্রি করা হবে যথাক্রমে ২৩, ২৪, ২৫ ও ২৬ মে।
ঈদ শেষে ফেরার জন্য ৭, ৮, ৯, ১০ ও ১১ জুনের টিকিট যথাক্রমে ২৯,৩০ ও ৩১ মে এবং ১ ও ২ জুন মিলবে। কাউন্টার থেকে একজন ব্যক্তি বা যাত্রী সর্বোচ্চ চারটি টিকিট কিনতে পারবেন। থাকবে পৃথক নারী কাউন্টারও। ঈদের সময় ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক রাখতে যাত্রীবাহী ট্রেন ছাড়া ঈদের তিন দিন আগে থেকে কনটেইনার ও জ্বালানি তেলবাহী ট্রেন ছাড়া অন্য কোনো পণ্যবাহী ট্রেন চলাচল করবে না। ঈদ উপলক্ষে বিশেষ ট্রেন চলাচলের দিন থেকে ঈদের আগের দিন পর্যন্ত আন্তঃনগর ট্রেনগুলোর সাপ্তাহিক বন্ধ থাকবে না।
ঢাকায় বসবাসকারী খুলনায় কর্মরত ব্যাংক কর্মকর্তা সুমন কুমার বিশ্বাস বলেন, ট্রেনের সেবা আগের থেকে ভাল হয়েছে। এবার কিছুটা হলেও যাত্রাপথে ভোগান্তি কমবে।
ঈদের সময় ঢাকায় আসবেন রওশান আরা বেগম নামের এক স্কুল শিক্ষিকা। তিনি বলেন, যাত্রীদের সুবিধার কথা ভেবে ঈদের আগে-পরে চলাচলের জন্য খুলনা স্পেশাল ট্রেন দিয়েছে। এ সুবিধা পেয়ে যাত্রীরা কিছুটা হলেও স্বস্তিতে আসা-যাওয়া করতে পারবে। খুলনা রেল স্টেশনের মাস্টার মানিক চন্দ্র সরকার বলেন, যাত্রীরা ৫০ শতাংশ টিকিট অনলাইনে এবং বাকি টিকিট স্টেশন কাউন্টার থেকে অগ্রিম ক্রয় করতে পারবেন। এছাড়া মোবাইল অ্যাপের কোনো টিকিট বিক্রি বাদ থাকলে সেগুলো কাউন্টার থেকে বিক্রি করা হবে। তবে বিশেষ ট্রেনের কোনো টিকিট মোবাইল অ্যাপে পাওয়া যাবে না।

মোংলার রাব্বি ক্লিনিকের ভূয়া ডাক্তারের বিচার দাবি
স্টাফ রিপোর্টার
মোংলার রাব্বি এন্ড ডায়গনস্টিক সেন্টারের ডাক্তার এনামুল হকের গ্রেফতার ও বিচার দাবি করেন মোংলার মোর্শেদ সড়কের সুলতান হাওলাদারের পুত্র মো. রাজু। এখানে মেডিকেল সনদ ছাড়াই ভুয়া ডাক্তার এনামুল হকের ত্রæটিপূর্ণ সিজারে প্রসূতি ও নবজাতকের জীবন বিপন্ন ঘটে। তিনি গতকাল সোমবার দুপুর ১২টায় খুলনা প্রেসক্লাবের সাহাবুদ্দিন আহমেদ মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করেন।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত ১৩ ফেব্রæয়ারি সকাল ১০টায় মোংলার মাদরাসা রোডের রাব্বি ক্লিনিক এন্ড ডায়গনস্টিক সেন্ট্রারে তার অন্ত:সত্ত¡া স্ত্রী সালমা বেগমকে নিয়ে গেলে কোন ডাক্তারকে পাওয়া যায়নি। সারাদিন যন্ত্রনায় কাতরাতে থাকে। সারাদিন পর সন্ধ্যায় ডাক্তার এসে অপারেশন করে। একটি কন্যা জন্ম হয়। ১৭হাজার টাকা বিল পরিশোধ করে মা ও মেয়েকে নিয়ে বাড়ি যাই। ১৯ ফেব্রæয়ারি ক্ষত স্থানে প্রচন্ড ব্যাথ্যা। পুনরায় ডাক্তার দেখানো হয়।প্রসাবের সাথে মল বেরিয়ে আসে। ভুল চিকিৎসায় পায়খান ও প্রসাবের নালী ছিদ্র করে ফেলছে। স্ত্রীকে চিকিৎসা করাতে গিয়ে ককেবারে নিস্ব হয়ে গেছে। আল্ট্রাসানো করলে তার প্লেটে ২০১৭ সালের ১১মে আর রিপোর্ট দিয়েছে ২০১৮ সালের ১১মে। এই ডাক্তার নামের কলঙ্ক। সিজারের সময় ব্যবহৃত যন্ত্রাংশ পেটের ভিতর রেখে সেলাই করে দেয়। বর্তমানে আমার স্ত্রী সালমা খুলনা ডক্টরস পয়েন্টে ভর্তি রয়েছে। তিনি ডাক্তার এলামুল হকের বিচার দাবি করেন।

খুলনায় ধান চাল সংগ্রহ অভিযান আজ শুরু
কৃষকদের কাছ থেকে সরাসরি ধান কেনার প্রতিশ্রæতি খাদ্য দপ্তরের

স্টাফ রিপোর্টার
কৃষকদের কাছ থেকে সরকারি ধান ক্রয়ের লক্ষ নিয়ে খুলনায় আনুষ্ঠানিকভাবে আজ মঙ্গলবার ধান সংগ্রহ অভিযান শুরু হচ্ছে। আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত মহানগরীসহ জেলার ৯টি উপজেলায় এক হাজার ৯১৩ মেট্রিক টন ধান সংগ্রহ করা হবে। একই সাথে মিলারদের কাছে থেকে সাড়ে ১৭ হাজার মেট্রিক টন চালও সংগ্রহ করা হবে। খাদ্য দপ্তর বলেছে, ক্ষতি লাঘবে প্রকৃত কৃষকদের কাছ থেকে ধান সংগ্রহ করে, তাদের ব্যাংক একাউন্টে অর্থ পরিশোধ করা হবে।
জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রণ দপ্তরের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, খুলনা মহানগরীসহ ৮টি উপজেলায় এক হাজার ৯১৩ মেট্রিক টন ধান, ১৬ হাজার ৩৪৩ মেট্রিক টন সিদ্ধ চাল ও ১ হাজার ৪২৭ মেট্রিক টন আতপ চাল সংগ্রহ করা হবে। আগামী ৩১ আগস্ট পর্যন্ত লক্ষমাত্রা পূরণ না হলে এই কার্যক্রম চলবে। সবচেয়ে বেশী ধান সংগ্রহ করা হবে জেলার কৃষি রাজধানীখ্যাত ডুমুরিয়া উপজেলায়। এখানে ধান সংগ্রহ করা হবে ৬৯ মেট্রিক টন। এছাড়া ২ হাজার ১৮৮ মেট্রিক টন সিদ্ধ ও ৩০৪ মেট্রিক টন আতপ চালও সংগ্রহ করা হবে উপজেলাটি থেকে। এছাড়া দাকোপ উপজেলা থেকে ৬০ মেট্রিক টন সিদ্ধ চাল ও ৪ মেট্রিক টন ধান, পাইকগাছায় ১৪৪ মেট্রিক টন ধান, ৪২ মেট্রিক টন সিদ্ধ ও ১৩২ মেট্রিক টন আতপ, তেরখাদায় ২৬০ মেট্রিক টন ধান ও ৫৮১ মেট্রিক টন সিদ্ধ চাল, বটিয়াঘাটায় ১৪৫ মেট্রিক টন ধান, ১ হাজার ২৪২ মেট্রিক টন সিদ্ধ ও ১৮৪ মেট্রিক টন আতপ, ফুলতলায় ১৩ মেট্রিক টন ধান, ৪ হাজার ৬৪০ মেট্রিক টন সিদ্ধ ও ৭৩ মেট্রিক টন আতপ, কয়রায় ১৪৭ মেট্রিক টন ধান, ৩২৬ মেট্রিক টন সিদ্ধ ও ১১৪ মেট্রিক টন আতপ, রূপসায় ২০১ মেট্রিক টন ধান, ২ হাজার ৫০১ মেট্রিক সিদ্ধ ও ৫৩৪ মেট্রিক টন আতপ এবং দিঘলিয়া উপজেলায় ১৬০ মেট্রিক টন ধান ও ৩৬৪ মেট্রিক টন সিদ্ধ চাল সংগ্রহ করা হবে। মহানগরীতে সিদ্ধ চাল সংগ্রহের লক্ষমাত্রা রাখা হয়েছে ৪ হাজার ১৫ মেট্রিক টন, আতপ ৮৬ মেট্রিক টন। এখানে ধান সংগ্রহ করা হবে ২৯ মেট্রিক টন।
ডুমুরিয়ার ধানচাষী জাহাঙ্গীর আলম বলেন, কৃষকের কাছ থেকে সরাসরি ধান ক্রয়ের সিদ্ধান্তে কৃষক লাভবান হবেন। কিন্তু এক শ্রেণির কর্মকর্তারা অনেক সময় ভুয়া তালিকার মাধ্যমে সিন্ডিকেট করে; এ বিষয়গুলোতোও নজর দিতে হবে।
জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মুহাম্মদ তানভীর রহমান বলেন, ‘প্রকৃত কৃষকরা যাতে ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, এ কারণে এবার সরাসরি তাদের কাছ থেকে ধান সংগ্রহ করা হবে। এ জন্য উপজেলা কৃষি বিভাগ প্রকৃত কৃষকের তালিকা করেছে। কৃষকরা সরাসরি গোডাউনে গিয়ে ধান বিক্রি করতে পারবেন। এ ক্ষেত্রে তাদের পরিচয় পত্র, ব্যাংক হিসাব থাকতে হবে।’
তিনি আরও বলেন, ‘কৃষকদের ধান বিক্রিতে সিন্ডিকেট বা মধ্যসত্ত¡ভোগীদের কোন সুযোগ থাকবে না। এজন্য আমরা সরাসরি তাদের ব্যাংক একাউন্টে ধানের মূল্য পরিশোধ করবো। পাশাপাশি তালিকাভুক্ত মিলারদের কাছ থেকে চাল সংগ্রহ চলবে।’

শরণখোলায় জলকপাট বন্ধে পানি শূন্য খাল-বিল
‘সমস্যা সমাধানে উদ্দ্যোগ নেই, সংকটে কৃষি সহ দৈনন্দিন কাজ কর্ম’
মোঃ আনোয়ার হোসেন, শরণখোলা
বাগেরহাটের শরণখোলায় পানির সংকট চরমে। এ সংকট নিরশনে নির্মিত হয়েছে বলেশ্বর ও ভোলা নদীর বেরিবাঁধে ¯øুইজগেট। কিন্তু পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্মিত অধিকাংশ ¯øুইজগেটগুলো বন্ধ। যে কারণে কৃষিসহ দৈনন্দিন কাজ কর্ম ব্যাহত হচ্ছে শরণখোলাবাসীর। দীর্ঘদিন ধরে উপজেলা জুড়ে এমন অবস্থা বিরাজ করলেও সমস্যা সমাধানে তেমন কোন উদ্যোগ গ্রহণ করছে না সংশ্লিষ্টরা।
খোঁজ নিয়ে জানাগেছে, বঙ্গোপসাগর ও সুন্দরবনের কোল ঘেষে অবস্থিত দেশের সর্বদক্ষিণের উপজেলা শরণখোলার অবস্থান। এ উপজেলার চর্তুরদিক থেকে বেষ্টিত ৩৫/১ পোল্ডারের বেড়িবাঁধের বিভিন্ন স্থানে ১৯৮৪ সালে ছোট বড় মিলিয়ে প্রায় ৩০টি ¯øুইজগেট (জলকপাট) নির্মাণ করেন পানি উন্নয়ন বোর্ড। ওই সকল গেইটের মাধ্যমে পানি নিয়ন্ত্রণ করে এ অঞ্চলের জনসাধারণ কৃষি কাজের পাশাপাশি তাদের দৈনন্দিন কাজ কর্মে পানির চাহিদা মিটিয়ে আসছেন। কিন্তু সময়ের ব্যবধানে ধীরে ধীরে অধিকাংশ গেইট অকেজো হয়ে পড়ে। পাশাপাশি উত্তাল ভোলা নদী ভরাট হয়ে যাওয়ায় সেখানে বসতি গড়ে তোলেন স্থানীয়রা। এছাড়া উপজেলার বিভিন্ন রেকর্ডীয় খাল, বিল, নালা, ডোবা দখলদারদের কবলে চলে যাওয়ায় পানির অভাবে এ অঞ্চলের কৃষকদের নিঃশ্বাস বন্ধের উপক্রম হয়ে উঠে। অন্যদিকে সচল থাকা ২/৪টি ¯øুইজগেট থেকে পানি নিস্কাশন হলেও শুষ্ক মৌসুমে খালের মাথা পর্যন্ত তা পৌঁছায় না। এছাড়া পাউবোসহ স্থানীয় জন প্রতিনিধি ও কৃষি বিভাগের তদারকির অভাবে পানির সংকট দিন দিন বাড়তে থাকে। অপরদিকে, ২০১৬ সালে বিশ্ব ব্যাংকের অর্থায়নে ৩৫/১ পোল্ডারে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের কাজ শুরু করেন চায়নার একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। যার ফলে পুরানো গেইটগুলো নতুন করে নির্মাণ শুরু করলে পানি শূন্যতা আরও বৃদ্ধি পায়।
পানি সংকটের বিষয়ে উপাজেলার রাজৈর এলাকার বাসিন্দা কৃষক দুলু তালুকদার বলেন, বেড়িবাঁধের কাজ দীর্ঘ ৩ বছর চলমান থাকায় গেইটগুলো বন্ধ। তাই নদী হতে খালগুলোতে জোয়ারের পানি প্রবেশ করতে পারছে না। তাই পানির অভাবে চাষাবাদ ও কৃষি কাজের পাশাপাশি দৈনন্দিন গৃহস্থালীর কাজ করতে এলাকার মানুষ চরম ভোগান্তীর শিকার হচ্ছে। কিন্তু সংশ্লিষ্টদের এ ব্যাপারে কোন ভূমিকা দেখা যাচ্ছে না। এছাড়া খাল-বিল, ডোবা, নালা ও জলাশয়গুলোতে পানি না থাকায় গত কয়েক বছর ধরে সামান্য কিছু সবজি চাষাবাদ করলেও তার আশানুরূপ ফলন পাওয়া যায়নি। এ অবস্থা দীর্ঘ দিন চলমান থাকলে উপজেলার কৃষি ব্যবস্থা বিপর্যের মুখে পড়ার আশংকা রয়েছে বলে তিনি মন্তব্য করেন।
এ ব্যাপারে বেড়িবাঁধ নির্মাণ প্রকল্পের বাংলাদেশের পক্ষে তদারকির দায়িত্বে থাকা প্রকৌশলী শ্যামল কুমার দত্ত জানান, পুরানো ¯øুইজগেটগুলো নতুন করে নির্মাণের কাজ প্রায় শেষ। আশা করা হচ্ছে শীঘ্রই ওই গেইটগুলো উন্মুক্ত করে দেয়া সম্ভব হবে।
তবে পাানি সংকটের কথা স্বীকার করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিংকন বিশ্বাস ও উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সৌমিত্র সরকার জানান, টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের জন্য কিছু ¯øুইজগেট বন্ধ করতে হয়েছে। তাই উপজেলা জুড়ে পানির অভাব রয়েছে। সংশ্লিষ্টদের সাথে আলোচনা সাপেক্ষে শীঘ্রই এ সমস্যা সমাধানে উদ্যোগ নেয়া হবে।

বাগেরহাটে মিথ্যা মামলায় কলেজ ছাত্রকে দেড় বছর আটক রাখার অভিযোগ!
বাগেরহাট প্রতিনিধি
বাগেরহাটর মোল্লাহাটে মিথ্যা মামলা দিয়ে আঃ রহিম মোল্লা নামের এক কলেজ ছাত্রকে দেড় বছর কারাগারে আটক রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন ওই ছাত্রের পিতা। প্রতিপক্ষরা তাদের জব্দ করতে একটি কাল্পনিক মামলা দিয়ে তাকে আটক রেখেছে বলে গতকাল বাগেরহাট প্রেসক্লাবে এসে সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করেন ওই ছাত্রের পিতা মোল্লাহাট উপজেলার বড়গাওলা গ্রামের মহসিন মোল্লা।
তিনি অভিযোগ করে বলেন, বংশগত শত্রæতার জের ধরে একই গ্রামের এক তরুণীকে দিয়ে তার ছেলে মোল্লাহাট খলিলুর রহমান ডিগ্রি কলেজের ¯œাতক প্রথম বর্ষের ছাত্র আঃ রহিম মোল্লার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন এবং পর্ণোগ্রাফি আইনে একটি মামলা দায়ের করানো হয়। ওই মামলায় ২০১৭ সালের ৭ সেপ্টেম্বর থেকে সে জেল হাজতে রয়েছে।
তিনি আরো অভিযোগ করে বলেন, ২০১৭ সালের ৬ সেপ্টেম্বর মামলা দায়েরের সময় মেয়েটির বয়ষ উল্লেখ করেছিল ১৫ বছর। সেই হিসেবে এখন তার বয়ষ সাড়ে ১৬ বছর হওয়ার কথা। কিন্ত গত এপ্রিল মাসের শেষের দিকে ওই মেয়েটির সাথে একই গ্রামের দুই সন্তানের জনক সোহাগ ফকিরের বিয়ে হয়।
তিনি বলেন, মামলার স্বাক্ষিদের সাক্ষ্যর সাথে বাদীর অভিযোগেরও তেমন মিল নেই। এই মামলা থেকে তার নির্দোষ ছেলেকে মুক্তি দেয়ার জন্য তিনি সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবান জানান।

ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন খালিশপুর থানা শাখার জরুরী সভা
খবর বিজ্ঞপ্তি
ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন খালিশপুর থানা শাখার এক জরুরী মাওলানা মোঃ হাফিজুর রহমান এর সভাপতিত্বে থানা কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন খুলনা মহানগর এর সিনিয়র সহ সভাপতি এস এম আবুল কালাম আজাদ। সভায় আগামীকাল মঙ্গলবার খালিশপুর ক্রিসেন্ট গেইটে পাটকল শ্রমিকদের ৯ দফা দাবির পক্ষে মানববন্ধন সফল করার জন্য প্রধান অতিথি দিক নির্দেশনা দেন ।
জরুরী সভায় উপস্থিত ছিলেন খালিশপুর থানা শাখার সেক্রেটারী মোঃ মোস্তফা হাওলাদার, জি,এম, কিবরিয়া, হাফেজ শামসুল আলম, মনির হোসেন, আব্দুল জব্বার, আব্দুল হক, মোঃ খোকন, জামাল হোসেন সহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ ।

বিশ্ব মেট্রোলজি দিবস উপলক্ষে খুলনায় আলোচনা সভা
তথ্য বিবরণী
১৬তম বিশ্ব মেট্রোলজি দিবস উপলক্ষে খুলনা খালিশপুরস্থ বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইনস্টিটিউশন (বিএসটিআই) এর সম্মেলনকক্ষে গতকাল সোমবার বিকেলে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মোহাম্মদ আরিফুল ইসলাম এতে প্রধান অতিথি ছিলেন।
দিবসটির এ বারের প্রতিপাদ্য ‘আন্তর্জাতিক পদ্ধতির একক মৌলিকভাবে উত্তম’।
খুলনা বিএসটিআই’র পরিচালক মোঃ আব্দুল মান্নানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তৃতা করেন খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেমিস্ট্রি ডিসিপ্লিনের প্রফেসর মোঃ রেজাউল হক এবং খুলনা ক্যাবের সভাপতি এ্যাডভোকেট মোঃ এনায়েত আলি। ধন্যবাদ জানান খুলনা বিএসটিআইএর উপপরিচালক (মেট্রোলজি) মোঃ আব্দুল বারী। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন জেলা বেকারি মালিক সমিতির সভাপতি মোঃ শামসুল আলম।
বক্তারা বলেন, সরকার ভেজালের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স ঘোষণা করেছে। প্রথমে নিজেকে সংশোধন হতে হবে। ব্যবসায়ীদের সততার সাথে ব্যবসা করতে হবে। সকল পণ্যের গুণগত মান নিশ্চিত করা জরুরি। সঠিক মান বজায় রেখে প্রতিটি পণ্য উৎপাদন করতে হবে। ভোক্তারা যাতে প্রতারণা ও ভোগান্তির শিকার না হয় সে দিকে নজর দিতে হবে। তাঁরা আরও বলেন, মানুষের জীবনে ওজন ও পরিমাপের গুরুত্ব অপরিসীম। ওজন, পরিমাপ, কারচুপি ও ভেজাল প্রতিরোধ সবাইকে এগিয়ে আসতে হবে। এজন্য যার যার অবস্থান থেকে সঠিকভাবে দায়িত্ব পালন করা জরুরি।
বাংলাদেশসহ বিশ্বের ৮০টিরও বেশি দেশ একযোগে দিবসটি উদযাপন করবে। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের শিল্প মন্ত্রণালয়ের অধীন বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশন (বিএসটিআই) দেশব্যাপী দিবসটি যথাযথভাবে পালনের জন্য ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। এছাড়া বিএসটিআই প্রধান কার্যালয় ঢাকাসহ সাতটি আঞ্চলিক অফিস চট্টগ্রাম, খুলনা, রাজশাহী, বরিশাল, রংপুর ও সিলেট দিবসটির গুরুত্ব ও তাৎপর্য তুলে ধরে বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করেছে।

পাইকগাছার শিববাটী সড়কের বেহাল অবস্থা, দ্রæত সংস্কারের দাবি
মোঃ আব্দুল আজিজ, পাইকগাছা
পাইকগাছা পৌর সদরের জন গুরুত্বপূর্ণ শিববাটী সড়ক দীর্ঘদিন জরাজীর্ণ হয়ে পড়েছে। ৩ কিলোমিটার সড়কের কিছুটা সংস্কার করা হলেও আড়াই কিলোমিটার সড়ক দীর্ঘদিন সংস্কারের অভাবে চলাচল অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। ফলে যাতায়াতে চরম ভোগান্তি পাচ্ছে সর্বসাধারণ। বর্ষা মৌসুমের আগেই সড়ক সংস্কারের দাবি জানিয়েছেন পৌরবাসী।
সূত্র জানায়, পৌর বাজার থেকে শিববাটী ব্রীজ পর্যন্ত সড়ক ও জনপদ বিভাগের পরিত্যাক্ত প্রায় ৩ কিলোমিটার সড়ক রয়েছে। সড়কটি এক সময় পাইকগাছা-কয়রা রুট হিসাবে ব্যবহার হতো। এখন ভারী কোন যানবাহন চলাচল না করলেও পাইকগাছা-কয়রার রুটসহ এটি পৌরসভার অভ্যন্তরীন জনগুরুত্বপূর্ণ একটি সড়ক। সড়কটি সড়ক ও জনপদ বিভাগ পরিত্যাক্ত করার পর দেখভালের তেমন কেউ নাই। পৌর অভ্যন্তরে হওয়ায় পৌর কর্তৃপক্ষ ইতোমধ্যে সংস্কারের উদ্যোগ গ্রহণ করলেও উদ্যোগটি কিছুপথ যাওয়ারপর থমকে যায়। থানা হতে পুরাতন গোডাউন পর্যন্ত কোন রকমে সংস্কার করলেও সড়কের বাকী অংশ সংস্কারের কোন উদ্যোগ নেই। ফলে সড়কের ছাল-চামরা উঠে গিয়ে জরাজীর্ণ অবস্থা সৃষ্টি হয়েছে। সড়কের এমন করুন অবস্থায় পরিণত হয়েছে যে ইঞ্জিন ভ্যানেও চড়তে গিয়ে চরম ভোগান্তি পাচ্ছেন সর্বসাধারণ।
গৃহবধু মুক্তা জানান, সোমবার উপজেলা সদরে ঈদের কেনাকাটা করতে যায়। শিববাটী ব্রীজ থেকে নেমে ভ্যান যোগে পৌর সদর পর্যনন যেতে যে কষ্ট হয়েছে ২০ কিলোমিটার সড়ক চলতে গিয়ে অতটাই কষ্ট হয়নি। ভ্যান চালক কুন্টে জানান, শিববাটী সড়কের অবস্থা এতটাই বেহাল যে প্রতিদিন যা আয় করি তার অর্ধেক খরচ করতে হয় ভ্যান মেরামত করার জন্য।
পৌরসভার প্যানেল মেয়র এসএম এমদাদুল হক জানান, গুরুত্বপূর্ণ নগর উন্নয়ন অবকাঠামো প্রকল্পে শিববাটী সড়কটি অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। আশা করছি ঈদের পরে সড়কটি টেন্ডারে যাবে। সচেতন এলাকাবাসীর দাবী বর্ষা মৌসুমের আগেই জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কটি যত দ্রæত সম্ভব সংস্কার করা হোক।

পাইকগাছায় যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে হত্যা :স্বামীসহ আটক ৩
পাইকগাছা প্রতিনিধি
পাইকগাছায় যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে নির্যাতন করে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় মৃতের পিতা বাদী হয়ে ৬ জনকে আসামী করে থানায় হত্যা মামলা করেছে। পুলিশ নিহতের স্বামী, শ্বশুর ও শ্বাশুড়ীকে আটক করেছে। থানা পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানাগেছে, ঢাকার আশুলিয়া থানার তৈয়বপুর গ্রামের কালু মিয়ার মেয়ে নাজমা বেগম (২২) কে ১০ বছর পূর্বে পাইকগাছা উপজেলার হরিঢালী গ্রামের মীর আব্দুর রাজ্জাক আলীর ছেলে মীর লিয়াকত আলীর সাথে বিয়ে দেন। বিয়ের পর থেকে স্বামী লিয়াকত আলী যৌতুকের দাবীতে স্ত্রী নাজমা বেগমকে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করে আসছিল। বর্তমানে তাদের একটি ছেলে ও একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। মামলার বিবরণী অনুযায়ী রবিবার রাত ১টার দিকে মীর লিয়াকত আলী স্ত্রী নাজমা বিষপানে মারা গিয়েছে মর্মে মুঠোফোনে শ্বশুর কালু মিয়াকে বিষয়টি জানায়। পরে নাজমার পিতা ও তার পরিবারের লোকজন ঘটনাস্থলে এসে স্থানীয় লোকজনের মাধ্যমে জানতে পারেন মীর লিয়াকত আলী ও তার পরিবারের লোকজন ঘটনার দিন নাজমার কাছে যৌতুকের টাকা দাবি করে। টাকা দিতে অপরগতা প্রকাশ করলে স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন নাজমাকে এলোপাতাড়িভাবে মারপিট করে গুরুতর জখম করে এবং গলায় ওড়না পেচিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যার চেষ্টা করে। মৃত্যুর বিষয়টি ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার জন্য তাহার মুখে বিষ ঢেলে দেয়। পরে স্থানীয় লোকজন গোঙরানোর শব্দ শুনে গুরুতর অবস্থায় নাজমাকে প্রথমে কপিলমুনি হাসপাতাল ও পরে তালা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। চিকিৎসাধীন অবস্থায় হাসপাতালে রবিবার রাত ১ টার দিকে নাজমার মৃত্যু হয়। এ ঘটনায় নাজমার পিতা কালু মিয়া বাদী হয়ে সোমবার পাইকগাছা থানায় ৬ জনকে বিবাদী করে মামলা করে। যার নং ১৯, তাং ২০/০৫/২০১৯ ইং। থানা পুলিশ মামলার মূল আসামী নাজমার স্বামী মীর লিয়াকত আলী, শ্বশুর আব্দুর রাজ্জাক আলী ও শ্বাশুড়ী হালিমা বেগমকে আটক করা হয়েছে বলে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই আবু সাঈদ জানান।
এ ব্যাপারে ওসি এমদাদুল হক শেখ জানান, রবিবার তালা থেকে মৃতের ময়না তদন্তের কাজ সম্পন্ন করা হয়। সোমবার মৃতের পিতা বাদী হয়ে মামলা করে এবং এ মামলায় আটক ৩জনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে।

চাকুরীর কথা বলে টাকা নিলে দল থেকে সরাসরি বহিস্কার :শেখ হেলাল এমপি
বাগেরহাট প্রতিনিধি
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভ্রাতুষ্পুত্র শেখ হেলাল উদ্দিন এমপি বলেছেন, যেসব নেতারা চাকুরীর কথা বলে টাকা নিবে তাদের দল থেকে সরাসরি বহিস্কার করা হবে। দেখা গেছে কোন ইউনিয়নে একজন আওয়ামী লীগ কর্মীর ছেলে চাকুরী পায় না, সেখানে অন্য দলের নেতাদের ছেলেরা টাকার জোরে চাকুরী পায়। এটা খুবই দুঃখ জনক। এটা আর হতে দেয়া হবে না। এছাড়া দলের হাইব্রিড নেতারা ত্যাগী নেতাদের মুল্যায়ন করে না। তারা অন্য দল থেকে এসে কারো উপর ভর করে আওয়ামী লীগের সকল সুযোগ সুবিধা নিচ্ছে। এটাও আর হতে দেয়া হবে না। অন্য দলের নেতাকর্মীদের আর দলে আনার প্রয়োজন নেই। তাদের ছাড়াই তো আমরা ক্ষমতায় এসেছি। তাহলে আগামীতেও তাদের ছাড়া আমরা চলতে পারবো। সোমবার দুপুরে বাগেরহাট জেলা পরিষদের অডিটরিয়ামে জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।
তিনি আরো বলেন, আপনারা জাতির পিতার আদর্শে বিশ্বাস করেন বলেই বাংলাদেশের গ্রামেগঞ্জে আওয়ামী লীগের ঘাঁটিতে পরিনত হয়েছে। এই ঘাটিকে টিকিয়ে রাখতে হবে। আওয়ামী লীগের সংগঠন আরো শক্তিশালী হলে অন্য দলের রাজনীতি এদেশ থেকে হারিয়ে যাবে।
তিনি দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, অক্টোবরে জাতীয় কাউন্সিলকে সামনে রেখে আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যেই ওয়ার্ড, থানা ও মহানগরের সম্মেলন শেষ করতে হবে। সেভাবেই সকলকে প্রস্তুতি নিতে হবে।
বাগেরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ডা. মোজাম্মেল হোসেন এম পি র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত প্রতিনিধি সভায়
প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন এমপি বলেছেন, বঙ্গবন্ধু দেশ ও জাতির জন্য জীবন উৎসর্গ করেছেন। আমরা তাঁর উত্তরসুরি হিসেবে আপনাদের সাথে থেকে বাংলাদেশকে উন্নত বিশ্বের কাতারে দাড় করাতে চাই।
প্রতিনিধি সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, কেন্দ্রিয় নেতা এস এম কামাল হোসেন, এ্যাডভোকেট আমিরুল আলম মিলন, পারভীন জামান কল্পনা, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মুক্তিযোাদ্ধা শেখ কামরুজ্জামান টুকু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র খান হাবিবুর রহমান, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সভাপতি এইচএম বদিউজ্জামান সোহাগ প্রমুখ।
এসময়ে জেলার সকল পৌরসভা, থানা, ওয়ার্ড ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও দলীয় কাউন্সিলররা উপস্থিত ছিলেন।

বাগেরহাটের সাংবাদিক পংকজ কর্মকার আর নেই
বাগেরহাট প্রতিনিধি
খুলনা থেকে প্রকাশিত দৈনিক পূর্বাঞ্চল পত্রিকার বাগেরহাটের সিএন্ডবি বাজার প্রতিনিধি পংকজ কর্মকার (৪৮) হৃদরোগে আত্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। সোমবার বেলা ১১ টায় তিনি খুলনার একটি হাসপাতালে মারা যান।
স্থানীয়রা জানান, সাংবাদিক পংকজ কর্মকার ৯ মে ফকিরহাটের বেতাগা থেকে সংবাদ সংগ্রহ করে ফেরার পথে মোটর সাইকেল দুর্ঘটনায় আহত হন। স্থানীয় ভাবে চিকিৎসা নিলেও তার ডায়েবেটিস বেড়ে গেলে ১৭ মে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি হন। সোমবার ( ২০ মে) সকালে তিনি হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরে যান। এসময় তিনি বুকে ব্যাথা অনুভব করলে স্থানীয় ক্লিনিকে প্রাথমিক চিকিৎসার পর দ্রæত তাকে খুলনা ফোরটিস হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষনা করেন। মত্যুকালে তিনি নবম শ্রেণিতে একটি পড়–য়া মেয়ে, পলিটেকনিকালে পড়–য়া ছেলে, স্ত্রী দুলালী কর্মকারসহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখেগেছেন।
সাংবাদিক পংকজ কর্মকার চুলকাঠি বাজারস্থ পলাশ কিন্ডার গার্টেন, সিএন্ডবি বাজারস্থ এসআর মেমোরিয়ার কিন্ডার গার্টেনের প্রতিষ্ঠাতা এবং বাগেরহাট সদর থানা আওয়ামীলীগের প্রচার বিষয়ক সম্পাদক এবং চুলকাঠি প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি ছিলেন।
পংকজ কর্মকার দৈনিক পূর্বাঞ্চলের চুলকাঠির নিজস্ব প্রতিনিধি হিসেবে সাংবাদিকতা শুরু করেন। পরে তিনি ওই পত্রিকার গোপালগঞ্জ ব্যুরো প্রধানের দায়িত্ব পালন করেন। সেখান থেকে আবার এলাকায় ফিরে কিন্ডার গার্টেন স্কুল প্রতিষ্ঠাসহ দৈনিক পূর্বাঞ্চলের ভ্রাম্যমান প্রতিনিধি পরে সিএন্ডবি বাজার প্রতিনিধি হিসেবে কাজ করছিলেন। তার অকাল মৃত্যুতে গভির শোক ও শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন, বাগেরহাট জেলা আওয়ামী লীগ, বাগেরহাট প্রেসক্লাব, জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা বাগেরহাট জেলা শাখা,বাংলাদেশ ইয়ুথ জার্নালিস্ট ফোরাম বাগেরহাট জেলা কমিটি, চুলকাঠি প্রেসক্লাবসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

গণহত্যার একক বৃহত্তম ঘটনা চুকনগর গণহত্যা দিবস : মেয়র
খবর বিজ্ঞপ্তি
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের জন্ম না হলে বাংলাদেশ স্বাধীন হতো না। তিনি প্রধানমন্ত্রিত্ব চান নাই। ক্ষমতায় থাকার জন্য, প্রানমন্ত্রী হওয়ার জন্য রাজনীতি করেননি। প্রিয় মাতৃভূমিকে পাকিস্তানি শোষণ-বঞ্চনার হাত থেকে রক্ষা করে বাঙালিরা যেন বাংলাদেশের ভাগ্যনিয়ন্তা হতে পারে সেজন্য নিজের জীবন উৎসর্গ করতেই রাজনীতি করেছেন। জনগণের জন্যই ছিল তাঁর রাজনীতি ও কর্মসূচি। ৭১-এর ৭ই মার্চের ভাষণ আজ ‘বিশ্ব ঐতিহ্যের প্রামাণ্য দলিল’ হিসেবে বিশ্বসভায় মর্যাদার আসনে আসীন। সেদিন তিনি একটি ভাষণের মধ্য দিয়ে সমগ্র জাতিকে ঐক্যবদ্ধ করে নিরস্ত্র বাঙালিকে সশস্ত্র জাতিতে রূপান্তরিত করেছেন। সাড়ে সাত কোটি বাঙালিকে জাতীয় মুক্তির মোহনায় দাঁড় করিয়েছেন। পাকিস্তানি হানাদারদের করা গণহত্যার একক বৃহত্তম ঘটনা চুকনগর গণহত্যা দিবস ।
এই দেশে মুক্তিযুদ্ধে সরকার এবং বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার ক্ষমতায় থাকার কারণে ২০১৭ সালের ১১মার্চ মহান জাতীয় সংসদে ২৫ মার্চকে জাতীয় গণহত্যা দিবস ঘোষণা করেছিলেন। তারপর থেকে প্রতিবছর সরকারিভাবে জাতীয় গণহত্যা দিবস পালন করা হচ্ছে। একমাত্র শেখ হাসিনার সরকারের দাড়াই সম্ভব গণহত্যার জন্য আন্তর্জাতিক স¤প্রদায়ের সমর্থন লাভ করা । চুকনগর গণহত্যা দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতাকালে খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক এসব কথা বলেন।
গতকাল সোমবার সকাল সাড়ে ১০টায় বিএমএ মিলনায়তনে ১৯৭১:গণহত্যা- নির্যাতন আর্কইভ ও জাদুঘর ট্রাষ্টের উদ্যোগে একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধে চুকনগরের গণহত্যা শীর্ষক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় সভাপতিত্ব করেন ট্রাষ্টি সম্পাদক শেখ বাহারুল আলম। সঞ্চালনা ও মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন একুশে টেলিভিশনের সাংবাদিক মহেন্দ্রনাথ সেন। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদেও কমান্ডার অধ্যাপক আলমগীর কবীর, ট্রাষ্টি অধ্যক্ষ আবুল কালাম আজাদ, হুমায়ুন কবির ববি, অধ্যক্ষ এ বিএম শফিকুল ইসলাম, অধ্যক্ষ ফ.ম আব্দুল সালাম, মফিদুল ইসলাম, রসু আক্তার, সাবেক ছাত্রনেতা শেখ আবু হানিফ ও সেইদিনের শিশুকন্যা সুন্দরী বালা প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, বাংলাদেশের গণহত্যা যদি আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি পায়, তাহলে ২০১০ সালে যে যুদ্ধাপরাধীদের বিচার শুরু হয়েছে, সে বিচারে কেবল স্থানীয়ভাবে যারা অপরাধের সঙ্গে জড়িত তাদের বিচার হয়েছে, যারা মূল পরিকল্পনাকারী ও হত্যাকারী সেই পাকিস্তানিদের আমরা বিচারের আওতায় আনতে পারব। এজন্য আন্তর্জাতিক স¤প্রদায়ের সমর্থন দরকার। ‘‘বিচার কিন্তু প্রতিশোধ থেকে নয়, বিচার চাওয়া হচ্ছে যেন আগামীতে এ ধরনের অন্যায় না হয় । একবছর পর স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী পালন করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। আমরা বিশ্বাস করি সকল ষড়যন্ত্র ভেঙ্গে এই সরকার গণহত্যার জন্য আন্তর্জাতিক স¤প্রদায়ের সমর্থন লাভ করবে।

নগরীতে প্রো-পুওর ইকোনোমিক ডেভেলপমেন্ট স্ট্রাটিজি কর্মশালা

খবর বিজ্ঞপ্তি
খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেছেন, নগরীর প্রান্তিক জনগোষ্ঠীকে দারিদ্রের অভিশাপ থেকে মুক্ত করতে সরকারি-বেসরকারি সংস্থাসহ সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে। দেশের সার্বিক উন্নয়নের স্বার্থে দারিদ্র বিমোচনের বিকল্প নেই। সেদিকে লক্ষ্য রেখে প্রধানমন্ত্রী বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা একের পর এক প্রকল্প বাস্তবায়ন করে চলেছেন। কেসিসি’র তত্ত¡াবধানে পরিচালিত প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন প্রকল্পও তেমনি একটি প্রকল্প। প্রকল্পটি সঠিকভাবে বাস্তবায়নের মাধ্যমে নগর অঞ্চলের পিছিয়ে পড়া মানুষের সন্তানদের শিক্ষা এবং মহিলাদের স্বনির্ভরতা অর্জনের মাধ্যমে তাদের আর্থ-সামাজিক অবস্থার উন্নয়ন ঘটানো হবে।
সিটি মেয়র গতকাল সোমবার সকাল ১০টায় নগর ভবনের জিআইজেড মিলনায়তনে ‘‘প্রো-পুওর ইকোনোমিক ডেভেলপমেন্ট স্ট্রাটিজি’’ শীর্ষক ওয়ার্কশপে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন। প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবন মান উন্নয়ন প্রকল্পের (এনইউপিআরপি) আওতায় খুলনা সিটি কর্পোরেশন, ইউকে এইড ও ইউএনডিপি’র সহযোগিতায় স্থানীয় সরকার বিভাগ এ কর্মশালার আয়োজন করে।
কেসিসি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (যুগ্ম সচিব) পলাশ কান্তি বালা’র সভাপতিত্বে ওয়ার্কশপে অন্যান্যের মধ্যে সচিব মো: আজমুল হক, চীফ প্লানিং অফিসার আবির উল জব্বার, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নার্গিস ফাতেমা জামিন, প্রকল্পের টাউন ম্যানেজার মো: মোস্তফা প্রমুখ কর্মশালায় উপস্থিত ছিলেন। বিষয়ভিত্তিক তথ্য-উপাত্ত তুলে ধরেন ইউএনডিপি’র কো-অর্ডিনেটর মৌসুমী পারভীন ও এক্সপার্ট মো: রাশেদুল ইসলাম। বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিগণ কর্মশালায় অংশগ্রহণ করেন।
এর আগে সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক ২৫নং ওয়ার্ড অফিসে কেসিসি’র তত্ত¡াবধানে পরিচালিত ‘প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়ন’ শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ওয়ার্ড এলাকায় প্রকল্পের সুবিধাভোগী দরিদ্র পরিবারের সদস্যদের মাঝে শিক্ষা সহায়তা ও ক্ষুদ্র ব্যবসা পরিচালনার লক্ষ্যে আর্থিক অনুদান প্রদান করেন। অনুষ্ঠানে সর্বমোট ৪’শ ৬৩ জনের মাঝে ৩২ লক্ষ ২২ হাজার ১’শ টাকা অনুদান প্রদান করা হয়। কেসিসি’র প্যানেল মেয়র মো: আলী আকবর টিপু’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর মাহমুদা বেগম এবং স্বাগত বক্তৃতা করেন প্রকল্পের টাউন ম্যানেজার মো: মোস্তফা।

আর্থিক দৈন্যতায় শেষ হতে যাচ্ছে মেধাবী শ্রাবনীর শিক্ষা ক্যাডার হবার স্বপ্ন
স্টাফ রিপোর্টার
এসএসসি পরীক্ষায় এবার অভাবনীয় সাফল্যের তালিকায় যারা তাদের মধ্যে অন্যতম প্রতীভার অধিকারী সেনহাটী সরকারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী শ্রাবনী খাতুন। পারিবারিক আর্থিক সংঙ্কট এখন তার লেখাপড়া বন্ধ হবার উপক্রম।
অদম্য ইচ্ছাশক্তি, অসাধারন মেধা নিয়ে সাফল্যের পথে সে ছিল দৃঢ়চেতা। তাই পাখি ডাকা ভোরেই জেগে লেখাপড়ায় মন দিত এবং নিয়মিত যথাসময়ে বিদ্যালয়ে উপস্থিত হত। স্কুল কার্যদিবসের সেরা উপস্থিতির পুরস্কারও যেত তার ঘরে। বিদ্যালয়ের দুটি শিফটের মধ্যে মেধা তালিকায় শীর্ষ স্থান অধিকার করেছে প্রতিবছর বলে জানান, শ্রেণি শিক্ষকরা। আর্থিক দৈন্যতাকে অতিকষ্টে পাশ কাটিয়ে নিজের ইচ্ছা শক্তি ও অধ্যবসায় কাজে লাগিয়ে ২০১৯ সালের এস এস সি পরীক্ষায় “সেনহাটী সরকারী মাধ্যমিক বিদ্যালয়” হতে সে জিপিএ- ৫ পেয়ে উত্তীর্ন হয়েছে।
পাটকলের সামান্য দিন মজুর পিতা আলী কদর খানের আর্থিক দৈন্যতা এখন মেধাবী এ শিক্ষার্থীর লেখাপড়া চরমভাবে বাঁধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। সৃস্টি কর্তার কাছে কৃজ্ঞতা প্রকাশ করছি যে আমার ঘরে এমন একজন মেধাবী ও পরিশ্রমী মেয়ে দিয়েছেন তাকে। কিন্তু তার আর্থিক হাতটি খাটকরে দেয়ায় তিনি এখন অসহায় হয়ে পড়েছেন। তিন সন্তান, স্বামী, স্ত্রী ও বৃদ্ধ বাবা মা নিয়ে তার সংসার। দিন মজুরি করে যা আয়হয় সে অর্থদিয়ে দু’বেলা দু’মুঠো খাবার যোগাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে তাকে। আর্থিক দৈন্যতার কারনে কখনো মেয়েছে স্কুলে টিফিন দিতে পারেননি। একথা বলে আবেগে কেঁদে ফেলেন এ পিতা। এখন মেয়ে কে লেখা পড়া করানোর মত আর্থিক সংঙ্গতি হারিয়ে চরম অসহায় হয়ে পড়েছেন বলে জানান তিনি। ২০১৫ সালে আর্থিক সংঙ্কটের কারণে মেধাবী শ্রাবনীর লেখাপড়া বন্ধ হয়েযায়। স্থানীয় কয়েকজন শিক্ষকের সহায়তায় ও আন্তরিকতায় লেখাপড়া চালিয়ে যায়। যে কারনে সে ২০১৬ সালের জেএসসি পরীক্ষায় এপ্লাস পেয়েছিল বলে জানান, শ্রাবনীর মা’ অদরী বেগম। সেই মেয়ে জিপিএ -৫ পেয়ে পাশ করার পরও আর্থিক দৈন্যতায় তাকে আর লেখাপড়া করতে পারবেন না ভেবে কাঁদতে থাকেন। ওর লেখাপড়া চালিয়ে রাখতে সহযোগীতার জন্য সেলাই মেশিনে কাজ করেছি সংসারের কাজের ফাঁকে। এখন একদিকে বয়স হয়েছে অন্যদিকে কাজও পাওয়া যাচ্ছেনা। ত্ইা আর্থিক সংঙ্কট আরো চেপে বসেছে তার সংসারে। দিন মজুর স্বামীর আয়ে নুন আনতে পান্তা ফুরায় অবস্থা। মেয়ের লেখা পড়া বন্ধ ভেবে দিন কাটছে তাদের।
শিক্ষা ক্যাডার হওয়ার স্বপ্ন ছিল তার। মেধা থাকলেও স্বপ্ন পূরনে বাঁধা হয়ে দাড়িয়েছে আর্থিক সমস্যা বলে জানায়, শ্রাবনী। মহান সৃস্টিকর্তা এ সংঙ্কট মোকাবেলার ক্ষমতা দিলে সকল প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে সেরাদের তালিকায় থাকবে আত্মবিশ্বাসের সাথে এ কথা গুলো বললো শ্রবনী খাতুন।
তাহলে কি আর্থিক দৈন্যতা এমন একটি মেধাবী মেয়ের লেখাপড়ার সহ সকল আশা ভরসা অঙ্কুরেই নস্ট হবে। এমন ভাবনায় সব সময় কস্ট দিচ্ছে শ্রাবনী ও তার পরিবার কে। একটু সহযোগীতার হাত বাড়ালে শ্রাবনী হতে পারে ভবিষ্যত প্রজন্মের শিক্ষার আলোর দিশারী।

খুবির জীব বিজ্ঞান স্কুলে এমফিল ও পিএইচডি প্রোগ্রামে ভর্তি
খবর বিজ্ঞপ্তি
খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের জীব বিজ্ঞান স্কুলের অধীন বিভিন্ন ডিসিপ্লিনে এমফিল ও পিএইচডি প্রোগ্রামে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে ‘জুলাই-ডিসেম্বর টার্মে’ শিক্ষার্থী ভর্তি করা হবে। ভর্তির জন্য নির্ধারিত ফরমে দরখাস্ত আহবান করা হয়েছে। আগামী ৩০-০৫-২০১৯ খ্রি. তারিখ পর্যন্ত খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়েল জীব বিজ্ঞান স্কুলের অফিস থেকে নির্ধারিত ফিস জমা দিয়ে আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমা দেওয়া যাবে। এ সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্যাবলী খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েব সাইট িি.িশঁ.ধপ.নফ থেকে সংগ্রহ করা যাচ্ছে। সংশ্লিষ্ট স্কুলের ডিন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

খুবির অর্থনীতি ডিসিপ্লিনে ইফতার মাহফিল
খবর বিজ্ঞপ্তি
গতকাল ২০ মে সোমবার সন্ধ্যায় খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি জীবনানন্দ দাশ একাডেমিক ভবনে অর্থনীতি ডিসিপ্লিন ও খুলনা ইউনিভার্সিটি ইকোনোমিক্স সোসাইটি (কুয়েস) এর উদ্যোগে ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। ডিসিপ্লিন প্রধান প্রফেসর ড. মোঃ নাসিফ আহসান ইফতার মাহফিলে অংশগ্রহণের জন্য সবাইকে ডিসিপ্লিনের পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জানান। ইফতার মাহফিলে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন কুয়েসের সভাপতি আবিদা হক তামান্না। ইফতার অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনের শিক্ষার্থী মাসুদ রানা। ইফতার পূর্বে দোয়া করা হয়। ইফতার মাহফিলে দোয়া পরিচালনা করেন ডিসিপ্লিনের শিক্ষার্থী মশিউর রহমান সাজিদ। ইফতারে সংশ্লিষ্ট ডিসিপ্লিনের শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ অংশ নেন।

সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে বোরো ধান কেনার আহবান মাশরাফির
নড়াইল প্রতিনিধি
বোরো ধানের দাম কম পেয়ে সারাদেশের কৃষকেরা যখন হতাশ, সেই মুর্হূতে নড়াইল-২ আসনের সংসদ সদস্য ক্রিকেটার মাশরাফি বিন মর্তুজা সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে ধান কেনার কথা বলেছেন। রবিবার জেলা প্রশাসক আনজুমান আরার সঙ্গে ফোনে কথা বলে ধান কেনার ব্যাপারে দিক-দির্শেদনা দেন মাশরাফি। সরকারিভাবে ধান কেনার ক্ষেত্রে কৃষকেরা যাতে বঞ্চিত ও হয়রানির শিকার না হন, সে ব্যাপারে যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের জন্য জেলা প্রশাসকের সঙ্গে কথা বলেন তিনি। এমপি মাশরাফির ব্যক্তিগত কর্মকর্তা (পিএস) জামিল আহমেদ সানি গণমাধ্যমকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি (জামিল) বলেন, এমপি মহোদয় (মাশরাফি) কৃষকদের কাছ থেকে সরাসরি ধান কেনার কথা বলেছেন। কোনো সিন্ডিকেট বা মধ্যসত্ত¡ভোগীর কাছ থেকে ধান কেনা যাবে না। এ ধরণের প্রমাণ পেলে সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি (এমপি) জানিয়েছেন।
এদিকে কৃষকদের কাছ থেকে সরাসরি ধান কেনার নির্দেশনা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ায় জেলার বিভিন্ন পেশার মানুষ এবং কৃষকরা মাশরাফিকে সাধুবাদ জানিয়েছেন।
জানা যায়, ত্রিদেশীয় ক্রিকেট চ্যাম্পিয়ন ট্রফি জয়ের পর অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজা গত শনিবার (১৮ মে) রাতে দেশে ফিরেন। পরে কৃষকদের দুরাবস্থার কথা মাশরাফি জানতে পেরে সরকারিভাবে সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে ধান কেনার কথা নড়াইলের জেলা প্রশাসককে জানিয়ে দেন। এতে মধ্যসত্ত¡ভোগীদের দৌরাত্ম কমবে বলে মনে করছেন কৃষকসহ বিভিন্ন পেশার মানুষ। কৃষকেরা সরকারি মূল্যে এক মণ ধান এক হাজার ৪০ টাকায় বিক্রি করতে পারবেন। তবে বর্তমানে নড়াইলের হাটবাজারে প্রতি মণ ধান বিক্রি করতে হচ্ছে সাড়ে ৫’শ থেকে ৭’শ টাকা দরে। এতে কৃষকদের উৎপাদন খরচ উঠছে না।
জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক অফিস সূত্রে জানা গেছে, চলতি বোরো মওসুমে নড়াইলের তিন উপজেলায় মোট ১ হাজার ৪শ ’৫৯ মেট্রিক টন ধান এবং ৩ হাজার ৯শ’ ৮ মেট্রিক টন চাল সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। এর মধ্যে নড়াইল সদর উপজেলায় ৬শ’৬২ মেট্রিক টন ধান এবং ১ হাজার ৭শ’৪ মেট্রিক টন চাল, লোহাগড়া উপজেলায় ২শ’৬৪ মেট্রিক টন ধান এবং ৯শ’৪৪ মেট্রিক টন চাল এবং কালিয়া উপজেলায় ৫শ’৩৩ মেট্রিক টন ধান এবং ১ হাজার ২শ’৬০ মেট্রিক টন চাল সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে।
সরকারি ঘোষণা অনুযায়ী গত ২৫ এপ্রিল থেকে ধান-চাল সংগ্রহ অভিযান শুরু হয়েছে। চলবে ৩১ আগস্ট পর্যন্ত। খাদ্য বিভাগের তালিকাভূক্ত ৫২ জন মিল মালিকের কাছ থেকে গত ৯ মে থেকে প্রতিকেজি ৩৬টাকা দরে চাল সংগ্রহ শুরু হয়েছে। কৃষকদের তালিকা পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে ধান ক্রয় শুরু হবে বলে জানিয়েছেন জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মনোতোষ কুমার মজুমদার।
জেলা প্রশাসক আনজুমান আরা মাশরাফি বিন মর্তুজার ফোনের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকেও বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে দেখা হচ্ছে। কৃষক তাদের উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্য মূল্য যেন পান, সেদিকে লক্ষ্য করা হচ্ছে। এজন্য সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন।

ছাত্র যুব ঐক্য পরিষদের সম্পাদক সড়ক দুর্ঘটনায় আহত
খবর বিজ্ঞপ্তি
খুলনা জেলা ছাত্রযুব ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অনিমেশ সরকার রিন্টু সড়ক দুর্ঘটনায় গুরুতর আহত হয়েছে। ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার কাকডাঙ্গা এলাকায় একটি যাত্রীবাহী বাসের চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে এ সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে।
জানা গেছে, গত শনিবার সকালে বাসটি খুলনার রূপসা থেকে গোপালগঞ্জের গোনা পাড়ার উদ্দেশ্যে রওনা দিলে ঘটনাস্থলে ওই দুর্ঘটনায় তিনি মারাত্মক আহত হন। স্থানীয়রা ঘটনাস্থল থেকে আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। পরে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে উন্নত চিকিৎসার জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন তার বাম পায়ের দু’টি হাঁড় ভেঙে গেছে।
অনিমেশ সরকার রিন্টু চিকিৎসাধীন অবস্থায় গণমাধ্যমকে বলেন, নির্ধারীত সময়ের মধ্যে গন্তব্যস্থলে পৌছানোর জন্য ওই বাসটির চালক দ্রæতবেগে গাড়িটি চালাতে থাকলে ঘটনাস্থলে বাসের সামনের চাকা খুলে উল্টে গিয়ে সড়ক দুর্ঘটনা ঘটে যায়। এতে গাড়িচালকসহ ছয়জন নিহত হন, আহত হন অনেকেই।
আহত সম্পাদকের শয্যা পাশে খোঁজ নিতে যান খুলনা-২ আসনের সাবেক সাংসদ মিজানুর রহমার মিজান, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি বিমান বিহারী রায় অমিত, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক শ্যামল দাশ, জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি কৃষ্ণপদ দাশ, সাধারণ সম্পাদক রবীন্দ্রনাথ দত্ত, মহানগর পূজা উদ্যাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক প্রশান্ত কুন্ডু, কেন্দ্রীয় যুব ঐক্য পরিষদ সভাপতি রবার্ট নিক্সন ঘোষ, সহসভাপতি দেবাশীষ রায়, বিশ^জিৎ দে মিঠু, মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম আসাদুজ্জামান রাসেলসহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

হুইপ পঞ্চানন বিশ্বাসের সুস্থতা কামনা
বটিয়াঘাটা প্রতিনিধি
খুলনা ১ আসনের সাংসদ ও জাতীয় সংসদের হুইপ পঞ্চানন বিশ্বাস এমপি অসুস্থ হয়ে ঢাকা স্কায়ার হাসপাতালে চিচিৎসাধীন আছেন। তার আশু সুস্থ্যতা কামনা করে বিবৃত প্রদান করেছেন বটিয়াঘাটা উপজেলা আ’লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান আশরাফুল আলম খান, সাধারণ সম্পাদক দিলীপ হালদার, সহ-সভাপতি ফিরোজুর রহমান,মীর মহাম্মদ আলী, প্রদীপ বিশ্বাস, পলাশ রায়, রবীন দত্ত, বিবেক বিশ্বাস, অনুপ গোলদার, চয়ন বিশ্বাস, বি.এম মাসুদ রানা,স্বপন সরকার, প্রসাদ রায়, চঞ্চলা মন্ডল, কিংকর রায়, অসিম মন্ডল, গোবিন্দ রায়, নারায়ন চন্দ্র সরকার, পংকোজ বিশ্বাস, মানষ পাল, চেয়ারম্যান মিলন গোলদার, মুশিবর রহমান, আবুল কালাম, গোবিন্দ মল্লিক, প্রকাশ রায়, কার্তিক টিকাদার, গৌর দাস ঢালী, মোস্তাফিজুর রহমান, মিজানুর রহমান, বিদ্যুৎ বিশ্বাস, অরিন্দম গোলদার, সুরজিৎ মন্ডল, ইব্রাহীম শেখ, ইসতেমার, রানা,অনিমেশ মল্লিক, সাইফুর,সোহাগ, প্রমুখ। অপর দিকে উপজেলা আওয়ামীলীগে উদ্যেগে আগামী ২৩ রমজান বুধবার ইফতার পার্টি ও দোয়া মাহফিল উদযাপন উপলক্ষে এক প্রস্তুতি মুলক সভা গতকাল সোমবার বেলা ১১ টায় দলীয় কার্যালয়ে উপজেলা আ’লীগের সভাপতি আশরাফুল আলম খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।
এদিকে জাতীয় সংসদের হুইপ পঞ্চানন বিশ্বাস এমপির সুস্থতা কমনা করে নিজ গ্রাম হেতালবুনিয়া মধ্যপাড়া মাতৃমন্দির প্রাঙ্গনে এক প্রার্থনা সভা শিক্ষক মহানন্দ মিস্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। উন্নয়ন কর্মী দীপঙ্কর মন্ডলের পরিচালনায় প্রার্থনা সভায় বক্তৃতা করেন কৃষ্ণপদ রায়, শিবপদ রায়, বিরেন মন্ডল, রবীন্দ্রনাথ গোলদার, কৃষ্ণপদ বৈরাগী,বিন্দু গোলদার, অনিল মন্ডল,প্রহ্লদ মন্ডল, প্রভাত দাস, তপন বৈরাগী, বিপুল রায়, সৈকত রায়, লক্ষীকান্ত গোলদার, প্রমূখ।

জেলা দর্জি কর্মচারী ইউনিয়ন ইফতার মাহফিল
খবর বিজ্ঞপ্তি
খুলনা জেলা দর্জি কর্মচারী ইউনিয়ন (রেজিঃ নং- খুলনা-১১) এর উদ্যোগে গতকাল সোমবার বিকাল সাড়ে ৫টায় দলীয় কার্যালয়ে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। ইফতার ও দোয়া মাহফিলে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগ এর সভাপতি ও খুলনা সিটি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মহানগর শ্রমিক লীগের সভাপতি আবুল কাশেম মোল্লা।
উপস্থিত ছিলেন খুলনা জেলা দর্জি কর্মচারী ইউনিয়ন এর সভাপতি ও খুলনা মহানগর শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক রণজিত কুমার ঘোষ, ২১, ২২ ও ২৩ নং ওয়ার্ড সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর কনিকা সাহা, খুলনা মহানগর শ্রমিক লীগের সহ-সভাপতিদ্বয় সৈয়দ এমদাদুল হক, মোঃ সেলিম রাজু, সাইফ হুমায়ুন কবির, মল্লিক নওশের আলী, মোঃ বাবুল হোসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহিম খান, সহ-সাধারণ সম্পাদক দ্বয় আব্দুর রশিদ শিকদার, কিংকর সাহা, সাংগঠনিক সম্পাদক দ্বয় শরিফ মোর্ত্তজা আলী, মুন্সী ইউনুস, মোঃ মতিউর রহমান, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক দ্বয় মোঃ হাবিবুর রহমান হাবি, মোঃ মোশারেফ হোসেন, ক্রিড়া ও সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক মোঃ জামাল হোসেন, ত্রাণ ও পুনর্বাসন সম্পাদক ও ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আক্তার হোসেন, সহ-ত্রাণ ও পুনর্বাসন সম্পাদক মোঃ শরিফুল ইসলাম, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক নাসরিন আখতার, সদস্য দ্বয় মোঃ আনিসুর রহমান, মোঃ জাবেদ মিয়া, বিপ্লব কুমার দে, মোঃ নূর ইসলাম, পারুল বেগম, মোঃ আতাহার উদ্দিন মাষ্টার, মোল্লা মাহবুবুর রহমান, মোঃ আসলাম, মোঃ আজিম উদ্দিন, মোঃ জয়নাল আবেদীন, হাই ইসলাম কচি, মোঃ আজিম উদ্দিন, প্রবির পাল, কুট্টি, প্রশান্ত ঘোষ, চুন্নু শিকদার, বিপ্লব রায়, একেএম হামিদুল্লাহ, মোঃ ফিরোজ, মোঃ কামাল, মোঃ হারুন, অজিত সাহা, মোহাম্মদ আলী, সঞ্জিত সাহা, মোঃ আব্দুর রব, সুশান্ত রায়, মিলন, গোপাল চঁন্দ্র, রবিউল ইসলাম, মোঃ রাজু প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।
দোয়া মাহফিলে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ ১৫ আগস্টে নিহত তার পরিবারের সকল শহীদদের, জাতীয় চার নেতার, ৭১’র স্বাধীনতা যুদ্ধে শহীদ মুক্তিযোদ্ধাদের, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রয়াত নেতৃবৃন্দের ও জাতীয় শ্রমিক লীগের প্রয়াত সকল নেতৃবৃন্দদের আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

বরিশাল জেলা কল্যাণ সমিতির ইফতার মাহফিল
খবর বিজ্ঞপ্তি
সোমবার নগরীর অভিজাত হোটেলে এ বরিশাল জেলা কল্যাণ সমিতি খুলনা এর উদ্যোগে দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন বরিশাল জেলা কল্যাণ সমিতির সম্মানিত সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ শাহ আলম মৃধা। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সাধারণ সম্পাদক এ্যাডঃ আবুল হোসেন হাওলাদার। দোয়া মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক খুলনা সিটি করপোরেশন, সাবেক সাংসদ খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মিজানুর রহমান মিজান, সংগঠনের সহ সভাপতি এ্যাডঃ রুস্তম আলী মৃধা, উপদেষ্টা মোক্তার হোসেন (সাবেক এমপি), উপদেষ্টা মিজানুর রহমান জয়েন্ট ডাইরেক্টর অব লেবার, উপদেষ্টা আলহাজ্ব মোঃ আবুল হোসেন (খাদ্য কর্মকর্তা), উপদেষ্টা আলহাজ্ব ইসমাইল খান, আলহাজ্ব কবির হোসেন মৃধা, শামসুল আলম, নুরুজ্জামান তালুকদার কেসিসি, মনিরুজ্জামান শিকদার, মোদাচ্ছের আলী, জাহিদুল ইসলাম (পূর্বাঞ্চল), সিদ্দিকুর রহমান জমাদ্দার, আলহাজ্ব মোঃ আব্দুল মজিদ মৃধা, এ্যাডঃ জি,এম, সাইফুল ইসলাম, মোঃ রফিকুল ইসলাম ওয়াসা, এম,এ, হালিম, বাগেরহাট জেলা কল্যাণ সমিতির আলহাজ্ব সাহেব আলী, ঝালকাঠি জেলা কল্যাণ সমিতির সৈয়দ দেলোয়ার হোসেন, ভোলা জেলা কল্যাণ সমিতির মোঃ মফিজুর রহমান, সাতক্ষীরা জেলা কল্যাণ সমিতি আলহাজ্ব এস এম আকবর হোসেন, গোপালগঞ্জ জেলা কল্যাণ সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব আবেদ আলী, সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান চৌধুরী, বরগুনা জেলা কল্যাণ সমিতির মোঃ দেলোয়ার হোসেন, পটুয়াখালী জেলা কল্যাণ সমিতি মোঃ আব্দুল মালেক, পিরোজপুর জেলা কল্যাণ সমিতির মোঃ হিরা প্রমুখ। দোয়া মাহফিলে মোনাজাত পরিচালনা করেন হাফেজ মোঃ আরাফাত।

রাষ্ট্রায়ত্ব জুট মিলস শ্রমিদের কর্মসূচির পাশে খানজাহান আলী থানা বিএনপি
খানজাহান আলী থানা প্রতিনিধি
আটরা শিল্প এলাকায় রাষ্ট্রায়ত্ত জুট মিলস শ্রমিক কর্মচারীদের বকেয়া, মজুরি, পিএফসহ ৯ দফা দাবিতে লাগাতার অবরোধ কর্মসূচিতে শ্রমিক কর্মচারীদের আন্দোলনের পাশে এসে দাড়িয়েছে খানজাহান আলী থানা বিএনপি গতকাল সোমবার আলিমগেট অবরোধ পয়েন্টে এসে খানজাহান আলী থানা বিএনপি সভাপতি মীর কায়সেদ আলী শ্রমিক কর্মচারীদের দাবির প্রতি সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন।
এসময় আলিম ও ইষ্টার্ন জুট মিলস্ শ্রমিক কর্মচারীদের ইফতারীর জন্য বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ব্যক্তিগত অর্থথেকে বিএনপি নেতৃবৃন্দ নগদ ৩০ হাজার টাকা আন্দোলনরত শ্রমিক নেতৃবৃন্দের কাছে প্রদান করে। এসময় উপস্থিত ছিলেন খুলনা মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি শেখ ইকবাল হোসেন, জেলা সহ সভাপতি এস এ রহমান বাবুল, আটরা গিলাতলা ইউনিয়ন বিএনপি সভাপতি অধ্যাপক ওহিদুজ্জামান, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম শুকুর, ১নং ওয়ার্ডসভাপতি আলহাজ্জ আউব আলী, আটরা গিলাতলা ইউনিয়ন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মিনা মুরাদ হোসেন, মোল্যা সোলায়মান হোসেন, জাহাঙ্গীর হোসেন খোকা, মিয়া ইমলাক হোসেন, শরিফুল ইসলাম, মোঃ রফিকুল ইসলাম, শেখ আনোয়ার হোসেন প্রমুখ।

নগর ও জেলা বিএনপির জেলা প্রশাসককে স্মারকলিপি আজ
খবর বিজ্ঞপ্তি
ধানের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করতে সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে ধান ক্রয়, সরকারি আনুকূল্যপ্রাপ্ত মধ্যসত্বভোগীদের দৌরাত্ব্য কমাতে পদক্ষেপ গ্রহন এবং আন্দোলনরত রাষ্ট্রায়ত্ত¡ পাটকল শ্রমিকদের বকেয়া মজুরী-ভাতা পরিশোধসহ ৯ দফা দাবি বাস্তবায়নে আশু ব্যবস্থা গ্রহনের দাবিতে খুলনা মহানগর ও জেলা বিএনপির উদ্যোগে জেলা প্রশাসককে স্মারকলিপি প্রদান আজ মঙ্গলবার দুপুর ২ টায়।

রাইজিং সান হেল্থ ক্লাবের ইফতার মাহফিল
খবর বিজ্ঞপ্তি
রাইজিং সান হেল্থ ক্লাবের উদ্যোগে গতকাল সোমবার বিকালে নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে দোয়া ও ইফতার মহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
ক্লাবের সভাপতি আলহাজ¦ শফিকুর রহমান-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ইফতার মহফিলে প্রধান অতিথি হিসেবে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র জনাব তালুকদার আব্দুল খালেক ও বিশেষ অতিথি হিসেবে কাউন্সিলর আজমল আহমেদ তপন ও শামসুজ্জামান মিয়া স্বপন বক্তব্য প্রদান করেন। অন্যদের মধ্যে বক্তব্য প্রদান করেন ও উপস্থিত ছিলেন ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ¦ কবির হোসেন মৃধা, আহবায়ক ইয়াকুব আলী খান পলাশ, সাবেক সভাপতি তাপস কুমার সরকার(শিব), অসীম আনন্দ দাস, মফিজুল ইসলাম মোল্যা, শেখ সোয়েবুর রহমান, শ্যামল কুমার রায়, ইঞ্জিনিয়ার হাফিজুর রহমান, মিন্টু আঢ্য, মেহেদী হাসান, শংকর কুমার ঘোষ, সুশান্ত দাশ, মোঃ আইয়ুব আলী হাওলাদার, সনজীব দাস, কাজী মঞ্জুরুল ইসলাম, অরুন কুমার সাহা প্রমুখ।

পোল্ট্রি ফিশ ফিড শিল্প মালিক সমিতির দোয়া ও ইফতার
খবর বিজ্ঞপ্তি
ডিবি পি আই এ-এর খুলনা বিভাগীয় শাখা কমিটি : খুলনা পোল্ট্রি ফিশ ফিড শিল্প মালিক সমিতি’র ২১তম বার্ষিক ইফতার দোয়া ও মাহফিল মহানগরীর ময়লাপোতা বঙ্গবন্ধু চত্বর সন্ধ্যা বাজারের দোতলায় আজমিরী কাচ্চি কিচেন হোটেল মিলনায়তনে গতকাল সোমবার অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব মওলানা ইব্রাহিম ফয়জুল্লাহের সভাপতিত্বে এবং মহাসচিব প্রাণিপ্রেমী এস এম সোহরাব হোসেনের পরিচালনায় কেসিসি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক প্রধান অতিথি হিসেবে ও বিশেষ অতিথি হিসেবে সাবেক এমপি ও মহানগর আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ মিজানুর রহমান মিজান উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে মেয়র স্বতন্ত্র পোল্ট্রি মার্কেট স্থাপনের অঙ্গীকার পুনঃ ঘোষণা করেন এবং পোল্ট্রি সমিতির গৃহীত সকল কর্মসূচির প্রশংসা করেন।
এ সময়ে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেনÑখুলনা চেম্বারের পরিচালক এস এম ওবায়দুল্লাহ, ৩১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোঃ আরিফ হোসেন মিঠু, মহিলা কাউন্সিলর মাজেদা খাতুন, ছাত্রলীগ মহানগর সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রাসেল, বৃহত্তর খুলনা উন্নয়ন সংগ্রাম কমিটির কোষাধ্যক্ষ আলহাজ্ব মহিউদ্দিন আহমেদ, রাইস মিল মালিক সমিতির মোস্তফা কামাল, বীর মুক্তিযোদ্ধা রফিক উদ্দিন বাবলু, ইফতার বাস্তবায়ন কমিটির আহŸায়ক এস এম হাফিজুর রহমান লিপু, আলহাজ্ব আরিফুর রহমান বাবু, আলহাজ্ব মোঃ মামুনুর রহমান, তালুকদার মোঃ হেলালুজ্জামান, শামসুর রহমান বাবুল, মোঃ আব্দুল আহাদ, সমিতির সিনিয়র সহ-সভাপতি মোঃ ইকবাল, সহ-সভাপতি সৈয়দ মোঃ বেলাল হোসেন, শেখ রেজানুল ইসলাম, মোঃ তরিকুল ইসলাম, আফ্রিদুল ইসলাম বাবু, প্রচার সম্পাদক শেখ আব্দুল হালিম, সঞ্চয় সমাজকল্যাণ সম্পাদক মোঃ মোজাম্মেল হক, মহিলা সম্পাদক এ্যাড. শাহরিয়া মোর্শেদা আহমেদ শম্পা, তপন পাল, গোলাম সবুর মিয়া, মোঃ ইনসান আলী, মোঃ সালাহ উদ্দিন, শাহ জাফর মাহমুদ মেহেতা, শ্যামল বিশ্বাস, জসিম ফরাজী প্রমুখ। সমিতির প্রয়াত সভাপতি এস এম আনিসুজ্জামান পান্নাসহ সকলের রুহের মাগফেরাত কামনা ও দেশের সুখ-সমৃদ্ধির জন্য দোয়া হয়। দোয়া পরিচালনা করেন কুদরাতিয়া জামে মসজিদের পেশ ইমাম হযরত মওলানা মোস্তাক আহমেদ।

খুলনা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ইফতার মাহফিল
স্টাফ রিপোর্টার
খুলনা জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে গতকাল সোমবার সন্ধ্যায় খুলনা সার্কিট হাউস চত্ত¡রে পবিত্র মাহে রমজান উপলক্ষে ইফতার ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
ইফতার মাহফিলে খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য সেখ সালাহউদ্দিন, খুলনা সিটি করপোরেশনের মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ, খুলনা-৬ আসনের সংসদ সদস্য মোঃ আক্তারুজ্জামান, বিভাগীয় কমিশনার লোকমান হোসেন মিয়া, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন, পুলিশ সুপার এসএম শফিউল্লাহ, বিভাগীয় এবং জেলা প্রশাসনের উর্ধ্বতন কর্মকর্তা, সুশীল সমাজের প্রতিনিধিসহ ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
ইফতার পূর্বে দেশ, জাতি ও মুসলিম উম্মাহর সুখ ও সমৃদ্ধি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

কেসিসির মোবাইল কোর্ট
উজ্জ্বল সাহাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা
খবর বিজ্ঞপ্তি
খুলনা সিটি করপোরেশনের উদ্যোগে গতকাল সোমবার সকালে নগরীর বাজার ও উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানে মোবাইল কোর্ট পরিচালিত হয়েছে। পবিত্র মাহে রমজানে বাজার মূল্য স্থিতিশীল রাখা ও খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধকল্পে গঠিত কমিটির নিয়মিত অভিযানের অংশ হিসেবে এ অভিযান পরিচালনা করা হয়।
অভিযানকালে নগরীর সোনাডাঙ্গা আবাসিক এলাকার ১নং রোডের ১০৯ নম্বর বাড়িতে বিভিন্ন ব্রান্ডের লোগো সংবলিত কসমেটিকস সামগ্রী তৈরী করার অপরাধে ব্রাইট কসমেটিকস-এর মালিক উজ্জ্বল কুমার সাহা’কে ভোক্তা অধিকার আইনের ৫২ ধারায় ৫০ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়। এছাড়া অভিযানকালে বিভিন্ন বাজারে পণ্যমূল্য তালিকা প্রদর্শন, খাদ্য দ্রব্য সংরক্ষণের স্থান ও বাজার দর পর্যবেক্ষণ করা হয়।
কেসিসি’র নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট খান মাসুম বিল্লাহ-এর নেতৃত্বে পরিচালিত অভিযানে ভেটেরিনারী অফিসার ডা. মো: রেজাউল করিম, বাজার সুপার মো: সেলিমুর রহমানসহ স্যানিটারী ইন্সপেক্টরগণ অংশগ্রহণ করেন। খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের একটি টীম অভিযানে সার্বিক সহযোগিতা করে।
পবিত্র মাহে রমজানে বাজার মূল্য স্থিতিশীল রাখা ও খাদ্যে ভেজাল প্রতিরোধকল্পে কেসিসি’র এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

এনইউবিটি’র রেজিস্ট্রারের মৃত্যুতে নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটির শোক
খবর বিজ্ঞপ্তি
নর্দান ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস এন্ড টেকনোলজি (এনইউবিটি) এর রেজিস্ট্রার ও খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে অবসরপ্রাপ্ত ফরেস্ট্রি এন্ড উড টেকনোলজি ডিসিপ্লিনের অধ্যাপক শিক্ষানুরাগী প্রফেসর মোঃ আব্দুল মতিনের আকস্মিক মৃত্যুতে নর্থ ওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটির ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. তারাপদ ভৌমিক, সায়েন্স এন্ড টেকনোলজি অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মোঃ নওশের আলী মোড়ল, বিজনেস স্টাডিস অনুষদের ডীন প্রফেসর এবিএম রশীদুজ্জামান, রেজিস্ট্রার মোঃ শহীদুল ইসলাম, বিভাগীয় প্রধান মহোদয়গণ এবং শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও ছাত্রছাত্রীবৃন্দ গভীর শোক প্রকাশ করেন। এছাড়া মরহুমের রূহের মাগফিরাত কামনা করা হয় ও তার শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করা হয়।

স্ত্রীকে পিটিয়ে যুবকের আত্মহত্যা
মণিরামপুর প্রতিনিধি
যশোরের মণিরামপুরে উজ্জ্বল মÐল নামে একট যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার কেরেছন স্বজনরা। রোববার রাতে বাড়ির পাশে আম গাছের সাথে রশি জড়িয়ে তিনি আত্মহত্যা করেছেন।
উজ্জ্বল মÐল উপজেলার হেলাঞ্চি গ্রামের খোকন মÐলের ছেলে। খবর পেয়ে সোমবার দুপুরে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠেয়েছে।
স্থানীয় ইউপি সদস্য সাধন মÐল জানান, উজ্জ্বল শার্শা উপজেলার রামপুর গ্রামের অনন্ত তরপদারের মেয়ে রীতা তরপদারকে বিয়ে করেছে। উজ্জ্বল তার শ্বশুরের কাছে ধারের ৭৩ হাজার টাকা পাবে। রোববার সন্ধ্যায় সেই টাকা নিয়ে স্বামী-স্ত্রীর মাঝে ঝগড়া হয়। তখন রীতা গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করতে যায়। টের পেয়ে উজ্জ্বল তাকে নামিয়ে এনে মারপিট করে। একপর্যায়ে উজ্জ্বল স্ত্রীর মাথায় শাবল দিয়ে আঘাত করে। এতে জ্ঞান হারিয়ে ফেলে রীতা। স্ত্রীর মৃত্যু হয়েছে ভেবে উজ্জ্বল সেই রশি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে।
তবে,স্থানীয়রা বলছেন উজ্জ্বলের দেহে আঘাতের চিহ্ন আছে। ধারণা করা হচ্ছে, মারামারির সময় উজ্জ্বলের স্ত্রীও তাকে পিটিয়েছে।
মণিরামপুর থানার এএসআই রুহুল আমিন জানান, এই ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠিয়েছে।

মহানগর দায়রা জজ আদালত
মাদক মামলায় এক আসামির ৮বছর সশ্রম কারাদÐ
স্টাফ রিপোর্টার
লবণচরা থানার মাদক মামলার এক আসামিকে ৮বছর সশ্রম কারাদন্ড, ৫হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরো ৫মাসের সশ্রম কারাদÐাদেশ দিয়েছে আদালত। গতকাল সোমবার দুপুরে মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. শহীদুল ইসলাম এ রায় ঘোষণা করেছেন।
দন্ডপ্রাপ্ত আসামি হলেন খুলনা জেলার রূপসা থানার নিকলাপুর গ্রামের মো. আবুল কালাম শেখের ছেলে মো. জসিম উদ্দিন (৩৪)। রায় ঘোষণাকালে দন্ডপ্রাপ্ত আসামি জসিম উদ্দিন পলাতক রয়েছেন। এ মামলার অপর আসামি হারণটানা থানাধিন উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে আর্মি বেল্লালের বাড়ির ভাড়াটিয়া মৃত. সামসুল হকের ছেলে মো. জামাল হাওলাদার (৪২) কে বেকসুর খালাস দেয়া হয়েছে।
আদালতের স্টোনোগ্রাফার মো. হাদিউজ্জামান হাদি নথীর বরাত দিয়ে জানান, ২০১৭ সালের ২৬আগস্ট বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে রূপসা ব্রীজ এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে
নগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এসময় কাউন্টার সংলগ্ন বাদশা স্টোরের সামনে থেকে ১০০পিস ইয়াবা জসিম উদ্দিনকে গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় ডিবি এসআই শাহজাহান কবির বাদী হয়ে জসিমের বিরুদ্ধে লবণচরা থানায় মাদক আইনে মামলা দায়ের করেন যার নং-০৮। ওই বছরের ৩০সেপ্টেম্বর মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি এসআই শেখ আবু হাসান আদালতে জসিম ও জামালকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দাখিল করেন। রাস্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন পিপি অ্যাডভোকেট বিরেন্দ্র নাথ সাহা ও এপিপি অ্যাডভোকেট মো. কামরুল হোসেন জোয়ার্দ্দার। আসামি পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট আক্তার জাহার রুকু ও আলীম আল বাকি।

সোনাডাঙ্গায় যুবতীকে ধর্ষণের চেষ্টার মামলায় গ্রেফতার ৫
স্টাফ রিপোর্টার
নগরীর সোনাডাঙ্গা মডেল থানাধিন আলীর ক্লাব মোড় এলাকায় এক যুবতীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগে ৫জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সোমবার দুপুরে এঘটনায় ৬জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছেন ওই যুবতী যার নং-১৫।
গ্রেফতারকৃতরা হলেন আলীর ক্লাব দারুল আমান মহল্লার মৃত. হামজু ফকিরের ছেলে সরোয়ার (৪৭), মৃত. মোদাচ্ছের হোসেন সরদারের মনির সরদার (৪৭), হাজী তমিজউদ্দিন সড়কের মো. সলেমানের ছেলে জুয়েল ওরফে কালু (২২), হাজী তমিজউদ্দিন সড়কের শেখ মো. আলীর ছেলে আব্দুল্লাহ আল মাসুদ রানা (৪২), নুর রহমানের ছেলে জাহিদুল হাওলাদার (২২)। এছাড়া মামলার অপর আসামি আলীর ক্লাব এলাকার মৃত. আব্দুল গনি’র ছেলে মিলন (২৮)পলাতক রয়েছে।
মামলার বিবরণে জানা যায়, ১৯মে রাতে বরগুনা জেলার বেতাগী উপজেলার হাটমুকামিয়া থেকে কাজের উদ্দেশ্যে শান্তা নামের ওই যুবতী খুলনার সোনাডাঙ্গা থানাধিন আলীর ক্লাব এলাকার আত্মীয় সরোয়ারের ভাড়া বাসায় আসেন। এসময় অভিযুক্তরা ওই ঘরের মধ্যে জোরপূর্বক ঢুকে ওই যুবতীকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। আশপাশের লোকজন খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে এসে তাকে রক্ষার চেষ্টা করে। খবর পেয়ে সোনাডাঙ্গা মডেল থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে ওই যুবতীকে উদ্ধার করে। পরে থানায় তিনি এঘটনায় ৬জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করলে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৫জনকে গ্রেফতার করে।
সোনাডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ মো. মমতাজুল হক জানান, ভুক্তভোগী নারীর লিখিত অভিযোগের পর মামলা রুজু করা হয়েছে। অভিযুক্ত ৫জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পলাতক আসামিকে গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যহত রয়েছে।

জাতীয় ভোক্তা অধিকার অধিদপ্তরের অভিযানে ২টি প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা
স্টাফ রিপোর্টার
জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের খুলনা জেলা কার্যালয় ডাকবাংলা মোড় এলাকায় অভিযান চালিয়ে ২টি খাবার হেটেলকে ১৫হাজার টাকা জরিমানা করেছে। গতকাল সোমবার খুলনা জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক শিকদার শাহীনুর আলম জরিমানার আদেশ প্রদান করেছেন।
এই অভিযানে অত্যন্ত নোংরা ও অস্বাস্থকর পরিবেশে খাদ্য প্রস্তুত করার অপরাধে নিউ নূরানিয়া হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্টকে ৫হাজার টাকা ও অলকা রেস্তোরাকে যথাক্রমে ১০হাজার টাকা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে প্রশাসনিক ব্যাবস্থায় জরিমানা করা হয়। মহামান্য হাইকোর্ট কর্তৃক নিষিদ্ধ পন্য সরোজমিনে তদারকি করা হয় যার অংশহিসেবে ৭নং ছোট মির্জাপুর রোডস্ত খুলনা ডিসট্রিবিউশন (ফ্রেশ এর ডিলার) এ তদারকি করে প্রায় ৫০ কেজি পরিমান হলুদের গুড়া বিনস্ট করা হয়।
এ অভিযানে সকলকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন, ২০০৯ অনুসারে ভোক্তা অধিকার বিরোধী কার্যাবলী হতে বিরত থাকার অনুরোধ জানানো হয়। এছাড়া রমজান মাস উপলক্ষে সচেতনামূলক কার্যক্রমের অংশ হিসেবে লিফলেট, প্যামপ্লেট বিতরণ করা হয় এবং ব্যবসায়িদের মূল্যতালিকা প্রদর্শন করার জন্য অনুরোধ জানানো হয়। এই পরিদর্শন মূলক বাজার অভিযানে সার্বিক সহায়তা করেন ৩ এপিবিএন, শিরমনি খুলনা, ও ক্যাব খুলনা প্রতিনিধি।

নগরীর সিটি গার্লস কলেজের শিক্ষক ওমর ফারুকের বিরুদ্ধে দুদকের চার্জশিট
স্টাফ রিপোর্টার
বিএসসি পরিক্ষার জাল নম্বরপত্র জমা দিয়ে খুলনা সিটি গার্লস কলেজে রসায়ন বিভাগের প্রদর্শক হিসেবে মো. ওমর ফারুক চাকুরিতে যোগদান এবং ১৩লক্ষ ২২হাজার ৫৭০টাকা সরকারি বেতন ভাতা গ্রহনের মাধ্যমে আত্মসাতের মামলায় ওমর ফারুককে অভিযুক্ত করে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেছেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)’র খুলনা জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক তরুণ কান্তি ঘোষ। আদালত অভিযোগপত্রটি গ্রহণ করে মামলাটি সিএমএম আদালত থেকে মাহানগর দায়রা জজ আদালতে বদলী করেছে। আগামী ১১জুন চার্জশিট বিষয়ে শুনানি অনুষ্ঠিত হবে।
মামলার বিবরণে জানা যায়, ১৯৯৫সালের ২৫ সেপ্টেম্বর মো. ওমর ফারুক নগরীর সোনাডাঙ্গা থানাধিন বানরগাতি এলাকাস্থ সিটি গার্লস কলেজের রসায়ন বিভাগের প্রদর্শক হিসেবে চাকুরিতে যোগদান করেন। সে নগরীর সোনাডাঙ্গা মডেল থানাধিন ৯/১ গোবরচাকা মেইন রোডের বাসিন্দা ও নড়াইলের নড়াগাতি যোগানিয়ার বাসিন্দা মৃত রমজেত আলী বিশ্বাসের ছেলে। ২০১৪ সালের ৩রা নভেম্বর শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের আওতাধীন পরিদর্শন ও নিরিক্ষা অধিদপ্তরের পরিদর্শক টুটুল কুমার নাগ ও সহকারী শিক্ষা পরিদর্শক মো. দাউদ হোসেন সিটি গার্লস কলেজে পরিদর্শন ও নিরিক্ষা করেন। এরপর ২০১৫ সালের ২৫জুন শিক্ষা মন্ত্রনালয়ে উক্ত পরিদর্শন ও নিরিক্ষার প্রতিবেদন প্রেরণ করেন। ওই প্রতিবেদনে দেখা যায় খুলনা সিটি গার্লস কলেজে রসায়ন বিভাগের প্রদর্শক মো. ওমর ফারুক ১৯৯১সালের তার বিএসসি পরীক্ষার জাল নম্বরপত্র তৈরি করে চাকুরিতে যোগদান করেছেন। এঘটনায় ২০১৭সালের এপ্রিল মাসে কলেজ থেকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়। তবে চাকুরিতে জাল নম্বরপত্র ব্যববহার করে যোগদান ও চলতি বছরের এপ্রিল মাস পর্যন্ত সরকারি বেতন ভাতা হিসেবে তিনি ১৩লক্ষ ২২হাজার ৫৭০টাকা গ্রহন করেন। এ অপরাধে ২০১৭সালর ৩আগস্ট দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)’র খুলনা জেলা সমন্বিত কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক রাজ কুমার সাহা বাদী হয়ে দÐবিধির ৪২০, ৪৬৭, ৪৬৮ ও ৪৭১ধারায় সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন যার নং-০৬।

নগরীতে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত : ১৯হাজার টাকা জরিমানা
স্টাফ রিপোর্টার
নগরীর সন্ধ্যা বাজার থেকে পিটিআই মোড় পর্যন্ত বিভিন্ন ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে অভিযান চালিয়েছে জেলা প্রশাসনের ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল সোমবার জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. রাশেদুল ইসলাম ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।
জেলা ম্যাজিস্ট্রেট ও জেলা প্রশাসক খুলনা মোহাম্মদ হেলাল হোসেন এর নির্দেশনায় ও অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইউসুপ আলীর তত্বাবধানে এই অভিযানে তালিকাভুক্ত নিম্নমানের ৫২টি ভোগ্যপণ্যের বিক্রয় ও বিপণনের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালিত হয়। এসময় বিভিন্ন ডিপার্টমেন্টাল স্টোরে অভিযান চালিয়ে নিষিদ্ধ ঘোষিত এসিআই লবণ ও মধুমতি লবণ (৪১কেজি), ডুডলস নুডুলস (২৫ প্যাকেট) ও সান চিপস (৩০ প্যাকেট) জব্দ করে বিনষ্ট করা হয় এবং পাশাপাশি সরকারি নির্দেশ অমান্য করা এবং ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে সর্বমোট ১৯০০০ টাকা আর্থিক দÐ প্রদান করা হয়।

চুয়াডাঙ্গায় বাড়িতে ট্রাক ঢুকে গৃহকর্তা নিহত
চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি
চুয়াডাঙ্গায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ট্রাক বাড়িতে ঢুকে পড়ে গৃহকর্তা সাইদুর রহমান (৬৫) নিহত হয়েছেন। গতকাল সোমবার) দুপুরে সদর উপজেলায় চুয়াডাঙ্গা-আলমডাঙ্গা সড়কের পিটিআই মোড় এলাকার এ দুর্ঘটনা ঘটে। সাইদুর একই এলাকার মৃত শাহাজাহান আলীর ছেলে।
প্রতক্ষ্যদর্শীরা জানায়, গতকাল সোমবার দুপুরে চুয়াডাঙ্গা থেকে আলমডাঙ্গাগামী একটি ট্রাক পিটিআই মোড় এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে বাড়ির ভেতর ঢুকে পড়ে। এতে ওই বাড়ির উঠানে দাঁড়িয়ে থাকা গৃহকর্তা সাইদুর ট্রাকচাপায় গুরুতর আহত হন। এ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় ঘাতক ট্রাকচালকও গুরুতর আহত হয়েছেন। তিনি ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।
চুয়াডাঙ্গা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু জিহাদ ফকরুল আলম খান বলেন, ঘাতক ট্রাকটি জব্দ করা হয়েছে। এ ঘটনায় আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

কুষ্টিয়ায় পোশাকের দাম তিন গুণ চাওয়ায় জরিমানা
# ব্যবসায়ীদের সড়ক অবরোধ
কুষ্টিয়া প্রতিনিধি
কেনা দামের চেয়ে তিন গুণ দামে জামা বিক্রির দায়ে এক দোকানদারকে জরিমানা করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। প্রতিবাদে ওই দোকানদারসহ মার্কেটের অন্য দোকানদারেরা একত্র হয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ওপর চড়াও হন। একপর্যায়ে দোকান বন্ধ করে মার্কেটের সামনের সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করতে থাকেন তাঁরা।

গতকাল সোমবার বিকেলে কুষ্টিয়ার পরিমল টাওয়ার মার্কেটে এ ঘটনা ঘটে। এ ছাড়া এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে দোকান বন্ধ করা না-করা নিয়ে দুই মার্কেটের দোকানদারদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
উপজেলা প্রশাসন সূত্র জানায়, গতকাল সোমবার দুপুরে সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জুবায়ের হোসেন চৌধুরীর নেতৃত্বে কুষ্টিয়া শহরের এনএস রোড এলাকায় অভিযানে বের হন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় শহরের কয়েকটি মার্কেটে অভিযান চালিয়ে কেনা দামের চেয়ে কয়েক গুণ বেশি দামে পোশাক বিক্রির দায়ে বেশ কয়েকটি দোকানকে মোট ৭৩ হাজার টাকা জরিমানা করেন আদালত।
ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী হাকিম জুবায়ের হোসেন চৌধুরী বলেন, বেলা তিনটার দিকে তিনি ক্রেতা সেজে এনএস রোডে পরিমল টাওয়ারের এক দোকানে যান। সেখানে একটি থ্রি পিসের দাম জিজ্ঞেস করলে দোকানদার সাড়ে চার হাজার টাকা দাম চান। পরে পরিচয় দিয়ে পোশাকটির ক্রয়মূল্যের মেমো দেখতে চান তিনি। মেমোতে দেখা যায়, থ্রি পিসটির ক্রয়মূল্য দেড় হাজার টাকা। আরেক দোকানে একটি থ্রি পিসের দাম চাওয়া হয় ৫ হাজার ৩০০ টাকা। কিন্তু মেমোতে দেখা গেছে, পোশাকটির ক্রয়মূল্য ২ হাজার ২০০ টাকা।
ইউএনও বলেন, ব্যবসায়ীরা সাধারণ জনগণকে জিম্মি করে ব্যবসা করছেন। ক্রয়মূল্যের চেয়ে অতিরিক্ত দামে থিও পিস বিক্রির দায়ে বেশ কয়েকটি দোকানকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন-২০০৯ অনুযায়ী জরিমানা করা হয়।
জরিমানা কেন্দ্র করে ভ্রাম্যমাণ আদালত সেখান থেকে চলে আসার সময় পরিমল টাওয়ারের দোকানমালিকেরা উত্তেজিত হয়ে পড়েন। তাঁরা টাওয়ারের সামনে এনএস রোডে গিয়ে যান চলাচল বন্ধ করে দিয়ে প্রতিবাদ করতে থাকেন। এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালতের সঙ্গেও আগ্রাসী আচরণ করেন তাঁরা।
এদিকে দোকানপাট বন্ধের খবরে এনএস রোডের বেশির ভাগ দোকানদার দোকান বন্ধ করে সড়কে জড়ো হয়ে বিক্ষোভ করতে থাকেন। কিন্তু পরিমল টাওয়ারের সামনে অবস্থিত বঙ্গবন্ধু মার্কেটের দোকান খোলা দেখে পরিমল টাওয়ারের দোকানদারেরা বাগ্বিতÐায় জড়িয়ে পড়েন। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করে। বিক্ষোভ করা দোকানদারদের অভিযোগ, ভ্রাম্যমাণ আদালত গণহারে জরিমানা করেছেন। এ কারণে তাঁরা বিক্ষোভ করেছেন।
বিকেল চারটার দিকে ঘটনাস্থলে যান কুষ্টিয়া মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সঞ্জয় কুমার কুÐু। সেখানে তিনি বিক্ষোভরত ব্যবসায়ীদের উদ্দেশে বলেন, কারও ইচ্ছা হলে তিনি দোকান বন্ধ রাখতে পারেন। কিন্তু অন্য কাউকে দোকান বন্ধ রাখার জন্য বাধ্য করা যাবে না।

বাগেরহাটে পাঁচ সহ¯্রাধিক জেলে পরিবারের ঈদ অনিশ্চিত
বাগেরহাট প্রতিনিধি
বাগেরহাটের শরণখোলার পাঁচ সহস্রাধিক জেলে পরিবারে এবছর ‘ঈদ’ হবেনা। ইলিশের ভরা মৌসুমে সরকারের ৬৫ দিন মাছ ধারায় নিষেধাজ্ঞা ঘোষনায় এসব জেলে পরিবারে হাহাকার শুরু হয়েছে। এলাকার অন্যান্য ব্যবসা-বাণিজ্যে ও দেখা দিয়েছে মন্দাভাব। ২০মে সোমবার থেকে কার্যকর হচ্ছে মাছ ধরার সেই নিষেধাজ্ঞা। আগামী ২৩ জুলাই পর্যন্ত বলবত থাকবে এই অবরোধ।
গত ১০ মে সরকারের মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রনালয়ের মৎস্য-২ (আইন) অধিশাখা মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে। সামুদ্রিক মৎস্য সম্পদের সুরক্ষায় এ প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে।
এদিকে, ৬৫ দিন অবরোধ প্রত্যাহারের দাবিতে বাগেরহাটের শরণখোলাসহ উপকূলের হাজার হাজার জেলে বিভিন্ন আন্দোলন-সংগ্রাম ও সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়সহ প্রধানমন্ত্রী বরাবর একাধিকবার স্মারকলিপি দিয়েও কোনো ফল না পেয়ে তারা হতাশ হয়ে পড়েছেন। প্রতিবছরের ন্যায় এবার ও তারা মৌসুম শুরুর আগ থেকেই জাল-ট্রলার মেরামত করে সাগরে যাবার অপেক্ষায়। এজন্য মহাজনের কাছ থেকে লাখ লাখ টাকা আগাম দাদনসহ বিভিন্ন এনজিও থেকে ঋণগ্রহন করেছেন তারা। এছাড়া অনেকে এলাকার সুদের কারবারিদের থেকে ও চড়া সুদে টাকা এনে সাগরে যেতে না পেরে এখন দেনায় ডুবু ডুবু।
এব্যাপারে বাগেরহাট জেলা ফিশিং ট্রলার মালিক সমিতির সভাপতি ও জাতীয় মৎস্য সমিতির শরণখোলা উপজেলা শাখার সভাপতি মো. আবুল হোসেন বলেন, মৌসুমকে ঘিরে একেক জন ট্রলার মালিক খুলনা, বাগেরহাট, পাথরঘাটার মহাজন ও আড়ৎদারের কাছ থেকে ৪-৫ লাখ টাকা করে দাদন নিয়েছেন। এনজিও থেকে লোন এবং সুদেও টাকা এনেছেন অনেকে। এসব দেনা শোধ করতে অনেকে জাল-ট্রলার বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।
তিনি বলেন, বেকার হয়ে পড়া হতদরিদ্র জেলে পরিবারে এখনই হাহাকার শুরু হয়েছে। কাজ হারানো জেলেদের বিপথগামী হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে। অনেকই ঢাকা, চট্টগ্রামসহ বিভিন্ন এলাকায় কাজের সন্ধানে যাওয়ার চিন্তা করছে। এবার জেলে পরিবারে আগের মতো আর ঈদ উৎসব পালন হবেনা।
শরণখোলা উপজেলা সদর রায়েন্দা বাজারের বড় মুদি ব্যবসায়ী মো. শহিদুল ইসলাম, মো. সরোয়ার হোসেন ও গার্মেন্ট ব্যবসায়ী তাপস ভৌমিক বলেন, আমাদের এ অঞ্চলের ব্যবসা-বাণিজ্য মৎস্য নির্ভর। সাগরে মাছ না পড়লে ব্যবসায়ও মন্দা দেখা দেয়। এবছর ইলিশ মৌসুমে রমাজানের ঈদ। কিন্তু অবরোধ শুরু হওয়ায় ব্যবসসায়ীরা সবাই হতাশায় পড়েছেন।
শরণখোলা উপজেলার জ্যেষ্ঠ মৎস্য কর্মকর্তা বিনয় কুমার রায় বলেন, সরকারের নির্দেশনা যথাযথভাবে পালনে ইতোমধ্যে জেলেদের নিয়ে সভা-সমাবেশ করা হয়েছে। নিষিদ্ধ সময়ে কেউ যাতে সাগরে মাছ ধরতে না যায় সেজন্য এলাকায় মাইকিং করে সবাই সতর্ক করা হচ্ছে। তাছাড়, ফিশিং ট্রলার মালিকদের কাছে মন্ত্রনালয়ের জারিকৃত প্রজ্ঞাপনের কপি পৌঁছে দেওয়া হবে। এ ব্যাপারে বনবিভাগ ও কোস্টগার্ডের সঙ্গে সমন্বয় রয়েছে।
এ ব্যাপারে কোস্টগার্ড পশ্চিম জোন মোংলার স্টাফ অফিসার (অপারেশন) মো. ইমতিয়াজ আলম বলেন, মৎস্য অবরোধ সফল করতে টহল বৃদ্ধির পাশাপাশি আমাদের আউট স্টেশনগুলোতে লোকবলও বাড়ানো হয়েছে। রুটিনের বাইরেও বিশেষ অভিযান চলবে।

দেলুটী ইউনিয়ন পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট
পাইকগাছা প্রতিনিধি
পাইকগাছার দেলুটী ইউনিয়ন পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার সকালে ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে ইউপি চেয়ারম্যান রিপন কুমার মন্ডলের সভাপতিত্বে বাজেট সভা অনুষ্ঠানে ইউনিয়নের ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরের বাজেট ঘোষণা করা হয়। যার মোট বাজেট ১ কোটি ৮৭ লাখ ৬০ হাজার ৩৬৩, মোট ব্যয় ১ কোটি ৮৭ লাখ ৫০ হাজার ৯৭৩, বাজেটে উদ্বৃত্ব দেখানো হয় ৯ হাজার ৩৯০ টাকা। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন, উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা উত্তম কুমার কুন্ডু। বিশেষ অতিথি ছিলেন, সুকৃতি মোহন সরকার, নিরাপদ সরকার, নলিনাক্ষ্য নাথ বৈদ্য, দিলীপ কুমার রায়, সুশান্ত ঢালী, চিত্তরঞ্জন মল্লিক, কুমুদ রঞ্জন রায়, বনমালী রায়, সুব্রত রায়, নিরোদ মিস্ত্রী, ইউপি সচিব ধীমান মল্লিক, ইউপি সদস্য প্রীতিলতা ঢালী, রবীন্দ্রনাথ মন্ডল, সুকুমার কবিরাজ, আশিষ কুমার হালদার, বিশ্বজিত রায়, সীমানিন বালা, দুলালী রায়, লাবনী মন্ডল, রাধু মহলদার, রুম্পা মন্ডল, তাহিরীন বিবি, তহমিনা বেগম, সেলিম নাহিদ, শিল্পী রানী গোলদার, পম্পা মন্ডল ও কাকন মন্ডল। উন্মুক্ত বাজেট সভায় ইউনিয়নের সার্বিক উন্নয়ন বিষয়ে সকলে মতামত পেষ করেন। বিশেষ করে নারীদের জলবায়ু অভিযোজন উদ্যোগ, স্বাস্থ্য ও স্যানিটেশন এবং অন্তজ শ্রেণীর জীবন মান উন্নয়নের জন্য বাজেটে অর্ন্তভূক্ত করা হয়। সভার শুরুতে ৩নং ওয়ার্ড ইউপি সদস্য দীপক কুমার মন্ডলের অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করা হয়।

মজিদপুর ইউনিয়ন পরিষদের উন্মুক্ত বাজেট
কেশবপুর প্রতিনিধি
কেশবপুর উপজেলার মজিদপুর ইউনিয়ন পরিষদের ২০১৯-২০ অর্থ বছরের উন্মুক্ত বাজেট সোমবার সকালে পরিষদের সভাকক্ষে ঘোষণা করা হয়েছে। ইউপি সচিব আবুল হোসেনের পরিচালনায় ২০১৯-২০ অর্থবছরের উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা করেন মজিদপুর ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান। বাজেটে মোট আয় দেখানো হয়েছে ১ কোটি ৪৬ লাখ ১৮ হাজার ৭ শত টাকা। মোট ব্যায় দেখানো হয়েছে ১ কোটি ৪৫ লাখ ৪৭ হাজার ৮ শত টাকা এবং উদ্বৃত্ত তহবিল দেখানো হয়েছে ৭০ হাজার ৯ শত টাকা। আলোচনায় অংশনেন কেশবপুর উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এস আর সাঈদ, ইউনিয়ন উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা নাছির উদ্দীন, ইউপি সদস্য সাইফুর রহমান, আব্দুল আহাদ, মোহাম্মদ আলী, মনিরুজ্জামান, জাকির হোসেন প্রমুখ।

কেশবপুরে বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ ও শিক্ষা সচেতনতা বৃদ্ধিমূলক সভা
কেশবপুর প্রতিনিধি
কেশবপুরের মজিদপুর ইউনিয়ন পরিষদের সভাকক্ষে সোমবার দিনব্যাপী বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ ও শিক্ষা থেকে ঝরেপড়া রোধে সচেতনতা বৃদ্ধিমূলক এক সভা দলিত হারচয়েস প্রকল্পের বাস্তবায়নে অনুষ্ঠিত হয়েছে। মজিদপুর ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুর রহমানের সভাপতিত্বে ও হারচয়েস প্রকল্পের ইউনিয়ন ফ্যাসালিলেটর গোপীনাথের সঞ্চালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কেশবপুর উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি এস আর সাঈদ, হারচয়েস প্রকল্পের প্রকল্প ব্যবস্থাপক নাজমিন নাহার, ইউপি সচিব আবুল হোসেন, ইউপি সদস্য সাইফুর রহমান, আব্দুল আহাদ, মোহাম্মদ আলী, মনিরুজ্জামান, জাকির হোসেন, ঈমাম মাওঃ আব্দুল হামিদ, বিবাহ রেজিষ্টার রবিউল ইসলাম প্রমুখ। সভায় জনপ্রতিনিধি, ঈমাম, কাজী, পুরোহিত-সহ স্থানীয় ব্যক্তিরা অংশগ্রহণ করেন।

ঝিনাইদহের নলডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদে উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
ঝিনাইদহ সদর উপজেলার ১৭ নং নলডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদে ২০১৯-২০ অর্থবছরে ৯২ লাখ ৪৪ হাজার ৮শত ৭৩ টাকার উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। নতুন কোনো করারোপ ছাড়াই এ অর্থবছরের বাজেট ঘোষণা করা হয়। গতকাল সোমবার সকালে ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে এ উন্মুক্ত বাজেট ঘোষণাকরাহয়। নলডাঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কবির হোসেন এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ইউপি সচিব রবিউজ্জামান, ইউপি সদস্য রেবেকা খাতুন, সাগরিকা খাতুন, মিল্টন হোসেন, আঃরশিদ, আবুজাফর, আঃ রাজ্জাক, আয়ুব মন্ডল, আব্দুলমান্নান। অনুষ্ঠানে শিক্ষক, সাংবাদিক, ব্যবসায়ী, সমাজকর্মীসহ সর্বস্তরের মানুষের উপস্থিতিতে এ বাজেট ঘোষণা করা হয়।

অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত জাহিদ বাঁচার স্বপ্ন দেখে
পলাশ কর্মকার, কপিলমুনি
জাহিদ হোসাইন (৪০)। খুলনার পাইকগাছার রাড়ূলী গ্রামের মৃতঃ আমির আলী মোড়লের ছেলে। ৭ বছর বয়সে সে অজ্ঞাত রোগে আক্রান্ত হয়। যদিও ডাক্তার নাম দিয়েছে বাড টিউমার। রোগের শুরুতে তার বাম হাটুতে ব্যাথা ও কামড় অনুভব করত। কঠিন যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে ডাক্তারের কাছে গেলে তাকে অপারেশনের পরামর্শ দেন। ১৮ বছর পূর্বে ঢাকা পিজি ও ঢাকা মেডিকেল কলেজ থেকে তার হাটুতে ৪বার অপারেশন করা হয়। কয়েক বছর যেতে না যেতেই পায়ের আংগুল থেকে হাটু পর্যন্ত অস্বাভাবিক মাংস বৃদ্ধি পায়। যা অজ্ঞাত রোগে পরিণত হয়েছে।
জানাযায়, পিতা মৃতঃ আমির আলী মোড়লের রেখে যাওয়া জায়গা-জমি বিক্রি করে চিকিৎসা খরচ বহন করায় বর্তমান সে অসহায় জীবন যাপন করছে। সহায় সম্বল বলতে বর্তমানে রয়েছে মাত্র ১০ শতক জমি। ২০১২ সালের ৩এপ্রিল ঢাকা থেকে তার একমাত্র ৪ বছরের শিশু পারভেজ হারিয়ে যায়। ঐ বছরেই শিশু সন্তান হারিয়ে যাওয়ার কারণে স্ত্রী আমেনা বেগম তাকে ছেড়ে চলে যায়। বর্তমানে সে মানবেতর জীবন যাপন করছে। অসহায় জাহিদ এই পরিবেশের আরো দশজন মানুষের মত বেঁচে থাকতে চায়। অসহায় জাহিদের চিকিৎসা খরচ না থাকায় সে আর্থিক সাহায্যের জন্য সমাজের বিত্তশালীদের সহযোগিতা কামনা করেছেন। তার ডাচবাংলা মোবাইল ব্যাংক এজেন্ট হিসাব নং- ৭০১৭০১১৩৭৬১২৯৪, পার্সোনাল বিকাশ নং- ০১৭৯১-৯৯৪৬৫৮ ।

কৈয়া বাজারে পাউবো’র জমিতে পাকা ঘর নির্মাণের অভিযোগ
এস রফিক, ডুমুরিয়া
খুলনার ডুমুরিয়া উপজেলা সিমান্তবর্তী কৈয়া বাজারে প্লট ব্যবসায়ী ইউসুফ হোসেনের বিরুদ্ধে পানি উন্নয়ন বোর্ডের ২৪ শতক সরকারি জমি অবৈধভাবে দখল করে সেখানে পাকা ঘর নির্মান করার অভিযোগ উঠেছে। পানি উন্নয়ন বোর্ড নিরব থাকায় বেদখলে চলে যাচ্ছে এসব সরকারি সম্পত্তি।
সরেজমিনে গিয়ে এলাকাবাসী ও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ সুত্রে জানা যায়, কৈয়া বাজার সংলগ্ন রাজবাঁধ মৌজায় খুলনার জনৈক ইউসুফ হোসেন নামে এক প্লট ব্যবসায়ী পানি উন্নয়ন বোর্ডের ২৮/১ নং পোল্ডারের ২৪ শতক জমি অবৈধভাবে দখল করে সেখানে পাকা ঘর নির্মাণ শুরু করেছেন। প্রায় এক মাস ধরে চলছে এ কার্যক্রম। ২০১০ সালে ওই জমি আড়ংঘাটা এলাকার শেখ শহিদুল ইসলামকে একসনা বন্দোবস্ত দেয় পানি উন্নয়ন বোর্ড। এরপরে আর কোন বন্দোবস্ত দেয়া হয়নি। কিন্তু সেই জমি ইতিমধ্যে তিন বার বেচা কেনা হয়ে গেছে। সর্বশেষ ওই জমি দখল করে সেখানে পাকা ঘর নির্মান করছেন জনৈক ইউসুফ হোসেন নামে এক প্লট ব্যবসায়ী। এ বিষয় ওই প্লট ব্যবসায়ী ইউসুফ হোসেন বলেন, আমি আঃ আজিজের নিকট থেকে ২ দশমিক ৭ একর জমি ক্রয় করেছি। আঃ আজিজের জমির শিয়রে ছিলো সরকারি ওই সম্পত্তি। তিনি ভোগ করতেন, তাই আমরাও ভোগ করছি। তবে পাকা ঘর নির্মানের ব্যাপারে কেউ অনুমতি দিয়েছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন না, কেউ অনুমতি দেয়নি। আশেপাশে অনেকে পাকা ঘর করেছে তাই আমিও করেছি। এ প্রসঙ্গে পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী (এক্সেন) মোঃ শরিফুল ইসলাম বলেন, বন্দোবস্ত দেওয়া জমি হস্তান্তর যোগ্য নয়। তাছাড়া সেখানে পাকা ঘর নির্মান করতে পারবে না বলা আছে চুক্তিপত্রে। বিষয়টি দেখছি।

ঝিনাইদহে সৃজনী ফাউন্ডেশনের দোয়া ও ইফতার মাহফিল
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
রহমতের মাস রমজান। রমজানের সওয়াব ভাগাভাগি করে নিতে ঝিনাইদহ সৃজনী ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে দোয়া ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। সোমবার রমজানের ১৪ তম দিনে শহরের ডা: কে আহম্মেদ পৌর কমিউনিটি সেন্টারে এ দোয়া ও ইফতার মাহফিলের আয়োজন করা হয়। এসময় ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ঝিনাইদহ-১ আসনের সংসদ সদস্য আব্দুল হাই, ঝিনাইদহ-মাগুরা সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য খালেদা খানম, ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার মো: হাসানুজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হেডকোয়াটার্স) তারেক আল মেহেদি, ট্রাফিক ইন্সপেক্টর সালাহউদ্দিন, সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান, ওসি (তদন্ত) এমদাদুল হক, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি তৈয়ব আলী জোয়ার্দ্দার, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি জীবন কুমার বিশ্বাস, সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার মকবুল হোসেনসহ নানা শ্রেণী পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্বাবধানে ছিলেন সৃজনী বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা ও চেয়ারম্যান ড. হারুন-অর রশিদ। ইফতারের পুর্বে দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনা করে মোনাজাত করা হয়।

ঐক্য পরিষদের সদস্য লিটন হালদারের সুস্থতা কামনা
খানজাহান আলী থানা প্রতিনিধি
বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খৃস্টার্ন ঐক্য পরিষদ খানজাহান আলী থানা শাখার সদস্য আটরা খৃষ্টান পাড়ার বাবুল হালদারের পুত্র লিটন হালদার (৩৫) হৃদ রোগে আক্রান্ত হয়ে বর্তমানে খুলনা আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে । লিটন হালদারের সুস্থতায় কামনা করে বিবৃতি দিয়েছেন বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টন ঐক্য পরিষদ খানজাহান আলী থানা শাখার নেত্রীবৃন্দ। বিবৃতি দাতারা হলেন বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খৃষ্টান ঐক্য পরিষদ মহনগর প্রকাশনা সম্পাদক অনন্দ কুমার স্বও, খানজাহান আলী থানা শাখার সভাপতি কমল কৃষ্ণ পাল, সহ সভাপতি যোশেফ সিকদার ,সুভাষ পাল, সাঃ সম্পাদক মিলন মজুমদার,সাংঃ সঃ সাংবাদিক মিহির , সন্তষ পাল, সংকর পাল, জোছনা দাশ , নিরঞ্জন পাল ,পল্টু কুন্ডা, চঞ্চল পাল, দুলাল বিশ^াস, শংকর পাল, বাবু রাম পাল, রবিন দেওয়ান , যোহান বিশ^াস , প্রদ্বীপ মালাকার, সুজাত বাইন প্রমুখ ।

ফুলতলায় ফেন্সিডিলসহ মাদক বিক্রেতা আটক
ফুলতলা প্রতিনিধি
জেলা গোয়েন্দা পুলিশ রোববার দিবাগত রাতে ফুলতলার যুগ্নিপাশা এলাকা থেকে ৫বোতল ফেনসিডিলসহ মাদক বিক্রেতা শেখর চন্দ্র বিশ্বাস (২৭) নামে এক মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে। সে অভয়নগর গুয়াখোলা গ্রামের ধীরেন্দ্রনাথ বিশ্বাসের পুত্র। এ ব্যাপারে এসআই মুক্তরায় চৌধুরী পিপিএম বাদি হয়ে ফুলতলা থানায় মামলা (নং-১৩) দায়ের করেনে।

কপিলমুনিতে সম্পত্তি জবর দখলের ষড়যন্ত্র ও হুমকির প্রতিবাদ
কপিলমুনি প্রতিনিধি
আধুনিক কপিলমুনির রুপকার রায় সাহেব বিনোদ বিহারী সাধুর বংশধর শান্তনু সাধু, রায় সাহেব বিনোদ বহিারী সাধুর দানকৃত রেখে যাওয়া জমি দখল ও তাদের পরিবারকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভাবে হুমকির প্রতিবাদ করে সোমবার বেলা ১১ টায় কপিলমুনি সিটি প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেন।
সংবাদ সম্মেলনে আয়োজক শান্তনু সাধু লিখিত বক্তব্যে বলেন, “বিনোদ বিহরী সাধুর প্রতিষ্ঠিত সহচরী বিদ্যামন্দিরের নাইট গার্ড মোঃ এনায়েত আলীর স্ত্রী মালঞ্চ বিবি বিগত ২০১৮ সালের মার্চ মাসে কথিত ডিসিআর উছিলায় আমাদের বাড়ীর আঙ্গীনার পশ্চিম সীমানায় বেড়া অপসারণ পূর্বক অবৈধ প্রবেশ করে বাঁশ, চটা ও পাতা দিয়ে একটি ছোট ঘর নির্মান করেন, এবং আধা ঘন্টার মধ্যে সেটি নিজেই ভেঙ্গে নিয়ে চলে যায়। অতঃপর কেঁদে কেঁদে প্রচার করে আমাকে ফজরের নামাজ আদায়রত অবস্থায় অনুপম সাধু গং মারধর করেছে। এবং আমার বাড়ী ঘর ভেঙ্গে নদীতে ফেলে দিয়েছে।”
তিনি আরো বলেন, “মালঞ্চ বিবি আমাদের পরিবারের সদস্য, আত্বীয়, প্রতিবেশী সহ মোট ৭জনের নামে মিথ্যা মামলা দায়ের করেন। বিষয়টি নিয়ে প্রশাসনের স্মরনাপন্ন হলে শুনানী শেষে আমাদের বাড়ীর সম্পত্তি যার খতিয়ান নং ১৯৩ (এস,এ) সেখানে ১৪৪ ধারা বলবৎ করে প্রশাসনিক আদেশ জারি করেন । এবং বিবাদমান ঘটনাবলী পাইকগাছা বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ও নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ে বিচারাধীন রয়েছে। কিন্তু অত্যন্ত অনুতাপের বিষয় উক্ত মালঞ্চ বিবি ও তার সহযোগী ষড়যন্ত্রকারীরা বিগত ১৪ মে ২০১৯ সকাল ১০টায় কপিলমুনি ভূমি অফিসের তহশীলদার জাকির হোসেনের হুকুমে কতিপয় দূর্বৃত্ত আমাদের বাড়ীর পশ্চিম সীমানায় তারের বেড়া, পাঁকা পিলার ভেঙ্গে ১৯৩ এস,এ খতিয়ানের মধ্যে প্রবেশ করে বনজ ও ফলজ গাছপালা কেটে ফেলে। এবং আমাদের পরিবারের মহিলা সদস্যসহ অনেককে মারধর করে। বিষয়টি তাৎক্ষনিক পাইকগাছা-কয়রার সংসদ সদস্য মোঃ আকতারুজ্জামান বাবুর হস্তক্ষেপে সম্পত্তি জবর দখলে করতে পারে নি।”
সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে শান্তনু বলেন, “রায় সাহেবের বংশধর হিসেবে আমাদের দাবী মালঞ্চ বিবির যে কথিত ডিসিআর সেটা ৫৯৫ নং এস,এ খতিয়ানে অন্তর্ভুক্ত, শুধুমাত্র ষড়যন্ত্রকারীদের স্বার্থ হাসিলের জন্য আমাদের এস এ ৫৯৩ খতিয়ানে জমি দখল করার চেষ্টায় লিপ্ত আছে।”

থ্যালাসেমিয়া রোগে আক্রান্ত শিশু নয়নকে বাচাতে সাহায্যের আবেদন
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
থ্যালাসেমিয়া রোগে আক্রান্ত সাত বছরের নয়নের মা তাকে ফেলে চলে গেছে। পিতা পিকুল হোসেন নতুন বিয়ে করে সংসার করছেন। শিশু নয়ন এখন দাদি রেবেকা খাতুনের কাছে অনেকটা বোঝা হিসেবে চেপেছে। ব্যায়বহুল এই রোগের চিকিৎসা করানোর মতো কোন অর্থ নেই রেবেকা ও তার স্বামীর। প্রতি ১৫ দিন পর পর নয়নের শরীরে রক্ত দিতে হয়। তাও দিতে পারে না। নয়নের পেটটা অস্বাভাবিক ভাবে ফুলে গেছে। নিঃশ্বাস নিতে তার কষ্ট হয়। ফ্যাল ফ্যাল করে তাকিয়ে থাকে নয়ন। সেই চাহনিতে কেবলই যেন বাঁচার আকুতি। শিশু নয়নকে সঙ্গে নিয়ে দাদি রেবেকা খাতুন সোমবার ঝিনাইদহ সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার শাম্মি ইসলামের দপ্তরে এসেছিলেন। যদি কিছু সাহায্য মেলে তবে নয়নের শরীরে রক্ত দিবেন। চিকিৎসকরা বলেছেন ঢাকার শিশু হাসপাতালে নিয়ে নয়নকে অপারেশন করাতে। অপারেশন করালেই নাকি সে ভাল হবে। কিন্তু কোন সামর্থ নেই পরিবারটির। নয়নের বাড়ি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার গান্না ইউনিয়নের কালুহাটি গ্রামে। দাদি রেবেকা খাতুন জানান, তারা কোন আর্থিক সহায়তা চান না। কেও নয়নের একটা অপারেশনের ব্যাবস্থা করলেই তারা যেমন বাঁচতে পারেন, তেমনি বাঁচতে পারে অসহায় নয়ন। বিষয়টি নিয়ে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালের শিশু রোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, নয়ন থ্যালাসেমিয়া রোগে আক্রান্ত। তার শরীরে এটা অপারেশন দরকার। এটা ঢাকার শিশু হাসপাতালে হবে। নয়নের পরিবারের সাথে যোগাযোগ পিতা পিকুল হোসেন ০১৭৪২৮৩৭৯২৯ ও দাদি রেবেকা খাতুন ০১৭৩৫-৭৮৮০৬৩।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here