সকল জাতীয় সংবাদ

0
53

চুয়াডাঙ্গায় চোখ হারানো ২০ জনের ক্ষতিপূরণের রুল শুনানিতে হাইকোর্ট
চিকিৎসা পেশা কিছু দুর্বৃত্তের কাছে বন্দী
ঢাকা অফিস
চিকিৎসা পেশা কিছু দুর্বৃত্তের কাছে বন্দী হয়ে পড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন হাইকোর্ট। আদালত বলেছেন, কতিপয় দুর্বৃত্তের কর্মকাÐের কারণে চিকিৎসাসেবার সুনাম নষ্ট হচ্ছে। বিপদে পড়লে মানুষ তিন জনের কাছে যায়। পুলিশ, আইনজীবী ও ডাক্তার। এই তিনটি পেশা যদি ধ্বংস হয় তাহলে মানুষে কোথায় যাবে? ডাক্তারি একটি মহান পেশা। এই পেশাটি কতিপয় দুর্বৃত্তের কাছে বন্দী।
গতকাল সোমবার চুয়াডাঙ্গার ইম্প্যাক্ট মেমোরিয়াল কমিউনিটি হেলথ সেন্টারে চক্ষু শিবিরে চিকিৎসা নিতে আসা চোখ হারানো ২০ জনের ক্ষতিপূরণের রুল শুনানিতে ডাক্তারদের বিষয়ে এমন মন্তব্য করেছেন হাইকোর্ট। দেশের বেসরকারি হাসপাতালগুলোর পাবলিক পারসেপশন ভালো না এবং ডাক্তারদের ব্যবহারও ভালো না বলে মন্তব্য করেন আদালত।
আদালত অবমাননা সংক্রান্ত এক মামলার শুনানিকালে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালকের উপস্থিতিতে হাইকোর্টের বিচারপতি এফআরএম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এই মামলার শুনানি অনুষ্ঠিত হয়।

আদালতে শুনানি করেন রিটকারী আইনজীবী অমিত দাস গুপ্ত। তার সঙ্গে ছিলেন সভাষ চন্দ্র দাস। অন্যদিকে, ইম্প্যাক্ট মাসুদুল হক মেমোরিয়াল কমিউনিটি হেলথ সেন্টারের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার এম আমিনুল ইসলাম। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এবিএম আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ।
আদালত বলেন, দেশে অনেক স্বনামধন্য চিকিৎসক এবং ভালো মানের চিকিৎসা সেবার সুযোগ থাকা সত্তে¡ও কতিপয় ভুল চিকিৎসার ভয়ে রোগীরা পার্শ্ববর্তী দেশে চলে যাচ্ছে। এতে দেশীয় মুদ্রা বিদেশে চলে যাচ্ছে। তাই আদালত এ ধরনের পরিস্থিতি কমিয়ে আনার জন্য স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক প্রফেসর ডা. আবুল কালাম আজাদকে নির্দেশনা দেন। এ সময় আদালত স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালককে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘ডাক্তারদের অবহেলা থাকলে তার যথাযথ শাস্তি হওয়া উচিত। কতিপয় দুর্বৃত্তের জন্য এই মহান পেশা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। কিছু দুর্বৃত্তের কাছে বন্দী হয়ে পড়েছে চিকিৎসা পেশা।’ চট্টগ্রামে ধর্মঘট ডাকা প্রসঙ্গে আদালত বলেন, ‘নিজেদের ভুল ঢাকার ধর্মঘটের ডাক দেওয়া আরো অন্যায়।’
আদালত বলেন, স্বাস্থ্য অধিদফতর থাকতে র‌্যাবকে কেন অভিযান চালাতে হবে। তাহলে অধিদফতরের কাজ কী বলেও প্রশ্ন রাখেন আদালত। এর আগে গত ৩ জুলাই চুয়াডাঙ্গা শহরের ইম্প্যাক্ট মাসুদুল হক মেমোরিয়াল কমিউনিটি হেলথ সেন্টারে চক্ষু শিবিরে চিকিৎসা নিতে এসে চোখ হারানো ২০ জনের প্রত্যেককে ১ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণের রুলের জবাব না দেয়ায় স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক ও চুয়াডাঙ্গার সিভিল সার্জনকে ব্যাখ্যা দিতে তলব করেন হাইকোর্ট।
গত ২৯ মার্চ একটি জাতীয় পত্রিকায় প্রকাশিত ‘চক্ষু শিবিরে গিয়ে চোখ হারালেন ২০ জন!’ শিরোনামে প্রকাশিত প্রতিবেদন যুক্ত করে সুপ্রিম কোর্টের আইজীবী অমিত দাসগুপ্ত এই রিট আবেদন করেন। গত ৪ মার্চ থেকে চুয়াডাঙ্গার ইমপ্যাক্ট মাসুদুল হক মেমোরিয়াল কমিউনিটি হেলথ সেন্টারে তিন দিনের চক্ষু শিবিরের দ্বিতীয় দিনে ২৪ জন নারী-পুরুষের চোখের ছানি (ফ্যাকো) কাটা হয়। ওই অস্ত্রোপচারের দায়িত্বে ছিলেন চিকিৎসক মোহাম্মদ শাহীন।
প্রতিবেদনে বলা হয়, পরদিন বাসায় ফেরার পর ওই রোগীদের চোখে সংক্রমণ দেখা দেয়। চোখে জ্বালা-পোড়া নিয়ে তারা যোগাযোগ করেন ইমপ্যাক্ট হাসপাতালে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ প্রথমে বিষয়টি গুরুত্ব না দিলেও পরে কয়েকজন রোগীকে স্থানীয় এক চক্ষু বিশেষজ্ঞের কাছে যাওয়ার পরামর্শ দেয়। ওই চক্ষু বিশেষজ্ঞ তাদের জরুরি ভিত্তিতে ঢাকায় যাওয়ার পরামর্শ দেন। এদের মধ্যে চারজন রোগী নিজেদের উদ্যোগে স্বজনদের সঙ্গে নিয়ে ঢাকায় আসেন। পরে ইমপ্যাক্ট থেকে ১২ মার্চ একসঙ্গে ১৬ জনকে ঢাকায় পাঠানো হয়। কিন্তু ততদিনে দেরি হয়ে যাওয়ায় ১৯ জনের একটি করে চোখ তুলে ফেলতে হয়। আরেক নারীর অপারেশন করা বাম চোখের অবস্থাও ভালো নয়। ঢাকায় দ্বিতীয় দফায় অপারেশন করলেও দৃষ্টিশক্তি ফিরে আসেনি তার।
প্রতিবেদনে বলা হয়, এই ২০ রোগীর সবাই দরিদ্র। কেউ স্বজনের কাছে ধারদেনা করে, কেউ বাড়ির ছাগল-মুরগি বিক্রি করে, কেউ এনজিও থেকে ক্ষুদ্রঋণ নিয়ে ইমপ্যাক্ট হাসপাতালে গিয়েছিলেন চোখ সারাতে।

বিদেশি পতাকা উত্তোলন বন্ধে রুল হাইকোর্টের
ঢাকা অফিস
বাংলাদেশের অভ্যন্তরে বিধিবহির্ভূতভাবে ভিনদেশী পতাকা উত্তোলন বন্ধে রুল জারি করেছে হাইকোর্ট। রুলে বাহাত্তর সালের পতাকা আইন লঙ্গন করে জাতীয় পতাকা ও বিদেশি পতাকা উত্তোলন বন্ধে প্রশাসনের নিষ্ক্রিতা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চাওয়া হয়েছে।
বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ ও বিচারপতি মো. সেলিম সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ গতকাল সোমবার এই রুল জারি করেন। দুই সপ্তাহের মধ্যে স্বরাষ্ট্র সচিব, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সচিব, তথ্য সচিবসহ চারজনকে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে।
বিদেশী পতাকা উত্তোলন বন্ধে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক ড. মনজুরুল হকসহ ১৩ জন গতকাল সোমবার হাটইকোর্টে একটি রিট আবেদনটি দায়ের করেন। পরে ওই রিটের শুনানি নিয়ে রুল জারি করা হয়। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী গাজী ফরহাদ রেজা। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন সহকারী অ্যাটর্নি জেনারেল জাকির হোসেন রিপন।
রিট দায়ের প্রসঙ্গে আইনজীবী গাজী ফরহাদ রেজা সাংবাদিকদের বলেন, গত ১৪ জুন রাশিয়ায় বিশ্বকাপ ফুটবল শুরু হয়েছে। এ উপলক্ষে দেশের বিভিন্ন স্থানে বাংলাদেশি সমর্থকরা যত্রতত্র বিভিন্ন দেশের পতাকা উত্তোলন করছে। অথচ এটি আইনত দÐনীয়। কারণ বাংলাদেশের পতাকা বিধিমালা, ১৯৭২-এর বিধান অনুযায়ী, বাংলাদেশে অবস্থিত বিদেশি কূটনৈতিক মিশনগুলো ছাড়া অন্য কোনো স্থানে বিদেশি রাষ্ট্রের পতাকা উত্তোলন করতে হলে বাংলাদেশ সরকারের বিশেষ অনুমোদন গ্রহণ করতে হয়। এ জন্য রিটে বিদেশি পতাকা উত্তোলন বন্ধে নিষেধাজ্ঞা চাওয়া হলে হাইকোর্ট রুল জারি করেন।

খালেদা জিয়ার রিভিউ নিয়ে আদেশ বৃহস্পতিবার
ঢাকা অফিস
বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার করা পুনর্বিবেচনা আবেদনের ওপর আগামী বৃহস্পতিবার আদেশ দেবেন আপিল বিভাগ। জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় পাঁচ বছরের সাজার রায়ের বিরুদ্ধে খালেদা জিয়ার করা আপিল ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে নিষ্পত্তি করতে হাইকোর্টকে নির্দেশ দিয়েছিলেন আপিল বিভাগ। আগামী ১৬ মে আপিল বিভাগের দেয়া সেই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা চেয়ে খালেদা জিয়ার করা আবেদনের ওপর গতকাল সোমবার শুনানি হয়। প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন চার সদস্যের আপিল বিভাগ এ আবেদনের ওপর শুনানি নিয়ে আদেশের ওই দিন ধার্য করেন।
খালেদা জিয়ার পক্ষে মওদুদ আহমদ, এ জে মোহাম্মদ আলী ও জয়নুল আবেদীন শুনানি করেন। অন্যদিকে রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। দুর্নীতি দমন কমিশনের পক্ষে আইনজীবী খুরশীদ আলম খান। এই মামলায় পাঁচ বছরের দÐের বিরুদ্ধে আপিল করে জামিন আবেদনের পর খালেদা জিয়াকে ১২ মার্চ চার মাসের জামিন দেন হাইকোর্ট। এর বিরুদ্ধে দুদক ও রাষ্ট্রপক্ষের আপিলের পর গত ১৬ মে তা বহাল রেখে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে আপিল নিষ্পত্তির নির্দেশ দিয়েছিলেন উচ্চ আদালত। পরে খালেদা জিয়া ৩১ জুলাইয়ের মধ্যে হাইকোর্টে আপিল মামলার নিষ্পত্তিতে আপিল বিভাগের আদেশ পুনর্বিবেচনা (রিভিউ) চেয়ে আবেদন করেন। এ আবেদনের পর ৫ জুলাই আপিল বিভাগের চেম্বার আদালত ৯ জুলাই শুনানির পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে পাঠানোর আদেশ দেন। সে অনুসারে গতকাল সোমবার এ আবেদনের ওপর শুনানি হয়। এ মামলায় ছয় আসামির মধ্যে খালেদা জিয়াসহ তিনজন কারাবন্দি। বাকি তিন আসামি পলাতক রয়েছেন। খালেদা জিয়া ছাড়া বাকি দুইজন হলেন, মাগুরার সাবেক এমপি কাজী সালিমুল হক কামাল ওরফে ইকোনো কামাল ও ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ। পলাতক তিনজন হলেন- বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপার্সন তারেক রহমান, সাবেক মুখ্য সচিব ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী, বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ভাগ্নে মমিনুর রহমান।
গত ৮ ফেব্রæয়ারি বকশীবাজারে কারা অধিদফতরের প্যারেড গ্রাউন্ডে স্থাপিত ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক ড. মো. আখতারুজ্জামান মামলাটিতে খালেদা জিয়ার পাঁচ বছরের কারাদÐ দেন। একইসঙ্গে খালেদার ছেলে ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপার্সন তারেক রহমান, মাগুরার সাবেক এমপি কাজী সালিমুল হক কামাল, ব্যবসায়ী শরফুদ্দিন আহমেদ, ড. কামাল উদ্দিন সিদ্দিকী ও মমিনুর রহমানকে ১০ বছর করে কারাদÐ দেন আদালত।
রায় ঘোষণার ১১ দিন পর ১৯ ফেব্রæয়ারি বিকেলে রায়ের সার্টিফায়েড কপি বা অনুলিপি হাতে পান খালেদা জিয়ার আইনজীবীরা। এরপর হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় ২০ ফেব্রæয়ারি তারা এ আবেদন করেন। ২২ ফেব্রæয়ারি খালেদা জিয়ার আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ এবং অর্থদÐ স্থগিত করে নথি তলব করেন। এরপর ৭ মার্চ অপর আসামি মাগুরার সাবেক এমপি কাজী সালিমুল হক কামালের আপিলও শুনানির জন্য গ্রহণ করেন হাইকোর্ট। ১০ মে আরেক আসামি শরফুদ্দিনের আপিল শুনানির জন্য গ্রহণ করেছেন আদালত।

বিএনপি কোটা আন্দোলনে ভর করতে চাইছে: কাদের
ঢাকা অফিস
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের অভিযোগ করে বলেছেন, বিএনপি কোটা আন্দোলনের ওপর ভর করতে চাইছে। গতকাল সোমবার সচিবালয়ে এক ব্রিফিংয়ে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।
মন্ত্রী বলেন, কোটা সংস্কার আন্দোলনে বিএনপির উসকানি আছে। এই আন্দোলনের সুবিধা যে বিএনপি নিতে চাইছে সেটি তো প্রমাণ হয় দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের কথায়।
সেতুমন্ত্রী বলেন, তারেক রহমান লন্ডন থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষক নেতার সঙ্গে ফোনে কোটা আন্দোলনে সমর্থন দেয়ার জন্য বিএনপিপন্থী শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের নির্দেশনা দিয়েছেন। এতেই প্রমাণ হয় এই আন্দোলনে কারা ফায়দা নিতে চাইছে।
ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি গত ৯ বছরে সংগঠিত হতে পারেনি। তাদের মেরুদÐ ভেঙে গেছে। তাদের নেত্রী দুর্নীতির মামলায় দÐিত হয়ে কারাগারে। আন্দোলনের হুঙ্কার দিয়েও কিছুই করতে পারছে না। তাই কোটা আন্দোলনে ভর করতে চাইছে। মন্ত্রী বলেন, কোটা নিয়ে সরকার কাজ করছে। এজন্য সবাইকে ধৈর্য ধরতে হবে।

খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে জাতীয় নির্বাচন হবে না
ঢাকা অফিস
দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে এদেশে জাতীয় সংসদ নির্বাচন হবে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।
দলীয় চেয়ারপারসনের মুক্তি দাবিতে গতকাল সোমবার রাজধানীর গুলিস্থানে কাজী বশির মিলনায়তনে ৭ ঘণ্টার প্রতীক অনশন কর্মসূচিতে তিনি এসব কথা বলেন। সকাল থেকে কর্মসূচি শুরুর পর বিকালে জাফরুল্লাহ চৌধুরী ফলের রস খাইয়ে অনশন ভঙ্গ করান।
মির্জা ফখরুল বলেন, এই অনশন কর্মসূচি থেকে আমরা দাবি করছি, অবিলম্বে দেশনেত্রীকে মুক্তি দিয়ে সুচিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে। এখানে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচন হতে হবে, নির্বাচন কমিশন পুনরায় গঠন করতে হবে, সংসদ ভেঙে দিতে হবে, সেনাবাহিনী মোতায়েন করতে হবে। তবেই নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি হলে এদেশে নির্বাচন হবে, অন্যথায় নির্বাচন হবে না।
তিনি বলেন, আজকে এদেশের মুক্তির জন্য, ১৬ কোটি মানুষের মুক্তির জন্য, মানুষের আবার গণতন্ত্র ফিরিয়ে দেবার জন্য, স্বৈরাচার সরকারের হাত থেকে দেশকে বাঁচানোর জন্য আমাদের ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

টঙ্গীতে সেপটিক ট্যাঙ্কিতে সহদোরসহ তিনজনের মৃত্যু
খুলনাঞ্চল রিপোর্ট
গাজীপুরের টঙ্গীতে একটি চারতলা ভবনের সেপটিক ট্যাঙ্কির নির্মাণকাজ করতে গিয়ে সহদোরসহ তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সোমবার দুপুরে উপজেলার খৈরতুল এলাকায় নির্মাণাধীন ভবনে এ ঘটনা ঘটে।
নিহতরা হলেন- রংপুরের কাউনিয়া থানার নাজিরগাঁও এলাকার জহিরুল ইসলামের ছেলে মো. ফারুক মিয়া (১৮), ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া থানার কালাদহ এলাকার শহীদুল ইসলামের ছেলে ওই কাজের ঠিকাদার মো. শাহীন (২৪) ও শাহীনের বড়ভাই মো. আতিক (২৮)।
টঙ্গী ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার আশিকুর রহমান জানান, গতকাল সোমবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে টঙ্গীর সাতাইশ এলাকার ইউসুফ আলী নামের এক ব্যক্তির বাড়ির নির্মাণাধীন সেপটিক ট্যাঙ্ক নির্মাণ ও পরিষ্কার করতে যান তিন নির্মাণশ্রমিক। সেপটিক ট্যাঙ্কটির মুখ ছোট হওয়ায় প্রথমে এক শ্রমিক সেখানে প্রবেশ করেন। দীর্ঘ সময় পেরিয়ে গেলেও ওই শ্রমিক ফিরে না আসায় পর্যায়ক্রমে অপর দুই শ্রমিক সেপটিক ট্যাঙ্কে নামেন। ট্যাঙ্ক নির্মাণের জন্য খুঁড়ে রাখা ১০ ফুটের মতো গভীর ওই গর্তে তিন ফুট পানি জমে ছিল।
সেখানে অক্সিজেনের অভাবে এবং বিষাক্ত গ্যাস জমে থাকার কারণে তারা গর্তের ভেতরে যাওয়ার পর পর্যায়ক্রমে অসুস্থ হয়ে পড়েন বলে ধারণা করা হচ্ছে। পরে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে গুসলিয়া ইন্টারন্যাশনাল মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাদের মৃত ঘোষণা করেন।

উত্তাল সাগর, সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্কতা
খুলনাঞ্চল রিপোর্ট
বঙ্গোপসাগরে সৃষ্ট লঘুচাপ স্থলভাগে অবস্থান করছে। এর প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও আশপাশের এলাকা উত্তাল। ফলে সমুদ্রবন্দরগুলোতে তিন নম্বর সতর্কতা জারি করা হয়েছে।
আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, গতকাল সোমবার দুপুরে লঘুচাপটি ভারতের ওডিশা ও বিহার এলাকায় অবস্থান করছে। এ কারণে চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্কসংকেত দেখিয়ে যেতে বলা হয়েছে। তবে স্থলভাগে চলে আসায় লঘুচাপটি স্থল নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। এটি ধীরে ধীরে দুর্বল হয়ে যাবে। এ ছাড়া বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলে চট্টগ্রাম, টেকনাফসহ উপকূলীয় এলাকায় বৃষ্টি হতে পারে।
উত্তর বঙ্গোপসাগরে অবস্থানরত মাছ ধরার নৌকা ও ট্রলারগুলোকে পরবর্তী নির্দেশ না দেয়া পর্যন্ত উপকূলের কাছাকাছি এসে সাবধানে চলাচল করতে বলা হয়েছে। আবহাওয়া অধিদফতরের পূর্বাভাসে বলা হয়, মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের ওপর মোটামুটি সক্রিয় রয়েছে। এটি উত্তর বঙ্গোপসাগরে মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।
এ কারণে খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রংপুর, রাজশাহী, ময়মনসিংহ ও ঢাকা বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ী দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টি হতে পারে। কোথাও কোথাও ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। আগামী তিন দিন এই আবহাওয়ার সামান্য পরিবর্তন হতে পারে।
গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে কক্সবাজারে টেকনাফে। এ উপজেলায় ১১৪ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে। এছাড়া বিভাগীয় শহরের মধ্যে খুলনায় ৫, রাজধানী ঢাকায় ৩, ময়মনসিংহে ৭, চট্টগ্রামে ১৩, সিলেটে ৩, ও বরিশালে ১ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর।

সরকারি চাকরিতে পদ খালি ৩ লাখ
খুলনাঞ্চল রিপোর্ট
সরকারের ৫৬ মন্ত্রণালয় ও বিভাগের অধীনে ২ লাখ ৯০ হাজার ৩৪৮টি পদ শূন্য রয়েছে। এর মধ্যে সর্বাধিক খালি পদ রয়েছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে। গতকাল সোমবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য আ ফ ম বাহাউদ্দিনের (নাছিম) এক প্রশ্নের জবাবে জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম এ তথ্য জানান।
তিনি বলেন, বর্তমানে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে পদ শূন্য রয়েছে মোট ৫৮ হাজার ৯৮৯টি পদ। এছাড়া স্বাস্থ্যসেবা বিভাগে ৩৪ হাজার ৯২৩টি, জননিরাপত্তা বিভাগে ২৮ হাজার ৩৫০টি, রেলপথ মন্ত্রণালয়ে ১৫ হাজার ৫২৫টি, কৃষি মন্ত্রণালয়ে ১৩ হাজার ১৫৫টি, কারিগরি মাদরাসা শিক্ষা বিভাগে ৪ হাজার ২৮৩টি পদ খালি রয়েছে। এ রকম সব মন্ত্রণালয়ে কমবেশি আরও পদ খালি রয়েছে। সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেন, এসব শূন্য পদ দ্রæত পূরণের লক্ষ্যে ইতিমধ্যে সব মন্ত্রণালয় ও বিভাগকে অনুরোধ জানিয়ে পত্র প্রেরণ করা হয়েছে।

নিয়োগে ৫ ধরনের কোটা রয়েছে: জনপ্রশাসনমন্ত্রী
ঢাকা অফিস
জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন, পাবলিক সার্ভিস কমিশনের (পিএসসি) তত্ত¡াবধানে নিয়োগ পরীক্ষার মাধ্যমে সাংবিধানিক অনুশাসন অনুযায়ী প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির গেজেটেড পদে প্রার্থী মনোনয়ন করা হয়। পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের মেধা ক্রমানুসারে পাঁচ ধরনের কোটা পদ্ধতি অনুসরণ সাপেক্ষে চাকরিতে যোগদান করানো হয়। গতকাল সোমবার জাতীয় সংসদে সেলিনা বেগমের এক প্রশ্নের জবাবে জনপ্রশাসনমন্ত্রী এসব কথা বলেন।
তিনি বলেন, পাঁচ ধরনের কোটাসমূহের মধ্যে মেধাভিত্তিক (জেলা কোটাবহির্ভূত) ৪৫ শতাংশ, মুক্তিযোদ্ধা ৩০ শতাংশ, নারীদের জন্য ১০ শতাংশ, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর ৫ শতাংশ এবং জেলার সাধারণ প্রার্থীদের জন্য ১০ শতাংশসহ মোট শতভাগ। তবে প্রাধিকার কোটার অপূরণকৃত ১ শতাংশ কোটা প্রতিবন্ধী প্রার্থীদের দ্বারা পূরণ করা হয়ে থাকে। একই প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, ২০১১ সালের ১৬ জানুয়ারি সরকারের সার্কুলারের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মুক্তিযোদ্ধা প্রার্থী না পাওয়া গেলে ৩০ শতাংশ মুক্তিযোদ্ধা কোটার পদ তাদের পুত্র-কন্যা প্রার্থী দ্বারা পূরণ করা হয়। এছাড়া প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণির পদ পূরণের ক্ষেত্রে বিদ্যমান কোটাসমূহের মধ্যে যে কোটায় পর্যাপ্তসংখ্যক প্রার্থী পাওয়া যাবে না সেখানে যোগ্য প্রতিবন্ধী প্রার্থীর মধ্য থেকে ১ শতাংশ কোটা পূরণ করা হয়।
তিনি বলেন, এসব পদে সরাসরি নিয়োগের ক্ষেত্রে গত ২০১০ সালের ৫ মে জারি করা বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী বিশেষ কোটার অধীনে কোনো জেলার বিতরণকৃত পদের সংখ্যা হতে যোগ্য প্রার্থীর সংখ্যা কম হলে অপূর্ণ পদসমূহ জাতীয়ভিত্তিক স্ব স্ব বিশেষ কোটার (মুক্তিযোদ্ধা, মহিলা ও ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী) জন্য প্রণীত জাতীয় মেধা তালিকা থেকে পূরণ করা হয়। তবে, মহিলা ও ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী কোটার কোনো কৃতকার্য প্রার্থী পাওয়া না গেলে উক্ত পদগুলো অবশিষ্ট কোটা অর্থাৎ জেলার সাধারণ প্রার্থীদের দ্বারা পূরণ করা হয়ে থাকে। পাশাপাশি বিশেষ কোটার (মুক্তিযোদ্ধা, মহিলা ও ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী) পদ পূরণ করা সম্ভব না হলে অপূরণকৃত সেসব পদ জাতীয় মেধা তালিকার শীর্ষে অবস্থানকারী প্রার্থীদের থেকে পূরণ করা হয়।

প্রবাসীদের সুরক্ষা ও কল্যাণে সংসদে বিল পাস
ঢাকা অফিস
প্রবাসী ও তাদের ওপর নির্ভরশীলদের সুরক্ষা ও কল্যাণ সাধনের লক্ষ্যে জাতীয় সংসদে উত্থাপিত ‘ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড বিল-২০১৮’ পাস হয়েছে। গতকাল সোমবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী নূরুল ইসলাম, বিএসসি বিলটি পাসের প্রস্তাব উত্থাপন করলে তা কণ্ঠভোটে পাস হয়।
প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী গত ৯ জানুয়ারি জাতীয় সংসদে বিলটি উত্থাপনের পর তা অধিকতর পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য সংশ্লিষ্ট সংসদীয় স্থায়ী কমিটিতে পাঠান। কমিটি বিলের দফা ৭(১), ৮, ১৪ এবং ১৮ এর কয়েকটি জায়গায় সংশোধনী এনে বিলটি পাসের সুপারিশ করে গত ৯ মে প্রতিবেদন জমা দেয়া হয়।
সংসদে পাস হওয়া আইনে বিলটি পাসের সঙ্গে সঙ্গে ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ড প্রতিষ্ঠার প্রস্তাব করা হয়েছে। বিলে এ বোর্ড পরিচালনার জন্য প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিবকে সভাপতি করে ১৬ সদস্যের পরিচালনা পরিষদ গঠনের কথা বলা হয়েছে।
বিলে বোর্ডের কার্যাবলি, নারী অভিবাসী কর্মীদের কল্যাণে বিশেষ দায়িত্ব, পরিচালনা পরিষদের সভা, সভাপতির আপৎকালীন বিশেষ ক্ষমতা, বোর্ডের মহাপরিচালক নিয়োগ, কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োগ, বোর্ডের তহবিল, হিসাব ও নিরীক্ষা, প্রতিবেদন প্রদান, বিধি ও প্রবিধি প্রণয়নের ক্ষমতাসহ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে সুনির্দিষ্ট বিধানের প্রস্তাব করা হয়েছে। এছাড়া বিলে ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ তহবিল বিধিমালা-২০০২ রহিত করারও প্রস্তাব করা হয়েছে।

নাটোরে মন্ত্রীর গণসংযোগে যুবলীগ নেতার গুলি
খুলনাঞ্চল রিপোর্ট
নাটোরে আওয়ামী লীগের সাবেক ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ও সাবেক এমপি আহাদ আলী সরকার গণসংযোগে থানা যুবলীগের সহ-সম্পাদক মানিক পাশার নেতৃত্বে হামলা ও গুলিবর্ষণের ঘটনা ঘটৈছে। গতকাল সোমবার বিকেলে নাটোর সদরের ফুলতলা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ ও র‌্যাব অভিযুক্ত থানা যুবলীগের সহ-সম্পাদক মানিক পাশা (২৭) ও তার সহযোগী শাহাদত হোসেন (২৬) কে আটক করেছে। এ সময় তাদের ব্যবহৃত দুইটি মোটর সাইকেলও আটক করা হয়। এ ঘটনায় এমপি আহাদ আলী সরকারের আহত কর্মী মিঠুনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা জানায়, গতকাল সোমবার বিকেল ৫টার দিকে নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি সাবেক ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আহাদ আলী সরকার সদরের ফুলতলা এলাকায় গণসংযোগ করার জন্য গেলে সদর থানা যুবলীগের সহ-সম্পাদক মানিকের নেতৃত্বে বাধা দেয়া হয়।
পরে মানিক বাড়িতে ফিরে গিয়ে তিনটি মোটরসাইকেলে অন্য সহকর্মীদের নিয়ে এসে পাশের শিবদুর গ্রামের মোড়ে পুনরায় তাদের উপর হামলা চালায়। এসময় হামলাকারীরা ছয় রাউন্ড ফাঁকা গুলিবর্ষণ করে। উত্তেজনা চলা অবস্থাতেই সন্ধ্যার পূর্ব মুহূর্তে নাটোরের এডিশনাল এসপি আবুল হাসনাত, বিপুলসংখ্যক র‌্যাব ও পুলিশ ঘটনা স্থলে গিয়ে হামলাকারী সদর থানা যুবলীগের সহ-সম্পাদক মানিক ও তার সহযোগী শাহাদত হোসেনকে আটক করে। অন্যরা মোটর সাইকেলে পালিয়ে যায়। এ সময় তাদের ব্যবহৃত দুইটি মোটরসাইকেল আটক করা হয়। এছাড়া একটি গুলির খোসা উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় এখনো কোন মামলা হয়নি। এ ব্যাপারে কোন কথা বলতে রাজি হননি অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবুল হাসনাত।
এ বিষয়ে নাটোর জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ-সভাপতি সাবেক ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী আহাদ আলী সরকার বলেন, এটা সন্ত্রাসী হামলা, আমার নেতাকর্মীদের উপর সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয়েছে এর চাইতে বেশি কিছু বলতে চাই না। আজ মঙ্গলবার সকালে তার বাড়িতে সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত কথা বলবেন তিনি।

ঝিনাইদহে ৩ মাদক বিক্রেতার কারাদÐ
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি
ঝিনাইদহ সদর ও শৈলকুপা উপজেলায় ৩ মাদক বিক্রেতাকে কারাদÐ প্রদান করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর কার্যালয়ের ইন্সপেক্টর রাসেল আলী জানান, গতকাল সোমবার সকালে গোপন সূত্রে জানা যায়, উপজেলার লৌহজঙ্গা গ্রামে মাদক ক্রয়-বিক্রয় চলছে। জেলা সদরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাম্মী ইসলামের নেতৃত্বে সেখানে অভিযান চালিয়ে ৫০০ গ্রাম গাঁজাসহ কাওছার আলীকে গ্রেফতার করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে তাকে ৩ মাসের কারাদÐ প্রদান করা হয়। অপরদিকে শৈলকুপা উপজেলার ভাটই বাজার এলাকায় দুই মাদক বিক্রেতাকে কারাদÐ দিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। দÐিতরা হলেন- ভাইটবাজার এলাকার মৃত রঞ্জিতের ছেলে সাগর (৩৫) ও মৃত হরিপদ দাসের ছেলে প্রদীপ দাস (৪১)। গত রবিবার বিকালে শৈলকুপা উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা উসমান গনির নেতৃত্বে মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর অভিযান চালায়। ৬০০ গ্রাম গাঁজাসহ আটক করা হয় সাগর ও প্রদীপকে। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে প্রদীপ দাসকে ১ বছরের ও সাগরকে ৭ মাসের কারাদÐ প্রদান করা হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here