খুলনা, শনিবার, জানুয়ারী ২০, ২০১৮

পাবলিক কলেজে ৭ম শ্রেণির ছাত্র খুন: আটক ১

স্টাফ রিপোর্টার 
নগরীর বয়রা খুলনা পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে ফাওমিদ তানভীর রাজিম (১২) নামের এক ছাত্র নিহত হয়েছে। সে ওই স্কুলের সপ্তম শ্রেণির ছাত্র। গতকাল শনিবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। তবে এ ঘটনায় আলিফ নামের এক কিশোরকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে বলে খালিশপুর থানা পুলিশ জানিয়েছে। নিহত রাজিম বয়রা পালপাড়া পুলিশ ফাঁড়ি এলাকার শেখ জাহাঙ্গীর হোসেনের ছেলে। তার মা রেহেনা আক্তার বয়রা পুলিশ লাইন স্কুলের শিক্ষিক।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, গতকাল শনিবার কলেজের প্রাক্তন ছাত্রদের নিয়ে প্রথমবারের মত এ্যালামনাই এসোসিয়েশন গঠন করা হয়। বিকেলে ৩টায় শিক্ষক ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিভিন্ন ধরণের খেলাধুলা, স্মৃতিচারণ এবং সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান শুরু হয়। অনুষ্ঠানে এলাকার বখাটেরাও প্রবেশ করে। এসময় বহিরাগতদের সঙ্গে রাজিমের কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে তারা রাজিমের বুকে ছুরি মেরে পালিয়ে যায়। মারাত্মক আহত অবস্থায় সহপাঠিরা রাজিমকে নিয়ে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

খালিশপুর থানার অফিসার ইনচার্জ সরদার মোশারফ হোসেন জানান, খুলনা পাবলিক কলেজের ৩১তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও প্রাক্তন ছাত্রদের পুনর্মিলনী উপলক্ষে দুই দিনব্যাপী অনুষ্ঠানের শেষ দিন গতকাল শনিবার রাতে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান চলছিল। এ সময় কয়েকজন দুর্বৃত্ত রাজিমের বুকে ছুরিকাঘাত করে। তাকে উদ্ধার করে খুমেক হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। লাশ হাসপাতালের মর্গে রয়েছে। তবে কারা এবং কি কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে সেটি তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। তবে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একজন অভিভাবক আয়োজক কমিটির দিকে আঙ্গুল তুলেছেন। তিনি বলেন, কলেজের অনুষ্ঠানে বহিরাগতদের প্রবেশ এবং ছাত্রকে ছুরিকাঘাত করে হত্যার বিষয়টি মোটেই সহজে মেনে নেয়া যায় না। তিনি আরো বলেন, এ ব্যর্থতার দায় খুলনা পাবলিক কলেজের কর্তৃপক্ষকে অবশ্যই নিতে হবে। কোনভাবেই তারা দায়ভার এড়াতে পারেন না।

উল্লেখ্য, খুলনা পাবলিক কলেজের ৩১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী এবং প্রাক্তন ছাত্রদের পুনর্মিলনীর ১মদিন গত শুক্রবার সকাল সাড়ে ৮টায় বর্ণাঢ্য র‌্যালীর মাধ্যমে শুরু হয়েছে। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বিভাগীয় কমিশনার ও কলেজের বোর্ড অব গভর্নরসের সহ-সভাপতি লোকমান হোসেন মিয়া। প্রধান অতিথি ছিলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ এমপি। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ। গতকাল শনিবার কলেজের প্রাক্তন ছাত্রদের নিয়ে প্রথমবারের মত এ্যালামনাই এসোসিয়েশন গঠন ও বিকেলে ৩টায় শিক্ষক ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের মধ্যে বিভিন্ন ধরণের খেলাধুলা, স্মৃতিচারণ এবং সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে দুই দিন ব্যাপী অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হওয়ার কথা ছিলো।

তিন দিনের মধ্যে বাড়ি ফিরবেন আইভী

খুলনাঞ্চল রিপোর্ট
নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীর শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে। তাকে দুই-তিন দিনের মধ্যে হাসপাতাল থেকে রিলিজ দেওয়া হবে বলে জানিয়েছে ল্যাব এইড কর্তৃপক্ষ। শনিবার রাত ৮টার দিকে ধানমন্ডির ল্যাব এইড হাসপাতালের নিচতলায় আয়োজিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এসব তথ্য জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

হাসপাতালের সিনিয়র কনসালট্যান্ট কার্ডিওলজিস্ট প্রফেসর ড. বরেণ চক্রবর্তী বলেন, ‘মেয়র আইভীর অবস্থা শুধু স্থিতিশীল নয়, উন্নতি হয়েছে। তিনি আমাদের হাসপাতালে যে সমস্যার জন্য এসেছেন, সেটি উন্নতির দিকে। স্ট্রোকের কারণে তার মস্তিস্কের পেছনের অংশে ত হয়েছিল। আমরা গত কয়েকদিন ধরে পরীা-নিরীা ও পর্যবেণ করে দেখেছি- এটি স্থিতিশীল অবস্থায় থাকে নাকি আরও খারাপের দিকে যায়। সব অবজারভেশনে দেখা যায়, তার অবস্থা উন্নতির দিকে।’

তিনি আরও বলেন, ‘আগামীকাল (আজ রবিবার) সকালে মেয়র আইভীকে ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট থেকে কেবিনে নিয়ে যাওয়া হবে। তাকে দুই-তিন দিনের মধ্যে হাসপাতাল থেকেও রিলিজ দেওয়া হবে। আমরা অ্যাডভাইজ দেবো, ১০ থেকে ১৫ দিন পরে আবারও যেনো তিনি ডাক্তারের সঙ্গে দেখা করেন।’

উলে­খ্য, মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে বৃহস্পতিবার  বিকাল পৌনে ৫টার দিকে নারায়ণগঞ্জ থেকে তাকে রাজধানীর ল্যাব এইড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

আঞ্চলিক সংবাদ

বাজুয়ায় আমনের পরেই বোরো চাষে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে চাষীরা
বাজুয়া (দাকোপ) প্রতিনিধি

দাকোপ উপজেলার বাজুয়ায় এবার আমনের বাম্পার ফলের পরই বোরো চাষে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে চাষীরা। চাষীদের মুখে বইছে আনন্দের হাসি। চলতি মৌসুমে বাজারের সকল পণ্যের  সাথে তালমিলিয়ে ধানের দাম বৃদ্ধি হওয়ায় বাজুয়ার  চাষীরা মহাখুশি। জানা যায়, স¤প্রতি বাজারের সকল পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি হওয়ায় কৃষকের কৃষিপণ্য ধানের মূল্য বৃদ্ধি হয়েছে  শুধুমাত্র বাজুয়ার কৃষকরাই নয়, এর ফলে বাংলাদেশের শতকরা ৮০% কৃষকের মনে বইছে আনান্দের জোয়ার। বাজুয়ার বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা যায় গতবারের চেয়ে এবার অনেক চাষীরা বোরো ধান উৎপাদনের জন্য বীজতলা তৈরিসহ রোপন কাজে ব্যস্ত সময় পার করছে।
কৈলাশগঞ্জের বোরো চাষী মফিজ শেখ জানান, বাজারে ধানের দাম বেশি থাকায় এবার এলাকার অনেক চাষীই বোরো চাষ করবে জমিতে। আবার বাজুয়া এলাকা যেহেতু তরমুজ চাষে বিখ্যাত তাই বেশির ভাগ কৃষক তরমুজ চাষ করবে বলে জমি তৈরি করছে।
 দাকোপ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মোঃ মোছাদ্দেক হোসেন জানান এবার দাকোপে ১৮,৯০০হেক্টর জমিতে আমনের চাষাবাদ হয়েছে তবে বাজারে ধানের দাম বেশি থাকলে বাকি সময় বোরো, আউশ ও আমন উৎপাদন আরো বেশি জমিতে হবে। এলাকার কৃষকরা ধান চাষে আবারও তাদের আগ্রহ ফিরে আসবে বলে মনে করি।

মোল্লাহাটে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও দোয়া
মোল্লাহাট (বাগেরহাট) প্রতিনিধি

 মোল্লাহাটে ডাঃ মনসুর আহমদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে গতকাল (শনিবার) সকালে অনুষ্ঠিত বিদায় ও দোয়া অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রতিষ্ঠানের সভাপতি মোঃ মোর্শেদ উদ্দিন মিয়া। উক্তানুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি অবঃ অধ্যক্ষ মাওঃ মোঃ আসগর আলী, ইউপি চেয়ারম্যান ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য মোঃ মশিউর রহমান মিয়া, প্রেসকাব মোল্লাহাটের সাধারণ সম্পাদক ও বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য এম এম মফিজুর রহমান, বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য মোঃ মনিরুজ্জামান মিয়া, প্রধান শিক্ষক রমেশ চন্দ্র খান, মোঃ লায়েব আলী, মোঃ মিজানুর রহমান মিন্টু মিয়া ও স্বপন বিশ্বাস, কাহালপুর আলীম মাদরাসার অধ্যক্ষ (ভাঃ) অলিউজ্জামান, শিক্ষক কেএম জাকির হোসেন, সহকারী প্রধান শিক্ষক তুষার কান্তি রায় ও শিক্ষক মোঃ সেলিম আহম্মেদ মিয়া প্রমূখ। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন শিক্ষক ফরিদ উদ্দিন আহমেদ।  

সিএইচসিপিদের চাকুরী জাতীয়করনের দাবিতে অবস্থান কর্মসূচি
মোল্লাহাট (বাগেরহাট) প্রতিনিধি

মোল্লাহাটে কমিউনিটি কিনিকে কর্মরত সিএইচসিপিদের চাকুরী জাতীয় করনের দাবীতে অবস্থান কর্মসূচী পালনসহ প্রধানমন্ত্রী বরাবরে স্মারক লিপি প্রদান করা হয়েছে। মোল্লাহাট উপজেলায় কর্মরত সকল সিএইচসিপি গতকাল সকাল থেকে দিনব্যাপী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চত্বরে এ অবস্থান কর্মসূচী পালন করে।
কমিউনিটি কিনিকে কর্মরত সিএইচসিপিদের মাঝে টিটু গাইন, রিপন বিশ্বাস, সঞ্জয় টিকাদার, মুরছালিম গাজী, ইমরান শেখ, রেজিনা আক্তার, মৌসুমী আক্তার, আমেনা  ও শান্তি রায় জানান-বাগেরহাট জেলা সিএইচসিপি এ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক স্বাক্ষরিত স্মারক লিপি তারা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে প্রদান করেছেন। তারা আরো জানান- এর পূর্বে ২০১৩ ইং সনে সরকার নিজেই তাদের চাকুরী রাজস্ব করনের উদ্যোগ নেয়। তথাপিও অদ্যবধি তাদের চাকুরী রাজস্ব অন্তর্ভূক্ত না হওয়ায় নিরুপায় হয়ে এ আন্দোলন করছে।


অভয়নগরে চাকরি জাতীয়করণের দাবিতে কমিউনিটি কিনিকের অবস্থান কর্মসূচি
অভয়নগর (যশোর) প্রতিনিধি

চাকরি জাতীয় করণের দাবিতে অভয়নগরে কমিউনিটি কিনিকের কর্মচারীরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে শনিবার সকালে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন। কর্মসূচি শেষে বাংলাদেশ স্বাস্থ্য বিভাগীয় (সিএইচসিপি) এ্যাসোসিয়েশন’র অভয়নগর উপজেলা শাখার সাধারন সম্পাদক মো. সাইদুর রহমানের ও এ্যাসোসিয়েশনের কোষাধ্যক্ষ মো. কামরুজ্জান উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. মনজুরুল মোর্শেদ’র নিকট স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। অভয়নগর উপজেলা সিএইচসিপি’র সাধারন সম্পাদক মো. সাইদুর রহমান বলেন, প্রত্যন্ত অঞ্চলের সাধারন মানুষের সেবা দেওয়ার কাজ করে বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার স্বপ্নকে সার্থক করার চেষ্টা করছি। তারপরও অত্যন্ত দু:খের কথা আমরা নিয়মিত বেতন-ভাতা পাইনা। আমাদের দাবী না মানলে এ কর্মসূচি অব্যহত রাখা হবে। আজ অভয়নগরে ২৬টি, যশোরে ২৬৭টি এবং সারা বাংলাদেশে মোট ১৩,৫০০টি কমিউনিটি কিনিকের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা তাদের সঠিক মর্যদা জাতীয়করনের দাবীতে রাস্তায় নামতে বাধ্য হয়েছে। বাংলাদেশ সিএইচসিপি’র সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীর এক দফা, এক দাবী জাতীয়করন করা হোক। তিনি আরো বলেন, গত ১৯.০৯.২০১৩ ইং সালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষে ডা. মো. শাহ নেওয়াজ স্বাক্ষরিত একটি পত্রে আমাদের চাকুরী দ্রæত জাতীয়করনের আশ্বাস পাই, কিন্তু বাস্তবে এখোনো হয়নি। আমরা রবিবার সকালে উপজেলা চেয়ারম্যান ও নির্বাহী কর্মকর্তা এবং সোমবার এমপি যশোর ৮৮/৪ এর নিকট স্মারক লিপি প্রদাণ করবো। এদিকে উপজেলার সকল কমিউনিটি কিনিক বন্ধ রাখার জন্যে সাধারন মানুষ পড়েছেন চরম দুর্ভোগে স্বাস্থ্য সেবা নিতে আসা মানুষ ফিরে যাচ্ছে হতাশা নিয়ে। সাধারন মানুষের সমস্যা সমাধান করতে সরকারের স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের প্রতি দাবী জানিয়েছেন তারা


তালার ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্র’র নির্মাণ কাজের উদ্বোধন
তালা প্রতিনিধি

সাতক্ষীরার তালা উপজেলার মাগুরা আইডিয়াল মহিলা কলেজের বহুমুখী ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্র নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করা হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে দুই কোটি ২৫ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত উক্ত নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন সাতক্ষীরা-১ (তালা-কলারোয়া) আসনের সংসদ সদস্য এ্যাডভোকেট মুস্তফা লূৎফুল্লাহ। এ সময় কলেজ পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ও তালা প্রেসকাবের সভাপতি প্রণব ঘোষ বাবলুর সভাপতিত্বে আলোচনা সভয় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তালা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমার, ভাইস চেয়ারম্যান ইখতিয়ার হোসেন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান জেবুনেচ্ছা খানম, সাতক্ষীরা জেলা ওয়াকার্স পার্টির সম্পাদক উপাধ্যক্ষ মহিবুল্লাহ মোড়ল, নগরঘাটা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান লিপু, উপজেলা কৃষকলীগের আহবায়ক মুক্তিযোদ্ধা ময়নুল ইসলাম, তালা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও তালা প্রেসকাবের সাধারণ সম্পাদক সরদার মশিয়ার রহমান, মাগুরা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হান্নান মোড়ল প্রমুখ।


তালায় সিএইচসিপিদের অবস্থান কর্মসূচি
তালা প্রতিনিধি

বাংলাদেশ কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার (সি.এইচ.সি.পি.এ) এসোসিয়েশন’র কেন্দীয় কমিটির সিদ্ধান্ত মোতাবেক চাকুরী জাতীয়করণের দাবিতে চলমান কর্মসূচীর অংশ হিসেবে সংগঠনের সাতক্ষীরা জেলার তালা উপজেলার শাখার উদ্যোগে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চত্ত¡রে শনিবার থেকে ৩ দিনব্যাপী অবস্থান কর্মসূচী শুরু হয়েছে। কর্মসূচীতে উপস্থিত ছিলেন- সংগঠনের সাতক্ষীরা জেলা সভাপতি মোঃ আলামিন হোসেন,তালা উপজেলা শাখার সভাপতি মোঃ হাফিজুর রহমান,সাধারণ সম্পাদক আসিব মাহমুদ, সদস্য ইউনুছ আলী,আলমগীর হোসেন,প্রনব কুমার পাল,নাজমুল হোসেনসহ  উপজেলার বিভিন্ন কমিউনিটি কিনিকে কর্মরত ৩৭জন কমিউনিটি হেলথ্ কেয়ার প্রোভাইডার (সিএইচসিপি) উপস্থিত ছিলেন। এ সময় সিএইচসিপিরা, সারা দেশের সাড়ে ৪ হাজার বীরমুক্তিযোদ্ধার সন্তানসহ ১৪ হাজার কমিউনিটি হেলথ্ কেয়ার প্রোভাইডার (সিএইচসিপি) দের চাকুরী দ্রæত জাতীয়করণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

মতবিনিময় সভায় নড়াইলের পুলিশ সুপার
মাদকসেবী, জঙ্গি ও সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলতে হবে
কালিয়া (নড়াইল) প্রতিনিধি

মাদক, জঙ্গী ও সন্ত্রাস নির্মূলে শনিবার সকালে কালিয়া থানা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। কালিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ শেখ শমসের আলীর সভাপতিত্বে নড়াইলের পিরোলীতে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত ডিআইজি পদে সদ্য পদোন্নতি প্রাপ্ত নড়াইলের পুলিশ সুপার সরদার রকিবুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মেহেদী হাসান।
প্রধান অতিথি তার বক্তৃতায় বলেন, ‘যেখানেই মাদক, সেখানেই প্রতিরোধ গড়ে তোলা হবে। মাদকসেবী, জঙ্গী ও সন্ত্রাসীদের সঙ্গে কোনো প্রকার আপোস করা হবে না।
অনুষ্ঠানের শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন কালিয়া থানার ওসি (তদন্ত) মোঃ ইকরাম শেখ। অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন কালিয়া থানা আওয়ামীলীগ সভাপতি মোঃ  হারুনুর রশীদ, মুক্তিযোদ্ধা সাখাওয়াত হোসেন রানা মোল্যা, হাবিবুল আলম বীরপ্রতীক মহাবিদ্যালয়ের সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ ইমরানুল হক মিসা, ফাজেল আহম্মদ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনিমোহন বিশ্বাস, ইসলামী আদর্শ দাখিল মাদ্রাসার সুপার মোঃ রেজাউল ইসলাম, পশ্চিম পেড়লী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আলহাজ্ব হাফিজুর রহমান প্রমূখ। সাংবাদিক এম এম মাসুম রেজার উপস্থাপনায় অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভার সার্বিক তত্বাবধানে ছিলেন পেড়লী পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এস আই মোঃ বেলাল হোসেন।
 
ডুমুরিয়ায় সোহাগ বাহিনীর নামে মামলা করে বিপাকে সাবেক ইউপি সদস্য
ডুমুরিয়া প্রতিনিধি      
ডুমুরিয়ায় অর্ধডজন মামলার আসামী অত্যাচারী ও কুখ্যাত এক মাদক স¤্রাটসহ তার লাঠিয়াল বাহিনীর নামে মামলা করে বিপাকে পড়েছেন শোভনার সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুর রশিদ শেখ। ৩০ ডিসেম্বর তারিখে ফিল্মি স্টাইলে হামলা চালিয়ে বসতবাড়ির আসবাবপত্র ভাংচুর, মারপিট, অগ্নিসংযোগ, নগদ টাকাসহ লক্ষাধিক টাকার মালামাল ক্ষতিসাধনের ঘটনায় সোহাগ খানসহ ৩৩ জনের নামে এ মামলাটি দায়ের হয়। এদিকে মামলা তুলে না নিলে জীবনে শেষ করে দিবে বলে হুমকী-ধামকী অব্যহত রেখেছে ভুক্তভোগী পারিবারের উপর। এ বিষয় গত ৪ জানুয়ারী তারিখে থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী করেছেন ভুক্তভোগী রশিদ শেখ।    
এলাকাবাসী ও ভুক্তভোগী পরিবার সুত্রে জানা যায়, উপজেলার একজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী শোভনা গ্রামের মজনু খানের ছেলে সোহাগ খান(৩০)। মাদক সিন্ডিকেটের একজন প্রধান নায়ক সে। তার বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য, লুটপাট, জমিদখল, অগ্নিসংযোগ ও নারি শিশু নির্যাতন দমন আইনসহ বটিয়াঘাটা ও ডুমুরিয়া থানায় অর্ধ ডজন মামলা রয়েছে। সোহাগ খান দীর্ঘদিন ধরে সাতক্ষীরা থেকে মাদক ও নেশা জাতীয় দ্রব্য (ফেন্সিডিল, হিরোইন, ইয়াবা, গাঁজা) এনে শোভনাসহ খুলনার জিরোপয়েন্ট এলাকায় বিক্রি করে আসছে। এর সাথে কিছু যুবক ও যুব-মহিলাও জড়িত রয়েছে। মাদক স¤্রাট ওই সোহাগ খানের বিরুদ্ধে বহুবার পত্র-পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশ হলেও টনক নড়ছে না প্রশাসনের। ফলে শোভনা এলাকায় মাদকে ঘিরে ফেলছে। উঠতি যুবসমাজ ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে চলে যাচ্ছে। এই সুযোগে সে এলাকার কিছু যুবকদেরকে সংগঠিত করে একটি লাঠিয়াল বাহিনী গড়ে তুলেছে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক শোভনা গ্রামের অনেকেই জানান, সোহাগ খান শোভনা গ্রামের যুব সমাজকে নেশাগ্রস্থ করে তুলছে। তার নেতৃত্বে প্রতিরাতে এলাকায় বহিরাগত বখাটেদের আনাগোনা দেখা যাচ্ছে। জানা গেছে, শোভনা ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক সদস্য মোঃ আব্দুর রশিদ শেখের(৫০) সাথে দীর্ঘদিন যাবত ওই সোহাগ খানের পূর্ব শত্রæতা চলে আসছে। তারই অংশ হিসেবে গত ৩১ ডিসেম্বর তারিখে (বিকাল অনুমান ৪টা) সোহাগ খান তার লাঠিয়াল বাহিনীর সহায়তায় রামদা, লোহার রড, হাতুড়ী, বাঁশের লাঠিসহ দেশীয় তৈরি অস্ত্র সস্ত্র নিয়ে রশিদ শেখের বাড়িতে ঢুকে প্রথমে ধানের পালা ও বিছালীর পালায় আগুন জ্বালিয়ে ত্রাস সৃষ্টি করে। একপর্যায়ে রশিদ শেখের পরিবারের উপর অতর্কিতভাবে ফিল্মি স্টাইলে সন্ত্রাসী কায়দায় হামলা চালায় তারা। তাদের লোহার রডের আঘাতে রশিদ শেখসহ ভাই রেজাউল করিম(৪২), আজিজুর রহমান(৩৬) ও বোন রহিমা বেগম(৩৮) গুরুতর আহত হয়। আঘাতে আজিজুরের ডান হাত ভেঙ্গে যায়। এছাড়া ছেলে মেহেদী হাসান(২২) এবং প্রতিবেশি মোস্তফা খানকেও বেদম মারপিট করে আহত করেছে সোহাগের লোকজন। এ ঘটনায় ১ জানুয়ারী তারিখে মাদক ব্যবসায়ী সোহাগ খান, জসিম খান, সামাদ শেখ, কারিমুল শেখ, আসাদ বাগাতী, আমিনুল সরদার, শাহিনুর রহমান, মাহফুজা বেগম, দেলজান বিবি, আছিয়া বেগমসহ ৩৩ জনের বিরুদ্ধে ডুমুরিয়া থানায় একটি মামলা করা হয়। মামলা নম্বর-১। ওই মামলার বাদী মোঃ আব্দুর রশিদ শেখ জানান, আমি মাদক স¤্রাট সোহাগ বাহিনীর অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে পড়েছি। জমি-জমা সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে ৩১ ডিসেম্বর তারিখে আমার বাড়ির সকলকে বেদমভাবে পারপিট করে ওরা। বসত বাড়িতে ঢুকে আসবাবপত্র ভাংচুর করে এবং ধান ও খড়ের গাদায় আগুন জ্বালিয়ে ব্যাপক ক্ষতিসাধন করে। এছাড়া নগদ ৬০ হাজার টাকা লুট করে নিয়ে যায় ওরা। ওই মামলায় জামিনে মুক্তি পেয়ে তুলে নিতে প্রতিনিয়ত জীবন নাশের হুমকী দিয়ে যাচ্ছে সোহাগ খান। বর্তমান আমরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি।  
 
ডুমুরিয়ায় সিএইচসিপি’দের চাকুরী জাতীয়করণের দাবিতে অবস্থান কর্মসুচি
ডুমুরিয়া প্রতিনিধি

বাংলাদেশ কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার (সিএইচসিপি) দের চাকুরী জাতীয় করণের দাবীতে কেন্দ্রীয় কর্মসুচির অংশ হিসেবে ৩ দিন ব্যাপী অবস্থান কর্মসুচি পালন করছেন ডুমুরিয়া উপজেলার কমিউনিটি কিনিকের কর্মরত কর্মকর্তাচারীবৃন্দ। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চত্বরে গতকাল শনিবার সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত এ অবস্থান কর্মসুচি পালন করেন। পরে প্রধানমন্ত্রী বরাবরে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ এএসএম মারুফ হাসানের নিকট সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এক স্মারকলিপি প্রদান করেন। উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নের ৪০টি কমিউনিটি কিনিকের ৩৭জন কর্মচারী এ কর্মসুচিতে অংশ গ্রহন করে। এসময়ে উপস্থিত ছিলেন অরিন্দম রায়, বিপ্লব রায়, রিপন সরকার, পলাশ রায়, প্রশাস্ত সরকার, পল্লাদ বৈরাগী, দিপান্বিতা মন্ডল, ফাতেমা খাতুন, শিল্পী রায়, স¤্রাট খান, পারিসা ইয়াসমিন, ইদ্রিস আলী, হিল্লোল রায়, সিরাজুল ইসলাম, আমিনুর রহমান, মাহাবুর রহমান, মেনোকা কর্মকার, সীমা খাতুন, স্বপ্না মন্ডল, রাখি বিশ্বাস, সুকান্ত মন্ডল, সুধাময় রায় প্রমুখ।                          
  
মহেশপুরে পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও নবীন রবণ
মহেশপুর(ঝিনাইদহ)প্রতিনিধি

গতকাল শনিবার দুপুরে ঝিনাইদহের মহেশপুর পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয় চত্তরে এস এস সি পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও নবীন রবণ অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। পাইলট মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রঞ্জর কুমার মজুমদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বিদায় ও নবীন রবণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন ঝিনাইদহ-৩ (মহেশপুর-কোটচাঁদপুর) আসনের সংসদ সদস্য নবী নেওয়াজ। বিদায় ও নবীন রবণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পৌর মেয়র আব্দুর রশিদ খান,উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আমজাদ হেসেন,পৌর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শেখ এমদাদুল হক বুলু,স্বরুপপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আব্দুর রশিদ,উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি আমিনুর রহমান,সাধারণ সম্পাদক মনিরুল ইসলাম মনির,উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক ও পৌর কাউন্সিলর কাজি আতিয়ার রহমান,উপজেলা তাতী লীগের সভাপতি মিজানুর রহমান প্রমুখ। পরে বিদ্যালয়ের ছাত্রীদের সম্বনয়ে সাংস্কিৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে।
 
মহেশপুরে শরীকের সম্পতি ফাঁকি দিয়ে বসত ঘর নির্মানের চেষ্টা: পুলিশি বাধায় পন্ড
মহেশপুর(ঝিনাইদহ)প্রতিনিধি

ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলার সামন্তা গ্রামে শরীকের পাওনা সম্পতি বুঝিয়ে না দিয়ে তাদের সম্পতি ফাকি দিয়ে বসত ঘর নির্মান কালে পুলিশি বাধান তা পন্ড হয়ে গেছে। অবশ্য সম্পতির পাওনা দার সরফরাজ আলী মন্ডল আদালতে বন্টক নামার মামলা করেছেন। সামন্ত গ্রামের সরফরাজ আলী মন্ডল জানান,আমাদের প্রাপ্য সম্পতি থেকে জহর আলীসহ তার ভাই ও আতœীয় সজনরা আমার বঞ্চিত করে নিজেরা ওই সম্পতির উপর বসত ঘর নির্মানের কাজ শুরু করে। পরে মহেশপুর থানা পুলিশ তা বন্ধ করে দিয়েছে।
তিনি আরো জানান, গত ২০১৭ সালের ৩০ নেভেম্ব আমি আদালতে সামন্তা গ্রামের তৈয়ব আলী,জহর আলী,ফজর আলী,সুরুজ আলীসহ ৮ জনকে বিবাদি করে একটি বন্টক নামার মামলা করেছে। আর সুজগে তারা আমার পাওনা সম্পতি থেকে বঞ্চিত করার জন্যই তরি ঘরি করে ঘর নির্মানের চেষ্টা করছিলো। মহেশপুর থানার অফিসার ইনর্চাজ (ওসি) আহম্মেদ কবির জানান, শরীকের পাওনা সম্পতি বুঝিয়ে না দিয়ে তরি ঘরি করে ঘর নির্মানের কাজ শুরু করেছিলো তৈয়ব আলী,জহর আলী,ফজর আলী,সুরুজ আলী আবু তাহের, মিজানুরসহ তার শরীরা। আমি সংবাদ পাওয়ার পর তা বন্ধ করে দিয়েছি।
    
সিএইচসিপিদের অবস্থান কর্মবিরতি
মোড়েলগঞ্জে স্বাস্থ্য সেবা পাবে না দুই হাজার মা ও শিশু
এম পলাশ শরীফ,মোড়েলগঞ্জ

চাকরী জাতীয়করণ সহ ১০দফা দাবিতে কমিউনিটি হেল্থ কেয়ার প্রোভাইডরা(সিএইচসিপি) কিনিকে তালা লাগিয়ে অবস্থান কর্মসূচীতে নেমেছেন। শনিবার বেলা ১০টা থেকে বাগেরহাটের মোড়েলগঞ্জ উপজেলার ৫১টি কিনিকের সকল কর্মকর্তা কর্মচারী এই কমৃসূচীতে যোগ দেন। তারা উপজেলা হাসপাতাল চত্বরে অবস্থান নিয়েছেন। কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে শনিবার থেকে সোমবার পর্যন্ত এই কর্মসূচী চলবে।
   টানা ৩ দিন বন্ধ থাকবে ৫১টি কমিউনিটি কিনিক। ফলে স্বাস্থ্য সেবা পাবেন না গর্ভবতী মা, প্রসূতী মা, ও শিশুসহ ২ হাজার লোক। এ সময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন সিএইচসিপি মোড়েলগঞ্জ উপজেলা সভাপতি মো. সাইফুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক আল আমীন হাওলাদার, সহসভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান রুমান, দপ্তর সম্পাদক মো. ফারুক হোসেন, পপি রানী বিশ্বাস ও সুমা দাস।
বক্তারা বলেন, ‘২০১৩ সালে আমাদের চাকরী রাজস্ব খাতে নেওয়ার কথা থাকলেও আজ অবধি তা বাস্তবায়িত হয়নি। বাৎসরিক ইনক্রিমেন্ট নেই। অনিশ্চয়তাসহ মানবেতর জীবন যাপন করছি আমরা’। কর্মকর্তারা বেলা ১২টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও স্থানীয় প্রেসকাবে তাদের ১০দফা দাবি সম্বলিত স্মরকলিপি প্রাদন করেন।

ঝিনাইদহের হাটগোপালপুর সোসাইটির আত্মপ্রকাশ
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

ঝিনাইদহে ‘হাটগোপালপুর সোসাইটি’ নামে একটি স্বেচ্ছা সেবী সংগঠনের উদ্বোধন করা হয়েছে। এসময় কৃতি শিক্ষার্থীদের পুরস্কার ও অবসর প্রাপ্ত শিক্ষকদের সম্মাননা প্রদাণ করা হয়।
শনিবার দুপুরে সদর উপজেলার হাটগোপালপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে এ উপলক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। সংগঠনটির আহŸায়ক গোলাম খবির এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক জাকির হোসেন। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাম্মী ইসলাম, ঝিনাইদহ প্রেসকাবের সভাপতি এম রায়হান, পদ্মাকর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সৈয়দ নিজামুল গনি লিটু, হাটগোপালপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইউসুফ আলী, ঝিনাইদহ প্রেসকাবের সহ-সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আহমেদ। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর ড. কে এইচ এম নাজমুল হুসাইন নাজির। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন হাটগোপালপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারি প্রধান শিক্ষক তপন কুমার। হাটগোপালপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের সম্মিলিত প্রয়াসে ‘হাটগোপালপুর সোসাইটি’র উদ্বোধন করা হয়। অরাজনৈতিক এই সংগঠনটি এখন থেকে এলাকার মানুষের সকল প্রকার সুবিধা-অসুবিধায় পাশে থাকবে বলে জানা যায়। পরে কৃতি শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার ও অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষকদের সম্মাননা প্রদাণ করা হয়।

শৈলকুপায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার খালকুলা এলাকায় সড়ক দুর্ঘটনায় ১জন নিহত হয়েছেন। শনিবার দুপুরে এ দুর্ঘটনা ঘটে। শৈলকুপা থানার ওসি আলমগীর হোসেন জানান, শনিবার দুপুরে মোটর সাইকেল যোগে দু'জন ব্যক্তি খালকুলা প্রাইমারী স্কুলের পাশ দিয়ে যাচ্ছিল। ঘটনাস্থলে পৌছালে হঠাৎ করে মোটর সাইকেল গর্তে পড়ে নিয়ন্ত্রন হারিয়ে ছিটকে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই মোটর সাইকেলে পেছনে বসে থাকা ব্যক্তি নিহত হন। এ দুর্ঘটনায় মোটর সাইকেল চালক গুরুতর আহত হয়েছেন। নিহত ব্যক্তি কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার কুশলিবাসা এলাকার মৃত খন্দকার রায়হানের ছেলে খন্দকার শামসুজ্জোহা (৬০) এবং আহত ব্যক্তি একই উপজেলার ঢলনগর গ্রামের আবুল হোসেনের ছেলে নজরুল ইসলাম(৪৫)। স্থানীয়রা আহত ব্যক্তিকে উদ্ধার করে শৈলকুপা হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় শৈলকুপা থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

মহেশপুর থানার ওসি প্রত্যাহার
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

প্রশাসনিক কারণ দেখিয়ে ঝিনাইদহের মহেশপুর থানার ওসি আহম্মেদ কবীর হোসেনকে প্রত্যাহার করা হয়েছে। গেল রাতে তাকে প্রত্যাহারের নির্দেশ দেওয়া হয়।
জানা যায়, গত ৪ জানুয়ারী জেলার মহেশপুর উপজেলার পুরন্দপুর এলাকায় ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা দর্শনা গামী নৈশ কোচ সোনারতরী পরিবহনে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। ডাকাতিকালে স্বর্ণেবার সহ মূল্যবান মালামাল লুন্ঠন করা হয়। এ ঘটনায় ৭ জানুয়ারী পুলিশের পক্ষ থেকে অজ্ঞাত ৭/৮ জনকে আসামী করে সংশিষ্ট থানায় ডাকাতি মামলা দায়ের করা হয়।
এ ঘটনার পরই মহেশপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার করা হলো। এ বিষয়ে খুলনা রেঞ্জ ডি আই জি দিদারুল আলম মোবাইলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
 
দাকোপে সিএইচসিপিদের অবস্থান বর্মসূচি
দাকোপ (খুলনা) প্রতিনিধি

চাকুরী রাজস্বকরনের দাবীতে বাংলাদেশ কমিউনিটি হেল্থ কেযার প্রোভাইডার এসোসিয়েশন কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে খুলনার দাকোপে অবস্থান কর্মসুচী পালন করেছে কমিউনিটি কিনিকে কর্মরত সিএইচসিপিরা। গতকাল শনিবার সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সে উপজেলার ২২টি কমিউনিটি কিনিক বন্ধো রেখে এ অবস্থান কর্মসূচী পালন করেন। এসময় তারা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মোজাম্মেল হক নিজামীর মাধ্যমে প্রধান মন্ত্রী বরাবর স্বারকলিপি প্রদান করেন। এসময় সিএইচসিপি বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এসোসিয়েশনের দাকোপ উপজেলা শাখার সভাপতি মোঃ জাহিদুর রহমান বলেন আমাদের দাবী না মানা পর্যন্ত এ অবস্থান কর্মসূচী চলতে থাকবে।
 
দাকোপে ৯ জুয়াড়ি আটক
দাকোপ (খুলনা) প্রতিনিধি

খুলনার দাকোপে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৯ জুয়াড়িকে আটক করেছে। এঘটনায় জুয়া আইনে মামলা দায়েরর পর গতকাল শনিবার জুয়াড়ীদের জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায় শুক্রবার সন্ধ্যায় গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দাকোপ সার্কেলের সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ বদরুদ্দোজার নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে উপজেলা সদর চালনা পৌরসভার চুনকুড়ি খেয়াঘাট সংলগ্ন ইনতাজ মেম্বারের বাড়ির জুয়ার আসর থেকে ৯ জুয়াড়ীকে আটক করে। এসময় ঘটনাস্থল থেকে তাসসহ ৪৩ হাজার টাকা উর্দ্ধার করা হয়। আটক ব্যক্তিরা হলেন চালনা বাজারের মোঃ ফুলমিয়া খলিফার ছেলে জালাল খলিফা (৩০), বাজুয়া এলাকার জীতেন্দ্রনাথ দাসের ছেলে ইউপি সদস্য উৎপল কুমার দাস (৩০), চুনকুড়ি এলাকার হরিপদ মন্ডলের ছেলে উত্তম মন্ডল (২৮), একই এলাকার রনজিৎ ঢালীর ছেলে শিক্ষক সরোজিত ঢালী (৪৩), কালিনগর এলাকার মৃত মুকিম গাজীর ছেলে তাবারেক গাজী (৩২), সাহেবের আবাদ এলাকার মৃত হাজরা মন্ডলের ছেলে হরিপদ মন্ডল (৪৩), রামপাল উপজেলার ভাগা এলাকার মৃত নাজিম উদ্দিন শেখের ছেলে মোঃ ইয়াসিন শেখ (৩৩), বটিয়াঘাটা উপজেলার আমতলা গ্রামের মৃনাল রায়ের ছেলে তন্ময় রায় (২৯), একই উপজেলার কায়েমখোলা এলাকার ছহির উদ্দিন শেখের ছেলে মোঃ ওলিয়ার শেখ (৪৫)। এঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে আটক ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে শুক্রবার থানায় জুয়া আইনে মামলা দায়ের করেছে, যার মামলা নং ০৮।
 
কেশবপুরে চাকুরী জাতীয় করণের দাবীতে অবস্থান কর্মবিরতি পালন শুরু
কেশবপুর (যশোর) প্রতিনিধি

বাংলাদেশ স্বাস্থ্য বিভাগীয় সিএইচসিপি এ্যাসোসিয়েশন কেশবপুর উপজেলা শাখার উদ্যোগে কমিউনিটি কিনিকে কর্মরত সিএইচসিপিদের চাকুরী জাতীয় করণের দাবীতে কেন্দ্রীয় কর্মসূচীর আলোকে ৩ দিনের অবস্থান কর্মবিরতি পালন ২০ জানুয়ারি থেকে শুরু হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সম্মুখে অবস্থান কর্মবিরতি পালনকালে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কেশবপুর উপজেলা শাখার সভাপতি আলমগীর হোসেন, সাধারণ সম্পাদক নুরে আলম সিদ্দিকী, সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, সহ-সভাপতি মিজানুর রহমান, সহ-সভাপতি নিশাত সুলতানা রোজি, কোষাধ্যক্ষ আব্দুস সালাম, সদস্য রেশমা খাতুন, বাবুল বিশ্বাস, জাহিদুল ইসলাম, সম্পা দেবনাথ, গৌতম প্রমুখ। নেতৃবৃন্দ অবিলম্বে কমিউনিটি কিনিকে কর্মরত সিএইচসিপিদের চাকুরী জাতীয় করণের দাবী জানান।

সাংবাদিক সম্মেলনে পরিবারের অভিযোগ আড়ংঘাটায় গৃহবধূকে পরিকল্পিত হত্যা করা হয়েছে
খানজাহান আলী থানা প্রতিনিধি 

খানজাহান আলী থাান প্রেসকাবে গতকাল শনিবার সকাল ১১ টায় আড়ংঘাটা থানার পাহারপুর গ্রামের মাধব মন্ডল লিখিত অভিযোগে বলেন গত ১৪ সেপ্টেম্বর দুই লাখ টাকা  যৌতুকের দাবিতে তার কন্যা হিরা মন্ডলের  স্বামী হিরন মন্ডল, শাশুড়ি গীতা মন্ডল, সপ্না মন্ডল সহ পরিবারের সদস্যগন শারিরিক ভাবে নির্যাতন করে তার মেয়ে হিরা মন্ডল (১৯) কে পরিকল্পিত ভাবে হত্যার পর ঘরের ভিতর আড়ায় ওড়না দিয়ে মৃত দেহ ঝুলিয়ে আত্ম হত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে । মাধব মন্ডল বলেন তার মেয়ে হিরা মন্ডলের মৃত দেহে হাতের কব্জিতে ,হাতের কনুই তে রক্তাক্ত ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে নির্যাতনের চিহ্ন ছিল  যা তার মেয়ের সুরোত হালের রির্পোটে ও লেখা রয়েছে । ঘটনার দিন ১৪ সেপ্টেম্বর দুপুর ৩ টার দিকে আমার মেয়েকে নিযার্তনের করে হত্যা করে । হিরন মন্ডলের প্রতিবেশি আসে পাসের  লোক জন অমার মেয়ের আত্ম চিৎকার শুনতে পায়। মাধব মন্ডল আরো বলেন এই হত্যার বিষয়ে আমি আড়ংঘাটা থানায় গত ১৬/১০/২০১৭ ই ং তারিখ মামলা করতে গেলে থানা পুলিশ মামলা গ্রহন করেনি পরবর্তীতে নারি ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল  আদালতে একটি অভিযোগ দাখিল করি যা আগামী ১২ মার্চ  আড়ংঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে প্রতিবেদন বিজ্ঞ আদালতে দাখিল করতে বলা হয়েছে । থানায় মামলা গ্রহন না করা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে  আড়ংঘাটা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রেজাউল করিম  বলেন ঘটনার দিন ই একটি অপ মৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে যাহার নম্বও ০৮ তারিখ ১৪/১০/২০১৭।
বিবাদীগন যোগ সাজোগে ময়না তন্তের প্রতিবেদন ও থানায় মামলা করতে  সহযোগিতা না করে আদালতের স্বরনাপন্য হতে বলা একটি পরিকল্পিত হত্যাকে আত্ম হত্যা বলে চালিয়ে দেওয়া ছাড়া আর কিছুই নয় মধাব মন্ডলের এমন অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে মামলা তদন্ত কর্মকর্তা   মোঃ আবু হাসান   বলেন  মেডিকেল রিপোর্ট অনুযায়ী তদন্ত করা হচ্ছে । কাউকে বিশেষ সুযোগ দেওয়ার প্রশ্ন ই আসেনা ।          
    
চাকুরী জাতীয়করণের দাবি
শরণখোলায় সিএইচসিপিএ কর্মীদের অবস্থান কর্মসূচি শুরু
শরণখোলা প্রতিনিধি

চাকুরী জাতীয়করণের দাবিতে কেন্দ্রিয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে বাগেরহাটের শরণখোলায় কমিউনিটি কিনিকে কর্মরত কমিউিনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার এ্যাসোসিয়েশনের (সিএইচসিপিএ) কর্মীরা আন্দোলনে নেমেছে। আন্দোলনের প্রথম দিন কমিউনিটি কিনিক বন্ধ করে উপজেলার চারটি ইউনিয়নের কর্মীরা শনিবার সকাল থেকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সামনে তিন দিনের অবস্থান কর্মসূচি শুরু করেছে। এছাড়া, উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর একটি স্মারকলিপি প্রদান করেছে তারা।
শরণখোলা উপজেলা সিএইচসিপিএ’র সভাপতি রফিকুল ইসলাম শিমুল ও সাধারণ সম্পাদক রাসেল মীর বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কমিউনিটি কিনিকের মাধ্যমে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করণ এবং ডিজিটাল স্বাস্থ্যসেবা প্রদানের যে প্রত্যয় গ্রহন করেছেন তা আমরা এই “সিএইচসিপিএ” কর্মীরাই বাস্তবায়ন করছি। প্রান্তিক এ স্বাস্থ্যখাতে আমাদের অগ্রণী ভূমিকা থাকায় ২০১৩ সালে চাকরি জাতীয়করণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছিল কিন্তু আজও সেই উদ্যোগ বাস্তবায়ন হয়নি। ফলে, সারা বাংলাদেশে ১৩ হাজার সিএইচসিপিএ কর্মী আর্থিক অনটনে মানবেতর জীবনযাপন করছে। তাই আমরা সাধারণ স্বাস্থ্যকর্মীরা চাকরি জাতীয়করণের জন্য প্রধানমন্ত্রী সদয় দৃষ্টি কামনা করছি।
শরণখোলা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. অসিম কুমার সমাদ্দার বলেন, সিএইচসিপিএ কর্মীরা কমিউনিটি কিনিক বন্ধ করেই আন্দোলনে নেমেছেন। এর ফলে, মানুষ যাতে স্বাস্থ্যসেবা থেকে বঞ্চিত না হয় সেজন্য বিকল্পভাবে উপজেলার ১৯টি কমিউনিটি কিনিকই চালু রাখা হয়েছে। এসব কিনিকে স্বাস্থ্য সহকারী ও পরিবার কল্যাণ কর্মীদের নিযুক্ত করা হয়েছে। তিনি বলেন, সিএইচসিপিএ কর্মীদের কমিউনিটি বেইজড হেলথ কেয়ার (সিবিএইচসি) প্রকল্পের মাধ্যমে নিয়োগ দেয়া হয়। তারা প্রধানমন্ত্রী বরাবরে একটি স্বারকলিপি দিয়েছে। এখন চাকরি জাতীয়করণের বিষয়টি সরকারের বিবেচনার বিষয়।

খুসাসের সাহিত্য আসর
খবর বিজ্ঞপ্তি

গতকাল শনিবার বিকাল ৫ ঘটিকায় খুলনা সাহিত্য সাংস্কৃতিক সংস্থা (খুসাস) এর ৭৫৯তম সাহিত্য আসর কবি মোঃ শেখ ইকবাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। খুসাসের সহ-সাধারণ সম্পাদক কাওছারী জাহান মঞ্জু পরিচালনায় আসরে প্রধান অতিথি ছিলেন খুসাস প্রতিষ্ঠাতা কবি ও সংগঠক স.ম. হাফিজুল ইসলাম। আসরে বিশেষ অতিথি ছিলেন রেহেনা গাজী ও আসমা বেগম। কবিতা পাঠ করেন শেখ মনিরুজ্জামান লাভলু, শরিফুল আলম, রফিকুল ইসলাম কানাই, মনি সাহা, তৌহিদুর রহমান শিকারি, মোঃ রফিকুল ইসলাম, সালমা আক্তার ময়না, রিনা জাহান মিতু, রাজিব রায়, সেলিমুজ্জামান, ইছহাক বেপারী, সুলতানা আক্তার সেতু, কাওছারী জাহান মঞ্জু, শেখ অনিরুদ্ধ জামান, অর্নি জামান, সাদিয়া, মোস্তাফিজুর রহমান, মুজিবুর রহমান সজীব, রনি, রাজু প্রমুখ।

যশোরে ফটোসাংবাদিক মিটুর মৃত্যু: বিভিন্ন মহলের শোক
যশোর প্রতিনিধি

সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের সদস্য ফটোসাংবাদিক রবিউল ইসলাম মিটু (৫০) পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় আকস্মিক মৃত্যু হয়েছে।(ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন) শনিবার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে জেনারেল হাসপাতালের মধ্যে তার মৃত্যু ঘটেছে।
পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার রাতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত চারজনের মরদেহ রয়েছে যশোর জেনারেল হাসপাতাল মর্গে। এ সংবাদ পেয়ে সে বাসা থেকে বেরিয়ে মরদেহের ছবি আনার জন্য হাসপাতাল মর্গে গিয়েছিলেন। ওই চারজনের ছবি তুলে বের হয়ে সামনে আসনে। সেখানে দাড়িয়ে এক পুলিশ সদস্যের কথা বলে নিহত চারজনের পরিচয় সম্পর্কে কথা বলছিলেন। এ সময় তিনি ওই স্থানে পড়ে যায়। ওখানেই মারা যান তিনি।
সহকর্মী সাংবাদিকরা জানান, মর্গ থেকে মৃতদেহের ছবি নিয়ে মিটু সহকর্মীদের সঙ্গে হাঁটতে হাঁটতে হাসপাতালের তত্ত¡াবধায়কের বাসভবনের সামনে গিয়েছিলেন। সেখানে তিনি অন্য একটি রিপোর্টের জন্য তথ্য সংগ্রহ করছিলেন। এ সময় তিনি হঠাৎ পড়ে যায়। সহকর্মীরা জরুরি বিভাগে আনলে ডাক্তার পরীা করে তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
হাসপাতালের জরুরি বিভাগে দায়িত্বরত ডাক্তার রাশেদ রেজা জানান, হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মিটু মারা গেছেন। অসুস্থ হয়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে জরুরি বিভাগে আনা হলেও ডাক্তাররা তাকে কোনো চিকিৎসা দেওয়ার সুযোগ পাননি।
রবিউল ইসলাম মিটু যশোর শহরের ঘোপ সেন্ট্রাল রোডের বাইলেনের স্থায়ী বাসিন্দা ছিলেন। তার বাবা মৃত ইব্রাহিম মোল্লা। মিটুর দুই সন্তান,মা,তিন ভাই-বোনসহ বহু আত্মীয়-স্বজন ও শুভাকাঙ্ী রেখে গেছেন। তার ছোট মেয়ের বয়স মাত্র তিন মাস। ১৬ বছর বয়সী বড় ছেলে বাদশাহ ফয়সল ইসলামী ইনসটিটিউটের দশম শ্রেণির ছাত্র।
রবিউল ইসলাম মিটুর মৃত্যুর সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে হাসপাতালে ছুটে যান তার দীর্ঘদিনের সহকর্মীরা। দৈনিক সমাজের কাগজের প্রকাশক অলোক অধিকারী,সম্পাদক সোহরাব হোসেন,সিনিয়র রিপোর্টার গোলাম মোস্তফা মুন্না, সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের সভাপতি নূর ইসলাম, সহ-সভাপতি শহিদ জয়, সাধারণ সম্পাদক  এম আইউব, ফটো জার্নালিষ্ট এসোসিয়েশনের সভাপতি মনিরুজ্জামান মনিরসহ বিভিন্ন পত্রিকার সাংবাদিকরা। পরে তার লাশ হাসপাতাল থেকে ঘোপ বাইলেন সড়কে নিয়ে যাওয়া হয়। মিটুর আকর্ষি¥ক মৃত্যুতে হতবাক হয়ে পড়েন।
সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের সদস্য রবিউল ইসলাম মিটুর মৃত্যুতে গভীর শোক, শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা ও বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করেছেন সাংবাদিক ইউনিয়ন যশোরের সভাপতি নূর ইসলাম,সহ-সভাপতি শহিদ জয়,সাধারন সম্পাদক এম. আইউব, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা মুন্না,দপ্তর সম্পাদক তরিকুল ইসলাম তারেক,কোষাধ্যক্ষ আকরামুজ্জামান,ক্রিড়া ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক মীর কামরুজ্জামান মনি ও নির্বাহী সদস্য অনুব্রত সাহা মিঠুন প্রমুখ।
বিদ্রোহী সাহিত্য পরিষদের আজীবন সদস্য রবিউল ইসলাম মিটুর মৃত্যুতে গভীর শোক,শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা এবং বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে বিবৃতি দিয়েছেন বিদ্রোহী সাহিত্য পরিষদের সভাপতি অধ্যাপক সামসুজ্জামান,সহ-সভাপতি কাজী রকিবুল ইসলাম,আমির হোসেন মিলন, সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা মুন্না,সহ-সাধারণ সম্পাদক নূরজাহান আরা নীতি,প্রকাশনা সম্পাদক আহমদ রাজু,ভারপ্রাপ্ত দপ্তর সম্পাদক অ্যাড.আহাদ আলী লস্কার,নির্বাহী সদস্য শেখ ইমামুল কবির, আহমেদ মাহাবুব ফারুক,রফিকুল পাশা,আবুল হাসান তুহিন,প্রতিষ্ঠাতা সদস্য পদ্মনাভ অধিকারী প্রমূখ।
শনিবার ঈশাবাদ ঘোপ নওয়াপাড়া রোডে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। রাতেই ঘোপ কবরস্থানে দাফন করা হয়।

জেলা তথ্য অফিসের কর্মচারীর স্ত্রীর মৃত্যুতে বিভিন্ন মহলের শোক
খবর বিজ্ঞপ্তি

খুলনা জেলা তথ্য অফিসের কর্মচারী শেখ লিয়াকত আলীর স্ত্রী দৈনিক জন্মভুমির শিল্পাঞ্চল স্টাফ রিপোর্টার আমজাদ আলী লিটনের ভাবী নুরুননেছা মিতা (৪৫) হৃদযন্ত্রে ক্রিয়া হয়ে মৃতবরণ করেছেন (ইন্নল্লিা....রাজেউন)। চিকিৎসারত অবস্থায় গতকাল শনিবার সকাল ৯ টায় খুলনা আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।
মৃতকালে তিনি ৪ পুত্র সন্তানসহ বহু গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। এদিকে মরহুমার ম্যৃতুতে গভির শোক এবং শোক সন্তপ্ত পরিবারকে সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতি প্রদান করেছেন জেলা তথ্য অফিসের উপ-পরিচালক ম, জাভেদ ইকবাল, গাজী টিভির শেখ লিয়াকত হোসেন, বিটিভির মিজানুল ইসলাম, দৈনিক তথ্য পত্রিকার নুর হাসান জনি, দৈনিক দক্ষিন অঞ্চলের মোঃ মিলন, ভোরের কাগজের মীর মনির, জন্মভুমির খালিশপুর প্রতিনিধি শফিকুল ইসলাম অভি, দেশ সংযোগ পত্রিকার গোলাম রসুল, ফটো সাংবাদিক আঃ রাজ্জাক, শেখ শান্ত, প্রবাহের ৭ নং ওয়ার্ড প্রতিনিধ শেখ মনিরুজ্জামান মনি, আ’লীগ নেতা কাজী শাফায়েত হোসেন প্যারেট, যুবলীগ নেতা কাজী তালাত হোসেন কাউট,  ক্রিসেন্ট জুট মিলের সিবিএর সাধারণ সম্পাদক মোঃ সোহরাব হোসেন, খালিশপুর বণিক সমিতির সভাপতি আঃ মতিন বাচ্চু, হর্কাস ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক রবিউল ইমলাম, আ’লীগ নেতা আলহাজ্ব ইব্রাহিম আলী, ভুইয়া ফারুক, হাবিবুর রহমান আসলাম, আশরাফ আলী, তথ্য অফিসের কর্মচারীবৃন্দ। আসরের নামাযের পর গোয়ালখালি কবরস্থানে তাকে দফান করা হয়।  

ফুলতলায় আকিজ ফাউন্ডেশনের ৩দিনব্যাপী তাফসিরুল মাহফিল আজ
ফুলতলা প্রতিনিধি

খুলনার ফুলতলা বেজেরডাঙ্গায় আকিজ ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে ৩দিনব্যাপী আন্তর্জাতিক মানের তাফসিরুল মাহফিল আজ (রোববার) থেকে শুরু। প্রথম দিন ঢাকা গাজীপুরের হযরত মাওঃ আব্দুর রহিম আল মাদারী, ২২ জানুয়ারী সিলেট শাজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. ফয়জুল হক এবং ২৩ জানুয়ালী শেষ দিনে কুষ্টিয়ার মুফতী আমির হামজা তাফসির পেশ করবেন। এবং প্রতিদিন ঢাকার কলরব শিল্প গোষ্ঠী ইসলামী সংগীত পরিবেশন করবেন। এ ব্যাপারে আকিজ ফাউন্ডেশনের পক্ষে সেখ মোমিন উদ্দিন বলেন, বর্তমান সময়ে বিশে^র সকল মুসলমান সমাজ নির্যাতন, নিপিড়ন ও নিদারুন দুঃখ কষ্টে আছে। জাহিলিয়াতের অন্ধকার ঢাকিয়া দিয়াছে আমাদের সোনালী ভবিষ্যৎকে। প্রকৃত ঈমান আমলের দৌন্যদশা থেকেই আমাদের এই করুণ অবস্থা। তাই আমাদের এই মূহুর্তে দরকার পবিত্র কোরআন ও হাদিসের প্রকৃত জ্ঞান অর্জন। তাহলেই আমাদের মুক্তি। এ ছাড়া লাখো মানুষের বসার সকল প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে।

ফুলতলায় শহীদ আসাদুজ্জামান স্মরণ সভা
ফুলতলা প্রতিনিধি

ফুলতলায় শহীদ আসাদ-রফি গ্রন্থাগারের উদ্যোগে নিজস্ব কার্যালয়ে ঊনসত্তরের গণ অভ্যুত্থানের সূর্য সারথি শহীদ আসাদুজ্জামান স্মরণে এক আলোচনা সভা শনিবার সন্ধ্যায় অধ্যাপক আঃ রউফের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন বিএল কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ মোঃ শফিউল্লাহ, ওয়ার্কার্স পার্টি নেতা কম. আনছার আলী মোল্যা, গাজী নওশের আলী, আরিফুজ্জামান বাবলু, প্রেসকাব ফুলতলা সভাপতি তাপস কুমার বিশ^াস, ডাঃ সরোজ কুমার সুর, শিক্ষক সন্দিপন রায়, মানিক লাল কুন্ডু, আঃ হামিদ মোড়ল, প্রভাষক রেজোয়ান হোসেন রাজা, অলিপ কুমার বিশ^াস, রবীন্দ্রনাথ ব্যানার্জি, মঈন উদ্দিন ময়না, শাহীনুর কবির প্রমুখ।

পাইকগাছায় সিএইচসিপি কর্মচারীদের ৩দিনের অবস্থান কর্মসূচি শুরু
পাইকগাছা প্রতিনিধি

পাইকগাছায় কমিউনিটি কিনিকে কর্মরত সিএইচসিপি কর্মচারীরা চাকুরি জাতীয়করণের দাবীতে ৩ দিনের অবস্থান কর্মসূচি শুরুসহ প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলীপি প্রদান করেছেন। কমিউনিটি হেল্থ কেয়ার প্রভাইডার (সিএইচসিপি) এসোসিয়েশনের কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসাবে স্থানীয় কর্মচারীরা শনিবার সকাল ৯টায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেক্সের সামনে অবস্থান নিয়ে ৩ দিনের কর্মসূচী শুরু করেন। কাল সোমবার পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত অবস্থান কর্মসূচী অব্যাহত থাকবে। এছাড়া এসোসিয়েশনের প থেকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলীপি প্রদান করা হয়। কর্মসূচী পালন কালে উপস্থিত ছিলেন, এসোসিয়েশনের জেলা সাধারণ সম্পাদক অনুপম বিশ্বাস, উপজেলা সভাপতি দীপক ঘোষ, সাধারণ সম্পাদক আকবর হোসেন, মিলন কুমার সরকার, আনতারা হুমাইদা, শেখ হাসানুজ্জামান, সঞ্জয় দাশ, সুজন কুমার দে, মিল্টন মন্ডল, মারুফা খাতুন, শেখ রাসেল, শিবানী মন্ডল, অমিতা মহলদার, আমানউলাহ, সেলিনা আক্তার, উষা রানী, তারক মন্ডল, ইমন হাসান, কে এম সাইফুলাহ, ছন্দা দাশ, অযোধ্যা সানা, বেবী নাজমীন, লিপিকা মন্ডল, শরিফুল ইসলাম, রাজিয়া সুলতানা, ফিরোজা আক্তার, স্বপ্না ঘোষ, সালাম গাজী, আবুল কালাম আজাদ, শামছুন্নাহার, পূর্ণিমা মন্ডল, জাহাঙ্গীর আলম, মমতাজ বেগম, গণপতি মন্ডল ও আজহারুল ইসলাম।

পাইকগাছায় বিএমএ ও আ’লীগ নেতার শীতবস্ত্র বিতরণ
পাইকগাছা প্রতিনিধি

খুলনা জেলা আওয়ামীলীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ও বাংলাদেশ মেডিকেল এসোসিয়েশন বিএমএ’র কেন্দ্রীয় দপ্তর সম্পাদক অধ্যাপক ডাঃ শেখ মোহাম্মদ শহীদ উলাহ দুস্থ্য ও অসহায় ব্যক্তিদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেছেন।  শুক্রবার বিকালে নিজ এলাকা পুরাইকাটীতে শতাধিক দুঃস্থ ও অসহায় ব্যক্তিদের মাঝে শীতবস্ত্র কম্বল বিতরণ করেন। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য শেখ মোহাম্মদ আলী, গাজী নজরুল ইসলাম, গদাইপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ আহবায়ক নির্মল অধিকারী, কয়রা উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা শেখ আলাউদ্দীন, শেখ সেলিম, শাহাজান কবির ও ইমন।
 
সন্ত্রাসী হামলায় আহত নেতার শয্যাপাশে জেলা আ’লীগ নেতা জামাল
খবর বিজ্ঞপ্তি 
খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সন্ত্রাসী হামলায় মারাত্মক আহত দিঘলিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা মো. ফরহাদ হোসেন ফারাক কে দেখতে এবং তার চিকিৎসার খোজখবর নিতে শনিবার সকাল ১১টায় হাসপাতালে  যান খুলনা জেলা আওয়ামীলীগের সিনিয়র সাংগঠনিক সম্পাদক মো. কামরুজ্জামান জামাল। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন যুবনেতা সরদার জাকির হোসেন, জামিল খান, মাহফুজুর রহমান সোহাগ, বিধান চন্দ্র রায়, তাপস জোয়াদ্দার, মো. রেজাউল ইসলাম, পাপিয়া সরোয়ার, আতিক, হারুন মোল্ল্যা, রাসেল আহম্মেদ, মো. আলামিন এহসান ইমু প্রমুখ। 
 
আশাশুনি রিপোর্টার্স কাবের নির্বাচন আজ
আশাশুনি প্রতিনিধি

আজ আশাশুনি রিপোর্টার্স কাবের দ্বি-বার্ষিক নির্বাচন। নির্বাচন উপলক্ষে উপজেলার সর্বস্তরের সাংবাদিকদের মধ্যে সাজ-সাজ রব বিরাজ করছে। নির্বাচনে সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক, সাংগঠনিক সম্পাদক ও অর্থ সম্পাদক পদে সকাল ১১টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত উপজেলার বিআরডিবি ভবনে বিরতিহীন ভাবে ভোট গ্রহণ চলবে। নির্বাচনে প্রিজাইডিং অফিসারের দায়িত্বে আছেন আশাশুনি সরকারি কলেজের বাংলা বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক তৃপ্তি রঞ্জন সাহা।
সহকারি প্রিজাইডিং অফিসারের দায়িত্বে আছেন সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আঃ হান্নান ও আশাশুনি প্রেসকাবের উপদেষ্টা অবঃ শিক্ষক একেএম ইমদাদুল হক। নির্বাচনে কাবের সকল ভোটারদের নির্ধারিত সময়ের মধ্যে ভোট কেন্দ্রে আসার জন্য অনুরোধ জানিয়েছেন বর্তমান সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক।
 
সাংবাদিক আকাশের মায়ের মৃত্যুবার্ষিকী পালন
আশাশুনি প্রতিনিধি

আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা ্উনিয়নের হাড়িভাঙ্গা গ্রামের সাংবাদিক আকাশের মায়ের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে দোয়া অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। শুক্রবার জুম্মাবাদ মরহুমার নিজস্ব বাস ভবনে এ দোয়া অনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়। হাজিডাঙ্গা পুরাতন জামে মসজিদের ইমাম মাওঃ আব্দুল হান্নানের পরিচালনায় দোয়া মাহফিলে পবিত্র কুরআন ও হাদীস থেকে মূল্যবান আলোচনা রাখেন, হাজিডাঙ্গা নতুন জামে মসজিদের ইমাম। অনুষ্ঠানে ৯নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মতিয়ার রহমান, আকবর হোসেন, আব্বাস আলীসহ গ্রামের গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও এলাকার ধর্মপ্রাণ মুসল্লীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
 
কাদাকাটি ইউনিয়ন জাতীয় হিন্দু মহাজোটের কমিটি গঠন
আশাশুনি প্রতিনিধি

আশাশুনি উপজেলার কাদাকাটি ইউনিয়ন জাতীয় হিন্দু মহাজোটের কমিটি গঠন করা হয়েছে। শুক্রবার সন্ধ্যায় এ উপলক্ষে যদুয়ারডাঙ্গা বাজারে অনুষ্ঠিত সভায় মেম্বার অমৃত কুমার সানার সভাপতিত্বে উপজেলা জাতীয় হিন্দু মহাজোটের সভাপতি উত্তম দাশ, নির্বাহী সভাপতি কার্ত্তিক সরকার,সহ-সভাপতি বরুন কুমার মল্লিক,সম্পাদক সুজন কুমার সানা সহ উপজেলা জাতীয় হিন্দু মহাজোটের সকল পর্য়ায়ের নেতৃবৃন্দ ও এলাকাবাসীর উপস্থিতিতে এবং সর্বসম্মতিক্রমে সুকান্ত কুমার রায়কে সভাপতি ও চয়ন কুমার গাইনকে সাধারণ সম্পাদক করে ৩১ সদস্য বিশিষ্ট কাদাকাটি ইউনিয়ন জাতীয় হিন্দু মহাজোটের কমিটি গঠন করা হয়েছে।

কয়রায় বাঁশখালী কমিউনিটি কিনিকের ইন্টারফেস মিটিং
কয়রা প্রতিনিধি

উপজেলার বাগালী ইউনিয়নের বাঁশখালী কমিউনিটি কিনিকের ইন্টারফেস মিটিং অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকাল ১০টায় বাঁশখালী কমিউনিটি কিনিকের কার্যালয়ে (ইউএসএআইডি)’র অর্থায়নে নবযাত্রা প্রকল্পের সামাজিক দায়বদ্ধতা কম্পোনেটের উদ্যোগে মবং উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের সার্বিক সহযোগিতায় কিনিকের জমিদাতা নিতাই চন্দ্র মন্ডলের সভাপতিত্বে দিনব্যাপী কিøনিকের সেবা ও প্রাতিষ্ঠানিক উন্নয়নের লক্ষ্যে কমিউনিটির অংশ গ্রহনে ইন্টারফেস মিটিং অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও পরিসংখ্যান অফিসার মো. শফিকুল ইসলাম। সিদ্ধার্থ সরকার ও মো. শাহজালালের উপস্থাপনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন নবযাত্রা প্রকল্পের টেকনিক্যাল অফিসার এম জহিরুল কাইয়ুম ও বাগালী ইউপি প্যানেল চেয়ারম্যান ও ৪,৫,৬ সংরক্ষিত মহিলা সদস্য মোছাঃ হোসনেয়ারা খাতুন।
উল্লেখ্য ইউপি প্যানেল চেয়ারম্যান জনগণের দাবির প্রেক্ষিতে কিনিকের ভবন সংস্কারের জন্য ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে বরাদ্ধ দেওয়ার প্রতিশ্রæতি ব্যক্ত করেন। এছাড়া কিনিকটির তহবিল সৃষ্টি করার লক্ষ্যে উপস্থিত সদস্যদের মধ্য থেকে অর্থ প্রদানের অঙ্গিকার করেন সিদ্ধার্থ সরকার, অনুপম মিস্ত্রি, গিতা বাহাদুর, আজগর মোড়ল, নিরাঞ্জন বাহাদুর, নিতাইচন্দ্র মন্ডল, পরিমল বাহাদুর ও প্রশান্ত বাহাদুর।

তেরখাদায় সিরাতুন্নবী (সঃ) পালিত
তেরখাদ প্রতিনিধি

উপজেলার ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপিঠ সরকারি নর্থ খুলনা ডিগ্রী কলেজ এর উদ্যোগে শনিবার সকাল ১১ টায় কলেজের হলরুমে পবিত্র সিরাতুন্নবী (সঃ) এর জিবনী পর্যালোচনার আয়োজন করা হয়।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন কলেজের অধ্যক্ষ সরদার ইসমাইল হোসন। প্রধান অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. সরফুদ্দিন বিশ্বাস বাচ্চু। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি ইউপি চেয়ারম্যান এফ এম অহিদুজ্জামান, ইউপি চেয়ারম্যান কে এম আলমগীর হোসেন। সহকারী অধ্যক্ষ এস এম ইদ্রিস আলীর পরিচালনায় আরো ছিলেন অধ্যাপক শিকদার অহিদুজ্জামান লেবু, ভীষ্মদেব বিশ্বাস, ফরিদুজ্জামান, মো. জিল্লুর রহমান, দেলোয়ার হোসেন দিলু, ইখড়ি কাটেংগা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. কামারুজ্জামান, কলেজ পরিচালনা কমিটির সদস্য এফ এম মান্নান, গোলাম কিবরিয়া, সমাজ সেবক রতন আলী ফকির, উপজেলা দুর্ণীতি দমন প্রতিরোধ কমিটির সভাপতি সাহিদুল মোল্যা, নাজমুল ইসলাম, নর্থ খুলনা কলেজ মসজিদের ইমাম মোস্তফা কামাল সহ কলেজের শিক্ষক, কর্মচারীসহ শ্রেণিপেশার ব্যক্তিবর্গ। অনুষ্ঠানে নবীর জীবনী আলোচনা উপলক্ষ্যে ক্বেরাত, গজল, হামদ, নাত ইত্যাদি প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয় এবং বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।
 
ছাগলাদাহ ইউনিয়নে গরীব-দুঃস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ
তেরখাদা প্রতিনিধি

উপজেলার ছাগলাদাহ ইউনিয়নের উদ্যোগে ও খুলনা-৪ আসনের এমপি এস এম মোস্তফা রশীদি সুজার অর্থায়নে ছাগলাদাহ ইউনিয়নের গরীব ও দুস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করেন। শনিবার সকাল ১১ টায় ছাগলাদাহ ইউনিয়ন কাউন্সিলে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক খান সেলিম আহমেদের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন ছাগলাদাহ ইউপি চেয়ারম্যান এস এম দীন ইসলাম। আরো উপস্থিত ছিলেন কাজী আশরাফ, ভূইয়া লিয়াকত আলী, আবুল কালাম আজাদ, খান আজাহার আলী, মোতাহার হোসেন নান্নু, শেখ শাহাবুর, নাদিরা খানম সহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। বিতরণ অনুষ্ঠানে ছাগলাদাহ ইউনিয়নের প্রায় ২ শতাধিক গরীব ও দুস্থদের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়।

আশাশুনিতে সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ২
আশাশুনি প্রতিনিধি

আশাশুনিতে মটর সাইকেল ও ট্রলি দুর্ঘটনা কবলিত হয়ে দু’ কলেজ ছাত্র আহত হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার সকাল ১০টার দিকে। আহতদেরকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। উপজেলার গোদাড়া গ্রামের আবুল ফরহাদের পুত্র সাব্বির হোসেন ও বালিয়াপুর গ্রামের হাশেম মোল্যার পুত্র রাসেল আশাশুনি সরকারি কলেজে একাদশ শ্রেণির ছাত্র। তারা বাড়ি থেকে একটি ভাড়ায় চাালিত মটর সাইকেলে উঠে কলেজে আসছিল। ঘটনার সময় তাদের মটর সাইকেল মহিলা কলেজের অদূরে বাইপাস সড়কের কাছে পৌছলে, সামনে ইট বোঝাই ট্রলি হঠাৎ করে মোড় নিয়ে বাইপাস সড়কে ঢুকতে গেলে দ্রæত গতির মটর সাইকেলের সাথে সংঘর্ষ হয়। এতে মটর সাইকেল যাত্রী সাব্বির ও রাসেল আহত হয়। সাথে সাথে আহতদের আশাশুনি হাসপাতালে ভর্তির পর অবস্থার অবনতি হওয়ায় সাব্বিরকে এ্যাম্বুলেন্স যোগে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে রেফার করা হয়।

আশাশুনিতে সিএইচসিপিদের অবস্থান কর্মসূচি পালন
আশাশুনি প্রতিনিধি   
আশাশুনিতে কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোপাইডাররা (সিএইচসিপি) দাবী আদায়ের লক্ষ্যে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছেন। শনিবার সকাল ৯ টা থেকে বিকাল ৩ টা পর্যন্ত এ কর্মসূচি পালন করা হয়। সিএইচসিপি কেন্দ্রীয় দাবী আদায় বাস্তবায়ন কমিটির বিশেষ বর্ধিত সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক সিএইচসিপিদের চাকুরী রাজস্ব করণের দাবিতে, আশাশুনি উপজেলায় কর্মরত সিএইচসিপিবৃন্দ আশাশুনি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এর সামনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেন। ২৬ জানুয়ারি পর্যন্ত এ কর্মসূচি পালন করা হবে। রবিবার তারা উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার মাধ্যমে স্মারকলিপি প্রদান করবেন। ২৩ জানুয়ারি সিভিল সার্জন, জেলা প্রশাসক ও জেলা পরিষদের চেয়ার‌্যম্যানের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হবে। এরপর অন্যান্য কর্মসূচির মাধ্যমে দাবী আদায় না হলে ১ ফেব্রæয়ারি থেকে রাজস্ব করণের একদফা দাবী আদায় না হওয়া পর্যন্ত আমরণ অনশন শুরু করা হবে। কর্মসূচি চলাকালে বক্তব্য রাখেন সিএইচসিপি এস এম সেলিম রেজা, সেলিনা আক্তার, অমিত সরকার, হরিদাশ অধিকারী, রবিউল ইসলাম ও খায়রুল বাশার।  

আশাশুনি উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার শামসুন্নাহারকে বদলি
আশাশুনি প্রতিনিধি

আশাশুনির বহুল আলোচিত উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোসাঃ শামসুন্নাহারকে বদলি করা হয়েছে। জানাগেছে তিনি আশাশুনিতে যোগদানের পর থেকে নানা নিয়োগ ও বদলি বাণিজ্যে জড়িয়ে পড়েন। নিয়োগ কাজে ব্যাপক দূর্নীতির অভিযোগে তার বিরুদ্ধে হাইকোর্টে মামলা চলছে। তার বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগে পটুয়াখালির জেলার দশমিনা উপজেলায় বদলি করা হয়েছে বলে এক প্রজ্ঞাপনে জানা গেছে। উপ-পরিচালক (প্রশাসন) মোঃ বাহারুল ইসলাম স্বাক্ষরিত (স্মারক নং ৩৮.১০১.০১৯.০০.০০.০০৫.২০১৭.১৯ তাং ১৮ জানুয়ারি ২০১৮) পত্রে তাকে বর্তমান কর্মস্থলের দায়িত্বভার ২১ জানুয়ারি ২০১৮ তারিখের মধ্যো হস্তান্তর করতে বলা হয়েছে।

মোংলার মাকরডোন গ্রামে ভূমিদস্যু চক্রের কবলে পড়ে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ
মোংলা প্রতিনিধি

মোংলার চাঁদপাই ইউনিয়নের মাকরডোন গ্রামে একটি সন্ত্রাসী ভূমি দস্যু চক্রের কবলে পড়ে স্থানীয় এলাকাবাসী অতিষ্ঠ হয়ে উঠার অভিযোগ উঠেছে। চক্রটি প্রভাবশালী মহলের নেপথ্যের ইন্ধনে অনেকের জায়গা জমি ও বসতভিটা জবর দখল করে রেখেছে। জমির প্রকৃত মালিকরা আদালতে মামলার রায়ে জয়ী হয়েও জবর দখলকারীদের কাছ থেকে তাদের জমি দখল নিতে পারছে তো নাই উল্টো এ চক্রের নানা ষড়যন্ত্র ও চক্রান্তের কবলে পড়ে নানাভাবে হয়রানীর শিকার হচ্ছেন। ভূমি দস্যু সন্ত্রাসী চক্রটি জমির মালিকদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন মহলে মিথ্যা বানোয়াট অভিযোগ দিয়ে হেয় প্রতিপন্ন করছে।
ভূক্তভোগী এলাকাবাসীর অভিযোগে জানা গেছে, মোংলার চাঁদপাই ইউনিয়নের মাকরডোন গ্রামের ওসমান গনির ছেলে ওদুদ শেখের নেতৃত্বে গড়ে ওঠা একটি সন্ত্রাসী বাহিনীর বেপরোয়া কর্মকান্ডে এরলাকাবাসী অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। বাহিনী প্রধান ওদুদ শেখ সাম্প্রতিককালে তার সাঙ্গপাঙ্গ নিয়ে এলাকায় রাম রাজত্ব কায়েম করে চলেছে। এরা বিভিন্ন সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের পাশাপাশি ভ’মি দস্যুতা শুরু করেছে।
অভিযোগে জানা গেছে, মাকরডোন মৌজার ওসমান গনির ও তার ছেলে ওদুদ শেখের জবর দখলে থাকা ৪ একর ৫৮ শতক জমি একই এলাকার মৃত আঃ খালেক মল্লিকের ছেলে জুলফিকার মল্লিক ও অলি মল্লিক তাদের নানা মারা যাবার সূত্রে মা ও খালার জমি দাবি করে আদালতে মামলা দায়ের করেন। মামলায় রায় জুলফিকার ও অলি মল্লিকের পক্ষে গেলে ওসমান গনি ও তার ছেলে ওদুদ শেখ মরিয়া হয়ে ওঠে। অদুদ শেখ এ জমি যেন তার হাত ছাড়া না হয় সে জন্য জুলফিকার মল্লিক ও অলি মল্লিককে জব্দ করতে উঠে পড়ে লাগে। নিজ ক্রয়কৃত জমি থেকে ড্রেজারের মাধ্যমে মাটি কেটে তার বসত ভিটা ভরাট করলেও ওদুদ শেখ তার প্রতিহিংসা চরিতার্থ ও হয়রানী করতে জুলফিকার ও অলি মল্লিকের বিরুদ্ধে বিভিন্ন জায়গায় মিথ্যা ও বানোয়াট অভিযোগ প্রেরণ করে। পরবর্তিতে এ অভিযোগ মিথ্যা প্রমাণিত হলে ওদুদ শেখ এখন এদের বিরুদ্ধে প্রশাসনের বিভিন্ন জায়গায় পুনরায় অভিযোগ দিয়ে যাচ্ছে। এতে করে চরম হয়রানী ও বিপাকে পড়েছেন জুলফিকার ও অলি মল্লিক। ওদুদ শেখ এখন উল্টো এ দু’ভাইকে বিভিন্ন মামলার আসামী করাসহ জানমালের ক্ষতি করার হুমকি দিচ্ছে।
ভূক্তভোগী এলাকাবাসী জানায়, ওদুদ শেখ শুধু এ দু’ভাইকে নয়, এলাকার বিভিন্ন জায়গায় ভূমি দস্যুতা করে বেড়াচ্ছে। এছাড়া এলাকার নানা সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের সাথে ওদুদ ও তার সাঙ্গপাঙ্গরা জড়িত। তবে ওদুদ শেখ দাবি করেন, এ সকল অভিযোগ সবই মিথ্যা। তিনি কোন সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের সাথে জড়িত নয়।
এ ব্যাপারে স্থানীয় ৩ নং ওয়ার্ডের ইউপি মেম্বর মোঃ হারুন মল্লিক ও চাঁদপাই ইউপি চেয়ারম্যান মোল্লা তারিকুল ইসলাম বলেন, ওদুদ শেখের অতীতের সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের ঘটনা এলাকাবাসীর মনে হলে এখনও আতকে ইঠতে হয়। এ ব্যক্তির বিরুদ্ধে এখনও নানা অভিযোগের অন্ত নেই।

যশোর চাঁচড়া পুলিশ ফাঁড়ির পাঁচটি টিমের মাদকবিরোধী অভিযান
যশোর প্রতিনিধি

যশোর চাঁচড়া পুলিশ ফাঁড়ির পাঁচটি টিমের মাদকবিরোধী অভিযান
শনিবার বিকেলে একযোগে শহরের দণিাংশে দশটি স্পটে অভিযান চালায়। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা বলছেন,মাদক নির্মূলের পাশপাশি অপরাধমূলক কর্মকান্ড রোধে এ অভিযান চালানো হয়েছে।
চাঁচড়া পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ ইনসপেক্টর রফিকুল ইসলাম বলেন,‘এ ফাঁড়ির আওতাধীন সকল এলাকায় মাদক নির্মূল ও অপরাধমূলক কর্মকান্ড বন্ধের জন্যে পুলিশের এ অভিযান। মোট পাঁচটি টিমশহরের চাঁচড়া রায়পাড়া, শংকরপুর, ষষ্ঠিতলাপাড়া, পুলেরহাট, খোলাডাঙ্গা, খড়কী, গোয়ালদহ বাজার ও মুড়লী- এই দশটি এলাকায় এ অভিযান চলছে। এতে মাদকের বিক্রেতাদের মধ্যে ব্যাপক আতংকের সৃষ্টি হবে বলে মনে করেন পুলিশ কর্মকর্তা রফিকুল।
 
নিউসানের উদ্যোগে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ
খবর বিজ্ঞপ্তি

অলাভজনক ও স্বেচ্ছাসেবা মূলক সংগঠন নিউসানের উদ্যোগে শীতার্ত অসহায় মানুষেরর কম্বল ও শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল শনিবার এ বস্ত্র বিতরণ করা হয়।
পাইকগাছার লতা ইউনিয়নে এই উপলে আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে নিউসানের পরিচালক রায় সমীর কুমারের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন দুঃস্থ স্বাস্থ্য কেন্দ্র (ডিএসকে) এর প্রকল্প ব্যাবস্থাপক সনজিত সরকার।
এছাড়া আরও বক্তব্য রাখেন নিউসানের প্রোগ্রাম অফিসার প্রীতিশ বিশ্বাস, ফিল্ড অফিসার সুকুমার অধিকার, টিএমএস-উইন্ডকের ফিল্ড অফিসার আসাদুল ইসলাম, নিউসানের সমন্বয়ক সমীর মন্ডল, সমাজসেবক সোহারাব হাওলাদার, অনুপ সরকার প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে লতা ও দেলুটী ইউনিয়নের ৭৫ জনের মাঝে এই কম্বল বিতরণ করা হয়।

ফকিরহাটে ব্যবসায়ীর পরোলোকগমন
ফকিরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটের ফকিরহাট সদর বাজারের অমিতা জুয়েলার্স এর পরিচালক অজয় সরকার (৩২) শুক্রবার রাত আনুমানিক পৌনে দুইটার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় হৃদক্রীয়াযন্ত্র বন্দ হয়ে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পরোলোকগমন করেন। তিনি বাহিরদিয়া-মানসা ইউনিয়নের বাহিরদিয়া গ্রামের অমর সরকারের পুত্র। তিনি মৃত্যুকালে স্ত্রী, এক পুত্র সহ অসংখ্য গুনগ্রাহী রেখে গেছেন। শনিবার বিকেলে মানসা আমতলা শ্মশ্মান ঘাটে তার শেষকৃত্যনুষ্ঠান সম্পন্ন হয়েছে।
পারিবারিক সূত্র জানায়, অজয়ের আকস্মিক স্টোক জনিত রোগ দেখা দিলে তাকে খুমেক হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়। তার অকাল মৃত্যুতে ব্যবসায়ী মহলসহ এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

মানসায় পপুলার লাইফ  ইন্সুরেন্সের চেক প্রদান
ফকিরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটের ফকিরহাট পপুলার লাইফ ইন্সুরেন্স লিঃ মানসা শাখার উদ্যোগে গ্রাহকদের মাঝে ইসলামী ডিপিএস প্রকল্পের মেয়াদ পূর্তি চেক প্রদান করা হয়। শনিবার সকাল ১০টায় মানসা শাখা কার্যালয়ে চেক প্রদান অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন শাখা ব্যবস্থাপক ডাঃ এম জাকির হোসেন। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক মোঃ মিজানুর রহমান, সাংবাদিক এম জাকির হোসেন, অফিস সহকারী মোঃ সিরাজুল ইসলাম সহ স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।  

ইসলামী যুব আন্দোলনের দাওয়াতী সভার কার্যক্রম শুরু
খবর বিজ্ঞপ্তি

গতকাল শনিবার বিকাল তিনটায় আইএবি কার্যালয়ে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে দেশব্যাপী দাওয়াতী মাস ঘোষণায় ইসলামী যুব আন্দোলন খুলনা মহানগর ও জেলার উদ্যোগে " আদর্শবান যুবকরা জাগলেই জাগবে বাংলাদেশ " এই শ্লোগানকে সামনে রেখেই দাওয়াতী সভার কার্যক্রম নগর সভাপতি মুহাম্মদ ইসমাইল হোসেনের সভাপতিত্বে  ও নগর সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইমরান হোসেন মিয়ার সঞ্চালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে আলোচনা এবং উদ্ধোধন করেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ খুলনা মহানগর সহ সভাপতি শেখ মোঃ নাসির উদ্দিন। প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী যুব আন্দোলন কেন্দ্রীয় কমিটির শিল্প ও বানিজ্য বিষয়ক সম্পাদক মাওঃ আব্দুল­াহ আল মামুন।
আরও উপস্থিত ছিলেন জেলা যুব আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক হাফেজ মোঃ নাজিম ফকির, মাওঃ মোস্তাফিজুর রহমান, মোঃ মেহেদী হাসান, মোঃ ইনসান আলী, মোঃ আমজাদ হোসেন, মোঃ আল আমিন, মোঃ মাইনুল ইসলাম, মোঃ শিমুল ব্যাপারী, ডাঃ শামীম হায়দার, হাফেজ খাইরুল ইসলাম, মোঃ বাকী বিল­াহ, মাওঃ নাজিম উদ্দিন, মোঃ মনিরুল ইসলাম, মোঃ আলী  হোসেন প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।
দাওয়াতী সভায় ২০ জানুয়ারি থেকে ১৯ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত খুলনা মহানগর ও জেলার সকল পর্যায়ে যুবকদেরকে দাওয়াত দিয়ে ইসলামী যুব আন্দোলনের পতাকা তলে আসার আহবান জানান।

কেসিসি নির্বাচনে ইসলামী আন্দোলনের ২৮ নং ওয়ার্ডে প্রার্থী ঘোষণা
খবর বিজ্ঞপ্তি

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ খুলনা মহানগরীর সদর থানার অন্তর্ভুক্ত ২৮ নং ওয়ার্ডের এক জরুরী সভা গতকাল শনিবার বাদ এশা টুটপাড়া মাওলার বাড়ি মোড় অস্থায়ী কার্যালয়ে ওয়ার্ড সভাপতি  মোঃ সেলিম হালদারের সভাপতিত্বে ও সেক্রেটারি মোঃ রিপন হোসেনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত হয়।
সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ খুলনা মহানগর কমিটির সভাপতি ও কেসিসি মেয়র প্রার্থী অধ্য মাওঃ মুজ্জাম্মিল হক, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নগর সহ সভাপতি শেখ মোঃ নাসির উদ্দিন, জেলা সহ সভাপতি মাওঃ আবু সাঈদ, নগর সেক্রেটারি  মুফতী আমানুল­াহ, সদর থানার সভাপতি আলহাজ্ব আবু তাহের, সেক্রেটারি মোঃ আলমগীর হোসেন, সদর থানার বামুক সাধারণ সম্পাদক মোঃ ফেরদৌস গাজী, যুব আন্দোলন সদর থানার সভাপতি এইচ এম জুনায়েদ মাহমুদ, শ্রমিক আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ মাহাবুব হোসেন।
আরও উপস্থিত ছিলেন মোঃ বদরুজ্জামান, মোঃ ফজলুল করীম, মোঃ বাদল মীর, মোঃ ইউনূস আলী, মোঃ মিন্টু মোল­া, মোঃ জাকির, মোঃ নূর ইসলাম, মোঃ সুমন, মোঃ মারুফ, মোঃ আজিজুল ইসলাম, মোঃ আকির হোসেন, মোঃ হোসেন, মোঃ আবুল কাশেম, মোঃ রুবেল হোসেন, মোঃ আব্দুর রশীদ, মোঃ বাপ্পী, মোঃ ফজলুল করীম, মোঃ ইব্রাহীম, মোঃ আবু সাইদ, মোঃ হারুন অর রশীদ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।
সভায় সবার সম্মতিক্রমে আগামী খুলনা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের  ২৮ নং ওয়ার্ডে কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে মোঃ ফজলুল করীমের নাম ঘোষণা করা হয়।

নগরীতে স্বেচ্ছাসেবক দলের বিক্ষোভ মিছিল
খবর বিজ্ঞপ্তি

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী স্বেচ্ছাসেবক দল কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক ইয়াসিন আলীকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে খুলনা মহানগর স্বেচ্ছাসেবক দলের উদ্যোগে গতকাল শনিবার বিকালে নগরীতে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। বিক্ষো মিছিলটি নগরীর প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে ৬নং কেডি ঘোষ রোডস্থ দলীয় কার্যালয়ের সম্মূখে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে।

কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের বিদায়ী সহ-সভাপতি ও খুলনা মহানগর আহবায়ক আজিজুল হাসান দুলুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শফিকুল ইসলাম শাহীন,  ময়েজ উদ্দিন চুন্নু, একরামুল হক হেলাল, নুরুল ইসলাম লিটন, জাহাঙ্গীর হোসেন, শরিফুল ইসলাম টিপু, ওহাব শরীফ, ইকবাল হোসেন, নাসির উদ্দিন, খায়রুল বাশার, আহসান হাবীব বাবু, এম,এ হাসান, আবু তালেব, টিপু হাওলাদার, হেলাল ফরাজী, আলাউদ্দিন তালুকদার, ওহিদুজ্জামান, নজরুল ইসলাম, আফজাল হোসেন, যুবনেতা শফিকুল ইসলাম শাহীন, জাহিদুল ইসলাম, আলাউদ্দিন পাটোয়ারী, ইয়াছির সেখ, কামরুল ইসলাম, মোস্তফা জামান ভুট্টো, তুহিন খন্দকার, মোঃ সুমন, মিজানুর রহমান, মনির হোসেন, ইনসান আলী ব্যাপারী, রনি জামান, শুকুর আলী, এনামুল হক, মাসুদ রানা, জ্যোতি, স্বপন, সোহাগ প্রমুখ।

নেতৃবৃন্দ বলেন, বিনা ভোটের স্বৈরাচারী সরকার দেশব্যাপী বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করে একটি আতংকিত পরিবেশ সৃষ্টি করে আরেকটি ভোটার বিহীন নির্বাচন করার দুরভিসন্ধি বাস্তবায়ন করতে চায়। তারা বলেন মামলা দিয়ে, হামলা করে গ্রেফতার করে এই গণবিরোধী সরকারকে টিকিয়ে রাখা যাবে না। তাঁরা অবিলম্বে আব্দুল কাদির ভুইয়া জুয়েল ও ইয়াসিন আলীসহ সকল রাজবন্দীর নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন।

ফকিরহাটের পল্লীতে ডাকাতি
ফকিরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলার লখপুরের ছোট খাজুরা গ্রামে দুবাই প্রবাসী সোহাগ ভ‚ইয়ার বাড়ীতে এক দুর্ধষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে।
পুলিশ ও স্থানীয়রা জানায়, ১৯ জানুয়ারি গভীর রাতে ৮/১০ জনের সংঘবদ্ধ এক ডাকাত দল ছোট খাজুরা গ্রামের মৃত মোজাফ্ফার ভ‚ইয়ার পুত্র দুবাই প্রবাসী সোহাগ ভ‚ইয়ার ঘরের জানালার গ্রীল ভেংগে ভেতরে প্রবেশ করে। এসময় ঘরে থাকা সোহাগের মা, স্ত্রী ও সন্তানদের অস্ত্রের মুখে জিম্বি করে নগদ ১লক্ষ ২০হাজার টাকা ও ৩০ভরি স্বর্ণালংকার ও অন্যান্য জিনিসপত্র সহ ১৬লক্ষাধিক টাকার মালামাল নিয়ে গেছে। খবর পেয়ে সংশ্লিষ্ট মডেল থানার সহকারি পুলিশ সুপার (সার্কেল) মোঃ মিজানুর রহমান, অফিসার ইনচার্জ মোঃ আবু জাহিদ শেখ ও সেকেন্ড অফিসার এসআই বিধান চন্দ্র রায় ঘটনাস্থল পরির্দশন করেন।
এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ঘটনার সাথে জড়িত কেউ আটক ও কোন মালামাল উদ্ধার হয়নি। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছিল।

সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ
বটিয়াঘাটা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে অবাঞ্ছিত ঘোষণা
স্টাফ রিপোর্টার

বটিয়াঘাটা উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি রিয়াজুল ইসলাম রিপন ও সাধারণ সম্পাদক অতনু মন্ডল মাদকাসক্ত ও সংগঠন বিরোধী কার্যকলাপের অভিযোগে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করা হয়েছে। গতকাল শনিবার দুপুর সাড়ে বারোটায় খুলনা প্রেসকাবের শাহাবুদ্দিন মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ দুজনকে অবাঞ্চিত ঘোষনা করা হয়।
সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সুরখালি ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি শশাংক রায়। তিনি বলেন, ২০জুলাই উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক আহবায়ক অরবিন্দ গোলদার ও সদস্য সচিব মো. মশিউর রহমান, উপজেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি মো. আশরাফুল আলম খান, সাধারণ সম্পাদক দিলীপ হালদার আমাদের কে ছাত্রলীগের দায়িত্ব অর্পন করে। আওয়ামী প্রধান ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সকল কেন্দ্রিয় কর্মসূচি বটিয়াঘাটা উপজেলা ছাত্রলীগ পালন করে আসছে। আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে সারাদেশের ছাত্র সংগঠনের মতো বটিয়াঘাটা উপজেলার সকল ইউনিয়নের ছাত্রলীগ সু-সংগঠিত হয়ে কাজ করে যাচ্ছে। এমন সময় রাতের আধারে উপজেলার সকল ইউনিয়নের ছাত্রলীগের কমিটি বিলুপ্ত করা হয়। এ সংবাদ আমরা বিভিন্ন পত্রিকায় দেখে হতবাক হয়েছি।
তিনি সম্মেলনে বলেন, উপজেলায় যাদের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে, তারা কোনদিন সংগঠনের সক্রিয় কর্মি ছিলনা। উপজেলার সদর ইউনিয়নের যাকে দায়িত্ব দেয়া হয়েছে সে ঢাকায় গার্মেন্টেসে চাকুরি করতো। সাধারণ সম্পাদক বাড়ী ডুমুরিয়ায়। সে বটিয়াঘাটার একজন নেতার বাড়িতে কর্মচারী হিসাবে কাজ করেন। সে মাদকাসক্ত ও ব্যবসায়ি। সাবেক জেলা সভাপতি মো. আরাফাত হোসেন পল্টু ও সাধারণ সম্পাদক মো. মুশফিকুর রহমান সাগর বটিয়াঘাটা মহাবিদ্যালয়ে কমিটি গঠন করে। ওই কমিটির সাধারণ সম্পাদক মিরাজ তালুকদারের ছাত্রত্ব না থাকা এবং জালিয়াতি প্রমাণ হওয়ায় তাকে জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মো. পারভেজ হাওলাদার ও সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন ইমু বহিস্কার করে।
সম্মেলনে উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি রিয়াজুল ইসলাম রিপন ও সাধারণ সম্পাদক অতনু মন্ডলকে মাদকাসক্ত থাকা ও সংগঠন বিরোধি কার্যকলাপে থাকার অভিযোগে অবাঞ্চিত ঘোষনা করা হয়।  
এ সময় জলমা ইউনিয়নের ছাত্রলীগ সভাপতি মনিরুল ইসলাম রিংকু, সাধারণ সম্পাদক সুরজিৎ মন্ডল, সদর ইউনিয়ন সভাপতি অনিমেষ মল্লিক, সাধারণ সম্পাদক শুভ্রদেব ঢালি, সুরখালি ইউনিয়ন সাধারণ সম্পাদক শাহারিয়ার রিফাত, ভান্ডারকোট ইউনিয়ন সভাপতি মো. ইব্রাহিম শেখ, সাধারণ সম্পাদক মো. মফিজুল ইসলাম মোল্লা, বালিয়াডাঙ্গা ইউনিয়ন সভাপতি মো. শফিকুজ্জামান বুলু, সাধারণ সম্পাদক মো. ইফতেখার শেখ এবং আমীরপুর ইউনিয়ন সভাপতি মো. আশিকুজ্জামান আশিক ও সাধারণ সম্পাদক মো. রাজা খান উপস্থিত ছিলেন। 
 এ দিকে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. ইমরান হোসেন এক বিবৃত্তিতে জানিয়েছেন, সাতটি ইউনিয়নের কমিটি বিলুপ্ত হয়েছে গঠনতন্ত্র অনুসরণ করে, সংগঠনকে গতিশীল করার র্স্বাথে। খুলনা জেলা ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় নেতারা জানেন, গত ২১ জুলাই  কমিটি ঘোষণা করলে, ২০১২ সালের মেয়াদউর্ক্তীণ আহবায়বক কমিটি ব্যাকডেটে ৬ টি ইউনিয়ন কমিটি ঘোষণা করেন যা তৎকালীন খুলনা জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক  জানতেন না কিভাবে কমিটি হল। বিগত দিন থেকে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর কর্মসূচি পর্যন্ত কোন জাতীয়, স্থাণীয়, দলীয় কর্মসূচি উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের সাথে কোন ইউনিয়নে কোন কর্মসূচিতে যোগ দিতে দেখা যায়নি।

রায়ের কপি পেলেই ডাকসু নির্বাচনের উদ্যোগ নেবো: ঢাবি উপাচার্য
খুলনাঞ্চল রিপোর্ট

ডাকসু নির্বাচনের বিষয়ে আদালতের রায়ের কপি হাতে পেলেই উদ্যোগ গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান। শুক্রবার সন্ধ্যায় দেওয়া এক সাাৎকারে তিনি এ তথ্য জানিয়েছেন।
ছয় মাসের মধ্যে ডাকসু নির্বাচন দেওয়ার জন্য গত ১৭ জানুয়ারি আদালতের আদেশের পরিপ্রেেিত উপাচার্য এ কথা বলেছেন।
উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ‘নির্দেশনাটা যেহেতু আদালতের তাই এ বিষয়ে খুব বেশি মন্তব্য বা বিশ্লেষণধর্মী বক্তব্য দেওয়ার সুযোগ নেই। আদালতের রায় হাতে পাওয়ার পরেই আমরা এ বিষয়ে উদ্যোগ গ্রহণ করবো।’
উপাচার্য আরও বলেন, ‘এ আদেশের বিষয়ে আর যা বলার অন্যরা বলবেন।’
প্রসঙ্গত, ২০১২ সালের ২১ মার্চ ডাকসু নির্বাচনের পদপে নিতে নির্দেশনা চেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের তৎকালীন ২৫ জন শিার্থী হাইকোর্টে একটি রিট করেন। রিটের ওপর প্রাথমিক শুনানি নিয়ে ওই বছরের ৮ এপ্রিল রুল দেন হাইকোর্ট। রিটের ওপর শুনানি শেষে গত ১৭ জানুয়ারি ডাকসু নির্বাচন অনুষ্ঠানের জন্য আগামী ছয় মাসের মধ্যে পদপে নিতে নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। বিচারপতি সৈয়দ মোহাম্মদ দস্তগীর হোসেন ও বিচারপতি মো. আতাউর রহমান খানের সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এ সংক্রান্ত রিট আবেদনের ওপর শুনানি শেষে এ আদেশ দেন।
এর আগে, গত বছরের ১০ অক্টোবর ছয় মাসের মধ্যে সিনেট পূর্ণাঙ্গ করার নির্দেশনা দেন আদালত। সিনেট পূর্ণাঙ্গ করতে হলে ডাকসু থেকে নির্বাচিত পাঁচজন ছাত্র প্রতিনিধিও থাকার বিধান আছে। ডাকসু নির্বাচনের তিন মাস আগে তফসিল ঘোষণার বিধান রয়েছে। তবে ইতোমধ্যে এ নির্দেশনার পর তিন মাসের বেশি সময় পেরিয়ে গেলেও ডাকসুর বিষয়ে কোনও পদপে নেওয়া হয়নি।
উলে­খ্য, ডাকসু নির্বাচনের দাবিতে ধারাবাহিকভাবে বিভিন্ন ব্যানারে আন্দোলন করে আসছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিার্থীরা। তারা বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের ইচ্ছা থাকলে ডাকসু নির্বাচন আয়োজন করা খুব কঠিন কিছু নয়।’ প্রশাসনের সদিচ্ছা নেই বলেই ডাকসু নির্বাচন আটকে আছে বলে মনে করছেন শিার্থীরা।  

সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৮২তম জন্মবার্ষিকী উলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া
খবর বিজ্ঞপ্তি

খালিশপুর থানা বিএনপির উদ্যোগে থানা বিএনপির কার্যালয়ে গতকাল শনিবার বিকাল ৪ টায় সাবেক প্রেসিডেন্ট সাবেক জিয়াউর রহমানের ৮২তম জন্মবার্ষিকী উলক্ষে এক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।
খুলনা মহানগর বিএনপির যোগাযোগ সম্পাদক নিজামউর রহমান লালুর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন মহনগর নগর বিএনপির কোষাধ্যক্ষ এসএম আরিফুর রহমান মিঠু। সভায় উপস্থিত ছিলেন মো. বিপ্লবুর রহমান কুদ্দুস, কাউন্সিলর মনিরুজ্জামান মনির, মোহাম্মাদ হোসেন, কাজী শফিকুল ইসলাম শফি, মোঃ সামছুর রহমান, আলি আক্কাস, কাজী আব্দুল লতিফ, শেখ জাকির হোসেন, এইচ.এম. ডালিম, মনিরুজ্জামান মনি, খোদা বক্স কালু কোরাইশী, মোঃ মিজানুর রশিদ মিজান, কাজী ইকরাম মিন্টু, কাজী ফজলুল কবির টিটো, আজিজুর রহমান খান খোকন, আব্দুল মতিন বাচ্চু, রুহুল আমিন, ইউসুফ শিকদার, আহসান উল্লাহ, বক্কার মোল্লা, মশিউর রহমান খোকন, মোঃ জাহিদ হোসেন, মনির হোসেন, রেজাউল করিম স্বপন, বারেক হাওলাদার, শহিদুল ইসলাম মৃধা, বেল্লাল হোসেন, কাজী মিজানুর রহমান তারা, জাফর হাওলাদার, আব্দুস সালাম, হৃদয় হাসেম, মোঃ জাকির হোসেন, দেলোয়ার হোসেন নান্নু, হারুন-অর-রশিদ দাদো, শহিদুল ইসলাম শহিদ, কাজী সেলিম, পলাশ মোল্লা, সেলিম চৌধুরী, নজরুল ইসলাম, রোজাউল ইসলাম, মোঃ সেলিম হোসেন, মাহবুব হোসেন বাবুল, শেখ ফরিদ আহম্মেদ, সাইফুল ইসলাম, কামরুজ্জামান, শহিদুল ইসলাম বাবু, জোসনা খাতুন, সালমা বেগম, মোস্তাফিজুর রহমান রানা, মোতালেব হোসেন, আসলাম হোসেন রনি, মোঃ শহিদুল, আব্দুল মালেক, মনির হোসেন।





 
 

কুয়েটে হাই-টেক পার্কের মূল ভবনের নির্মাণ শুরু

স্টাফ রিপোর্টার
খুলনা প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (কুয়েট) ক্যাম্পাসে নির্মাণাধীন খুলনা হাই-টেক পার্কের আইটি ইনকিউবেশন ও ট্রেইনিং সেন্টারের প্রি-কাস্ট পাইলিং কনস্ট্রাকশন কাজ শুরু হয়েছে। গতকাল শনিবার বিকালে এ নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আলমগীর।
এসময় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের প্রজেক্ট ডাইরেক্টর (যুগ্ম সচিব) এএনএম শফিকুল ইসলাম, হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের প্রকৌশলী ও বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রকৌশলীসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, প্রায় তিন শ’ কোটি টাকা ব্যয়ে এই হাই-টেক পার্কটি নির্মিত হলে শিক্ষা ও গবেষণাসহ মেধাবীদের কর্মসংস্থানে অগ্রণী ভূমিকা পালন করবে। বিশ্বে নামকরা আইটি কোম্পানিগুলো নতুন নতুন উদ্ভাবনী প্রসারে এখানে গবেষণা করবে এবং বিনিয়োগের মাধ্যমে দক্ষ জনশক্তি  গড়ে উঠবে। কর্মকর্তারা এসময় নির্মাণ কাজের বিভিন্ন স্থান পরিদর্শণ করেন এবং কাজের অগ্রগতি সম্পর্কে খোঁজখবর নেন।

কালিয়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জেরে ১৩ জন গুলিবিদ্ধ
নড়াইল প্রতিনিধি

নড়াইলের কালিয়ায় জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের ছোড়া গুলিতে কমপক্ষে ১৩ জন আহত হয়েছেন। গত শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে কালিয়া উপজেলার নড়াগাতি থানার পানিপাড়া গ্রামে অরুণিমা রিসোর্ট গলফ কাব ও ইকোপার্কের কাছে এ ঘটনা ঘটে। নড়াগাতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বেলায়েত হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেন।
আহতরা হলেন, খাসিয়াল গ্রামের আকিদুল ইসলাম, জাকির মোল্যা, রহিম শেখ, সরোয়ার ফকির, আব্দুর রকিব, কালু মোল্যা, সাবু বিশ্বাস, আলতাফ শেখ, মিজান হোসেন, নাবিল হোসেন, মেহেদী হাসান, মো. রিপন হোসেন ও আরাফাত রহমান। গুলিবিদ্ধদের খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাদের মধ্যে মাথায় গুলিবিদ্ধ আকদুলের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। ঘটনার সময় হামলাকারীরা সেচপাম্প স্থাপনের যন্ত্রপাতিসহ টংঘর ভাঙচুর ও লুট করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার পর থেকে এলাকায় থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে।
এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, অরুণিমা রিসোর্ট গলফ কাব ও ইকোপার্কের একটি জমি নিয়ে ইকোপার্কের মালিক মোল্লা খবির উদ্দিন ও খাসিয়াল গ্রামের মিজানুর রহমান বিশ্বাসের মধ্যে দ্ব›দ্ব চলছিল। গত শুক্রবার ওই জমিতে মিজানুর রহমান বিশ্বাস স্যালোমেশিন বসাতে গেলে অরুণিমা রিসোর্ট কর্তৃপক্ষ তাদের বাধা দেয়। এসময় দু’পক্ষের মধ্যে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এক পর্যায়ে সংঘর্ষ শুরু হয়। সংঘর্ষ চলাকালে প্রতিপক্ষের গুলিতে ১৩ জন গুলিবিদ্ধ হন।
গুলি ছোড়ার কথা শিকার করে অরুণিমা গলফ কাবের ব্যবস্থাপক মোল্যা শাহাদত হোসেন বলেন, ‘প্রতিপক্ষ গ্রæপের লোকজন সংঘবদ্ধ হয়ে আমাদের গলফ কাব ও ইকো পার্কে হামলা চালালে আত্মরক্ষার্থে পার্কের লাইসেন্সকৃত বন্দুক দিয়ে গুলি ছোড়া হয়।’ তবে আহত হওয়ার বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না বলে জানান।
জমির মালিকানা দাবিকারী প্রতিপক্ষের মিজানুর রহমান বিশ্বাস বলেন, বিরোধী জমিতে স্যালোমেশিন বসাতে গেলে পার্কের মালিক খবির উদ্দিনের লোকজন অতর্কিতে আমাদের ওপর গুলি চালায়। এতে  আমার ১৩ জন গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হয়েছেন।’
নড়াগাতি থানার ওসি জানান, ঘটনা শোনার পর পরই পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। মামলা দায়েরের পস্তুতি চলছে।

জীবননগরে বুকজোড়া যমজ শিশুর জন্ম
চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি

চুয়াডাঙ্গার জীবননগরে সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে এক প্রসূতি বুকজোড়া লাগা যমজ শিশু প্রসব করেছেন। গত শুক্রবার রাতে শহরের জনতা কিনিক অ্যান্ড নার্সিং হোমে বুক জোড়ালাগা শিশু দুইটির জন্ম হয়। যমজ শিশু দুইটির যৌনাঙ্গ দেখতে না পাওয়ার কারণে তারা ছেলে না মেয়ে তার বোঝা একপ্রকার দুঃসাধ্য হয়ে পড়েছে।
নার্সিং হোমের স্বত্বাধিকারী আবুল হোসেন তোয়া জানান, ঝিনাইদহ জেলার মহেশপুর উপজেলার স্বরূপপুর গ্রামের কৃষক শফিকুল ইসলাম তার স্ত্রী জহুরা খাতুনকে (৩৪) সিজারিয়ান অপারেশনের মাধ্যমে সন্তান প্রসবের জন্য গত শুক্রবার সন্ধ্যায় জনতা কিনিক অ্যান্ড নার্সিং হোমে কিনিকে ভর্তি করেন। রাত ৮টার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সার্জারি কনসালটেন্ট ডা. রফিকুল ইসলাম মিল্টন অপারেশনের মাধ্যমে বুক জোড়ালাগা শিশু দুইটি ভূমিষ্ঠ করান। যৌনাঙ্গ শরীরের ভেতরে ঢেকে থাকায় শিশু দুইটি ছেলে না মেয়ে তা বোঝা যাচ্ছে না।
জীবননগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সার্জারি কনসালটেন্ট ডা. রফিকুল ইসলাম জানান, বুক জোড়া লাগা যমজকে পৃথক করতে হলে তাদেরকে দ্রæত ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছি। সেখানে বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শক্রমে অপারেশনের মাধ্যমে জোড়ালাগা শিশু দুইটি পৃথক করা সম্ভব বলে তিনি মতামত প্রকাশ করেন।

বাগেরহাটে নারী ইউপি সদস্যসহ দুজনকে কুপিয়ে জখম
বাগেরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটে সংরক্ষিত নারী আসনের ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য দিলরুবা খানম ও তার স্বামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা শেখ দেলোয়ার হোসেনকে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষ। গত শুক্রবার রাত সাড়ে নয়টার দিকে সদর উপজেলার সদুল্ল্যাপুর গ্রামে এ হামলার ঘটনা ঘটে। হামলার প্রতিবাদে বাগেরহাট জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগ বিক্ষোভ মিছিল করে জড়িতদের গ্রেপ্তার দাবি জানিয়েছে।
হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দিলরুবা খানম জানান, গত শুক্রবার রাতে স্থানীয় পোলেরহাট বাজার থেকে তিনি ও তার স্বামী বাড়ি ফিরছিলেন। পথে  সদুল্ল্যাপুর গ্রামে পৌঁছালে নির্বাচনে তার পরাজিত প্রতিপক্ষ খাদিজা বেগম, তার স্বামী ও ছেলে পথরোধ করেন। এসময় তারা তাদের চোখে টর্চ লাইট জ্বেলে রাখে। এতে তার স্বামী শেখ দেলোয়ার লাইট নেভাতে বললে তাদের সঙ্গে বাকবিতÐা বাঁধে। এক পর্যায়ে তারা লোহার রড় ও ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে রক্তাক্ত জখম করে চলে যায়। তাদের চিৎকারে স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।
বাগেরহাট সদর হাসপাতালের চিকিৎসক মশিউর রহমান জানান, দিলরুবা খানম ও তার স্বামী দেলোয়ার হোসেনের মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ধারলো অস্ত্র ও লোহার রডের আঘাতের চি‎হ্ন রয়েছে। তাদের বেশ রক্তক্ষরণ হয়েছে। তাদের চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। বর্তমানে আহত দুইজনই আশঙ্কামুক্ত বলে তিনি জানান।
এ হামলার ঘটনায় হামলাকারীদের অবিলম্বে গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছেন ষাটগম্বুজ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শেখ আকতারুজ্জামান বাচ্চু। বিষয়টি জানতে হামলায় অভিযুক্ত খাদিজা বেগমের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি।
বাগেরহাট মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহাতাব উদ্দিন বলেন, নারী ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য দিলরুবা খানম ও তার স্বামী সাবেক সেনা সদস্য শেখ দেলোয়ার হোসেনের উপর হামলায় জড়িতরা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছে। তাদের ধরতে পুলিশ চেষ্টা করছে। তবে থানায় এখনো  কোন মামলা হয়নি।

খুলনা জেলা জেপির জরুরি সভা
স্টাফ রিপোর্টার

খুলনা জেলা জাতীয় পার্টির (জেপি) জরুরি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার দুপুরে নগরীর মানিক মিয়া শপিং কমপ্লেক্সে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন জেলা জেপি সভাপতি অ্যাডভোকেট মো. আব্দুল মজিদ।
সভায় নেতৃবৃন্দ বলেন, বর্তমান সরকারের উন্নয়নের গতিধারাকে অব্যাহত রাখতে আমাদের সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। এছাড়া কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে চৌদ্দ দলীয় জোটের ঐক্যবদ্ধ রাখতে হবে।
এতে প্রধান আলোচক ছিলেন জেলা জেপির সাধারণ সম্পাদক মোঃ মোশারেফ হোসেন হাওলাদার।
বক্তৃতা করেন জেলা জেপির সিনিয়র সহ-সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার শরিফুল ইসলাম, গাজী আঃ ছামাদ, মোঃ নজরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক এস. এম আবু জাফর, মোঃ হায়দার আলী হাওলাদার, যুগ্ম সম্পাদক অ্যাডভোকেট মাজাহার-উল-ইসলাম মিলন, ছাত্রবিষয়ক সম্পাদক এস. এম পারভেজ, শাহজামাল, আবুল হোসেন, মিনহাজুল ইসলাম, আব্দুর রাজ্জাক, বটিয়াঘাটা সভাপতি অ্যাডভোকেট দিলিপ কুমার, সাধারণ সম্পাদক পান্না পশারী, রামকৃষ্ণ জোয়াদ্দার, ডাঃ বেলাল হোসেন প্রমুখ।

শৈলকুপায় আ’লীগের প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ৫
ঝিনাইদহ প্রতিনিধি

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় মাংস বিক্রি নিয়ে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের বিরোধের জের ধরে হামলায় পাঁচজন আহত হয়েছেন। আহত দুজনের পায়ের রগ কেটে দেয়া হয়েছে। তাদের ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। গত শুক্রবার রাত ১০টার দিকে উপজেলার  খুলুমবাড়িয়া ও বন্দেখালী গ্রামের মাঝামাঝি স্থানে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।
শৈলকপুার লাঙ্গলবাধ পুলিশ ক্যাম্পের উপ-পরিদর্শক শমিরন বাবু জানান, দীর্ঘ দিন ধরে বন্দেখালী গ্রামে আওয়ামী লীগের আবুল মেম্বর ও ধলহরাচন্দ্র ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান নজরুল ইসলামের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। গত শুক্রবার রাতে লাঙ্গলবাধ বাজার থেকে নজরুল ইসলামের ছেলে আসাদুল ইসলাম নান্নুসহ চারজন রিকশাভ্যানে করে বাড়িতে ফিরছিলেন। পথে প্রতিপক্ষ ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য  আবুলের ১৫-১৬ জন সর্মথক তাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এতে রিকশা ভ্যানচালকসহ ৫জনই আহত হন। হামলাকারীরা প্রতিপক্ষদের কুপিয়ে জখম করে পালিয়ে যায়। নান্নুসহ দুইজনের পায়ের রগ কেটে দেয়া হয়েছে। পথচারীরা তাদের উদ্ধার করে প্রথমে লাঙ্গলবাধ বাজারের একটি কিনিকে  ভর্তি করেন। পরে আহত চারজনকেই মাগুরা সদর হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় রাত সাড়ে ১১টার দিকে ফরিদপুর মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
শৈলকুপা উপজেলার ৮নম্বর ধলহরা চন্দ্র ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য চান্দ আলী জানান, গ্রামে তাদের মধ্যে মাংস বিক্রি নিয়ে নতুন করে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এর জের ধরে শুক্রবার রাতে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

‘গ্রাম আদালত সক্রিয়করণে স্থানীয় প্রশাসনের গুরুত্ব ও করণীয়’ শীর্ষক বিভাগীয় সম্মেলনে তথ্য
খুলনার গ্রাম আদালতে ১৬৫০ মামলা নিষ্পত্তি
স্টাফ রিপোর্টার

খুলনা বিভাগের তিন জেলার ১৬টি উপজেলার ১৩০টি ইউনিয়নের গ্রাম আদালতে ৫২৩টি মামলা বিচারাধীন ও অপেক্ষমাণ রয়েছে। গত নভেম্বর মাস পর্যন্ত এ সব আদালতে ২ হাজার ৪২৬টি মামলা দায়ের হয়েছে। এ সময় মামলা নিষ্পত্তি হয়েছে ১ হাজার ৬৫০টি। খারিজ, বাতিল ও উচ্চ আদালতে পাঠানো হয়েছে ২৫৩টি মামলা।
গতকাল শনিবার খুলনার একটি অভিজাত হোটেলে দিনব্যাপী ‘গ্রাম আদালত সক্রিয়করণে স্থানীয় প্রশাসনের গুরুত্ব ও করণীয়’ শীর্ষক বিভাগীয় সম্মেলনে এই তথ্য তুলে ধরা হয়। বাংলাদেশে গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ (দ্বিতীয় পর্যায়) প্রকল্পের আওতায় খুলনার স্থানীয় সরকার বিভাগ ও বিভাগীয় কমিশনারের কার্যালয় এই সম্মেলনের আয়োজন করে।
এ সম্মেলনে অংশ নিয়ে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়নে চেয়ারম্যানরা গ্রাম আদালতের ক্ষমতা বৃদ্ধিসহ থানা ও উপজেলা প্রশাসনের সঙ্গে সাংঘর্ষিক বিষয়গুলো দূর করার দাবি জানান।
সম্মেলনে পাওয়ার পয়েন্ট উপস্থাপনায় জানানো হয়, খুলনা বিভাগের মধ্যে খুলনা, বাগেরহাট ও সাতক্ষীরা জেলার ১৩০টি ইউনিয়নে গ্রাম আদালত সক্রিয়করণ (দ্বিতীয় পর্যায়) প্রকল্প বাস্তবায়ন হচ্ছে। এর মধ্যে খুলনার ৬টি উপজেলার ৪১টি ইউনিয়ন, বাগেরহাটের ৬টি উপজেলার ৪২টি ইউনিয়ন এবং সাতক্ষীরার ৪টি উপজেলার ৪৭টি ইউনিয়ন রয়েছে। এ সব ইউনিয়নের গ্রাম আদালতে দায়ের হওয়া ২ হাজার ৪২৬টি মামলার মধ্যে সরাসরি ইউপিতে দায়েরকৃত মামলার সংখ্যা ২ হাজার ১৯৭টি। বাকিগুলো আদালত ও অন্যান্য উৎস থেকে প্রাপ্ত। এর মধ্যে দেওয়ানী মামলা ১ হাজার ২৫২টি এবং ফৌজদারি মামলা ১ হাজার ১৭৪টি। এসব আদালতে সেবা গ্রহীতার সংখ্যা ৩ হাজার ৩০০ জন। সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন হয়েছে ১ হাজার ৩৮৭টি এবং ক্ষতিপূরণ আদায় হয়েছে ১ কোটি ৪৪ লাখ ২২ হাজার ২২৩ টাকা।
গ্রাম আদালত পরিচালনার জন্য খুলনার ১৩০টি ইউনিয়নে এজলাস স্থাপন করা হয়েছে। গ্রাম আদালত পরিচালনার লক্ষ্যে ৬৫টি প্রশিক্ষণের মাধ্যমে ১ হাজার ৪৩৭ ইউপি চেয়ারম্যান, প্যানেল চেয়ারম্যান, ভিসিএ ও সচিবদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। একই সঙ্গে ১৩০টি ইউনিয়নে গ্রাম আদালত সহকারী নিয়োগ এবং গ্রাম আদালত ব্যবস্থাপনা কমিটিও গঠন করা হয়েছে।
বিভাগীয় সম্মেলনে প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনার বিভাগীয় কমিশনার লোকমান হোসেন মিয়া। সভাপতিত্ব করেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) মোহাম্মদ ফারুক হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন কেএমপি’র অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার মো. মাহবুব হাকিম, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) নিশ্চিন্ত কুমার পোদ্দার, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (রাজস্ব) সুভাষ চন্দ্র সাহা, খুলনার জেলা প্রশাসক মো. আমিন উল আহসান এবং বাগেরহাটের জেলা প্রশাসক তপন কুমার বিশ্বাস।
সম্মেলনে বিভাগীয় কমিশনার লোকমান হোসেন মিয়া বলেন, স্বল্প খরচে ও স্থানীয়ভাবে বিরোধ মীমাংসার পাশাপাশি নিম্ন আদালতের দীর্ঘ মামলার জট কমানোর জন্য গ্রাম আদালতকে কার্যকর করতে জোরালো ভূমিকা পালন করতে হবে। তিনি বলেন,  গ্রাম আদালত যদি কার্যকরী হয়, তাহলে ৮০ ভাগ মামলা স্থানীয়ভাবে নিস্পত্তি করে এর মাধ্যমে গ্রাম পর্যায়ে শান্তি-শৃংখলা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।
বক্তারা প্রকল্প এলাকাসহ দেশের সব ইউনিয়ন পরিষদের আওতায় গ্রাম আদালত আরো সক্রিয় করতে গ্রাম আদালত ব্যবস্থাপনা কমিটির সভা নিয়মিতকরণ ও এর সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের সুপারিশ করেন। একইসঙ্গে তারা গ্রাম আদালতে নারীবান্ধব পরিবেশ তৈরিতে চেয়ারম্যানদের অনুকরণীয় উদ্যোগ গ্রহণ করার উপর জোর দেন।
সম্মেলনে অংশগ্রহণকারী চেয়ারম্যানরা গ্রাম আদালতের কার্যকরীকরণে গ্রাম আদালতের আর্থিক বিচারিক এখতিয়ার বৃদ্ধি ও প্রশাসনের সকল পর্যায়ে সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন। সম্মেলনে ইউপি চেয়ারম্যানসহ প্রায় ২০০ জন উপস্থিত ছিলেন।



পদ্মাসেতুর ৫৬ শতাংশ কাজ সম্পন্ন হয়েছে: কাদের

খুলনাঞ্চল রিপোর্ট
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, পদ্মা সেতু স্বপ্নের সীমানা পেরিয়ে এখন দৃশ্যমান বাস্তবতা। মূল সেতুর ৫৬ শতাংশ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। আর সার্বিক কাজের অগ্রগতি হয়েছে ৫১ দশমিক ৫ শতাংশ।
গতকাল শনিবার দুপুরে মুন্সীগঞ্জের জেলার লৌহজং উপজেলার মাওয়া এলাকায় পদ্মা সেতুর কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে পদ্মাসেতুর কাজের অগ্রগতি পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে এ কথা বলেন ওবায়দুল কাদের।
তিনি বলেন, পুরোদমে পদ্মা সেতুর কাজ এগিয়ে চলছে। সঠিক সময়েই পদ্মা সেতুর উদ্বোধন করা হবে। সরকারের অগ্রাধিকারে নাম্বার ওয়ান প্রকল্প এটি, একটা মেগা প্রজেক্ট। পদ্মার তলদেশের কন্ডিশন পরিমাপ করা খুবই চ্যালিঞ্জিং ব্যাপার। তাই চুলচেরা বিশ্লেষণ করে কোয়ালিটি সঠিক রেখে পদ্মা সেতুর কাজ এগিয়ে যাচ্ছে। পদ্মা সেতুর প্রথম স্প্যান বসানো হয়ে গেছে আগেই। আগামী চার-পাঁচ দিনের মধ্যে দ্বিতীয় স্প্যান বসানো হবে। আমি বলেছিলাম ৭-৮ দিন পরপর স্প্যান বসবে। কিছু সমস্যা হয়েছে। তবে আগামীতে ৭-৮ দিন পরপরই স্প্যান বসানো হবে।
মন্ত্রী সাংবাদিকদের জানান, এই পর্যন্ত পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তে ২৪০টি পাইলে মধ্যে ৯৩ পাইলের কাজ সম্পূর্ণ শেষ হয়েছে। আরো ১১ টি পাইলের কাজ আংশিক হয়েছে। তাছাড়া মাওয়া কনস্ট্রাকশন ইয়ার্ডে আরো ১০টি স্প্যানের ফেব্রিকেশনের কাজ চলছে। চীনে ১৬ টি স্প্যান শিপমেন্টের জন্য প্রস্তুত। বাসস

বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব: আখেরি মোনাজাত আজ
খুলনাঞ্চল রিপোর্ট

আজ রবিবার আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হচ্ছে মুসলিম বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম জমায়েত ৫৩তম বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব। এ পর্বের দ্বিতীয় দিনে শনিবার তুরাগ তীরে সোনাবান বিবির শিল্প শহর টঙ্গীর ইজতেমা ময়দানে শনিবার লাখ-লাখ মুসল্লি উদ্দেশে চলে পবিত্র কোরআন-হাদিসের আলোকে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বয়ান। আজ রবিবার সকাল ১০টা থেকে সাড়ে এগারটার মধ্যে আখেরি মোনাজাত অনুষ্ঠিত হবে বলে ইজতেমা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন। মোনাজাতের আগে অনুষ্ঠিত হবে হেদায়তি বয়ান। তাবলীগ জামাতের শীর্ষস্থানীয় মুরুব্বীদের পরামর্শের ভিত্তিতে গত পর্বের মতো এ পর্বেও তাবলিগ জামাতের মুরুব্বি বাংলাদেশের কাকরাইল মসজিদের পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মোহাম্মদ জোবায়ের আরবি ও বাংলায় আখেরি মোনাজাত পরিচলনা করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।
এদিকে গত পর্বের মতো এপর্বেও বিশ্ব ইজতেমার অন্যতম আকর্ষণ যৌতুকবিহীন বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়নি। তাবলীগ জামাতের আগামী ৫৪তম বিশ্ব ইজতেমা ২০১৯ সালের ১৮ জানুয়ারি হতে প্রথম পর্ব এবং ২৫ জানুয়ারি হতে দ্বিতীয় পর্ব টঙ্গীর তুরাগ তীরে অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছেন বিশ্ব ইজতেমার মুরুব্বী প্রকৌশলী মো. মাহফুজ।
ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে শিল্প নগরী টঙ্গী ইতোমধ্যেই ধর্মীয় নগরীতে পরিণত হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালেই টঙ্গী শহর এবং ইজতেমাস্থল ও এর আশপাশ এলাকা জনসমুদ্রে পরিণত হয়। টঙ্গীর তুরাগ তীরে বিশ্ব ইজতেমায় আগত লাখ লাখ মুসুল্লির পদভারে মুখরিত হয়ে উঠে। ইসলামী দাওয়াতের মাধ্যমে ঈমান আকিদা বিষয়ে শিক্ষা লাভ করে ইহলোকিক ও পারলৌকিক মঙ্গল কামনার জন্য মুসুল্লীরা দেশের দূর দূরান্ত থেকে ইজতেমা ময়দানে উপস্থিত হয়েছেন। শনিবারও টঙ্গী অভিমুখী বাস, ট্রাক, ট্রেন, লঞ্চসহ বিভিন্ন যানবাহনে ছিল মানুষের ভিড়। রোববার আখেরি মোনাজাতের আগ পর্যন্ত মানুষের এ ঢল অব্যাহত থাকবে। এবারের ইজতেমার শেষ দফায় ঢাকার একাংশসহ দেশের ১৩টি জেলার মুসল্লিরা ২৮ খিত্তায় অবস্থান নিয়েছেন।
আখেরি মোনাজাত উপলক্ষে মুসল্লিদের সুবিধার্থে গতকাল শনিবার দিবাগত মধ্যরাত থেকে ওই এলাকায় যানবাহন চলাচলে বিধিনিষেধ আরোপ করেছে পুলিশ। আজ রবিবার সন্ধ্যা পর্যন্ত এ বিধিনিষেধ বলবৎ থাকবে। এবারের বিশ্ব ইজতেমা নজীরবিহীন নিরাপত্তা ব্যবস্থার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রায় ১২ হাজার র‌্যাব ও পোশাকধারী পুলিশের পাশপাশি রয়েছে সাদা পোশাকে প্রায় ৩ হাজার গোয়েন্দা সদস্য। আকাশ ও নৌপথে রয়েছে র‌্যাবের সতর্ক নজরদারি।
ইজতেমার মুরুব্বিদের দেয়া তথ্যমতে, ইজতেমার মুরুব্বীদের দেয়া তথ্যমতে, ১৯৪৬ সালে প্রথম কাকরাইল মসজিদে ইজতেমার আয়োজন শুরু করা হয়। তারপর ১৯৪৮ সালে চট্টগ্রামের হাজী ক্যাম্পে ও ১৯৫৮ সালে নারায়নগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জে ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়। এরপর লোকসংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় ১৯৬৬ সালে গাজীপুরের টঙ্গীর তুরাগ নদীর তীরে বর্তমানস্থলে স্থানান্তর করা হয়েছে। পরে সরকারিভাবে তুরাগ তীরের ১৬০ একর জমি স্থায়ীভাবে ইজতেমার জন্য বরাদ্দ দেয়া হয়। মুসল্লীদের স্থান সংকূলান না হওয়ায় এবং নিরাপত্তার কথা ভেবে ২০১১ সাল থেকে দুই পর্বের ইজতেমা শুরু হয়। একই কারণে ২০১৬ হতে হতে আবারও চার পর্বে দু’বছরে ইজতেমা আয়োজনের পরিবর্তন আনা হয়। প্রথম বছর যারা (যে ৩২ জেলার মুসুল্লী) টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নেবেন তারা পরবর্তী বছর সেখানে যাবেন না। ওই বছর এসব জেলার মুসুল্লীরা নিজ নিজ জেলায় আঞ্চলিক ইজতেমায় শরিক হবেন। তবে বিদেশিরা প্রতি বছর বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নিতে পারবে। ২০১৫ সাল থেকে প্রতিবছর টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা পাশাপাশি জেলা জেলায় আঞ্চলিক ইজতেমা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। শীর্ষ পর্যায়ের মুরুব্বিরা ইজতেমার এ তারিখ নির্ধারণ করেন।

ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে ২ মুসল্লির মৃত্যু
খুলনাঞ্চল রিপোর্ট

ইজতেমার দ্বিতীয় পর্বে দুজন মুসল্লির মৃত্যু হয়েছে। টঙ্গী সরকারি হাসপাতালের নিয়ন্ত্রণকক্ষের দায়িত্বে থাকা সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক চিত্তরঞ্জন দাস দুই মুসল্লির মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
তিনি বলেন, বার্ধক্য ও শ্বাসকষ্টজনিত রোগে এই পর্বে দুজন মুসল্লি মারা গেছেন। তারা হলেন, জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার মোবারক হোসেন ওরফে মোহর আলী (৬৫) এবং ঢাকার দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ এলাকার ওমর আলীর ছেলে মো. শহীদুল ইসলাম (৫৬)। গত শুক্রবার রাত ১টার দিকে মোবারক হোসেন মারা যান। আর সকাল ছয়টার দিকে মারা যান শহীদুল ইসলাম। এর আগে ইজতেমার প্রথম পর্বে একজন বিদেশিসহ পাঁচ মুসল্লি মারা যান।
বিএনপি যথাসময়ে সহায়ক সরকারের রূপরেখা দেবে: মির্জা ফখরুল
ঢাকা অফিস
যথসময়ে বিএনপি নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকারের রূপরেখা উপস্থাপন করবে বলে জানিয়েছেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, প্রত্যেকটি বিষয়ের একটি সময় আছে। বর্তমান সরকারের অধীনে বিএনপি কোনো নির্বাচনে যাবে না বলেই সঠিক সময়েই নির্বাচনকালীন সহায়ক সরকারের রূপরেখা জাতির সামনে নিয়ে আসবে।
সরকারের উদ্দেশে বিএনপির মহাসচিব বলেন, তারা জানেন নির্বাচন যদি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে হয়, সুষ্ঠু অবাধ নির্বাচন হয়, সব মানুষ যদি ভোট দিতে পারে, তাহলে তাদের ভরাডুবি হবে। তারা কখনোই ক্ষমতায় আসতে পারবেন না।
গতকাল শনিবার দুপুরে সাবেক রাষ্ট্রপতি ও বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ৮২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে রাজধানীর নয়াপল্টন কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্পের উদ্বোধনীতে এসে বিএনপির মহাসচিব এসব কথা বলেন। দিনব্যাপী এ মেডিকেল ক্যাম্পের আয়োজন করেছে ডক্টরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব)।
মির্জা ফখরুল আরো বলেন, আওয়ামী লীগের অধীনে কখনো সুষ্ঠু নির্বাচন হবে না। তাদের বাধ্য করতে হবে সহায়ক সরকারের জন্য। আমরা সবসময় নির্বাচনের জন্য প্রস্তুত।

ফেনীতে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে গলা কেটে হত্যা
খুলনাঞ্চল রিপোর্ট

ফেনীর দাগনভূঞায় স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে গলা কেটে ও চোখ উপড়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। গত শনিবার সকালে মাতুভূঞা বাজারসংলগ্ন একটি জমি থেকে পুলিশ তার লাশ উদ্ধার করে। নিহত ফকরুল উদ্দিন চৌধুরী (৩০) আজিজ ফাজিলপুর গ্রামের আবু তাহেরের ছেলে। তিনি পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ছিলেন।
নিহতের বড় বোন শাহীনুর আক্তার জেসমিন অভিযোগ করে জানান, ১০ দিন আগে তার তার বন্ধু হিরো ও বাহাদুর ফকরুলের একটি এপাচি মোটরসাইকেল আটক করে তার কাছে ১০ হাজার টাকা দাবি করে। গত শনিবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে হিরো তাকে ফোন করে ১০ হাজার টাকা নিয়ে বাসার নিচে নামতে বলে। পরে সে তার মায়ের কাছ থেকে টাকা নিয়ে বাসার নিচে নামলে তারা তাকে মাইক্রোবাসযোগে অন্য জায়গায় নিয়ে যায়। এরপর সকালে তারা জানতে পারে তাকে চোখ উপড়ে ও গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে।
দাগনভূঞা থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ জানান, এ ঘটনায় দুই যুবককে আটক করা হয়েছে। তদন্তের স্বার্থে তাদের নাম এ মুহূর্তে প্রকাশ করা যাচ্ছে না। নিহতের মোটরসাইকেলটিও জব্দ করা হয়েছে।

উত্তরাঞ্চলে মৃদু ভূমিকম্প অনুভূত
খুলনাঞ্চল রিপোর্ট

দেশের উত্তরাঞ্চলে মৃদু ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। গত শনিবার সকাল ৭টা ১৪ মিনিট ৩০ সেকেন্ডে উত্তরাঞ্চলের কুড়িগ্রাম, দিনাজপুর, রংপুর ও লালমনিরহাট জেলায় এ ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। তবে ৪ দশমিক ৬ মাত্রার এ ভূমিকম্পে কোনো ক্ষয়ক্ষতির ঘটনা ঘটেনি।
আবহাওয়া অধিদপ্তর  সূত্র জানায়, উত্তরাঞ্চলের কুড়িগ্রাম, দিনাজপুর, রংপুর ও লালমনিরহাট জেলায় এ ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। তবে এতে কুড়িগ্রামে সবচেয়ে বেশি কম্পনের সৃষ্টি হয়।
ভূমিকম্প গবেষণা কেন্দ্র ও ইউএসজিএস সূত্রে জানা গেছে, ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল ঢাকা থেকে ২৭২ কিলোমিটার উত্তরে ভারতের আসামে ও মাটির ১০ কিলোমিটার গভীরে। বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চলসংলগ্ন ভারতের কিছু এলাকায়ও এ ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে।
এদিকে ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকার এক খবরে বলা হয়েছে, পশ্চিমবঙ্গে জলপাইগুড়ি, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহারেও এ ভূমিকম্প অনুভূত হয়েছে। এর উৎপত্তিস্থল নিম্ন আসমের কোকরাঝার জেলায় বলে উল্লেখ করেছে পত্রিকাটি।

হত্যা মামলার সালিশে পাল্টা খুন
খুলনাঞ্চল রিপোর্ট

শেরপুরে বিচারাধীন হত্যা মামলার বিষয়ে আপস-রফা করতে স্থানীয় সালিশ বৈঠকে দুই পক্ষের সংঘর্ষে মিস্টার আলী (৩২) নামে এক যুবক খুন হয়েছে। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় সদর উপজেলার চরপক্ষীমারী ইউনিয়নের টাকিমারী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত মিস্টার ওই গ্রামের মৃত শিকু মিয়ার ছেলে।
গতকাল শনিবার শেরপুর জেলা সদর হাসপাতাল মর্গে তার ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়। ওই ঘটনায় মিস্টার আলীর মা হরবালা বেগম বাদী হয়ে ১৩ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত আরও ১২-১৩ জনকে আসামি করে সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।
সদর থানার ওসি নজরুল ইসলাম জানান, গত ৮ বছর আগে শেরপুর সদর উপজেলার টাকিমারী গ্রামে কুদ্দুস হত্যা মামলার বিষয়ে আপস-রফার জন্য শুক্রবার সন্ধ্যায় বাদী ও আসামিপক্ষ স্থানীয় মাতবরদের নিয়ে এক সালিশ বৈঠকে বসে।
বৈঠকের একপর্যায়ে উভয়পক্ষ বাদানুবাদ ও সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। এ সময় বাদীপক্ষের লোকজন ক্ষিপ্ত হয়ে মিস্টারের ওপর হামলা করলে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে গত শুক্রবার রাতে তার মৃত্যু হয়।
খবর পেয়ে গতকাল শনিবার সকালে মিস্টারের লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। এ ঘটনায় মিস্টারের মা বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান চলছে বলে জানান ওসি।

১১ কেজি স্বর্ণসহ জাপানি নাগরিক আটক
ঢাকা অফিস

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ১১ কেজি স্বর্ণসহ জাপানি নাগরিক কেনগো সিবাতাকে আটক করেছে ঢাকা কাস্টমস হাউসের প্রিভেন্টিভ টিম। গতকাল শনিবার সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেন ঢাকা কাস্টমস হাউসের সহকারী কমিশনার সাইদুল ইসলাম।
তিনি জানান, গত শুক্রবার দিনগত রাত ১২টা ৪০ মিনিটে সিঙ্গাপুর থেকে শাহজালালে অবতরণ করা একটি ফাইটের যাত্রী জাপানি নাগরিক কেনগো সিবাতার কাছ থেকে এক কেজি ওজনের ১১টি স্বর্ণবার জব্দ করা হয়। গ্রিন চ্যানেলে আসার পর ওই যাত্রীকে সনাক্ত করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি স্বর্ণ থাকার কথা অস্বীকার করেন। পরে স্ক্যান করে ও শরীরে তল্লাশি চালিয়ে ১১টি স্বর্ণবার উদ্ধার করা হয়।
সাইদুল আরও জানান, জব্দ স্বর্ণের আনুমানিক বাজার মূল্য প্রায় সাড়ে ৫ কোটি টাকা। এ ঘটনায় শুল্ক আইন, ১৯৬৯ অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

আবারো বাড়ছে ঠান্ডা: চার বিভাগে শৈত্য প্রবাহ
খুলনাঞ্চল রিপোর্ট

আবারো বাড়ছে ঠান্ডা। দুই বিভাগের সম্পূর্ণ অংশ এবং অন্য তিন বিভাগের কিছু অংশ মৃদু থেকে মাঝারি ধরনের শৈত্য প্রবাহ বিরাজ করছে। ১৯৪৮ সাল থেকে আবহাওয়া অফিস আবহাওয়া পর্যবেক্ষণের পর থেকে গত ৮ জানুয়ারি বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে নিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করেছে পঞ্চগড়ের তেতুলিয়ায়। সেদিন তেতুলিয়ায় তাপমাত্রা নেমেছিল ২.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। এর আগে ১৯৬৮ সালে চা বাগার বেষ্টিত মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে তাপমাত্রা নেমেছিল ২.৮ ডিগ্রি সেলসিয়াস। অবশ্য গত ৮ জানুয়ারিতে সৈয়দপুরেও তাপমাত্রা রেকর্ড পরিমাণ নেমে যায় ২.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। ২০১৩ সালের ৯ জানুয়ারি দিনাজপুরে তাপমাত্রা নামে ৩.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস।
নাতিশীতোষ্ণ অঞ্চলের দেশ বাংলাদেশ। এখানে শীতে এতো তাপমাত্রা নামে না। কিন্তু হঠাৎ করে ৫০ বছর পর এতো তাপমাত্রা নেমে গেল কেন? এ প্রশ্নের জবাবে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হাওয়াই বিশ্ববিদ্যালয়ের ফ্যাকাল্টি এবং জয়েন্ট ইনস্টিটিউট ফর মেরিন অ্যান্ড এ্যাটমসফেরিক রিসার্চের প্যাসিফিক ইএনএসও এপ্লিকেশন কাইমেট সেন্টারের প্রধান গবেষণা বিজ্ঞানী ড. রাশেদ চৌধুরী বলেন, বাংলাদেশে হঠাৎ তীব্র শীতের অনেকগুলো কারণ এর পেছনে কাজ করছে। প্রথমত: দুর্বল লা নিনার সৃষ্টি হওয়া, মেরু অঞ্চলের
ঠান্ডা বায়ু প্রবাহ (আর্কটিক সার্কোলেশন) সৃষ্টি এবং জেট স্ট্রিমকে দায়ী করছেন আবহাওয়া গবেষকেরা। এর সাথে মেরু অঞ্চলে শুরু হয়েছে হিম শীতল বায়ু প্রবাহ (ভোরটেক্স)। ভোরটেক্স ঘড়ির কাটার বিপরীতে ঘুরে মেরু অঞ্চলের কাছে অপেক্ষাকৃত ঠান্ডা বায়ু প্রবাহ ধরে রাখতে সহায়তা করে। মেরু অঞ্চলের বিশাল এলাকার লঘুচাপ এবং ঠান্ডা বায়ু গ্রীষ্মকালে দুর্বল হয়ে যায় এবং শীতকালে শক্তিশালী ও প্রসারিত হয়ে জেট স্ট্রিমের সাথে দক্ষিণ দিকে তাড়িত হয় ঠান্ডা বায়ুর সাথে। ২০০০ সাল থেকেই জেট স্ট্রিম দুর্বল এবং গতি ধীর হতে শুরু করে। যখন এরকম ঘটে তখন মেরু অঞ্চলের বায়ু দক্ষিণ দিকে এবং কোনো কোনো সময় একেবারে দক্ষিণ দিকে নেমে যায়। চলতি জানুয়ারি মাসের চরম ঠান্ডা পড়ার পেছনে এটাও কারণ। এরকম ঘটনা ২০১৪’র জানুয়ারি মাসেও ঘটেছিল এবং আরো পেছনে ১৯৮৯, ১৯৮২ এবং ১৯৭৭ সালে এমন ঘটনা ঘটে।
বিজ্ঞানী রাশেদ চৌধুরী এ প্রসঙ্গে আরো বলেন, বাংলাদেশে তীব্র শীতের আরো একটি কারণ ঘটে থাকতে পারে। সেটা হলো মেডেন জুলিয়ান অসিলেশান (এমজেও) নামে একটি প্রক্রিয়া। এটা বিষুব রেখার (২৩.২৭ ডিগ্রি অক্ষাংশ) চারদিকে প্রতি ৩০ থেকে ৬০ বছর অন্তর অন্তর পূর্বদিকে চলে। এ বছরের বিরাজমান লা নিনা এমজেও-কে আন্তর্জাতিক তারিখ রেখার দিকে পূর্ব দিকে ঘুরতে বাধা দিচ্ছে। ফলে বর্তমান
ঠান্ডা অবস্থা দীর্ঘায়িত হচ্ছে। এমজেও’র এ অবস্থা বাংলাদেশের বর্তমান তীব্র শীত ও ঘন কুয়াশার জন্য আরেকটি প্রভাব বিস্তারকারী হিসেবে মনে করা হচ্ছে।
বাংলাদেশের আবহাওয়া অফিস বর্তমান শীতের কারণ হিসেবে সাইবেরিয়া থেকে আসার
ঠান্ডা বায়ুকে দায়ী করছে।
আবহাওয়া অফিস অবশ্য এ মাসের শুরুতে আবহাওয়া মাসব্যাপী পূর্বাভাসে আরো শৈত্য প্রবাহের ইঙ্গিত দিয়ে রেখেছিল। তবে বর্তমান শীতটা হয়তো এর আগেটার চেয়ে কিছু কম দীর্ঘায়িত হতে পারে। কারণ দিবাভাগের পরিমাণ বেড়ে যাচ্ছে। সূর্য আগের চেয়ে কিছুটা বেশি তাপমাত্রা ছড়াতে পারছে। ধীরে ধীরে আরো তাপমাত্রা বাড়বে। আগামী ফেব্রয়ারির প্রথম দিকেই দিনের বেলা অনেকটা উষ্ণ হয়ে উঠবে।
গতকাল শনিবার সারাদিনই রাজশাহী ও রংপুর বিভাগে এবং মাদারীপুর, গোপালগঞ্চ, যশোর, সাতক্ষীরা, কুষ্টিয়া ও বরিশাল অঞ্চলে মৃদু থেকে মাঝারী ধরনের শৈত্য প্রবাহ বয়ে যায়। গতকাল শনিবার দেশের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় রাজশাহীতে ৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। সর্বোচ্চ ছিল কক্সবাজারে ২৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

ধর্ষণের প্রতিশোধ নিতে খুন করে ৮ টুকরা
ঢাকা অফিস

জানুয়ারির শুরুর দিকে ঢাকার কেরাণীগঞ্জ উপজেলায় হাত-পা ও মাথাবিহীন অজ্ঞাতপরিচয় যে লাশটি পাওয়া গিয়েছিল, তাকে ধর্ষণের প্রতিশোধ নিতে খুন করা হয় বলে পুলিশ জানিয়েছে। তদন্ত শেষে তিনজনকে গ্রেপ্তারের পর পুলিশ এ হত্যাকাÐ সম্পর্কে শনিবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত তথ্য দেয়।
সংবাদ সম্মেলনে ঢাকার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো. সাইদুর রহমান বলেন, নিহত মো. মফিজুর রহমান (৪০) সাভার উপজেলার কাইসারচর ভাকুর্তা এলাকার মতিউর রহমানের ছেলে। ওই এলাকার বটতলা বাজারে তার একটি সোনার দোকান রয়েছে। তাছাড়া তিনি কবিরাজি করতেন। চলতি মাসের ২ জানুয়ারি কেরাণীগঞ্জের তারানগর ইউনিয়নের একটি ডোবা থেকে তার লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।
পুলিশ কর্মকর্তা সাইদুর বলেন, লাশ উদ্ধারের পর আশপাশের থানায় খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সাভার থানায় একটি নিখোঁজের জিডি করা হয়েছে। কিন্তু পরিবারকে খবর দিলেও তারা এসে মাথা ও হাত-পা না থাকায় লাশ শনাক্ত করতে পারেনি। পরে ডিএনও টেস্টে তার পরিচয় নিশ্চিত হয়। এরপর যে এলাকায় লাশ পাওয়া গেছে, সেই বেউতা এলাকায় অনুসন্ধানে নামে পুলিশ।
পুলিশ কর্মকর্তা সাইদুর বলেন, বেউতা এলাকার লোকজন জানায়, কবিরাজ মফিজুর মাঝেমধ্যে এই এলাকায় আল আমিনের বাড়ি গিয়ে তার স্ত্রী মাকসুদা আক্তার লাকীকে (৩১) চিকিৎসা দিতেন।
মাকসুদাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে হত্যাকাÐের তথ্য বেরিয়ে আসে। মাকসুদার দাবি, চিকিৎসার নামে বø্যাকমেইল করে মফিজুর তাকে ধর্ষণ করেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে তিনি একই এলাকার সালাহউদ্দিন (২৮) ও সাভারের ভাকুর্তা এলাকার নজরুল ইসলাম নজুর (৩০) সঙ্গে লাখ টাকায় হত্যাকাÐ ঘটানোর চুক্তি করেন বলে স্বীকার করেছেন মাকসুদা। মাকসুদা, সালাহ উদ্দিন ও নজুকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
পুলিশ কর্মকর্তা সাইদুর বলেন, গ্রেপ্তারকৃতদের স্বীকারোক্তি মোতাবেক, ৩১ ডিসেম্বর মফিজুল মাকসুদার বাড়ি তরকারির সঙ্গে তাকে বেশ কয়েকটি ঘুমের ওষুধ খাওয়ানো হয়। ঘুমিয়ে পড়লে প্রথমে ওড়না দিয়ে শ্বাসরোধ করে তাকে হত্যা করা হয়। লাশ গুম করার জন্য দেহ থেকে মাথা, হাত ও পা আলাদা করে আট টুকরা করা হয়। নজরুল ও সালাহ উদ্দিন সিএনজিচালিত অটোরিকশা করে টুকরাগুলো বিভিন্ন ডোবায় ছড়িয়ে-ছিটিয়ে ফেলে দেন। কিন্তু দেহটি ভেসে ওঠে। এর তিন দিন পর একই এলাকার আরেকটি ডোবা থেকে মাথাটি উদ্ধার করা হলেও হাত-পায়ের টুকরাগুলো এখনও উদ্ধার করা সম্ভব হয়নি বলে জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা। তিনি বলেন, পুলিশ হত্যাকাÐে ব্যবহৃত ছুরি, চাপাতি ও অটোরিকশা জব্দ করেছে।

রোহিঙ্গা সংকট মোকাবেলায় আরো সহায়তা প্রয়োজন: বিশ্বব্যাংক
খুলনাঞ্চল রিপোর্ট

বাংলাদেশে রোহিঙ্গা উদ্বাস্তু সংকট দ্রæতগতিতে বৃদ্ধি পাচ্ছে। রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ বন্ধে এবং মিয়ানমার থেকে পালিয়ে এসে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া এ সকল রোহিঙ্গার জন্য জরুরি সহায়তা প্রয়োজন। গতকাল শনিবার ঢাকায় বিশ্বব্যাংকের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা বলা হয়।
বিশ্বব্যাংকের দক্ষিণ এশিয়া আঞ্চলিক ভাইস প্রেসিডেন্ট এ্যানেট ডিক্সন কক্সবাজারে রোহিঙ্গা শিবিরগুলো পরির্দশন শেষে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে এসে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া বিপুলসংখ্যক রোহিঙ্গার আশ্রয় দেয়ার জন্য বাংলাদেশ সরকার এবং জনগণের প্রশংসা করেছেন। তিনি বলেন, বিশ্বব্যাংক কক্সবাজারে আশ্রয় গ্রহণকারী রোহিঙ্গাদের আশ্রয়দাতা এবং রোহিঙ্গা উদ্বাস্তুদের সহায়তায় বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে কাজ করতে প্রস্তুত রয়েছে। ডিক্সন বলেন, অনুপ্রবেশকারী রোহিঙ্গার সংখ্যা অনেক। কক্সবাজারের পাবর্ত্য এলাকায় যতদুর চোখ যায়, ততোদুর পযর্ন্ত লাইনের পর লাইন শুধু প্লাস্টিক শীট এবং বাশের তৈরি ছোট ছোট ঘর চোখে পড়ে। এতে অবকাঠামো এবং পানি সম্পদ ও পরিবেশের ওপর বড় ধরনের চাপ সৃষ্টি হয়েছে। এর ফলে নানা ধরনের রোগ ব্যাধি এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগের মতো কঠিন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হবে বাংলাদেশকে।
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, ডিক্সন রোহিঙ্গা শিবিরগুলো পরির্দশন করেন এবং এ সময় রোহিঙ্গা শরণার্থী ও স্থানীয় জনগণের সঙ্গে কথা বলেন। তিনি এলাকার রেজিস্ট্রেশন কেন্দ্র, স্বাস্থ্য ও খাদ্য বিতরণ কেন্দ্র. শিশু কেন্দ্র ও নারী বান্ধব স্থানগুলো ঘুরে ঘুরে দেখেন। এ সকল ব্যবস্থা রোহিঙ্গাদের সমস্যা সমাধানে সহায়তা করবে, তবে স্বাভাবিক জীবন পুনরায় শুরু করতে আরো সহায়তার প্রয়োজন।
তিনি বলেন, বাংলাদেশের সরকার ও জনগণ এ সকল অসহায় রোহিঙ্গাদের জন্য বিশাল উদারতা দেখিয়েছে। সংকট দেখা দেয়ার সঙ্গে সঙ্গে সরকারের পাশাপাশি স্থানীয় এবং আন্তর্জাতিক সাহায্য সংস্থা ও উন্নয়ন অংশীদার সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। তাদের এই সহায়তায় হাজার হাজার রোহিঙ্গার জীবন বাঁচিয়েছে। তবে রোহিঙ্গাদের জন্য আরো সহায়তার প্রয়োজন। সরকার সাহায্যের আবেদন জানালে আমরা স্থানীয় জনগণ ও রোহিঙ্গাদের জন্য আরো সাহায্য সংগ্রহ করতে পারি। এতে স্থানীয় জনগণ ও রোহিঙ্গা শরণার্থীদের সকলেই এর সুফল পাবে।
ডিক্সন কক্সবাজারে রোহিঙ্গা জনগণের সহায়তায় কাজ করছে, এমন স্থানীয় সরকারের কর্মকর্তা এবং বিভিন্ন বাংলাদেশী ও আন্তর্জাতিক ত্রাণ সংস্থার প্রতিনিধিদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন।

ইউপি সদস্যের ঘুষিতে রংমিস্ত্রি নিহত
খুলনাঞ্চল রিপোর্ট

বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলায় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সদস্যের ঘুষিতে তোফাজ্জেল হোসেন জিতেন মল্লিক (৫৫) নামে এক ব্যক্তি নিহত হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে মধ্যজিরাইল এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। তোফাজ্জেল হোসেন জিতেন মল্লিক উপজেলার দুর্গাপাশা ইউনিয়নের মধ্যজিরাইল গ্রামের নাজেম আলী মল্লিকের ছেলে। তিনি পেশায় রংমিস্ত্রি ছিলেন।
স্থানীয়রা জানায়, তোফাজ্জেলের সঙ্গে তার চাচাতো ভাই কালামের জমি নিয়ে বিরোধ ছিলো। এর ধারাবাহিকতায় সকালে সালিশ মিমাংসার জন্য দূর্গাপাশা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা লিটন সর্দারের উপস্থিতিতে উভয়পক্ষ আলোচনায় বসে। এসময় তোফাজ্জেল ছয়জন সালিশদার রাখার জন্য বললে ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য লিটন সর্দার সাতজন রাখার কথা বলেন। এ নিয়ে উভয়ের মধ্যে বাকবিতাÐা হয়। এক পর্যায়ে লিটন তোফাজ্জেলকে ঘুষি মারেন। এতে তোফাজ্জেল জ্ঞান হারিয়ে কিছুক্ষণ পরেই তিনি মারা যান।  খবর পেয়ে পুলিশ দুপুরে ঘটনাস্থলে গিয়ে তোফাজ্জেলের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।
বাকেরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মাসুদুজ্জামান জানান, ঘটনার পরপরই লিটন সর্দার পালিয়ে যান। তবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের প্রতিপক্ষ গ্রুপের কালাম মল্লিকের স্ত্রী চায়না বেগমকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

শ্রমিকদের উপহার দিতে গিয়ে নিজেই পেলেন বড় উপহার

নিজস্ব প্রতিবেদক : ‘শ্রমিকদের কাজে উৎসাহ-উদ্দীপনা যোগাতে টিভি উপহার দেওয়ার ঘোষণা দেই। শুধু ঘোষণা নয়, অ্যাডভান্স হিসেবে ওয়ালটনের ২টি এলইডি টিভিও কেনা হয়।

মার্সেল করপোরেট ক্রিকেটের শেষ আটে উঠল যারা

মার্সেল সপ্তম টি-টোয়েন্টি করপোরেট ক্রিকেট টুর্নামেন্টের কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে সেরা আট দল।

দুই কোটির কাবে ‘ডানা কাটা পরী’ চমক

‘রক্ত’ ছবির আলোচিত আইটেম গান ‘ডানা কাটা পরী’ ২ কোটি বার ইউটিউবে ভিউ (দেখা) হয়েছে। দেশের শীর্ষস্থানীয় চলচ্চিত্র প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান জাজ মাল্টিমিডিয়া ও কলকাতার এসকে মুভিজের যৌথ প্রযোজনায় নির্মিত এই ছবিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের লাস্যময়ী নায়িকা পরীমণি।
২০১৬ সালের ৬ আগস্ট অনলাইনে প্রকাশ করা হয় ছবিটির ‘ডানা কাটা পরী’ শিরোনামের গানটি। এটি গেয়েছেন ভারতীয় সঙ্গীত শিল্পী কনিকা কাপুর। গানটি প্রকাশের পর প্রায় এক বছর ৫ মাস কেটে গেছে। কিন্তু এই গানের রেশ রয়ে গেছে এখনো। গত বছরের এপ্রিলে কোটি ছাড়ানোর পর এবার দুই কোটির মাইলফলক স্পর্শ করেছে গানটি। আজ রবিবার পর্যন্ত ইউটিউবে গানটি দেখেছেন প্রায় ২ কোটি ৩ লাখ দর্শক।

 এতে বেশ উচ্ছ্বসিত ছবির নায়িকা পরীমণি। ফেসবুকে তিনি লিখেছেন, ''ডানা কাটা পরী; ২ লাখ ভিউ; লাভ ইউ অল।'' ২০১৬ সালের ১২ সেপ্টেম্বর মুক্তি পায় 'রক্ত'। এতে পরীমণি ছাড়া আরও অভিনয় করেন রোশন, আশিস বিদ্যার্থী, বিপ্লব চ্যাটার্জি, রাজা দত্ত, অমিত হাসান প্রমুখ

অনলাইন ও এসএমএস ভোট

মালিকানায় হঠাৎ পরিবর্তন বন্ধে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের পদক্ষেপ চান ব্যাংকের এমডিরা—তাঁদের এই দাবি সমর্থন করেন কি?

ভোট দিয়েছেন ৭৮৬ জন

SMS-এ ভোট করতে টাইপ করুন AM(স্পেস) হ্যাঁ=Y, না=N, মন্তব্য নেই =C লিখে পাঠিয়ে দিন 0000 নম্বরে*** বাংলাদেশের জন্য *** চার্জ প্রযোজ্য

মানসম্মত শিক্ষা প্রদানে ইসলামাবাদ কলেজিয়েট স্কুল গুরুত্বপূর্ণ ভ‚মিকা রেখে যাচ্ছে : সিটি মেয়র

ক্রীড়া প্রতিবেদক
খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান বলেছেন, মানসম্মত শিক্ষা প্রদানে ইসলামাবাদ কলেজিয়েট স্কুল গুরুত্বপূর্ণ ভ‚মিকা রেখে যাচ্ছে। শিক্ষা প্রদানের পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের খেলাধুলা, সংস্কৃতি চর্চা ও নৈতিক শিক্ষার ব্যবস্থা রাখতে হবে। দেশের স্বনামধন্য মাশরাফি বিন মোর্তজা, তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান, মোস্তাফিজুর রহমান, মিরাজুল ইসলাম-এর নাম উল্লেখ করে তিনি বলেন, এদের ক্রীড়া নৈপূন্য বিশ্ব দরবারে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে। এই অর্জন ধরে রাখতে হলে স্কুল পর্যায় থেকে শিক্ষার্থীদের খেলাধুলায় সম্পৃক্ত করতে হবে। খেলাধুলনা শিক্ষার্থীদের অনুপ্রাণীত ও আগ্রহী করতে তিনি শিক্ষক ও অভিভাবকদের প্রতি আহবান জানান।
সিটি মেয়র গতকাল শনিবার বিকেলে খুলনা সিটি কর্পোরেশন পরিচালিত ইসলামাবাদ কলেজিয়েট স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন। পরে তিনি ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন। সকালে সিটি মেয়র বেলুন ও ফেস্টুন উড়িয়ে ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন।
অধ্যক্ষ আবু দারদা মো. আরিফ বিল্লাহ’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তৃতা করেন কেসিসি’র কাউন্সিলর মো. হাফিজুর রহমান মনি, মো. আশফাকুর রহমান কাকন ও সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর মাহমুদা খাতুন। বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সদস্য প্রফেসর আবুল বাসার মোল্যা, মেহজাবিন খান, কেসিসি’র শিক্ষা ও সাংস্কৃতিক কর্মকর্তা এসকেএম তাছাদুজ্জামান, স্কুলের সহকারী অধ্যক্ষ ইমরুল কায়েস, সিনিয়র শিক্ষক নাসরিন আশরাফ সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও অভিভাবকগ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।
 
খুলনা কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

নগরীর খানজাহান নগরস্থ খুলনা কলেজের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান কলেজ প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয় গতকাল শনিবার। দিনব্যাপী ক্রীড়া প্রতিযোগিতা শেষে বিকেলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মিজানুর রহমান মিজান।
এর আগে সকালে ক্রীড়া প্রতিযোগিতা উদ্বোধন করেন খুলনা কলেজ পরিচালনা পরিষদের সভাপতি এ্যাডভোকেট রজব আলী সরদার। ক্রীড়া প্রতিযোগিতার উদ্বোধন ও পুরস্কার বিতরণী উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে কলেজ পরিচালনা পরিষদের সভাপতি এ্যাড. রজব আলী সরদারের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি খুলনা সিটি ইউনিটের সেক্রেটারী মল্লিক আবিদ হোসেন কবির, বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের খুলনা জেলা শাখার সভাপতি আলহাজ্ব শেখ আব্দুল্লাহ, বিশিষ্ট সমাজসেবক মুর্শিদা আকতার রনি ও খুলনা মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এসএম আসাদুজ্জামান রাসেল।
অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন খুলনা কলেজ পরিচালনা পরিষদের সদস্য শেখ মো. আব্দুল্লাহ, শেখ মঞ্জুরুল ইসলাম,  খুলনা প্রেসকাবের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মো. জাকির হোসেন, সাবেক কাউন্সিলর মামনুরা জাকির খুকুমনি, সমাজসেবক মো. শফিকুল আলম তুহিন, মো. শাহজাহান পারভেজ, আলহাজ্ব মো. মোতালেব মিয়া, শেখ আবু দাউদ, আলহাজ্ব শেখ আবু সুফিয়ান, শাহ্ মামুনুর রহমান তুহিন। বক্তব্য রাখেন খুলনা কলেজের অধ্যক্ষ শেখ আবুল কালাম আজাদ। সমগ্র অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন অধ্যাপক মো. আবুল বাসার।
দিনব্যাপী ক্রীড়া প্রতিযোগিতার বিভিন্ন পর্ব সার্বিকভাবে পরিচালনা করেন অধ্যাপক মো. আজম খান, ক্রীড়া প্রতিযোগিতা উদযাপন কমিটির আহবায়ক অধ্যাপক এসএম আতিকুল্লাহ,  অধ্যাপক এস এম রিজাউল হক, অধ্যাপক অচিন্ত্য কুমার শীল, অধ্যাপক মোসাম্মৎ মাহমুদা খাতুন, অধ্যাপক মোর্শেদা ফেরদৌসী, অধ্যাপক সেলিম আমীর, অধ্যাপক মো. মিজানুর রহমান, অধ্যাপক মৃনাল কান্তি সরকার, অধ্যাপক মোস্তফা আবু রায়হান, অধ্যাপক কাজী শাহানা জান্নাত, অধ্যাপক মো. আমিনুল ইসলাম, অধ্যাপক মো. মাসুম আলীম, অধ্যাপক জিএম আবুল কাশেম আল মাহ্দী, অধ্যাপক উত্তম কুমার শীল, অধ্যাপক সাবিনা আহমেদ, অধ্যাপক মো. নাসির উদ্দিন তালুকদার, অধ্যাপক আঞ্জুমানারা খাতুন, অধ্যাপক জেসমিন সুলতানা, অধ্যাপক রেশমা পারভীন, অধ্যাপক শামীমা সিদ্দিকী, অধ্যাপক শেখ শামাউন উল্লাহ, অধ্যাপক মো. ওয়ালিউল্লাহ, অধ্যাপক নার্গিস পারভীন, অধ্যাপক আয়েশা সিদ্দিকা, অধ্যাপক প্রণব রায়, শরীরচর্চা শিক্ষক মো: ফিরোজ আরিফিন, প্রদর্শক এসএম আব্দুল জলিল, লাইব্রেরিয়ান এসএম মঞ্জুরুল হক প্রমুখ।
 
সরকারি ইকবালনগর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের পুরস্কার বিতরণ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

সরকারি ইকবালনগর মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে বিদ্যালয় প্রাঙ্গনে ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও বিকেলে পুরস্কার বিতরণ করা হয়।
ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক অনুভা রানী রায়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মিজানুর রহমান মিজান। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা খোন্দকার রুহুম আমিন ও বিদ্যালয়ের সাবেক প্রধান শিক্ষক মুক্তিযোদ্ধা স্বপন কুমার সরকার। বক্তৃতা করেন নগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম আসাদুজ্জামান রাসেল।
প্রধান অতিথি বেলুন ও শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে এর উদ্বোধন করেন। সহা¯্রাধিক প্রতিযোগি ২৮টি ইভেন্টে অংশ গ্রহণ করেন। বিশেষ আকর্ষণ ছিল অতিথিদের বেলুন রক্ষা করা খেলা। ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পাশাপাশি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও নৃত্য পরিবেশন করা হয়।
 
তালায় ৮ দলীয় ফুটবল টুনামেন্টের উদ্বোধন
তালা প্রতিনিধি

তালা উপজেলার মহান্দী হাইস্কুল মাঠে ৮ দলীয় নকআউট ফুটবল টুর্নামেন্টের  উদ্বোধন করা হয়েছে। মহান্দী স্পোর্টিং কাবের আয়োজনে গতকাল শনিবার বিকালে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন সাতক্ষীরা-১ (তালা-কলারোয়া) আসনের সংসদ সদস্য এ্যাড. মুস্তফা লুৎফুল্লাহ। 
মহান্দী স্পোর্টিং কাবের সভাপতি সিরাজুল ইসলাম মোড়লের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তালা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমার, তালা প্রেসকাব সভাপতি প্রভাষক প্রনব ঘোষ বাবলু, তালা সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সরদার জাকির হোসেন, নগরঘাটা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান লিপু, সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সরদার ইমান আলী, তালা প্রেসকাবের সাধারণ সম্পাদক সরদার মশিয়ার রহমান প্রমুখ। উদ্বোধনী খেলায় ডুমুরিয়া উপজেলার চুকনগরের নরনিয়া ফুটবল একাদশ টাইব্রেকারে হাজরাকাটি যুব স্পোর্টিং কাবকে পরাজিত করে।
 
আশাশুনির কাদাকাটিতে ভলিবল টুর্নামেন্টে মাটিয়াডাঙ্গা রুপালী সংঘ চ্যাম্পিয়ান
আশাশুনি প্রতিনিধি

আশাশুনি উপজেলার কাদাকাটি ইউনিয়নের পূর্ব কাদাকাটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে আটদলীয় ভলিবল টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার বিকাল ৪টায় ফাইনালে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার মাটিয়াডাঙ্গা রুপালী যুব সংঘ ২-১ সেটে আশাশুনির তেঁতুলিয়া যুব সংঘকে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ান হওয়ার গৌরব অর্জন করে।
খেলাটি পরিচালনা করেন মাষ্টার চিত্তরঞ্জন রায় ও দিপংকর কুমার মন্ডল। পুরষ্কার বিতরনী অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন মাধব চন্দ্র মন্ডল। পূর্ব কাদাকাটি অনন্ত যুব সংঘ ও সুশীলা-ই- পাঠাগারের আয়োজনে খেলাটির শুভ উদ্ধোধন করেন কাদাকাটি ইউপি চেয়ারম্যান দিপংকর কুমার সরকার। এসময় সদর থানার এসআই মোমরেজ আলী, মেম্বর অমৃত কুমার সানা, সাবেক মেম্বর ইয়াকুব আলী বেগ, সমাজ সেবক তুহিনউল্লাহ তুহিন, কাদাকাটি ইউনিয়ন পূজা উদ্যাপন পরিষদ সভাপতি প্রবোধ চন্দ্র মন্ডল, সম্পাদক বাপন মিত্রসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও শতশত দর্শক খেলাটি উপভোগ করেন।

মুক্তিযোদ্ধাকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে ব্রাদার্স
ক্রীড়া প্রতিবেদক

ওয়ালটন স্বাধীনতা কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে ‘বি’ গ্রুপে প্রথম ম্যাচে ফরাশগঞ্জ স্পোর্টিং কাবের কাছে ২-১ গোলে হেরেছিল ব্রাদার্স ইউনিয়ন। আর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র প্রথম ম্যাচে ফরাশগঞ্জের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করেছিল। দুই ম্যাচের ১টি জিতে ও অন্যটিতে ড্র করে ৪ পয়েন্ট নিয়ে আগেই কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছিল ফরাশগঞ্জ।
তবে ঝুলে ছিল মুক্তিযোদ্ধা ও ব্রাদার্সের ভাগ্য। কোয়ার্টার ফাইনালে যেতে গতকাল শনিবার গ্রুপপর্বের শেষ ম্যাচে ব্রাদার্সের সঙ্গে কোনোভাবে ড্র করাই ছিল যথেষ্ট মুক্তিযোদ্ধার জন্য। অন্যদিকে জয়ের বিকল্প ছিল না ব্রাদার্সের। গতকাল মুক্তিযোদ্ধাকে ড্র করার সুযোগ দেয়নি ব্রাদার্স। তাদের ১-০ গোলে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে ফরাশগঞ্জের সঙ্গী হয়েছে ব্রাদার্স ইউনিয়ন। আর ওয়ালটন স্বাধীনতা কাপের গ্রুপপর্ব থেকেই বিদায় নিয়েছে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র।

শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে ফাইনাল খেলতে চায় জিম্বাবুয়ে
ক্রীড়া প্রতিবেদক

ত্রিদেশীয় সিরিজে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশের কাছে হেরে গেলেও দ্বিতীয় ম্যাচেই ঘুরে দাঁড়িয়ে শ্রীলঙ্কার বিপে জয় তুলে নিয়েছে জিম্বাবুয়ে। ফাইনাল খেলতে দুই ম্যাচের একটিতে জয় প্রয়োজন দলটির। আর শ্রীলঙ্কার বিপে জয় দিয়েই ফাইনাল নিশ্চিত করতে চায় ক্রেমার বাহিনী। সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই জানালেন দলটির তারকা ব্যাটসম্যান ক্রেইগ আরভিন।
এরই মধ্যে টানা দুই ম্যাচ জিতে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ। ফাইনালের পথে অনেকটাই এগিয়ে আছে শ্রীলঙ্কাকে হারানো জিম্বাবুয়ে। ফাইনাল খেলা নিয়ে আরভিন বলেন, ‘ফাইনাল খেলতে শ্রীলঙ্কাকে বাকি দুটি ম্যাচই জিততে হবে। আর আমাদের প্রয়োজন একটি জয়। তাই লঙ্কানদের থেকে আমরা অনেকটা সুবিধাজনক অবস্থানে আছি। আজ রবিবার মিরপুর শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ে। ম্যাচটি বেলা ১২টায় শুরু হবে।

অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের প্রতিপ ভারত
ক্রীড়া প্রতিবেদক

নিজেদের শেষ ম্যাচে ইংল্যান্ডের কাছে বড় ব্যবধানে হারলেও অনুর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের প্রথম দুই ম্যাচ জিতেই কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করে বাংলাদেশ। এবার শেষ চারের লড়াইয়ে শক্তিশালী ভারতের বিপে মাঠে নামবে সাইফ বাহিনী। আগামী শুক্রবার বাংলাদেশ-ভারত হাইভোল্টেজ ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। কুইন্সটাউনে খেলা শুর বাংলাদেশ সময় ভোর সাড়ে ৩টায়।
বাংলাদেশের সঙ্গে ‘সি’ গ্রুপ থেকে টানা তিন ম্যাচ জিতে ৬ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়ে কোয়ার্টারে পা রেখেছে ইংলিশ শিবির। দুই জয়ে বাংলাদেশের সংগ্রহ ৪ পয়েন্ট। কানাডার অর্জন ২। এক ম্যাচেও জেতেনি নামিবিয়া। দু’দলের সামনে প্লেট পর্বের কোয়ার্টার ফাইনাল চ্যালেঞ্জ।

এক ওভারে ৩৭ রান নিয়ে ডুমিনির রেকর্ড
ক্রীড়া প্রতিবেদক

এক ওভারে সর্বোচ্চ কত রান সম্ভব? ছয়টি ছক্কা হাঁকালে ৩৬ রান! তবে ক্রিকেটে তো 'ওয়াইড-নো' নামের আরও কয়েকটি হিসেব নিকেশ আছে। যে হিসেব নিকেশের বেড়াজালে ওভারে ছয় বলের বদলে অনেক সময় হয়ে যেতে পারে আরও কয়েকটি বাড়তি বল।
সে যাই হোক, রেকর্ড তো সবাই করতে পারেন না! এক ওভারে ৩৭ রান নিয়ে যেমন রেকর্ড গড়লেন জেপি ডুমিনি। দণি আফ্রিকার লিস্ট 'এ' ক্রিকেটে এক ওভারে এটিই কোনো ব্যাটসম্যানের সর্বোচ্চ রান তোলার রেকর্ড।

মোহামেডানে সাকিব, শাইনপুকুরে মাশরাফি
ক্রীড়া প্রতিবেদক

সাকিব-মাশরাফি ছাড়াও আইকন খেলোয়াড়দের মধ্যে মুশফিককে দলে ভিড়িয়েছে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। তামিমকে দলে নিয়েছে খেলাঘর ক্রীড়া চক্র। টেস্টের সহ-অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহকে দলে ভিড়িয়েছে প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট কাব।
গতকাল শনিবার স্থানীয় এক হোটেলে প্লেয়ারস ড্রাফট অনুষ্ঠানে কাবগুলো দলে নিচ্ছে খেলোয়াড়দের। আগামী ৫ ফেব্রুয়ারি শুরু হচ্ছে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের জমজমাট আসর। ইতিমধ্যে দুটি রাউন্ডে দলগুলো দুজন করে ক্রিকেটার দলে ভিড়িয়েছে। ১২ আইকন খেলোয়াড়কে ১২টি কাব প্লেয়ারস ড্রাফটের মাধ্যমে দলে নেবে। আইকন খেলোয়াড়রা হলেন মাশরাফি বিন মুর্তজা, মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ, ইমরুল কায়েস, মোস্তাফিজুর রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাসির হোসেন, লিটন দাস, এনামুল হক বিজয় ও রুবেল হোসেন।

গোল্ডকাপ ফুটবলে ঝিনাইদহকে হারিয়ে মাগুরা চ্যাম্পিয়ন
ক্রীড়া প্রতিবেদক

মাগুরা জেলা প্রশাসক গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে ঝিনাইদহ জেলাকে ১-০ গোলে পরাজিত করে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে মাগুরা জেলা দল। গতকাল শনিবার বিকেলে মুক্তিযোদ্ধা আছাদুজ্জামান স্টেডিয়ামে এ খেলা অনুষ্ঠিত হয়। যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের পৃষ্টপোষকতায় ইনডেক্স গ্রুপের সহযোগিতায় জেলা প্রশাসন এ টুর্নামেন্টের আয়োজন করে।
খেলার প্রথমার্ধে দুই দলই আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণ চালিয়ে খেলতে থাকে। এসময় উভয় দলই একাধিক গোলে সুযোগ পেলেও ভালো ফিনিশারের অভাবে গোল করতে ব্যর্থ হয়। দ্বিতীয়ার্ধে স্বাগতিক মাগুরা জেলা দলের খেলোয়াড়রা গোল করতে মরিয়া হয়ে ওঠে। তারা একের পর এক আক্রমণ চালালেও গোল করতে ব্যর্থ হয়। ইনজুরি টাইমে পেনাল্টি বক্সের মধ্যে মাগুরা জেলা দলের রয়েলকে ঝিনাইদহ দলের খেলোয়াড়রা বিধি বর্হিভূতভাবে বাধা দিলে মাগুরা পেনাল্টি লাভ করে। পরে পেনাল্টি থেকে মাগুরার পে বিদেশি খেলোয়াড় ওয়াটসন গোল করেন। মাগুরা জেলা দল ১-০ গোলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে। খেলা শেষে জেলা প্রশাসক আতিকুর রহমানের সভাপতিত্বে অংশ নেয়া দু’টি দলের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট বীরেন শিকদার। চ্যাম্পিয়ন মাগুরা জেলা দলের পে টিম ম্যানেজার রানা আমির ওসমান, কোচ আহম্মদ হোসেন ও অধিনায়ক অরূপ বৈদ্য পুরস্কার নেন। ফাইনালে সেরা খেলোয়াড় হিসেবে পুরস্কার পান মাগুরা জেলা দলের রয়েল। এসময় জেলা ও দায়রা জজ শেখ মফিজুর রহমান, পুলিশ সুপার মুনিবুর রহমানসহ জেলার বিভিন্ন পর্যায়ের নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

আবু নাসেরে প্রথমবারের মতো বিসিএল
ক্রীড়া প্রতিবেদক

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) আয়োজনে ফ্র্যাঞ্চাইজি ভিত্তিক বাংলাদেশ ক্রিকেট লিগের (বিসিএল) ৬ষ্ঠ আসর চলছে। এটি বিসিএলের ৬ষ্ঠ আসর হলেও এবারই প্রথম এই লিগের ম্যাচ খুলনায় অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। আজ রবিবার থেকে নগরীর শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে তৃতীয় রাউন্ডের ম্যাচে ওয়ালটন সেন্ট্রাল জোনের মুখোমুখি হবে ইসলামী ব্যাংক ইস্ট জোন। ইতিমধ্যেই খুলনায় পৌঁছেছে দু’টি দল। গতকাল দু’দলই শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে অনুশীলন করেছে।
এদিকে বিসিএলকে সামনে রেখে এখন শেষ সময়ের প্রস্তুতি শেষ হয়েছে শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামের। বেশ কিছুদিন পর খুলনাতে আবারও প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট মাঠে গড়াচ্ছে। আবু নাসের স্টেডিয়ামের আউটফিল্ডে নতুন ঘাষ লাগানো হয়েছে। উইকেটেরও যতœ নেয়া হচ্ছে প্রতিদিন। বিসিবি সূত্রে জানা গেছে, স্পোর্টিং উইকেট তৈরির কথা রয়েছে বিসিএলের ভেন্যুগুলোতে। শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামের ভেন্যু ম্যানেজার কাজী আব্দুস সাত্তার কচি জানান, বিসিএলের ম্যাচ আয়োজনের জন্য এখন পুরোপুরি প্রস্তুত আবু নাসের স্টেডিয়াম। মাঝে বেশ কিছুদিন মাঠ বিশ্রামে থাকায় স্টেডিয়াম প্রস্তুত করতে খুব একটা অসুবিধা হয়নি।

সিঙ্গাপুর ওপেনের দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে ছিটকে গেলেন সিদ্দিকুর
ক্রীড়া প্রতিবেদক

সেন্তোসা গলফ কাবে গতকাল শনিবার দ্বিতীয় রাউন্ডে দুটি বার্ডি ও তিনটি বোগি করেন সিদ্দিকুর। সব মিলিয়ে পারের চেয়ে দুই শট বেশি খেলে যৌথভাবে ৭৮তম স্থানে থেকে ছিটকে গেছেন এশিয়ান ট্যুরের দুটি শিরোপা জেতা এই গলফার। এই আসরে গতবারও আলো ছড়াতে ব্যর্থ হন সিদ্দিকুর। সেবারও ৭৮তম স্থানে থেকে দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে ছিটকে গিয়েছিলেন তিনি।
১০ লাখ ডলার প্রাইজমানির এই প্রতিযোগিতায় সিদ্দিকুরের শুরুটাও ছিল সাদামাটা। পারের চেয়ে এক শট বেশি খেলে ১৫ জনের সঙ্গে ৮৬তম স্থানে থেকে দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠা এই গলফার ঘুরে দাঁড়াতে পারেননি। পারের চেয়ে সর্বোচ্চ এক শট বেশি খেলা গলফাররাই ‘কাট’ পেরিয়ে তৃতীয় রাউন্ডে উঠেছেন।

চতুর্থ রাউন্ডে জকোভিচ ও ফেদেরার
ক্রীড়া প্রতিবেদক

অস্ট্রেলিয়ান ওপেনের চতুর্থ রাউন্ডে উঠেছেন নোভাক জকোভিচ ও রজার ফেদেরার। গতকাল শনিবার তৃতীয় রাউন্ডের খেলায় ইনজুরি আক্রান্ত হয়েও জকোভিচ ৬-২, ৬-৩ ও ৬-৩ গেমে স্প্যানিশ টেনিস তারকা আলবার্তো রামোস ভিনোলাসকে হারিয়ে চতুর্থ রাউন্ডে ওঠেন।
এদিকে রজার ফেদেরার আজ তৃতীয় রাউন্ডে ফ্রান্সের টেনিস তারকা রিচার্ড গাসকেকে ৬-২, ৭-৫ ও ৬-৪ গেমে হারিয়ে চতুর্থ রাউন্ডে ওঠেন। চতুর্থ রাউন্ডে তিনি হাঙ্গেরিয়ান টেনিস তারকা মার্টন ফুকসোভিকসের মুখোমুখি হবেন। ফুকসোভিকস এর আগে কখনোই মেজর কোনো টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় রাউন্ডে আসতে পারেননি। এবারই প্রথম তিনি চতুর্থ রাউন্ডে উঠেছেন। যেখানে তিনি মুখোমুখি হবেন ১৯বারের গ্র্যান্ড¯øাম বিজয়ী কিংবদন্তি রজার ফেদেরারের। কোয়ার্টার ফাইনালে যেতে হলে হাঙ্গেরিয়ান এই টেনিস তারকাকে যে চীনের মহাপ্রাচীরই টপকাতে হবে।

আবার বোলিংয়ের অনুমতি পেলেন ভিটরি
ক্রীড়া প্রতিবেদক

অ্যাকশন শুধরে পরীা দেওয়ার পর বৈধ প্রমাণিত হয়েছে ২৭ বছর বয়সী এই পেসারের বোলিং অ্যাকশন। ২০১১ সালে দেশের মাটিতে বাংলাদেশের বিপে সিরিজ দিয়েই ভিটরির সাড়া জাগনো অভিষেক। টেস্ট অভিষেকে বাংলাদেশের বিপে নিয়েছিলেন ৫ উইকেট। এরপর প্রথম দুই ওয়ানডেতেই ৫টি করে উইকেট।
সেই ভিটরি সাড়ে ৬ বছরে ওয়ানডে খেলতে পেরেছেন মোট ২০টি, উইকেট কেবল ২৯টি। টেস্ট খেলেছেন মোটে ৪টি। ফিটনেস সমস্যা ছিল, সঙ্গে ছিল ছন্দ হারানো। তবে গত কয়েক বছরে ভুগেছেন অ্যাকশনের সমস্যা নিয়েই। ২০১৬ সালের জানুয়ারিতে বাংলাদেশ সফরে টি-টোয়েন্টিতে প্রশ্নবিদ্ধ হয় তার অ্যাকশন। পরের মাসেই বোলিং অ্যাকশনের পরীা দিয়ে উতরাতে না পারায় নিষিদ্ধ হন।

বাংলাদেশ ও ভারতকে নিয়ে শ্রীলঙ্কায় ত্রিদেশীয় সিরিজ
ক্রীড়া প্রতিবেদক

শ্রীলঙ্কার স্বাধীনতার ৭০ বছর পূর্তি উপল্েয ঘরের মাঠে ত্রিদেশীয় সিরিজ আয়োজন করবে দেশটি। ‘নিদাহাস ট্রফি’ নামে সিরিজে অন্য দুটি দল বাংলাদেশ ও ভারত। ইতোমধ্যে তিন জাতির টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটের এই সিরিজের সময়সূচী প্রকাশ করেছে লঙ্কান ক্রিকেট বোর্ড।
আগামী ৬ মার্চ স্বাগতিক শ্রীলঙ্কা ও ভারতের মধ্যকার ম্যাচ দিয়ে মাঠে গড়াবে নিদাহাস ট্রফি। আর ৮ মার্চ বাংলাদেশ নিজেদের প্রথম ম্যাচে ভারতের বিপে লড়বে। সিরিজে প্রতিটি দল একে অন্যের বিপে দুটি করে ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবে। শীর্ষ দুই পয়েন্ট অর্জনকারী দল ফাইনালে খেলবে। ১৯৯৮ সালে লঙ্কানদের স্বাধীনতার ৫০ বর্ষপূর্তি উপল্েয আয়োজিত হয়েছিল নিদাহাস ট্রফি। শিরোপা জিতেছিল ভারত। সেবার আসরটি ওয়ানডে ফরম্যাটে হলেও এবার টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

খুবিতে ইংলিশ অলিম্পিয়াড
স্টাফ রিপোর্টার

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে কবি জীবনানন্দ দাস একাডেমিক ভবনে প্রথম বারের মতো গতকাল শনিবার ইংলিশ অলিম্পিয়ডের আয়োজন করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের বির্তক বিষয়ক সংগঠন নৈয়ায়িক এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। সকাল নয়টা থেকে তিনটি ভ্যানুতে শুরু হয় ইংলিশ স্পিকিং টেস্ট। এতে প্রায় ৭০ জন শির্ক্ষাথী অংশগ্রহণ করে। পরে বিকেলের সেশনে অনুষ্ঠিত হয় ইংরেজী লিখন ও  শ্রবণ সেশন।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন খুবির কলা ও মানবিক স্কুলের ডীন প্রফেসর ড. সাবিহা হক। তিনি নৈয়ায়িকের এ আয়োজনের প্রশংসা করেন এবং আগামীতে এ ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজন করার ব্যাপারে উদ্যেগ গ্রহণ করার পরার্মশ দেন। অনুষ্ঠানে সভাপতত্বি করেন নৈয়ায়িকের সভাপতি নুরুল ইসলাম সাদ্দাম। শেষে ১৭ জন বিজয়ীর মাঝে পুরস্কার বিতরন করা হয়। এছাড়াও বিভিন্ন ডিসিপ্লিনের শিক্ষকবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্হিত ছিলেন।

তালার মহান্দী ৮ দলীয় ফুটবল টুর্নামেন্টের  উদ্বোধন
তালা প্রতিনিধি

তালা উপজেলার মহান্দী হাইস্কুল মাঠে ৮ দলীয় নক আউট ফুটবল টুর্নামেন্টের  উদ্ধোধন করা হয়েছে। মহান্দী স্পোর্টিং কাবের আয়োজনে গতকাল শনিবার (২০ জানুয়ারী) বিকালে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে উক্ত টুর্নামেন্টের উদ্বোধন করেন সাতক্ষীরা-১ (তালা-কলারোয়া) আসনের সংসদ সদস্য এ্যাডঃ মুস্তফা লুৎফুল্লাহ।  মহান্দী স্পোর্টিং কাবের সভাপতি ও খলিলনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সিরাজুল উসলাম মোড়লের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তালা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ঘোষ কুমার,জেলা আওয়ামীলীগের উপ-প্রচার সম্পাদক ও তালা প্রেসকাবের সভাপতি প্রভাষক প্রনব ঘোষ বাবলু, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি ও তালা সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সরদার জাকির হোসেন, নগরঘাটা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কামরুজ্জামান লিপু,সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সরদার ইমান আলী,উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও তালা প্রেসকাবের সাধারণ সম্পাদক সরদার মশিয়ার রহমান প্রমুখ। উদ্বোধনী খেলায় ডুমুরিয়া উপজেলার চুকনগরের নরনিয়া ফুটবল একাদশ ট্রাইব্রেকারে হাজরাকাটি যুব স্পোর্টিং কাবকে পরাজিত করে। 

দরগাহপুর কলেজ স্কুলে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা
আশাশুনি প্রতিনিধি  
 
আশাশুনি উপজেলার দরগাহপুর এস কে আর এইচ কলেজিয়েট স্কুলে বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার সকাল ৯ টায় স্কুল প্রাঙ্গণে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। গভর্নিং বডির সভাপতি রবিউল ইসলাম সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করেন, সাতক্ষীরা জেলা শিক্ষা অফিসার এস এম ছায়েদুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মোঃ বাকী বিল্লাহ। বার্ষিক প্রতিবেদন পাঠ করেন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ গৌরপদ মন্ডল। পৃষ্ঠপোষক ছিলেন শেখ আলাল হুদা। সার্বিক তত্ত¡াবধানে ছিলেন অধ্যক্ষ (ভারপ্রাপ্ত) গৌরপদ মন্ডল ও সহকারী প্রধান শিক্ষক মনিমোহন মন্ডল। সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন অভিভাবক সদস্য শেখ রোতাব আলি, মীর মনিরুল ইসলাম, রফিকুল ইসলাম, মফিজুল ইসলাম ও তহমিনা খাতুন। প্রতিযোগিতার মধ্যে ছিল ৫০, ১০০, ২০০ ও ৪০০ মিঃ দৌড়, দীর্ঘলাফ, রীলে রেস, কাঁকড়া দৌড়, ড্রেস মেকিং, বার্তা প্রেরণ, প্রতিবন্ধক দৌড়, ব্যাঙের লাফ, নদী ডাঙ্গা, মোরগ লড়াই, বালিশ বিতরণ, ব্যালেন্স দৌড়, চেয়ার সিটিং, মার্বেল কুড়ানো, দড়িলাফ, চামচ ও মার্বেল দৌড়, ¯েøা সাইকেল রেস, ক্রিকেট খেলা, স্মৃতি পরীক্ষা, সূচে সুতো পরান, দড়ি টানা, হাড়ি ভাঙ্গা ও কলা গাছে চড়া। সবশেষে পুরস্কার বিতরণ ও বড় পর্দায় ভিডিও ডকুমেন্টারী প্রদর্শন করা হয়।

মূলঘরে দ্বিতীয় মতিউর রহমান টুলু স্মৃতি ব্যাডমিন্টন
ফকিরহাট প্রতিনিধি

বাগেরহাটের ফকিরহাটে মূলঘর সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে শুক্রবার রাত ৮টায় দ্বিতীয় মতিউর রহমান টুলু স্মৃতি ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত। টুর্নামেন্ট কমিটির আহবায়ক শিক্ষাবিদ দাশ শিশির কুমারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা আ,লীগের সভাপতি ও বেতাগা ইউপি চেয়ারম্যান স্বপন দাশ। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা আ,লীগের সাধারন সম্পাদক ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান শিরিনা আক্তার কিসলু, মূলঘর ইউপি চেয়ারম্যান এ্যাডঃ হিটলার গোলদার, মূলঘর স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক অনিমেশ মিত্র, ব্যাডমিন্টন ফেডারেশনের সাবেক সাধারন সম্পাদক এসএম জাহিদুল হক কচি, মুক্তিযোদ্ধা শেখ শফিকুর রহমান টুকুন। ইমরান হোসেন তুহিনের সার্বিক পরিচালনায় ও উপজেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সদস্য সচিব কাজী বেলাল সাঈদের সঞ্চলনায় অনুষ্ঠানে এসময় অন্যান্যদের মধ্যে মূলঘরের সাবেক চেয়ারম্যান সৈয়দ তৌহিদুর ইসলাম পাপলু, আ’লীগ নেতা মুক্তিযোদ্ধা শেখ মোঃ আবু বকর, সুনির্মল পাড়ই, শিক্ষক সমিতির সাধারন সম্পাদক মল্লিক আব্দুস সাত্তার, প্রধান শিক্ষক প্রজিৎ মজুমদার, স্বেচ্ছাসেবকলীগের আহবায়ক শেখ ইমরুল হাসান, ছাত্রলীগের সভাপতি সরদার আমিনুর রশিদ মুক্তি, সাধারন সম্পাদক মেহেদী হাসান সবুজ, ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা রবিউল ইসলাম রবি, শ্রমিকলীগ নেতা রওনাকুল ইসলাম, ইউপি সদস্য কাজি তাজউদ্দিন, আঃ কুদ্দুস সরদার সহ অসংখ্য ব্যাডমিন্টন প্রেমী দর্শক উপস্থিত ছিলেন।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচের বৈশ্বিক প্রতিবেদন বিচারবহির্ভূত হত্যা, গুমের অভিযোগ মোকাবিলায় বাংলাদেশ ব্যর্থ হয়েছে

খুলনাঞ্চল ডেস্ক
মানুষকে গোপনে আটকে রাখা, গুম ও বিচারবহির্ভূত হত্যার মতো গুরুতর অভিযোগগুলো মোকাবিলায় বাংলাদেশ কর্তৃপক্ষ ব্যর্থ হয়েছে বলে জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক মানবাধিকার সংস্থা হিউম্যান রাইটস ওয়াচ (এইচআরডব্লিউ)।
গত বৃহস্পতিবার প্রকাশিত সংস্থার ‘ওয়ার্ল্ড রিপোর্ট ২০১৮’তে এ কথা বলা হয়েছে। দোষীদের বিচারের মুখোমুখি না করে উল্টো অভিযোগগুলো অস্বীকার করা হয়েছে বলেও দাবি করেছে এইচআরডবিøউ। তবে প্রতিবেদনে রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেওয়ায় বাংলাদেশ সরকারের প্রশংসা করা হয়েছে।
এইচআরডবিøউ ৯০টিরও বেশি দেশের মানবাধিকার পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে ৬৪৩ পৃষ্ঠার ২৮তম সংস্করণের এই প্রতিবেদন তৈরি করেছে।
প্রতিবেদনের বাংলাদেশ অংশে বলা হয়েছে, গত আগস্ট থেকে জাতিগত নিধনের মুখে ছয় লাখ ৫৫ হাজারেরও বেশি রোহিঙ্গা বাংলাদেশে পালিয়ে আসে। মিয়ানমার সেনাবাহিনীর হাতে ধর্ষণ, অগ্নিকান্ড ও হত্যাসহ মানবতাবিরোধী অপরাধের শিকার হয় তারা। যদিও অধিকাংশ রোহিঙ্গাদের আনুষ্ঠানিকভাবে শরণার্থী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়নি বাংলাদেশ, তবে দেশটিতে প্রবেশ করতে দিয়েছে। হিউম্যান রাইটস ওয়াচের এশীয় অঞ্চলের পরিচালক ব্র্যাড অ্যাডামস বলেন, রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জোর করে ফিরিয়ে না দেওয়ার জন্য এবং সীমিত সম্পদ দিয়েও এখন পর্যন্ত যেভাবে তাদের নিরাপত্তা দেয়া হচ্ছে তাতে অবশ্যই বাংলাদেশ কৃতীত্বের দাবিদার।
স্থানীয় মানবাধিকারের কয়েকটি বিষয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে সংস্থাটি জানিয়েছে, দেশটির অনেকগুলো গুমের ঘটনা ঘটেছে। বিরোধী দলীয় সমর্থক ও সন্দেহভাজন জঙ্গি-উভয়কেই টার্গেট করছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী।
অ্যাডামস বলেন, বিগত বছরগুলোতে বাংলাদেশের মানবাধিকার রেকর্ডে ভালো কিছু খুঁজে পাওয়া কঠিন। যেহেতু দেশটিতে ২০১৯ সালে সাধারণ নির্বাচন হতে চলেছে তাই এই সময় আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ এবং ভিন্নমতকে দমনের প্রচেষ্টাও বন্ধ করতে হবে।
 


নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী মা হচ্ছেন

খুলনাঞ্চল ডেস্ক
নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জাসিন্ডা আরডার্ন (৩৭) প্রথম সন্তানের মা হতে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রী থাকাকালীন সন্তানের মা হওয়ার ঘটনা দেশটিতে নজির হয়ে থাকবে। গতকাল শুক্রবার এক বিবৃতিতে এসব জানান জাসিন্ডা আরডার্ন।
রয়টার্স বলছে, একটি ই-মেইল বার্তায় জাসিন্ডা আরডার্ন জানান, সন্তান জন্মের পর ছয় সপ্তাহ ছুটি নেবেন। আর এ সময় দায়িত্ব পালন করবেন ডেপুটি প্রধানমন্ত্রী ইউন্সটন পিটার।
ফেসবুকে একটি পোস্টে নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘কার্ক ও  আমি খুবই উচ্ছ¡সিত। আমাদের দলের সদস্য সংখ্যা দুই থেকে তিনে দাঁড়াবে। আমি হব প্রধানমন্ত্রী ও মা। আর কার্ক বাসায় থাকবে।’
জাসিন্ডা আরডার্নের স্বামী কার্ক গ্যাফোর্ড নিউজিল্যান্ডের একটি টেলিভিশনে রান্নাবিষয়ক অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন।

উড়ন্ত বিমানে বিয়ে পড়ালেন পোপ
খুলনাঞ্চল ডেস্ক

চিলি সফররত ক্যাথলিক খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মগুরু পোপ ফ্রান্সিস উড়ন্ত বিমানে দুই বিমান কর্মীর বিয়ে পড়িয়েছেন। রাজধানী সান্তিয়াগো থেকে উত্তরাঞ্চলীয় ইকিক শহরে যাওয়ার পথে পড়ানো এই বিয়েকে ঐতিহাসিক বলছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো। ফাইট এডেন্টডেন্ট পলা পোডেস্ট রুইজ (৩৯) ও কার্লোস সিফুয়ার্দি এলোরিগা (৪১) এর আগে সাধারণভাবে বিয়ে করেছেন। ফাইটে পোপের কাছে বিয়ের আর্শীবাদ চান তারা। পোপ তাদের বলেন, ‘আপনারা কি চান আপনাদের বিয়ে দিয়ে দেই?’ ওই যুগল তখন জানান, ২০১০ সালের ভূমিকম্পে চিলির রাজধানী সান্তিয়াগোতে তাদের চার্চ ধ্বংস হয়ে যাওয়ায় বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা চার্চে সম্পন্ন করতে পারেননি তারা। এরপরই সান্তিয়াগো থেকে উত্তরাঞ্চলীয় ইকিক শহরে যাওয়ার পথে সংক্ষিপ্ত ওই ফাইটের মধ্যে ছোট আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে পোপ তাদের বিয়ে সম্পন্ন করেন। প্রত্যক্ষদর্শী করা হয় এয়ালাইন্সের শীর্ষ এক কর্মকর্তাকে। বিবিসি


কাজাখস্তানে বাসের ভেতর আগুনে পুড়ে ৫২ জনের মৃত্যু

খুলনাঞ্চল ডেস্ক
কাজাখস্তানের উত্তর পশ্চিমাঞ্চলে একটি যাত্রীবাহী বাসের ভেতর আগুনে পুড়ে অন্তত ৫২ জনের মৃত্যু হয়েছে। উজবেক নাগরিকদের বহন করা বাসটিতে দুই চালক ও ৫৫ জন যাত্রী ছিলেন। খবর বিবিসি।
আগুন লাগার পর বাস থেকে পাঁচজন বের হতে পেরেছিলেন, উদ্ধারকর্মীরা ঘটনাস্থলেই তাদের চিকিৎসা দিচ্ছেন বলে স্থানীয় গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

কাজাখস্তানের আকতোব এলাকায় গতকাল বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকাল সাড়ে ১০টায় এ ঘটনা ঘটে। কী কারণে বাসে আগুন লেগেছে, তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। স্থানীয় এক সাংবাদিক পুড়ে যাওয়া গাড়িটির একটি ছবি ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করেছেন।
বাসটি সামারা-শ্যামকেন্ট রুট হয়ে রাশিয়ায় যাচ্ছিল কিংবা ফিরছিল বলে ধারণা করা হচ্ছে। ২ হাজার ২০০ কিলোমিটার দীর্ঘ এ পথ ব্যবহার করে সাধারণত উজবেক শ্রমিকদের রাশিয়ার বিভিন্ন নির্মাণস্থলে নিয়ে যাওয়া হয়।
কাজাখস্তানের জরুরি সেবা মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে পাঁচ যাত্রীকে চিকিৎসাসেবা দেয়ার কথা জানায়। বাকিদের মৃত্যুর বিষয়টিও তারা নিশ্চিত করেছে। উদ্বিগ্ন আত্মীয়স্বজনের সঙ্গে যোগাযোগের জন্য কাজাখস্তানের জরুরি বিভাগের কর্মকর্তারা একটি হটলাইন চালু করেছেন।

ই-পেপার

Page---1
Page---2
Page---3
21.04