সকল আঞ্চলিক সংবাদ

0
19

মোল্লাহাটে রবি মৌসুমে ফসল উৎপাদন বৃদ্ধিতে বিনামূল্যে বীজ ও সার বিতরণ
মোল্লাহাট প্রতিনিধি
মোল্লাহাটে আসন্ন রবি মৌসুমে উৎপাদ বৃদ্ধির লক্ষে ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিভিন্ন ফসলের বীজ ও সার বিনামূল্যে বিতরণ করা হয়েছে। উপজেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের আয়োজনে গতকাল বুধবার সকাল ১১টায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে এ বীজ ও সার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোহাম্মদ সাঈদ মোমেন মজুমদারের সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের জেলা প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা দীপক কুমার রায়। এতে বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ আবুল হাসান, কৃষি সম্প্রসারণ অফিসার কপিল বিশ্বাস ও নুসরত জাহান, ইউপি চেয়ারম্যান মুন্সি তানজিল হোসেন ও প্রেসকাব মোল্লাহাটের সাধারণ সম্পাদক এম এম মফিজুর রহমান প্রমূখ।
উল্লেখ্য, এ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে উপজেলার মোট ৮৬৫ জন ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বোরো, ভুট্রা, সরিষা, খেষারি, বিটি বেগুন, গ্রীষ্মকালীন মুগ ও সার বিতরণ করা হয়।

বেতাগায় এজেন্ট ব্যাংকিং শাখার উদ্বোধন
ফকিরহাট প্রতিনিধি
বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার বেতাগায় ডাচ্-বাংলা ব্যাংক এর এজেন্ট ব্যাংকিং শাখার শুভ উদ্বোধন গতকাল বুধবার সকাল ১০টায় গাবতলা জয়বাংলা মোড়স্থ ভবনে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা আ.লীগের সভাপতি ও বেতাগা ইউপি চেয়ারম্যান স্বপন দাশ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন শিক্ষক ঠাকুর দাশ। ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের ফকিরহাট পরিচালক এস.এম মহসিন এর পরিচারনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন শুভদিয়া ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ শহিদুল ইসলাম, ইউনিয়ন আঃলীগের সভাপতি দুলাল চন্দ্র দাশ, সাধারন সম্পাদক মোঃ ইউনুস আলী শেখ, ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের এলাকা ব্যবস্থাপক মোঃ আবুল হোসেন, ইউপি সদস্য নির্মলেন্দু দেবনাথ, শিক্ষানুরাগী দাশ শিশির কুমার, প্রধান শিক্ষক প্রদ্যুৎ কুমার দাশ, ডাঃ সুরেশ চন্দ্র দাশ ও বেতাগা বাজার কমিটির সাধারন সম্পাদক তরুন দাশ প্রমূখ। এসময় সুরাশ বিশ্বাস, বেতাগা শাখার ইনচার্জ মল্লিকা রানী বিশ্বাস সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

সুগন্ধি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের বহুতল ভবনের উদ্বোধন
সিএন্ডবি বাজার (বাগেরহাট) প্রতিনিধি
বাগেরহাটের সুগন্ধি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের বহুতল বিশিষ্ট ভবনের ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন করেন বাগেরহাট-২ আসনের সংসদ সদস্য ও মৎস্য-প্রাণী সম্পদ মন্ত্রনালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব এড. মীর শওকাত আলী বাদশা। গতকাল বুধবার সকালে তিনি প্রধান অতিথি হিসাবে ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধন করেন।
বিদ্যালয়ের সভাপতি ও সরকারী আযম খান কমার্স কলেজের অধ্যক্ষ সেলিনা বুলবুলের সভাপতিত্বে প্রায় ৩ কোটি টাকা বরাদ্ধের এ ভবনের ভিত্তি প্রস্তর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন এমপি পতœী বেবী মোর্শেদা খানম, রাখালগাছি ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আবু শামীম আছনু প্রমুখ। এ সময় তিনি বর্তমান সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন তুলে ধরে বলেন, দেশের চলমান উন্নয়ন অব্যহত রাখতে আবারও এ সরকারকে ক্ষমতায় দেখতে চান দেশবাসী।

নড়াইলে পলাতক আসামি গ্রেফতার
নড়াইল প্রতিনিধি
নড়াইল পৌর এলাকার ভওয়াখালী এলাকা থেকে ইয়াবাসহ একাধিক মামলার পলাতক আসামি আরিফুল বিশ্বাস আরিফকে (২৮) গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। মঙ্গলবার (৬ নভেম্বর) সন্ধ্যায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। আরিফ ভওয়াখালীর সাইদুর রহমানের ছেলে।
ডিবি পুলিশের ওসি আশিকুর রহমান জানান, মাদক মামলাসহ একাধিক মামলার পলাতক আসামি আরিফকে ৯১ পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার করা হয়। তার বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

ফকিরহাটের পিলজংগে আ’লীগের উঠান বৈঠক
ফকিরহাট প্রতিনিধি
বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার পিলজংগ ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে একাদশ তম জাতীয় সংসদ নির্বাচন উপলক্ষে তৃনমুলে নৌকার ভোট বৃদ্ধির লক্ষে আওয়ামীলীগের উঠান বৈঠক গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টায় ৬নং ওয়ার্ডের দিঘিরপাড় নামক স্থানে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি রতন চাট্যার্জীর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বেতাগা ইউপি চেয়ারম্যান স্বপন দাশ, বিশেষ অতিথি ছিলেন, সাধারন সম্পাদক ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান শিরিনা আক্তার। উপজেলা কুষকলীগের আহবায়ক ও পিলজংগ ইউপি চেয়ারম্যান খাঁন শামীম জামান পলাশ এর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথি ছিলেন, উপজেলা আঃলীগের সহ-সভাপতি সুবির কুমার মিত্র ও যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ (সাহেব মল্লিক)। এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন, ইউনিয়ন আঃলীগের সভাপতি আলহাজ¦ শাজাহান আলী, সাবেক সভাপতি আলহাজ¦ মোড়ল সিরাজুল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক জাকির হোসেন টুটুল, শিক্ষাবিদ সেখ আব্দুল মান্নান, ইউনিয়ন আঃলীগের যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক প্রভাষক অঞ্জন কুমার দে, যুবলীগের সভাপতি মোঃ রাহান খান তরিকুল, সাধারন সম্পাদক জয়দেব কুমার দে, উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সদস্য দেবাশিষ কুমার দাশ,আঃলীগ নেতা সাধন কুমার দে, আফজাল হোসেন ঢালী, কৃষকলীগ নেতা দেলোয়ার হোসেন ও রেজাউল করিম টিপু প্রমুখ। সভা শুরুর আগে বিভিন্ন এলাকা হতে বিপুল সংখ্যাক নারী পুরুষ সভা স্থলে এসে হাজির হলে সভাস্থল কানায় কানায় পরিপূর্ণ হয়ে যায়। এসময় আঃলীগ যুবলীগ ছাত্রলীগ কৃষকলীগ মহিলা আঃলীগ স্বেচ্ছাসেবকলীগ শ্রমিকলীগ সহ সকল সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন নের্তৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

ফকিরহাটে শ্রী শ্রী শ্যামাকালি পুজা
ফকিরহাট প্রতিনিধি
বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার সর্বত্র বিশ^ শান্তি ও মানবজাতি সহ সকল জীবের কল্যান কামনায় ৪দিন ব্যাপী শ্রী শ্রী শ্যামা কালি পুজা অনুষ্ঠান গতকাল মঙ্গলবার গভীর রাত হতে শুরু হয়েছে। এ উপলক্ষে বিভিন্ন এলাকার মন্দির কমিটি ব্যাপক কর্মসূচি হাতে নিয়েছেন। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে, পুজা অর্চনা ধমির্য় যাত্রাপালা কীর্তনগান ও শ্রী শ্রী গীতা পাঠের আলোচনা। সকালে প্রতিটি মন্দিরে মন্দিরে রং তুলির কাজ শেষে অলোকসজা শুরু হয়। পরে রাত ১২টাং ১মিনিটে পুজা অর্চনা সম্পন্ন হয়েছে। তবে উপজেলার মধ্যে বেতাগা বাজার কেন্দ্রিয় কালি মন্দির ও তেকাটিয়া হরিবাস প্রাঙ্গনে অবস্থিত তেকাটিয়া সার্বজনীন শ্যামাকালি মন্দির জেলার শ্রেষ্ঠ স্থান করে নিয়েছে। এখানে দৃষ্টিনন্দন এমন কিছু প্রতিমা লাইটিং ও কারুকার্য তৈরী করা হয়েছে যা জেলার অন্যান্য কোন মন্দরে হয়নী। তেকাটিয়া মন্দির কমিটির সভাপতি লিটন কুন্ডু, সাধারন সম্পাদক আশীষ তরফদার ও ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি শুভেন্দু রায় চৌধুরী বলেছেন, এই মন্দিরটি অতি প্রচীন। সেই সুবাদে এর নামডাক বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে রয়েছে। শ্যামাকালি পুজা উপলক্ষে ব্যাপক কর্মসূচি গ্রহন করা হয়েছে যা চলবে আরো কয়েক দিন। এছাড়া ফকিরহাট সদর সহ টাউন নওয়াপাড়া মোড়, কংগ্রেস মোড়, বলায়ের দোকান, সবুজ যুব সংঘ, কাটাখালী কর্মকার পাড়া, মহাদেবের দোকান, চুলকাঠি, ঘনশ্যামপুর ও সিএন্ডবি বাজার সহ বিভিন্ন স্থানে ও বাড়িতে শ্রী শ্রী শ্যামাকালি পুজা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

দেবহাটার সখিপুর সফল চিংড়ী সেবা কেন্দ্রের জয়বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড লাভ
দেবহাটা প্রতিনিধি
দেবহাটার সখিপুর সফল চিংড়ী সেবা কেন্দ্র নিরাপদ চিংড়ী উৎপাদনে ভূমিকা রাখার জন্য জয়বাংলা ইয়ুথ অ্যাওয়ার্ড-২০১৮ লাভ করেছে। সম্প্রতি ঢাকার সাভারের শেখ হাসিনা যুব সেন্টারে প্রধানমন্ত্রী শেক হাসিনার তথ্য প্রযুক্তি উপদেষ্টা প্রধানমন্ত্রীর পুত্র সজিব ওয়াজেদ জয় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে এই পুরষ্কার প্রদান করেন।
জানা গেছে, সফল চিংড়ী সেবা কেন্দ্রটি দেবহাটা উপজেলার সখিপুর বাজারে ২০১৩ সালের ডিসেম্বর মাসে প্রতিষ্ঠিত হয়। এলাকার কিছু চিংড়ী ব্যবসায়ী নিজেদের উদ্যোগে এই সেবা কেন্দ্রটি গড়ে তোলেন। সেখান থেকে হাটি হাটি পা পা করে এই চিংড়ী সেবা কেন্দ্রটি নিরাপদ চিংড়ী উৎপাদনে ভূমিকা রাখা এবং ভোক্তাদের মাঝে নিরাপদ চিংড়ী পৌছে দেয়ার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে। সফল চিংড়ী সেবা কেন্দ্রের কর্মকর্তারা জানান, উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা ক্যাটাগরিতে তাদের এই সফল চিংড়ী সেবা কেন্দ্রটির নাম চুড়ান্ত করে পুরষ্কার প্রদান করা হয়েছে বলে তারা জানান। এই প্রতিষ্ঠানের সভাপতি হিসেবে মানিক চন্দ্র বাছাড়, সহ-সভাপতি রফিকুল ইসলাম, সাধারন সম্পাদক মুকুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ অনিমেষ সরকার ও কার্য্যকরী সদস্য হিসেবে বাবুরাম মন্ডল দায়িত্ব পালন করছেন। তারা তাদের প্রতিষ্ঠানের উন্নয়নকল্পে সকলের সহযোগীতা কামনা করেছেন।

কালীগঞ্জে চিত্রা নদী থেকে বাধ অপসারণ
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলার মধ্যে দিয়ে প্রবাহিত ঐতিহ্যবাহী চিত্রা নদীর ফয়লা, হেলাই, বলিদাপাড়া অংশ থেকে ৩টি বড় বাধ সহ প্রায় ৫০টি বাধ অপসারণ করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। বুধবার দুপুরে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুবর্ণা রানী সাহা। এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা সাইদুর রেজা, থানার এসআই দেলোয়ার হোসেন। নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সুবর্ণা রানী সাহা জানান, চিত্রানদীতে কিছু অসাধু ব্যক্তি আড়া আড়ি বাধ দিয়ে পানির ¯্রােত বাধাগ্রস্থ করে নদীতে মাছ শিকার করছে। দেশীয় মাছ রক্ষা ও নদীর ¯্রােত ঠিক করায় এ অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। তিনি বলেন, আজ ফয়লা অংশে ৩টি বড় বাধসহ প্রায় ৫০টি বাধ অপসারণ করা হয়েছে। তবে যারা এর সাথে জড়িত তাদের আটক করা সম্ভব হয়নি।

ঝিনাইদহে অবহিতকরণ সভা
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
ঝিনাইদহে যৌন হয়রানি রোধ ও পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম বিষয়ে অবহিতকরণ সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সৃজনী ফাউন্ডেশনের আয়োজনে ও পল্লী কর্মসহায়ক ফাউন্ডেশনের আয়োজনে বুধবার দুপুরে সদর উপজেলার মহারাজপুর ইউনিয়ন পরিষদ মিলনায়তনে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সৃজনী ফাউন্ডেশনের প্রধান নির্বাহী ড. এম হারুন অর রশীদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলার সমাজ সেবা অফিসার রুবেল হাওলাদার, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সদর থানার ওসি (অপারেশন) মহাসীন হোসেন, মহারাজপুর ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যান এস এম নাইমুর রহমান, ইউপি সচিব আফরোজা খাতুন। অনুষ্ঠানের সার্বিক তত্বাবধানে ছিলেন, সৃজনী ফাউন্ডেশনের সিনিয়র প্রশাসনিক কর্মকর্তা এডঃ মোজাম্মেল হক। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন রেডিও ঝিনুকের ষ্টেশন ম্যানেজার পারভীন নাহার। অনুষ্ঠানে বক্তরা, যৌন হয়রানি রোধ ও পরিস্কার পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম বিষয়ে সচেতন হওয়ার জন্য সকলের প্রতি আহবান জানান।

ঝিনাইদহে উপকারভোগীদের প্রশিক্ষণ
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
ঝিনাইদহে কৃষি ঋণ প্রকল্পের উপকারভোগীদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। বুধবার সকালে সিও চাকলাপাড়া কনভেনশন সেন্টারে এ আয়োজন করা হয়। সে সময় গবাদি পশুপালন ও আধুনিক পদ্ধতিতে চাষাবাদ বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। সিও নির্বাহী পরিচালক সামছুল আলমের সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন সহকারি পরিচালক (ট্রেনিং এন্ড রিচার্জ) সরোজ কুমার দাস, সহকারি নির্বাহী পরিচালক তোফাজ্জেল হোসেন, প্রকল্প পরিচালক (ঋণ) ওহিদুর রহমান, প্রশাসনিক কর্মকর্তা মাফিদুন্নেছা শিলা, কম্পিউটার অপারেটর শাহনাজ পারভীনসহ অন্যান্যরা। সে সময় সদর উপজেলার বিভিন্ন এলাকার ৩ শতাধিক কৃষান-কৃষাণী প্রশিক্ষনার্থী উপস্থিত ছিলেন।

ঝিনাইদহে মতবিনিময় সভা
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
ঝিনাইদহে সিও’র মাদক বিরোধী মতবিনিময় সভা ও বাংলাদেশ মানবাধিকার নাট্য পরিষদের সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার দুপুরে সিও চাকলাপাড়া কনভেনশন সেন্টারে এ আয়োজন করা হয়। সিও নির্বাহী পরিচালক সামছুল আলমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঝিনাইদহ সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কনক কুমার দাস, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, ঝিনাইদহ সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার (শৈলকুপা সার্কেল) তারেক আল মেহেদী, জেলা সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের সাবেক সভাপতি একরামুল হক লিকু, অংকুর নাট্য একাডেমীর স্ধাারণ সম্পাদক নাজিম উদ্দিন জুলিয়াস, বিহঙ্গ সাংস্কৃতিক চর্চা কেন্দ্রের সাধারণ সম্পাদক শাহিনুর আলম লিটন, বাংলাদেশ মানবাধিকার নাট্য পরিষদের জেলা সভাপতি রুবেল পারভেজ, কৌতুক অভিনেতা হুমায়ুন কবিরী টুকু প্রমুখ। পরে মাদক বিরোধী মতবিনিময় সভা শেষে সিও’র পক্ষ থেকে বাংলাদেশ মানবাধিকার নাট্য পরিষদের জেলা কমিটিকে সম্মাননা স্বারক প্রদান করা হয়। সে সময় বক্তারা যুব সমাজকে মাদকের ছোবল থেকে রক্ষা করতে সকলকে সচেতন হওয়ার পরামর্শ দেন।

বাগেরহাটে বিপ্লব ও সংহতি দিবসে আলোচনা সভা
বাগেরহাট প্রতিনিধি
বাগেরহাটে বিপ্লব ও সংহতি দিবসে বিএনপি আলোচনা সভা করেছে। বুধবার দুপুরে শহরের সরুই এলাকায় জেলা বিএনপির র্কাযালয়ে এই আলোচনা সভা অনুিষ্ঠত হয় । বাগেরহাট জেলা বিএনপির সভাপতি এমএ সালামের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন বাগেরহাট জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি এ্যাড. ওহিদুজ্জামান দীপু, সহ-সভাপতি এ্যাড. আব্দুল হাই, সাধারন সম্পাদক আলী রেজা বাবু, যুগ্ন-সাধারন সম্পাদক শাহেদ আলী রবি, সাংগঠনিক সম্পাদক মোজাফ্ফর রহমান আলম, পৌর বিএনপির সাধারন সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, সেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি জাহিদুল রহমান শান্ত, ছাত্রদলের সাধারন সম্পাদক আলী দীপ, মহিলা দলের সাধারন সম্পাদক শাহিদা আক্তার, বিএনপি নেতা এ্যাড.মাহাবুব র্মোসেদ লালন, সেলিম ভূইয়া, এ্যাড.শহিদ হোসেন রবিবুল ইসলাম রকিব,প্রমুখ। বক্তারা বলেন এদেশের ক্রান্তিকালে যেমন সিপাহি জনতার বিপ্লব হয়েছিল । দেশের মানুষ মুক্তি পেয়েছিল। বর্তমানে দেশের এই রাজনৈতিক সংকটের সময় আবারো এদেশের জনতাকে সাথে নিয়ে এই সরকারকে বিদায় জানাতে হবে । গনতন্ত্রকে মুক্ত করতে আার কোন পথ সামনে খোলা নেই। আগামী সংসদ নির্বাচনে ভোটের অধিকার আদায়করে বিএনপিকে ক্ষমতায় আনতে হবে। তার আগে খালেদা জিয়াকে জেল থেকে মুক্ত করে আনতে হবে ।

ফুলতলায় কেয়ার বাংলাদেশের সমাপ্তিকরণ সভা
ফুলতলা প্রতিনিধি
ফুলতলায় কেয়ার বাংলাদেশের উদ্যোগে মা, নবজাতক ও শিশু স্বাস্থ্য উন্নয়ন প্রকল্প’র আওতায় উপজেলা পর্যায়ে সমাপ্তিকরণ সভা বুধবার সকাল ১০টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স অডিটরিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাঃ আঃ মজিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ইউএনও আহমেদ জিয়াউর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান বেগম শামসুন্নাহার কুমকুম। প্রজেক্ট কর্মকর্তা ইব্রাহীম খলিলের পরিচালনায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন ডাঃ দিলজাহান নিপা, ইউপি চেয়ারম্যান শেখ আবুল বাশার, শেখ মনিরুল ইসলাম, কেয়ারর প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা আসমা আকতার, সমাজসেবা কর্মকর্তা মোঃ শাহীন আলম, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা ফারহানা ইয়াসমিন, পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সেলিনা খাতুন, উপজেলা প্রেসকাব সভাপতি শামসুল আলম খোকন প্রেসকাব ফুলতলা সভাপতি তাপস কুমার বিশ্বাস, সহকারী অধ্যাপক মোঃ নেছার উদ্দিন, , মায়া রানী, লক্ষী রানী মন্ডল প্রমুখ। সভায় মা ও শিশু মৃত্যুহার রোধে প্রকল্প চলমান রাখার দাবি জানানো হয়।

কেশবপুরে সেমিনার
কেশবপুর প্রতিনিধি
কেশবপুর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে বুধবার সকালে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ বিষয়ক এক সেমিনার উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মিজানূর রহমানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সেমিনারে বক্তব্য রাখেন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক ওয়ালিদ বিন হাবিব, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ রানা, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা অফিসার ডাঃ শেখ আবু শাহীন, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ এনামূল হক, থানার তদন্ত ওসি শাহাজাহান আহম্মেদ, উপজেলা প্রেসকাবের সভাপতি এস আর সাঈদ, পৌরসভার সেনেটারি ইন্সেপেক্টর অসিত কুমার ঘোষ, ইউনিয়ন ভূমি কর্মকর্তা আমজাদ হোসেন প্রমুখ। সেমিনার শেষে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মিজানূর রহমানের নেতৃত্বে উপস্থিত সরকারী কর্মকর্তা, থানা পুলিশ ও সাংবাদিক নেতৃবৃন্দ শহারের কাঁচা বাজার, মাছ বাজার, মাংস বাজার, বিভিন্ন মুদি দোকান, বিভিন্ন ঔষুধের দোকান, হোটেল-রেস্তরায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন মানা হচ্ছে কি না সে বিষয়ে মনিটরিং করেন।

ঝিনাইদহে মুক্তিযোদ্ধা ও সৈনিক হত্যা দিবস পালিত
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
ঐতিহাসিক ৭ নভেম্বর উপলক্ষে ঝিনাইদহে মুক্তিযোদ্ধা ও সৈনিক হত্যা দিবস পালিত হয়েছে। জেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের আয়োজনে বুধবার বিকেলে শহরের মুজিব চত্বর থেকে একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি শহরের বিভিন্ন সড়ক ঘুরে একই স্থানে এসে শেষ হয়। পরে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের পাদদেশে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ ঝিনাইদহ জেলা শাখার আহŸায়ক সৈয়দ আল ইমরান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও পৌরসভার মেয়র আলহাজ সাইদুল করিম মিন্টু। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, জেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগের যুগ্ম আহŸায়ক ফিরোজ বিশ্বাস, থানা কমিটির যুগ্ম আহŸায়ক রুবেল হোসেন, আব্দুল মান্নান, রাসেল আহম্মেদ। আরও উপস্থিত ছিলেন, সৈনিক লীগ নেতা ডা: শাহজাহান, আব্দুর রাজ্জাক প্রমুখ।

ঝিনাইদহ পৌর আওয়ামী লীগের র‌্যালি ও সমাবেশ
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নৌকা মার্কায় ভোট চেয়ে ঝিনাইদহে র‌্যালি ও সমাবেশ করেছে আওয়ামী লীগ। সদর পৌর আওয়ামী লীগের আয়োজনে বুধবার বিকেলে শহরের স্টেডিয়াম এলাকা থেকে একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি শহরের বিভিন্ন সড়ক ঘুরে পায়রাচত্বরে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা।
এসময় পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি জীবন কুমার বিশ্বাস, জেলা যুবলীগের আহŸায়ক আশফাক মাহমুদ জন, যুগ্ম আহŸায়ক রাজু আহম্মেদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ বিশ্বাস, পৌর আওয়ামী লীগ নেতা তারিকুল ইসলাম, পৌর যুবলীগের আহŸায়ক কাজী দিপুসহ অন্যান্যরা বক্তব্য রাখেন।
এসময় বক্তারা, দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে বিভেদ ভূলে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে আওয়ামী লীগকে আবারো ক্ষমতায় আনতে নৌকা প্রতিকে ভোট দেওয়ার জন্য সকলের প্রতি আহŸান জানান। সেই সাথে বিএনপি ও জামায়াত যেন মাথাচারা দিয়ে না উঠতে পারে সেজন্য সকলকে সজাগ থাকার আহŸান জানান।

ফুলতলায় গাজা ও ইয়াবাসহ ৭ মাদক ব্যবসায়ী আটক
ফুলতলা প্রতিনিধি
থানা পুলিশ, জেলা গোয়েন্দা পুলিশ ও এপিবিএন’র পৃথক অভিযানে ফুলতলা থেকে গাজা ও ইয়াবাসহ ৬ মাদক বিক্রেতাকে আটক করা হয়। এ ব্যাপারে থানায় পৃথক ৫টি মামলা হয়েছে।
পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার দিবাগত রাতে জেলা গোয়েন্দা পুলিশ ফুলতলার শেষসীমানা এলাকা থেকে ১ কেজি গাঁজাসহ মহেশপুরের লালপুর গ্রামের মৃতঃ লালন মন্ডলের পুত্র মোঃ গোলাম রসুল (২৮), ৫২ গ্রাম গাজাসহ ভৈরবা গ্রামের সাত্তার বিশ্বাসের পুত্র রাসেল বিশ্বাস (২৩) ও সাতকোটা গ্রামের জহুরুল হকের পুত্র সাব্বির আহমেদ (৩০), ৬পিচ ইয়াবাসহ উত্তরডিহি গ্রামের নজরুল খা’র পুত্র নাজমুল খা (২৪) কে আটক করে। ১৮ গ্রাম গাজাসহ গাড়াখোলা গ্রাম থেকে সাইফুল শেখের পুত্র ইমন শেখ (১৯) ও হাবিবুর রহমানের পুত্র যুবরাজ শেখ (২২) এবং ৮ পিচ ইয়াবাসহ দামোদর ঋষিপাড়া এলাকা থেকে নিরোদ দাসের পুত্র শুভংকর দাস (২২) কে আটক করা হয়। পুলিশ আটককৃতদেরকে বুধবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

ডুমুরিয়ায় দলিল লেখক সমিতির সদস্য সেলিম খানকে বহিস্কার
ডুমুরিয়া প্রতিনিধি
ডুমুরিয়ায় উপজেলা দলিল লেখক সমিতির সদস্য মোঃ সেলিম খান কে বহিস্কার ও অপর ৩ সদস্যকে কেন বহিস্কার করা হবেনা জানতে চেয়ে নোটিশ প্রদান করেছে সমিতি কর্তৃপক্ষ। গতকাল বুধবার সমিতির সভাপতি মোঃ ফাররুখ হোসেন খান ও সাধারন সম্পাদক মোঃ মোফাজ্জেল হোসেন খান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা যায়। প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে সমিতির নীতিমালা ভঙ্গ ও সমিতির সিন্ধান্ত অবমাননার দায়ে সদস্য সেলিম খান কে বহিস্কার এবং অপর ৩ সদস্য মোঃ আকতার হোসেন, গোবিন্দ কুমার মন্ডল ও শেখ হারুন অর রশিদকে কেন বহিস্কার করা হবেনা তা জানতে চেয়ে আগামী ৭দিনের মধ্যে লিখিত জবাব দাখিল করতে বলা হয়েছে।

ডুমুরিয়ায় ইভটিজারের হামলায় গৃহবধূ আহত
ডুমুরিয়া প্রতিনিধি
ডুমুরিয়ায় ইভটিজারের হামলায় এক গৃহবধূ আহত হয়েছে। আহত গৃহবধূ ডুমুরিয়া হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। গত মঙ্গলবার রাতে উপজেলার মির্জাপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় থানায়একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। অভিযোগ ও আহত গৃহবধূ জানান, উপজেলার মির্জাপুর এলাকার শিপন মন্ডল (৩০) ।

এমপি নুরুল হককে পুনরায় প্রার্থী করার প্রস্তাব
পাইকগাছা প্রতিনিধি
পাইকগাছা উপজেলা পরিষদের মাসিক সাধারণ সভায় সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ্যাডঃ শেখ মোঃ নুরুলকে পুনরায় এমপি প্রার্থী করার প্রস্তাব সর্বসম্মতিক্রমে গৃহিত হয়েছে। বুধবার সকালে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত সভার শুরুতেই সদ্য প্রয়াত ইউপি চেয়ারম্যান দিবাকর বিশ্বাস স্মরণে ১মিনিট নিরবতা পালন করা হয়। এরপর গড়ইখালী ইউপি চেয়ারম্যান রুহুল আমিন বিশ্বাস এলাকার উন্নয়নের স্বার্থে আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বর্তমান সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ্যাডঃ শেখ মোঃ নুরুল হককে আওয়ামীলীগের পুনরায় প্রার্থী করার প্রস্তাব করেন। উক্ত প্রস্তাবটি পরিষদের সভায় সর্বসম্মতিক্রমে গৃহিত হয়। উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এ্যাডঃ স.ম. বাবর আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ্যাডঃ শেখ মোঃ নুরুল হক। উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার জুলিয়া সুকায়না, পৌর মেয়র সেলিম জাহাঙ্গীর, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান শাহানারা খাতুন, মেডিকেল অফিসার ডাঃ মোঃ নজরুল ইসলাম, ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ আব্দুল মজিদ গোলদার, রুহুল আমিন বিশ্বাস, কে,এম, আরিফুজ্জামান তুহিন, রিপন কুমার মন্ডল, কওসার আলী জোয়াদ্দার, গাজী জুনায়েদুর রহমান, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা এস,এম, কবির হোসেন, উপজেলা কৃষি অফিসার এএইচএম জাহাঙ্গীর আলম, সিনিয়র উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা পবিত্র কুমার দাস, প্রকৌশলী আবু সাঈদ, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার জয়নাল আবদীন, শিক্ষা অফিসার গাজী সাইফুল ইসলাম, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা রেজাউল করিম, সমাজসেবা কর্মকর্তা সরদার আলী আহসান, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা প্রশান্ত রায়, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান, বন কর্মকর্তা প্রেমানন্দ রায়, দারিদ্র বিমোচন কর্মকর্তা বিপ্লব কান্তি বৈদ্য, পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তা আলী নূর হোসেন, উপ-সহকারী প্রকৌশলী আমিনুল ইসলাম, একটি বাড়ী একটি খামার প্রকল্প সমন্বয়কারী জয়া রাণী রায়, প্রকল্প সমন্বয়কারী আসমাউল হুসনা, গ্রাম আদাল প্রকল্পের মহিদুল ইসলাম, প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুল বারী সরদার ও লুৎফর রহমান।

পাইকগাছায় রাড়–লী কলেজিয়েটের মূল ভবনের পুনঃনির্মাণ কাজের উদ্বোধন
পাইকগাছা প্রতিনিধি
পাইকগাছার বিশ্ব বরেণ্য বিজ্ঞানী আচার্য প্রফুল্ল চন্দ্র (পি.সি) রায়ের প্রতিষ্ঠিত আর.কে.বি.কে হরিশ্চন্দ্র কলেজিয়েট ইনস্টিটিউশনের মূল ভবনের পুনঃনির্মাণ কাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান বুধবার সন্ধ্যায় কলেজ মাঠে অনুষ্ঠিত হয়েছে। রাড়–লী ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল মজিদ গোলদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ফলক উন্মোচনের মধ্য দিয়ে নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এ্যাডঃ শেখ মোঃ নুরুল হক। বিশেষ অতিথি ছিলেন, আ’লীগনেতা আলহাজ্ব আব্দুর রাজ্জাক মলঙ্গী, রতন ভদ্র, জেলা যুবলীগনেতা শেখ আনিছুর রহমান মুক্ত। স্বাগত বক্তব্য রাখেন, অধ্যক্ষ গোপাল চন্দ্র ঘোষ। বক্তব্য রাখেন, সহকারী অধ্যাপক পিযুষ কান্তি ঘোষ, প্রভাষক শহিদুল ইসলাম শেখ, শেখ ময়েজউদ্দীন, সমাপ্তি মিস্ত্রী, জেলা ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক আসনাফুল ইসলাম সম্পদ, যুবলীগনেতা শেখ মাসুদুর রহমান, উত্তম দাশ, ইউপি সদস্য শেখ রেজাউল করিম, সাত্তার গাজী, আব্দুর রাজ্জাক, আহাদ আলী গোলদার, শিক্ষক কার্তিক চন্দ্র মন্ডল, মাওঃ ওয়াদুদ, আসিফ ইকবাল রনি, সঞ্জয় ঘোষ, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এস,এম, মশিয়ার রহমান, আরিফুল ইসলাম টফি, বুলবুল আহম্মেদ, এস,এম, রাজিব, হাবিবুর রহমান বিটু, আল-আমিন মোড়ল, রায়হান, আব্দুর রাজ্জাক, টুটুল দেবনাথ ও আল-আমিন গাজী।

বুধহাটায় নতুন জায়গায় ¯øুইচ গেট নির্মাণ থেকে রক্ষা পেতে ভূমিহীনদের অভিযোগ
আশাশুনি প্রতিনিধি
আশাশুনি উপজেলার বুধহাটায় নতুন জায়গায় ¯øুইচ গেট নির্মাণ থেকে রক্ষা পেতে ভূমিহীনদের পক্ষ থেকে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক বরাবর অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। বুধবার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত গণশুনানীতে ভূমিহীনরা উপস্থিত হয়ে এ অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, বুধহাটা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের বুধহাটা বাজার বুড়ো পীরের দরগাস্থ বেতনা নদীর শাখা খালের উপর সাতক্ষীরা পানি উন্নয়ন বোর্ড নতুন ¯øুইচ গেট নির্মাণের প্রস্তুতি নিয়েছেন। এ উপলক্ষ্যে পাউবো কর্তৃপক্ষ কয়েক যুগের ভোগ দখলীয় ভূমিহীনদের উক্ত স্থান থেকে তাদের কাচা, পাকা বসৎ বাড়ী সরিয়ে নিতে নোটিশ প্রদান করেন। ভূমিহীনরা নোটিশ পাওয়ার পর উপায় না পেয়ে কয়েক যুগের ভোগ দখলীয় বাপ-দাদার ভিটা বাড়ী রক্ষার্থে অথবা সরকারী ভাবে তাদের পূর্ণবাসনের ব্যবস্থা গ্রহণে সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক এর কাছে স্থানীয় ৪০/৫০জন ভূমিহীনদের পক্ষ থেকে একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। যার তদন্তভার সাতক্ষীরা জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ড (পাউবো) নির্বাহী প্রকৌশলী বরাবর দিয়েছেন বলে জানাগেছে। এমতাবস্থায় স্থানীয় ভূমিহীরা তাদের বাপ-দাদার ভিটা বাড়ী রক্ষায় জেলা প্রশাসক ও পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলীর আশুহস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

মোড়েলগঞ্জে নারী মাদক বিক্রেতা আটক
মোড়েলগঞ্জ প্রতিনিধি
বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জে লাইজু আক্তার(২৫) নামে এক মাদক বিক্রেতাকে আটক হয়েছেন। জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের একটি দল অভিযান চালিয়ে বুধবার বিকেল ৫টার দিকে তাকে আটক করে। কর্মকর্তারা লাইজু আক্তারের নিকট থেকে ৫০ গ্রাম গাঁজা উদ্ধার করেছেন।
মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের এসআই মো. আব্দুল হামিদ বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বারইখালী গ্রামের ইলিয়াছ খলিফার বাড়িতে অভিযান চালানো হয়। এ সময় ইলিয়াস ও সোহেল কাজী নামে দুই মাদক ব্যবসায়ী পালিয়ে যেতে সক্ষম হয়। পালানোর চেষ্টা করে ব্যার্থ হয় লাইজু। এ ঘটনায় এসআই আব্দুল হামিদ বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন। ইলিয়াছ খলিফা ও তার স্ত্রী লাইজু পেশাদার মাদক ব্যবসায়ী বলেও এ কর্মকর্তা জানান।

মোড়েলগঞ্জে মহিলা কৃষি প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের বাবুর্চিকে অব্যাহতি
মোড়েলগঞ্জ প্রতিনিধি
বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জের তুলাতলা মহিলা কৃষি প্রশিক্ষণ ইনষ্টিটিউটের বাবুর্চি শাহিনুর বেগমকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। প্রাইড সিকিউরিটি সার্ভিসেস প্রাইভেট লিঃ-এর ব্যাবস্থাপকের স্বাক্ষরিত প্যাডে(পি এস,এল প্রশাঃ ১৮৯৫/২০১৮) পত্রে গত ২ নভেম্বর বাবুর্চি শাহিনুর বেগমকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। আরো উল্লেখ করেন প্রশিক্ষনার্থীদের তথ্য মতে অভিযোগ সত্য প্রমান হওয়ায় তাকে উক্ত প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

পদ্ধাসেতুতে শকুনের চোঁখ পড়েছে ঃ এ্যাড. মিলন
মোড়েলগঞ্জ প্রতিনিধি
আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী এ্যাডভোকেট মো. আমিরুল আলম মিলন বলেছেন, পদ্ধাসেতুতে শকুনের চোখ পড়েছে। তাই উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে নৌকার বিকল্প নেই, তাই আগামী নির্বাচনে উন্নয়নের সার্থে দলমত নির্বিশেষে সবাইকে নৌকায় ভোট দিয়ে আওয়ামী লীগকে আবারও জয়যুক্ত করার আহবান জানান।
উপজেলার বলইবুনিয়া ইউনিয়নের আমতলা বাজার মাঠে বুধবার বিকেলে নৌকা মার্কার সমর্থনে ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকারের অব্যাহত উন্নয়ন কার্যক্রম তুলে ধরার লক্ষে স্থানীয় আওয়ামীলেিগর উদ্যোগে নির্বাচনী জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। দৈবজ্ঞহাটি ইউনিয়ন আ’লীগের সহসভাপতি মো.সোলায়মান মল্লিকের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন পৌর আ’লীগের সভাপতি পৌর মেয়র এ্যাড. মনিরুল হক তালুকদার, সাধারণ সম্পাদক হারুণ আর রশিদ , উপজেলা আওয়ামী লীগ যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক রবিন দত্ত, সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক ও কাউন্সিলর নান্না শেখ প্রমুখ।
মিলন আরো বলেন, একাদশ সংসদ নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র চলছে। বিএনপি তথা জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট নির্বচন বানচাল করতে চায় তাই সকলকে সজাগ থাকতে হবে। নৌকা বাংলাদেশের স্বাধীনতার প্রতীক, এই নৌকাই বাংলাদেশের উন্নয়নের প্রতীক, বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে সারবিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেল। সুতরাং দেশকে এগিয়ে নেয়ার সার্থে নৌকায় ভোট দিয়ে আবারও আওয়ামী লীগ তথা শেখ হাসিনাকে ক্ষমতায় বসাতে হবে।

নির্বাচনকে সামনে রেখে চুকনগরে আ’লীগের কর্মী সমাবেশ
চুকনগর প্রতিনিধি
আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আবারো নৌকা মার্কা পক্ষে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করার আহবানে বিশাল কর্মী সমাবেশ। গতকাল বুধবার বিকাল ৩টায় চুকনগর বালিকা বিদ্যালয়ের মাঠ প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত হয়। ৫নং আটলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের উদ্যোগে আয়োজিত কর্মী সভায় ৫নং আটলিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এস এম মোস্তাফিজুর রহমান দুলু এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন ডুমুরিয় উপজেলা আ’লীগের সিনিয়ার সহ-সভাপতি ও রুদাঘোরা ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি’র চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোস্তফা কামাল খোকন, বক্তব্য রাখেন খুলনা জেলার আ’লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক প্রাক্তন অধ্যক্ষ এবিএম শফিকুল ইসলাম, সভা পরিচালনা করেন আটলিয়া ইউনিয়ন আ’লীগের সধারণ সম্পাদক ও আটলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি’র চেয়ারম্যান প্রতাপ কুমার রায়, উপস্থিত ছিলেন আ’লীগ নেতা খান আবু বক্কার, সরদার আঃ গনি, সরদার অহিদুল ইসলাম, মোসলেম উদ্দিন মোড়ল, মাস্টার জহুরুল ইসলাম, জিএম ফারুক হোসেন, সরদার শরিফুল ইসলাম, ডুমুরিয়া উপজেলার যুবলীগের আহবায়ক প্রভাষক গোবিন্দ কুমার ঘোষ, যুগ্ন আহবায়ক আশরাফুল ইসলাম, শেখ আবু দাউদ, ইকবাল হোসেন সালাম, বিশ্বজিৎ মজুমদার, রতন ঘোষ, আবু সাইদ,সরদার কবিরুল ইসলাম, জাকির হোসেন মিল্টন, ছাত্রলীগ নেতা কে এম মফিজুল ইসলাম মোফিজ, মাহবুবুল আলম সোহাগ, আলীমুজ্জামান প্রমুখ।

রূপসায় ত্রৈ-মাসিক সভা
রূপসা প্রতিনিধি
রূপসা উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা অফিস আয়োজিত কৈশোর-বান্ধব স্বাস্থ্য সেবা উপলক্ষে ত্রৈ-মাসিক সভা গত ৭ নভেম্বর বেলা ১২ টায় পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার কার্যলয়ে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা দিলারা ইসলাম। বক্তৃতা করেন আবাসিক মেডিকেল অফিসার এসএম তারেক-উর-রহমান, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা মো. আব বকর মোল্লা, সমাজসেবা কর্মকর্তা প্রবীর রায়, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা তাহিরা খাতুন, শিক্ষা কর্মকর্তা মুহাঃ আবুল কাশেম, রূপসা প্রেসকাবের সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম ডালিম, সাবেক সভাপতি তরুণ চক্রবর্তী বিষ্ণু, স্বাস্থ্য পরিদর্শক সিরাজুল ইসলাম বুলু, পরিবার পরিকল্পনা পরিদর্শক মো. আফজাল হোসেন, অগ্রগতি সংস্থার কৃষ্ণা সাহা, সুশীলনের শিরিন আক্তার, শহিদুল ইসলাম প্রমূখ।

রূপসা প্রেসকাবের নির্বাহী পরিষদের সভা
রূপসা প্রতিনিধি
রূপসা প্রেসকাবের কার্যনির্বাহী পরিষদের এক সভা গত ৭ নভেম্বর বিকেল ৪ টায় কাবের সভাপতি রবিউল ইসলাম তোতার সভাপতিত্বে কাব কার্যালয় অনুষ্ঠিত হয়। সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম ডালিমের পরিচালনায় বক্তৃতা করেন সহ-সভাপতি খান মিজানুর রহমান, সহ-সম্পাদক হোসাইন আহম্মদ, সাংগঠনিক সম্পাদক আল মাহমুদ প্রিন্স, প্রচার ও দপ্তর সম্পাদক হামিদুল হক, নির্বাহী সদস্য এমডি অলিদ শেখ প্রমূখ।

রূপসার অনুশীলন মজার স্কুল জয় বাংলা ইয়ুথ এ্যাওয়াড অর্জন
রূপসা প্রতিনিধি
রূপসার ইলাইপুরস্থ অনুশীলন মজার স্কুল জয় বাংলা ইয়ুথ এ্যাওয়ার্ড ২০১৮ অর্জন করায় রূপসা প্রেসকাব নেতৃবৃন্দের সাথে এক সৌজন্য সাক্ষাৎ ও মতবিনিয়ম সভা গত ৭ নভেম্বর সন্ধ্যায় কাব কার্যালয় অনুষ্ঠিত হয়। কাবের সভাপতি রবিউল ইসলাম তোতার সভাপতিত্বে উপস্থিত ছিলেন স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক অলোক দাস, রূপসা প্রেসকাবের সাধারণ সম্পাদক তরিকুল ইসলাম ডালিম, সহ-সভাপতি খান মিজানুর রহমান, সহ-সম্পাদক হোসাইন আহম্মদ, সাংগঠনিক সম্পাদক আল মাহমুদ প্রিন্স, প্রচার ও দপ্তর সম্পাদক হামিদুল হক, নির্বাহী সদস্য এমডি অলিদ শেখ, স্কুলের উপদেষ্টা আব্দুল হালিম, শিক্ষক কায়েস মাহমুদ, আনোয়ার ফকির, শাহরুখ হোসেন, সাফিরুল ইসলাম, সজিব হাসান, সোহেল শেখ, শফিকুর রহমান লিটন, সজল খান, রানা প্রমূখ। উল্লেখ্য অনুশীলন মজার স্কুল শিক্ষাখাতে সারা দেশের ভিতর ২য় স্থান এবং ১০টি ক্যাটাগরিতে ৩০টি এ্যাওয়ার্ডের মধ্যে ১৬ তম স্থান অর্জন করে।

রূপসায় বিআরডিবির দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়ক প্রশিক্ষণ
রূপসা প্রতিনিধি
বাংলাদেশ পল্লী উন্নয়ন বোর্ড রূপসা উপজেলার সমবায়ী ও সুফলভোগী সদস্যদের নিয়ে দক্ষতা উন্নয়ন বিষয়ক এক কর্মশালা গত ৭ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হয়। বিআরডিবি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এ কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন বিআরডিবি খুলনার উপ পরিচালক মো. নাসির উদ্দিন। উপজেলা পল্লী উন্নয়ন বোর্ড রূপসা উপজেলা আয়োজিত এ সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা পল্লী উন্নয়ন অফিসার মিসেস নিসা। কর্মশালায় রিসোর্স পার্সন ছিলেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. ফরিদুজ্জামান, উপ সহকারী কৃষি কর্মকর্তা মমতাজ উদ্দীন মোল্লা। বক্তৃতা করেন ইউসিসিএ চেয়ারম্যান গোপাল চন্দ্র মন্ডল, সহকারী পল্লী উন্নয়ন অফিসার (ভার) অমিত কুমার সরকার, রবিউল ইসলাম ফকির, পরিদর্শক শাহাজান ফকির, গোপাল চন্দ্র কুশারী, আবুল হাসান, ফিল্ড অফিসার কৃষ্ণ গোপাল সেন, অনিমেষ আশ। কর্মশালায় ৩০ জন সুফলভোগী অংশ গ্রহন করে।

যশোর জেলা আইনজীবী সমিতির বিশেষ সাধারণ সভা
যশোর অফিস
যশোর জেলা আইনজীবী সমিতি বিশেষ সাধারণ সভা বুধবার ১ নম্বর মিলনায়তে অনুষ্ঠিত হয়েছে। সভায় কল্যণ তহবিলের ৩০ ধারা সংশোধন করে সদস্যদের অবসরকালীন টাকা বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়।
আইনজীবী সমিতির সভাপতি মুহাম্মদ ইসহকের সভাপতিত্বে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সিনিয়র আইনজীবী কাজী আব্দুস শহীদ লাল, নজরুল ইসলাম, দেবাশীষ দাস, আবদুল আলী, মোকারম হোসেন, গাজী আব্দুল কাদির, রফিকুল ইসলাম পিটু, কাজী ফরিদুল ইসলাম, মইনুল হক খান ময়না, সোহেল শামীম, আমিনুর রহমান, সৈয়দ রুহুল কুদ্দুস কচি, এসএম বদরুজ্জামান পলাশ প্রমুখ। সভা পরিচালনা করেন সমিতির সাধারণ সম্পাদক শাহানুর আলম শাহীন।
সভায় সমিতির কল্যাণ তহবিল থেকে সদস্যদের অবসরকালিন সময় নির্ধারণ করে টাকা দেয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এরমধ্যে ৩৫ বছর বা তার উর্ধ্বে বয়সী সদস্যদের এখন ১৫ লাখ টাকা দেয়া হবে। সর্বনিন্ম ৫ বছরে অবসর নিলে সদস্যরা কল্যাণ তহবিল থেকে এখন ৩ লাখ ৭৫ হাজার টাকা এককালিন পাবেন।

এমপি মন্নুজান কর্তৃক শেখ রাসেল ভবনের উদ্বোধন
খবর বিজ্ঞপ্তি
নগরীর দৌলতপুর মুহসীন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ে গতকাল বুধবার সকালে শেখ রাসেল ভবনের উর্ধমূখী সম্প্রসারনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি শেখ মোঃ কামাল উদ্দিন বাচ্চু। প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে ভবনের উদ্বোধন করেন সাবেক শ্রম ও কর্ম সংস্থান প্রতিমন্ত্রী সাংসদ বেগম মন্নুজান সুফিয়ান। বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোঃ নজরুল ইসলামের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন দৌলতপুর থানা আ’লীগ সভাপতি ও বিজেএর চেয়ারম্যান শেখ সৈয়দ আলী, প্রধান শিক্ষক মোঃ শহিদুল ইসলাম জোয়াদ্দার, পর্ষদ সদস্য মিনা জিল্লুর রহমান, ফারহানা পারভেজ নীপু, মোঃ দীন, দৌলতপুর থানার ওসি দতন্ত মোঃ মোশারাফ হোসেন। শিক্ষক মোঃ জিল্লুর রহমান, পাপিয়া খানম, কার্তিক চন্দ্র মন্ডল মোঃ কামাল হোসাইন সহ এলাকার রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সাংবাদিক ও সুধিবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

খুলনা-৪ হাত পাখার নির্বাচন পরিচালনা কমিটির জরুরী বৈঠক
খবর বিজ্ঞপ্তি
গতকাল বুধবার সন্ধ্যা ৭টায় ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের সুযোগ্য মহাসচিব ও আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনি পীর সাহেব চরমোনাই মনোনীত খুলনা-৪ (রূপসা, তেরখাদা, দিঘলিয়া) আসনের সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী অধ্যক্ষ আলহাজ্ব হাফেজ মাওলানা ইউনুছ আহমাদ এর নির্বাচন পরিচালনা কমিটির যুগ্ম আহŸায়ক আল: শহিদুল ইসলাম বিশ্বাস এর সভাপতিত্বে ও সমন্বয়কারী জেলা সভাপতি মাও: আব্দুল্লা ইমরান এর পরিচালনায় অস্থায়ী কার্যালয়ে এক জরুরী বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। সভায় খুলনা-৪ আসনের হাত পাখার নির্বাচন সক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন মাও: আসাদুল্লাহ হামিদি, মাও: আব্দুস সাত্তার হালদার, নুুরুল হুদা সাজু, মুফতি ফয়জুল্লাহ, মুসা লস্কর, ইকরাম হাজী, মো: ফরহাদ মোল্যা, মাও: ইউসুফ আলী, মাস্টার নাজিম উদ্দিন হালদার, মো: আক্তারুজ্জামান আক্তার, মাও: হারুন-অর-রশিদ, মাও: জালাল উদ্দিন, মো: জাহিদুল ইসলাম, হাফেজ নাজমুস সাকিব, মো: আনিসুর রহমান, হাফেজ আবু বক্কার সিদ্দিক, মাও: আবু জাফর সিদ্দিকি, মো: হায়দার আলী, মো: আবু রকিব দুয়ারী, মো: মাসুদ মোল্যা, মাও: নাজমুস সাকিব, মো: শহিদুল ইসলাম, মো: বেলায়েত হালদার আব্দুস সাত্তার মোড়ল, মাও: ইয়াছিন, মাও: আব্দুস সালাম প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

ফের অবৈধ ফল বিক্রেতাদের দখলে মণিরামপুর বাজারের প্রবেশ পথ
মণিরামপুর প্রতিনিধি
সম্প্রতি দখলমুক্ত হওয়া যশোরের মণিরামপুর বাজারের (মাছ ও কাঁচা বাজার) প্রবেশ পথ অবৈধভাবে আবারও দখলে নিয়েছেন কয়েকজন ফল বিক্রেতা। ভ্রাম্যমান আদালতের উচ্ছেদ অভিযানের একদিনের মাথায় তারা ফের রাস্তাটি দখলে নিয়েছেন। ফলে ভোগান্তি কমেনি সাধারণ পথচারীদের। অবৈধ দখলদার এসব বিক্রেতাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি তাদের।
বাজারের এই সড়কটির প্রবেশমুখ দীর্ঘদিন ধরে কয়েকজন ফল বিক্রেতা দখলে নিয়ে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছিলেন। সড়কটি দখলমুক্ত করতে সাধারণ ক্রেতাদের দাবি বেশ পুরোনো। দাবির প্রেক্ষিতে সম্প্রতি মণিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান উল্লাহ শরিফী ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে আট বিক্রেতাকে উচ্ছেদ করেন। কিন্তু সেটা স্থানয়ীত্ব পায়নি। আবারও তারা সড়কটি দখলে নিয়েছেন।
বুধবার সকালে সরেজমিন দেখা গেছে, চারজন বিক্রেতা বিভিন্ন প্রকার ফল নিয়ে রাস্তাটির প্রবেশ পথে অবস্থান নিয়েছেন। তাদের মধ্যে দুইজন ভ্যান ভর্তি ফল নিয়ে প্রবেশ পথ আটকে দিয়ে সকাল থেকে মধ্যরাত পর্যন্ত বেচাকেনা করছেন। বাকি দুইজন বসেছেন চরাট পেতে। পুনর্বাসন না হওয়ায় আবারও রাস্তা দখল করেছেন বলে দাবি তাদের।
জানা যায়, স্থানীয়দের দাবির প্রেক্ষিতে গত ২৫ অক্টোবর বিকেলে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান চালিয়ে সিরাজুল ইসলাম, আব্দুল কাদের, গণেশ বিশ^াস, জামাল উদ্দিন ও পঞ্চান বিশ^াসসহ আটজন ফল বিক্রেতাকে উচ্ছেদ করে। আদালতের উচ্ছেদ অভিযানকে সাধুবাদ জানিয়েছিলেন পথচারীরা। কিন্তু প্রশাসনকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে একদিন বিরতি দিয়ে পরের দিন থেকে আব্দুল কাদের ও সিরাজুল ইসলাম নামে দুই ভাই ভ্যান ভর্তি ফল নিয়ে আবার সেই জায়গা দখলে নেন। তাদের দেখাদেখি পঞ্চানন বিশ^াস ও জামাল উদ্দিন রাস্তায় ফল নিয়ে বসেছেন। ফলে ফের ভোগান্তিতে পড়েছেন পথচারীরা।
পথচারী ইউসুফ আলী ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘ফলের দোকানগুলো উচ্ছেদ হওয়ার পর অনাসায়ে বাজারে যাতায়াত করা যাচ্ছিলো। এখন আবার যাইতাই।’ আর রাস্তার পাশের ভাড়া করা ঘরের ফল বিক্রেতাদের দাবি, আট জনকে উচ্ছেদ করা হয়েছে। বসতে হলে ওই আট জনই বসবে। অন্যরা বাকি থাকবে কেন। তারা দ্রæত ব্যবস্থাগ্রহণের দাবি জানান।
ব্যবসায়ী সিরাজুল ইসলাম বলেন, ‘প্রতিদিন দুই হাজার টাকা করে সমিতির কিস্তি গুনতে হচ্ছে। ফল না বিক্রি করলে চলবে কি করে।’
তার ভাই আব্দুল কাদের বলেন, ‘আমরা ইউএনওর কাছে গিয়েছি,কোন ব্যবস্থা না হওয়ায় ভ্যান নিয়ে এখানে দাঁড়িয়েছি।’ গণেশ বিশ^াস বলেন,‘তিন মেয়ের মধ্যে বড় মেয়ে জেএসসি পরীক্ষা দিচ্ছে। এই দোকানের ওপর সংসার। উপায় না পেয়ে আবার এসেছি।’ আর জামাল উদ্দিন জানান,এদের দেখাদেখি তিনি আজ এসে বসেছেন।
জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহসান উল্লাহ শরিফী বলেন,‘প্রাথমিকভাবে সতর্ক করে দিয়ে ফল বিক্রেতাদের উচ্ছেদ করা হয়েছে। যারা আবার রাস্তা দখল করেছে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ প্রশ্নের জবাবে ইউএনও বলেন,‘সুযোগ হলে পুনর্বাসনের ব্যবস্থা করা হবে। কিন্তু তার আগে তাদেরকে ওই জায়গা ছাড়তে হবে।’

আবহাওয়া পরিবর্তনে পাটকেলঘাটায় বাড়ছে নানা অসুখ
এস.এম মফিদুল ইসলাম, পাটকেলঘাটা প্রতিনিধি
বাংলা ষড়ঋতুর মধ্যে শীতকাল সাধারণ জীবন যাপনকারী মানুষকে একটু বেশ ভাবিয়ে তোলে। গরম কাপড় যেন সাধ্যের মধ্যে প্রত্যেকে কেনার সামর্থ্য অনুযায়ী চেষ্টা করে। তাইতো শীতের বারতা প্রায় বাংলার প্রকৃতিতে হানা দিতে শুরু করেছে। কার্তিক মাসের অর্ধেক ইতোমধ্যে অতিবাহিত হয়েছে। প্রকৃতিতে যে শীত শীত আমেজ বইতে শুরু করেছে তা মানুষগুলোর পোশাক দেখলেই বোঝা যাচ্ছে। কখনও গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি আবার কখনও একটু রোদের ঝিলিক শীত শীত প্রকৃতিতে যেন অন্য রকম মুর্ছনার সৃষ্টি হচ্ছে। সাথে সাথে প্রকৃতির এরুপ আবহাওয়ায় নানা বয়সের মানুষের মাঝে অসুখ যেন ছড়িয়ে পড়েছে। সর্দি, কাশি, জ্বর যেন কাউকে ছাড়ছে না। ভাইরাস জনিত জ্বরের প্রকোপ তুলনামুলক একটু বেশি।
সেবা নিতে আসা পাটকেলঘাটায় গ্রাম্য ডাক্তার মুজাহিদুল ইসলাম জানান, হঠাৎ প্রকৃতিতে আবহাওয়া পরিবর্তনজনিত কারণে এই রোগের স্বীকার হচ্ছে সকল বয়সের মানুষ।
কুমিরা থেকে সেবা নিতে আসা আব্দুস সালামের পুত্র শহিদুল ইসলাম বলেন, গত কয়েকদিন ধরে দুটো মেয়েরই যেমন জ্বর তেমনি সর্দি কাশি যেন লেগেই আছে। ডাঃ বলল ভাইরাস জ্বরে আক্রান্ত। তাই নিয়ে এসেছিলাম সেবা নিতে। তাছাড়া স্থানীয় কিনিক ও হাসপাতাল গুলোতে আগত রোগীর মধ্যে জ্বর, সর্দির লোকসংখ্যা বেশি বলে দেখা মেলে।

কেশবপুরে বিয়ে করতে এসে বর এখন শ্রীঘরে
কেশবপুর প্রতিনিধি
কেশবপুরে বিয়ে করতে এসে বর এখন শ্রীঘরে রয়েছে।
জনাগেছে, কেশবপুরের সাবদিয়া গ্রামে লুৎফর রহমান বিশ্বাসের পূত্র মোহর বিশ্বাসের ১৪ বছরের মেয়েকে মঙ্গলবার বিকালে বিয়ে করতে আসেন সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার পরানপুর গ্রামের দীন ইসলামের পূত্র তহুরুল ইসলাম (১৯)। খবরপেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মিজানূর রহমান সাবদিয়া গ্রামের ওই বাড়ি থেকে বর তহুরুল ইসলামকে আটক করেন। পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিট্রেট মিজানূর রহমান তাঁর দপ্তরে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে তহুরুল ইসলামকে ১ মাসের কারাদন্ড ও ৩০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ১ মাসের কারাদন্ড প্রদান করে তাকে জেল-হাজতে প্রেরণ করেছেন। মেয়েকে বাল্যবিবাহ দিবেন না এই মর্মে মচেলকা দেওয়ায় মেয়ের পিতা মোহর বিশ্বাসকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

বেডস-এর প্রধান নির্বাহীর তৃণমূলের পরিবেশ নেতা’র পুরষ্কার লাভ
খবর বিজ্ঞপ্তি
পরিবেশ সংরক্ষণে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের জন্যে তৃণমূলের পরিবেশ নেতা’র পুরষ্কারে ভূষিত হয়েছেন বাংলাদেশ এনভায়রনমেন্ট এন্ড ডেভেলপমেন্ট সোসাইটি -বেডস-এর প্রধান নির্বাহী মাকছুদুর রহমান। ভারতের আসামভিত্তিক বালিপাড়া ফাউন্ডেশন পরিবেশ সংরক্ষণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার জন্যে প্রতি বছর বিভিন্ন ক্ষেত্রে কাজ করা বিশিষ্ট মানুষদের এ পুরষ্কার দিয়ে থাকে। এ বছর ফাউন্ডেশনের বার্ষিক সভায় গত ২ নভেম্বর ২০১৮ আসামের গৌহাটিতে অনুষ্ঠিত সভায় তৃণমূল পর্যায়ে পরিবেশ সংরক্ষণ বিভাগে বেডস-এর প্রধান নির্বাহীকে পুরষ্কার হিসেবে ক্রেস্ট, সনদ, উত্তরীয় তুলে দেয়া হয়। গত ১ ও ২ নভেম্বর ২০১৮ আসামের গৌহাটিতে বালিপাড়া ফাউন্ডেশনের বার্ষিক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে বিশ্বের নানা প্রান্তে পরিবেশ, বন্যপ্রাণি সংরক্ষণ, সবুজ অর্থনীতি প্রভৃতি বিষয়ে কাজ করা ১৩টি দেশের পঞ্চাশটিরও বেশী সংগঠনের প্রতিনিধিরা অংশ নেন। পরিবেশ সংরক্ষণ ও বন্যপ্রাণি রক্ষা বিষয়ে মাকছুদুর রহমান গত ১৮ বছর ধরে কাজ করছেন। বিশেষত: সুন্দরবনসংলগ্ন অঞ্চলের মানুষের আর্থ-সামাজিক ও দুর্যোগ মোকাবলায় সামর্থ্য অর্জনে তাঁর গড়ে তোলা প্রতিষ্ঠান বেডস গত দশ বছর ধরে নিরলস কাজ করে চলেছে।
বালিপাড়া ফাউন্ডেশন ভারতের আসামে প্রতিষ্ঠিত একটি পরিবেশবাদী সংগঠন। যারা ভারত তথা বিশ্বজুড়ে সবুজ অর্থনীতি (গ্রীন ইকোনমি) বিকাশে কাজ করে চলেছেন। প্রতি বছর তাদের বার্ষিক সভায় পরিবেশ সংরক্ষণে ভূমিকা রাখা বিশেষ ব্যক্তিদের সম্মানিত করা হয়।

গোপালগঞ্জ জন কল্যান সমিতির আহবায়কের মাতা মৃত্যুতে শোক
খবর বিজ্ঞপ্তি
গোপালগঞ্জ জন কল্যান সমিতির আহবায়ক আ’লীগ নেতা মোঃ কাইজার আহমেদের মাতা রোকেয়া আহমেদ (৮৬) বার্ধক্য জনিত কারনে মৃত বরন করেছে। মঙ্গলবার রাত ১০ টায় খালিশপুরের স্থানীয় একটি কিনিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মৃত বরন করেন।
এদিকে কাইজার আহমেদের মাতার মৃত্যুতে শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতি প্রদান করেছেন খালিশপুরস্থ গোপালগঞ্জ জন কল্যান সমিতির নের্তৃবৃন্দ। বিবৃতি দাতারা হলেন এস,এম মুজিবর রহমান, দেলোয়ার হোসেন, মোল্যা আলমগীর হোসেন, মোঃ কেরামত আলী, সিরাজুল ইসলাম লাভলু, এনাম মুন্সি, শেখ বাহলুল ইসলাম কচি, মোঃ মিজানুর রহমান, জাহিদুল ইসলাম মোল্যা, রফিকুল ইসলাম রনজু, তারিকুজ্জামান আশরাফ, জিয়াউর রহমানসহ অন্যান্য নের্তৃবৃন্দ।

তেরখাদায় হাইব্রিড ধানের বীজের মূল্যবৃদ্ধিতে কৃষকেরা দিশেহারা
তেরখাদা প্রতিনিধি
তেরখাদায় চলতি বোরো মৌসুমের শুরুতে হাইব্রিড ধানের বীজের মুল্য দ্বিগুন হওয়ায় এলাকার কৃষকেরা দিশেহারা হয়ে পড়েছে । তারা ভেবে চিন্তে ঠিক করতে পারছেনা বোরো মৌসুমে তারা কি ধানের চাষ করবে। কারন খাই ধানের মূল্য নিন্মমুখি হয়ে মন প্রতি ৪/৫ শ’ টাকা কমে গিয়ে একদিকে কৃষকের চরম সর্বনাশ আন্যদিকে বীজের মুল্য দ্বিগুন হওয়ায় প্রায় ১ মন ধানের মূল্যে ১ কেজি বীজ কিনতে হচ্ছে। একই পন্থায় গত বছর ও কৃত্রিম বীজের তিব্র সংকটে দেখা দেওয়ায় আনেক কৃষক তাদের চাহিদা মাফিক বীজতলা তৈরি করে হীরা জাতীয় হাই ব্রিড ধানের পরিবর্তে অন্যান্য ধানের পাতো তৈরি করে বোরো চাষ করতে হয়েছিল। তার পূর্বাভাস লক্ষ করে উপজেলার মাসিক আইন শৃক্ষালা সভায় উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মোল্যা এহিউল ইসলাম তেরখাদার বীজ সার সংকটের উপরে জোরালো বক্তব্যে বলেছিলেন যে তেরখাদার ভুতিয়ার বিলের পানি নিষ্কাশনে গতবছর তুলনায় বীজের সংকট দেখা দিবে। তাই বর্তমান সরকারের অর্থনৈতিক চাকা ঘুরাতে হলে কৃষকদের ন্যায্য মূলে চাহিদা অনুযায়ি বীজ সার দিতে হবে। অথচ কৃষকের ফসল উৎপাদনের কৃত্রিম ভাবে সামাজিক সংকট মোকাবেলায় সংশ্লিষ্ট কর্তিপক্ষের কোন নজর দারি না থাকায় চড়ামূল্যে বীজ কিনে কৃষকদের বীজ তলা তৈরি করেছে। এছাড়া উচ্চদামে বীজ কিনে ও অনেক কৃষকের বীজঅঙ্কুরোগম না হওয়ায় অর্থতৈক ভাবে মারত্মক ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। মূল্য বৃদ্ধিতে গুদাম জাত করা পুরানো বীজ ও বর্তমান বাজারে চড়ামূলে বিক্রি হওয়ার কথাও শুনা যাচ্ছে। এবং এই দাম প্রতিদিনই বৃদ্ধি পাচ্ছে তেরখাদার বিভিন্ন বীজের দোকানে। যদিও তার একটি নির্দিষ্ট মূল্য ছিল।
কৃষকের তথ্য অনুযায়ি যানাযায় ইরি বোরো মৌসুমের শুরুতে বীজ ধানের তিব্র সংকট হাইব্রিড ধানের বীজ মুল ডিলার দের কাছে পৌছানো মাত্র তারা গুদাম জাত করে খুচরা বিক্রেতার মাধ্যমে উচ্চমূল্যে বিক্রী চলছে। এতে খুচরা বিক্রেতাসহ কিছু দালাল চক্র এভাবে কৃষকের নিকট থেকে লক্ষ লক্ষ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে।
এবিষয় উপজেলা কৃষি সংরক্ষন কর্মকর্তা মোঃ শফিকুল জানান, গতবছর এর চাহিদা তুলনায় বেশি পানি নিষ্কাশিত হওয়ায় ভুতিয়ার বিলের বোরো আবাদি জমি বৃদ্ধি পেয়েছে, তাই বীজের চাহিদা বেড়েছে। তবে হাই ব্রিড জাতিয় বীজ শতকারা ৭০ ভাগ লোকের চাহিদা রয়েছে।
জেলা বীজ সংরক্ষন কর্মকর্তা কৃষিবিদ ঝন্টু কুমার সাহা জানান, হাইব্রীড বীজের মূল্য এমনিতেই বেশি থাকে। তবে প্যাকেটের মড়কে এমআরপি দেখে রিসিটসহ বীজ ক্রয় করবেন। সেই ক্ষেত্রে কৃষক কোন ভেজাল বীজ বা হয়রানির শিকার হলে আমরা আইনগত ভাবে তার ব্যবস্থা নিবো। তবে বীজের মূল্য নির্ধারন করা আমাদের দায়িত্ব নয়, এটা কোম্পানী নির্ধারণ করে।

পাইকগাছায় গৃহবধুর গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা
পাইকগাছা প্রতিনিধি
পাইকগাছায় এক সন্তানের জননী গৃহবধু গলায় রশি দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। ঘটনাটি উপজেলার রেখামারী গ্রামে।
থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, রেখামারী গ্রামের মিঠুন মালীর স্ত্রী এক সন্তানের জননী শুকা রাণী (২৭) মঙ্গলবার বিকালে নিজ বসত ঘরের আড়ার সাথে গলায় ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করে। সন্ধ্যার পর পরিবারের লোকজন টের পেয়ে বিষয়টি থানা পুলিশকে অবহিত করে। বুধবার সকালে থানার এস,আই মহিউদ্দীন মরদেহ উদ্ধার করে সুরত হাল রিপোর্ট শেষে ময়না তদন্তের জন্য খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। এ ব্যাপারে থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

যশোরে মারামারি মামলায় ৪ জনের সাজা
যশোর অফিস
যশোর মণিরামপুরের একটি মারামারি মামলায় ৪ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দিয়েছে আদালত। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে প্রমাণিত না হওয়ায় ৬ জনকে খালাস দেয়া হয়েছে। বুধবার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মো.বুলবুল ইসলাম এক রায়ে এ সাজা দিয়েছেন। সাজাপ্রাপ্তরা হলো মণিরামপুরের হাজরাকাঠি গ্রামের খোরশেদ মোড়লের ছেলে কামরুজ্জমামান, মতিয়ার রহমান, সামছুর রহমান ও আতিয়ার মোড়লের ছেলে জুয়েল।
মামলার অভিযোগে জানা গেছে, ২০০৯ সালের ১৩ মে সকালে হাজরাকাঠি গ্রামের মিজানুর ও সিরাজুল বাড়ি থেকে বের হয় কাঁচা তরকারি কেনার উদ্দ্যেশ্যে। পথিমধ্যে খোরশেদ মোড়লের বাড়ির সামনে পৌঁছালে পূর্বশত্রæতার জের ধরে আসামিরা তাদের গতিরোধ করে মারপিট করে কাছে থাকা টাকা ও সাইকেল কেড়ে নেয়। এ ব্যাপারে ইসহাক আলী বাদী হয়ে ২১জনকে আসামি করে আদালতে একটি মামলা করেন। এ মামলাটি আদালতের আদেশে মণিরামপুর থানায় নিয়মিত মামলা হিসেবে রুজু হয়। পরবর্তীতে তদন্ত শেষে ১০ জনকে অভিযুক্ত ও ১১ জনের অব্যহতি চেয়ে আদালতে চার্জশিট জমা দেন তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই রাজিউর রহমান। দীর্ঘ স্বাক্ষ্য গ্রহণ শেষে অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় বিচারক কামরুজ্জামান, মতিয়ার ও সামছুর রহমানকে ১ বছর করে সশ্রম কারাদন্ড, ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও ২ মাস করে বিনাশ্রম কারাদন্ড ও জুয়েলকে ৬ মাসের কারাদন্ড, ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন। ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় রাশেদ, শাফিকুল, সিদ্দিক, মিজানুর আমিনুর ও কবিরকে খালাস দিয়েছে আদালত। সাজাপ্রাপ্ত কামরুজ্জামান ও মতিয়ারকে আপিলের শর্তে জামিন দিয়েছেন বিচারক। অপর সাজাপ্রাপ্ত সামছুর ও জুয়েল কারাগারে আটক আছে।

যশোরে প্রতারণা মামলায় ব্র্যাক কর্মীসহ ৪ জনের কারাদন্ড
যশোর অফিস
যশোরে আলাদা প্রতারণা মামলায় এক ব্র্যাক কর্মীসহ চারজনকে সশ্রম কারাদন্ড দিয়েছে আদালত। বুধবার আলাদা রায়ে এ সাজা দিয়েছেন সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক গৌতম মল্লিক। সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা হলো সাতক্ষীরা কালিগঞ্জের পানিয়া গ্রামের সুরত আলী গাজীর মেয়ে শাহীনা খাতুন ও খুলনা পাইকগাছার চক বিষ্ণুপুর গ্রামের রুস্তম আলী ও তার স্ত্রী পারুল বেগম, ছেলে আনারুল। সাজাপ্রাপ্ত সকল আসামি পলাতক রয়েছে।
মামলার অভিযোগে জানা গেছে, শাহীনা খাতুন ব্র্যাক শার্শা শাখায় মাঠ কর্মী হিসেবে কর্মরত ছিলো। ব্র্যাক শার্শা শাখার ৩১টি গ্রাম সংগঠনের ৩৮৬ জন গ্রাহকের সঞ্চয় ও কিস্তির টাকা উত্তোলন করে অফিসে জমা দিত। অফিসের মনিটরিং রিপোর্ট অনুযায়ী আসামি শাহীনা ২০১৬ সালের ২৭ মার্চ থেকে ৯ অক্টোবর পর্যন্ত ৬ টি সংগঠন থেকে ৮ জন গ্রাহকের কিস্তি ও সঞ্চয়ের টাকা পাশ বইয়ে লিখে ৩৫হাজার ৮শ’৩০টাকা ও ২৪ আগস্ট থেকে ১১ অক্টোবর পর্যন্ত ৩১টি সংগঠনের ৮৭ জন গ্রাহকের ৪ লাখ ১১ হাজার ৭০ টাকা অগ্রিম গ্রহণ করে অফিসে জমা না দিয়ে আত্মসাত করেন। বিষয়টি অফিসের অডিটে ধরা পড়লে শাহীনা আত্মসাতকৃত টাকা পরিশোধ করতে রাজি হয়। এক পর্যায়ে শাহীনার কাছ থেকে টাকা আদায়ে ব্যর্থ হয়ে শাখা ব্যবস্থাপক শাফিউল ইসলাম প্রতারণার অভিযোগে আদালতে মামলা করেন। এ মামলার স্বাক্ষ্য গ্রহণ শেষে বিচারক আসামি শাহীনা খাতুনকে ২ বছর সশ্রম কারাদন্ড, ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ২ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন।
এ ছাড়া শার্শার দক্ষিণ বুরুজবাগান গ্রামের আবুল হাসান জহিরের গাতীপাড়ায় এইচবি ব্রিক্সস নামে একটি ইটভাটা আছে। ২০১৫ সালে আসামিরা জহিরের ইটভাটায় কাজ করবে বলে একটি চুক্তিপত্র করে অগ্রীম ২ লাখ ১০ হাজার টাকা নেয়। এক সপ্তাহ কাজ করে আসামিরা কাউকে কিছু না বলে ভাটা থেকে চলে যায়। পরে খোঁজ নিয়ে জানা যায় আসামিরা খুলনা কয়রার চাঁদখালি ব্রিজ সংলগ্ন সোহরাব হোসেনের ইট ভাটায় কাজ করছে। আসামিদের কাছে যেয়ে অগ্রিম টাকা ফেরত দিতে বললে তারা সময় নিয়ে টাকা দিতে অস্বীকার করে। টাকা আদায়ে ব্যর্থ হয়ে আবুল হাসান জহির বাদী হয়ে আদালতে মামলা করেন। এ মামলার স্বাক্ষ্য গ্রহণ শেষে বিচারক প্রত্যেক আসামিকে ১ বছর করে সশ্রম কারাদন্ড, ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরও ২ মাস করে বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছেন।

অভয়নগরে শিশু হাসিব হত্যা মামলায় আটক কাশেম ও মুস্তাকিনের আদালতে স্বীকারোক্তি
যশোর অফিস
যশোরের অভয়নগরের একতারপুর গ্রামের শিশু হাসিব মল্লিক হত্যা মামলায় আটক কাশেম ও মুস্তাকিন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে। হাসিব সুপারি চুরির কথা জানিয়ে দিবে বলে তারা তাকে গলা গেটে হত্যা করেছে বলে জবানবন্দিতে জানিয়েছে। বুধবার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক গৌতম মল্লিক আসামিদের এ জবানবন্দি গ্রহণ শেষে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন। কাশেম ও মুস্তাকিন একতারপুর গ্রামের মৃত খোকন মোড়ল ও সামছুর রহমানের ছেলে।
জাবানবন্দিতে কাশেম ও মুস্তাকিন জানিয়েছে, গত ৩ নভেম্বর বিকেলে শিশু হাসিব ছিপ দিয়ে মাছ ধরতে যায় মাঠে। মাঠের পাশে একটি সুপারি বাগান থেকে চুরি করে সুপারি পাড়ছিল কাশেম ও মুস্তাকিন। হাসিব বাগানে এসে তাদের জানায় সুপারি চুরির কথা সকলকে বলে দিবে। এ সময় কাশেম গাছ থেকে সুপারি পেড়ে নিচে নেমে হাসিবকে ধরে নিয়ে আসে। এ সময় তারা দুইজন হাসিবের হাত ও মুখ বেধে একটি ঘরে আটক রাখে। সন্ধ্যার আগে ঘরের মধ্যে হাসিবকে মাটিতে ফেলে চেপে ধরে গলা কেটে হত্যার পর লাশ পাশের গর্তে ফেলে দিয়ে বাড়ি চলে যায় বলে জানিয়েছে।
এদিকে হাসিবকে খুঁজে না পেয়ে স্বজনেরা গ্রামে মাইকিং করে। তারপরও তাকে উদ্ধারে ব্যর্থ হয় স্বজনেরা। পরদিন সকালে বাগানে সুপারি কুড়াতে যেয়ে এক মহিলা পাশের মেহগনি বাগানে হাসিবের লাশ দেখে সকলকে জানায়। এ ব্যাপারে নিহতের চাচা সোহাগ মল্লিক বাদী হয়ে অপরিচিত ব্যক্তিদের আসামি করে অভয়নগর থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা এসআই সৈয়দ আজাদ আলী হত্যার সাথে জড়িত সন্দেহে কাশেম ও মুস্তাকিনকে আটক করে গতকাল আদালতে সোপর্দ করেন। আটক দুইজন হত্যার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে আদালতে ওই জবানবন্দি দিয়েছে।

মহানগর দায়রা জজ আদালত
মাদক মামলায় রাজুর ১০বছর সশ্রম কারাদন্ড
স্টাফ রিপোর্টার
১২০০পিস ইয়াবাসহ গ্রেফতার মো. রাজু আহম্মেদ (৩২) কে সোনাডাঙ্গা মডেল থানার মাদক মামলায় ১০বছর সশ্রম কারাদন্ড, ১০হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরো ৬মাস সশ্রম কারাদন্ডাদেশ দিয়েছে আদালত। গতকাল বুধবার দুপুরে মহানগর দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. শহীদুল ইসলাম এ রায় ঘোষণা করেছেন। দন্ডপ্রাপ্ত আসামি রাজু আহম্মেদ নগরীর ৮১, পশ্চিম বানিয়াখামার কাবের মোড়স্থ কুদ্দুসের বাড়ির ভাড়াটিয়া মো. ফেরদৌস আহম্মেদের ছেলে। রায় ঘোষণাকালে দন্ডপ্রাপ্ত আসামি রাজু আদালতের কাঠগড়ায় উপস্থিত ছিলেন।
আদালতের স্টোনোগ্রাফার মো. হাদিউজ্জামান হাদি নথীর বরাত দিয়ে জানান, এ বছরের ১১মার্চ রাত পৌনে ২টার দিকে নগরীর পশ্চিম বানিয়াখামার কাবের মোড়ে অভিযান পরিচালনা করে নগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)। এসময় কুদ্দুসের বাড়ির ভাড়াটিয়া ঘরে তল্লাশি চালিয়ে ১২০০পিস ইয়াবাসহ রাজু আহম্মেদকে গ্রেফতার করা হয়। এ ঘটনায় ডিবি’র এসআই মো. আহসান কবির বাদী হয়ে রাজুর বিরুদ্ধে সোনাডাঙ্গা মডেল থানায় মাদক আইনে মামলা দায়ের করেন যার নং-১৪। এ বছরের ১১এপ্রিল মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি পরিদর্শক আশরাফুল আলম আদালতে রাজুকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দাখিল করেন। রাস্ট্রপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন পিপি অ্যাডভোকেট বিরেন্দ্র নাথ সাহা ও এপিপি অ্যাডভোকেট মো. কামরুল হোসেন জোয়ার্দ্দার। আসামি পক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট এসএম মুজিবর রহমান।

সিএমএম’র শিশু পুত্রের চুরি হওয়া বাইসাইকেল উদ্ধার : চোর গ্রেফতার
স্টাফ রিপোর্টার
খুলনার মুখ্য মহানগর হাকিম (সিএমএম)’র শিশু পুত্রের চুরি হওয়া বাইসাইকেল উদ্ধারসহ চোর মো. রায়হান মালিক (২০) কে গ্রেফতার করা হয়েছে। গতকাল বুধবার খুলনা থানা পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছে বলে অফিসার ইনচার্জ মো. হুমায়ুন কবির নিশ্চিত করেছেন। রায়হান লবণচরা থানাধিন হরিণটানা রিয়াবাজার এলাকার মো. কাশেম মালিকের ছেলে। আদালত প্রাঙ্গণের সিসি টিভি ফুটেজ দেখে চোর সণাক্ত করা হয়। তাকে আজ বৃহস্পতিবার আদালতে সোপর্দ করা হবে বলেও জানা তিনি।
মামলার বিবরণে জানা যায়, গত ১৩অক্টোবর বেলা ১১টার দিকে খুলনার মুখ্য মহানগর হাকিম কনিকা বিশ্বাস তার দু’শিশু পুত্রসহ আদালতে আসেন। সিএমএম’র অফিস করে সামনে বাইসাইকেল দু’টি রেখে তারা ভেতরে প্রবেশ করেন। বেলা ১১টা ৫০মিনিটের দিকে অফিস সহায়ক মো. আব্দুল হালিম বিশ্বাস বাইরে এসে দেখেন দু’টি সাইকেলের মধ্যে একটি নেই। তাৎণিক সকলে মিলে আদালত প্রাঙ্গনের সকল স্থানে খুঁজেও বাইসাইকেলটি পায়নি। বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপরে পরামর্শে সিএমএম আদালতের নাজির তপন কুমার সাহা বাদী হয়ে খুলনা থানায় অজ্ঞাত আসামির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন যার নং-২৪।

নগরীতে কেএমপি’র অভিযানে মাদক বিক্রেতাসহ গ্রেফতার ৫৪
স্টাফ রিপোর্টার
খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশ কেএমপি’র পৃথক অভিযানে মাদক বিক্রেতাসহ ৫৪জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদেরকে গতকাল বুধবার আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে বলে কেএমপি’র অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার সোনালী সেন নিশ্চিত করেছেন।
কেএমপি সুত্র জানায়, গত ৬নভেম্বর সকাল থেকে ২৪ ঘন্টায় নগরীর বিভিন্ন থানা এলাকা থেকে মাদক মামলায় ১১জন, কেএমপি অধ্যাদেশে ১১জন, গ্রেফতারি পরোয়ানায় ১৮জনকে গ্রেফতার করা হয়। এছাড়া বিভিন্ন মামলায় আরও ১৪জনকে গ্রেফতার করা হয়। অভিযানে ৪৫গ্রাম গাঁজা, ২৪৫পিচ ইয়াবা উদ্ধার করা হয়।

মুন্না, টিপু ও শুনু কেসিসির প্যানেল মেয়র নির্বাচিত
স্টাফ রিপোর্টার
খুলনা সিটি করপোরেশনের (কেসিসি) ১৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আমিনুল ইসলাম মুন্না প্যানেল মেয়র-১, ২৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর আলী আকবর টিপু প্যানেল মেয়র-২ এবং সংরক্ষিত ৫ নম্বর ওয়ার্ডের মহিলা কাউন্সিলর মেমরী সুফিয়া রহমান শুনু প্যানেল মেয়র-৩ নির্বাচিত হয়েছেন। গতকাল বুধবার বেলা আড়াইটাই নগর ভবনের শহীদ আলতাফ মিলনায়তনে প্যানেল মেয়র নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। নির্বাচনে ৩১ জন কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত ১০টি আসনের কাউন্সিলররা ভোট প্রদান করেন।
নির্বাচিত আমিনুল ইসলাম মুন্না ২২ ভোট, আলী আকবর টিপু ১৭ ও মেমরী সুফিয়া রহমান শুনু ১৪ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হন। নির্বাচিত তিন প্যানেল মেয়রই আওয়ামীলীগ সমর্থিত কাউন্সিলর। কেসিসি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক আনুষ্ঠানিকভাবে ফলাফল ঘোষণা করেন।
নির্বাচনে ৮জন কাউন্সিলর প্রার্থী ও ৫ জন সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর প্রার্থী অংশগ্রহণ করেন। ভোট গ্রহণ শেষে মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক নির্বাচিতদের অভিন্দন জানিয়ে খুলনার উন্নয়নে প্যানেল মেয়র ও সকল কাউন্সিলরদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার আহবান জানান।
নির্বাচন পরিচালনা কমিটির সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন কেসিসি’র প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা পলাশ কান্তি বালা এবং কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন কেসিসি’র সচিব মোঃ আজমুল হক ও প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা মোঃ আব্দুর রহমান।

পরিকল্পিতভাবে উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে হবে: কেসিসি মেয়র
খবর বিজ্ঞপ্তি
খুলনা সিটি করপোরেশনের দ্বিতীয় সাধারণ সভা গতকাল বুধবার বেলা ১১টায় নগর ভবনের শহীদ আলতাফ মিলনায়তনে কেসিসি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় কেসিসি’র সাবেক কাউন্সিলর এস এম আবুল কালাম আজাদ, সাবেক কমিশনার মোঃ আফসার উদ্দিন, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী খুলনা চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির সাবেক সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী শাহনেওয়াজ, কেসিসি’র সাবেক উপ সহকারী প্রকৌশলী মোঃ সেলিম খান, সাবেক ওয়ার্ড সচিব ফকির নূর ইসলাম ও সাবেক কর্মচারী হাসিনা বানু কচির ইন্তেকালে শোক প্রস্তাব গৃহীত হয়।
সভায় বিএমডিএফ প্রকল্পের আওতায় ৩৬ কোটি ৭৬ লাখ টাকার উন্নয়ন কর্মসূচি বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। উল্লিখিত অর্থ ব্যয়ে অবকাঠামো উন্নয়ন, রাস্তাঘাট, কিচেন মার্কেট নির্মাণসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করা হবে বলে সভায় উল্লেখ করা হয়।
সভায় সভাপতির বক্তৃতায় কেসিসি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক বলেন নগরবাসীর সকল প্রকার নাগরিক সুবিধা নিশ্চিত করতে পরিকল্পিতভাবে উন্নয়ন প্রকল্প বাস্তবায়ন করতে হবে। এ ল্েয তিনি খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপসহ সকল সেবাদানকারী সংস্থার কর্মকান্ডের সমন্বয় সাধনের ্ওপর গুরুত্বারোপ করে বলেন সমন্বিত উদ্যোগের মাধ্যমে খুলনাকে সমৃদ্ধ নগরী হিসেবে গড়ে তোলা দরকার। তিনি বলেন নগরীর পার্শ্ববর্তী উপশহর বা শহরতলী এলাকায় অপরিকল্পিতভাবে নগরায়ন হচেছ। এ সব এলাকায় ভবিষ্যতে নাগরিক সুবিধা প্রদান করা দুস্কর হবে। তাই এখন থেকে পরিকল্পিত নগরায়নের উদ্যোগ নিতে হবে।
সভায় কেসিসি’র কাউন্সিলর, সংরতি আসনের কাউন্সিলর, কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন সরকারি সংস্থার প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন।

ঝিনাইদহে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদন্ড
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
ঝিনাইদহে স্ত্রী রীনা খাতুন হত্যার দায়ে স্বামী রিয়াদ মুন্সিকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড ও ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। জরিমানা অনাদায়ে আরো ১ বছরের কারান্ডাদেশ দেওয়া হয়। বুধবার দুপুরে ঝিনাইদহ অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো: গোলাম আযম এ আদেশ দেন।
মামলার সংপ্তি বিবরণে জানা গেছে, ২০১৩ সালের ২৩ নভেম্বর ঝিনাইদহ সদর উপজেলার সোনাদাহ গ্রামের রীনা খাতুনকে কয়েকজন ব্যক্তি ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। সেসময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। খবর পেয়ে পুলিশ রীনার সুরোতহাল রিপোর্ট তৈরীকালে গলায় আঙ্গুলে ছাপ দেখতে পায়। এতে পুলিশের সন্দেহ হয়। পুলিশ পোষ্ট মর্টেমের জন্য মৃতদেহটি মর্গে পাঠায়। পোষ্টমর্টেমে রীনাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে বলে রিপোর্ট আসে। এরপর স্বামী রিয়াদ মুন্সির ভয়ে রীনার স্বজনরা মামলা করতে ভয় পায়। পুলিশ বাদি হয়ে স্বামী রিয়াদ মুন্সিকে আসামী করে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করে। এসআই ইয়াসিন আলী মামলাটির তদন্ত শেষে ২০১৪ সালের ১৯ নভেম্বর আদালতে চার্জশীট দাখিল করে। এ মামলায় ১৪ জনের স্ব্যা গ্রহণ করা হয়। বিচারে দোষি প্রমানিত হওয়ায় আসামীকে যাবজ্জীবন কারাদন্ডাদেশ দেওয়া হয়।

লেখাপড়ার মান উন্নয়নে সরকার দৃঢ় প্রতিজ্ঞ ঃ মন্নুজান সুফিয়ান এমপি
খবর বিজ্ঞপ্তি
খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (কুয়েট) নবনির্মিত আরবান এন্ড রিজিওনাল প্লানিং (ইউআরপি) ভবনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৭ নভেম্বর বুধবার দুপুর ১২টায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ইউআরপি ভবনের শুভ উদ্বোধন করেন মহান জাতীয় সংসদের খুলনা-৩ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য বেগম মন্নুজান সুফিয়ান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. কাজী সাজ্জাদ হোসেন। প্রধান অতিথির বক্তৃতায় বেগম মন্নুজান সুফিয়ান বলেন, লেখাপড়ার মান উন্নয়নে শেখ হাসিনার সরকার দৃঢ় প্রতিজ্ঞ, এজন্য তিঁনি প্রয়োজনীয় সবকিছু প্রদান করতে প্রস্তুত। রক্তের বিনিময়ে বাংলার স্বাধীনতা অর্জিত হয়েছে উল্লেখ করে মাননীয় সংসদ সদস্য শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে আরো বলেন, মনদিয়ে লেখা পড়া করতে হবে এবং কুয়েটের বর্তমান অবস্থানকে আরো উপরে নিয়ে যেতে হবে।
উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. কাজী হামিদুল বারী, ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মহিউদ্দিন আহমাদ, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের ডীন প্রফেসর ড. মিহির রঞ্জন হালদার, ইউআরপি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. মোঃ মোস্তফা সারোয়ার, আর্কিটেকচার বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর ড. বায়েজীদ ইসমাইল চৌধুরী, সংশ্লিষ্ট প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক ও অতিরিক্ত পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) প্রকৌশলী মোঃ আনিছুর রহমান ভূঞা ও প্রধান প্রকৌশলী এ বি এম মামুনুর রশিদ এবং অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন তত্ত¡াবধায়ক প্রকৌশলী ড. মোঃ জুলফিকার হোসেন। অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা, কর্মচারী, শিক্ষার্থীসহ স্থানীয় রাজনীতিবীদ ও আমন্ত্রিত অতিথিবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

খুলনা ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের কমিটি গঠন
সভাপতি সুবীর রায়, সম্পাদক সোহাগ দেওয়ান
স্টাফ রিপোর্টার
খুলনা ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের ১৯ সদস্য বিশিষ্ট দ্বি-বার্ষিক কমিটি গঠন করা হয়েছে। গঠিত কমিটিতে দৈনিক পূর্বাঞ্চলের স্টাফ রিপোর্টার সুবীর কুমার রায় সভাপতি ও দৈনিক সময়ের খবরের নিজস্ব প্রতিবেদক সোহাগ দেওয়ান সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন।
গতকাল বুধবার (৭নভেম্বর) নগরীর একটি অভিজাত হোটেলে অনুষ্ঠিত সভায় সর্বসম্মতিক্রমে এ কমিটি গঠন করা হয়। গঠিত কমিটির অন্যান্যরা হলেন, সিনিয়র সহ-সভাপতি এইচ এম আলাউদ্দিন (দৈনিক পূর্বাঞ্চল), সহ-সভাপতি কাজী শামীম আহমেদ (দৈনিক গ্রামের কাগজ), সহ-সভাপতি ডি এম রেজা সোহাগ (দৈনিক প্রবর্তন), সহ-সভাপতি এস এম কামাল হোসেন (দৈনিক পাঠকের পত্রিকা), যুগ্ম সম্পাদক বিমল সাহা (দৈনিক প্রবাহ), সহ-সাধারণ সম্পাদক নূর হাসান জনি (দৈনিক তথ্য), তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মাকসুদ আলী (দৈনিক প্রবাহ), কোষাধ্যক্ষ এম এ জলিল (দৈনিক খুলনাঞ্চল), দপ্তর সম্পাদক আশরাফুল ইসলাম নূর (দৈনিক সময়ের খবর), প্রচার সম্পাদক জয়নাল ফরাজী ( দক্ষিনাঞ্চল প্রতিদিন), ক্রীড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক আল মাহমুদ প্রিন্স (দৈনিক সময়ের খবর), পাঠাগার সম্পাদক শিশির রঞ্জন মল্লিক (দৈনিক স্পন্দন)।
কমিটির কার্যনির্বাহী সদস্যবৃন্দ হলেন, আসাদুজ্জামান রিয়াজ (দৈনিক খুলনা টাইমস), হুমায়ুন কবীর (দৈনিক আজকের তথ্য), সুমন আহমেদ (দৈনিক খুলনা টাইমস), আহমদ মুসা রঞ্জু (দৈনিক পূর্বাঞ্চল), কামরুল হোসেন মনি (দৈনিক প্রবাহ)।
এদিকে কমিটি গঠন উপলক্ষে বুধবার অনুষ্ঠিত সভায় সভাপতিত্ব করেন দৈনিক পূর্বাঞ্চলের স্টাফ রিপোর্টার সুবীর কুমার রায়। দৈনিক সময়ের খবরের নিজস্ব প্রতিবেদক সোহাগ দেওয়ানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় বক্তৃতা করেন, দৈনিক খুলনা টাইমস’র সম্পাদক সুমন আহমেদ ও নির্বাহী সম্পাদক আসাদুজ্জামান রিয়াজ, দৈনিক আজকের তথ্যের বার্তা সম্পাদক হুমায়ুন কবীর, দৈনিক তথ্যের বার্তা সম্পাদক নুর হোসেন জনি, দৈনিক গ্রামের কাগজের খুলনা ব্যুরো প্রধান কাজী শামীম আহমেদ, দৈনিক স্পন্দনের খুলনা ব্যুরো প্রধান শিশির রঞ্জন মল্লিক, দৈনিক প্রবাহের স্টাফ রিপোর্টার মাকসুদ আলী ও কামরুল হোসেন মনি, দৈনিক খুলনাঞ্চলের স্টাফ রিপোর্টার এম এ জলিল, দৈনিক সময়ের খবরের নিজস্ব প্রতিবেদক আশরাফুল ইসলাম নূর ও আল মাহমুদ প্রিন্স, দক্ষিণাঞ্চল প্রতিদিনের স্টাফ রিপোর্টার জয়নাল ফরাজী প্রমুখ।
এদিকে সভায় সড়ক দুর্ঘটনায় আহত খুলনা ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশনের যুগ্ম সম্পাদক বিমল সাহার সুস্থতা কামনা করা হয়।

চিতলমারীতে ৯ কিলোমিটার সড়কের বেহাল দশা
চরম ভোগান্তিতে ২০ গ্রামের মানুষ
মো: কামরুজ্জামান, চিতলমারী
বাগেরহাটের চিতলমারীতে গুরুত্বপূর্ণ একটি সড়কের বেহাল দশায় চরম ভোগান্তিতে রয়েছে স্থানীয়রা। দীর্ঘ প্রায় ৬-৭ বছর এ সড়কটিতে কোন প্রকার মেরামত কাজ না করায় এখন প্রায় চলাচলের অনুপোযোগি হয়ে পড়েছে। এ অবস্থায় প্রতিনিয়ত সমস্যার সম্মুখিন হতে হচ্ছে প্রায় ২০ গ্রামের বাসিন্দাদের।
স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা বলে জানা গেছে, চিতলমারী-পাটরপাড়া-বাখেরগঞ্জ সড়কটি গত কয়েক বছর মেরামতের অভাবে খানাখন্দের সৃষ্টি হয়েছে। ফলে এ সড়কে চলাচল করতে লোকজনকে পোহাতে হয় নানা দুর্ভোগ। সড়কে বেহাল দশার কারণে প্রতিনিয়ত ঘটছে নানা দুর্ঘটনা। এলাকাবাসির অভিযোগ গত কয়েক বছর ধরে সড়কের এ বেহাল অবস্থা যেন দেখার কেউ নেই। পরিস্থতি এক চরম আকার ধারণ করেছে। সড়কের দুরবস্থার কারণে মালামাল আনা নেওয়াসহ যানবাহন চলাচলেও সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে।
এলাকা বাসি জানান, উপজেলা সদর বাজার থেকে পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের সামনে দিয়ে চিতলমারী-পাটরপাড়া-বাখেরগঞ্জ বাজার সড়কটি প্রায় ১৮ বছর আগে নির্মান হয়। নিম্মমানের সামগ্রী দিয়ে নির্মানের কারণে এটিতে অল্পদিনের মধ্যেই কার্পেটিং উঠে বড়বড় গতে সৃষ্টি হয়। দীর্ঘ ৬-৭ বছর সড়কটিতে কোন মেরামত বা সংস্কারের কাজ না হওয়ায় এটি একেবারে চলাচলের অনুপযোগি হয়ে পড়ে। এক সময় ওই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন বিপুল পরিমান ভ্যান, অটোবাইক, নছিমন এবং ভটভটি চলাচল করত। কিন্তু বর্তমানে রাস্তাটির বেহাল দশার কারণে জানবাহন গুলি উক্ত সড়কে ঢুকতে চায়না। যার কারনে ওই এলাকার মানুষের চরম ভোগান্তি পোহাতে হচ্ছে।
স্থানীয় বাদাম বিক্রেতা জামাল ফরাজী, কৃষক রেজাউল খান, সুধাংশু মন্ডল, ভ্যান চালক আরশাফ মোড়ল, শহর আলী, মেকার রোকা বিশ্বাস, ফল বিক্রেতা ফারুক মিয়া, মাছ বিক্রেতা কাঙ্গাল রাজবংশীসহ শতাধিক ব্যাক্তি প্রায় অভিন্নসুরে জানান, গুরুত্বপূর্ণ এই রাস্তাটি এ অঞ্চলের মানুষের জীবন ও জীবিকার সাথে জড়িত। তাই অতিশীঘ্র এটি সংস্কারের দাবি জানান তারা।
চিতলমারী উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ জাকারিয়া হোসেন জানান, গুরুত্বপূর্ণ এ সড়কটি প্রায় ৯ কিঃমিঃ মিটার লম্বা। এটির একটি ইস্টিমেট ইতোমধ্যে পাঠানো হয়েছে। ইস্টিমেট পাশ হলে টেন্ডার আহŸান করা হবে।

কর কমিশনার, কর আপীল অঞ্চল খুলনা সাথে চেম্বারের মতবিনিময়
খবর বিজ্ঞপ্তি
গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় খুলনা চেম্বারের সভাকে কর কমিশনার, কর আপীল অঞ্চল, খুলনার সঙ্গে খুলনা চেম্বারের পরিচালনা পরিষদ ও খুলনার বিভন্ন ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দের এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রশান্ত কুমার রায়, কর কমিশনার, কর আপীল অঞ্চল, খুলনা; মোঃ জাহঙ্গীর আলম, কর কমিশনার, কর অঞ্চল, খুলনা; খালিদ শরীফ আরিফিন, অতিরিক্ত কর কমিশনার, কর অঞ্চল, খুলনা; মঞ্জুরুল আলম, পরিদর্শী যুগ্ম কর কমিশনার, কর অঞ্চল, খুলনা; খোঃ তারিক উদ্দিন আহম্মেদ, উপ কর কমিশনার, সদর দপ্তর প্রশাসন, কর অঞ্চল, খুলনা।
সভায় সভাপতিত্ব করেন খুলনা চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি কাজি আমিনুল হক। সভাপতি এতদাঞ্চলের ব্যবসায়ীদের প থেকে আয়কর সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় ও সুবিধা-অসুবিধাসমূহ কর কমিশনার এর নিকট উপস্থাপন করেন এবং কর কমিশনার বিষয়গুলো আমলে নিয়ে সর্বদা ব্যবসায়ীদের পাশে থেকে সহযোগীতা করার আশ্বাস প্রদান করেন। উক্ত সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন খুলনা চেম্বারের সহ-সভাপতি সিদ্দিকুর রহমান বিশ্বাস বুলু, পরিচালকবৃন্দ শেখ আসাদুর রহমান, মোঃ সিরাজুল হক, শেখ আল্লামা ইকবাল তুহিন, মোঃ আবুল হাসান, আলহাজ্ব মোঃ মফিদুল ইসলাম টুটুল, জোবায়ের আহমেদ খান (জবা), কাজী মাসুদুল ইসলাম, খান সাইফুল ইসলাম ও মোঃ মাহবুব আলম এবং বিভিন্ন সমিতির নেতৃবৃন্দ।

জাপার সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি বিলুপ্ত
খবর বিজ্ঞপ্তি
মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টায় খুলনা মহানগর জাতীয় পার্টির এক জরুরী সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন খুলনা মহানগর জাতীয় পার্টির আহŸায়ক এড. এস এম মঞ্জুর-উল-আলম। অসাংগঠনিক কার্যকলাপ, গঠনতন্ত্রের পরিপন্থী কর্মকাÐ, দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ, কর্তব্য কাজে অবহেলা ও অনীহা-সহ নেতাকর্মীদের সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণের জন্য উক্ত সভায় খালিশপুর, দৌলতপুর, খানজাহান আলী ও আড়ংঘাটা থানার সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটি বিলুপ্ত ঘোষণা করা হয়। যা অদ্য তারিখ হতে কার্যকর হবে।

বিপ্লব ও সংহতি দিবসে নগর বিএনপির আলোচনা সভায় বক্তারা
সংলাপের মাধ্যমে দাবি না মানলে অসম্মানজনক ভাবে বিদায় নিতে হবে
খবর বিজ্ঞপ্তি
জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে খুলনা মহানগর বিএনপি আয়োজিত আলোচনা সভায় বক্তারা দিনটিকে দেশের স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র রক্ষার দিন উল্লেখ করে বলেছেন, ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর বিজয় অর্জন করলেও স্বাধীনতার প্রকৃত স্বাদ পেতে গোটা জাতিকে এই দিনটি পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয়েছে। যুদ্ধোত্তর দেশে তৎকালীন শাসক গোষ্ঠী রাষ্ট্র পরিচালনায় সীমাহীন অযোগ্যতা, অদূরদর্শিতা ও পদলেহী পররাষ্ট্রনীতি গ্রহণ করায় রক্তে অর্জিত স্বাধীনতাই বিপন্ন হতে বসেছিল। একদিকে শাসকদের সীমাহীন বাঁধাহীন লুটপাট অন্যদিকে বিরোধী মতাদর্শের রাজনৈতিক কর্মীদের গণহত্যা দেশকে এক দূর্বিষহ পরিস্থিতির দিকে ঠেলে দেয়। এ পরিস্থিতিতে সপরিবারে তৎকালীন সরকার প্রধানকে ও পরে কারারুদ্ধ জাতীয় চার নেতাকে হত্যা সা¤্রাজ্যবাদী শক্তির উত্থানকে যখন নিশ্চিত করে তুলছিল, সেই মুহুর্তে দেশপ্রেমিক সিপাহী জনতার সম্মিলিত বিপ্লবে আমাদের স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র রক্ষা পায়। আর সেই ক্রান্তিকালে দেশের হাল ধরেছিলেন স্বাধীনতার মহান ঘোষক রণাঙ্গণের বীর মুক্তিযোদ্ধা মেজর জিয়াউর রহমান বীর উত্তম। তিনি দেশকে তলাবিহীন ঝুড়ি থেকে উন্নয়ন ও উৎপাদনে শীর্ষে পৌছে দিয়েছিলেন।
বক্তারা বলেন, সেই সময়ের মতো আজও দেশ এক চরম সংকটে। তারা গায়ের জোরে ক্ষমতা দখল করে রাখা আওয়ামীলীগকে জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের দেয়া ৭ দফা মেনে নেয়ার আহবান জানিয়ে বলেন, সংলাপের মাধ্যমে ন্যায়সঙ্গত দাবিসমূহ মেনে নেয়া না হলে আপনাদেরকেও অসম্মানজনক ভাবে বিদায় নিতে হবে। বক্তারা নগরী জুড়ে বিএনপির নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে গায়েবী মামলা দায়ের ও গণগ্রেফতার অভিযান এবং বাড়ি বাড়ি তল্লাশি চালানোর নামে পুলিশী তান্ডবের তিব্র নিন্দা জানিয়ে অবিলম্বে তা বন্ধের দাবি জানান এবং নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড তৈরির দাবি জানান।
আলোচনা সভা শেষে শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান বীর উত্তম এর রুহের মাগফিরাত কামনায় বিশেষ দোয়া মোনাজাত করা হয়।
মীর কায়সেদ আলীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন নগর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি। অধ্যাপক আরিফুজ্জামান অপুর পরিচালনায় কর্মসুচিতে উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন সাবেক এমপি কাজী সেকেন্দার আলী ডালিম, জাফরউল্লাহ খান সাচ্চু, সিরাজুল ইসলাম, রেহানা আক্তার, স ম আব্দুর রহমান, ফখরুল আলম, অধ্যক্ষ তারিকুল ইসলাম, মহিবুজ্জামান কচি, আজিজা খানম এলিজা, এহতেশামুল হক শাওন, শেখ সাদী, মাসুদ পারভেজ বাবু, একরামুল হক হেলাল, শামসুজ্জামান চঞ্চল, শরিফুল ইসলাম বাবু, হেলাল আহমেদ সুমন, নিয়াজ আহমেদ তুহিন, বদরুল আনাম, মীর কবির হোসেন, হাবিব বিশ্বাস, মোঃ ওহেদুজ্জামান, জামিরুল ইসলাম, হাসান মেহেদী রিজভী, নাসির খান, বাচ্চু মীর, ওয়াহিদুর রহমান দীপু, মাহমুদ আলম বাবু মোড়ল, তৌহিদুল ইসলাম খোকন, নিঘাত সীমা, আলমগীর হোসেন, মেহেদী হাসান সোহাগ, আব্দুল আলিম, শফিকুল ইসলাম শাহিন, কাজী মাহমুদ আলী, ময়েজউদ্দিন চুন্নু, জি এম রফিকুল হাসান, সাব্বির হোসেন, জাহাঙ্গীর হোসেন, ওলিয়ার রহমান ওলি, সাদি, মনিরুল ইসলাম, মইদুর রহমান টুকু, আনজিরা বেগম, রোকেয়া ফারুক প্রমুখ। দোয়া মোনাজাত পরিচালনা করেন হাফেজ হাফিজুল ইসলাম। এর আগে ভোরে সকল দলীয় কার্যালয়ে দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়।

খুলনাস্থ মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ সমিতির আলোচনা সভা
খবর বিজ্ঞপ্তি
গতকাল বুধবার ৯৮ স্যার ইকবাল রোড কার্যালয়ে সকাল ১১টায় খুলনাস্থ মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ সমিতির উদ্যোগে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব গাজী হারুন অর রশীদ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা যুদ্ধকালীন কমান্ডার এম আব্দুল্লাহ হেল কাফি। প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন খুলনা মহানগর আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা যুদ্ধকালীন কমান্ডার আলহাজ্ব মোঃ মনিরুজ্জামান। সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ হাসমত আলীর পরিচালনায় বক্তব্য রাখেনÑবীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব এম শহিদুর রহমান শহিদ, প্রিন্সিপাল ড. চৌধুরী মাহবুবুল হক, খান আকরাম হোসেন, শিকদার আতিয়ার রহমান, ক্যাপেটন (অবঃ) কৃষ্ণপদ রায়, অলিয়ার রহমান শিকদার, আলহাজ্ব মোঃ নওশেল আলী মোল্যা, আলহাজ্ব সেকেন্দার আলী, মোঃ হায়দার আলী হাওলাদার, আখতারুজ্জামান টুকু, মোঃ নাসির উদ্দিন সরদার, আবুল কাশেম আর্মি, মোঃ আবুল কাশেম সমাদ্দার, অশোক কুমার পোদ্দার, শেখ হাবিবুর রহমান, এ কে এম জিয়াউল ইসলাম, আমজাদ হোসেন, চৌধুরী হাসমত আলী, রাহমাত ইলা রুমী, এস এম ইকবাল হোসেন, মোঃ জহুরুল হক মল্লিক, সম্পাদক বদরুল আলম, আফরোজা আক্তার, মিসেস পারভীন হাসমত, মায়া আহম্মদ, লিলিয়া খানম, জেসমিন নাহার লাকী, আবুল কাশেম, জাহাঙ্গীর আলম, আব্দুল গফুর সরদার, সরদার শহীদুল্লাহ, শাহাদৎ হোসেন, এস এম মোস্তফা কামাল, হাফেজ মোঃ ওলিয়ার রহমান, শেখ মুজিবুর রহমান, হাফেজ গাজী হারুন অর রশীদ, ডাঃ চিত্ত রঞ্জন সরদার, রমেশ চন্দ্র বালা, গোলাম মওলা, আলহাজ্ব গোলাম সরোয়ার সারু, তকিবুর রহমান সরদার, ওয়াহিদুজ্জামান ডাবলু প্রমুখ।

নগরীতে বিএনপির ৪ নেতাকর্মী গ্রেফতার
খবর বিজ্ঞপ্তি
নগরী জুড়ে পুলিশের গণগ্রেফতার অভিযানে নতুন করে গ্রেফতারের শিকার হয়েছেন বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের আরো ৪ নেতাকর্মী। গ্রেফতারকৃতরা হলেন বিএনপি নেতা শাজাহান বাদশা, ছাত্রদল নেতা রাজিব হোসেন, মুকুল হোসেন এবং আব্দুল কুদ্দুস। এছাড়া পুলিশের তল্লাশি অভিযান অব্যাহত থাকায় বিরোধী মতাদর্শের নেতাকর্মীদের মাঝে আতংত বিরাজ করছে। কর্মীদেরকে বাড়িতে না পেয়ে পরিবারের সদস্যদের সাথে চরম অসৎব্যবহার এবং গালিগালাজ করছে পুলিশ।
খুলনা মহানগর বিএনপির নেতৃবৃন্দ এ ঘটনার নিন্দা, সকল গায়েবী মামলা প্রত্যাহার এবং গ্রেফতারকৃতদের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেছেন। এক বিবৃতিতে তারা এ দাবি জানিয়ে বলেন, ভীতিমুক্ত ও সুষ্ঠু পরিবেশ ছাড়া দেশে কোন নির্বাচন হতে পারেনা। বিবৃতিদাতারা হলেন, বিএনপির চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা এম নুরুল ইসলাম দাদু ভাই, সভাপতি নজরুল ইসলাম মঞ্জু, সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনি, সাহারুজ্জামান মোর্ত্তজা, কাজী সেকেন্দার আলী ডালিম, সৈয়দা নার্গিস আলী, মীর কায়সেদ আলী, শেখ মোশারফ হোসেন, জাফরউল্লাহ খান সাচ্চু, জলিল খান কালাম, সিরাজুল ইসলাম, ফখরুল আলম, এ্যাড. ফজলে হালিম লিটন, অধ্য তারিকুল ইসলাম, শেখ আমজাদ হোসেন, অধ্যাপক আরিফুজ্জামান অপু, সিরাজুল হক নান্নু, ইকবাল হোসেন খোকন, আসাদুজ্জামান মুরাদ প্রমুখ।

চরমোনাই পীরের জনসভা সফলে প্রচার মিছিল
খবর বিজ্ঞপ্তি
আগামী ৯ নভেম্বর শুক্রবার খুলনা ডাকবাংলা সোনালী ব্যাংক চত্বরে চরমোনাই পীর মুফতী সৈয়দ মুহাম্মদ রেজাউল করীমের জনসভা সফলে গতকাল বুধবার (৭ নভেম্বর) বিকাল ৩ টায় পাওয়ার হাউজ মোড়স্থ দলীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে এক বিশাল মোটরসাইকেল প্রচার মিছিল বের হয়।
প্রচার মিছিলে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের নায়েবে আমীর ও খুলনা ২ আসনের সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী অধ্যক্ষ হাফেজ মাওঃ আব্দুল আউয়াল, ইসলামী আন্দোলন খুলনা মহানগর সভাপতি ও খুলনা ৩ আসনের সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী অধ্যক্ষ মাওঃ মুজ্জাম্মিল হক, জেলা সভাপতি মাওলানা আব্দুল্লাহ ইমরান, নগর সহ সভাপতি শেখ মুহাঃ নাসির উদ্দিন, মাওঃ মুজাফ্ফার হোসাইন, জেলা সহ সভাপতি ও খুলনা ১ আসনের এমপি পদপ্রার্থী মাওঃ আবু সাঈদ, নগর জয়েন্ট সেক্রেটারী মাওঃ ইমরান হোসাইন, ইঞ্জিনিয়ার এজাজ মানসুর, জেলা সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ আব্দুল্লাহ আল মামুন, আবু গালিব, নগর প্রচার সম্পাদক মোঃ তরিকুল ইসলাম কাবির, মাওঃ হারুন-অর-রশিদ, মোঃ আব্দুর রশিদ, আলহাজ্ব শহিদুল ইসলাম বিশ্বাস, মোঃ রবিউল ইসলাম তুষার, মুফতী আব্দুর রহমান মিয়াজী, খুলনা ৫ আসনের এমপি প্রার্থী মাওঃ মুজিবর রহমান, হাফেজ মুস্তাফিজুর রহমান, মাওঃ দ্বীন ইসলাম, মাওঃ আব্দুস সাত্তার হালদার, মুক্তিযুদ্ধা জি এম কিবরিয়া, আলহাজ্ব আমজাদ হোসেন, মোঃ হযরত আলী, আলহাজ্ব আবু তাহের, আলহাজ্ব মোঃ মিজানুর রহমান, মাওঃ সিরাজুল ইসলাম, মোঃ কামরুল ইসলাম, মুফতী তৈয়েবুর রহমান, আলহাজ্ব আমজাদ হোসেন, শ্রমিক নেতা আলহাজ্ব জাহিদুল ইসলাম, খুলনা ৬ আসনের এমপি প্রার্থী গাজী নূর আহম্মদ, মোঃ আবুল কালাম আজাদ, মোঃ নুরুল হুদা সাজু, যুবনেতা মোঃ ইসমাইল হোসেন, মাওঃ তৌহিদুল ইসলাম, মুহাঃ ইমরান হোসেন মিয়া, হাফেজ নাজিম ফকির, মোঃ মাহমুদুল হক তানভীর, এইচ এম জুনায়েদ মাহমুদ, ছাত্র নেতা মুহাঃ ইসহাক ফরীদি, শেখ মুহা. আমিরুল ইসলাম, মোঃ হাসানুজ্জামান, মুহাঃ সাইফুল ইসলাম, এসকে নাজমুল হাসান, এইচ এম খালিদ সাইফুল্লাহ, শেখ মুহা. নাজমুল হুদা, মুহাঃ কাজী আল আমিন, আব্দুল ছালাম জায়েফ, আব্দুল্লাহ আল নোমান, মোঃ শফিকুল ইসলাম, ইব্রাহীম ইসলাম আবীর, মুহাঃ হাসান আল মামুন প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।
প্রচার মিছিলটি নগরীর বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে।

বিপ্লব ও সংহতি দিবসে জেলা বিএনপির আলোচনা সভা
খবর বিজ্ঞপ্তি
জাতীয় বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে বুধবার বিকেল দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল করেছে খুলনা জেলা বিএনপি। জেলা বিএনপির সহ সভাপতি মনিরুজ্জামান মন্টুর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন সাধারণ সম্পাদক আমীর এজাজ খান। উপস্থিত ছিলেন ও বক্তব্য রাখেন বিএনপি নেতা শেখ আব্দুর রশিদ, কামরুজ্জামান টুকু, খান আলী মুনসুর, চৌধুরী কওসার আলী, আবুল খয়ের খান, সাইফুর রহমান মিন্টু, মেজবাউল আলম, মোস্তফা উল বারী লাভলু, এস এম মুর্শিদুর রহমান লিটন, ওয়াহিদুজ্জামান রানা, তৈয়েবুর রহমান, আতাউর রহমান রনু, আব্দুল মান্নান মিস্ত্রি, খায়রুল ইসলাম খান জনি, সুলতান মাহমুদ, আহসানুল হক লড্ডন, মশিউর রহমান যাদু, নুুরুল আমিন বাবুল, মোজাফ্ফর হোসেন, সাইফুল আহসান রবি, জাফরী নেওয়াজ চন্দন, অধ্যাপক আইয়ুব আলী, জি এম আসাদুজ্জামান, আতিয়ার রহমান, মোফাজ্জল হোসেন মফু, আবুল বাশার, বেল্লাল মোল্লা, আসলাম পারভেজ, মোঃ মুনির হোসেন, রফিকুল ইসলাম বাবু, জসিমউদ্দিন লাবু, আব্দুল মালেক, শফিকুর রহমান, মাসুম মাস্টার, মোঃ কবির হোসেন, এ্যাড. আলফাজ হোসেন, এ্যাড. মোঃ মাসুদ, অধ্যাপক মনিরুল হক, মোঃ আজিজুল ইসলাম, তারভিরুল আযম রুম্মান, ওয়াহিদুজ্জামান নান্না, মোঃ আবু হানিফ, আবুল কালাম লস্কর, হারুনর রশিদ, জহুরুল হক, মাসুদ জমাদ্দার, আব্দুল মান্নান খান, সেতারা সুলতানা, নাসিমা পলি, মিসেস মনি, মনিরা পারভীন, মাহমুদা লাকি, শাহাদাত হোসেন, সাইফুল মোড়ল, মোঃ ইউসুফ শেখ, এ্যাড. এসকেন্দার, কুদরতে ইলাহী স্পীকার, আব্দুর রহমান, ফরিদ আনোয়ার, মোঃ বেল্লাল হোসেন, আফজাল ফরাজি, সজিব শেখ, মোঃ আমির, মাসুম বিল্লাহ, দুলাল আকন, সোহেল রানা তুহনি, মুকুন্দ মোহন পান্থ, ব্রোজেন ঢালী, বিপ্লব, সোহেল রহমান প্রমুখ।

ভৈরব নদে ১৬০ টন সার বোঝাই কার্গো ডুবি
সাইফুল্লাহ তারেক, খানজাহান আলী থানা
খুলনার ভৈরব নদীর খানজাহান আলী থানাধীন গিলাতলা বারাকপুর ঘাট সংলগ্ন ত্রি-মোহনীতে মঙ্গলবার রাত সোয়া ১১টায় নদী খননের ড্রেজার মেশিনের মাটি বা পলি কাটার কাটারে কেটে গিয়ে নওয়াপাড়াগামী কার্গো এম ভি মির্জাগঞ্জ কার্গো ১৬০ টন সার নিয়ে মধ্য নদীতে ডুবেগেছে। কার্গোটির নয় কর্মচারী নিরাপদে তীরে উঠতে সক্ষম হয়েছে। এ রির্পোট লেখা পর্যন্ত কার্গো টি নদীর তলদেশে ডুবেছিল । ঘটনার পর বিআইডাবিøউটিএ’র উর্ধতন কর্মকর্তাগণ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।
জানাগেছে, মির্জাগঞ্জ বার্জ কার্গোটি মঙ্গলবার সকাল ৬টায় ১৬০ টন এম ও পি পটাস সার মংলা থেকে লোড দিয়ে নওয়াপাড়ার উদ্দেশ্যে ছেড়ে আসে। রাত পোনে ১১টার দিকে ভৈরব নদীর বারাকপুর ঘাট সংলগ্ন মেসার্স হোসেন ব্রিকসের (গিলাতলা) সামনে আসলে নদী খননকারী বঙ্গ মেঘনা ড্রেজার মেশিনের বালু কাটার কাটারের ধারালো বেøডে সার বোঝাই মির্জাগঞ্জ বার্জের তলা ফেটে মুহুর্তের মধ্যে পানিতে তলিয়ে যায়। এ সময় কার্গোর ৯ জন কর্মচারীকে আশপাশের লোকজন নৌকায় করে উদ্ধার করে।
স্থানীয় আলী হোসেন জানান, বালু উত্তোলনকারীরা ড্রাম দিয়ে নদীর মাঝখানে মেশিন বসিয়ে নদীর খননের কাজ করছিলো। ড্রাম গুলোতে কোন সিগনাল বাতি বা ড্রেজার মেশিনে পর্যাপ্ত আলো বা সিগনাল বাতি না থাকায় দূর্ঘটনা ঘটেছে।
মির্জাগঞ্জ কার্গোর সারেং মোতালেব জানান, নদীর মাঝ বরাবর ড্র্রেজার মেশিন দিয়ে নদী খনন করছিলো বঙ্গ মেঘনা প্রতিষ্ঠান। রাতের বেলায় বালু উত্তোলনের সময় পর্যাপ্ত সিগনাল বাতি না থাকায় এ দূর্ঘটনা ঘটেছে। তিনি বলেন কার্গো বার্জটি ড্রেজার মেশিনের কাছাকাছি আসলে তখন সিগনাল বাতির মাধ্যমে সংকেত দেওয়া হয় কিন্তু যখন সংকেত দেওয়া হয়েছে তখন আর কিছু করার ছিলো না। কার্গোটি মাঝ পথ দিয়ে যাওয়ার সময় ড্রেজার মেশিনের নদীর তলের বালু কাটার কাটারের কার্গোর তলা ফেটে মুহুর্তের মধ্যে পানিতে তলিয়ে যায়।
অপর দিকে নদী খনন কাজের বঙ্গ মেঘনা প্রতিষ্ঠানের উপ-সহকারী প্রকৌশলী সামাদুল ইসলাম দাবি করে বলেন, তাদের পর্যাপ্ত সিগনাল বাতী থাকা সত্বেও অসাবধানতাবসত এ দূর্ঘটনা ঘটেছে।

ফুলতলায় নাশকতার মামলা
ইউপি চেয়ারম্যানসহ জামায়াত-বিএনপির ৫ নেতাকর্মী আটক
ফুলতলা প্রতিনিধি
থানা পুলিশ নাশকতা মামলায় ফুলতলার জামিরা ইউপি চেয়ারম্যান মাওঃ সাইফুল হাসান খানসহ জামায়াত-বিএনপির ৫ নেতাকর্মীকে আটক করে বুধবার বিকালে জেল হাজতে প্রেরণ করে।
পুলিশ জানায়, গতকাল সকাল সাড়ে ১০টায় ফুলতলার জামিরা এলাকা থেকে পিপরাইল গ্রামের লুৎফর রহমান খানের পুত্র ইউপি চেয়ারম্যান মাওঃ সাইফুল হাসান খান (৪০), জামিরা বাজার বণিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক বিএনপি নেতা হুমায়ুন কবির মোল্যা (৪৮), ছাতিয়ানী গ্রামের সোহাগ খানের পুত্র আনোয়ার খান (৫৬) কে আটক করা হয়। এর পূর্বে দামোদর ইউনিয়ন জামায়াতের আমীর আসলাম হোসেন (৪৫) এবং জামায়াত কর্মী আঃ হালিম শেখ (৫৫) কে আটক করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। আটককৃতদের বিরুদ্ধে নাশকতার মামলা রয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে।

নারীদের নিজের পায়ে দাঁড়াতে প্রশিক্ষণের কোন বিকল্প নেই ঃ বিভাগীয় কমিশনার
তথ্য বিবরণী
প্রধানমন্ত্রীর ৩ নম্বর বিশেষ উদ্যোগ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে নারীর ঈধঢ়ধপরঃু ইঁরষফরহম এর নিমিত্তে দুই সপ্তাহব্যাপী প্রশিক্ষণের সমাপনী, সনদপত্র ও সেলাই মেশিন বিতরণ অনুষ্ঠান গতকাল বুধবার বিকেলে খুলনা সার্কিট হাউজ সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনার বিভাগীয় কমিশনার লোকমান হোসেন মিয়া।
প্রধান অতিথি বিভাগীয় কমিশনার বলেন, সরকার নারীদের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। নারীদের নিজের পায়ে দাঁড়াতে হবে। তাদের অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হতে হলে প্রশিক্ষণের কোন বিকল্প নেই। নারীদের অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী হতে হবে। নারী সমাজকে পেছনে ফেলে দেশের সামগ্রীক উন্নয়ন সম্ভব নয়। নারীদের সম্মান দিতে হবে। তিনি বলেন, বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে নারীদের নিয়োগ বৃদ্ধি পেয়েছে। নারী শিা, নারীর মতায়ন ও উন্নয়নের ভিত রচনা করেছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সরকারের উদ্যোগগুলো ঘরে ঘরে পৌঁছে দিতে হবে সকলকে। দেশে দারিদ্র্যতার হার ৪৪ শতাংশ থেকে ২১ শতাংশে নেমে এসেছে। আগামী ১০ বছরে কোন মানুষ গরীব থাকবে না।
অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন খুলনার অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) মোহাম্মদ ফারুক হোসেন, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) নিশ্চিন্ত কুমার পোদ্দার, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নার্গিস ফাতেমা জামিন, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার অধ্যাপক আলমগীর কবীর, খুলনা প্রেসকাবের সভাপতি ফারুক আহমেদ এবং জাতীয় মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান অধ্যাপিকা সৈয়দা হোসনেয়ারা রুনু। এতে সভাপতিত্ব করেন খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন। স্বাগত জানান অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) জিয়াউর রহমান। এসময় খুলনা প্রেসকাবের সাধারণ সম্পাদক মল্লিক সুধাংশুসহ ইলেকট্রনিক ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।
দুই সপ্তাহব্যাপী এ প্রশিক্ষণে প্রায় ৬৩ জন প্রশিক্ষণার্থী অংশগ্রহণ করে। পরে প্রধান অতিথি প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সনদপত্র ও সেলাই মেশিন বিতরণ করেন। খুলনা জেলা প্রশাসন অনুষ্ঠানটি বাস্তবায়ন করে।

খুলনায় ১৩-১৯ নভেম্বর আয়কর মেলা
তথ্য বিবরণী
খুলনায় আগামী ১৩ হতে ১৯ নভেম্বর সাত দিনব্যাপী খুলনা কর ভবন প্রাঙ্গণে আয়কর মেলা অনুষ্ঠিত হবে। খুলনা আয়কর অঞ্চল এ মেলার আয়োজন করবে।
বয়রা কর ভবন প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠেয় এ মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে বিকেল পাঁচটা পযর্ন্ত চলবে। মেলায় করদাতাগণ তাঁদের আয়কর রিটার্ন জমা দিতে এবং মেলা প্রাঙ্গণে স্থাপিত সোনালী ও জনতা ব্যাংকের বুথে তাঁদের আয়কর জমা দিতে পারবেন। ইটিআইএন রেজিস্ট্রেশন বুথে প্রয়োজনীয় তথ্য প্রদান করে নতুন করদাতাগণ ইটিআইএন রেজিস্ট্রেশন এবং বর্তমান করদাতাগণ রি-রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন। মেলায় মহিলা, প্রতিবন্ধী ও প্রবীণ করদাতাদের জন্য পৃথক বুথ থাকবে । করদাতাদের রিটার্ন পূরণে সহায়তা করার জন্য মেলায় ‘হেলপ ডেস্ক’ এর ব্যবস্থা থাকবে।
খুলনা কর অঞ্চলের আওতাধীন খুলনা বিভাগের অপর নয়টি জেলা শহর যথাক্রমে- যশোর, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা, মেহেরপুর, ঝিনাইদহ ও কুষ্টিয়ায় ১৪-১৭ নভেম্বর, চুয়াডাঙ্গা, ১৬-১৯ নভেম্বর, নড়াইল এবং মাগুরা ১৫-১৮ নভেম্বর পর্যন্ত চার দিনব্যাপী আয়কর মেলা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়াও যশোরের ঝিকরগাছা ও নওয়াপাড়ার উপজেলায় ১৭ ও ১৮ নভেম্বর এবং বাগেরহাটের মোংলা, সাতীরার কালীগঞ্জ, কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা এবং ঝিনাইদহের কালিগঞ্জের চারটি উপজেলায় ১৮ ও ১৯ নভেম্বর দুই দিনব্যাপী আয়কর মেলা অনুষ্ঠিত হবে। এসকল মেলা প্রতিদিন সকাল ১০টা হতে বিকাল পাঁচটা পর্যন্ত চলবে।

মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার দাবি জেলা ছাত্রদলের
খবর বিজ্ঞপ্তি
খুলনা জেলা ছাত্রদলের ত্রাণ ও দূর্যোগ বিষয়ক সম্পাদক মোঃ রাজু মোল্লার নামে নগরীর সোনাডাঙ্গা থানায় এবং কয়রা উপজেলা ছাত্রদলের যুগ্ম-আহবায়ক এহসানুর রহমান এহসান, মোঃ জোবায়ের হোসেন, আসাদুল ইসলাম, মিজানুর রহমান লিটনের নামে কয়রা থানায় নাশকতার মিথ্যা মামলা দায়েরের প্রতিবাদে তীব্র নিন্দা এবং অবিলম্বে সকল নেতা কর্মীর নামে সাজানো-পাতানো মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন খুলনা জেলা ছাত্রদলের সভাপতি আব্দুল মান্নান মিস্ত্রী, সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা তুহিনসহ খুলনা জেলা ছাত্রদলের সকল নেতৃবৃন্দ।

পরিকল্পিত খুলনা গড়তে সাংবাদিকসহ সকলের সহযোগিতা চাইলেন কেডিএ চেয়ারম্যান
স্টাফ রিপোর্টার
পরিকল্পিত এবং দৃষ্টিনন্দন খুলনা গড়ে তোলার জন্য সাংবাদিকসহ সর্বস্তরের মানুষের সহযোগিতা প্রয়োজন বলে মনে করেন খুলনা উন্নয়ন কর্তৃপক্ষের (কেডিএ) চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ এস এম মাহমুদ হাসান, এনডিসি, পিএসসি, পিইঞ্জ।
ভবিষ্যতের খুলনা কেমন হওয়া উচিত’ এ বিষয়টি বিবেচনায় এনে একটি মাস্টার প্লান অনুযায়ী আধুনিক খুলনা গড়তে বহুমুখি দৃষ্টি নন্দন প্রকল্প বাস্তবায়নে কাজ করতে চান তিনি। গতকাল বুধবার সকালে খুলনা প্রেসকাবের আয়োজনে হুমায়ুন কবীর বালু মিলানয়তনে অনুষ্ঠিত এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় কেডিএ’র চেয়ারম্যান একথা বলেন।
তিনি বলেন, কেডিএ এখন অনেক সম্প্রসারিত এলাকা। কেডিএ’র কাজের পরিধি অনেক বেড়েছে। নিউ মার্কেট, বাস টার্মিনাল, প্রান্তিক মার্কেটসহ বিভিন্ন প্রকল্প দৃষ্টিনন্দন করতে হবে। কেসিসি সহ অন্যান্য দপ্তরের সাথে সমন্বয় করে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করার মধ্য দিয়ে কাজ করতে হবে। এ লক্ষ্যে সাংবাদিকসহ সর্বস্তরের মানুষের সহযোগিতা চাই। খুলনা প্রেসকাবের সাথে কেডিএ’র দীর্ঘ সম্পর্কের কথা উল্লেখ করে তিনি খুলনা প্রেস কাবের উন্নয়নে বিগত সময়ের মতো সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন।
এর আগে কেডিএ’র চেয়ারম্যানকে খুলনা প্রেসকাবের পক্ষ থেকে ফুলের তোড়া ও কাবের শুভেচ্ছা ক্রেস্ট তুলে দিয়ে স্বাগত জানানো হয়। মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন কাবের সভাপতি ফারুক আহমেদ। সভা পরিচালনা করেন কাবের সাধারণ সম্পাদক মল্লিক সুধাংশু। অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন, কেডিএ’র প্রধান প্রকৌশলী মোঃ সাবিরুল আলম, খুলনা প্রেস কাবের নির্বাহী সদস্য মোহাম্মদ আলী সনি, সাবেক সভাপতি শেখ আবু হাসান, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মামুন রেজা, সাবেক সদস্য সচিব মোঃ মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কেডিএ’র সচিব লস্কার তাজুল ইসলাম, তত্ত¡বধায়ক প্রকৌশলী শামীম জেহাদ, খুলনা প্রেস কাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি অরুণ সাহা, সহ-সভাপতি মোঃ মিজানুর রহমান মিলটন, কোষাধ্যক্ষ মোঃ হেদায়েৎ হোসেন মোল্লা, নির্বাহী সদস্য এস এম নজরুল ইসলাম, এস এম হাবিব, মো: সাঈয়েদুজ্জামান সম্রাট, সোহরাব হোসেন, হাসান আহমেদ মোল্লা ও সামছুজ্জামান শাহীন, কাবের সাবেক সভাপতি মকবুল হোসেন মিন্টু ও এ কে হিরু, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সুবীর কুমার রায়, কাব সদস্য আনোয়ারুল ইসলাম কাজল, বাপ্পী খান, হারুন-অর-রশীদ, মোঃ আনিসুজ্জামান, এনামুল হক, আবুল হাসান হিমালয়, দেবব্রত রায়, মুহাম্মদ আবু তৈয়ব, এইচ এম আলাউদ্দিন, মোস্তফা কামাল আহমেদ, শেখ আব্দুল্লাহ, গোলাম মোস্তফা সিন্দাইনী, মো: শাহ আলম, নাজমা আক্তার, মো: আবু সাঈদ , আব্দুল মালেক, সাইদা আক্তার রিনি, শেখ শামসুদ্দীন দোহা, এস এম আমিনুল ইসলাম, মো. খায়রুল আলম, সুনীল কুমার দাস, কাবের ইউজার সদস্য রীতা রানী দাস, মো. জাকারিয়া হোসেন তুষার, মো. আজিজুল ইসলাম, মো. আবুল বাশার, মো. রকিবুল ইসলাম মতি, শরিফুল ইসলাম বনি, শেখ আব্দুল হামিদ, মোঃ রবিউল গাজী (উজ্জ্বল), তিতাস চক্রবর্তী ও কাজী ফজলে রাব্বী শান্ত, সুদিপ দাস প্রমুখ।

অসহায় মানুষের পাশে দাড়ালো বিআইএফপিসিএল
খবর বিজ্ঞপ্তি
৬ষ্ঠ প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলে রামপালে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের রক্তদান কর্মসূচীর মাধ্যমে অসহায় মানুষের পাশে দাড়ালো বাংলাদেশ-ইন্ডিয়া ফ্রেন্ডশিপ পাওয়ার কোম্পানী (প্রা.) লিমিটেড (বিআইএফপিসিএল)। বুধবার রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্রে আয়োজিত রক্তদান অনুষ্ঠানে বিআইএফপিসিএল-এর কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ স্বেচ্ছায় রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির কাছে ৪০ ব্যাগ রক্তদান করেন। এই রক্ত সমাজের দরিদ্র ও অসহায় মানুষের গুরুতর অসুস্থতার সময় কাজে লাগানো হবে। এছাড়া এ দিন রামপাল বিদ্যুৎ কেন্দ্র এলাকাটিতে সবুজায়ন করতে এক বৃরোপণ কর্মসূচীরও আয়োজন করা হয়। কর্মকর্তা-কর্মচারীরা এসময় নির্মিতব্য আবাসিক এলাকায় বিভিন্ন প্রজাতির ১০০টি ফলজ গাছের চারা রোপণ করেন।
প্রকল্প পরিচালক এস.সি. পান্ডে এবং উপ-প্রকল্প পরিচালক মো: রেজাউল করিম দিনব্যাপী এসকল কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন। সকল অনুষ্ঠানে বিআইএফপিসিএল-এর কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
প্রসঙ্গত, পরিবেশবান্ধব কোম্পানী হিসেবে বিআইএফপিসিএল প্রকল্প এলাকায় ২ ল বৃরোপণ করতে পরিবেশ অধিদপ্তরের সাথে সবুজায়ন কর্মসূচী বাস্তবায়নে সমঝোতা স্মারক স্বার করেছে যার অংশ হিসেবে ইতিমধ্যে প্রায় ৬৫ হাজার বৃ রোপণ করা হয়েছে।

সাবেক ছাত্রলীগ ফোরামের প্রচারপত্র বিতরণ
খবর বিজ্ঞপ্তি
খুলনা সদর-২ আসনের আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রার্থী শেখ সালাহউদ্দিন জুয়েলের নৌকা প্রতিকের পে সাবেক ছাত্রলীগ ফোরাম, খুলনা নগরীর বড় বাজার, কে,ডি ঘোষ রোড, থানার মোড় ও জেলা পরিষদ চত্ত¡র এলাকায় নির্বাচনী প্রচারপত্র বিলি করেন। ব্যাপক গণসংযোগ শেষে সংগঠনের আহবায়ক, সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্র ও যুবলীগ নেতা শেখ মোঃ জাহাঙ্গীর আলম এর সভাপতিত্বে পথসভা অনুষ্ঠিত হয়। পথসভায় সভাপতি বলেন, শেখ জুয়েল এর পক্ষে খুলনাবাসীর সমর্থন ও তার প্রতি সাধারন জনগণের আস্থা ও ভালবাসা খুলনার সামগ্রীক উন্নয়নের গতি ত্বরান্বিত করবে। তার মাধ্যমে খুলনার মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করে আগামী নির্বাচনে নৌকাকে বিজয়ী করে অপ্রতিরোধ্য অগ্রযাত্রায় বাংলাদেশকে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে। সাবেক ছাত্রনেতা শেখ আতাউর রহমান ববির পরিচালনায় পথসভায় আরও বক্তব্য রাখেন মোঃ হায়দার আলী, মাহবুব মোঃ মম, জি,এম কামরুল ইসলাম, ফয়েজুল হক রুবেল, সাঈদ আক্তার রিনি, শরিফুল আমিন কাজল, শেখ মোঃ শিহাবুর রহমান শিহাব, কে.এম নাসির, মোঃ মাহমুদুল ইসলাম মাসুম, ইঞ্জিঃ নাজমুল ইসলাম শিমুল, মোঃ নাইম, আবুল হাসান শামীম প্রমুখ।
সাবেক ছাত্রলীগ ফোরাম, খুলনা’র পক্ষ থেকে নব নির্বাচিত খুলনা সিটি করপোরেশন প্যানেল মেয়র আমিনুল ইসলাম মুন্না, আলী আকবর টিপু ও সুফিয়া মেমোরি রহমান সুনু-কে প্রাণঢালা শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানানো হয়। এসময়, সাবেক ছাত্রলীগ ফোরামের আহবায়ক শেখ মোঃ জাহাঙ্গীর আলম বলেন, খুলনা সিটি কর্পোরেশনের নব নির্বাচিত প্যানেল মেয়র জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে আকড়ে ধরে খুলনা নগরীর সার্বিক উন্নয়নে যথাযথ ভ‚মিকা রাখবে।

পিরোজপুরে আ’লীগ কার্যালয় আগুনে পুড়ে ছাই
পিরোজপুর প্রতিনিধি
পিরোজপুরে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কার্যালয় আগুনে পুড়িয়ে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা। দুর্বৃত্তদের দেয়া আগুনে কার্যালয়ের পাশে থাকা পারভেজ স্টোর নামে একটি মুদি দোকানও পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। মঙ্গলবার গভীর রাতে পৌরসভা এলাকার আলামকাঠী ওয়ার্ডের বাইপাস মোড়ে এ ঘটনা ঘটে।
জানা গেছে, রাত দুইটার দিকে লোকজন বাইপাস মোড়ে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কার্যালয় আগুন দেখে ছুটে আসেন। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে এসে আগুন নেভান। আগুনে আওয়ামী লীগ কার্যালয় ও কার্যালয়ের পাশে থাকা পারভেজ স্টোর নামে একটি মুদি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। লোকজন আগুন দেখে ছুটে আসলে সে সময় ঘটনাস্থল থেকে ১০-১৫ জনের একটি দুর্বৃত্ত দল দৌড়ে পালিয়ে যায়।
পিরোজপুর পৌর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জিয়াউল আহসান বলেন, এ ঘটনায় স্থানীয় বিএনপির নেতাকর্মীরা জড়িত থাকতে পারে। নির্বাচনকে সামনে রেখে অস্থিতিশীল পরিবেশ তৈরির জন্য হয়ত এ ধরনের ঘটনা ঘটনো হয়েছে। পিরোজপুর সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) হাচনাইন পারভেজ বলেন, খবর পেয়ে রাতে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনায় কারা জড়িত তা তদন্ত করা হচ্ছে। পিরোজপুর জেলা বিএনপির সভাপতি গাজী নুরুজ্জামান বাবুল এ অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, বিএনপি এ ধরনের নাশকতার রাজনীতি পছন্দ করে না।

গ্রামীণ জনপথ উন্নয়নে ৮বছরে ৪হাজার প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে জেলা পরিষদ
হারুন-অর-রশীদ
খুলনা জেলা পরিষদ একটি সেবা মূলক প্রতিষ্ঠান। আগে প্রতিষ্ঠানটির জীবন প্রদীপ নিভে যাওয়ার উপক্রম ছিল। আওয়ামী লীগ সরকার ক্ষমতায় আসার পর এবং জেলা আওয়ামী লীগ’র সভাপতি ও সাবেক বিরোধী দলীয় হুইপ শেখ হারুনুর রশীদ প্রশাসক ও চেয়ারম্যান হিসেবে খুলনা জেলা পরিষদের দায়িত্ব গ্রহণ করায় এর জীবন প্রদীপ জ্বলে ওঠে। ফিরে পায় প্রাণ। জেলার হাজার হাজার মানুষ সহায়তা পেয়েছেন এবং গ্রামীণ জনপদের উন্নয়ন হয়েছে। ৬৬ কোটি ৮১লাখ ৬০হাজার টাকা ব্যয়ে ৩হাজার ৬শ’৪১টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে এডিপি’র ৩১ কোটি ৬৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা ব্যয়ে ১৮০০টি বিভিন্ন প্রকল্প এবং রাজস্ব তহবিল থেকে ৩৫ কোটি ১৩লাখ ৫৬ হাজার ব্যয়ে ১৮৪১টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হয়েছে।
সূত্র জানিয়েছেন, এডিপি তহবিল ২০১১-১২ অর্থ বছরে ৩কোটি ৩০লক্ষ টাকা বরাদ্দের বিপরীতে ২৬২টি প্রকল্প, ২০১২-১৩ অর্থ বছরে ৩কোটি ১৪লক্ষ টাকা বরাদ্দের বিপরীতে ৩০৭টি প্রকল্প, ২০১৩-১৪ অর্থ বছরে ২কোটি ৫২লক্ষ টাকা বরাদ্দের বিপরীতে ২৪৩টি প্রকল্প, ২০১৪-১৫ অর্থ বছরে ৩কোটি ৩৯লক্ষ টাকা বরাদ্দের বিপরীতে ২৫৪টি প্রকল্প, ২০১৫-১৬ অর্থ বছরে ৩কোটি ৩৭লক্ষ ৫০হাজার টাকা বরাদ্দের বিপরীতে ২১৬টি প্রকল্প, ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে ৫কোটি ২৫লক্ষ টাকা বরাদ্দের বিপরীতে ২৬৫টি প্রকল্প, ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে ৪কোটি ৭০লক্ষ টাকা বরাদ্দের বিপরীতে ২৫৩টি প্রকল্প বাস্তবায়িত হয়েছে এবং ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে ৬কোটি টাকা বরাদ্দের বিপরীতে ২৫৩টি প্রকল্প বাস্তবায়নাধীন আছে। বাস্তবায়িত প্রকল্পের মধ্যে গল্লামারী স্বাধীনতা সৌধ নির্মান, খুলনা জেলা স্কুলের সামনে অভিভবকদের বসার ছাউনি নির্মান, ফুলতলা উপজেলায় খুলনা জেলার প্রবেশ স্থলে সীমানা তোরন নির্মান, ১৫৯.৪৪২ কিঃ মিঃ রাস্তা নির্মান সহ বিভিন্ন শিক্ষা, ধর্মীয় ও সামাজিক সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান উন্নয়ন এবং গভীর নলকূপ স্থাপন প্রকল্প রয়েছে।
২০১২-১৩ অর্থ বছরে বিশেষ প্রকল্প হিসাবে কয়রা উপজেলা সদরে ৩কোটি ১৭লক্ষ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে ঘূর্নিঝড় আশ্রয় কেন্দ্রের অনূরূপ নিচতলা খোলা রেখে ১টি দৃষ্টি নন্দন ৫তলা আধুনিক ডাকবাংলো ভবন নির্মান কাজ চলমান আছে। ২০১৫ -১৬ অর্থ বছরে বিশেষ বরাদ্দের বিপরীতে খুলনা শহরের তিনটি প্রধান স্থানে পি.টি.আই মোড়, নিরালার মোড় ও রয়েলের মোড়ে পথযাত্রীদের সুবিধার্থে যাত্রীছাউনী নির্মান করা হয়েছে। জেলার প্রবেশ স্থলে খুলনা-বাগেরহাট এবং খুলনা-সাতক্ষীরা দুটি স্থানে সীমানা তোরণ নির্মান কাজ প্রক্রিয়াধিন রয়েছে।
রাজস্ব তহবিল ঃ ২০১১-১২ অর্থ বছরে ৮০লক্ষ ২৫হাজার টাকা বরাদ্দের বিপরীতে ৬৬টি প্রকল্প ২০১২-১৩ অর্থ বছরে ৩কোটি ১৮লক্ষ টাকা বরাদ্দের বিপরীতে ২৮২টি প্রকল্প, ২০১৩-১৪ অর্থ বছরে ৩কোটি ১৪লক্ষ টাকা বরাদ্দের বিপরীতে ৩০৭টি প্রকল্প, ২০১৪-১৫ অর্থ বছরে ৬কোটি ৯২লক্ষ ৬২হাজার টাকা বরাদ্দের বিপরীতে ৩৮১টি প্রকল্প বাস্তবায়িত হয়েছে এবং ২০১৫-১৬ অর্থ বছরে ৬কোটি ৭৩লক্ষ ৮৪হাজার টাকা বরাদ্দের বিপরীতে ২৯৩টি প্রকল্প, ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে ৫কোটি ৩৩লক্ষ টাকা বরাদ্দের বিপরীতে ২১৮টি প্রকল্প, ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে ৬কোটি ০১লক্ষ ৮৫হাজার টাকা বরাদ্দের বিপরীতে ২৯৪টি প্রকল্প বাস্তবায়িত হয়েছে। ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে ৩কোটি টাকা বিপরীতে প্রকল্প গ্রহনের প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। বাস্তবায়িত প্রকল্পের মধ্যে ৩০লক্ষ টাকা প্রক্কলিত ব্যয়ে জেলা পরিষদ অফিস ভবনের দোতলা স¤প্রসারন, বিভিন্ন রেষ্ট হাউজ ও ডাকবাংলো সংস্কার, রাস্তা উন্নয়ন, সংস্কার, শিক্ষা, ধর্মীয় ও সামাজিক সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান উন্নয়ন প্রকল্প রয়েছে।
বিশেষ প্রকল্প ঃ ১০৬ কোটি টাকা প্রক্কলিত ব্যয়ে খুলনা সদর ডাকবাংলো স্থলে ২০ তলা বিশিষ্ট বাণিজ্যিক ভবন নির্মান, ৩৮ কোটি টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে খুলনা পাওয়ার হাউজ মোড়ে ৯তলা বিশিষ্ট বাণিজ্যিক ভবন নির্মান, ৭৬.১৯লক্ষ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে রূপসা উপজেলাধীন বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিন স্মৃতি কমপ্লেক্স নির্মাণ প্রকল্প মন্ত্রণালয়ে অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। ৬৮ লক্ষ টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার বাসভবন নির্মান কাজ শেষ হয়েছে। জলবায়ু পরিবর্তন ট্রাষ্ট ফান্ডের অর্থায়নে খুলনা জেলার উপকূলীয় অঞ্চলের জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে প্রাকৃতিক দৃর্যোগে ক্ষতিগ্রস্থ গৃহহীনদের পুন:বাসনের আশ্রয়স্থল হিসেবে ৪ কোটি টাকা প্রাক্কলিত ব্যয়ে ১২৫টি গৃহ নির্মান কাজ শেষ হয়েছে। ১৭কোটি ৪৬লক্ষ ৪১হাজার ৮৭২ টাকা ব্যায়ে ১০০০আসন বিশিষ্ট একটি হলরুম কাম মাল্টিপারপাস নির্মাণের জন্য প্রাক্কলন বাস্তবায়ন করা হয়েছে।
সেবামূলক কার্যক্রম ঃ ক্রীড়া, শিক্ষা, সাংস্কৃতি ও সামাজিক কল্যাণ খাত থেকে ২০১২-১৩ অর্থ বছরে ১১১৭ জন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে ৬৯লক্ষ ৫হাজার ৮০০টাকা অনুদান প্রদান করা হয়েছে । গরীব মেধাবী ছাত্র ছাত্রীদের বৃত্তি প্রদান খাত থেকে ২০১২-১৩ অর্থ বছরে ১৭৫১জনকে ৩৬লক্ষ ৩৫হাজার ৪০০টাকা বৃত্তি প্রদান করা হয়েছে। দুঃস্থ ব্যক্তিদের সাহায্য প্রদান খাত থেকে ২০১২-১৩ অর্থ বছরে ২৫৫জনকে ৩লক্ষ ৭১হাজার ৭০০ টাকা আর্থিক সাহায্য প্রদান করা হয়েছে। অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধাদের সাহায্য প্রদান খাত থেকে ২০১২-১৩ অর্থ বছরে ২৯৭জন কে ৭লক্ষ ৬২হাজার ৫০০ টাকা আর্থিক অনুদান প্রদান করা হয়েছে। প্রশাসকের স্ব-বিবেচক তহবিল হতে ২০১১-১২ অর্থ বছরে ১২৬জনকে ৪ লক্ষ ৯৯ হাজার টাকা অনুদান প্রদান করা হয়েছে। ত্রান তহবিল থেকে ২০১১-১২ থেকে ২০১৩-১৪ অর্থ বছরে ২লক্ষ ৯৯ টাকা ব্যয়ে গরীব ও দুঃস্থদের মাঝে ৩৫০টি কম্বল , ১৫০টি শাড়ী, ৩০০টি পাঞ্জাবী বিতরন করা হয়েছে। ২০১১-১২ অর্থ বছরে প্রধানমন্ত্রীর ত্রান ভান্ডার থেকে বরাদ্দকৃত ৩০০টি কম্বল গরীব ও দুঃস্থদের মাঝে বিতরন করা হয়। দারিদ্র নিরসন, নারী উন্নয়ন ও আত্ম কর্মসংস্থান খাতের আওতায় ২০১০-১১ ও ২০১১-১২ অর্থ বছরে ১৬লক্ষ ৪৯হাজার ৭৬২ টাকা ব্যয়ে ২৫০জনকে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ প্রদান, ৯লক্ষ ৭২হাজার ১৫০ টাকা ব্যয়ে ৮৫জন মহিলাকে সেলাই প্রশিক্ষনসহ মেশিন বিতরণ এবং ১১লক্ষ টাকা ব্যয়ে ১০৯জনকে ভ্যানগাড়ী বিতরণ করা হয়েছে। ২০১২-১৩ অর্থ বছরে ১৪লক্ষ ৪৫হাজার টাকা ব্যয়ে ১০০ জনকে ভ্যান ও রিক্সা বিতরণ করা হয়েছে। ১৪লক্ষ ৬৯হাজার ৬০০ টাকা ব্যয়ে ৯০জন নারীকে সেলাই প্রশিক্ষণসহ সেলাই মেশিন বিতরণ এবং ৬লক্ষ ৯৮হাজার ৬২৪ টাকা ব্যয়ে ১৫৩জনকে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। ২০১৩-১৪ অর্থ বছরে ৩৭লক্ষ ৫২হাজার টাকা ব্যয়ে ২৬৮জনকে ভ্যান ও রিক্সা বিতরণ করা হয়। ৩৯লক্ষ ০৪হাজার ২০০ টাকা ব্যয়ে ২৪০জন নারীকে সেলাই প্রশিক্ষণসহ মেশিন বিতরণ এবং ১০লক্ষ ৫৮হাজার ৮০০ টাকা ব্যয়ে মোট ২০৪জনকে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। ২০১৪-১৫ অর্থ বছরে ২১লক্ষ টাকা ব্যয়ে ১৫০জনকে ভ্যান ও রিক্সা বিতরণ করা হয়েছে। ২২লক্ষ ৮৮হাজার ৮১০ টাকা ব্যয়ে ১৫২জন নারীকে সেলাই প্রশিক্ষণসহ মেশিন বিতরণ এবং ৯লক্ষ ১১হাজার ১৯০ টাকা ব্যয়ে ২০৪জনকে কম্পিউটার প্রশিক্ষন প্রদান করা হয়েছে।
ত্রান তহবিল থেকে ২০১৪-১৫ এবং ২০১৫-১৬ অর্থ বছরে ১৫লক্ষ ৪২হাজার ২৫০ টাকা ব্যয়ে গরীব ও দুঃস্থদের মাঝে কম্বল , শাড়ী, পাঞ্জাবীসহ বিভিন্ন দূর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থদের ত্রাণ সামগ্রী বিতরন করা হয়েছে। ২০১৫-১৬ অর্থ বছরে ২৩লক্ষ ৮০হাজার টাকা ব্যয়ে ১৭০ জনকে ভ্যান ও রিক্সা বিতরণ করা হয়েছে। ৩২লক্ষ ৮৭হাজার ৮৮০ টাকা ব্যয়ে ২০৪জন নারীকে সেলাই প্রশিক্ষনসহ মেশিন বিতরণ এবং ১১লক্ষ ৭৯হাজার ৫২০ টাকা ব্যয়ে মোট ২০৪জনকে কম্পিউটার প্রশিক্ষন প্রদান করা হয়েছে। ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে ১৪লক্ষ টাকা ব্যয়ে ১০০ জনকে ভ্যান ও রিক্সা বিতরণ করা হয়। ২৬লক্ষ ৫৭হাজার ৪০০ টাকা ব্যয়ে মোট ১৮০জন নারীকে প্রশিক্ষনসহ সেলাই মেশিন বিতরণ এবং ১০লক্ষ ৯৭হাজার ৫২০ টাকা ব্যয়ে মোট ২০৪জনকে কম্পিউটার প্রশিক্ষণের জন্য গ্রহন করা হয়েছে। ২০১৬-১৭ অর্থ বছরে ৬লক্ষ টাকা ব্যয়ে গরীব ও দুঃস্থদের মাঝে কম্বল , শাড়ী, পাঞ্জাবীসহ বিভিন্ন দূর্ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থদের ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। ২০১৭-১৮ অর্থ বছরে ১৫লক্ষ ৯৫ হাজার টাকা ব্যয়ে ১১০ জনকে ভ্যান ও রিক্সা বিতরণ করা হয়। ১৮লক্ষ ৮১হাজার টাকা ব্যয়ে ১৯৮জন নারীকে সেলাই প্রশিক্ষনসহ মেশিন বিতরণ এবং ১১লক্ষ ৬০হাজার টাকা ব্যয়ে মোট ২০৪জনকে কম্পিউটার প্রশিক্ষণের জন্য গ্রহন করা হয়েছে।
জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ বলেন, প্রধানমন্ত্রী খুলনা উন্নয়নে বিশেষ ভাবে নজর দিচ্ছেন। মৃত জেলা পরিষদকে এ সরকারের আমলে জীবিত করা হয়েছে। মানুষের ভাগ্যের চাকা ঘুরছে। পল্লী এলাকার কাঁচা রাস্তা পাঁকা করা হয়েছে। জেলা পরিষদ এলাকার উন্নয়নে যথেষ্ট কাজ করছেন। উন্নয়নের জন্য আরো দু’শ কোটি টাকা প্রয়োজন। দারিদ্র বিমোচনে খুলনা জেলা পরিষদ গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

সাচিবুনিয়ায় স্ত্রীর তালার আঘাতে স্বামী আহত
স্টাফ রিপোর্টার
বটিয়াঘাটার সাচিবুনিয়া এলাকায় পরকিয়ায় বাঁধা দেয়ায় স্ত্রীর তালার আঘাতে স্বামী আহত হয়েছে। এলাকাবাসী প্রেমিক ইদ্রিস বেপারী ও প্রেমিকা রোমেলা বেগমকে পুলিশে সোপর্দ করেন। মঙ্গলবার রাত সাড়ে ১০টায় এ ঘটনা ঘটে।
এলাকাবাসী জানিয়েছেন, রূপসা উপজেলার রাজাপুর খেয়াঘাট এলাকার বাসিন্দা ও রাজাপুর খেয়াঘাটের মাঝি মনির হোসেনের স্ত্রী ২সন্তানের জননী রোমেলা বেগমের সাথে একই ঘাটের মাঝি ও কালিবাড়ি পাটনিজীবী সমবায় সমিতির সাবেক সভাপতি ইদ্রিস বেপারীর সাথে পরকিয়া চলে আসছে। রেমেলা স্বামীর ঘর ছেড়ে ইটালি প্রবাসী ভাই’র বাড়ি সাচিবুনিয়ার বাড়িতে দীর্ঘ দিন ধরে বসবাস করতে থাকেন। প্রেমিক ইদ্রিস বেপারী প্রায়ই রাতে রোমেলার বাড়িতে আসা যাওয়া করে। এক পর্যায়ে স্বামী মনির হোসেন রাতে রাজাপুর থেকে সাচিবুনিয়া স্ত্রীর কাছে এসে দেখে প্রেমিক ইদ্রিস বেপারী ঘরের মধ্যে। এনিয়ে স্ত্রীর সাথে শুরু হয় বাক বিতন্ডা। আস্তে আস্তে প্রতিবেশীরা জড় হতে থাকে। এতে স্ত্রী ক্ষিপ্ত হয়ে স্বামীর মাথায় তালা দিয়ে আঘাত করে। এতে সে গুরুতর জখম হয়। ঘটনা এড়াতে রোমেলা স্থানীয়দের জানায়, মনির হোসেন তার স্বামী নয়। পরে মনির তার শাশুড়িকে ফোন করলে শাশুড়ি জানায় মনির হোসেন তার বড় জামাই। ইদ্রিস বেপারী বেশ কয়েক মাস দেনার ভয়ে পলাতক ছিলেন। ওই সময় তিনি সাচিবুনিয়া রোমেলার বাড়িতে আত্মগোপনে ছিলেন।
এলাকাবাসী জানান, ইদ্রিস বেপারী প্রায়ই রাতে এ বাড়িতে আসে। রাতে স্থানীয় বাসিন্দারা বটিয়াঘাটা থানা পুলিশে এই দু’জনকে সোপর্দ করেন। বটিয়াঘাটা থানার ওসি মাহবুবুর রহমান বলেন, এদের আদালতে প্রেরণ করা হলে আদালত কারাগারে প্রেরণের নির্দেশ দেন ।
রাজাপুর এলাকাবাসী জানান, রোমেলা এলাকায় একজন সুদে কারবারী বলে পরিচিত। তার কিছু সোনা চুরি হয়েছে এ অজুহাত দিয়ে গত ফেব্রæয়ারী মাসে
অন্ত:সত্বাসহ ৯ নারীকে পড়া চুন খাওয়ায়। এতে সকলে অসুস্থ হয়ে খুমেক হাসপালে ভর্তি ছিল। এঘটনায় মামলা হলে জরিমানা দিয়ে রেহাই পায়। এলাকাবাসী দুঃস্কর্মের হোতা ইদ্রিস বেপারী ও রোমেলার বিচার দাবি করেন।

দামুড়হুদা উপজেলা চেয়ারম্যান আটক
চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি
চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান চুয়াডাঙ্গা জেলা জামায়াতের নায়েবে আমির মাওলানা আজিজুর রহমানকে (৫৫) আটক করেছে পুলিশ। গতকাল বুধবার বেলা ১১টার দিকে দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদ চত্বরের জামে মসজিদের কাছ থেকে তাকে আটক করা হয়।
দামুড়হুদা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সুকুমার বিশ্বাস জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানতে পারেন উপজেলা চেয়ারম্যান জামায়াত নেতা মাওলানা আজিজুর রহমান উপজেলা জামে মসজিদের পাশে দলীয় লোকজন নিয়ে দলের নিবন্ধন বাতিলের বিরুদ্ধে কালো পতাকা মিছিল করার প্রস্তুতি নিচ্ছেন। সেখানে অভিযান চালিয়ে উপজেলা চেয়ারম্যানকে আটক করা হয়। এ সময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে দলীয় নেতাকর্মীরা পালিয়ে যায়।
দামুড়হুদা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান চুয়াডাঙ্গা জেলা জামায়াতের নায়েবে আমির মাওলানা আজিজুর রহমানের বিরুদ্ধে নাশকতার মামলা রয়েছে বলেও তিনি জানান।

জনবিচ্ছিন্ন ব্যক্তিরা বিএনপির সঙ্গে ঐক্যফ্রন্ট গড়েছেন
কুষ্টিয়া প্রতিনিধি
জনবিচ্ছিন্ন ব্যক্তিরা বিএনপির সঙ্গে ঐক্যফ্রন্ট গড়েছেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব-উল-আলম হানিফ।
তিনি বলেন, কথা হচ্ছে, আন্দোলনটা করবে কারা? বিএনপি নাকি ঐক্যফ্রন্ট? বিএনপিকে বাদ দিলে ঐক্যফ্রন্টের পেছনে কোনো জনগণ থাকবে না। জনবিচ্ছিন্ন ব্যক্তিরা বিএনপির সঙ্গে ঐক্যফ্রন্ট গড়েছেন। বিএনপির শক্তিই তাদের মূল শক্তি। ‘সংলাপ ব্যর্থ হলে আন্দোলন’- ঐক্যফ্রন্টের এমন বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার দুপুরে কুষ্টিয়া শহরে নিজের বাসায় দলীয় নেতাকর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে হানিফ এ কথা বলেন।
হানিফ আরও বলেন, বিএনপি গত পাঁচ বছর ধরে তো বহু আন্দোলন করেছে। খালেদা জিয়া যখন আন্দোলন করেছেন তখন তিনি বলেছেন এবার না ঈদের পরে আন্দোলন হবে। ঈদের পর ঈদ এলেও আন্দোলন আর হয়নি। সুতরাং এদেশে দুর্নীতির দায়ে আদালতের রায়ে দÐপ্রাপ্ত আসামির জন্য কেউ আন্দোলন করবে না।
তফসিল ঘোষণা পেছানোর ব্যাপারে হানিফ বলেন, সংবিধানের নির্দেশনা অনুযায়ী তফসিল এবং নির্বাচন পেছানোর সুযোগ নেই। ২০১৯ সালের ২৬ জানুয়ারি সংসদের মেয়াদ শেষ হবে। সংবিধান অনুযায়ী সংসদের মেয়াদ শেষ হওয়ার পূর্ববর্তী ৯০ দিনের মধ্যে নির্বাচন সম্পন্ন হবে। এ সময় জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সদর উদ্দিন খান, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী ফারুক হোসেন, শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি তাইজাল আলী খানসহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

মাগুরায় সড়ক দুর্ঘটনায় পুলিশ কনস্টেবল নিহত
মাগুরা প্রতিনিধি
মাগুরা-যশোর সড়কের কাঁচা বাজার এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় লিমন হোসেন (২৩) নামে এক পুলিশ কনস্টেবল নিহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার মাগুরা শহরের কাঁচা বাজার এলাকায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। লিমন মাগুরা জেলার শ্রীপুর উপজেলার মাঝাইল গ্রামের লিয়াকত হোসেন ছেলে।
মাগুরা সদর থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম জানান, যশোর সদর থানায় কর্মরত লিমন ছুটি শেষে নিজ বাড়ি থেকে মোটরসাইকেলযোগে যশোর যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে মাগুরা শহরের কাঁচা বাজার এলাকায় পৌঁছলে বিপরীত দিক থেকে একটি সবজি বোঝাই ট্রাক তার মোটরসাইকেলে ধাক্কা দিলে তিনি ঘটনাস্থলে নিহত হন। লাশ ময়না তদন্তের জন্য সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মাগুরা সদর থানায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। ট্রাক চালাক জিয়াউর রহামানকে আটক করা হয়েছে।

বেকুটিয়া সেতুর নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে
পিরোজপুর প্রতিনিধি
পিরোজপুরসহ দেশের দক্ষিণাঞ্চলের কোটি কোটি মানুষের আরও একটি স্বপ্নের সেতু নির্মাণের কাজ শুরু হল। ৮ম বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী সেতুটির অবস্থান হচ্ছে বিভাগীয় শহর বরিশাল ও খুলনার মধ্যবর্তী কচা নদীর উপর বেকুটিয়া এলাকায়। এ সেতুটি নির্মাণে ৮২১ কোটি ৮৪ লাখ টাকা ব্যয় নির্ধারণ করা হয়েছে।
পিরোজপুর শহর থেকে ৫ কিলোমিটার পূর্বে এ সেতুটির নির্মাণ কাজ শেষ হলে গভীর সমুদ্র বন্দর পায়রা, সাগরকন্যা কুয়াকাটা ও বিভাগীয় শহর বরিশালের সাথে বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ স্থল বন্দর বেনাপোল, শিল্পনগরী ও বিভাগীয় শহর খুলনা এবং সমুদ্রবন্দর মংলার সাথে সরাসরি সড়ক যোগাযোগ স্থাপিত হবে।
সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর এ সেতুটি বাস্তবায়ন করছে। ৯৯৮ মিটার দৈর্ঘ্যরে এবং ১৩.৪০ মিটার প্রস্থের এ সেতুটির স্প্যান সংখ্যা রয়েছে ৯টি, পিলার সংখ্যা ৮টি, এ্যাবাটমেন্ট সংখ্যা ২টি, ভার্টিক্যাল কিয়ারেন্স ২৮.৯৮ মিটার, হরিজন্টাল কিয়ারেন্স ১২২ মিটার এবং উভয় পাশে মোট ভায়াডাক্ট ৪৯৫ মিটার। এছাড়া ১.৪৬৭ কিলোমিটারের এ্যাপ্রোচ সড়কও নির্মাণ করা হচ্ছে। সেতুর দু’পাশের এ্যাপ্রোচ সড়ক নির্মাণে ৩২.৮৯৫ একর জমি অধিগ্রহণ করায় ১৯২টি পরিবার কোন-না কোনভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে এবং এদের পুনর্বাসনে ২০ কোটি টাকা ব্যয় করা হচ্ছে ও জমির মূল্যের ৩ গুণ বেশি অর্থ প্রদান করা হচ্ছে। ২০২১ সালের ৩১ জানুয়ারির মধ্যে এ সেতুটির নির্মাণ কাজ সমাপ্ত করে যানবাহন চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হবে।
চীনের চায়না রেলওয়ে ১৭ ব্যুরো গ্রুপ লিমিটেড নামের একটি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এ সেতুটি নির্মাণ করছে। এ সেতুটির অর্থায়নে চীন সরকার ৬৫৪ কোটি ৭৯ হাজার ৬৪ লাখ টাকা বরাদ্দ করেছে। এছাড়া বাংলাদেশ সরকার ১৬৭ কোটি ৪ লাখ ৪৫ হাজার টাকা ব্যয় করছে।
বরিশাল-খুলনা আঞ্চলিক মহাসড়কের রাজাপুর-নৈকাঠী-বেকুটিয়া-পিরোজপুর শহরের ১২তম কিলোমিটারে এ সেতুটির প্রয়োজনীয়তার বিষয় পিরোজপুরের সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী মাসুদ মাহমুদ সুমন জানান, এ গুরুত্বপূর্ণ সড়কে ১ কিলোমিটার প্রশস্ত বেকুটিয়া এলাকায় কচা নদী ফেরিতে পাড়াপাড়ে ১ ঘন্টা সময় লাগে। এছাড়া বর্ষাকালে পানির প্রবাহ বৃদ্ধি এবং ¯্রােতের তীব্র আকারের কারণে এ সময় আরও বেড়ে যায়। এছাড়া ফেরিসমূহ অত্যন্ত পুরাতন ও জরাজীর্ণ হওয়ায় মাঝেমাঝে ঝুঁকি নিয়ে যানবাহন পারাপার করতে হয়। আবহাওয়া প্রতিকূল থাকলে দীর্ঘ সময় ফেরি চলাচল বন্ধ রাখতে হয়। ফলে হাজার হাজার দূরদূরান্তের যাত্রীদের সীমাহীন সমস্যায় পড়তে হয়। সেতুটি চালু হলে দুই ঘন্টারও কম সময়ের মধ্যে বরিশাল-খুলনা শহরে যাতায়াত সম্ভব হবে।
এদিকে দীর্ঘদিনের সীমাহীন দুর্ভোগ লাঘব হতে যাওয়ায় এ অঞ্চলের ব্যবসায়ীসহ সকল শ্রেণির মানুষের মুখে মুখে এখন পদ্মা ও বেকুটিয়া সেতু। পিরোজপুর জেলা শহরের সাথে ৪টি উপজেলার সরাসরি সড়ক যোগাযোগও নির্ভর করছে এ সেতুটির ওপর। পিরোজপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রিজ এর সভাপতি মশিউর রহমান মহারাজ প্রধানমন্ত্রীকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বলেন, পদ্মা এবং বেকুটিয়া সেতু নির্মাণ কাজ সমাপ্ত হলে এ অঞ্চলে এক অভাবনীয় অর্থনৈতিক ও যোগাযোগ পরিবর্তন সাধিত হবে এবং মানুষের জীবন যাত্রার মান অকল্পনীয়ভাবে পরিবর্তিত হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here