‘বিশ্বের তেল ক্রেতা দেশগুলোর জন্য আসছে কঠিন দিন’

0
13

খুলনাঞ্চল ডেস্ক
ইরানের তেলমন্ত্রী বিজান নামদার জাঙ্গানে বলেছেন, বিশ্বের তেল ক্রেতা দেশগুলোর জন্য কঠিন দিন আসছে। যুক্তরাষ্ট্রের কয়েকটি দেশকে ইরানের কাছ থেকে তেল কেনার অনুমতি দিলেও তা আন্তর্জাতিক তেল বাজারের চাহিদা মেটাতে সক্ষম হবে না। বুধবার গণমাধ্যমকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি এসব কথা বলেন।
ইরানের তেলমন্ত্রী আরও বলেছেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও তার সহযোগীরা প্রথমে ইরানের তেল বিক্রি শূন্যে নামিয়ে আনার ঘোষণা দিলেও এখন তারা স্বীকার করছে যে আন্তর্জাতিক তেলের বাজার থেকে ইরানকে দূরে রাখা সম্ভব নয়। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র কয়েকটি দেশকে নিষেধাজ্ঞার বাইরে রাখলেও বাজারে যে ঘাটতি রয়েছে তা পূরণ হবে না। এ কারণে আগামী কয়েক মাসের মধ্যেই জ্বালানি তেলের সংকট দেখা দেবে এবং তেল ক্রেতা দেশগুলো কঠিন সমস্যায় পড়বে। ট্রাম্প মধ্যবর্তী নির্বাচনে ভোট পেতে নিজ দেশে কৃত্রিমভাবে তেলের দাম কমিয়ে রেখেছেন বলে তিনি জানান।
তেলমন্ত্রী বলেন, বেশি দিন কৃত্রিম উপায়ে তেলের দাম কমিয়ে রাখা সম্ভব হবে না। কয়েক মাসের মধ্যেই তেলের দাম বেড়ে যাবে। মার্কিন অর্থ মন্ত্রণালয় দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান ও ইতালিসহ আটটি দেশকে নিষেধাজ্ঞা সত্তে¡ও ইরান থেকে তেল কেনার অনুমতি দিয়েছে। গত সোমবার থেকে ইরানের তেল ও ব্যাংকিং খাতে দ্বিতীয় ধাপের নিষেধাজ্ঞা কার্যকর করে ট্রাম্প প্রশাসন।
গত মে মাসে ট্রাম্প ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে ইরানের স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতা থেকে অবৈধভাবে বেরিয়ে যাওয়ার পর ইরানের তেল বিক্রি শূন্যে নামিয়ে আনার ঘোষণা দিয়েছিলেন। তবে ট্রাম্পের ঘোষণাকে গুরুত্ব না দিয়ে বিশ্বের অনেক দেশই ইরানের তেল কেনা অব্যাহত রাখার সিদ্ধান্ত জানিয়েছে অনেক আগেই।

উলফা নেতা পরেশ বড়ুয়া জীবিত না মৃত ?
খুলনাঞ্চল ডেস্ক
বিচ্ছিনতাকামী উলফা নেতা পরেশ বড়–য়া জীবিত না মৃত এই নিয়ে তোলাপাড় আসামের রাজনীতি। গত মঙ্গলবার বিভিন্ন অনলাইনের খবরে দেখা যায়, উলফা (স্বাধীনতা) প্রধান পরেশ বড়–য়ার চীন ও মায়ানমার সীমান্তের কাছে এক র্দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয়েছে। বুকের পাজরের গুরুতর আঘাতেই তার মৃত্যু হয়েছে।
অবশ্য আসামের সংবাদমাধ্যমের একাংশ জানিয়েছে, পরেশ বড়ুয়া জীবিত রয়েছেন। তবে গুরুতর আহত হয়েছেন তিনি।
আলোচনাপন্থী উলফার নেতা অনুপ চেটিয়া বলেন, পরেশ বড়–য়ার মৃত্যু হয়নি। কিন্তু দুর্ঘটনায় মারাত্মক জখম হয়েছেন। তিনি আরও জানান, চীন ও মায়ানমার সীমান্তের চৈনিক শহর রুইলির কাছে দুর্ঘটনার কবলে পড়েন পরেশ।
আসাম পুলিশের শীর্ষ কর্তা পল্লব ভট্টাচার্য বলেন, নিষিদ্ধ উলফার প্রধান পরেশ বড়ুয়া গুরুতর জখম। তবে তার মৃত্যু কোনও খবর পাওয়া যায়নি।
পরেশ বড়–য়া বেশ কিছুদিন ধরেই মায়ানমার ও চীনের সীমান্ত অঞ্চলে আত্মগোপন করে রয়েছেন। চীনের দিকে রুইলি শহর এবং মায়ানমারের টাগা শহরে তার আস্তানা রয়েছে।
তার সঙ্গে একটি বিশাল বাহিনীও রয়েছে বলে বিভিন্ন সময়ে গোয়েন্দারা জানিয়েছেন। আসামের রাজনীতি নিয়ে পরেশ বড়–য়া সব সময়ই সক্রিয় রয়েছেন। নাগরিকপঞ্জী সংক্রান্ত বিষয়ে হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন।
তবে স¤প্রতি তিনসুকিয়ায় বাঙ্গালী নিধনে উলফার হাত রয়েছে বলে দাবি করা হলেও উলফার পক্ষ থেকে বিবৃতি দিয়ে বলা হয়েছে, তারা এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত নয়।

যুক্তরাষ্ট্রের নিম্নকক্ষ ডেমোক্র্যাটদের দখলে, উচ্চকক্ষ রিপাবলিকানদের
খুলনাঞ্চল ডেস্ক
যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যবর্তী নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পের ক্ষমতাসীন রিপাবলিকান পার্টি কংগ্রেসের উচ্চকক্ষ সিনেটে জয় পেয়েছে। তবে নিম্নকক্ষের নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছে তারা।
প্রতিনিধি পরিষদ বা হাউজ অব রিপ্রেজেন্টেটিভসে নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে ডেমোক্র্যাটরা। আট বছরে প্রথমবারের মত কংগ্রেসের নিম্নকক্ষের নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার ফলে ডেমোক্র্যাটরা প্রেসিডেন্টের প্রস্তাবে বাধা দেওয়ার ক্ষমতা অর্জন করলো। এ পর্যন্ত পাওয়া ফলাফলে দেখা গেছে, নিম্নকক্ষের ২০২টি আসনে জয় পেয়েছে ডেমোক্র্যাটরা। অপরদিকে রিপাবলিকানরা জয় পেয়েছে ১৮৫টি আসনে। নিম্নকক্ষে সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য প্রয়োজন ২১৮টি আসন।
এদিকে উচ্চকক্ষে ৫১টি আসনে জয় পেয়েছে রিপাবলিকানরা। ৫১টি আসন পেলেই উচ্চকক্ষে সংখ্যাগরিষ্ঠতা পাওয়া যায়। ডেমোক্রেটরা জয় পেয়েছে ৪২টি আসনে। ফলাফল বাকি আর ৭টি আসনের। গতকাল মঙ্গলবারের এই ভোটকে দেখা হচ্ছে প্রেসিডেন্ট হিসেবে ডোনাল্ড ট্রাম্পের জনপ্রিয়তার পরীক্ষা হিসেবে। এ নির্বাচনে মিলছে ট্রাম্পের ক্ষমতার মেয়াদের বাকি দুই বছরের পরিস্থিতির পূর্বাভাস। কংগ্রেসের কোনো কক্ষের নিয়ন্ত্রণ হারা মানে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প কোনো বিল বা আইন পাস করতেও বিপাকে পড়বেন। এ কারণেই মূলত এ নির্বাচনকে বলা হচ্ছে ট্রাম্পের প্রেসিডেন্সির ওপর গণভোট।
যুক্তরাষ্ট্রে চার বছর পরপর হয় প্রেসিডেন্ট নির্বাচন। আর প্রেসিডেন্টের মেয়াদের মাঝামাঝি অর্থাৎ দু’বছরের মাথায় হয় কংগ্রেসের মধ্যবর্তী নির্বাচন। এ নির্বাচনে জনগণ প্রেসিডেন্টকে নিয়ে তাদের সন্তোষ বা অসন্তোষ প্রকাশের সুযোগ পায়। আর তাই ক্ষমতাসীন প্রেসিডেন্টকে নিয়ে মানুষ কী ভাবছে এবং তার আবারও ক্ষমতায় আসার সম্ভাবনা কতটুকু, তা এ নির্বাচনেই স্পষ্ট হয়ে যায়। খবর বিবিসি ও রয়টার্সের।

নিউইয়র্কে বিস্ফোরণে দোষী সাব্যস্ত বাংলাদেশি আকায়েদ
খুলনাঞ্চল ডেস্ক
নিউইয়র্কের ম্যানহাটন বাস টার্মিনালে বিস্ফোরণে জড়িত সন্দেহে আটক বাংলাদেশি যুবক আকায়েদ উল্লাহকে ওই ঘটনায় দোষী সাব্যস্ত করেছে যুক্তরাষ্ট্রের আদালত।
সাত দিনের শুনানি শেষে যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল আদালত গত মঙ্গলবার আকায়েদকে দোষী সাব্যস্ত করে রায় দেয়। শুনানির সময় ঘটনা সংশ্লিষ্ট একটি ভিডিও দেখানো হয়। খবর রয়টার্সের।
আকায়েদকে সন্ত্রাসবাদের ছয় অভিযোগে দোষী সাব্যস্ত করেছে আদালত। যুক্তরাষ্ট্রের আইন অনুযায়ী এসব অপরাধে তার যাবজ্জীবন কারাদÐ হতে পারে।
গত বছরের ১১ ডিসেম্বর স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ম্যানহাটনের টাইম স্কয়ার সাবওয়ে স্টেশন থেকে বাস স্টেশনে যাতায়াতের ভূগর্ভস্থ পথে বোমা হামলা হয়। ওই ঘটনায় জড়িত সন্দেহে বাংলাদেশি আকায়েদ উল্লাহকে আটক করে নিউইয়র্ক পুলিশ। বিস্ফোরণে তিনি গুরুতর আহত হন এবং তিন পথচারী সামান্য আহত হন।
যুক্তরাষ্ট্রের পুলিশ কর্মকর্তারা বলেন, বিস্ফোরিত বোমাটি আকায়েদের দেহের সঙ্গে বাঁধা ছিল। জঙ্গি গোষ্ঠী আইএসের মাধ্যমে অনুপ্রাণিত হয়ে সে এমন হামলা করে বলে দাবি সেখানকার পুলিশের।
নিউইয়র্ক পুলিশের তথ্য অনুযায়ী, ২৭ বছর বয়সী আকায়েদ প্রথমে ট্যাক্সি চালাত। পরে একটি আবাসন কোম্পানির বৈদ্যুতিক মিস্ত্রির চাকরি নেয়। ব্রæকলিনের বাসিন্দা আকায়েদ বাসায় ইন্টারনেট ঘেঁটে বোমা বানানো শেখে এবং ইলেকট্রিশিয়ানের কাজের সূত্রে কর্মস্থলে বসেই বোমা তৈরি করে বলে ধারণা করছে যুক্তরাষ্ট্রের পুলিশ।

যুক্তরাষ্ট্রের আইনসভায় প্রথম দুই মুসলিম নারী
খুলনাঞ্চল ডেস্ক
যুক্তরাষ্ট্রের আইনসভা কংগ্রেসের মধ্যবর্তী নির্বাচনে প্রথমবারের মতো দুজন মুসলিম নারী নির্বাচিত হয়েছেন। তাদের একজন ফিলিস্তিন বংশাদ্ভুত রাশিদা তালিব, অপরজন সোমালি বংশোদ্ভুত ইলহান ওমর। মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় মধ্যরাত থেকে গতকাল বুধবার সকাল পর্যন্ত এই ভোটগ্রহণ ও গণনা শেষে তাদের নির্বাচিত ঘোষণা করা হয়।
৪২ বছর বয়সী তালিব ফিলিস্তিন অভিবাসী বাবা-মার ঘরে জন্মগ্রহণ করেন। ২০০৮ সালে মিশিগানের আইনসভায় নির্বাচিত হওয়ার মাধ্যমে তিনি প্রথম মুসলিম নারী হিসেবে ইতিহাস গড়েছিলেন। অপরদিকে সোমালিয়ার গৃহযুদ্ধের সময় ওমর ১৪ বছর বয়সে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমান।
তালিব কংগ্রেসের ১৩ নম্বর আসন থেকে ডেমোক্রেট প্রার্থী হিসেবে জয় পান। একই দলের ওমর কংগ্রেসের ৫ নম্বর আসন থেকে জিতেছেন। ওমরের আগে এই আসনে কংগ্রেসে প্রথম মুসলিম প্রার্থী হিসেবে কেইথ এলিসন জিতেছিলেন। রাষ্ট্রীয় অ্যাটর্নি জেনারেল হওয়ার দৌড়ে অংশ নিতে গিয়ে তাকে আসনটি ছাড়তে হয়েছিল।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here