রংপুরকে হারিয়ে ফাইনালে কুমিল্লা

0
39

ক্রীড়া প্রতিবেদক
পয়েন্ট তালিকার সেরা দুইয়ের মধ্যে থাকায় দুটি সুযোগ পাবে। তবে অপেক্ষা করতে চাইল না রাউন্ড রবিন লিগ শেষে তালিকার দুই নাম্বারে থাকা কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। বরং এক নাম্বারে থাকা রংপুর রাইডার্সকে হেসেখেলে হারিয়ে বিপিএলের ফাইনালে চলে গেল ইমরুল কায়েসের দল। মিরপুরে শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মাশরাফি বিন মর্তুজার রংপুরকে ৮ উইকেট আর ৭ বল হাতে রেখে হারিয়েছে তারা। এই ম্যাচ হারলেও অবশ্য আরেকটি সুযোগ পাবে রংপুর রাইডার্স। এলিমিনেটর জেতা ঢাকা ডায়নামাইটসের বিপক্ষে তারা দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার খেলতে নামবে ৬ ফেব্রæয়ারি।
কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের সামনে লক্ষ্য ছিল ১৬৫ রানের। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে লক্ষ্যটাকে একেবারে ছোট বলা যাবে না। কিন্তু কুমিল্লা খেলল একেবারে দেখেশুনে, মাথা গরম না করে। আলাদা করে বলতে হয় এভিন লুইসের কথা। ওয়েস্ট ইন্ডিজের মারকুটে এই ওপেনার এদিন দারুণ দায়িত্বশীল ব্যাটিং করেছেন। ধরে ধরে খেলে শেষ পর্যন্ত ৫৩ বলে ৭১ রানে অপরাজিত থাকেন লুইস, যে ইনিংসে ৫টি বাউন্ডারি সঙ্গে ছিল ৩টি ছক্কার মার। কুমিল­ার এই সহজ জয়ে অবশ্য অবদান ছিল এনামুল হক বিজয় আর শেষদিকে নামা শামসুর রহমান শুভরও। বিজয় ৩২ বলে করেন ৩৯ আর শুভ মাত্র ১৫ বলে ৪ বাউন্ডারি আর ২ ছক্কায় করেন অপরাজিত ৩৪।
এর আগে টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং বেছে নেয় রংপুর রাইডার্স। একটা সময় বিপদেই পড়েছিল তারা। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ৫ উইকেটে ১৬৫ রানের চ্যালেঞ্জিং পুঁজিই গড়ে মাশরাফি বিন মর্তুজার দল। শুরুতে ক্রিস গেইল, পরের দিকে রাইলি রুশো আর বেনি হাওয়েল। তিন বিদেশি ব্যাটসম্যানের কাঁধে চড়ে বিপদ কাটিয়েছে রংপুর। অথচ একটা সময় ৭৬ রান তুলতেই তারা হারিয়ে বসেছিল ৪ উইকেট। গেইল রান পাচ্ছেন না। তার বিধ্বংসী চেহারা এবারের বিপিএলে এখন পর্যন্ত দেখা যায়নি। ফাইনালে উঠার ম্যাচে সেজন্যই বোধ হয় নিজেকে আরও একটু খোলসে ঢুকিয়ে ফেললেন ক্যারিবীয় ব্যাটিং দানব। শুরু করলেন দেখে শুনে। মারবেনই বা কি করে? অপরপ্রান্তে যে ব্যাটসম্যানরা সঙ্গ দিতে পারছিলেন না। ওপেনিংয়ে নেমে মেহেদী মারুফ ১ রান করেই সাজঘরে। মোহাম্মদ মিঠুন রানআউট ৩ রানে। দলের বিপদে গেইল হয়ে গেলেন হাল ধরার মানুষ। সেই ভয়ানক ব্যাটিং নয়। একটু একটু করে এগোচ্ছিলেন ক্যারিবীয় ওপেনার। যখন হাত খুলে খেলতে যাবেন, ঠিক তখনই আউট হয়ে গেলেন। মেহেদী হাসানকে তুলে মারতে গিয়ে বাউন্ডারির ঠিক কাছে থিসারা পেরেরার ক্যাচ হয়ে ফেরেন গেইল। ৪৬ রানের ইনিংসটায় বল খেলেছেন ৪৪টি, গেইলের মানের সঙ্গে হয়তো যায় না। তবে ৬ বাউন্ডারি আর ১ ছক্কায় গড়া ওই ইনিংসটিই বিপিএলে চলতি আসরে তার সর্বোচ্চ। গেইল ফেরার পর দায়িত্ব কাঁধে তুলে নেন টুর্নামেন্টজুড়েই দারুণ ধারাবাহিক রাইলি রুশো। পঞ্চম উইকেটে বেনি হাওয়েলকে নিয়ে গড়েন ৭০ রানের জুটি, যে জুটিতেই আসলে ঘুরে দাঁড়ায় রংপুর।
শেষ পর্যন্ত ৩১ বলে ৪ বাউন্ডারি আর ২ ছক্কায় ৪৪ রান করে মোহাম্মদ সাউফউদ্দিনের শিকার হন রুশো, ইনিংসের তখন মাত্র ৭ বল বাকি। তবে বেনি হাওয়েল তুলে নেন বিধ্বংসী এক হাফসেঞ্চুরি। ২৮ বলে ৩ চার আর ৫ ছক্কায় তিনি অপরাজিত থাকেন ৫৩ রানে।

চিটাগংকে হারিয়ে আশা বাঁচিয়ে রাখলো ঢাকা
ক্রীড়া প্রতিবেদক
টস জিতে চিটাগংয়ের স্কোরটা শেষ পর্যন্ত চ্যালেঞ্জিং হয়েছে মোসাদ্দেক হোসেনের ব্যাটে। সর্বোচ্চ ৩৫ বলে ৪০ রান করেন। শুরুতে ইয়াসির আলী ফিরলে ওপেনার ডেলপোর্ট ঝড়ো গতিতে ব্যাট চালিয়ে সমৃদ্ধ স্কোরবোর্ডের সম্ভাবনা তৈরি করেছিলেন।
২৭ বলে ৩৬ রান করে ফেলা ডেলপোর্ট রান আউটে বিদায় নিলে পরের কেউ আর ঝড় তুলতে পারেননি। সুনিল নারিনের স্পিনে দ্রæত উইকেট পড়তে থাকে চিটাগংয়ের। ডেলপোর্টের পর ১৯ বলে ২৪ রান করা সাদমানকেও ফেরান নারিন। মুশফিককে ৮ রানে বোল্ড করেন ক্যারিবীয় এই স্পিনার। বাকিরা নিয়মিত বিরতিতে সাজঘরে ফিরলে মোসাদ্দেক একা লড়াই চালিয়ে যান। শেষ ওভারে মোসাদ্দেক বিদায় নিলে ৮ উইকেটে ১৩৫ রান জমা হয় চিটাগংয়ের স্কোরবোর্ডে। ঢাকার পক্ষে ১৫ রানে ৪ উইকেট নেন সুনিল নারিন। ম্যাচসেরাও হন তিনি।
জবাবে ওপেনার উপুল থারাঙ্গা ও সুনিল নারিনের ঝড়ো সূচনায় জয়ের ভিত গড়ে ঢাকা। বল হাতে প্রতিপক্ষকে ভোগানোর পর ব্যাট হাতেও দুরন্ত ছিলেন নারিন। ১৬ বলে ৬ চার ও ১ ছয়ে ৩১ রান করে ফেরেন তিনি। অধিনায়ক সাকিব অবশ্য ফিরেছেন শূন্য রানে। তবে অপরপ্রান্তে রয়ে সয়ে খেলেছেন ওপেনার থারাঙ্গা। ৪৩ বলে ৫১ রানে ফেরেন দলকে জয়ের কাছে পৌঁছে। মাঝে রনি তালুকদার ২০ রানের কার্যকরী ইনিংস খেলে বিদায় নিলে শেষ দিকে নুরুল হাসানের ধীর গতির অপরাজিত ২০ আর কিয়েরন পোলার্ডের অপরাজিত ৭ রানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ঢাকা। তারা ১৬.৪ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে জয় নিশ্চিত করে।

বাল্লোর জোড়া গোলে জয়ে ফিরল মুক্তিযোদ্ধা
ক্রীড়া প্রতিবেদক
গোপালগঞ্জের পর এবার নোয়াখালী মাতালো মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র। গতকাল সোমবার নোয়াখালীর শহীদ ভুলু স্টেডিয়ামে প্রিমিয়ার ফুটবল লিগে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে তারা ২-০ গোলে হারিয়েছে স্বাগতিক নোফেল স্পোর্টিং ক্লাবকে। এতে চার ম্যাচে দ্বিতীয় জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে উঠলো টেবিলের ষষ্ঠ স্থানে। মুক্তিযোদ্ধাকে প্রথম জয় উপহার দিয়েছিলেন আইভরি কোস্টের ফরোয়ার্ড বাল্লো ফামোসা। গোপালগঞ্জে তার হ্যাটট্রিকে শেখ জামালকে ৩-০ ব্যবধানে হারিয়েছিল আবদুল কাইয়ুম সেন্টুর দল। দিদিয়ের দ্রগবার দেশের এ ফুটবলার এবার জোড়া গোল করেছেন নোয়াখালীতে। চার রাউন্ড শেষে ৫ গোল নিয়ে গোলদাতাদের শীর্ষে উঠে এলেন বালেলা।
ম্যাচের তৃতীয় মিনিটেই মুক্তিযোদ্ধাকে এগিয়ে দেন বাল্লো। বাম প্রান্ত থেকে ইউসুকো কাতোর ফ্রি কিক থেকে হেডে গোল করেন বাল্লো। স্বাগতিকরা ম্যাচে ফেরার সুযোগ পেয়েছিলেন পিছিয়ে পড়ার ৫ মিনিটের মধ্যেই। কিন্তু আকবর হোসেন রিদনের হেড মুক্তিযোদ্ধার গোলরক্ষক হিমেল লুফে নিলে গোলবঞ্চিত হয় স্বাগতিকরা। ৬০ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে অতিথি দলটি। এবারও গোল সেই বালে­ার। বাম দিক দিয়ে ঢুকে ইউসুকো কাতো ক্যাটব্যাক করলে শট নেন মুক্তিযোদ্ধার মিডফিল্ডার মোহাম্মদ সোহেল। পোস্টের সামনে দাঁড়ানো বালে­া ফামোসা ডান পায়ের আলতো টোকায় বল জালে পাঠিয়ে দেন গোলরকক্ষকের মাথার উপর দিয়ে। শেষ মিনিটে ব্যবধান কমানোর সুযোগ পেয়েও কাজে লাগাতে পারেনি নোফেল। দুর্ভাগ্য স্বাগতিকদের, মাসুদ মৃধার ফ্রি কিক থেকে এলিটা বেনজামিনের হেড ফিরে আসে পোস্টে লেগে।
নোফেল স্পোর্টিং ক্লাবের এটি তিন ম্যাচে তৃতীয় হার। ফলে বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ রানার্সআপ হয়ে প্রিমিয়ারে ওঠা দলটি এখনো পয়েন্টের খাতা খুলতে পারেনি।

শেখ রাসেলের টানা তৃতীয় জয়
ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রিমিয়ার লিগের চলতি মৌসুমে থামানোই যাচ্ছে না শেখ রাসেল ক্রীড়াচক্রকে। তিন ম্যাচ মাঠে নেমে তিনটিতেই জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে সাইফুল বারী টিটুর শিষ্যরা। চতুর্থ রাউন্ডের ম্যাচে গতকাল সোমবার মোহামেডানের বিরুদ্ধেও ৩-০ গোলের বড় জয় পেয়েছে আশরাফুল ইসলাম রানারা।
সিলেট জেলা স্টেডিয়ামের প্রতিদ্ব›িদ্বতাপূর্ণ ম্যাচে মোহামেডানকে দাঁড়াতেই দেয়নি শেখ রাসেল। প্রথমার্ধে দুই বার এবং দ্বিতীয়ার্ধে একবার করে মোহামেডানের জালে মোট তিনবার বল জড়িয়েছে। ম্যাচের আট মিনিটেই রাফায়েলের গোলে এগিয়ে যায় টিটুর দল। প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার তিন মিনিট আগে ৪২ মিনিটে ব্যবধান বাড়ান ডুকাকু আলিসন। ২-০ গোল নিয়ে বিরতিতে যায় দুদল। বিরতি থেকে ফিরে মোহামেডান গোল শোধের জন্য মরিয়া হয়ে উঠলেও কাঙ্ক্ষিত জাল পায়নি। বরং ডিফেন্স আলগা হওয়ায় ৮৬ মিনিটে আরও একটি গোল খেয়ে বসে। এবার মোহামেডানের জালে বল পাঠান উজবেকিস্তানের আলিশের আজিজভ।

প্রাইম ব্যাংক ইয়ং টাইগার্স জাতীয় স্কুল ক্রিকেট
ফাইনালে কাল জিলা স্কুল ও গাজী মেমোরিয়াল মুখোমুখি
ক্রীড়া প্রতিবেদক
প্রাইম ব্যাংক ইয়ং টাইগার্স জাতীয় স্কুল ক্রিকেট প্রতিযোগিতার ফাইনালে কাল বুধবার মুখোমুখি হবে খুলনা জিলা স্কুল ও গাজী মেমোরিয়াল মাধ্যমিক বিদ্যালয়। খুলনা সার্কিট হাউজ মাঠে ম্যাচটি শুরু হবে সকাল ৯টায়।
গতকাল সোমবার সকাল ৯টায় খুলনা সার্কিট হাউজ মাঠে প্রথম সেমিফাইনালে মুখোমুখি হয় খুলনা জিলা স্কুল ও সরকারি মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়। টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে সরকারি মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয় ৩৭দশমিক ২ওভারে মাত্র ৯৩রানে অলআউট হয়। ৯৪ রানের জয়ের লক্ষে খেলতে নেমে মাত্র ২৭দশমিক ১ওভারে ৯উইকেট হারিয়ে জয়ের লক্ষে পৌছে যায় খুলনা জিলা স্কুল।
একই সময়ে খালিশপুর প্রভাতী স্কুল মাঠে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে মুখোমুখি হয় সেনহাটী সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও গাজী মেমোরিয়াল মাধ্যমিক বিদ্যালয়। টসে জিতে সেনহাটী সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ব্যাট করতে নেমে ৩৩দশমিক ৪ওভারে ১০৬ রান করে। জবাবে ১৭দশমিক ২ওভারে ৪উইকেট হারিয়ে জয়ের লক্ষে পৌছে যায় গাজী মেমোরিয়াল মাধ্যমিক বিদ্যালয়।

জেলা ক্রীড়া সংস্থার ভলিবল লীগ কমিটির সভা
ক্রীড়া প্রতিবেদক
খুলনা জেলা ক্রীড়া সংস্থার ভলিবল লীগ পরিচালনা কমিটির সভা রবিবার সংস্থার সভা কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় ভলিবল লীগ সম্ভাব্য আগামী ২৫ফেব্রæয়ারী থেকে শুরু করার সিদ্ধান্ত হয়েছে।
সভায় উপস্থিত ছিলেন খুলনা জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক কাজী শামীম আহসান, অতিরিক্ত সাধারণ সম্পাদক ও ভলিবল লীগ কমিটির চেয়ারম্যান হাজ্বী মো. মোতালেব মিয়া, যুগ্ম সম্পাদক জি এম রেজাউল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ হাসান জহীর মুকুল, কার্যনির্বাহী সদস্য মোল্লা খায়রুল ইসলাম, নাজমুস সাদাত সুমন, এসএম ইনামুল কবির মন্নু, পারভীন রহমান, সাবেক সদস্য মো. বেলাল হোসেনসহ অংশগ্রহনকারী ক্লাবের প্রতিনিধিবৃন্দ।

রাগবির ফাইনালে রংপুর ও ঠাকুরগাঁও
ক্রীড়া প্রতিবেদক
বাংলাদেশ রাগবি ফেডারেশনের ব্যবস্থাপনায় রবিবার থেকে শুরু হয়েছে ‘ওয়ালটন তৃতীয় জাতীয় মহিলা রাগবি প্রতিযোগিতা-২০১৯।’ গতকাল সোমবার হয়েছে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে দুটি সেমিফাইনাল অনুষ্ঠিত হয়। প্রথম সেমিফাইনালে রংপুর জেলা ১২-০ ব্যবধানে নারায়ণগঞ্জ জেলাকে হারিয়ে ফাইনালে উঠেছে। দ্বিতীয় সেমিফাইনালে ঠাকুরগাঁও জেলা ১০-০ ব্যবধানে কিশোরগঞ্জ জেলাকে হারিয়ে ফাইনালে নাম লেখায়। সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নেওয়া দুই দল নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচ। সেখানে কিশোরগঞ্জ জেলা ১০-০ ব্যবধানে নারায়ণগঞ্জকে হারিয়ে তৃতীয় হয়। নারায়ণগঞ্জ হয় চতুর্থ। আজ মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টায় রাজধানীর সুলতানা কামাল মহিলা ক্রীড়া কমপ্লেক্সে ফাইনালে মুখোমুখি হবে রংপুর ও ঠাকুরগাঁও জেলা।

নিষিদ্ধ ক্যারিবীয় অধিনায়ক জেসন হোল্ডার
ক্রীড়া প্রতিবেদক
মাত্রই দলকে সিরিজ জিতিয়েছেন। সেটাও আবার শক্তিশালী ইংল্যান্ডের বিপক্ষে এক টেস্ট হাতে রেখে। তবে যেই টেস্টটা বাকি রয়েছে, সেটিতে আর খেলা হচ্ছে না ওয়েস্ট ইন্ডিজের অধিনায়ক জেসন হোল্ডারের। তাকে যে এক টেস্টের জন্য নিষিদ্ধ করেছে আইসিসি।
অ্যান্টিগায় সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টটা তিন দিনের মধ্যে জিতে নিলেও ¯েøা ওভার রেটের দায়ে অভিযুক্ত হয়েছেন জেসন হোল্ডার। ফলে সেন্ট লুসিয়ায় সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টেস্টটি খেলতে পারবেন না ক্যারিবীয় অধিনায়ক। হোল্ডারের অনুপস্থিতিতে দলকে নেতৃত্ব দেবেন সহ-অধিনায়ক ক্রেইগ ব্রেথওয়েট। গত বছর বাংলাদেশের বিপক্ষে দুই টেস্টের সিরিজে চোটের কারণে হোল্ডার দলে না থাকায় তিনিই ওয়েস্ট ইন্ডিজকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন।

৮১ বছর পুরনো রেকর্ডে লঙ্কান ব্যাটসম্যান
ক্রীড়া প্রতিবেদক
শ্রীলঙ্কার প্রথম শ্রেণির ঘরোয়া ক্রিকেট টুর্নামেন্ট শ্রীলঙ্কান প্রিমিয়ার লিগ ক্রিকেটে দুর্লভ এক কীর্তি গড়েছেন ২৮ বছর বয়সী অলরাউন্ডার অ্যাঞ্জেলো পেরেরা। নন্দেসক্রিপটস ক্রিকেট ক্লাবের (এনসিসি) হয়ে এক ম্যাচে হাঁকিয়েছেন ২টি ডাবল সেঞ্চুরি।
দীর্ঘ প্রায় দেড় শতকের ক্রিকেট ইতিহাসে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে এক ম্যাচে জোড়া ডাবল সেঞ্চুরির মাত্র দ্বিতীয় ঘটনা এটি। আজ থেকে প্রায় ৮১ বছর আগে ১৯৩৮ সালে কেন্টের হয়ে একই ম্যাচের দুই ইনিংসে ২৪৪ ও ২০২* রানের ইনিংস খেলেছিলেন আর্থুর ফ্যাগ। রবিবার ৮১ বছর আগের এ রেকর্ডেই নিজের নাম তুলেছেন স্পিনিং অলরাউন্ডার অ্যাঞ্জেলো পেরেরা। সিংহলিজ স্পোর্টস ক্লাবের (এসএসসি) বিপক্ষে চার দিনের ম্যাচের প্রথম ইনিংসে ২০৩ বলে ২০১ রান করেন এনসিসি অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো পেরেরা। প্রথম ইনিংসে কেবল অধিনায়ক পেরেরা একাই সেঞ্চুরি হাঁকালেও দ্বিতীয় ইনিংসে আসে মোট ৩টি সেঞ্চুরি। পাথুম নিসাঙ্কার ১৬৫ এবং চতুরঙ্গা ডি সিলভার ১০৩ ছাড়াও পেরেরার ব্যাট থেকে আসে ২৬৮ বলে ২৩১ রানের ইনিংস, হয়ে যায় ৮১ বছর আগের পুরনো রেকর্ডের পুনর্মঞ্চায়ন। এনসিসি ৬ উইকেটে ৫৭৯ রান করলে ড্র হয়ে যায় ম্যাচটি।

আগুয়েরোর হ্যাটট্রিকে ম্যান সিটির জয়
ক্রীড়া প্রতিবেদক
আর্জেন্টাইন তারকা ফুটবলার সার্জিও আগুয়েরোর হ্যাটট্রিকে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে শক্তিশালী আর্সেনালকে ৩-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে ম্যানচেস্টার সিটি। এর আগের ম্যাচে নিউক্যাসল ইউনাইটেডের কাছে হেরে খানিক বেসামাল হয়ে পড়েছিল সিটিজেনরা।
আগুয়েরোর দুর্দান্ত পারফরম্যান্সে এক ম্যাচের ব্যবধানেই ঘুরে দাঁড়াল তারা। আর্সেনালের হয়ে এক গোল শোধ করেন লরেন্ত কোশিয়েনি। ম্যান সিটির ঘরের মাঠ ইতিহাদ স্টেডিয়ামে ১১ মিনিটের মাথায়ই একটি করে গোল পেয়ে যায় দুই দল। ম্যাচের ২৪ সেকেন্ডের মাথায় প্রথম গোলটি করেন আগুয়েরো। ১১তম মিনিটেই সেটি শোধ করে দেন কোশিয়েনি। তবে আবারও লিড নিতে খুব বেশি সময় নেননি আগুয়েরো। প্রথমার্ধের শেষদিকে ৪৪তম মিনিটে দলকে আবারও এগিয়ে দেন এ ফরোয়ার্ড। পরে দ্বিতীয়ার্ধে ম্যাচের ৬১তম মিনিটে নিজের হ্যাটট্রিক পূরণ করেন আগুয়েরো।

স্টার্কের বিধ্বংসী বোলিংয়ে হোয়াইটওয়াশ শ্রীলঙ্কা
ক্রীড়া প্রতিবেদক
চতুর্থ দিনে এমন অসম্ভব লক্ষ্য তাড়া করতে হলে অতিমানবীয় কিছু করতে হতো শ্রীলঙ্কাকে। কিন্তু ক্যানবেরার অভিষেক এই টেস্টে নিজেদের অতীত ইতিহাসই ফিরিয়ে এনেছে শ্রীলঙ্কা। তৃতীয়বারের মতো চতুর্থ ইনিংসে ২০০ রানের ধারেও যেতে পারেনি তারা। কোনও ব্যাটসম্যান দেখা পাননি ফিফটির।
উল্লেখযোগ্য ইনিংস বলতে কুশল মেন্ডিসের ৪২, থিরিমান্নের ৩০। বাউন্সারে রিটায়ার্ড হওয়ায় কুশল পেরেরা শূন্য রানে বিদায় নিয়েছেন এই ইনিংসে। স্টার্কের ৫ উইকেট শিকারে ৫১ ওভার স্থায়ী হয়েছে লঙ্কানদের দ্বিতীয় ইনিংস। চা পানের বিরতির আগে তারা অলআউট হয়েছে ১৪৯ রানে। ৪৬ রানে ৫ উইকেট নিয়েছেন মিচেল স্টার্ক, ১৫ রানে তিন উইকেট নেন প্যাট কামিন্স। দুই ইনিংসে ১০ উইকেট নেওয়া স্টার্ক হয়েছেন ম্যাচসেরা। সিরিজসেরা মোট ১৪ উইকেট নেওয়া প্যাট কামিন্স।

আলাভেসকে হারিয়ে রিয়ালের প্রতিশোধ
ক্রীড়া প্রতিবেদক
হঠাৎ হোঁচট খাওয়ার পর টানা জয়ের ধারাতেই আছে স্প্যানিশ জায়ান্টরা। টানা চতুর্থ জয়ের ফলে ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়নরা এখন শীর্ষে থাকা বার্সেলোনার সঙ্গে পয়েন্ট ব্যবধান কমিয়েছে আটে।
সান্তিয়াগো সোলারির শিষ্যদের জয়ের দিনে গোলের শুরুটা করেছিলেন কারিম বেনজিমা। ৩০ মিনিটে স্প্যানিশ লেফট ব্যাক সের্হিয়ো রেগুইলোনের কাছ থেকে পাওয়া ক্রসে জালে বল পাঠান ফরাসি স্ট্রাইকার। প্রথমার্ধে এগিয়ে গেলেও রিয়ালের জয় সুনিশ্চিত হয় দ্বিতীয়ার্ধের শেষের দিকে। পরের অর্ধে দুই গোল পেতে বেশ সময় নেয় লস বøাঙ্কোসরা। ৮০ মিনিটে ব্রাজিলিয়ান ভিনিসিয়াস জুনিয়রের গোলে ব্যবধান হয় ২-০। ব্রাজিলিয়ান এই তারকার লা লিগায় এটাই প্রথম গোল। স্প্যানিশ তারকা আলভারো ওদরিজোলার একটি গোল অফসাইডে বাতিল হলে ইনজুরি সময়ে বদলি খেলোয়াড় মারিয়ানো দিয়াজের ডাইভিং হেডে ৩-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে রিয়াল মাদ্রিদ।

নাটকীয় হারে সিরিজ খোয়ালো পাকিস্তান
ক্রীড়া প্রতিবেদক
তীরে এসে তরী ডুবানোর ঘটনা নতুন নয় পাকিস্তানের। এবার দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টিতেও এমন এক ঘটনার সাক্ষী হল দলটি। রোমাঞ্চকর ম্যাচে প্রোটিয়াদের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ হাতছাড়া করেছে পাকিস্তান।
টস হেরে আগে ব্যাট করতে নেমে ডেভিড মিলারের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে ৩ উইকেটে ১৮৮ করে দক্ষিণ আফ্রিকা। জবাবে দুর্দান্ত শুরুর পরও ৭ উইকেটে ১৮১ রানে থেমে যায় পাকিস্তানের দৌড়। এ ম্যাচে ৭ রানে হারের মধ্য দিয়ে তিন ম্যাচের সিরিজ ২-০ ব্যবধানে হেরেছে শোয়েব মালিকের দল।

পিএসজিকে প্রথম হারের স্বাদ দিল লিওঁ
ক্রীড়া প্রতিবেদক
রবিবার প্রতিপক্ষের মাঠে ২-১ গোলে হারে পিএসজি। ম্যাচের সপ্তম মিনিটের সুযোগ কাজে লাগিয়ে এগিয়ে যায় বর্তমান চ্যাম্পিয়ন পিএসজি।
৩৩তম মিনিটে সতীর্থের বাড়ানো ক্রসে হেডে লিওঁকে সমতায় ফেরান মুসা দেম্বেলে। লাফিয়ে উঠলেও বল ফেরাতে পারেননি পিএসজি গোললক্ষক আলফুঁস আরিওলা। প্রথমার্ধের শেষ দিকে দি মারিয়ার শট গোলরক্ষককে ফাঁকি দিলেও গোল লাইন থেকে ফিরিয়ে পিএসজিকে গোলবঞ্চিত করেন বেলজিয়ামের ডিফেন্ডার জেসন দেনেইয়ার। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই সফল স্পট কিকে লিওঁকে এগিয়ে নেন নাবিল ফেকির। ডি-বক্সের মধ্যে দেম্বেলেকে পিএসজির ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডার চিয়াগো সিলভা ফাউল করলে পেনাল্টির বাঁশি বাজিয়েছিলেন রেফারি। পিছিয়ে পড়ার পর আর ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি পিএসজি।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here